Bartaman Patrika
কলকাতা
 
 

১) তেলেঙ্গাবাগান এলাকায় ব্যারিকেড দিয়ে আটকানো হয়েছে রাস্তার মুখ। রয়েছে পুলিসি প্রহরাও। ২) ভবানীপুরে কন্টেইনমেন্ট জোনে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের জোগান ৩) যদুবাবুর বাজারের মুখেও বসানো হয়েছে গার্ডরেল। বুধবার সায়ন চক্রবর্তী, অনিন্দ্য পালচৌধুরী ও ভাস্কর মুখোপাধ্যায়ের তোলা ছবি। 

 বর্ষার জল জমা থেকে এবারও ভোগান্তির আশঙ্কা বিধাননগরের বিস্তীর্ণ এলাকায়

পবিত্র ত্রিবেদি, কলকাতা: বর্ষায় জল জমার দুর্ভোগ থেকে এবারও রেহাই মিলছে না বিধাননগর পুরসভা এলাকার বিভিন্ন জায়গার বাসিন্দাদের। সল্টলেকে জল না জমলেও বিধাননগর পুরসভার বাকি অংশে এই সমস্যা এলাকাবাসীর যন্ত্রণার কারণ হয়। চণ্ডীবেরিয়া, হাতিয়াড়ার সর্দারপাড়া সহ কয়েকটি জায়গার অনেক বাসিন্দাকে বর্ষার সময় হাঁটুর উপরে জল পেরিয়ে ঘর থেকে বেরতে হয়। বর্ষা মিটে গেলে প্রতিবছরই প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয় যে, নিকাশি ব্যবস্থার উন্নতি করা হবে। কিন্তু সমস্যা মেটে না। চার বছর হয়ে গেল কর্পোরেশনে উন্নীত হলেও বিধাননগরের এই জল যন্ত্রণার ছবিটি বদলায়নি। পুরসভা এলাকার বেশিরভাগ কাউন্সিলারই স্বীকার করেছেন, তাঁদের এলাকায় জল জমার সমস্যা রয়েছে। এবার সেই সমস্যা কতটা ভোগাবে, তা নিয়েই দুশ্চিন্তায় এখানকার পুরবাসীরা। এ বিষয়ে জিজ্ঞাসা করা হলে বিধাননগর পুরসভার মেয়র পারিষদ (জঞ্জাল অপসারণ ও নিকাশি) দেবাশিস জানা বলেন, আমাদের প্রাক বর্ষা বৈঠক হয়েছে। পরিস্থিতি মোকাবিলা করা হবে। পাম্পিং সিস্টেম চেঞ্জ করেছি। যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।
কোথায় কোথায় সবচেয়ে বেশি সমস্যা রয়েছে? স্থানীয় ও পুরসভা সূত্রে জানা গিয়েছে, বিধাননগর পুরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডে কৈখালির মালিরবাগানে নিকাশি ব্যবস্থার হাল খুব খারাপ। এখানে নিকাশি নালা সঙ্কীর্ণ হওয়ায় সমস্যা বেশি। ব্যাঙ্ক অফ বরোদা থেকে চিনারপার্ক মোড় পর্যন্ত যাওয়ার রাস্তায় প্রতিবার বর্ষায় আবাসনগুলির সামনে এক হাঁটু জল জমে। এছাড়া এই ওয়ার্ডের দাসপাড়ায় কাঁচা নালা রয়েছে। তাই এখানে ভালো নিকাশির অভাবে জল জমার সমস্যা রয়েছে। ১৪ নম্বর ওয়ার্ডে সর্দারপাড়ায় জল জমার সমস্যা সবথেকে বেশি। এখানে রাস্তায় জল জমে। বর্ষায় অনেকের ঘরেও জল ঢুকে যায়। পূর্বাচল, অরুণাচল, সুভাষপল্লি, শ্রীমাপল্লিতেও এই সমস্যা বেশ ভোগায়। এই এলাকায় সুলুঙ্গুরিতে জল পাশ হবার জন্য এবার নতুন ড্রেন সংযোগ করা হয়েছে। এর পাশাপাশি, শ্রীমাপল্লিতে ড্রেন ছিল না। ড্রেন করা হয়েছে। ফলে গতবারের থেকে এবার কিছুটা সুরাহা হতে পারে বলে আশা করছেন বাসিন্দারা। ৯ নম্বর ওয়ার্ডে মেন রাস্তার তুলনায় পাশে থাকা বাড়ি বা বসত এলাকার জমি নিচু হওয়ায় অনেক জায়গায় জল জমত। কিছু জায়গায় পাম্প বসানো হয়েছে। ফলে এখন জল বেশিক্ষণ জমে থাকে না। তবে সরকারবাগান যাত্রী ক্লাবের দিকটায় জল জমার সমস্যা রয়েছে।
