Bartaman Patrika
কলকাতা
 
 

 দর্শকহীন চিড়িয়াখানায় আপন খেয়ালে একটি সম্বর হরিণ। মঙ্গলবার আলিপুর চিড়িয়াখানায় তোলা নিজস্ব চিত্র।

জমে উঠেছে ‘মিনি গঙ্গাসাগর মেলা’
বাবুঘাটেই প্রণামীর রোজগারে
খুশি বহু সাধু, যাচ্ছেন না সাগরে

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বাবুঘাটের ‘মিনি গঙ্গাসাগর’ মেলা সংক্রান্তির পুণ্যস্নানের আগেই জমজমাট চেহারা নিয়েছে। পুণ্যার্থীদের ভিড় থেকে শুরু করে নাগা সহ বিভিন্ন ধরনের সাধুর সমাগমের নিরিখে সাগরদ্বীপের মেলার থেকে কোনও অংশে কম নয় বাবুঘাটের মেলা। সোমবার বিকেলে সেখানে ভিড়ের মধ্যেই এক সঙ্গীকে নিয়ে মোটরবাইকে চেপে ঘুরে বেড়াচ্ছিলেন নাগা সাধু ঈশ্বরদাস। উত্তরাখণ্ডের দুর্গম পাহাড়ে বছরের বেশির ভাগ সময় কাটানো ওই সাধুর ইচ্ছা বাইকে চেপে এবার গঙ্গাসাগর যাবেন। তবে সব নাগা সাধুর গঙ্গাসাগরে যাওয়ার ইচ্ছা নেই। সোমনাথ বাবা জানিয়ে দিলেন, এবার তিনি গঙ্গাসাগরে যাচ্ছেন না, এখানেই থাকবেন। প্রণামী হিসেবে শুধু টাকা নয়, সিগারেটেই খুশি এই নাগা সাধু। ছবি তুলে প্রণামী না পেলে চটে যাচ্ছেন নাগা সাধুরা। এক ‘ভক্ত’ ছবি তুলে চলে যাচ্ছিলেন। তাঁর সোয়েটার ধরে রীতিমতো টানাটানি শুরু করে দিলেন ভীমগিরি মহারাজ। বাবুঘাটের মেলার সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে যুক্ত এক স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার পরিচালক জানালেন, গঙ্গাসাগরে গেলে জায়গা মিলবে না এটা জানা থাকায় অনেক নাগা সাধু এখানেই থেকে যান। গায়ে ছাই মেখে, কাঠ জ্বালিয়ে বসে থেকে এখানেই প্রণামী থেকে ভালো রোজগার হয় তাঁদের।
গঙ্গাসাগরের তীর্থযাত্রীদের জন্য ট্রানজিট ক্যাম্প হিসেবে কাজ করে বাবুঘাটের এই মেলা। মূলত ভিন রাজ্য ঩থেকে আসা তীর্থযাত্রীরা সাগরদ্বীপ যাতায়াতের পথে এখানে ছুঁয়ে যান। এই শিবিরে থেকে কালীঘাট, দক্ষিণেশ্বর মন্দির, আলিপুর চিড়িয়াখানা সহ শহরের দ্রষ্টব্য স্থানগুলি ঘুরে নেন তাঁরা। সরকারি ঢালাও ব্যবস্থাপনার পাশাপাশি বহু স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন এখানে তীর্থযাত্রীদের সেবায় নেমে পড়েছে এবারও। থাকা, খাওয়ার ব্যবস্থা করার পাশাপাশি চিকিৎসার ক্যাম্প খুলেছে তারা। তীর্থযাত্রীদের জন্য কম্বল প্রভৃতি বিলিও করে চলেছে।
