Bartaman Patrika
কলকাতা
 

সংযম এড়িয়ে বিক্ষিপ্ত জমায়েত, পুলিসের লাঠি
কলকাতায় ক্রেতাদের মধ্যে দূরত্ব বাড়াতে
দোকানের সামনে সুরক্ষা-রেখা পুলিসের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: করোনা ভাইরাসের থাবা থেকে বাঁচতে মঙ্গলবার রাতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছিলেন, গোটা বিশ্বে বিপর্যয়ের কারণে আমাদের আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হতে হবে ঠিকই, কিন্তু মানুষের প্রাণ আগে। তাই আজ রাত বারোটা থেকে ঘরের বাইরে লক্ষ্মণরেখা টেনে দেওয়া হল। যার বাইরে গেলেই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। মোদির ঘোষিত লক্ষ্মণরেখা দৃশ্যত না থাকলেও কলকাতা পুলিস সুরক্ষা-রেখা টেনে দিল শহরের মানুষদের জন্য। বারে বারে বলা হচ্ছে ‘সামাজিক দূরত্ব’ তৈরি করতে। ছাড় রয়েছে একমাত্র জরুরি পরিষেবায়। শাক-সব্জি, মাছ-মাংস, মুদির দোকান সহ অত্যাবশ্যকীয় পণ্য সামগ্রীর ক্ষেত্রেও রয়েছে ছাড়। দোকানপাট খোলা থাকায় বাজারে উপচে পড়া ভিড়। সেই সময় যাতে সামাজিক দূরত্ব বজায় থাকে, তা নিশ্চিত করতে সেকারণে উদ্যোগী হল রাজ্যের পুলিস-প্রসাসন। ক্রেতাদের মধ্যে কম করে এক মিটার দূরত্ব বজায় রাখতে চক দিয়ে রাস্তার উপরেই বৃত্ত এঁকে সুরক্ষা-রেখা টেনে দেওয়া হয়েছে। পুলিসের কথায়, করোনা মোকাবিলায় দেশজুড়ে লকডাউন জরুরি। কিন্তু অত্যাবশ্যকীয় সামগ্রী না থাকলে মানুষ বাঁচবে কীভাবে? এই প্রশ্নও গুরুত্বপূর্ণ। তাই বাজারে ভিড় বাড়ছে। ক্রেতাদের মধ্যে দূরত্ব তৈরি করতে তাই কলকাতা পুলিসের প্রায় প্রতিটি থানার আধিকারিকরা এই সুরক্ষা বৃত্ত এঁকে দিয়েছেন।
মঙ্গলবার রাতে প্রধানমন্ত্রীর ওই ঘোষণার পর খাবার মজুতের হিড়িক পড়েছে বিভিন্ন এলাকায়। এমনকী ওষুধের দোকানেও গাদাগাদি ভিড়। সব্জি কিনতে বাজারগুলিতে সকাল-সন্ধ্যায় ভালোই ভিড় হয়েছে। এক মিটারের ন্যূনতম দূরত্ব কেউই মানছেন না। বলা হচ্ছে, খুব প্রয়োজনে বেরতে বলেও ওই দূরত্ব মেনে চলতে। কিন্তু বেশিরভাগ মানুষই সেই য়িমের তোয়াক্কা করছেন না। এমনকী বিনা কারণে ঘোরাঘুরিও করছেন। ফলে বিপদের আশঙ্কা থেকেই যাচ্ছে।
কলকাতা পুলিসের কমিশনার অনুজ শর্মা ট্যুইটে বলেছেন, দয়া করে ঘরে থাকুন, নিরাপদে থাকুন। তবে তিনি থানাগুলিকে নির্দেশ দিয়েছেন, প্রতিটি ক্ষেত্রে কড়া পদক্ষেপ নিতে। সূত্রের খবর, এদিন রাজ্য পুলিসকে কঠোর পদক্ষেপের নির্দেশ দিয়েছে নবান্নও। স্বরাষ্ট্র দপ্তরের তরফে রাজ্যের সবক’টি থানা এবং জেলার পুলিস সুপারদের বলা হয়েছে, কেউ কোথাও জমায়েত করলে কঠোর পদক্ষেপ করতে হবে। জমায়েত বরদাস্ত করা যাবে না।
এদিন দেখা যায়, শহরের বিভিন্ন বড় বড় মুদির দোকানে যাঁরা জিনিসপত্র কিনতে এসেছেন, তাঁদের মধ্যে দূরত্ব বজায় রাখতে দোকানের সামনে চক দিয়ে গোল চিহ্ন করে দেওয়া হয়। ওই গোল চিহ্নের মধ্যে দাঁড়িয়ে থাকছেন ক্রেতারা। একটি বৃত্ত ফাঁকা হলেই পরের জন এগিয়ে যাচ্ছেন। এভাবেই এক এক করে দোকানে ঢুকছেন সকলে। উল্টোডাঙা, নারকেলডাঙা, যাদবপুর, ভবানীপুর, বেহালা, শ্যামবাজার, পাটুলি, বাঁশদ্রোণী সহ বিভিন্ন এলাকায় এই ছবি ধরে পড়েছে। সেখানে মানুষ অবশ্য দূরত্ব বজায় রেখেই জিনিসপত্র কিনেছেন। চক ছাড়াও কোথাও কোথাও চুন দিয়েও টানা হচ্ছে ‘সুরক্ষা-রেখা’। কিছু কিছু রেশন দোকানেও এমন বন্দোবস্ত করা হয়েছে। গোবিন্দ খটিক রোডে একটি রেশন দোকানের বাইরে বৃত্ত এঁকে দেওয়ার বিষয়টি নজরে এসেছে। শহরে এমন উদ্যোগে খুশি ক্রেতারাও।
তবে বুধবারও শহরের বিভিন্ন জায়গায় সকাল থেকে দেখা গিয়েছে বিক্ষিপ্ত জমায়েত। বাজারে গুজবের কানাকানি। ফাঁকা রাস্তায় প্রাইভেট গাড়ি, বাইকের অবাধ চলাচল। এখনও মানুষের একাংশের মধ্যে সচেতনতার অভাব স্পষ্ট। অনেক জায়গাতেই এই লকডাউনকে গ্রীষ্মাবকাশ বলে মনে করছেন দায়িত্বজ্ঞানহীন কিছু মানুষ। প্রশাসনের তরফ থেকে সতর্কতা ও সচেতনতার বার্তাকে দেওয়া হলেও তাকে কার্যত উড়িয়ে দিয়ে রাস্তায় নেমেছেন কেউ কেউ। বিশেষ করে অলিগলিতে চলছে জমিয়ে আড্ডা। তবে পুলিসও বসে নেই। এমন আড্ডা বা জমায়েত কিংবা অকারণে পথে নামা লোককে সমঝে দিতে কোথাও লাঠি, কোথাও আবার কান ধরে ওঠবোস করিয়েছে উর্দিধারীরা। বিশেষ করে কৌতূহলী বাইক বাহিনীকে কোথাও কোথাও পুলিসের লাঠির আঘাতও সহ্য করতে হয়েছে।

