Bartaman Patrika
কলকাতা
 
 

বৃষ্টিভেজা দুপুর। মঙ্গলবার ময়দান চত্বরে তোলা নিজস্ব চিত্র। 

 মন্দার ছাপ মঙ্গলাহাটেও, চড়া সুদে ঋণ নিয়ে বিক্রিবাটা না হওয়ায় দুশ্চিন্তায় ব্যবসায়ীরা

 নিজস্ব প্রতিনিধি, হাওড়া: পুজোর বাজার ভালো হবে এই আশা করে চড়া সুদে ১ লক্ষ টাকা ধার করে রেডিমেড শার্ট-প্যান্ট তুলেছিলেন হাওড়ার মঙ্গলাহাটের খুচরা ব্যবসায়ী অজিত পাল। তার জন্য আগস্ট মাস থেকে সুদও গুনতে হচ্ছে তাঁকে। কিন্তু, পুজোর আর একমাসও বাকি নেই। এই অবস্থায় তাঁর বিক্রি নেই বললেই চলে। শুধু তিনি নন। হাওড়ার মঙ্গলাহাট ও সংলগ্ন এলাকায় ঘুরে মঙ্গলবার এই চিত্রই ফুটে এল। আর্থিক মন্দা এতটাই গ্রাস করেছে যে, পুজোর একমাস আগেও সেভাবে বিক্রিবাটা হচ্ছে না।
ব্যবসায়ীরা বলেছেন, গত বছর পুজোর বাজার তুলনামূলক খারাপ হয়েছিল। কিন্তু, এবার অবস্থা খুবই খারাপ। পুজোর একমাস যেখানে বাকি নেই, সেখানে ছুটির দিনেও বাজার বেশ ফাঁকা। কিন্তু, এমন অবস্থা কেন? ব্যবসায়ীরা বলেছেন, প্রতিটি সেক্টরে আর্থিক মন্দা চলছে। মানুষের হাতে টাকা নেই। পুজোর বাজার করবেন কী করে? আগে সারা মাসে আমাদের যেখানে রোজগার হত ২৫ থেকে ৩০ হাজার টাকা, সেখানে গত কয়েক মাস ধরে আমাদের গড়ে ১২ হাজার টাকার বেশি রোজগার হচ্ছে না।
হাওড়ার মঙ্গলাহাটে পুজোর বড় অঙ্কের কেনাবেচা হয়। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে ব্যবসায়ীরা এখান থেকে জামা-কাপড় কিনে নিয়ে যান। এখন প্রতি সোমবার পাইকারি বাজার বসে ও মঙ্গলবার খুচরা বাজার বসে। এখনও সময় আছে, এই আশায় রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তের ব্যবসায়ীরা কিছু পাইকারি হারে জিনিস কিনলেও ছোট ব্যবসায়ীদের অবস্থা খুবই খারাপ। গত বছরও পুজোর এক মাস আগে থেকে ময়দান চত্বরে মঙ্গলাহাটে হাঁটাচলা করা কঠিন হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু, এবার সেই পরিচিত দৃশ্য উধাও। সারা বছর যেভাবে কিছু খরিদ্দার আসেন, এখনও সেই দৃশ্য।
মঙ্গলাহাটের জন্য জি টি রোডে যান চলাচল কঠিন হয়ে পড়ে অন্যান্য বছর পুজোর আগে। কিন্তু, গত মঙ্গলবার বা এদিন যান চলাচল স্বাভাবিকভাবেই গাড়ি চলেছে। অর্থাৎ পরিচিত সেই ভিড় উধাও। জি টি রোডের ধারে রেডিমেড পোশাক নিয়ে বসা ব্যবসায়ী উৎপল ভৌমিক বলেন, আমরা ডোমজুড়, নিবড়া প্রভৃতি এলাকা থেকে রেডিমেড পোশাক কিনে এখানে বিক্রি করি। দাম কিছুটা সস্তা হয় বলে বিক্রিবাটাও প্রতি বছর ভালো হয়। কিন্তু, এবার অবস্থা খুবই খারাপ। যাঁরা জামাকাপড় তৈরি করেন, তাঁরা আমাদের উপর জিনিস কেনার জন্য চাপ দিচ্ছেন। কিন্তু, বিক্রি না হলে টাকা শোধ করব কী করে?
একই কথা বললেন আর এক ব্যবসায়ী রমজান আলি। তিনি বলেন, আমরা বাড়িতে জরির কাজ করে এখানে মাল বিক্রি করি। কিন্তু, এবার সেভাবে বাজার হয়নি। ইদের সময়ও আমাদের ভালো বাজার হয়। কিন্তু, এবার তাও হয়নি। পুজোর বাজারের আশায় আমরা সারা বছর বসে থাকি। কিন্তু, বছরের অন্যান্য সময় যেমন টুকটাক বিক্রিবাটা হয়, এখন তাই হচ্ছে। অথচ কয়েক বছর আগেও পুজোর আগে আমরা মাল দিয়ে শেষ করতে পারতাম না। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকেও আমাদের কাছে জরির কাজ করা চুড়িদার, কুর্তি কিনে নিয়ে যেতেন ব্যবসায়ীরা। কিন্তু, তাঁরাও এবার কম মাল তুলেছেন। শুধু ছোট ব্যবসায়ীরা নন, শহরের বড় বড় কাপড়ের দোকানেও তুলনামূলক কম ভিড়। ব্যবসায়ীরা মনে করছেন, এখনও বহু সংস্থায় পুজোর বোনাস হয়নি। তাই হয়তো কিছুটা দেরিতে বাজার শুরু হবে। তবে যাঁরা বোনাসের উপর নির্ভর না করেই প্রতি বছর বাজার করেন, তাঁদেরও সেভাবে দেখা পাওয়া যাচ্ছে না। যা চিন্তায় ফেলেছে ব্যবসায়ীদের। সকলেরই চিন্তা, পুজোর বাজারের আশায় ঋণ নিয়ে অনেক মাল তুলেছেন অনেকে। এখন সেই ঋণের টাকা শোধ করবেন কী করে?