স্পেসটাউনের পিছনের দিকেও সমস্যা রয়েছে। ৮ নম্বর ওয়ার্ডে দুন্দুমি ক্লাবের কাছে একটি পাম্প বসানোর উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। ওটা বিধাননগর পুরসভা ও দমদম পুরসভার বর্ডার। সমস্যার কারণে সেখানে পাম্প বসানো যায়নি। এছাড়া স্থানীয় ক্যানালে জল বেড়ে গেলে সাহাপাড়া, প্রতিবেশীপাড়ার দিকে জল জমে। ১১ নম্বর ওয়ার্ডে জ্যাংড়া চৌমাথা থেকে বাজারের দিকে ঢালু জায়গায় বৃষ্টি হলে জল জমে। এমনকী বাজারেও জল জমে যায়। সেখানে এখন নতুন করে রাস্তা হচ্ছে। বর্ষায় আদৌ এখানে কোনও সুরাহা হয় কি না, সেটাই দেখার। ২৬ নম্বর ওয়ার্ডে জল জমার সমস্যা আগেরবারেও ছিল। তবে এখন রাস্তা উঁচু করে দেওয়ায় জল জমবে না বলেই মনে করা হচ্ছে। সুপার মার্কেটের কাছে রাস্তা ঢালাই হচ্ছে। ২৪ নম্বর ওয়ার্ডে নিচু জায়গা উঁচু করা হয়েছে। ফলে জল জমা থেকে এবার নিস্তার মিলবে মনে করা হচ্ছে। ২২ নম্বর ওয়ার্ডে জল জমলে পাম্প করে তুলে দেওয়া হয়। ওই এলাকায় জলা জায়গায় বসবাস করে এমন পরিবারও রয়েছে। তাঁদের দুর্ভোগ থাকছেই। চণ্ডীবেরিয়ার মেন রাস্তা থেকে ভিতরের দিকে গোবিন্দনগর, শান্তিময়নগর, আনন্দপল্লিতে জল জমার সমস্যা রয়েছে। ১৯ নম্বর ওয়ার্ডে বিদ্যাসাগর পল্লির পুরোটাতেই জল জমার সমস্যা আছে। ১৭ নম্বর ওয়ার্ডের বিভিন্ন জায়গায় জল জমার সমস্যা আছে। নেতাজি সমবায় আবাসনের সামনে ১৫-২০ মিনিট বৃষ্টি হলে জল জমে যায়। ভিআইপি রোডের কাছে এই জায়গা। ১৬ নম্বর ওয়ার্ডে জল জমার সমস্যা দীর্ঘদিনের। গৌতমপাড়ায় জল জমে। এখানে জল খালে ফেলার জন্য রবীন্দ্রপল্লি, এসএস সরণীতে পাম্প বসানো হয়েছে। খালের জল উপচে গেলে ২০ নম্বর ওয়ার্ডে জল জমে। ৭ নম্বর ওয়ার্ডে দক্ষিণমাঠ ও পিটারবাগানে জল জমার সমস্যা রয়েছে। তবে এবার সেখানে আন্ডারগ্রাউন্ড ড্রেনেজ সিস্টেম হওয়ায় জল জমার সমস্যা থেকে মুক্তি মিলতে পারে। তবে ভিআইপি রোডে জল জমলে জল পাশ হতে না পেরে এই ওয়ার্ডে জল জমতে পারে। ২ নম্বর ওয়ার্ডে ঘোষপাড়ায় জল জমত। নতুন ড্রেনেজ সিস্টেম হওয়ায় সেখানে জল এবার জমবে না বলে মনে করা হচ্ছে। ৩ নম্বর ওয়ার্ডে নেতাজিপল্লি নিচু হওয়ায় অন্যান্যবারের মতো সেখানে এবারও জল জমতে পারে। এছাড়া রাজারহাট এলাকার দিকে বেশ কিছু জায়গায় জল জমার দীর্ঘদিনের সমস্যা এবারও ভোগাবে বলে মনে করছেন বাসিন্দারা। ৩৬ নম্বর ওয়ার্ডে বেশি বৃষ্টি হলে শান্তিনগর, নাওভাঙা, বাসন্তীদেবী কলোনিতে জল জমতে পারে।

