চাষ আবাদ
 

 কোনও রকমে আলু চাষের এলাকা কভার হলেও পরিচর্যার অভাবে ফলন মার খাবে

 তন্ময় মল্লিক: বীজের দাম তলানিতে এসে ঠেকায় এবার কোনওরকমে আলু চাষের এলাকা অনেকটা কভার হয়ে গেলেও পরিচর্যা নিয়ে চাষিরা চরম সমস্যায় পড়েছেন। নোট বাতিলের ধাক্কায় খেতমজুর না পেয়ে বহু চাষি পরিবার ঘরযোগে কোনওরকমে আলু বসিয়ে দিয়েছেন। কিন্তু, জমিতে সার দেওয়া, পরিচর্যা করা ঠিকমতো হচ্ছে না। কীভাবে চাষিরা চাপান দেবেন, সেচ দেবেন ও পরিচর্যা করবেন, তা ভেবে পাচ্ছেন না। ফলে, আলুর উৎপাদন ভীষণভাবে মার খাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।ডিসেম্বর মাস পর্যন্ত রাজ্যের হিমঘরগুলিতে প্রচুর আলু থেকে যাওয়ায় বাজারে ধস নামার পাশাপাশি বীজের বাজারও জোর ধাক্কা খায়। তার উপর মোদি সরকারের বড় নোট বাতিলের ধাক্কা বীজ ব্যবসায়ীদের একেবারে শুইয়ে দিয়েছে। অন্যান্য বছর যে পাঞ্জাবের বীজে হাত দিতে গেলে ছ্যাঁকা লাগার উপক্রম হয়, সেই বীজ এবার কেনার লোক ছিল না। পশ্চিম মেদিনীপুর সহ বিভিন্ন এলাকায় শেষ দিকে খাওয়ার আলুর দামে বীজ বিক্রি হয়েছে বলে খবর পাওয়া যাচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে চাষিরা আলু ফেলে না দিয়ে কোনওরকমে মাঠ চষে তা কেটে বসিয়ে দিয়েছেন। নোট বাতিলের ধাক্কায় খেতমজুর না পাওয়ায় বহু চাষি পরিবার ঘরযোগে, এমনকী আত্মীয়দের এনে আলু বসিয়েছেন। বেশিরভাগ চাষিই জমি তৈরির জন্য প্রয়োজনীয় সার দিতে পারেননি। কারণ কেন্দ্রীয় সরকার নোট বাতিলের সঙ্গে সঙ্গে সমবায় ব্যাংকগুলিকেও পঙ্গু করে দিয়েছিল। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় লাগাতার সমবায় ব্যাংকগুলিকে অর্থ দেওয়ার দাবি জানানোর পর নভেম্বর মাসের তৃতীয় সপ্তাহ থেকে সমবায় ব্যাংকগুলিকে রিজার্ভ ব্যাংক কিছু কিছু করে অর্থ জোগান দিতে শুরু করে। কিন্তু, তা চাহিদার তুলনায় খুবই কম। সমবায় দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, কৃষিঋণ দেওয়ার জন্য রাজ্যের সমবায় ব্যাংকগুলি ৭০০ কোটি টাকা ডিমান্ড পেশ করলেও মাত্র ১৯০ কোটি টাকা দেওয়া সম্ভব হয়েছে। আলুচাষ যথেষ্ট ব্যয়বহুল চাষ। নিয়মিত সেচ দেওয়ার পাশাপাশি ধসার আক্রমণ থেকে গাছ রক্ষা করার জন্য ওষুধ স্প্রে করতে হয়। উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য দিতে হয় অনুখাদ্য। তার জন্য প্রচুর টাকার প্রয়োজন হয়। কিন্তু, সেই টাকার জোগান নেই। তাই মার খাবে পরিচর্যা। মার খাবে উৎপাদন।
তবে, নোট বাতিলের ধাক্কায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয়ে গেল খেতমজুরদের। আলু বসানো, পরিচর্যা করা, বোরো রোয়ার জন্য খেতমজুর পেতে চাষিদের নাকানিচোবানি খেতে হয়। টাকা নিয়ে খেতমজুরদের পিছনে পিছনে ছুটতে হয়। এই সময় খেতমজুররা ফূরণে কাজ করে দু’টো পয়সার মুখ দেখেন। কিন্তু, নোট বাতিলের ধাক্কায় সব মাটি হয়ে গিয়েছে। চাষি থেকে সাধারণ মানুষ যখন টাকার জন্য এটিএমে, ব্যাংকে লাইন দিচ্ছেন, তখন খেতমজুররা তাঁদের বউ, বাচ্চার পেট চালানোর জন্য কোথায় যাবেন, কী করবেন ভেবে পাচ্ছেন না। দিন দশেক পর ডিসেম্বর মাস শেষ হয়ে যাবে। প্রধানমন্ত্রীর আশ্বাস অনুযায়ী হয়তো টাকার জোগান অনেকটাই বেড়ে যাবে, সাধারণ মানুষের দুর্ভোগও হয়তো কিছুটা কমবে, কিন্তু অনাহারে, অর্ধাহারে দিন দিন রুগ্‌ণ হতে থাকা খেতমজুরদের অপুষ্টির ক্ষতে কি প্রলেপ পড়বে?
21st  December, 2016
 হুইট ব্লাস্ট রুখতে মুর্শিদাবাদে ২বছর গম চাষ না করার সিদ্ধান্ত