11th  September, 2019
বাইপাসের এক নামী হাসপাতালের নাম ভাঙিয়ে ব্যবসা
বাড়তি টাকা নিয়ে বাড়ি থেকেই সোয়াব সংগ্রহ, ধৃত প্রাক্তন কর্মী 

বাড়িতে কোভিড টেস্টের নমুনা সংগ্রহের জন্য সাধারণের থেকে বাড়তি টাকা নেওয়ার অভিযোগ উঠলো প্রাইভেট হাসপাতালের এক প্রাক্তন কর্মীর বিরুদ্ধে। সৌমিত্র চৌধুরী নামে ওই যুবককে মঙ্গলবার বিকেলে গ্রেপ্তার করেছে পূর্ব যাদবপুর থানার পুলিস।   বিশদ

বাইপাসের রাস্তা যেন মৃত্যুফাঁদ, দু’বার
কাজের সূচনা হলেও সংস্কারই হয়নি
খানাখন্দে ভরা কামালগাজি থেকে বারুইপুর

 একটা সময় ছিল যখন কামালগাজি থেকে বারুইপুর যাওয়ার জন্য এই রাস্তাটি ব্যবহার করতেন বাইক এবং গাড়ি চালকরা। বর্তমানে সেই রাস্তার অবস্থা এতটাই খারাপ যে, অধিকাংশ চালকই সেই রাস্তার দিকে ফিরেও তাকান না।
বিশদ

মাস্ক না পরে ঘুরছেন অনেকে, দমনে তৎপর পুলিস-প্রশাসন
করোনা সংক্রমণে মৃত্যুর রেকর্ড সত্ত্বেও উদাসীন ভাব

করোনা সংক্রমণ এবং তাতে মৃত্যুর সংখ্যা দিন দিন নজির তৈরি করছে। তবে আমজনতার মধ্যে সম্পূর্ণ সচেতনতা এখন‌ও অধরা। এই উদাসীনতার ছবি উঁকি দিচ্ছে শহরের বিভিন্ন জায়গায়।  বিশদ

ব্যাঙ্কে দেওয়া মোবাইল নম্বর
বদলে লোপাট ৩ কোটি 
কলকাতায় বসেই চেন্নাইয়ে অপারেশন, গ্রেপ্তার ১

