Bartaman Patrika
কলকাতা
 

দিল্লির সঙ্গে পাল্লা দিয়ে কলকাতাতেও
বাড়ছে দূষণ, ভুগছে শিশু সহ বড়রাও

'নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: দূষণের অপবাদে দিল্লি এখন খবরের শিরোনামে। কিন্তু কলকাতাও তেমন পিছিয়ে নেই। শীতের দোরগোড়ায় শহরে এমন এক-একটি দিন আসছে, যেখানে দূষণ ছাপিয়ে যাচ্ছে অন্যান্য শহরকে। দেশি বিদেশি নানা গবেষণা বুঝিয়ে দিচ্ছে, মারণরোগ টেনে আনতে দূষণে পিছিয়ে নেই কলকাতা তথা রাজ্য। আর তা থেকে যে হরেক সমস্যা শরীরে দানা বাঁধছে, তাতেও কোনও সন্দেহ নেই। চিকিৎসকরাও তা নিয়ে যথেষ্ট শঙ্কিত। দূষণ এড়িয়ে ভালো থাকাও যে একপ্রকার কষ্টকল্পনা, তাও মানছেন তাঁরা।
শ্বাসজনিত সমস্যায় এখন সবচেয়ে বেশি ভুগছে শিশুরা। বিশিষ্ট শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ ডাঃ অপূর্ব ঘোষের কথায়, বাচ্চাদের ক্ষেত্রে দূষণের প্রভাব স্লো পয়জন বা ধীরে ধীরে বিষক্রিয়ার মতো। রাতারাতি তা সমস্যা তৈরি করে না। কিন্তু দীর্ঘমেয়াদি সমস্যা সৃষ্টি করে। শিশুদের শ্বাসকষ্টজনিত রোগ অস্বাভাবিকভাবে বেড়ে গিয়েছে। পাশাপাশি ভিটামিন ডি-এর সমস্যাও বেড়েছে পাল্লা দিয়ে। ফলে রিকেট বা হাড়ের সমস্যায় ভুগছে বেশিরভাগ শিশু। পরীক্ষা করলে দেখা যাচ্ছে, অধিকাংশ শিশুরই শরীরে ভিটামিন ডি-এর ঘাটতি আছে। প্রশ্ন হল, দূষণের সঙ্গে ভিটামিন ডি-এর সম্পর্ক কী? অপূর্ববাবুর বক্তব্য, ভিটামিন ডি পাওয়া যায় সূর্যালোক থেকে। কিন্তু দূষণের বাড়াবাড়িতে যথেষ্ট সূর্যালোক থেকে বঞ্চিত হচ্ছে শিশুরা। সূর্যের আলোর অভাবে সমস্যা বাড়ছে শিশুদের পাশাপাশি বড়দেরও। অনেকেই দূষণ আটকাতে মাস্ক ব্যবহার করেন। কিন্তু তা মানসিক শান্তি ছাড়া বড় কোনও সমাধান করে বলে মানেন না অপূর্ববাবু। তাঁর কথায়, এতে ক্ষুদ্র দূষণকণা এড়ানো যায় না। তাই সেই অর্থে দূষণ থেকে বাঁচার উপায় নেই। আসলে আমাদের দেশে দূষণ নিয়ে কিছু সদর্থক উদ্যোগ নেওয়া কঠিন, এমনটাই মনে করছেন অপূর্ববাবু। তাঁর কথায়, প্রতিটি স্তরে যেভাবে রাজনীতি জড়িয়ে যাচ্ছে, তাতে দূষণের সঙ্গে মোকাবিলা করা কতটা সম্ভব, তা নিয়ে প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে। সম্প্রতি রবীন্দ্র সরোবরের দূষণ নিয়ে যেভাবে রাজনীতি হয়েছে, তা একজন নাগরিক হিসেবে অত্যন্ত বেদনাদায়ক, উপলব্ধি অপূর্ববাবুর। তাঁর কথায়, কেন্দ্র ও রাজ্য যতক্ষণ না রাজনীতি দূরে রেখে দূষণ নিয়ে পদক্ষেপ করবে, ততক্ষণ সাধারণ মানুষের নিস্তার নেই।
