Bartaman Patrika
কলকাতা
 
দুষ্টুমি...

বুধবার আনন্দ দাসের তোলা ছবি।

সংযম এড়িয়ে বিক্ষিপ্ত জমায়েত, পুলিসের লাঠি
কলকাতায় ক্রেতাদের মধ্যে দূরত্ব বাড়াতে
দোকানের সামনে সুরক্ষা-রেখা পুলিসের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: করোনা ভাইরাসের থাবা থেকে বাঁচতে মঙ্গলবার রাতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছিলেন, গোটা বিশ্বে বিপর্যয়ের কারণে আমাদের আর্থিক ক্ষতির সম্মুখীন হতে হবে ঠিকই, কিন্তু মানুষের প্রাণ আগে। তাই আজ রাত বারোটা থেকে ঘরের বাইরে লক্ষ্মণরেখা টেনে দেওয়া হল। যার বাইরে গেলেই করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। মোদির ঘোষিত লক্ষ্মণরেখা দৃশ্যত না থাকলেও কলকাতা পুলিস সুরক্ষা-রেখা টেনে দিল শহরের মানুষদের জন্য। বারে বারে বলা হচ্ছে ‘সামাজিক দূরত্ব’ তৈরি করতে। ছাড় রয়েছে একমাত্র জরুরি পরিষেবায়। শাক-সব্জি, মাছ-মাংস, মুদির দোকান সহ অত্যাবশ্যকীয় পণ্য সামগ্রীর ক্ষেত্রেও রয়েছে ছাড়। দোকানপাট খোলা থাকায় বাজারে উপচে পড়া ভিড়। সেই সময় যাতে সামাজিক দূরত্ব বজায় থাকে, তা নিশ্চিত করতে সেকারণে উদ্যোগী হল রাজ্যের পুলিস-প্রসাসন। ক্রেতাদের মধ্যে কম করে এক মিটার দূরত্ব বজায় রাখতে চক দিয়ে রাস্তার উপরেই বৃত্ত এঁকে সুরক্ষা-রেখা টেনে দেওয়া হয়েছে। পুলিসের কথায়, করোনা মোকাবিলায় দেশজুড়ে লকডাউন জরুরি। কিন্তু অত্যাবশ্যকীয় সামগ্রী না থাকলে মানুষ বাঁচবে কীভাবে? এই প্রশ্নও গুরুত্বপূর্ণ। তাই বাজারে ভিড় বাড়ছে। ক্রেতাদের মধ্যে দূরত্ব তৈরি করতে তাই কলকাতা পুলিসের প্রায় প্রতিটি থানার আধিকারিকরা এই সুরক্ষা বৃত্ত এঁকে দিয়েছেন।
মঙ্গলবার রাতে প্রধানমন্ত্রীর ওই ঘোষণার পর খাবার মজুতের হিড়িক পড়েছে বিভিন্ন এলাকায়। এমনকী ওষুধের দোকানেও গাদাগাদি ভিড়। সব্জি কিনতে বাজারগুলিতে সকাল-সন্ধ্যায় ভালোই ভিড় হয়েছে। এক মিটারের ন্যূনতম দূরত্ব কেউই মানছেন না। বলা হচ্ছে, খুব প্রয়োজনে বেরতে বলেও ওই দূরত্ব মেনে চলতে। কিন্তু বেশিরভাগ মানুষই সেই য়িমের তোয়াক্কা করছেন না। এমনকী বিনা কারণে ঘোরাঘুরিও করছেন। ফলে বিপদের আশঙ্কা থেকেই যাচ্ছে।
কলকাতা পুলিসের কমিশনার অনুজ শর্মা ট্যুইটে বলেছেন, দয়া করে ঘরে থাকুন, নিরাপদে থাকুন। তবে তিনি থানাগুলিকে নির্দেশ দিয়েছেন, প্রতিটি ক্ষেত্রে কড়া পদক্ষেপ নিতে। সূত্রের খবর, এদিন রাজ্য পুলিসকে কঠোর পদক্ষেপের নির্দেশ দিয়েছে নবান্নও। স্বরাষ্ট্র দপ্তরের তরফে রাজ্যের সবক’টি থানা এবং জেলার পুলিস সুপারদের বলা হয়েছে, কেউ কোথাও জমায়েত করলে কঠোর পদক্ষেপ করতে হবে। জমায়েত বরদাস্ত করা যাবে না।
এদিন দেখা যায়, শহরের বিভিন্ন বড় বড় মুদির দোকানে যাঁরা জিনিসপত্র কিনতে এসেছেন, তাঁদের মধ্যে দূরত্ব বজায় রাখতে দোকানের সামনে চক দিয়ে গোল চিহ্ন করে দেওয়া হয়। ওই গোল চিহ্নের মধ্যে দাঁড়িয়ে থাকছেন ক্রেতারা। একটি বৃত্ত ফাঁকা হলেই পরের জন এগিয়ে যাচ্ছেন। এভাবেই এক এক করে দোকানে ঢুকছেন সকলে। উল্টোডাঙা, নারকেলডাঙা, যাদবপুর, ভবানীপুর, বেহালা, শ্যামবাজার, পাটুলি, বাঁশদ্রোণী সহ বিভিন্ন এলাকায় এই ছবি ধরে পড়েছে। সেখানে মানুষ অবশ্য দূরত্ব বজায় রেখেই জিনিসপত্র কিনেছেন। চক ছাড়াও কোথাও কোথাও চুন দিয়েও টানা হচ্ছে ‘সুরক্ষা-রেখা’। কিছু কিছু রেশন দোকানেও এমন বন্দোবস্ত করা হয়েছে। গোবিন্দ খটিক রোডে একটি রেশন দোকানের বাইরে বৃত্ত এঁকে দেওয়ার বিষয়টি নজরে এসেছে। শহরে এমন উদ্যোগে খুশি ক্রেতারাও।
তবে বুধবারও শহরের বিভিন্ন জায়গায় সকাল থেকে দেখা গিয়েছে বিক্ষিপ্ত জমায়েত। বাজারে গুজবের কানাকানি। ফাঁকা রাস্তায় প্রাইভেট গাড়ি, বাইকের অবাধ চলাচল। এখনও মানুষের একাংশের মধ্যে সচেতনতার অভাব স্পষ্ট। অনেক জায়গাতেই এই লকডাউনকে গ্রীষ্মাবকাশ বলে মনে করছেন দায়িত্বজ্ঞানহীন কিছু মানুষ। প্রশাসনের তরফ থেকে সতর্কতা ও সচেতনতার বার্তাকে দেওয়া হলেও তাকে কার্যত উড়িয়ে দিয়ে রাস্তায় নেমেছেন কেউ কেউ। বিশেষ করে অলিগলিতে চলছে জমিয়ে আড্ডা। তবে পুলিসও বসে নেই। এমন আড্ডা বা জমায়েত কিংবা অকারণে পথে নামা লোককে সমঝে দিতে কোথাও লাঠি, কোথাও আবার কান ধরে ওঠবোস করিয়েছে উর্দিধারীরা। বিশেষ করে কৌতূহলী বাইক বাহিনীকে কোথাও কোথাও পুলিসের লাঠির আঘাতও সহ্য করতে হয়েছে।