দুপুর পার হয়ে বিকেল গড়াল। তখনও স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনগুলির ক্যাম্পের সামনে খাওয়া দাওয়ার জন্য তীর্থযাত্রীদের লম্বা লাইন। বহু ক্যাম্পে খাওয়ার ব্যবস্থা হয়েছে। সেসব জায়গায় মেনুও বেশ ভালো। ভাত, ডাল, সব্জির সঙ্গে পুরী, পায়েস, জিলিপি প্রভৃতি থাকছে। কোথাও ম্যাটাডর ভ্যানে রুটি বানানোর যন্ত্র বসিয়ে তৈরি করা গরম গরম রুটি। লাইনে দাঁড়ানো তীর্থযাত্রীদের হাতে রুটি, সব্জি, মিষ্টি তুলে দেওয়া হচ্ছে। কোথাও আবার চা খাওয়ার জন্য লম্বা লাইন পড়েছে।
বাবুঘাটের মিনি গঙ্গাসাগর মেলাকেও প্লাস্টিক মুক্ত করার ডাক দিয়েছে প্রশাসন। তার প্রচার চলছে পুরো চত্বর জুড়ে। সেই ডাকে সাড়া দিয়ে প্রায় সব খাওয়ার শিবিরে শালপাতার থালা ব্যবহার করা হচ্ছে। কোথাও কোথাও স্টিলের থালাতেও খেতে দেওয়া হয়েছে। চা দেওয়া হচ্ছে কাগজের কাপে। প্ল্যাস্টিক বোতল নষ্ট করার জন্য মেলার মধ্যে বিশেষ যন্ত্র বসিয়েছে জনস্বাস্থ্য কারিগরি দপ্তর। দুই লিটার পর্যন্ত জলের বোতল ওই যন্ত্রের মধ্যে ঢুকিয়ে দিলে প্লাস্টিক গুঁড়ো হয়ে নীচে পড়ে যাবে। ওই গুঁড়ো প্ল্যাস্টিক পুনরায় ব্যবহার করা যাবে। কিন্ত ওই যন্ত্রের সামনে বিশেষ ভিড় নেই। যন্ত্রের তলায় যে পরিমাণ প্ল্যাস্টিকের গুঁড়ো পড়ে আছে তাতে বোঝাই যাচ্ছে যন্ত্রের ব্যবহার খুব বেশি হচ্ছে না।
বাবুঘাটের মেলার চত্বর পরিচ্ছন্ন রাখার উপর বিশেষ নজর রাখছে কলকাতা পুরসভা। জঞ্জাল সংগ্রহের জন্য পুরসভার ছোট ছোট গাড়ি ঘুরে বেড়াচ্ছে মেলা চত্বরে। তীর্থযাত্রীদের জন্য শৌচাগারের বেশ কয়েকটি ব্লক তৈরি করা হয়েছে। শৌচাগার পরিচ্ছন্ন রাখার ব্যবস্থাও রাখা হয়েছে। স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতিতে বর্জ্য পদার্থ অপসারণের পুরসভার মেশিন কাজ করছে এখানে।
দলে দলে তীর্থযাত্রীরা আসছেন। আবার রওনা হয়ে যাচ্ছেন সাগরের উদ্দেশ্য। মধ্যপ্রদেশের পান্নার বাসিন্দা রঘুবীর যাদব এসেছেন ৬০ জনের দলের সঙ্গে। ইচ্ছা গঙ্গাসাগর সেরে যাবেন পুরীতে জগন্নাথ দর্শনে। বাবুঘাটে থাকার ফাঁকে কালীঘাট মন্দির দর্শনও হয়ে গিয়েছে তাঁর।