26th  March, 2020
মায়ের দু’টি জবার মালা জোগাড় করাও
মুশকিল, উদ্বেগে কালীঘাটের পূজারিরা 

সুকান্ত বসু ও রাহুল চক্রবর্তী, কলকাতা: ভোর চারটেয় মঙ্গলারতি দিয়ে পুজোর শুরু। তারপর নিত্যপূজা, ভোগ নিবেদন, সন্ধ্যা আরতি, শয়ন। ফলে দিনভর প্রচুর জবার মালা প্রয়োজন হয় কালীঘাট মন্দিরে। কিন্তু লকডাউনে দু’টি মাত্র মালাও জোগাড় করা কষ্টসাধ্য হয়ে দাঁড়িয়েছে বলে জানান কালীঘাট মন্দিরের পূজারিরা। বিশদ

কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে নিয়ে যাওয়ার
সময় উধাও ৮, খোঁজ মিলল পাড়ায় 

বিএনএ, চুঁচুড়া: শেওড়াফুলির আক্রান্ত প্রৌঢ়ের পরিবারের সঙ্গে জড়িত ও অন্যান্য মিলিয়ে মোট ১২ জনকে শ্রীরামপুর ওয়ালশ হাসপাতাল থেকে সিঙ্গুরের কোয়ারেন্টাইন সেন্টারে নিয়ে যাওয়ার সময় ঘটল বিপত্তি।   বিশদ