26th  March, 2020
আগস্টের প্রথম লকডাউনে জনহীন কলকাতা
বৃষ্টিভেজা দিনেও কঠোর
নাকা চেকিং পুলিসের

 আগস্ট মাসে লকডাউনের প্রথম দিন শহর কলকাতা ছিল জনমানবশূন্য। বুধবার সকাল থেকেই শহরের প্রায় সর্বত্র দফায়-দফায় হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টি হয়। একে লকডাউন, তার সঙ্গে বৃষ্টি। জোড়া ধাক্কায় শহরের সর্বত্র রাস্তাঘাট ছিল শুনশান।
বিশদ

ফেসবুক বন্ধুদের বিশেষ উদ্যোগে
ওষুধের ড্রপ বক্স চালু মধ্যমগ্রামে
হাত বাড়াল পুরসভাও

করোনাপর্বে মুমূর্ষু রোগী বা মৃতের পরিজনদের প্রতি অমানবিক আচরণ ও স্বার্থপরতার একাধিক ঘটনা বিচলিত করেছে বহু মানুষকে। কিন্তু, সবাই যে মনুষ্যত্ব হারিয়ে ফেলেননি, তার বড় প্রমাণ মধ্যমগ্রামের ‘মেডিসিন ড্রপ বক্স’।
বিশদ

