Bartaman Patrika
কলকাতা
 

বাড়িতে শ্রাদ্ধের প্যান্ডেল, হাসপাতাল
থেকে ফিরলেন করোনাজয়ী বৃদ্ধ

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বাড়ির ছাদে প্যান্ডেল বাঁধা। প্রস্তুতি চলছে শ্রাদ্ধানুষ্ঠানের। কিছু সময় পরেই আত্মীয়-পরিজনরা যাঁর ছবিতে মালা দেবেন, সেই ব্যক্তি করোনা জয় করে ফিরে এলেন বাড়িতে। প্রমাণ করলেন, তিনি এখনও জীবিত।
এমনই অবাক কাণ্ড ঘটেছে বিরাটির বিদ্যাসাগর সরণিতে।ওই পাড়ার বাসিন্দা বছর পঁচাত্তরের শিবদাস বন্দ্যোপাধ্যায়। করোনা উপসর্গ নিয়ে খড়দহের বলরাম হাসপাতালে তিনি ভর্তি হয়েছিলেন ৪ নভেম্বর। একই দিনে ওই হাসপাতালে করোনা উপসর্গ নিয়ে ভর্তি হন খড়দহের এম এম গোস্বামী রোডের বাসিন্দা মোহিনীমোহন মুখোপাধ্যায় (৭৫)। এরপর ৭ নভেম্বর বলরাম হাসপাতাল থেকে রোগীকে রেফার করা হয় বারাসতের জিএনআরসি হাসপাতালে।‌ তখনই হয় যাবতীয় গন্ডগোল। প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, শিবদাস বন্দ্যোপাধ্যায় ও মোহিনীমোহন মুখোপাধ্যায়ের মধ্যে নাম বিভ্রাট ঘটে। মোহিনীমোহনবাবু জিএনআরসি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। কিন্তু রিপোর্টের নাম অনুসারে সকলেই তাঁকে শিবদাস বন্দ্যোপাধ্যায় হিসেবে চিহ্নিত করেন। আর শিবদাসবাবু চিকিৎসাধীন ছিলেন বলরাম হাসপাতালে। তাঁকে চিহ্নিত করা হয় মোহিনীমোহনের নামে।
এরপর ১৩ নভেম্বর মারা যান মোহিনীমোহন। কিন্তু শুধু নামের ভুলেই রটে যায় মারা গিয়েছেন শিবদাসবাবু। সেইমতো হাসপাতাল থেকে বন্দোপাধ্যায় পরিবারকে ফোন করে জানানো হয় শিবদাসবাবু মারা গিয়েছেন। শিবদাসবাবুর স্ত্রী জীবিত রয়েছেন। প্রশাসন সূত্রে খবর, শনাক্তকরণের সময়ও দেহটি যে শিবদাসবাবুর নয়, তা কেন বুঝতে পারলেন না তাঁর পরিবারের লোকজন? 
শনাক্তকরণের পর সরকারি স্বাস্থ্যবিধি মেনে দেহ পোড়ানো হয়। বাবা মারা গিয়েছেন এটা ধরে নিয়েই কাছা পরে নিয়ম-আচার শুরু করেন শিবদাসবাবুর ছেলে বুবুন। বিরাটির বন্দ্যোপাধ্যায় পরিবারে শুরু হয়ে যায় শ্রাদ্ধানুষ্ঠানের তোড়জোড়। 