বিশিষ্ট পালমোনোলজিস্ট ডাঃ সুস্মিতা রায়চৌধুরীর কথায়, কলকাতা থেকে যাঁরা বাইরে বেড়াতে যান, তাঁরা ফিরে এসে বুঝতে পারেন, চোখ জ্বালা করছে। হাত-পা চটচট করছে, অস্বস্তি হচ্ছে। এসবই দূষণের লক্ষণ। কলকাতা শহরেই ব্রিজের উপর দাঁড়ালে বোঝা যায়, দূষণের মাত্রা কী ভয়ঙ্কর। চারদিকের বাতাসে যেন কালচে বা বাদামি ভাব। আসলে এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্স নিয়ে আগে কোনও আলোচনা বা মাতামাতি ছিল না। এখন দূষণের প্রকোপে মানুষ তা নিয়ে চিন্তাভাবনা করছে। ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা থেকে দেখছি, আউটডোরে শ্বাসকষ্টজনিত অসুখের সমস্যা অত্যধিক বেড়ে গিয়েছে। বিশেষত সারাবছর ধরে কাশি ও কালো কফে নাজেহাল হচ্ছেন মানুষ। ব্রঙ্কাইটিসের সমস্যা বাড়ছে। তাহলে উপায়? সুস্মিতাদেবীর কথায়, আমরা যদি ব্যক্তিগতভাবে কিছুটা সচেতন হই, তাহলে খানিকটা সমস্যা এড়ানো যায়। বাড়িতে অহেতুক কোনও জ্বালানির ঝামেলা না বাড়ানোই ভালো। মশা মারার ধূপ খুব প্রয়োজন না হলে জ্বালাবেন না। শীতকালে উষ্ণতা বাড়াতে অনেক জায়গায় টায়ার পোড়ানো হয়। এই মারাত্মক কাজটি বন্ধ করুন বা এড়িয়ে চলুন। কাঠকয়লা বা সমগোত্রীয় জ্বালানি একেবারে বর্জন করুন। রাস্তাঘাটে কোনও দোকানে তার ব্যবহার হলে, সেই এলাকা পরিত্যাগ করুন।
হোমিওপ্যাথির জাতীয় প্রতিষ্ঠান সল্টলেকের ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব হোমিওপ্যাথির অধিকর্তা ডাঃ সুভাষ সিং বলেন, এখানে দূষণ তো মানুষের তৈরি বিপর্যয়। আমরা যত গাছ কাটছি, তত গাছ লাগাচ্ছি কি? জলে যে দূষণ হচ্ছে, তাকে আটকাতে আমরা কী কী ব্যবস্থা নিচ্ছি? যাঁরা সিওপিডি, হাঁপানি বা ফুসফুসের সমস্যায় ভোগেন, দূষণের বাড়াবাড়িতে তাঁরা আরও কাবু হয়ে পড়ছেন। আর যাঁদের সেই সমস্যা নেই, তাঁরাও সেই সব রোগে আক্রান্ত হচ্ছেন। হোমিওপ্যাথিতে শ্বাস সংক্রান্ত অসুখ আটকাতে টিউবারকিউলিনাম নামে একটি ওষুধ দারুণ কাজ দেয় আদর্শ পরিস্থিতিতে। কিন্তু আদর্শ পরিস্থিতি আর আমরা পাচ্ছি কই? মানুষ ও ওষুধ, এই দু’য়ের মধ্যে পাঁচিল তুলে দিয়েছে দূষণ। এমনকী দূষণের কারণে শিশুদেরও এমন সমস্যা দেখতে পাচ্ছি, যা এই বয়েসে হওয়ার কথাই নয়। শহরাঞ্চল থেকে এমন বহু মানুষ আমাদের কাছে আসেন, যাঁদের সমস্যাগুলি এমন, যা সাধারণত জুটমিলের কর্মী, অ্যাসবেস্টস কারখানা বা খনি এলাকার কর্মীদের হয়ে থাকে। অর্থাৎ পরিস্থিতি যে কতটা ভয়ঙ্কর, তা এর থেকেই বোঝা যায়।

