দক্ষিণবঙ্গ

পরীক্ষা হলে মোবাইল নিষিদ্ধ, ক্ষোভে বেলদা কলেজে তাণ্ডব পড়ুয়াদের, ভাঙচুর, জখম ২০

নিজস্ব প্রতিনিধি, মেদিনীপুর ও সংবাদদাতা, বেলদা: পরীক্ষা হলে মোবাইল নিয়ে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছিল কর্তৃপক্ষ। সেই নিষেধ মানছিলেন না পরীক্ষার্থীরা। পরীক্ষা চলাকালীন একের পর মোবাইল বাজেয়াপ্ত হতে থাকে। চরম অস্বস্তিতে পড়েন তাঁরা। এইসব কারণে কলেজ কর্তৃপক্ষের উপর ক্ষোভ ক্রমেই পুঞ্জীভূত হচ্ছিল। তার বহিঃপ্রকাশ ঘটল শুক্রবার দুপুরে। বেলদা কলেজে পরীক্ষা দিতে এসে তাণ্ডব চালানোর অভিযোগ উঠল খড়্গপুর কলেজের পড়ুয়াদের বিরুদ্ধে। বাধা দিতে গিয়ে বেধড়ক মার খেতে হল বেলদা কলেজের ছাত্র সংসদের সদস্যদেরও। মার, পাল্টা মারে কমপক্ষে ২০ জন পড়ুয়া জখম হয়েছেন। বেলদার আশপাশের তিনটি থানার পুলিস এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে হয়। 
পুলিস সূত্রের খবর, খড়গপুর কলেজ ও দাঁতন-২ ব্লকের কাশমুলি গভর্নমেন্ট জেনারেল ডিগ্রী কলেজের প্রথম সেমেস্টারের পরীক্ষার্থীদের সিট পড়েছে বেলদা কলেজে। গত ১১ জুন থেকে শুরু হয় পরীক্ষা। কলেজ কর্তৃপক্ষের দাবি, পরীক্ষা কেন্দ্রের মধ্যে পড়ুয়াদের মোবাইল সহ কোনও ইলেকট্রনিক গেজেট নিয়ে প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। যদিও সেই নিষেধাজ্ঞা মানছিল না খড়গপুর কলেজের পড়ুয়ারা। বৃহস্পতিবার কলেজে পরীক্ষা চলাকালীন ওই কলেজের ১৭ জন পড়ুয়ার কাছ থেকে মোবাইল বাজেয়াপ্ত করে কলেজ কর্তৃপক্ষ। পরীক্ষা শেষ হলে পড়ুয়াদের সাবধান করে মোবাইল ফিরিয়েও দেওয়া হয়। শুক্রবার ফের কলেজে পরীক্ষা দিতে এসে মোবাইল নিয়ে খড়্গপুর কলেজের ১২ জন পরীক্ষার্থী ধরা পড়ে। পরীক্ষার শেষে বিষয়টি নিয়ে কলেজের মধ্যেই গালিগালাজ করতে থাকেন পরীক্ষার্থীরা। বেলদা কলেজের ছাত্র সংসদের সদস্যরা তার প্রতিবাদ করেন। এনিয়ে দু’পক্ষের বচসা শুরু হয়। অভিযোগ, এরপরই খড়গপুর কলেজের পড়ুয়ার কলেজের মধ্যে থাকা ছাত্র সংসদের অফিসে ভাঙচুর চালায়। ভেঙে দেওয়া হয় চেয়ার, টেবিল, ক্যারাম বোর্ড, টিভি সহ একাধিক সামগ্রী। সংসদকক্ষ থেকে কলেজের বিভিন্ন ক্লাসে চড়াও হয়েও ভাঙচুর চালানো হয়। চলে ইট বৃষ্টি। বেলদা কলেজের পড়ুয়াদের সঙ্গে সংঘর্ষ বাঁধে। ঘটনায় দুই কলেজের কমপক্ষে ২০ জন ছাত্রছাত্রী জখম হন। বেশ কয়েকজনের অবস্থা গুরুতর। তাঁদের বেলদা সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়। খড়্গপুর কলেজের এক পড়ুয়া মোমিন আনসারী বলেন, পুলিসের সামনেই আমাদের সহপাঠীদের মারধর করেন বেলদা কলেজের ছাত্র সংসদের সদস্যরা। আমাদের বেশ কয়েকজন সহপাঠী গুরুতর আহত হয়েছেন। অপরদিকে, বেলদা কলেজের জখম দুই ছাত্র আফতাব আলম ও সুদীপ মাইতি বলেন, ব্যক্তিগত কাজে কলেজ গিয়েছিলাম। সেখানে গিয়ে দেখি, আমাদের ইউনিয়ন অফিস ভাঙচুর করছে কিছু পরীক্ষার্থী। আমরা প্রতিবাদ করায় আমাদের ওপরে ইট দিয়ে মারা হয়। মাবেলদা কলেজের অধ্যক্ষ চন্দ্রশেখর হাজরা বলেন, খড়গপুর কলেজের পড়ুয়ারা মোবাইল নিয়ে অসৎ উপায়ে পরীক্ষা দেওয়ার চেষ্টা করেছিল। বিশ্ববিদ্যালয়ের পক্ষ থেকে নিযুক্ত পরীক্ষকরা তা ধরে ফেলেন। সেই ঘটনাকে কেন্দ্র করেই কলেজে ভাঙচুর চালানো হয়েছে। আমরা বিশ্ববিদ্যালয়কে বিষয়টি জানিয়েছি। আজ, শনিবার সুষ্ঠুভাবে পরীক্ষা পরিচালনার জন্য প্রশাসনের কাছে আবেদন জানিয়েছি।-নিজস্ব চিত্র
1Month ago
কলকাতা
রাজ্য
দেশ
বিদেশ
খেলা
বিনোদন
ব্ল্যাকবোর্ড
শরীর ও স্বাস্থ্য
বিশেষ নিবন্ধ
সিনেমা
প্রচ্ছদ নিবন্ধ
আজকের দিনে
রাশিফল ও প্রতিকার
ভাস্কর বন্দ্যোপাধ্যায়
mesh

বিকল্প উপার্জনের নতুন পথের সন্ধান লাভ। কর্মে উন্নতি ও আয় বৃদ্ধি। মনে অস্থিরতা।...

বিশদ...

এখনকার দর
ক্রয়মূল্যবিক্রয়মূল্য
ডলার৮৩.২৩ টাকা৮৪.৩২ টাকা
পাউন্ড১০৬.৮৮ টাকা১০৯.৫৬ টাকা
ইউরো৯০.০২ টাকা৯২.৪৯ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
*১০ লক্ষ টাকা কম লেনদেনের ক্ষেত্রে
21st     July,   2024
দিন পঞ্জিকা