মার্চের শেষে কলকাতা, হলদিয়ায়
২০টি পণ্যবাহী জাহাজ এসেছে 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: লকডাউন পরিস্থিতির মধ্যে মার্চ মাসের শেষ তিন দিনে কলকাতা ও হলদিয়া বন্দরে মোট ২০টি পণ্যবাহী জাহাজ এসেছে। মোট ১৭টি জাহাজ পণ্য নামিয়ে চলে গিয়েছে বন্দর থেকে।  বিশদ

করোনা: রেড ক্রশের প্রশংসায় রাজ্যপাল 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: রেড ক্রশ সোসাইটি করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় বাংলাতেও পূর্ণোদ্যমে নেমেছে মানুষের পাশে দাঁড়াতে। গোটা রাজ্যে সংস্থার ২০০ জন সদস্য বিভিন্ন জেলায় সচেতনতা প্রচারের পাশাপাশি ত্রাণ এবং চিকিৎসা ক্ষেত্রে সহযোগিতার কাজে প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ রেখে কাজ করছেন।  বিশদ

রথতলায় ১০ জন কোয়ারেন্টাইনে 

বিএনএ, বারাকপুর: করোনা আক্রান্ত রোগীর মৃত্যুর পর বুধবার প্রবল আতঙ্ক ছড়াল বেলঘরিয়ার রথতলায়। এলাকায় সব্জি, মুদি, দুধের দোকান পর্যন্ত বন্ধ থাকল। বাড়ির বাইরে কাউকেই বের হতে দেখা গেল না।   বিশদ

শেওড়াফুলির প্রৌঢ়ের ভাই ও
ভাইপো করোনা আক্রান্ত 

বিএনএ, চুঁচুড়া: করোনা আক্রান্ত শেওড়াফুলির প্রৌঢ়ের পরিবারের আরও দু’জনের করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ল। ওই প্রৌঢ়ের ভাই এবং ভাইপোর পরীক্ষার ফলাফলে করোনা পজেটিভ হওয়ার পরই তাদেরকে বেলেঘাটা আইডিতে পাঠানো হয়েছে। ওই প্রৌঢ়ের সংযোগে আসা আরও দশ জনের রক্তের নমুনা নেতিবাচক হলেও তাদের দ্বিতীয় পরীক্ষার জন্য নজরদারিতে রাখা হচ্ছে।  বিশদ

সল্টলেকে দাদার দেহ আগলে
বোন, দুর্গন্ধ ছড়ানোয় হাজির পুলিস 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বাড়ি থেকে দুর্গন্ধ বেরনোয় প্রতিবেশীরা খবর দেয় পুলিসকে। পুলিস এসে বাড়ি থেকে উদ্ধার করল যুবকের দেহ। পুলিস জানিয়েছে, বুধবার সকালে সল্টলেকের এডি ব্লকের ওই বাড়ি থেকে সৌরভ মুখোপাধ্যায় (৪০) নামের এক ব্যক্তির দেহ উদ্ধার করা হয়েছে।   বিশদ

হাওড়া হাসপাতালের ৩০ চিকিৎসক, নার্স
ও স্বাস্থ্যকর্মীকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হল 

নিজস্ব প্রতিনিধি, হাওড়া: হাওড়া জেলায় ইতিমধ্যে দু’জন করোনা আক্রান্তের মৃত্যু হয়েছে। তবে বুধবার নতুন করে কারও শরীরে কোভিড-১৯ ভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে বলে জানায়নি জেলা প্রশাসন।   বিশদ

করোনা: প্রশাসনিক খামতির কথা
জানিয়ে চিঠি মান্নান-সুজনদের 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় কিছু বিষয়ে প্রশাসনিক খামতি নিয়ে এবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করল বাম ও কংগ্রেস পরিষদীয় দল। বুধবার এব্যাপারে দুই পরিষদীয় দলের নেতা হিসেবে আব্দুল মান্নান ও সুজন চক্রবর্তী এই চিঠি পাঠিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রীর কাছে।   বিশদ