08th  November, 2019
দিল্লি-গাজিয়াবাদ সীমানা সিল, যানজট 

গাজিয়াবাদ, ২৬ মে: ফের করোনা সংক্রমণ বাড়তে শুরু করেছে। তাই সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসেবে দিল্লি-গাজিয়াবাদ সীমানা সিল করে দিয়েছে উত্তরপ্রদেশ প্রশাসন। এর ফলে মঙ্গলবার সকাল থেকেই তীব্র যানজট শুরু হয়।  বিশদ

চীন আগ্রাসন বাড়াচ্ছে, তিন
সেনাপ্রধানকে নিয়ে বৈঠক প্রধানমন্ত্রীর 

সমৃদ্ধ দত্ত, নয়াদিল্লি, ২৬ মে: ভারত-চীনের ঠান্ডা লড়াই ক্রমশ তীব্র আকার নিচ্ছে। পরিস্থিতি এতটাই উদ্বেগজনক যে, বেজিংয়ের আগ্রাসন রুখতে আজ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তিন বাহিনীর প্রধানের সঙ্গে জরুরি বৈঠক করেন।   বিশদ

১৫টি জায়গায় নিশ্চিহ্ন নদীর বাঁধ,
মেরামতির কাজ শুরুই করা যায়নি 

নিজস্ব প্রতিনিধি,বারাসত: বসিরহাট মহকুমার১৫টি জায়গায় নিশ্চিহ্ন হয়ে যাওয়া নদীবাঁধ মেরামতির কাজ এখনও শুরু করতে পারেনি সেচ দপ্তর। ফলে বহু গ্রামে অবাধে জোয়ার-ভাটার জল বইছে। একাধিক জায়গায় গ্রামবাসীদের বাঁধ তৈরির চেষ্টা জোয়ারের জলে ভেসে গিয়েছে।  বিশদ

কর্মহীন পর্বে গাছ কাটার বরাত পেয়ে খুশি কাঠুরেরা 

সংবাদদাতা, উলুবেড়িয়া: এ যেন উলটপুরাণ। ঘূর্ণিঝড় উম-পুনের তাণ্ডবের মাঝেও নতুন করে বাঁচার পথ দেখছে কাঠুরেরা। লকডাউনে কাজ হারিয়ে যখন প্রায় দেওয়ালে পিঠ ঠেকেছিল এইসব মানুষের, তখন আচমকা ঘূর্ণিঝড়ে পড়ে যাওয়া গাছই তাঁদের পরিবারে স্বস্তি এনে দিল।   বিশদ

চালক অমিল, তবুও লালা রস পরীক্ষার
ভ্রাম্যমান গাড়ি বাড়াতে তৎপর পুরসভা 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ভ্রাম্যমান সোয়াব টেস্ট বা লালা রসের নমুনা পরীক্ষার জন্য নতুন ১৪টি অ্যাম্বুলেন্স নামানোর পরিকল্পনা করেছে কলকাতা পুরসভা। বর্তমানে কাজ করছে ৬টি অ্যাম্বুলেন্স। কিন্তু, নতুন অ্যাম্বুলেন্সের চালক অমিল।   বিশদ

ঝড়ের তাণ্ডবে কল্যাণী ও বিধানচন্দ্র কৃষি
বিশ্ববিদ্যালয়ে লক্ষ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি 

নিজস্ব প্রতিনিধি, বারাকপুর: উম-পুনের তাণ্ডবে কল্যাণী বিশ্ববিদ্যালয় ও বিধানচন্দ্র কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে লক্ষ লক্ষ টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। কল্যাণী বিশ্ববিদ্যালয়ে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ৩০লক্ষ টাকা।   বিশদ

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সব ক্যাম্পাস
মিলিয়ে কমপক্ষে ৩ কোটি টাকার ক্ষতি 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ঘূর্ণিঝড়ের তাণ্ডবে লণ্ডভণ্ড কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন ক্যাম্পাস। কর্তাদের অনুমান, সব মিলিয়ে অন্তত তিন কোটি টাকার সম্পত্তি নষ্ট হয়েছে। পুঙ্খানুপুঙ্খ হিসেব পেলে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ আরও বাড়তে পারে।   বিশদ

কেরোসিনের দাম বেশি, তারকেশ্বরে
ডিলারকে ঘিরে বিক্ষোভ বাসিন্দাদের 

সংবাদদাতা তারকেশ্বর: কেরোসিন তেলের দাম বেশি নেওয়ায় মঙ্গলবার সকালে তারকেশ্বর থানার চাঁপাডাঙা মিদ্যাপাড়ায় ডিলারকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখালেন গ্রাহকরা। অভিযোগ, ডিলার অতনু মণ্ডল তেলের লিটার প্রতি দাম ১৬ টাকা১০ পয়সার পরিবর্তে ১৮টাকা নিচ্ছেন।  বিশদ

হাওড়ায় আজ থেকে জল মিলবে
আগের মতোই, জানাল পুরসভা 

নিজস্ব প্রতিনিধি, হাওড়া: হাওড়া পুরসভার পদ্মপুকুর জলপ্রকল্পের সবক’টি পাম্পই মেরামতির পর কাজ শুরু করেছে। ফলে আজ, বুধবার থেকে আর পাঁচটা স্বাভাবিক দিনের মতো যথা সময়ে মিলবে পানীয় জল।   বিশদ

