Bartaman Patrika
রাজ্য
 
 

 

 এবারই প্রথম ধান সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা ছুঁতে পারে রাজ্য

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: গত খরিফ মরশুমে রাজ্যে সরকারি উদ্যোগে ৩৫ লক্ষ টনের কিছু বেশি ধান সংগৃহীত হয়েছিল। চলতি খরিফ মরশুমে তিন মাসের মধ্যেই ধান সংগ্রহ প্রায় ৩০ লক্ষ টন ছুঁয়েছে। সরকারি স্থায়ী ধান ক্রয় কেন্দ্র এবং অস্থায়ী ক্যাম্পগুলিতে আগের থেকে চাষিদের ধান আসা কিছুটা কমেছে। কিন্তু এখনও যে পরিমাণ ধান আসছে, তা যথেষ্ট বেশি। খাদ্য দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, আগে দিনে প্রায় ৪০ হাজার কুইন্টালের মতো ধান আসছিল। এখন তা কমে ২০-২৫ হাজার কুইন্টাল হয়েছে। পর্যায়ক্রমে এখন ধান আসার পরিমাণ কমে দিনে ১০-১৫ হাজার কুইন্টালের আশপাশে চলে আসবে বলে মনে করছেন খাদ্য দপ্তরের আধিকারিকরা। কিন্তু কয়েক মাস পর বোরো ধান ওঠার পর ফের সংগ্রহ বাড়বে বলে মনে করছেন তাঁরা। সব মিলিয়ে যা পরিস্থিতি, ততে এবারই প্রথম রাজ্যে ধান সংগ্রহের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। এবারের লক্ষ্যমাত্রা আছে ৫২ লক্ষ টন।
ধানের সংগ্রহমূল্য কুইন্টালে দু’শো টাকা বৃদ্ধি করে ১৭৫০ টাকা করা হয়েছে। এটাই সরকারি সংগ্রহে জোয়ার আনার প্রধান কারণ। এখনও সরকারের কাছে ধান বিক্রি করলে খোলাবাজারের তুলনায় প্রতি কুইন্টালে ধানের দাম প্রায় আড়াইশো টাকা বেশি মিলছে। স্বাভাবিকভাবে সরকারের কাছে চাষিদের ধান বিক্রির আগ্রহ বেড়েছে। গতবার প্রায় সাত লক্ষ চাষি ধান বিক্রির জন্য নাম নথিভুক্ত করেছিলেন। এবার সেই সংখ্যা বেড়ে ১০ লক্ষ ছাড়িয়েছে। খাদ্য দপ্তরের অবশ্য দাবি, ধান ক্রয় কেন্দ্রে ফড়েদের নিয়ন্ত্রণ করা, চেকে দাম মেটানো প্রভৃতি কারণে চাষিদের আগ্রহ বেড়েছে। খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক জানিয়েছেন, কোনও চাষি ধান না বিক্রি করে ফেরত যাবেন না। এখনও পর্যন্ত সরকারি সিদ্ধান্ত অনুযায়ী একজন চাষির কাছ থেকে সর্বোচ্চ ৪৫ কুইন্টাল ধান কেনা হবে।
কিন্তু এই বিপুল পরিমাণ সংগৃহীত ধান সরকারের মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে। সরকারি উদ্যোগে কেনা ধান থেকে উৎপাদিত চাল বিপুল পরিমাণে রাইস মিলগুলিতে পড়ে রয়েছে। রাজ্যে রাইস মিল মালিকদের সংগঠনের কার্যকরী সভাপতি আব্দুল মালেক জানিয়েছেন, চাল না নিলে নতুন ধান নেওয়ার ক্ষেত্রে সমস্যা হতে পারে।
এই পরিস্থিতিতে রাজ্য সরকার চাইছে কেন্দ্রীয় সরকারি সংস্থা এফসিআই বেশি পরিমাণে চাল রাজ্য থেকে নিক। এফসিআই-কে অন্তত পাঁচ লক্ষ টন চাল নিতে বলেছে রাজ্য। কিন্তু সরকারি সূত্রের খবর, এখনও পর্যন্ত প্রায় ৬৫ হাজার টনের মতো চাল এফসিআই নিয়েছে। রাজ্যের অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্র ও মিড ডে মিল প্রকল্পের জন্য প্রয়োজনীয় চাল এফসিআইয়ের সরবরাহ করার কথা। রাজ্য সরকার চাইছে, এর বাইরে ভিন রাজ্যে পাঠানোর জন্য চাল নিক এফসিআই। চাল নেওয়া নিয়ে এফসিআই কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কলকাতা ও দিল্লিতে গিয়ে দফায় দফায় বৈঠক করেছেন খাদ্য দপ্তরের আধিকারিকরা। আপাতত ঠিক হয়েছে, চলতি সপ্তাহ থেকে বর্ধমান ও হুগলির রাইস মিল মালিকরা লরিতে করে কলকাতায় এফসিআইয়ের গুদামে চাল সরবরাহ শুরু করবেন।
গত মরশুমে ৩৫ লক্ষ টনের কিছু বেশি ধান থেকে যে পরিমাণ চাল উৎপাদিত হয়েছিল, তা দিয়ে রাজ্যের রেশন দোকানগুলির চাহিদা মিটিয়েও অতিরিক্ত চাল থেকে যায়। ওই চাল এখনও রেশন দোকানে সরবরাহ করা হচ্ছে। এবার ধান সংগ্রহ ৫২ লক্ষ টন হলে রেশনের চাহিদার তুলনায় অনেক বেশি চাল উৎপাদন হয়ে যাবে। চাল মজুত করার পরিকাঠামো বাড়াতে নতুন গুদাম তৈরি ও ভাড়া করার উদ্যোগ খাদ্য দপ্তর নিয়েছে।