ওয়ার্ক ফ্রম হোমের জের 
সল্টলেকে তথ্যপ্রযুক্তি তালুকে মাছি
মারছেন ফুডস্টলের দোকানদাররা

 বাড়িতে বসে কাজ করলে আইটি কর্মচারীদের পেট চলবে। কিন্তু, স্টল বন্ধ রাখলে আমরা খাব কী! সল্টলেক সেক্টর ফাইভের এক ফুড স্টলের মালিক অনন্ত জানা আক্ষেপের সঙ্গে এমনটাই বললেন।
বিশদ

করোনা আতঙ্ক উড়িয়ে ময়দান
ছাড়তে নারাজ কাউন্সিলাররা

কারও অস্ত্র বিধি, কারও টোটকা

প্রতিদিনই ওয়ার্ড ঘুরে খোঁজ রাখতে হচ্ছে এলাকার মানুষের সমস্যার। আর এইসব সামাজিক দায়িত্ব পালন করতে গিয়েই করোনায় আক্রান্ত হচ্ছেন কাউন্সিলাররা। বিশদ

কষা মাংস থেকে পাটিসাপটা, শহরবাসীর
দোরগোড়ায় পৌঁছে দিচ্ছে পঞ্চায়েত দপ্তর

সকালবেলা যদি খাটুনি ছাড়াই গরম হিংয়ের কচুরি, আর কলো জিরে দিয়ে গা-মাখা আলু চচ্চড়ি খাবার টেবিলে হাজির হয়? অথবা খান দু’য়েক রুটির সঙ্গে পাঁঠার মাংসের কিমা দিয়ে ঝাল ঝাল ঘুগনি?
বিশদ

রক্তচাপ, অক্সিজেন ও সুগার মাপার অ্যাপ
থেকে  সাইবার দুর্নীতি রুখতে প্রচার
বিধাননগর পুলিসের

করোনা পরিস্থিতিতে ভরসা বেড়েছে অনলাইনে। তার সঙ্গে পাল্লা দিচ্ছে প্রতারণার নিত্যনতুন ফাঁদ। সাইবার দুর্নীতির এই নয়া কৌশল রুখতে নাগরিকদের সচেতনতা বাড়াতে উদ্যোগী হল বিধাননগর পুলিস। কোভিডের হানা এড়াতে সাধারণ মানুষ এখন অনেক বেশি স্বাস্থ্য সচেতন।
বিশদ

 থমকে সোনারপুর গ্রামীণ
হাসপাতাল ঢেলে সাজার কাজ
অন্তরায় লকডাউন

 ঢেলে সাজা হচ্ছে সোনারপুর গ্রামীণ হাসপাতালকে। তবে লকডাউনের কারণে সেই কাজ থমকে রয়েছে। বিশদ

ভাঙড়ে প্রকৃতির কোলে
গড়ে উঠছে পর্যটনকেন্দ্র

কাজ চলছে জোরকদমে

বায়োডাইভার্সিটি পার্ক। ভাঙড় এক নম্বর ব্লকের চন্দনেশ্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের কাশীনাথপুর এবং মাহেশপোতি গ্রামে হবে এই পর্যটন কেন্দ্র। বিশদ

পুজোর আগেই শহরে বৃক্ষরোপণের
লক্ষ্যমাত্রা পূরণে আশাবাদী পুরসভা

উম-পুন ঝড়ে ছোট-বড় মিলিয়ে শহরে প্রায় ১৪ হাজার ৭০০টি গাছ ভেঙে পড়েছিল। ঠিক হয়, শহর জুড়ে প্রায় ৫০ হাজার গাছ লাগানো হবে। এখনও পর্যন্ত পুরসভার উদ্যান বিভাগের হাতে এসেছে ২০ থেকে ২২ হাজার নতুন গাছ। যার পুরোটাই নিম এবং দেবদারু। আরও পাঁচ-সাত হাজার গাছ আগামীদিনে মিলবে।
বিশদ

