দক্ষিণবঙ্গ

বিজেপির পার্টি অফিসে নব্যদের মদ্যপান, আদিরা বাধা দিতেই বর্ধমানে ধুন্ধুমার

নিজস্ব প্রতিনিধি, বর্ধমান: রবিবার রাতে বর্ধমানে বিজেপির জেলা পার্টি অফিসে আদি ও নব্যদের সংঘর্ষে ধুন্ধুমার বেধে যায়। চেয়ার ভাঙচুর করা হয়। সংঘর্ষে আদি গোষ্ঠীর তিনজন জখম হয়েছেন। পার্টি অফিসের বাইরে মোতায়েন থাকা কেন্দ্রীয় বাহিনী পরিস্থিতি সামাল দেয়। আদিদের দাবি, সিপিএম থেকে আসা এক নব্য বিজেপি নেতার অনুগামীরা পার্টি অফিসে মদের আসর বসাচ্ছে। প্রতিবাদ করতে গেলে মারধর করা হচ্ছে। যদিও নব্যরা তা মানতে নারাজ। তাদের দাবি, পার্টি অফিসে তৃণমূলের অত্যাচারে ঘরছাড়ারা আশ্রয় নিয়েছেন। তাঁরা আতঙ্কের মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন। নেশার আসর বসানোর অভিযোগ ঠিক নয়। 
আদি বিজেপি নেতা প্রশান্ত আইচ বলেন, আমরা বিনা স্বার্থে দল করি। সংগঠনের ভালো করার জন্য কাজ করি। কিন্তু সিপিএম থেকে আসা কিছু লোকজন দলের সর্বনাশ করছে। তারা পার্টি অফিসের ভিতর মদের আসর বসাচ্ছে। কোনও নিয়ম মানছে না। প্রতিবাদ করায় আমাদের মারধর করা হয়েছে। ওই নেতাদের জন্যই লোকসভা নির্বাচনে দলের ভরাডুবি হয়েছে। ওদের মুখ দেখলেই লোকে আর ভোট দেবে না। নিজেদের আখের গোছানোর জন্যই দলে এসেছে। আমাদের দলে শৃঙ্খলাই বড় কথা। সেটাই তারা মানে না। পার্টি অফিসে কোনওমতে মদের আসর বসাতে দেব না। প্রয়োজনে তারজন্য আবার লড়াই করব।
বিজেপি সূত্রে জানা গিয়েছে, জেলায় আদি এবং নব্যদের দ্বন্দ্ব এই প্রথম নয়। এর আগেও তারা বহুবার সংঘর্ষে জড়িয়েছে। পার্টি অফিস ভাঙচুরও হয়েছে। রাজ্য নেতৃত্ব হস্তক্ষেপ করলেও পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়নি। দলের এক নেতা বলেন, কয়েকজনের জন্য সংগঠন দুরমুশ হয়ে গিয়েছে। তাঁদের বেশিরভাগই বিধানসভা নির্বাচনের আগে বিজেপিতে এসেছেন। কেউ স্টেশন চত্বর নিজের দখলে রাখার জন্য দলে যোগ দিয়েছিলেন। কেউ আবার শহরে প্রভাব বিস্তার করার জন্য দলের ঝান্ডা ধরেন। তাতে দলের লাভ হয়নি। লোকসভা নির্বাচনের আগে তাঁদের চালচলন বদলে গিয়েছিল। দল জিতছে বলে তাঁরা ধরে নিয়েছিলেন। কিন্তু ফল খারাপ হওয়ায় তারা নিজেদের এলাকায় ঢোকার সাহস পাচ্ছেন না। তাঁরা অন্যত্র আশ্রয় নিতে বাধ্য হয়েছেন। 
দলীয় সূত্রে আরও জানা গিয়েছে, রবিবার দুপুরের পর থেকেই দুই গোষ্ঠীর টানাপোড়েন শুরু হয়। রাতে তা চরম আকার নেয়। পার্টি অফিসের বাইরে থাকা কেন্দ্রীয় বাহিনী না এলে আরও বড় ধরনের ঘটনা হতে পারত বলে দলের কর্মীদের দাবি। বিজেপির জেলা সভাপতি অভিজিৎ তা বলেন, পার্টি অফিসে কিছু হয়নি। পার্টি অফিসের বাইরে কিছু হয়েছে কি না বলতে পারব না। তৃণমূল নেতা দেবু টুডু বলেন, যারা পার্টি অফিসে নেশার বসাচ্ছে তারা কেমন সমাজসেবা করবে, বোঝাই যাচ্ছে। সেকারণেই বাংলার মানুষ ওদের ছুড়ে ফেলে দিয়েছে। ওরা আর কোনওদিনই ফিরতে পারবে না।
27d ago
কলকাতা
রাজ্য
দেশ
বিদেশ
খেলা
বিনোদন
ব্ল্যাকবোর্ড
শরীর ও স্বাস্থ্য
বিশেষ নিবন্ধ
সিনেমা
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
আজকের দিনে
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
mesh

বিকল্প উপার্জনের নতুন পথের সন্ধান লাভ। কর্মে উন্নতি ও আয় বৃদ্ধি। মনে অস্থিরতা।...

বিশদ...

এখনকার দর
ক্রয়মূল্যবিক্রয়মূল্য
ডলার৮৩.২৩ টাকা৮৪.৩২ টাকা
পাউন্ড১০৬.৮৮ টাকা১০৯.৫৬ টাকা
ইউরো৯০.০২ টাকা৯২.৪৯ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
*১০ লক্ষ টাকা কম লেনদেনের ক্ষেত্রে
21st     July,   2024
দিন পঞ্জিকা