14th  January, 2020
পুলিসি নজরদারি থাকলেও হটস্পটে
নাগরিকদের ‘ডোন্ট কেয়ার’ মনোভাব

অর্ক দে, কলকাতা: করোনা দোরগোড়ায় কড়া নাড়ছে। অথচ নিয়মবিধি মানার বালাই নেই শহরের বেশিরভাগ এলাকায়। এমনকী যে এলাকাগুলি হটস্পট বলে চিহ্নিত, সেখানেও একই অবস্থা। পুলিসের গাড়ি দেখলে তবেই পাতলা হচ্ছে ভিড়। এ যেন চোর-পুলিস খেলা।
বিশদ

সন্ধ্যা নামলেই কলকাতামুখী
বাস অমিল, দুর্ভোগে যাত্রীরা
উঠছে বাড়তি ভাড়ার অভিযোগও

নিজস্ব প্রতিনিধি, বারাকপুর: কথায় রয়েছে, ‘ঝোপ বুঝে কোপ’। আর সেটাই হচ্ছে এখন বারাকপুর মহকুমার একাধিক জায়গায়। রাস্তায় নেই পর্যাপ্ত বাস। রাজ্য প্রশাসন এবং বাস মালিকরা নিজেদের মধ্যে আলোচনা চালিয়ে গেলেও রফাসূত্র তেমনভাবে বের হয়নি। এই অবস্থায় উত্তর শহরতলির বারাকপুর থেকে বি টি রোড হয়ে ডানলপ বা শ্যামবাজারমুখী বাসগুলিতে বাড়তি ভাড়া চাওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ করছেন যাত্রীদের অনেকেই।
বিশদ

 শহরে আলোকায়নের জন্য ৩০
কোটির মেগা প্রকল্প পুরসভার
মেরামত হবে ঝড়ে ভেঙে পড়া সব বাতিস্তম্ভ

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কোথাও বড় রাস্তা, কোথাও আবার অলিগলি। উম-পুনের সময়ে শহরের বিভিন্ন অংশে ভেঙে পড়েছিল বাতিস্তম্ভ। গাছ পড়ে, তারের জটে জড়িয়ে দুমড়ে গিয়েছে সেগুলি। ত্রিফলা থেকে শুরু করে এলইডি ল্যাম্পপোস্ট কোনও কিছুই বাদ যায়নি ঘূর্ণিঝড়ের হাত থেকে।
বিশদ

 বাড়িতে করোনা পজিটিভ, আবর্জনা
নিতে গড়িমসি পুর-সাফাই কর্মীদের
ফোনে জেরবার ওয়ার্ড কো-অর্ডিনেটররা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ‘দিন সাতেক হল বাড়িতে আবর্জনা নিতে আসছে না পুরসভার সাফাই কর্মীরা। দুর্গন্ধে ভরে গিয়েছে গোটা বাড়ি। রুম ফ্রেশনার ছড়িয়েও কাজ হচ্ছে না।’ এক নিঃশ্বাসে কথাগুলি বললেন বেহালার ডায়মন্ড সিটিতে কোয়ারেন্টাইনে থাকা এক কোভিড আক্রান্তের পরিজন।
বিশদ

মায়ের মৃত্যুশোকে একই
রাতে আত্মঘাতী ছেলেও
চেকে মিটিয়ে গেলেন ঋণও

অভিজিৎ চৌধুরী, চুঁচুড়া: বাবা মারা যাওয়ার পরে মা-কে নিয়ে গ্রামে থাকবেন বলে উত্তরপাড়া থেকে বলাগড়ে এসেছিলেন ছেলে। সেখানে অনেক টাকা দিয়ে বাড়ি কিনলেও মা-ছেলে থাকতেন সন্ন্যাসীর মতোই।
বিশদ

 শুক্র ও সোমবার দুই ২৪ পরগনার
প্রশাসনিক বৈঠক করবেন মুখ্যমন্ত্রী

 নিজস্ব প্রতিনিধি, বারাসত ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা: করোনা ও উম-পুনের জোড়া ফলায় বিপর্যস্ত বাংলার উন্নয়নকে ত্বরান্বিত করতে জেলাভিত্তিক প্রশাসনিক বৈঠকের কর্মসূচি নিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আগামী শুক্র ও সোমবার তিনি দুই ২৪ পরগনা জেলার প্রশাসনিক প্রধান ও জনপ্রতিনিধিদের নিয়ে বৈঠক করবেন।
বিশদ