নতুন কায়দায় প্রতারণা করেও শেষ অবধি ধরা পড়ে গেল অভিযুক্ত। ব্যাঙ্কের অ্যাকাউন্টের তথ্য জোগাড় করে সেখানে থাকা লিঙ্কে মোবাইল নম্বর ও ই-মেল আইডি বদলে তামিলনাড়ুর এক মহিলার অ্যাকাউন্ট থেকে সে হাতিয়ে নিয়েছিল কয়েক কোটি টাকা। ঘটনা সামনে আসার পর বিধাননগর সাইবার থানায় অভিযোগ দায়ের হয়। বিশদ

বারুইপুরে কাছারি বাজারের
কাপড়পট্টিতে বিধ্বংসী আগুন,
ছাই শতাধিক দোকান

গভীর রাতে বিধ্বংসী আগুনে ভস্মীভূত হয়ে গেল বারুইপুর কাছারি বাজারের কাপড়পট্টি। হতাহতের খবর নেই। তবে শতাধিক দোকান পুরো ছাই হয়ে গিয়েছে। বিশদ

ওই দৃশ্য দেখে মাথায়
আকাশ ভেঙে পড়ল
রহিম আলি মোল্লা (প্রত্যক্ষদর্শী)

তখন রাত ২টো বাজে। হঠাৎ ফোন বাজতেই ভেঙে গেল ঘুম। উপর থেকে একজন জানাল কাছারি বাজারের কাপড়পট্টিতে আগুন লেগেছে। চোখের সামনে ওই দৃশ্য দেখে মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ার মতো অবস্থা। 
বিশদ

ভাঙড়ে প্রকৃতির কোলে গড়ে উঠছে পর্যটনকেন্দ্র, কাজ চলছে জোরকদমে 

যতদূর চোখ যায় বিঘের পর বিঘে জমি। কোথাও ধান চাষ শুরু হয়েছে তো কোথাও পড়ে আছে খালি জমি। সেরকমই জায়গায় এবার পর্যটকদের জন্য তৈরি হচ্ছে বায়োডাইভার্সিটি পার্ক।   বিশদ

নিকাশি নালা থেকে তোলা যায়নি পলি
বর্ষায় তীব্র ভোগান্তির শঙ্কা হাওড়ায়

লকডাউনের জন্য প্রায় তিন মাস নিকাশিনালা থেকে পলি তোলার কাজ করা যায়নি। বৃষ্টির জন্য তা ফের বন্ধ হলে হাওড়াবাসীর সমস্যা বাড়তে পারে। বিশদ

রাজ্যের ঘোষিত দিনেই লকডাউন, জানিয়ে দিল দমদমের তিন পুরসভা 

রাজ্য সরকার যেহেতু লকডাউনের দিন ঘোষণা করেছে, তাই আলাদাভাবে এলাকাভিত্তিক লকডাউন করছে না দমদমের তিনটি পুরসভা। এমনকী দক্ষিণ দমদম পুরসভায় আংশিক লকডাউনের যে মেয়াদ ছিল, তাও আর বাড়ানো হয়নি।  বিশদ

ডেঙ্গু রুখতে হুগলিতে ১০০ দিনের কাজ, সাফাই হল সাত হাজার নালা 

ডেঙ্গু মশার প্রাদুর্ভাব রুখতে হুগলি জেলায় ১০০ দিনের কাজের প্রকল্পকে ব্যবহার করছে জেলা প্রশাসন। ইতিমধ্যেই জেলার সাত হাজার নালাকে চিহ্নিত করে তা সাফাই শুরু হয়েছে। পাশাপাশি ধারাবাহিক সমীক্ষার মাধ্যমে ডেঙ্গু মশা জন্মাতে পারে, এমন স্থান চিহ্নিত করা হচ্ছে।   বিশদ