04th  March, 2019
প্রতারণা: রানিগঞ্জ থানায় অভিযোগ নার্সিং কাউন্সিলের 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: রাজ্য নার্সিং কাউন্সিলের রেজিস্ট্রারের সই ও লেটারহেড জাল করে ভুয়ো নার্সিং স্কুল খুলে প্রতারণা ব্যবসা চালানো হচ্ছে বলে কিছুদিন আগেই অভিযোগ করা হয়েছিল বিধাননগর উত্তর থানায়। এবার রানিগঞ্জ থানায়ও একই অভিযোগ জানিয়ে অবিলম্বে লোক ঠকানোর এই ব্যবসা বন্ধ করতে পদক্ষেপ করতে বলল নার্সিং কাউন্সিল।  
বিশদ

নাগরিকত্ব বিল নিয়ে বিধানসভায় উদ্বেগ 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সোমবার মধ্যরাতে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পাশ হল লোকসভায়। মঙ্গলবার রাজ্য বিধানসভায় এই বিল নিয়ে সরব হলেন বিরোধীরা। 
বিশদ

বিমল গুরুং বিতর্কে নির্দেশ 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ভারতের বাইরে রয়েছেন বিমল গুরুং। রাজ্য সরকার মঙ্গলবার কলকাতা হাইকোর্টে এই দাবি করল। বিচারপতি জয়মাল্য বাগচি’র নেতৃত্বাধীন ডিভিশন বেঞ্চ দাবির সপক্ষে প্রমাণ সহ রাজ্যকে হলফনামা জমা দেওয়ার নির্দেশ দিল। অন্যদিকে বিমলের পক্ষে জানানো হয়, দেশের বাইরে নয়, এই রাজ্যের বাইরে তিনি রয়েছেন। 
বিশদ

বাজারে হানা, পেঁয়াজের দাম
নিয়ে কেন্দ্রকে তোপ মুখ্যমন্ত্রীর

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সোমবার সকালে হঠাৎ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কনভয় ভবানীপুরে যদুবাবুর বাজারের সামনে দাঁড়িয়ে যায়। এলাকায় তখন হুলস্থুল। মুখ্যমন্ত্রী সোজা বাজারে ঢুকলেন এবং বিক্রেতাকে সরাসরি প্রশ্ন করলেন, পেঁয়াজ কত করে? কত টাকায় কিনেছেন? কার কাছ থেকে? এত দাম কেন?
বিশদ

10th  December, 2019
ফের পশ্চিমী ঝঞ্ঝার বাধা,
আরও বিলম্বিত হচ্ছে শীতের আগমন 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: আজ-কালের মধ্যে ঠান্ডা পড়ার কোনও লক্ষণ নেই। বরং এই দু’দিনে দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে সামান্য হলেও তাপমাত্রা বাড়তে পারে। ফলে গত ক’দিন ধরে কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা যেভাবে ১৮-১৯ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশপাশে ঘোরাফেরা করছিল, মঙ্গল ও বুধবারও তার কোনও উল্লেখযোগ্য পরিবর্তন হবে না। বিশদ