দেখভালের লোক নেই, হাওড়ার বেহাল
বাসস্ট্যান্ডগুলি এখন কুকুরের আশ্রয়স্থল

  নিজস্ব প্রতিনিধি, হাওড়া: হাওড়া শহরের সিংহভাগ বাসস্ট্যান্ডের অবস্থা খারাপ। সাংসদের এলাকা উন্নয়ন তহবিলের টাকায় এই বাসস্ট্যান্ডগুলি কোনওটা এক বছর, কোনওটা বছর তিনেক আগে তৈরি হয়েছিল। দীর্ঘদিন রক্ষণাবেক্ষণ ও নজরদারির অভাবে সেগুলির অবস্থা তথৈবচ।
বিশদ

উত্তর ২৪ পরগনার ৮টি
পুরসভার জন্য অর্থ বরাদ্দ

নিজস্ব প্রতিনিধি, বারাসত: দীর্ঘ লকডাউন ও করোনা পরিস্থিতির জেরে আর্থিকভাবে পঙ্গু হয়ে পড়েছিল বারাসত, বনগাঁ ও বসিরহাট মহকুমার বিভিন্ন পুরসভা। কিন্তু চতুর্দশ কমিশনের আর্থিক বরাদ্দ আসার খবরে খুশির হাওয়া বইছে তিন মহকুমার আটটি পুরসভা এলাকায়।
বিশদ

বিপর্যয় কাটিয়ে ফের সবুজ
হচ্ছে ভবানীপুর নর্দান পার্ক
তৈরি ওপেন জিম

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: চারিদিক সবুজে সবুজে ছয়লাপ। তাও শহরের কংক্রিটের জঙ্গলের মাঝে। পুনর্ণবীকরণের পর কলকাতা পুরসভার ৭০ নম্বর ওয়ার্ডের ভবানীপুর এলাকার নর্দান পার্ক সেজে উঠেছে এক নয়া আঙ্গিকে। এক পলকে দেখে বোঝার উপায় নেই, মাত্র মাসখানেক আগেই উম-পুনের মতো ভয়ানক প্রাকৃতিক বিপর্যয় ঘটেছে এই পার্ক তথা শহর কলকাতায়। লকডাউনের কারণে সাধারণ মানুষের জন্য পার্কের দরজা বন্ধ।
বিশদ

আলিপুর বডিগার্ডের গাড়িগুলি
সরিয়ে পিটিএসে রাখার ভাবনা
জল জমার জের

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ফি বছর বর্ষায় আলিপুর বডিগার্ডে ভাসছে গাড়ি। নষ্ট হচ্ছে গাড়ির যন্ত্রাংশ। রাস্তায় নিয়ে বেরোনোর পর অনেক গাড়ি বিগড়ে যাচ্ছে। এই অবস্থায় কলকাতা পুলিসের ওয়্যারলেস বিভাগের গাড়িগুলি পুলিস ট্রেনিং স্কুলে (পিটিএস) এনে রাখার ব্যাপারে চিন্তাভাবনা শুরু হয়েছে।
বিশদ

উম-পুনে তছনছ
পিকনিকের স্পট,
বিপুল ক্ষতির মুখে ২ পুরসভা

সায়ন্ত ভট্টাচার্য, বরানগর: উম-পুনের ধাক্কায় বড়সড় অঙ্কের রাজস্ব খোয়াতে চলেছে উত্তর শহরতলির বরানগর এবং কামারহাটি পুরসভা। স্বাভাবিকভাবেই যা উদ্বেগের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে দু’টি পুর প্রশাসনের কাছে।
বিশদ

বারাসত শহরে কোনও যাত্রী শেডই
নেই, রাস্তায় দাঁড়িয়ে ধরতে হয় বাস

নিজস্ব প্রতিনিধি, বারাসত: বারাসত শহরের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ রাস্তায় কোনও যাত্রী প্রতীক্ষালয় নেই। বাস বা অটো ধরার জন্য ফুটপাত কিংবা দোকানের সামনে রোদজল মাথায় নিয়ে অপেক্ষা করতে হয় নিত্যযাত্রীদের। বর্ষা ও গরমের সময় কার্যত নাভিশ্বাস ওঠে।
বিশদ