অন্যদিকে, টেলিফোন মারফত হাসপাতাল থেকে মোহিনীমোহন মুখোপাধ্যায়ের খবর নিতেন তাঁর পরিবারের লোকজনরা। সুস্থ আছেন এটাই জানানো হতো রোজ। কিন্তু তিনি যে আদৌ মোহিনীমোহনবাবু নন তা এতদিন বুঝতেও পারেননি ছেলে সুদীপ মুখোপাধ্যায়। ঘটনাটি সামনে আসে শুক্রবার সন্ধ্যায়। বলরাম হাসপাতালের স্বাস্থ্যকর্মীরা মুখোপাধ্যায় পরিবারে ফোন করে বলেন, মোহিনীমোহনবাবু সুস্থ হয়ে গিয়েছেন। আপনারা হাসপাতলে এসে তাঁকে বাড়ি নিয়ে যান।  কিন্তু হাসপাতালে এসে হুইলচেয়ারে বসে থাকা ব্যক্তিকে দেখেই হতচকিত হয়ে যান মুখোপাধ্যায় পরিবারের লোকজন। সুদীপবাবু জানান, আমি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে বলি, হুইল চেয়ারে বসে থাকা ব্যক্তি তো আমার বাবা নন! তাহলে মোহিনীমোহন মুখোপাধ্যায় গেলেন কোথায়? 
এরপরই শোরগোল পড়ে যায় হাসপাতাল চত্বরজুড়ে। হাসপাতালের কাগজপত্র ঘেঁটে জানা যায়, মোহিনীমোহন মুখোপাধ্যায় মারা গিয়েছেন ১৩ নভেম্বর। আর যিনি বেঁচে রয়েছেন তিনি শিবদাস বন্দ্যোপাধ্যায়! 
মর্মান্তিক ছবি হল, শিবদাসবাবুর খবর পেয়ে যখন হাসপাতালে এলেন ছেলে তখন তাঁর পরনে সাদা কাছা। বাবাকে দেখে হতচকিত হয়ে যান ছেলে। রাতেই বাড়ি নিয়ে যান। আর শিবদাসবাবু যখন বাড়ি পৌঁছলেন, তখন ছাদে প্যান্ডেল করা রয়েছে তাঁরই শ্রাদ্ধানুষ্ঠানের! শনিবার সকাল থেকে বিরাটির বিভিন্ন এলাকার মানুষজন ভিড় জমান বন্দোপাধ্যায় বাড়ির সামনে। যদিও শিবদাসবাবু, তাঁর ছেলে বা বউমা কথা বলতে চাননি পাড়ার লোকজন ও সংবাদ মাধ্যমের কাছে। 
এই ঘটনায় স্বাস্থ্যকর্মীদের গাফিলতি উড়িয়ে দিচ্ছেন না জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক তাপস রায়। তাঁর বক্তব্য, ঘটনার তদন্তে ৪ সদস্যের কমিটি গড়া হয়েছে। সন্ধ্যার মধ্যেই রিপোর্ট জমা পড়ে স্বাস্থ্যভবনে। জানা গিয়েছে, জমা পড়া রিপোর্টে এই চারজনের গাফিলতি ধরা পড়েছে। এদিন রাতেই দু’জন নার্স, একজন সিস্টার-ইন-চার্জ ও একজন চিকিৎসককে শো-কজ করা হয়। তিনদিনের মধ্যে তাঁদের উত্তর দিতে বলা হয়েছে।  খড়দহ পুরসভার প্রশাসক কাজল সিনহা বলেন, দুর্ভাগ্যজনক। ভবিষ্যতে এই ধরনের ঘটনা যাতে না ঘটে, তার জন্য হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে সচেতন থাকতে হবে। 
বিরাটির বন্দ্যোপাধ্যায় বাড়ির সামনে জড়ো হওয়া প্রতিবেশীদের একজন বললেন, ‘বাক্সবদল’ সিনেমা দেখেছি। এবার স্বচক্ষে দেখলাম জীবিত আর মৃতের অদল-বদল। অন্যদিকে, খড়দহের মুখোপাধ্যায় পরিবারে নেমে এসেছে অন্ধকার। এত বড় ভুলের জন্য পরিবারের সদস্যরা অভিযুক্তদের কড়া শাস্তির দাবি জানিয়েছেন।