নিয়মিত ভেঙে যাচ্ছে খড়দহের প্রাচীন বিভিন্ন ঘাট
উদাসীন প্রশাসন

এই ঘাটটি দেখে বোঝা মুশকিল যে, এখানে প্রতি বছর বিজয়া দশমীতে ১৮০-র কাছাকাছি দুর্গাপ্রতিমা নিরঞ্জন হয়! কী অবস্থা দেখেছেন। যে কোনও সময় নদীর ভাঙনে পাড়ের বাকি অংশ তলিয়ে যেতে পারে। রাজ্য প্রশাসনের এদিকে একটু নজর দেওয়া উচিত।   বিশদ

রাতভর বৃষ্টিতেও জল জমল না
মহানগরে, স্বস্তি জনসাধারণের

রাতভর বৃষ্টি হলেও সেভাবে জল জমল না কলকাতায়। পুরসভার তৎপরতার কারণেই জল-চিত্রের বদল ঘটেছে শহরে। বিশদ

মিউজিক ভিডিও তৈরির নামে নাবালিকাকে ধর্ষণ
হাবড়া

হাবড়ায় ইউটিউব ভিডিও বানানোর নাম করে প্রতিবেশী নাবালিকাকে ধর্ষণ করার অভিযোগে পুলিস এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে। পুলিস জানিয়েছে, ধৃতের নাম গৌরব দাস।   বিশদ

বৃষ্টিতে চার জেলায় জনজীবন ব্যাহত

‌বঙ্গোপসাগরের উপর ঘনীভূত নিম্নচাপের কারণে সোমবার রাত থেকেই কখনও ঝিরঝিরে, কখনও মুষল বৃষ্টিতে কলকাতা লাগোয়া চার জেলায় জনজীবন কার্যত ব্যাহত হয়েছে। এই জেলাগুলির বিভিন্ন জায়গা জলমগ্ন হয়েছে এই দুর্যোগে। 
বিশদ

Pages: 12345

একনজরে
রেলে পণ্য পরিবহণ বেড়েছে। অটোমোবাইল সেক্টরও অবশেষে ঘুরে দাঁড়াচ্ছে। জুলাই মাসে এই দুটি ক্ষেত্রেই ইতিবাচক প্রবণতা দেখা যাচ্ছে। গ্রামে চলে যাওয়া পরিযায়ী শ্রমিক ও কর্মীরা আবার শহরে কর্মস্থলে ফিরছে।  ...

সংবাদদাতা, রানাঘাট: প্রতি বছর এই সময় নাওয়া খাওয়ার ফুরসত মেলে না। মহাজনের আর দোকানদারদের তাড়ায় অস্থির হতে হতো। কথা রাখতে রাতদিন বুনতে হতো শাড়ি। মাকুর ...

সংবাদদাতা, রায়গঞ্জ: এবছর স্বাধীনতা দিবসে রায়গঞ্জের ঘড়ি মোড় এলাকায় ১০৫ ফুট উঁচু স্তম্ভের সঙ্গে আকাশে উড়বে জাতীয় পতাকা। সেজন্য ইতিমধ্যেই প্রায় সমস্ত প্রস্তুতি শেষ করে ফেলা হয়েছে। মঙ্গলবার শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি খতিয়ে দেখতে ঘড়ি মোড় এলাকায় পরিদর্শন করলেন রায়গঞ্জ পুরসভার ...

করোনা পরিস্থিতির গুরুত্ব বিচার করে রাজ্যের স্বাস্থ্য দপ্তরের কাজ নিয়মিত দেখভাল করার জন্য আলাদা করে একজন পূর্ণমন্ত্রীর দাবি করল বিরোধী বাম ও কংগ্রেসের জোট শিবির।   ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

কর্মপ্রার্থীদের কোনও সুখবর আসতে পারে। কর্মক্ষেত্রে পদোন্নতির সূচনা। গুপ্তশত্রু থেকে সাবধান। নতুন কোনও প্রকল্পের জন্য ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৭৭৫ - বৃটিশ ভারতে কর কর্মকর্তা মহারাজা নন্দকুমারের মৃত্যু
১৯৩০ -মার্কিন নভোচারী তথা প্রথম মানুষ, যিনি চাঁদে অবতরণ করেন নীল আর্মস্ট্রংয়ের জন্ম
১৯৩১: অভিনেত্রী গীতা দে’র জন্ম
১৯৬২: অভিনেত্রী মেরিলিন মনরোর মৃত্যু
১৯৬৯: প্রাক্তন ক্রিকেটার বেঙ্কটেশ প্রসাদের জন্ম
১৯৭৪: অভিনেত্রী কাজলের জন্ম
২০০০: ক্রিকেটার লালা অমরনাথের মৃত্যু