 বিএনএ, বহরমপুর: হুইট ব্লাস্ট রুখতে দু’বছর মুর্শিদাবাদ জেলায় ‘হুইট হলিডে’ বা গম চাষ না করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। শুক্রবার একথা জানিয়েছে জেলা কৃষি দপ্তর। তারা গমের বিকল্প হিসাবে কৃষকদের ডালশস্য ও তৈলবীজ চাষের পরামর্শ দিচ্ছে। এজন্য কৃষকদের বিনামূল্যে ডালশস্য ও তৈলবীজ প্রদান করবে কৃষি দপ্তর।
বিশদ

16th  September, 2017
লাভজনক করলা চাষ

সংবাদদাতা: করলা চাষ লাভজনক। গ্রীষ্ম ও বর্ষা দুই ঋতুতেই চাষ করা যায়। বোনার দু’মাস পর থেকেই ফল পাওয়া যায়। এটি অধিক ফলনশীল জাত। গাঢ় সবুজ রঙের এই ফসলে আছে ভেষজ গুণ।
বিশদ

13th  September, 2017
বর্ষাতেও ঝিঙে চাষ

 সংবাদদাতা: কৃষিবিদরা বলেন, ঝিঙে প্রধানত গ্রীষ্মকালীন ফসল। ফাল্গুন-চৈত্র মাসের মাঝামাঝি গাছ লাগানো হয়। জ্যৈষ্ঠ-আষাঢ় মাস থেকে গাছে ফলন আসতে শুরু করে। এই গাছ সারিবদ্ধভাবে লাগানো দরকার।
বিশদ

13th  September, 2017
মৌমাছি পালনে গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শ

সংবাদদাতা: বর্তমানে অন্যান্য চাষের পাশাপাশি মৌমাছি পালনও বেশ লাভজনক দাঁড়িয়েছে। মৌ-পালন করে ভালোভাবেই সংসার চালাচ্ছেন অনেকে। জমিতে মৌ-পালন বাক্স বসিয়ে মধু উৎপাদন করে, সেই মধু বাজারে বিক্রি করে উদ্যোগীরা ভালোই লাভ করছেন। বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, লাভজনক হলেও মধু-চাষে বেশকিছু সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নেওয়া উচিত।
বিশদ

13th  September, 2017
বানভাসি ধানের জমিতে ডাল চাষের পরামর্শ কৃষি দপ্তরের

মনসুর হাবিবুল্লাহ: সম্প্রতি বন্যা পরিস্থিতির জেরে নষ্ট হয়ে যাওয়া ধানের জমিতে ডাল চাষের পরামর্শ দিচ্ছে কৃষি দপ্তর । ডাল থেকে সবচেয়ে বেশী উদ্ভিজ্জ প্রোটিন পাওয়া যায়। ডাল শস্যে ১৮-২৫ শতাংশ প্রোটিন থাকে। ডালের শিকড়ে থাকা রাইবোজোম বাতাসের নাইট্রোজেন ধরে জমিতে সরবরাহ করে।
বিশদ

13th  September, 2017
ভুট্টা চাষের সম্ভাবনা বাড়ছে, চাহিদাও

সংবাদদাতা: ভুট্টা চাষের বিপুল সম্ভাবনা রয়েছে বলে কৃষি দপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে। কিন্তু বিপণন এবং ভুট্টার বহুমুখী ব্যবহার সম্পর্কে অধিকাংশ চাষিরা এখনও আশা-নিরাশায় রয়েছেন। ব্লক কৃষি দপ্তর বলছে, স্থানীয় বাজারগুলির পাশাপাশি অন্য জেলার বিশেষত সীমান্ত অঞ্চলে ব্যবসায়ীরাও ভুট্টা কিনতে বিশেষভাবে আগ্রহী।
বিশদ