ক্ষতিপূরণ না মেলায় তাঁবুতেই রাত
কাটাচ্ছেন একই পরিবারের সাতজন

উম-পুনে নষ্ট হয়ে গিয়েছে মাটির বাড়ি। মাথা বাঁচাতে সম্বল ১০ ফুট বাই ১২ ফুটের একটি ত্রিপল। তার নীচেই ছয় সদস্যকে নিয়ে দিন কাটাচ্ছেন দিনমজুর কচোবুদ্দিন। বিশদ

পুর-বাজেটের প্রস্তুতি শুরু হলেও,
আদালতের দিকে তাকিয়ে কর্তৃপক্ষ

 হাতে বাকি মাস দেড়েক। আগামী সেপ্টেম্বরেই কলকাতা পুরসভার ভোট অন অ্যাকাউন্ট-এর মেয়াদ শেষ হতে চলেছে। তার আগে নতুন বাজেটের অনুমোদন দিতে হবে।
বিশদ

শহরতলিতে পুলিস সক্রিয় হলেও
গ্রামীণে সেই ঢিলেঢালা নজরদারি

 লকডাউন কার্যকর করতে দিনভর পুলিসের কড়াকড়ি ছিল চোখে পড়ার মতো। শুধুমাত্র বারাসত পুলিস জেলায় ২৫০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বিশদ

 জুটছে একচালা প্রতিমার বরাত,
ফের প্রাণ ফিরছে কুমোরটুলিতে

করোনার জন্য থমকে গিয়েছিল কুমোরটুলির স্বাভাবিক কাজকর্ম। অন্য বছরের হিসেবে, দুর্গা পুজোর ‘কাউন্ট ডাউন’ শুরু হয়ে যাওয়ার কথা। তবু এতদিন সেই অর্থে কোনও প্রতিমা তৈরির বরাত পাচ্ছিলেন না শিল্পীরা। বিশদ

ধ্বংসস্তূপের মধ্যে দোকান
খুলতে চান ব্যবসায়ীরা
ক্ষতিপূরণ দাবি

কাছারি বাজারের কাপড়পট্টির ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন ব্যবসায়ীরা। তারপরেও সাতদিনের মধ্যে মেরামত করে আবার ব্যবসা শুরু করতে চাইছেন তাঁরা।
বিশদ

Pages: 12345

একনজরে
মাসে ১৫ হাজার টাকা ভাতা। সঙ্গে থাকা-খাওয়া ফ্রি। তবে, এই কাজের যোগ্যতার মাপকাঠি একটু অন্যরকম। শুধুমাত্র করোনা জয়ী হলেই মিলবে সুযোগ। দেশের বর্তমান পরিস্থিতিতে কাজ হারানো মানুষের সংখ্যা বিপুল। তাই এমন অফার পেয়ে কাজে যোগ দেওয়ার জন্য লাইন পড়ে যাওয়ার ...

ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জে যেসব সংস্থার শেয়ার গতকাল লেনদেন হয়েছে, সেগুলির কয়েকটির বাজার বন্ধকালীন দর। ...

অযোধ্যায় রামমন্দিরের ভূমিপুজো অনুষ্ঠানের রং লাগল সুদূর আমেরিকাতেও। সেখানকার ভারতীয় বংশোদ্ভূতরা রামমন্দিরের একটি ডিজিটাল ছবি নিয়ে ট্যাবলো সাজিয়ে রীতিমতো শহর পরিক্রমা করলেন। ...

তুফানগঞ্জ পুরসভা তহবিলের অভাবে উন্নয়নমূলক কোনও কাজ করতে পারছে না। করোনা পরিস্থিতিতে মার্চ মাসের শেষসপ্তাহে লকডাউন শুরু হতেই এই সমস্যা তৈরি হয়েছে।  ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

উচ্চবিদ্যার ক্ষেত্রে বাধার মধ্য দিয়ে অগ্রসর হতে হবে। কর্মপ্রার্থীদের ক্ষেত্রে শুভ যোগ। ব্যবসায় যুক্ত হলে ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