10th  December, 2019
বাংলার উপর কিছু
চাপাতে দেব না: মমতা 

দেবাঞ্জন দাস, খড়্গপুর: মা-মাটি-মানুষের সরকার ক্ষমতায় থাকাকালীন বাংলার সাধারণ মানুষের উপর কোনও কিছু ‘চাপিয়ে’ দেওয়ার ক্ষমতা কারও নেই। সোমবার দুপুরে খড়্গপুরের রাবণপোড়া ময়দানে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এই অভয়বার্তা দিয়েছেন।
বিশদ

10th  December, 2019
জানুয়ারিতে সভাপতি হিসেবে নাড্ডার আত্মপ্রকাশ
মোদি মন্ত্রিসভায় কি বাংলার প্রতিনিধিত্ব বাড়ছে, খোঁজ নিতে রাজ্যে আসছেন অমিত ঘনিষ্ঠ নেতা 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কেন্দ্রীয় মন্ত্রিসভায় বাংলার প্রতিনিধিত্ব কি বাড়ছে, সেই সম্ভাবনাই উঁকি দিচ্ছে। দিল্লি বিজেপি সূত্রের দাবি, নতুন বছরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তাঁর মন্ত্রিসভার সম্প্রসারণ করতে পারেন। এক্ষেত্রে পশ্চিমবঙ্গ থেকে আরও কয়েককজন বিজেপি সাংসদের ভাগ্যে মন্ত্রিত্ব জুটতে পারে। 
বিশদ

10th  December, 2019
রাজভবন আর নবান্নের সংঘাতের ছায়া বিধানসভা অধিবেশনে
তৃণমূল দুষছে রাজ্যপালকে, অধিবেশনের কার্যসূচি নিয়ে সঙ্কট অব্যহত 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: রাজ্যপালের সঙ্গে শাসক দলের সংঘাতে বিধানসভার অধিবেশন বস্তুত কার্যহীন। শুক্রবারের পর সোমবারও অধিবেশন চালাতে রীতিমতো সমস্যায় পড়তে হল সরকারপক্ষকে। অধিবেশনে বিধায়কদের গরহাজিরা ঠেকাতে শাসক দলের তরফে ফের হুইপ জারি করতে হল। 
বিশদ

10th  December, 2019
৮ লক্ষ মামলাকারিণীকে তুলে দেওয়ার নির্দেশ
বিয়ের মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাস: হোটেলকর্তাকে ১০ লক্ষ টাকা জরিমানা 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বিয়ের মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিয়ে এক মহিলার সঙ্গে সহবাসের অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় শহরের এক পাঁচতারা হোটেলের এক কর্তাকে দোষী সাব্যস্ত করে জরিমানা করল আদালত। সম্প্রতি আলিপুরের সপ্তম ফাস্ট ট্র্যাক কোর্টের বিচারক রাজশ্রী বসু (অধিকারী) ওই আদেশ দিয়েছেন।
বিশদ

10th  December, 2019
পঞ্চায়েত ব্যবস্থা ও গ্রামোন্নয়ন নিয়ে বিবৃতি সুব্রতর
কেন্দ্রীয় বরাদ্দ অর্ধেক হওয়ায় প্রকল্প কেন প্রধানমন্ত্রীর নামে 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কেন্দ্রীয় সরকার যেখানে ৫০ শতাংশ টাকা দিচ্ছে, সেখানে রাস্তা তৈরির প্রকল্পের নাম প্রধানমন্ত্রী গ্রাম সড়ক যোজনা কেন হবে? রাজ্য যেহেতু বাকি ৫০ শতাংশ টাকা দিচ্ছে, তাহলে প্রকল্পের নামকরণ হোক ‘মুখ্যমন্ত্রী গ্রাম সড়ক যোজনা’। 
বিশদ

10th  December, 2019
উদ্বিগ্ন গোয়েন্দারা
বাংলাদেশের সাতক্ষীরায় জাল ভারতীয় নোট
ছাপার একাধিক কারখানা, নেপথ্যে জেএমবি

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বাংলাদেশের মুন্সিগঞ্জে এখন জাল নোট ছাপানো হচ্ছে। সেখানে নোট ছাপার একাধিক কারখানা গড়ে উঠেছে। মূলত দু’হাজার টাকার নোটই ছাপা হচ্ছে সেখানে। জঙ্গি সংগঠন জেএমবি’র নেতৃত্বেই নকল ভারতীয় নোট ছাপার কাজ চলছে। ওই নোটের গুণগত মান যথেষ্ট উন্নত। 
বিশদ