22nd  November, 2020
অভাবনীয় সাফল্য, ৯৭ শতাংশ
ডেঙ্গু কমল উত্তর ২৪ পরগনায়

সরকারি উদ্যোগেই হোক কিংবা মানুষের সচেতনতা— উত্তর ২৪ পরগনায় গত বছরের তুলনায় এ বছর ডেঙ্গু কমল প্রায় ৯৭ শতাংশ। ডেঙ্গু কবলিত জেলার তালিকায় প্রতি বছরই সাধারণত কলকাতার পরেই জায়গা করে নেয় এই জেলা। বিশদ

পাইপে ফাটল, থই থই
আর জি করের একাংশ
স্থায়ী মেরামতি শনিবার 

আর জি কর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের অদূরে জল সরবরাহের মূল পাইপ ফেটে বিপত্তি। জলে থই থই গোটা অঞ্চল।  রবিবার ভোর থেকেই এই অবস্থা। জল ঢুকেছে হাসপাতালের ভিতরেও। সেখানে কোথাও হাঁটুসমান জল, কোথাও বা পাতাডোবা। বিশদ

ফুচকা বিক্রেতা থেকে শিল্পীর
সম্মান পেয়ে অভিভূত আনন্দ

আঁকিয়ের হাত থেকে রং-তুলি কেড়েছিল লকডাউন। ছিল না ক্ষুধা মেটানোর অন্নও। সবই ফিরে পেলেন জগদ্ধাত্রী পুজোয়। উপরন্তু শাড়িশিল্পী হয়ে গেলেন পুজোর থিমমেকার। অথচ এই সেদিনও ফুচকায় পুর ভরতেন আনন্দ কুমার। বিশদ

পুণ্যার্থীদের গতিবিধির উপর নজর রাখতে 
বিশেষ সফটওয়্যার বানাচ্ছে জেলা প্রশাসন
সাগরমেলা

গঙ্গাসাগর মেলায় পুণ্যার্থীদের গতিবিধির উপর নজর রাখতে বিশেষ সফটওয়্যার তৈরি করা হবে। করোনার জন্য পুণ্যার্থীদের স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর তাঁদের নাম, ফোন নং, ঠিকানা ইত্যাদি তথ্য  আপলোড করা হবে। প্রয়োজনে সংশ্লিষ্ট তীর্থযাত্রীর গতিবিধির উপর নজরও রাখতে পারবেন স্বাস্থ্যকর্তারা। বিশদ

বৈকুণ্ঠপুরে ৬০১ পদের
অন্নকূট জগদ্ধাত্রীকে

চন্দননগর বা কৃষ্ণনগরের জগদ্ধাত্রী পুজো এক নামে সবাই চেনে। জনপ্রিয়তার দৌড়ে পিছিয়ে থাকতে নারাজ সোনারপুরের বৈকণ্ঠপুর সাধারণ সম্মিলনীর জগদ্ধাত্রী পুজো। গত দু’বছর ধরে মায়ের পুজোয় অন্নকূট হচ্ছে এখানে। বিশদ

ঘোজাডাঙা সীমান্তে ৯ লক্ষ বাংলাদেশি
টাকা সমেত গ্রেপ্তার ২ ভারতীয় নাগরিক 

ভারত থেকে এবার বাংলাদেশে টাকা পাচার করতে গিয়ে দু’জন ভারতীয় নাগরিক ধরা পড়ল বিএসএফ জওয়ানদের হাতে। রবিবার সন্ধ্যায় এমন ঘটনাই ঘটেছে বসিরহাটের ঘোজাডাঙা সীমান্তে। দু’জনের কাছ থেকে মোট ৯ লক্ষ বাংলাদেশি টাকা উদ্ধার হয়েছে। বিশদ