‘কন্ট্যাক্টলেস ডেলিভারি’র ব্যবস্থা
শহরের কিছু মুদি দোকানের 

স্বার্ণিক দাস, কলকাতা: প্রযুক্তি ও সচেতনতার ছোঁয়ায় শহরের বেশকিছু মুদির দোকানে শুরু হল ‘কন্ট্যাক্টলেস ডেলিভারি’। দোকান বন্ধ রেখে মোবাইল অ্যাপের সাহায্যে জিনিসপত্র দেওয়া-নেওয়া এবং আর্থিক লেনদেনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে তারা।   বিশদ

করোনায় আতঙ্কিত হওয়ার কারণ নেই,
সেরে উঠে বললেন হাবড়ার তরুণী 

বিএনএ, বারাসত: সর্দি-জ্বর কিংবা ভাইরাস ঘটিত জ্বরের মতো শরীরে ব্যথা ছিল। মাঝেমধ্যে হালকা মাথাব্যথা হচ্ছিল। এছাড়া তেমন বড় কোনও সমস্যা আমি বুঝতে পারিনি। করোনায় আক্রান্ত হয়েছি জানার পর প্রথমে আতঙ্কিত হয়ে পড়লেও, যত সময় গিয়েছে ভয় কেটেছে। চিকিৎসক ও স্বাস্থ্য দপ্তরের আধিকারিকরা আমাকে বারবার উৎসাহ দিয়েছেন।   বিশদ

ডাক্তারকে জেরা করে হেনস্তা,
পুলিসকে ফোন ফেরতের নির্দেশ 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীদের সরকারি হাসপাতালে চিকিৎসা যাঁরা করছেন, তাঁদের যে নাক-মুখ ঢাকার মাস্ক রাজ্য সরকার দিয়েছে, তার মান নিয়ে ফেসবুকে প্রশ্ন তুলেছিলেন ডাঃ ইন্দ্রনীল খান।  বিশদ

শহর ও শহরতলির রেশন দোকানে করোনা
বিধি ভেঙে মানুষের ভিড়, ভাঙচুর, বিশৃঙ্খলা 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা, হাওড়া, দক্ষিণ ২৪ পরগনা এবং বিএনএ, বারাকপুর, বারাসত, চুঁচুঁড়া: রেশন সরবরাহে বুধবার সকাল থেকেই শহর-শহরতলির দোকানে চরম বিশৃঙ্খলা দেখা গেল। কোথাও পর্যাপ্ত রেশন দেওয়া হচ্ছে না বলে অভিযোগ।   বিশদ

বকেয়া সিএফ, রোড ট্যাক্স, পুলিস কেস
মেটানোর মেয়াদ বাড়ল হল ৩ মাস 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: যানবাহনের সার্টিফিকেট অফ ফিটনেস, রোড ট্যাক্স এবং পুলিস কেসের বকেয়া জরিমানা মেটাতে তিনটি পৃথক স্কিম ঘোষণা করেছিল রাজ্য সরকার। সেগুলির সময়সীমা শেষ হওয়ার কথা ছিল ৩১ মার্চ।  বিশদ

Pages: 12345

একনজরে
নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ এখনও দ্বিতীয় ধাপে রয়েছে, তৃতীয় ধাপে পৌঁছয়নি। এই ভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে লকডাউন একমাত্র পথ, তা কোনওভাবেই শিথিল করা যাবে না। মানুষের বাড়িতে থাকা প্রয়োজন।   ...

নয়াদিল্লি ও নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা, ১ এপ্রিল: করোনা সঙ্কট মোকাবিলায় যৌথভাবে ১ হাজার ১২৫ কোটি টাকা খরচ করার কথা জানাল তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থা উইপ্রো লিমিটেড, উইপ্রো এন্টারপ্রাইজেস লিমিটেড এবং সংস্থার কর্ণধারের নামাঙ্কিত আজিম প্রেমজি ফাউন্ডেশন।   ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াই করতে এগিয়ে এল ওয়েস্ট বেঙ্গল স্মল ইন্ডাস্ট্রিজ ডেভেলপমেন্ট কর্পোরেশন লিমিটেড। এখনও পর্যন্ত তারা সরকারি বিভিন্ন দপ্তরে ৮০ হাজার লিটার স্যানিটাইজার সরবরাহ করেছে।   ...