10th  December, 2019
তিন বছরে পশ্চিমবঙ্গেরই সবথেকে বেশি তরুণ শিল্পীকে স্কলারশিপ দিয়েছে কেন্দ্র, সংসদে জানালেন মন্ত্রী 

নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি, ৯ ডিসেম্বর: তিন বছরে সারা দেশের মধ্যে পশ্চিমবঙ্গেরই সবথেকে বেশি তরুণ শিল্পীকে স্কলারশিপ দিয়েছে কেন্দ্র। আজ লোকসভায় লিখিতভাবে এ কথা জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় সংস্কৃতি এবং পর্যটনমন্ত্রকের স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত রাষ্ট্রমন্ত্রী প্রহ্লাদ সিং প্যাটেল। 
বিশদ

10th  December, 2019
শিক্ষার্থী স্বার্থে টিচার্স ট্রেনিং বিশ্ববিদ্যালয়কে মানবিক পদক্ষেপ করার নির্দেশ হাইকোর্টের 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ভর্তি হওয়ার আগে সংশ্লিষ্ট কলেজটি’র সরকারি যাবতীয় অনুমতি দেখে নেওয়া কতটা গুরুত্বপূর্ণ, তার সম্যক প্রমাণ সোমবার মিলল কলকাতা হাইকোর্টে।   বিশদ

10th  December, 2019
নাগরিকত্ব বিল নিয়ে তৃণমূলের উপর চাপ বাড়াল একাধিক সংখ্যালঘু সংগঠন 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: রাজ্যসভায় নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল (ক্যাব) পেশ হওয়ার আগেই এর বিরুদ্ধে ভোট দিতে তৃণমূলের উপর চাপ বাড়াল রাজ্যের একাধিক সংখ্যালঘু সংগঠন। সোমবার প্রেস ক্লাবে এরকম বেশ কয়েকটি গণ সংগঠনের কর্তাব্যক্তি উপস্থিত ছিলেন প্রস্তাবিত ক্যাব এবং এনআরসি’র বিরোধিতা করার জন্য।
বিশদ

10th  December, 2019

Pages: 12345

একনজরে
নয়াদিল্লি, ১০ ডিসেম্বর (পিটিআই): নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের বিরুদ্ধে সংসদের বাইরে আরও সরব কংগ্রেস। দলের দুই অন্যতম প্রধান মুখ রাহুল এবং প্রিয়াঙ্কা গান্ধী সোশ্যাল সাইটে এই বিলের বিরুদ্ধে সুর চড়ালেন। তাঁদের দু’জনের মতে, গণতন্ত্র ধ্বংস করার ষড়যন্ত্র করছে কেন্দ্র।   ...

মাদ্রিদ ১০ ডিসেম্বর (পিটিআই): গ্রিন হাউস গ্যাসের নির্গমণের মাত্রা কমিয়ে এনে আন্তর্জাতিক মঞ্চে উচ্চ প্রশংসিত হল ভারত। মঙ্গলবার মাদ্রিদে জলবায়ু সংক্রান্ত শীর্ষ সম্মেলন সিওপি-২৫’-এ ‘ক্লাইমেক্স চেঞ্জ পারফরমেন্স ইনডেক্স (সিসিপিআই) প্রকাশিত হয়। ...

মঙ্গল ঘোষ, গাজোল, সংবাদদাতা: দেশলাইয়ের বিভিন্ন মার্কা ও কাঠি দিয়ে নানা শিল্পকর্ম করে সাড়া ফেলে দিয়েছেন ইংলিশবাজার শহরের বাসিন্দা সুবীর কুমার সাহা। কখনও আর্ট পেপারে ...