সুন্দরবনের হোগল নদী পেরিয়ে আজ
বিদ্যুৎ যাচ্ছে গোসাবার বেলতলি দ্বীপে

লো ভোল্টেজ আর লোডশেডিংয়ের যন্ত্রণায় তিতিবিরক্ত সুন্দরবনের গোসাবার বেলতলি দ্বীপের ৩টি পঞ্চায়েতের কয়েক হাজার মানুষ। অবশেষে এই সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে চলেছেন তাঁরা। আজ, মঙ্গলবার হোগল নদী পেরিয়ে আলাদা ১১ কিলো ভোল্ট বিদ্যুতের লাইন যাবে এই দ্বীপে। বিশদ

চলন্ত ট্রেনে ছিনতাইয়ের চেষ্টা ব্যর্থ হওয়ায়
যাত্রীকে ধাক্কা মেরে ফেলা হল রেললাইনে

মোবাইল ছিনতাইয়ের চেষ্টা ব্যর্থ হওয়ায় চলন্ত ট্রেন থেকে এক যাত্রীকে ফেলে দিল দুষ্কৃতীরা। ট্রেনের গতি কম থাকায় ওই ব্যক্তি বেঁচে গিয়েছেন। রবিবার রাতে ঘটনাটি ঘটেছে কল্যাণী স্টেশন সংলগ্ন ৪২ নম্বর রেলগেট এলাকায়। বিশদ

নিখোঁজ বাবাকে ৫ বছর পর
ফিরে পেলেন ছেলে
মন্দিরবাজার থানার তৎপরতা

দীর্ঘ পাঁচ বছর নিখোঁজ থাকার পর বাবাকে ফিরে পেলেন ছেলে। সৌজন্যে মন্দিরবাজার থানার পুলিস। সোমবার ছেলের হাতে তুলে দেওয়া হয় তাঁকে। কীভাবে খুঁজে পেলেন নিজের বাবাকে? রবিবার রাতে টহল দেওয়ার সময় মন্দিরবাজার থানার এসআই এক বৃদ্ধকে লক্ষ্যহীনভাবে ঘুরে বেড়াতে দেখতে পান। বিশদ

খুনি বিশালের ফাঁসির
দাবিতে উত্তাল চুঁচুড়া
পালিত হল স্বতঃস্ফূর্ত বন্‌ধ

বিষ্ণু মাল হত্যাকাণ্ডে অভিযুক্ত গ্যাংস্টার বিশাল দাসের ফাঁসির দাবিতে জনমত প্রবল হচ্ছে চুঁচুড়ায়। সোমবার বিশালের ফাঁসির দাবিতে কামারপাড়ায় ১২ ঘণ্টার ব্যবসা বন্‌ধ পালিত হয়। ওষুধ ব্যবসায়ীরাও স্বতঃস্ফূর্তভাবে প্রতিবাদে শামিল হন। নিহত বিষ্ণুবাবু কামারপাড়ারই বাসিন্দা ছিলেন। বিশদ

পুলিসি সক্রিয়তায় চুরি যাওয়া টাকা,
গয়না ফিরে পেল বনগাঁর ২ পরিবার

চুরি তো প্রায়ই হয়, আর চুরি যাওয়া সামগ্রী উদ্ধারের জন্য থানাতেও হত্যে দেন সাধারণ মানুষ। কিন্তু চোরাই সামগ্রী উদ্ধারের ঘটনা ঘটে কদাচিৎ। সম্প্রতি বনগাঁ থানায় দুটি চুরির ঘটনায় নগদ টাকা ও সোনা উদ্ধার করে দুই গৃহস্থ পরিবারের সদস্যদের হাতে তুলে দিল পুলিস। বিশদ

পুলিসের সোর্স রোহিতের
হাতেই খুন সাবা

একবালপুর হত্যাকাণ্ড 

এ যেন সর্ষের ভিতরেই ভূত! একবালপুর থানার পুলিসের বিশ্বস্ত সোর্স রোহিত ওরফে শেখ সাজিদের হাতেই খুন হয়েছেন সাবা! খোদ পুলিসের সোর্সের হাতে সাবা খুনের বিষয় জানাজানি হাতেই শোরগোল পড়ে গিয়েছে পুলিস মহলে। বিশদ