হিরোশিমা দিবস
১৮৬৫ - চার্লি চ্যাপলিনের মা তথা ইংরেজ অভিনেত্রী, গায়িকা ও নৃত্যশিল্পী হান্নাহ চ্যাপলিনের জন্ম
১৮৮১- পেনিসিলিনের আবিষ্কারক ফ্লেমিংয়ের জন্ম
১৯০৫- দেশবন্ধু চিত্তরঞ্জন দাস প্রকাশ করলেন বন্দে মাতরম পত্রিকা
১৯০৬ - বিপিনচন্দ্র পালের সম্পাদনায় বন্দে মাতরম্ (সংবাদপত্র) প্রথম প্রকাশিত হয়।
১৯১৪ - কলকাতা থেকে দৈনিক বসুমতী প্রথম প্রকাশিত হয়।
১৯২৫ - বিশিষ্ট স্বাধীনতা সংগ্রামী স্যার সুরেন্দ্রনাথ বন্দ্যোপাধ্যায়ের মৃত্যু
১৯৪৫-হিরোশিমায় পরমাণু বোমা ফেলল আমেরিকা



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৪.১৪ টাকা ৭৫.৮৬ টাকা
পাউন্ড ৯৬.৪৬ টাকা ৯৯.৮৭ টাকা
ইউরো ৮৭.০৪ টাকা ৯০.২০ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৫৪,৬৭০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৫১,৮৭০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৫২,৬৫০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৬৫,০৮০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৬৫,১৮০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
05th  August, 2020

দিন পঞ্জিকা

২১ শ্রাবণ ১৪২৭, বৃহস্পতিবার, ৬ আগস্ট ২০২০, তৃতীয়া ৪৭/৩৪ রাত্রি ১২/১৫। শতভিষানক্ষত্র ১৫/১১ দিবা ১১/১৮। সূর্যোদয় ৫/১৩/৪৮, সূর্যাস্ত ৬/১১/৬। অমৃতযোগ দিবা ১২/৪৮ গতে ৩/১ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ দিবা ৬/৫৭ মধ্যে পুনঃ ১০/২৪ গতে ১২/৫৯ মধ্যে। বারবেলা ২/৫৭ গতে অস্তাবধি। কালরাত্রি ১১/৪২ গতে ১/৫ মধ্যে।
২১ শ্রাবণ ১৪২৭, বৃহস্পতিবার, ৬ আগস্ট ২০২০, তৃতীয়া রাত্রি ১১/২। শতভিষানক্ষত্র দিবা ১১/২১। সূর্যোদয় ৫/১৩, সূর্যাস্ত ৬/১৪। অমৃতযোগ রাত্রি ১২/৪৭ গতে ৩/৩ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ দিবা ৭/০ মধ্যে ও ১০/২৩ গতে ১২/৫৫ মধ্যে। কালবেলা ২/৫৯ গতে ৬/১৪ মধ্যে। কালরাত্রি ১১/৪৩ গতে ১/৬ মধ্যে।
১৫ জেলহজ্জ

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
কর্ণাটকে একদিনে করোনা আক্রান্ত ৫,৬১৯ 
কর্ণাটকে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৫ হাজার ৬১৯ ...বিশদ

05-08-2020 - 08:48:12 PM

২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনায় মৃত ৬১ জন
রাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ২,৮১৬ জনের শরীরে মিলল করোনা ...বিশদ

05-08-2020 - 08:48:08 PM

মহারাষ্ট্রে একদিনে করোনা আক্রান্ত ১০,৩০৯ 
মহারাষ্ট্রে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১০ হাজার ৩০৯ ...বিশদ

05-08-2020 - 08:35:32 PM

নয়াদিল্লিতে আজ করোনায় আক্রান্ত আরও ১০৭৬  
নয়াদিল্লিতে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ১০৭৬ জন করোনা ...বিশদ

05-08-2020 - 07:03:13 PM

করোনা:কেরলে নতুন করে আক্রান্ত আরও ১১৯৫ 
কেরলে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে আরও ১১৯৫ জনের শরীরে ...বিশদ

05-08-2020 - 06:56:34 PM

করোনা: কোন কোন দেশ বেশি আক্রান্ত? 
করোনায় আক্রান্তের বিচারে তালিকায় শীর্ষে রয়েছে আমেরিকা। এদেশে করোনায় আক্রান্ত ...বিশদ

05-08-2020 - 03:36:02 PM