নৈহাটির বিস্ফোরণের ক্ষত উম-পুন
ঝড়ের তাণ্ডবে হয়েছে দগদগে 

অভিজিৎ চৌধুরী, চুঁচুড়া: এবছরের জানুয়ারিতে নৈহাটির বোমা বিস্ফোরণ কার্যত ভূকম্প হয়ে আছড়ে পড়েছিল চুঁচুড়া পুরসভার গঙ্গাতীরবর্তী এলাকায়। ক্ষতির মুখে পড়েছিলেন বহু মানুষ। যাঁদের মধ্যে দরিদ্র মানুষ ছিলেন অনেক।  বিশদ

যোগাযোগের অভাবে বহু স্কুল
থেকে ক্ষতির হিসেব আসেনি 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: চূড়ান্ত সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয়েছিল শনিবার। কিন্তু বিদ্যুৎ, টেলিযোগাযোগ এবং ইন্টারনেট পরিষেবা বসে যাওয়ায় মঙ্গলবার পর্যন্ত উম-পুনে ক্ষয়ক্ষতির হিসেব দিতে পারেনি বহু স্কুলই।   বিশদ

লকডাউনে একগুচ্ছ পদক্ষেপ
পূর্ব এবং দক্ষিণ-পূর্ব রেলের 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: লকডাউনে একগুচ্ছ পদক্ষেপ নিয়েছে পূর্ব ও দক্ষিণ-পূর্ব রেল। পূর্ব রেল জানিয়েছে, নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের জোগান যাতে ব্যাহত না-হয়, তার জন্য যেমন পণ্যবাহী ট্রেন চালানো হয়েছে, তেমনই আসছে শ্রমিক স্পেশাল ট্রেনও।   বিশদ

বাড়িতে ফেরা শ্রমিকদের প্রতি
নজর রাখছে জেলা প্রশাসন 

সংবাদদাতা, উলুবেড়িয়া: ভিনরাজ্য থেকে ফেরা পরিযায়ী শ্রমিকদের স্বাস্থ্যের প্রতি বিশেষ নজর দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল প্রশাসন। সূত্রের খবর, বিশেষ করে মহারাষ্ট্র, গুজরাট থেকে আসা পরিযায়ী শ্রমিকদের দিকে বাড়তি লক্ষ্য রাখা হবে।  বিশদ

ওষুধে ছাড় বন্ধ বহু দোকানে,
প্রবল ক্ষুব্ধ রোগীর পরিজনরা 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কলকাতা সহ রাজ্যের বহু দোকানে ওষুধের দামের উপর ছাড় বন্ধ হয়ে গিয়েছে। ফলে ক্ষোভ বাড়ছে রোগী এবং তাঁদের পরিজনদের। বিশেষত যাঁরা চাল, ডাল, আটা, নুন, তেলের মতো মাসকাবারি ওষুধও কেনেন, তাঁদের রীতিমতো গায়ে লাগছে বিষয়টি।   বিশদ

Pages: 12345

একনজরে
নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: পরিযায়ী শ্রমিকদের বাড়ি ফেরার সমস্যা দূর করতে কেন্দ্রীয় সরকার একটি বিশেষ অনলাইন প্ল্যাটফর্ম তৈরি করেছিল। আগামী দিনে এই প্ল্যাটফর্মের তথ্যকে বিভিন্ন বিষয়ে কাজে লাগিয়ে পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য একটি জাতীয় নীতি তৈরি করার পথে এগচ্ছে কেন্দ্রীয় শ্রম মন্ত্রক। ...

সংবাদদাতা, গাজোল: লকডাউনের মধ্যে অনেক দিন আগেই বেকারির দোকানগুলিতে অত্যাশবশ্যা কীয় পণ্য হিসাবে নির্দিষ্ট সময় বেঁধে শুধুমাত্র পাউরুটি ও বিস্কুট বিক্রি করার অনুমতি মিলেছে।   ...

চণ্ডীগড়, ২৬ মে: পূর্ণ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় শেষকৃত্য সম্পন্ন হল তিনবারের ওলিম্পিক সোনাজয়ী ভারতীয় হকির কিংবদন্তি বলবীর সিং সিনিয়রের। তাঁর প্রয়াণের শোক এখনও রয়েছে ভারতীয় ক্রীড়ামহলে। ...