বছরভর জলমগ্ন থাকে
সাঁতরাগাছি আন্ডারপাস

নিজস্ব প্রতিনিধি, হাওড়া: বর্ষায় হাওড়া শহরের বিভিন্ন জায়গা জলমগ্ন হয়েই থাকে। কিন্তু শীত-গ্রীষ্ম-বসন্ত— বছরের প্রায় সব ঋতুতেই জলমগ্ন থাকে সাঁতরাগাছি আন্ডারপাস। স্টেশন থেকে বাস, ট্যাক্সি ধরার জন্য কোনা এক্সপ্রেসওয়ের ক্যাব রোডে আসতে গেলে এই আন্ডারপাস পেরতেই হবে।
বিশদ

উৎসেই বর্জ্যের পৃথকীকরণের
উদ্যোগ, নজরে কয়েকটি ওয়ার্ড
হাওড়া পুরসভা

নিজস্ব প্রতিনিধি, হাওড়া: ‘ক্লিন হাওড়া গ্রিন হাওড়া’ প্রকল্প গ্রহণ করে প্লাস্টিক বর্জ্যকে তার উৎসেই (গৃহস্থের বাড়িতেই) পৃথক করার পরিকল্পনা করেছিল হাওড়া পুরসভা। লকডাউন শুরু হওয়ার আগে হাওড়ার ২২ নম্বর ওয়ার্ডে এর পাইলট প্রজেক্টের কাজ চলছিল। তা অনেকটাই সাফল্যের মুখ দেখায় ও সেখানকার বাসিন্দারা এ বিষয়ে উৎসাহ দেখানোয় আরও কয়েকটি ওয়ার্ডে তা চালু করার পরিকল্পনা ছিল পুরসভার।
বিশদ

Pages: 12345

একনজরে
শ্রীনগর (পিটিআই): পুলওয়ামায় ফের সেনা-জঙ্গি গুলির লড়াই। জখম নিরাপত্তা বাহিনীর তিন সদস্য। মঙ্গলবার সকাল থেকে শুরু হওয়া ওই সংঘর্ষে এক জঙ্গি খতম হয়েছে বলে পুলিস ...

  ওয়াশিংটন: সামরিক ও অর্থনৈতিক। দু’দিক দিয়েই চীনকে চাপে রাখার কৌশল নিচ্ছে আমেরিকা। লাদাখ ও দক্ষিণ চীন সাগরে চীনের অবস্থানের কড়া বিরোধিতা করেই এবার আর ...

  নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কোম্পানির ডিবেঞ্চার কিনলে মোটা অর্থ ফেরতের প্রতিশ্রুতি দিয়ে বাজার থেকে টাকা তোলার অভিযোগ উঠল একটি চিটফান্ড সংস্থার বিরুদ্ধে। বেনিয়াপুকুর থানাতে এই নিয়ে লিখিত অভিযোগ হয়েছে। ...

 নিজস্ব প্রতিনিধি,কলকাতা: দু’বারের আই লিগ জয়ী নাইজেরিয়ান ডিফেন্ডার কিংসলেকে সই করালো মহমেডান স্পোর্টিং। মঙ্গলবার দুপুরে ক্লাব তাঁবুতে এক সাংবাদিক সম্মেলনে কিংসলে বলেন, ‘মহমেডান স্পোর্টিং আমাকে সম্মানজনক অফার দিয়েছে। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