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৪.৩৮ টাকা ৭৬.১০ টাকা
পাউন্ড ৯৬.৬৯ টাকা ১০০.০৭ টাকা
ইউরো ৮৬.৯৫ টাকা ৯০.১৪ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৫৪,৬৭০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৫১,৮৭০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৫২,৬৫০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৬৫,০৮০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৬৫,১৮০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

২০ শ্রাবণ ১৪২৭, বুধবার, ৫ আগস্ট ২০২০, দ্বিতীয়া ৪৪/৩ রাত্রি ১০/৫১। ধনিষ্ঠানক্ষত্র ১০/৪২ দিবা ৯/৩০। সূর্যোদয় ৫/১৩/২৬, সূর্যাস্ত ৬/১১/৪২। অমৃতযোগ দিবা ৬/৫৭ মধ্যে পুনঃ ৯/৩২ গতে ১১/১৭ মধ্যে পুনঃ ৩/৩৭ গতে ২/২১ মধ্যে। রাত্রি ৬/৫৭ গতে ৯/৯ মধ্যে পুনঃ ১/৩২ গতে উদয়াবধি। মাহেন্দ্রযোগ দিবা ১/৫৩ গতে ৩/৩৭ মধ্যে, রাত্রি ৯/৯ গতে ১০/৩৬ মধ্যে। বারবেলা ৮/২৮ গতে ১০/৫ মধ্যে পুনঃ ১১/৪২ গতে ১/১৯ মধ্যে। কালরাত্রি ২/২৮ গতে ৩/৫১ মধ্যে।
২০ শ্রাবণ ১৪২৭, বুধবার, ৫ আগস্ট ২০২০, দ্বিতীয়া রাত্রি ৯/৪৮। ধনিষ্ঠানক্ষত্র দিবা ৯/৪০। সূর্যোদয় ৫/১২, সূর্যাস্ত ৬/১৪। অমৃতযোগ দিবা ৭/০ মধ্যে ও ৯/৩২ গতে ১১/১৪ মধ্যে ও ৩/২৮ গতে ৫/১০ মধ্যে এবং রাত্রি ৬/৪৬ গতে ৯/১ মধ্যে ও ১/৩২ গতে ৫/১৩ মধ্যে। মাহেন্দ্রযোগ দিবা ১/৪৬ গতে ৩/২৮ মধ্যে এবং রাত্রি ৯/১ গতে ১০/৩১ মধ্যে। কালবেলা ৮/২৮ গতে ১০/৬ ও ১১/৪৩ গতে ১/২১ মধ্যে। কালরাত্রি ২/২৮ গতে ৩/৫০ মধ্যে।
১৪ জেলহজ্জ

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
রুপোর প্রধান শিলা সহ মোট ৯টি শিলার পুজো করলেন প্রধানমন্ত্রী 

01:13:04 PM

ভূমিপুজোর অনুষ্ঠান সমাপ্ত করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি

01:07:44 PM

সুশান্ত মৃত্যুর সিবিআই তদন্তের সুপারিশ গ্রহণ করল কেন্দ্র 
বিহার সরকারের সুপারিশ মেনে অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু রহস্য ...বিশদ

12:18:32 PM

অযোধ্যায় রাম জন্মভূমিতে শুরু হল ভূমিপুজোর অনুষ্ঠান
অযোধ্যায় রাম জন্মভূমিতে শুরু হল ভূমিপুজোর অনুষ্ঠান। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ...বিশদ

12:18:00 PM

অযোধ্যায় হনুমানগড়িতে পুজো দেওয়ার পর রামলালা দর্শন করলেন প্রধানমন্ত্রী 

12:08:00 PM

অযোধ্যায় হনুমানগড়ি থেকে বেরিয়ে রামলালার পথে প্রধানমন্ত্রী 

12:02:35 PM