12th  June, 2019
লকডাউন বিধি শিকেয়
বাস, দোকানপাটে উপচে পড়া ভিড়

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা ও বারাকপুর: কিছু কিছু এলাকায় নতুন করে লকডাউনের দামামা বাজলেও বুধবার সেইসব অঞ্চলে আর পাঁচটা দিনের সঙ্গে ফারাক চোখে পড়ল না। কলকাতাই হোক বা বারাকপুর, সর্বত্রই উদাসীনতার চিহ্ন স্পষ্ট। দল বেঁধে আড্ডা, মাস্ক ছাড়া ঘুরে বেড়ানো, সামাজিক দূরত্ববিধি মানার ইচ্ছেটাই যেন চলে গিয়েছে মানুষের মন থেকে।
বিশদ

করোনা আক্রান্তকে ভর্তি
করতে নাকাল শহরবাসী

বেড সংখ্যা আপডেট না হওয়ায় ভোগান্তি

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ঘটনা এক: মঙ্গলবার সন্ধ্যা। করোনা-আক্রান্ত এক পদস্থ ব্যাঙ্ক আধিকারিককে ভর্তি করতে গিয়ে চোখের জল বেরিয়ে আসার জোগাড় হল বাড়ির লোকজনের। তাঁদের মোবাইলে শহরের বিভিন্ন বেসরকারি হাসপাতালে করোনা রোগীদের ফাঁকা বেডের সরকারি তালিকা রয়েছে।
বিশদ

ভয় না পেয়ে সচেতন থাকুন,
শহরবাসীকে বার্তা দিলেন ফিরহাদ

  নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ঘাবড়ানোর কিছু নেই, শুধু একটু সচেতন থাকুন। হাতজোড় করে বলছি। বুধবার সাংবাদিক সম্মেলনে শহরবাসী, বিশেষ করে অতি সংক্রামিত এলাকার উদ্দেশে এমনই বার্তা দিলেন কলকাতা পুরসভার মুখ্য প্রশাসক তথা রাজ্যের পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম।
বিশদ

প্রিয়জনের সঙ্গে কথা বলতে কোভিড
রোগীদের ভরসা ‘ভিডিও কলিং দিদিরা’
এমআর বাঙ্গুর হাসপাতাল

বিশ্বজিৎ দাস, কলকাতা: ওই যে আসছেন ‘ভিডিও কলিং দিদিরা...’। কোভিড-প্রতিরোধী বর্মবস্ত্রে ঢাকা শরীর। সবার হাতে স্মার্টফোন। ওয়ার্ডজুড়ে তখন শুধু একটাই গুঞ্জন—‘এবার বাড়ির প্রিয়জনের মুখটা একদণ্ড দেখতে পাব।’ স্বামী দেখবে স্ত্রীর মুখ।
বিশদ

 আক্রান্তদের চিকিৎসায় প্লাজমা দান
করলেন সেরে ওঠা বাগনানের তন্ময়

 সংবাদদাতা, উলুবেড়িয়া: করোনাকে হার মানিয়ে বাড়ি ফেরার পর অন্যকেও সুস্থ করে তোলার দায়িত্ব নিলেন বাগনানের হারোপের বাসিন্দা তন্ময় মণ্ডল। দান করলেন প্লাজমা।
বিশদ