নয়াদিল্লি, ২৬ মে: বিশাখাপত্তনমের এলজি পলিমারস কারখানার ৩০ জন কর্মী-আধিকারিককে ভিতরে ঢোকার অনুমতি দিল সুপ্রিম কোর্ট। সিল করে দেওয়া ওই কারখানার ভিতরে কারা কারা ঢুকবেন, সেই নামের তালিকা সংস্থার কাছে চেয়ে পাঠিয়েছে আদালত।  ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

সম্পত্তি রক্ষায় আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার প্রয়োজন। আত্মসমীক্ষার প্রয়োজনিয়তা রয়েছে। দাম্পত্যে মধুরতা বৃদ্ধি। প্রতিদ্বন্দ্বীকে হটিয়ে প্রেম ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯৬৪: স্বাধীনতা সংগ্রামী ও ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহরুর মৃত্যু
১৯৬২: ভারতীয় ক্রিকেটার রবি শাস্ত্রীর জন্ম
১৯৭৭: শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটার মাহেলা জয়বর্ধনের জন্ম



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৩.৭৮ টাকা ৭৭.৫০ টাকা
পাউন্ড ৯০.০২ টাকা ৯৪.৮৪ টাকা
ইউরো ৮০.৪৬ টাকা ৮৪.৭৭ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪১,৮৮০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৯,৭৩০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪০,৩৩০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৮,৮০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৮,৯০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
22nd  March, 2020

দিন পঞ্জিকা

১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ২৭ মে ২০২০, বুধবার, পঞ্চমী ৪৯/০ রাত্রি ১২/৩২। পুনর্বসু নক্ষত্র ৬/১৯ দিবা ৭/২৮। সূর্যোদয় ৪/৫৬/২৯, সূর্যাস্ত ৬/১১/১। অমৃতযোগ দিবা ৭/৩৫ গতে ১১/৭ মধ্যে পুনঃ ১/৪৬ গতে ৫/১৭ মধ্যে। রাত্রি ৯/৪৫ মধ্যে পুনঃ ১১/৫৫ গতে ১/২১ মধ্যে। বারবেলা ৮/১৫ গতে ৯/৫৪ মধ্যে পুনঃ ১১/৩৪ গতে ১/১৩ মধ্যে। কালরাত্রি ২/১৫ গতে ৩/৩৬ মধ্যে। 
১৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ২৭ মে ২০২০, বুধবার, পঞ্চমী রাত্রি ১০/২১। পুনর্ব্বসুনক্ষত্র দিবা ৬/২। সূর্যোদয় ৪/৫৬, সূর্যাস্ত ৬/১৩। অমৃতযোগ দিবা ৭/৩৫ গতে ১১/১০ মধ্যে ও ১/৫০ গতে ৫/২৬ মধ্যে এবং রাত্রি ৯/৫০ মধ্যে ও ১১/৫৮ গতে ১/২৪ মধ্যে। কালবেলা ৮/১৫ গতে ৯/৫৫ মধ্যে ও ১১/৩৫ গতে ১/১৪ মধ্যে। কালরাত্রি ২/১৫ গতে ৩/৩৬ মধ্যে। 
৩ শওয়াল 

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
আগামীকালের রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠক বাতিল 
ঘূর্ণিঝড় উম-পুন পরবর্তী পরিস্থিতি মোকাবিলায় মন্ত্রীরা ছড়িয়ে রয়েছেন জেলায় জেলায়। ...বিশদ

01:48:44 PM

আপনার জেলায় কতজন করোনায় আক্রান্ত, জানুন 
রাজ্যে এ পর্যন্ত আরও করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪,০০৯। ...বিশদ

12:32:03 PM

আজ দুপুরে ভিডিও কনফারেন্সে বৈঠক মমতার 
আজ দুপুর সাড়ে তিনটে নাগাদ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ভিডিও কনফারেন্সে ...বিশদ

12:30:36 PM

করোনা: ঝাড়খণ্ডে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৪০৮ জন 

11:52:49 AM

৩১ মে-র পরই কর্ণাটকে খুলে দেওয়া হবে ধর্মীয় স্থানগুলি, জানালেন মুখ্যমন্ত্রী বিএস ইয়েদুরাপ্পা

11:51:17 AM

করোনা: অসমে নতুন করে আক্রান্ত আরও ৪ জন, মোট আক্রান্ত ৬৮৬ 

11:46:56 AM