গুয়াংঝৌ, ১০ ডিসেম্বর: বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপ ব্যাডমিন্টনে সোনা জেতার পর ফর্ম হারিয়েছেন পিভি সিন্ধু। বছরের শেষ টুর্নামেন্ট ওয়ার্ল্ড ট্যুর ফাইনালে খেতাব ধরে রাখাই লক্ষ্য গোপীচাঁদের এই ছাত্রীর। ওয়ার্ল্ড ট্যুর ফাইনালে বিশ্বের প্রথম আটজন খেলার সুযোগ পেয়েছেন। সিন্ধুর এখন র‌্যাঙ্কিং ১৫।  ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
aries

মানসিক অস্থিরতার জন্য পঠন-পাঠনে আগ্রহ কমবে। কর্মপ্রার্থীদের যোগাযোগ থেকে উপকৃত হবেন। ব্যবসায় যুক্ত হলে শুভ। ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯২২: অভিনেতা দিলীপকুমারের জন্ম
১৯২৪: সাহিত্যিক সমরেশ বসুর জন্ম
১৯৩৫: প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের জন্ম
১৯৪২: সঙ্গীত পরিচালক আনন্দ শংকরের জন্ম
১৯৬১: অভিনেতা তুলসী চক্রবর্তীর মৃত্যু
১৯৬৯: ভারতীয় দাবাড়ু বিশ্বনাথন আনন্দের জন্ম
২০০৪: সঙ্গীতশিল্পী এম এস শুভলক্ষ্মীর মৃত্যু
২০১২: সেতারশিল্পী রবিশঙ্করের মৃত্যু  





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৯.৪২ টাকা ৭২.৫৪ টাকা
পাউন্ড ৯১.১৯ টাকা ৯৫.৫৯ টাকা
ইউরো ৭৬.৭৫ টাকা ৮০.৪৪ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৮,২৩৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৬,২৭৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৬,৮২০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৩,৫০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৩,৬০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, বুধবার, চতুর্দশী ১২/৩ দিবা ১০/৫৯। রোহিণী অহোরাত্র। সূ উ ৬/১০/১৮, অ ৪/৪৯/০, অমৃতযোগ দিবা ৬/৫২ মধ্যে পুনঃ ৭/৩৫ গতে ৮/১৮ মধ্যে পুনঃ ১০/২৫ গতে ১২/৩৩ মধ্যে। রাত্রি ৫/৪২ গতে ৬/৩৫ মধ্যে পুনঃ ৮/২২ গতে ৩/৩০ মধ্যে, বারবেলা ৮/৫০ গতে ১০/১০ মধ্যে পুনঃ ১১/৩০ গতে ১২/৫০ মধ্যে, কালরাত্রি ২/৪৯ গতে ৪/৩০ মধ্যে।
২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৬, ১১ ডিসেম্বর ২০১৯, বুধবার, চতুর্দশী ১১/৩৯/৪১ দিবা ১০/৫১/২৭। কৃত্তিকা ০/৪১/৪৪ প্রাতঃ ৬/২৮/১৭, সূ উ ৬/১১/৩৫, অ ৪/১/১৭, অমৃতযোগ দিবা ৭/২ মধ্যে ও ৭/৪৪ গতে ৮/৩২ মধ্যে ও ১০/৩৩ গতে ১২/৪০ মধ্যে এবং রাত্রি ৫/৪৮ গতে ৬/৪১ মধ্যে ও ৮/২৯ গতে ৩/৩৯ মধ্যে, কালবেলা ৮/৫১/২ গতে ১০/১০/৪৫ মধ্যে, কালরাত্রি ২/৫১/২ গতে ৪/৩১/১৯ মধ্যে।
১৩ রবিয়স সানি

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
নাগরিকত্ব বিল: অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি অসমে, পুড়ল বাসও
নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের প্রতিবাদের জেরে অগ্নিগর্ভ পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছে অসমে। ...বিশদ

05:59:14 PM

নাগরিকত্ব বিল: শহরে প্রতিলিপি পুড়িয়ে প্রতিবাদ কংয়ের
নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের প্রতিবাদে পথে নামল প্রদেশ কংগ্রেস। আজ বিকালে ...বিশদ

05:43:21 PM

 ত্রিপুরা ও অসমে মোতায়েন হল সেনা
নাগরিকত্ব বিল নিয়ে প্রতিবাদের মোকাবিলা করতে সেনা মোতায়েন করা হল ...বিশদ

05:33:48 PM

ফুলেশ্বরে বেসরকারি হাসপাতালে ভাঙচুর 
রোগীকে অন্যত্র রেফার করা নিয়ে উত্তেজনা ফুলেশ্বরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে। ...বিশদ

04:47:59 PM

পর্ণশ্রীতে বাড়ি থেকে বৃদ্ধার দেহ উদ্ধার 

03:54:51 PM

শ্রীহরিকোটা থেকে রিস্যাট-২বিআরআই১ কৃত্রিম উপগ্রহর সফল উৎক্ষেপণ করল ইসরো 

03:49:00 PM