লন্ডন, ১ এপ্রিল: কোভিড-১৯ থমকে দিয়েছে গোটা বিশ্বকে। স্তব্ধ হয়ে গিয়েছে খেলার দুনিয়াও। গৃহবন্দি দশায় হাঁপিয়ে উঠেছেন খেলোয়াড়রা। আর তার থেকে খানিক মুক্তি পেতে অভিনব ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

কর্মপ্রার্থীদের ধৈর্য্য ধরতে হবে। প্রেম-প্রণয়ে আগ্রহ বাড়বে। নিকটস্থানীয় কারও প্রতি আকর্ষণ বাড়বে। পুরোনো কোনও বন্ধুর ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯০২: ওস্তাদ বড়ে গুলাম আলি খানের জন্ম
১৯৩৩: ক্রিকেটার রনজিৎ সিংজির মৃত্যু
১৯৬৯: অভিনেতা অজয় দেবগনের জন্ম 





ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৪.৬৪ টাকা ৭৬.৩৬ টাকা
পাউন্ড ৭৬.৩৬ টাকা ৯৪.৮৪ টাকা
ইউরো ৮১.৭৩ টাকা ৮৪.৭৬ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
01st  April, 2020
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪১,৮৮০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৯,৭৩০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪০,৩৩০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৮,৮০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৮,৯০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
22nd  March, 2020

দিন পঞ্জিকা

১৮ চৈত্র ১৪২৬, ১ এপ্রিল ২০২০, বুধবার, (চৈত্র শুক্লপক্ষ) অষ্টমী ৫৫/১৯ রাত্রি ৩/৪১। আর্দ্রা ৩৪/৫০ রাত্রি ৭/২৯। সূ উ ৫/৩৩/১, অ ৫/৪৮/১১, অমৃতযোগ দিবা ৭/১২ মধ্যে পুনঃ ৯/৩৮ গতে ১১/১৬ মধ্যে পুনঃ ৩/২১ গতে ৪/২৯ মধ্যে। রাত্রি ৬/৩৫ গতে ৮/৫৬ মধ্যে ১০/৩০ মধ্যে। বারবেলা ৮/৩৬ গতে ১০/৮ মধ্যে পুনঃ ১১/৪১ গতে ১/১৩ মধ্যে। কালরাত্রি ২/৩৬ গতে ৪/৪ মধ্যে।
১৮ চৈত্র ১৪২৬, ১ এপ্রিল ২০২০, বুধবার, অষ্টমী ৪১/১৫/৩৫ রাত্রি ১০/৪/৫৮। আর্দ্রা ২২/৩০/৫২ দিবা ২/৩৫/৫। সূ উ ৫/৩৪/৪৪, অ ৫/৪৮/৩১। অমৃতযোগ দিবা ৭/১২ মধ্যে ও ৯/৩২ গতে ১১/১২ মধ্যে ও ৩/২১ গতে ৫/১ মধ্যে এবং রাত্রি ৬/২৭ গতে ৮/৫৫ মধ্যে ও ১/৩২ গতে ৫/৩৪ মধ্যে। কালবেলা ৮/৩৮/১১ গতে ১০/৯/৫৪ মধ্যে।
 ৭ শাবান

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৫৩ 

04:55:34 PM

গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে ৪ জন করোনা আক্রান্তের মৃত্যু 

04:53:47 PM

রাজ্যের করোনা বিমার আওতায় বেসরকারি স্বাস্থ্য পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থার কর্মীরাও 
বেসরকারি স্বাস্থ্য পরিষেবা প্রদানকারী সংস্থাগুলির দাবি মেনে করোনা মোকাবিলায় নিয়োজিত ...বিশদ

04:48:32 PM

করোনা: মুখ্যমন্ত্রী ত্রাণ তহবিলে ৫ কোটি টাকা দিল রাজ্যের শিক্ষা দপ্তর এবং তার অধীনে থাকা বোর্ডগুলি 

04:23:00 PM

দিল্লির সভায় যোগ দেওয়া হিলির বাসিন্দার খোঁজ মিলল 
বেশ কয়েকদিন আত্মগোপন করার পর খোঁজ মিলল দিল্লির নিজামুদ্দিনের ধর্মীয় ...বিশদ

03:51:30 PM

করোনা: বেলজিয়ামে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১০০০ 

03:50:45 PM