কাছারি বাজার থেকে রেলগেট
পর্যন্ত যান-যন্ত্রণায় অস্থির মানুষ
বারুইপুর

নিজস্ব প্রতিনিধি, দক্ষিণ ২৪ পরগনা: যান-যন্ত্রণায় জেরবার বারুইপুর শহরের মানুষ। কাছারি বাজার থেকে রেলগেট পর্যন্ত আসা-যাওয়া করতে রীতিমতো নাভিশ্বাস ওঠে সবার। এমনিতে রাস্তাটি বেশি চওড়া নয়। তার উপর দু’পাশে অটো স্ট্যান্ড গড়ে উঠেছে।
বিশদ

পুলিস পরিচয়ে বাড়িতে ঢুকে
অপহরণ ও লুট, চাঞ্চল্য কড়েয়ায়

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: পুলিস পরিচয়ে বাড়িতে ঢুকে এক ব্যক্তিকে আগ্নেয়াস্ত্র দেখিয়ে অপহরণ ও টাকা লুট করে চম্পট দিল একদল দুষ্কৃতী। বুধবার ভোর রাতে চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে কড়েয়া থানার ব্রাইট স্ট্রিটে।
বিশদ

 কেএমডিএ-র অবসরপ্রাপ্তদের
বর্ধিত হারে পেনশনের নির্দেশিকা

  নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: অর্থদপ্তরের অনুমোদনের পর কেএমডিএ কর্তৃপক্ষ অবসরপ্রাপ্ত কর্মীদের বর্ধিত হারে পেনশন দেওয়ার নির্দেশিকা জারি করেছে। ষষ্ঠ বেতন কমিশনের সুপারিশের পরিপ্রেক্ষিতে গত জানুয়ারি মাস থেকে রাজ্য সরকারি কর্মীদের মতো অবসরপ্রাপ্ত পেনশন প্রাপকদের বর্ধিত পেনশন কার্যকর হয়।
বিশদ

 জামিন রুখতে তৎপর পুলিস
বহু কোটির জাল নোট মামলার
শুনানি থমকে নগর দায়রা কোর্টে

  নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: অতিমারির কারণে কলকাতা নগর দায়রা কোর্টে থমকে আছে কোটি কোটি টাকার জাল নোট মামলার শুনানি। সে সব মামলায় বহু হাইপ্রোফাইল অভিযুক্ত বর্তমানে জেল হেফাজতে। অভিযুক্তের তালিকায় রয়েছে কিছু জঙ্গিও। বিশদ

পুরসভা করোনা কন্ট্রোল রুম খোলায়
এখন স্বস্তিতে কামারহাটির বাসিন্দারা

নিজস্ব প্রতিনিধি, বারাকপুর: এলাকায় কেউ করোনা আক্রান্ত হলে বা কাউকে ঘিরে সন্দেহ তৈরি হলে নাগরিকরা কাকে ফোন করবেন, তা নিয়ে চিন্তায় থাকতেন। থানা না জনপ্রতিনিধি, কাকে ফোন করে মিলবে সুরাহা, তা তাঁদের বোধগম্য হতো না। সমস্যা আঁচ করতে পারে কামারহাটি পুরসভা।
বিশদ

লকডাউনে নির্মাণ থমকে, মথুরাপুরে
ভাঙাচোরা দু’কামরার ঘরেই চলে থানা

সংবাদদাতা, মথুরাপুর: ঘটা করে হয়েছিল ভিত পুজো। নির্মাণকাজও শুরু হয়েছিল জোরকদমে। কিন্তু লকডাউনের জেরে বন্ধ হয়ে যায় নির্মাণ। এখন পলেস্তারা খসা অস্থায়ী ঘরেই চলছে থানা। করোনা আবহে এই অবস্থার মধ্যেই কাজ করে চলেছেন মথুরাপুর থানার কর্মী-অফিসাররা।
বিশদ