নারকেলডাঙায় বেআইনি নির্মাণ,
৪ বছরের জেল হল প্রোমোটারের

শহরে এক বেআইনি নির্মাণের ঘটনায় এক প্রোমোটারকে চার বছর কারাদণ্ডের আদেশ দিল আদালত। বেনিয়াপুকুরের তিলজলা রোডের বাসিন্দা দোষী সাব্যস্ত ওই প্রোমোটারের নাম মহ: মোমিন ওরফে মহ: সাহাবুদ্দিন। বিশদ

দেগঙ্গা থানার সামনে বিষ খেয়ে
আত্মহত্যার চেষ্টা ভবঘুরে বৃদ্ধার

দেগঙ্গা থানার সামনে বিষ খেয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করলেন এক ভবঘুরে বৃদ্ধা। সোমবার দুপুরে এই ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। দেগঙ্গা থানার পুলিস ওই বৃদ্ধাকে উদ্ধার করে বিশ্বনাথপুর স্বাস্থ্য কেন্দ্রে নিয়ে যায়। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, আপাতত তাঁর শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল।  বিশদ

Pages: 12345

একনজরে
দক্ষিণ আফ্রিকায় করোনায় মৃত্যু হল মহাত্মা গান্ধীর প্রপৌত্র সতীশ ধুপেলিয়ার। সম্প্রতি ৬৬তম জন্মদিন পালন করেছেন সতীশ। রবিবার তাঁর বোন উমা ধুপেলিয়া সতীশের মৃত্যুর কথা জানিয়েছেন। ...

বিশ্ব ক্রিকেটে স্লেজিংয়ের জন্য বিখ্যাত তারা। চোখাচোখা বাক্যবাণে প্রতিপক্ষের আত্মবিশ্বাস টলিয়ে দেওয়ার ক্ষেত্রে তাদের জুড়ি মেলা ভার। সেই অস্ট্রেলিয়ানরাই নাকি ভারতের বিরুদ্ধে আসন্ন সিরিজে স্লেজিং ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, কোচবিহার: কোভিড পরিস্থিতি চলছে। ভাইরাস থেকে মুক্তি পেতে বাড়ির বাইরে বেরলে পরতে হবে মাস্ক। ঘনঘন সাবান জল দিয়ে হাত ধুতে হবে। ব্যক্তিগতভাবে এসব স্বাস্থ্যবিধি মানলে রেহাই মিলতে পারে। বৃহত্তর স্বার্থে প্রশাসন পড়ায় পাড়ায় গিয়ে স্যানিটাইজ করবে।  ...

রীতিমতো চার্টার্ড অ্যাকাউন্টেন্সি (সিএ) ফার্ম খুলে চলত কালো টাকা সাদা করার কারবার। ফার্মের মালিক গোবিন্দ আগরওয়ালকে ইতিমধ্যেই জালে তুলেছে কলকাতা পুলিস। প্রাথমিক অভিযোগ ছিল, একাধিক আয়কর কর্তার কালো টাকা সাদা করেছেন ওই সিএ ফার্মের মালিক। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

পড়শির ঈর্ষায় অযথা হয়রানি। সন্তানের বিদ্যা নিয়ে চিন্তা। মামলা-মোকদ্দমা এড়িয়ে চলা প্রয়োজন। প্রেমে বাধা।প্রতিকার: একটি ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮৫৯: চার্লস ডারউইনের লেখা ‘অন দ্য অরিজিন অব স্পিসিস’ প্রকাশিত হল
১৮৮৮: মার্কিন সাহিত্যিক ডেল কার্নেগির জন্ম
১৯৫৫: ইংল্যান্ডের ক্রিকেটার ইয়ান বথামের জন্ম
১৯৬১: লেখিকা এবং সমাজকর্মী অরুন্ধতী রায়ের জন্ম 