কর্মক্ষেত্রে অতিরিক্ত পরিশ্রমে শারীরিক ও মানসিক কষ্ট। দূর ভ্রমণের সুযোগ। অর্থপ্রাপ্তির যোগ। যেকোনও শুভকর্মের বাধাবিঘ্ন ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯১৪: পশ্চিমবঙ্গের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জ্যোতি বসুর জন্ম
১৯৫৮: অভিনেত্রী নীতু সিংয়ের জন্ম
১৯৭২: ক্রিকেটার সৌরভ গাঙ্গুলির জন্ম
২০০১: বাঙালি কথাসাহিত্যিক অমিয়ভূষণ মজুমদারের মৃত্যু
২০০৩: কবি সুভাষ মুখোপাধ্যায়ের মূত্যু
২০০৬: দীর্ঘ ৪৪ বছর বন্ধ থাকার পর নাথুলা পাস সীমান্তপথটি ভারত চীনের সাথে বাণিজ্যের উদ্দেশ্যে খুলে দেয়।



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭২.৮৯ টাকা ৭৬.৫৭ টাকা
পাউন্ড ৯১.০১ টাকা ৯৫.৮৯ টাকা
ইউরো ৮২.৩৪ টাকা ৮৬.৭৫ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪৯,১০০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৬,৫৮০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪৭,২৮০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৯,২৭০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৯,৩৭০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

২৪ আষাঢ় ১৪২৭, ৮ জুলাই ২০২০, বুধবার, তৃতীয়া ১০/৪৩ দিবা ৯/১৯। ধনিষ্ঠা ৫০/৩৪ রাত্রি ১/১৫৷ সূর্যোদয় ৫/১/৫৬, সূর্যাস্ত ৬/২১/১২৷ অমৃতযোগ দিবা ৭/৪২ গতে ১১/১৪ মধ্যে পুনঃ ১/৫৪ গতে ৫/২৭ মধ্যে, রাত্রি ৯/৫৫ মধ্যে পুনঃ ১২/৩ গতে ১/২৮ মধ্যে। বারবেলা ৮/২২ গতে ১০/২ মধ্যে পুনঃ ১১/৪২ গতে ১/২১ মধ্যে। কালরাত্রি ২/২২ গতে ৩/৪২ মধ্যে।
২৩ আষাঢ় ১৪২৭, ৮ জুলাই ২০২০, বুধবার, তৃতীয়া দিবা ৯/২৫। ধনিষ্ঠা নক্ষত্র রাত্রি ২/৭। সূযোদয় ৫/২, সূর্যাস্ত ৬/২৩। অমৃতযোগ দিবা ৭/৪৩ গতে ১১/১৬ মধ্যে ও ১/৫৬ গতে ৫/২৮ মধ্যে এবং রাত্রি ৯/৫৬ মধ্যে ১২/৪ গতে ১/৩০ মধ্যে। কালবেলা ৮/২২ গতে ১০/২ মধ্যে ও ১১/৪২ গতে ১/২৩ মধ্যে। কালরাত্রি ২/২২ গতে ৩/৪২ মধ্যে।
১৬ জেল্কদ

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
গুড়াপে আদিবাসী ছাত্রীকে গণধর্ষণ
এক আদিবাসী ছাত্রীকে গণধর্ষণের ঘটনা ঘটল হুগলির গুড়াপে। গতকাল ...বিশদ

02:16:19 PM

কোচবিহারে আগ্নেয়াস্ত্র সহ ধৃত ৩
কোচবিহারে আগ্নেয়াস্ত্র সহ ৩ জনকে আটক করল কোতোয়ালি থানার পুলিস। ...বিশদ

01:45:49 PM

১১৬ দিন পর শুরু হচ্ছে ক্রিকেট, একনজরে পরিবর্তিত নিয়মাবলী 
দুই দলের দুই অধিনায়ক বেন স্টোকস এবং জেসন হোল্ডার ম্যাচ ...বিশদ

12:43:00 PM

পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন থাকলে করোনাকে আপনাকে ছুঁতে পারবে না: মমতা 

12:36:02 PM

করোনা নিয়ে ভয়ের কিছু নেই: মমতা 

12:32:45 PM

করোনা রুখতে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখুন: মমতা 

12:31:47 PM