শিশুকন্যা খুনে মায়ের বিরুদ্ধে চার্জশিট 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: আড়াই মাসের শিশুকন্যাকে শ্বাসরোধ করে খুনের অভিযোগে মা সন্ধ্যা মালুর বিরুদ্ধে অবশেষে আদালতে চার্জশিট জমা দিল পুলিস। শিয়ালদহের অতিরিক্ত মুখ্য বিচার বিভাগীয় ম্যাজিস্ট্রেটের (এসিজেএম) আদালতে ওই চার্জশিট জমা পড়েছে।   বিশদ

 গুড়াপে দুই বন্ধুর সামনেই
আদিবাসী ছাত্রীকে গণধর্ষণ

  নিজস্ব প্রতিনিধি, চুঁচুড়া: হুগলি জেলার গুড়াপে দুই বন্ধুর সামনেই আদিবাসী ছাত্রীকে গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন। এই ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। মঙ্গলবার রাতে ওই ছাত্রীকে গণধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ। বুধবার থানায় অভিযোগ জানানোর পরই পুলিস চারজনকে গ্রেপ্তার করে। বিশদ

এক হাতে মশা তাড়াচ্ছেন, অন্য হাতে খরিদ্দার
সামলাচ্ছেন বাগজোলা খালপাড়ের দোকানিরা

দক্ষিণ দমদম

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: মশার বাড়বাড়ন্ত রুখবে কে? আবর্জনায় ভর্তি বাগজোলা খাল। দমদম রোড পার করে দক্ষিণ দমদম পুরসভার ১০ নম্বর ওয়ার্ডের গা দিয়ে দমদম ক্যান্টনমেন্টের দিকে চলে গিয়েছে এই খাল। দমদম রোড সংলগ্ন খালের অংশ নোংরায় ভর্তি।
বিশদ

Pages: 12345

একনজরে
সুমন তেওয়ারি, ঝাঁঝরা: ভারত-চীন সীমান্তে চড়ছে উত্তেজনার পারদ। অথচ তার এতটুকু আঁচ পড়েনি দুর্গাপুরের ঝাঁঝরায়। উৎপাদনের নিরিখে দেশের এই সর্ববৃহৎ ভূগর্ভস্থ কয়লা খনি প্রকল্পে হাতে হাত মিলিয়ে কাজ করছেন দুই দেশের কর্মীরা। ...

 নয়াদিল্লি: সংক্রমণের নিরিখে ইতিমধ্যেই চীন, স্পেন, ইতালি, রাশিয়াকে ছাড়িয়ে গিয়েছে। মহামারী কবলিত বিশ্বের তৃতীয় দেশ হিসেবে উঠে এসেছে ভারত। প্রতিদিনই ২০ হাজারের বেশি মানুষ নতুন করে সংক্রামিত হচ্ছেন। ...

  নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: করোনাজনিত কারণে কলকাতা হাইকোর্টসহ রাজ্যের নিম্ন আদালতগুলির স্বাভাবিক কাজকর্ম আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত স্থগিত থাকছে। প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বে হাইকোর্টের পাঁচ সদস্যের বেঞ্চ সম্প্রতি এই মর্মে গৃহীত সিদ্ধান্ত জানিয়েছে। ...

করাচি: বিশ্বকাপের মত টুর্নামেন্টে ভারতের বিপক্ষে একবারও জয়লাভ করতে পারেনি পাকিস্তান। এর কারণ তুলে ধরলেন পাক দলের প্রাক্তন তারকা বোলার ওয়াকার ইউনিস। কেন আইসিসির বৃহত্তম মঞ্চে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের কাছে তাঁর দেশ বারবার ব্যর্থ হয়, তা বিশ্লেষণ করতে গিয়ে প্রাক্তন তারকা পেসারটি ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম ( মিত্র )
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