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৩.৩৫ টাকা ৭৫.০৬ টাকা
পাউন্ড ৯৭.১২ টাকা ১০০.৫১ টাকা
ইউরো ৮৬.৫২ টাকা ৮৯.৭০ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৫১,১৪০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৮, ৫২০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪৯, ২৫০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৬২, ৩৫০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৬২, ৪৫০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৮ অগ্রহায়ণ, ১৪২৭, মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, দশমী ৫১/৪৮ রাত্রি ২/৪৩। পূর্বভাদ্রপদ নক্ষত্র ২৩/৫১ দিবা ৩/৩২। সূর্যোদয় ৫/৫৯/১৪, সূর্যাস্ত ৪/৪৭/২৬। অমৃতযোগ দিবা ৬/৪১ মধ্যে পুনঃ ৭/২৪ গতে ১১/২ মধ্যে। রাত্রি ৭/২৬ গতে ৮/১৯ মধ্যে পুনঃ ৯/১১ গতে ১১/৪৯ মধ্যে পুনঃ ১/৩৪ গতে ৩/২০ মধ্যে পুনঃ ৫/৬ গতে উদয়াবধি। মাহেন্দ্রযোগ রাত্রি ৭/২৬ মধ্যে। বারবেলা ৭/২০ গতে ৮/৪১ মধ্যে পুনঃ ১২/৪৪ গতে ২/৫ মধ্যে। কালরাত্রি ৬/২৭ গতে ৮/৫ মধ্যে।   
৮ অগ্রহায়ণ, ১৪২৭, মঙ্গলবার, ২৪ নভেম্বর ২০২০, দশমী শেষরাত্রি ৪/২৯। পূর্বভাদ্রপদ নক্ষত্র রাত্রি ৬/২২। সূর্যোদয় ৬/১, সূর্যাস্ত ৪/৪৭। অমৃতযোগ দিবা ৬/৫৫ মধ্যে ও ৭/৩ গতে ১১/১০ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/৩০ গতে ৮/২৩ মধ্যে ও ৯/১৭ গতে ১১/৫৮ মধ্যে ও ১/৪৫ গতে ৩/৩২ মধ্যে ও ৫/১৯ গতে ৬/২ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ রাত্রি ৭/৩০ মধ্যে। বারবেলা ৭/২২ গতে ৮/৪৩ মধ্যে ও ১২/৪৫ গতে ২/৬ মধ্যে। কালরাত্রি ৬/২৬ গতে ৮/৬ মধ্যে।
৮ রবিয়ল সানি।

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
আজ বৈঠকে প্রধানমন্ত্রীকে কী বললেন মমতা ?
করোনা মোকাবিলায় সবরকম ভাবে তৈরি রাজ্য। অর্থাৎ ইতিমধ্যেই প্রশিক্ষিত কর্মী ...বিশদ

02:04:56 PM

প্রয়াত টেলি অভিনেতা আশিষ রায়
ফের মৃত্যু। ফের শোকের ছায়া বিনোদন জগতে। প্রয়াত হিন্দি টেলিভিশনের ...বিশদ

01:51:27 PM

৩৩২ পয়েন্ট উঠল সেনসেক্স 

01:17:18 PM

বসিরহাটে পঞ্চায়েত সমিতির সহ সভাপতিকে খুনের চেষ্টা, চাঞ্চল্য 
তৃণমূল পরিচালিত বসিরহাট -১ পঞ্চায়েত সমিতির সহ সভাপতিকে খুনের চেষ্টার ...বিশদ

01:16:48 PM

করোনা: ওড়িশায় নতুন করে আক্রান্ত ৬৪২ 
ওড়িশায় নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হলেন ৬৪২ জন। মোট আক্রান্তের ...বিশদ

12:14:33 PM

ভাঙড়ের কাশীপুরে ধৃত মহিলা চোর, উদ্ধার লক্ষাধিক টাকার গয়না 

12:11:00 PM