মেষ: পঠন-পাঠনে আগ্রহ বাড়লেও মন চঞ্চল থাকবে। কোনও হিতৈষী দ্বারা উপকৃত হবার সম্ভাবনা। ব্যবসায় যুক্ত ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯২৫: অভিনেতা গুরু দত্তের জন্ম
১৯৩৮: অভিনেতা সঞ্জীব কুমারের জন্ম
১৯৫৬: মার্কিন অভিনেতা টম হ্যাংকসের জন্ম
১৯৬৯: ক্রিকেটার বেঙ্কটপতি রাজুর জন্ম
১৯৬৯: ভারতের জাতীয় পশু হল রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার 



ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭৪.১৯ টাকা ৭৫.৯১ টাকা
পাউন্ড ৯২.৫৯ টাকা ৯৫.৯১ টাকা
ইউরো ৮৩.১৭ টাকা ৮৬.২৩ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৪৯,৭৬০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৪৭,২১০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৪৭,৯২০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৫০,৩৫০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৫০,৪৫০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

২৫ আষাঢ় ১৪২৭, ৯ জুলাই ২০২০, বৃহস্পতিবার, চতুর্থী ১২/৫৩ দিবা ১০/১২। শতভিষা ৫৫/১৭ রাত্রি ৩/৯৷ সূর্যোদয় ৫/২/১৯, সূর্যাস্ত ৬/২১/৭৷ অমৃতযোগ দিবা ৩/৪১ গতে অস্তাবধি, রাত্রি ৭/৪ গতে ৯/১২ মধ্যে পুনঃ ১২/৩ গতে ২/১১ মধ্যে পুনঃ ৩/৩৬ গতে উদয়াবধি। বারবেলা ৩/১ গতে অস্তাবধি। কালরাত্রি ১১/৪১ গতে ১/১ মধ্যে। 
২৪ আষাঢ় ১৪২৭, ৯ জুলাই ২০২০, বূহস্পতিবার, চতুর্থী দিবা ১০/১৩। শতভিষা নক্ষত্র রাত্রি ৩/৫৩। সূযোদয় ৫/২, সূর্যাস্ত ৬/২৩। অমৃতযোগ দিবা ৩/৪২ গতে ৬/২৩ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/৪ গতে ৯/১৩ মধ্যে ও ১২/৪ গতে ২/১২ মধ্যে ও ৩/৩৭ গতে ৫/২ মধ্যে। কালবেলা ৩/৩ গতে ৬/২৩ মধ্যে। কালরাত্রি ১১/৪৩ গতে ১/২ মধ্যে। 
১৭ জেল্কদ 

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
কর্ণাটকে করোনা পজিটিভ আরও ২,০৬২, মোট আক্রান্ত ২৮,৮৭৭ 

08-07-2020 - 08:49:35 PM

মহারাষ্ট্রে করোনা পজিটিভ আরও ৬,৬০৩, মোট আক্রান্ত ২,২৩,৭২৪ 

08-07-2020 - 08:31:12 PM

বাতিল এশিয়া কাপ 
করোনা আবহে এখনও ঝুলে রয়েছে টি-২০ বিশ্বকাপের ভাগ্য। তার মধ্যেই ...বিশদ

08-07-2020 - 07:48:40 PM

করোনা:বাংলায় ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ৯৮৬

২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে ২৩ জন করোনা রোগী প্রাণ হারালেন। তার ...বিশদ

08-07-2020 - 07:40:14 PM

হাওড়ার কন্টেইনমেন্ট জোনের পূর্ণাঙ্গ তালিকা
প্রকাশিত হল হাওড়ার বৃহত্তর কন্টেইনমেন্ট জোনের সম্পূর্ণ তালিকা। আগামীকাল বিকেল ...বিশদ

08-07-2020 - 05:55:45 PM

কন্টেইনমেন্ট জোনের পূর্ণাঙ্গ তালিকা: উত্তর ২৪ পরগনা 
প্রকাশিত হল উত্তর ২৪ পরগনা জেলার বৃহত্তর কন্টেইনমেন্ট জোনের সম্পূর্ণ ...বিশদ

08-07-2020 - 05:55:00 PM