13th  September, 2017
হাজামজা নদীর পাড় ভাঙছে, ডুবছে ফসল, ক্ষতির মুখে চাষিরা

শ্যামল হালদার: রাজ্যে হাজামজা নদীনালা যে জগদ্দল পাথরের মতো বড় সমস্যা তাতে কোনও সন্দেহ নেই। ভারী বর্ষা হলে তা হাড়ে হাড়ে টের পাওয়া যাচ্ছে। দীর্ঘদিনের টালবাহানায় জেলায় জেলায় নদী প্রকল্পগুলি ঝুলে আছে। হেজে মজে আছে ছোট বড় এমন বহু খাল। এসব খাল দিয়ে ভারী বৃষ্টির জল টেনে নীচের দিকে দিকে বয়ে যেত।
বিশদ

13th  September, 2017
সুপারি গাছ পুঁতুন এই বর্ষাতেই

উজ্জ্বল বন্দ্যোপাধ্যায়: উত্তর ২৪ পরগনার মাটি চাষের পক্ষে উর্বর। এই জেলায় ব্যাপকহারে সুপারির চাষ হয়। জেলার বাগদা, গাইঘাটা, বনগাঁ, স্বরূপনগর, বসিরহাট, মিনাখাঁ, আমডাঙা সহ বহু ব্লকে রয়েছে মাঝারি এবং বড় মাপের প্রচুর সুপারি বাগান।
বিশদ

06th  September, 2017
বনাঞ্চল রক্ষা করে চাষের উন্নতি

অলোক বন্দ্যোপাধ্যায়: আলিপুরদুয়ার জেলায় জেলা পরিষদ হলে সম্প্রতি পূর্ব ডুয়ার্স ট্যুরিজম ডেভেলভমেন্ট অ্যাসোসিয়েশনের উদ্যোগে বনাঞ্চল রক্ষা করে বনাঞ্চলের উন্নতি এবং চাষ জমির উন্নতির জন্য এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।
বিশদ

06th  September, 2017
কাঁকরোল চাষ করে আয়

সংবাদদাতা: এখন কাঁকরোলের চাহিদা বেশ ভালোই। ভাজা, তরকারি সবেই ব্যবহার হয়। দেশি জাতেরই চাষ হয়ে থাকে বেশি। মোটামুটি তিন রকমের জাত দেখা যায়। ফল আকারে বেশ বড়। ৫-৬টি কাঁকরোলেই এক কেজি হয়ে যায়। ২) ফল মাঝারি আকারে হয়। গোল। ৮-১০টিতে ১ কেজি হয়। ৩) আকার অনেকটাই ছোট। উচ্ছের মতো দেখতে হয়।
বিশদ

06th  September, 2017
মাটির উর্বরতা বাড়ান

 সংবাদদাতা: মাটির উর্বরতা বাড়াতে একই জমিতে প্রতিবছর একই ফসল চাষ না করে মাঝেমধ্যে ডাল শস্য চাষ করা ভালো। এমন কথা বলছেন কৃষি বিশেষজ্ঞরা। কৃষিবিদরা বলছেন, এতে জমির উর্বরতা বাড়ে। যে কোনও মাটিতেই ডালশস্য চাষ করা যায়। তবে দোআঁশ-এঁটেল মাটিই এই চাষের পক্ষে বেশি উপযুক্ত। 
বিশদ

06th  September, 2017

Pages: 12345

একনজরে
বিএনএ, শিলিগুড়ি ও সংবাদদাতা দার্জিলিং: সোমবার দার্জিলিংয়ের লালকুঠিতে জিটিএ’র প্রশাসক পর্ষদের চেয়ারম্যান হিসাবে কাজে যোগ দিলেন মোর্চা নেতা বিনয় তামাং। সোমবার আধিকারিকদের নিয়ে প্রথম বৈঠকেই ...

অভিজিৎ সরকার  শিলিগুড়ি, ২৫ সেপ্টেম্বর: রবিবার লিগ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পরই রাতে টিম হোটেলে কেক কেটে সেলিব্রেশন করেছেন ইস্ট বেঙ্গল ফুটবলাররা। মঙ্গলবার সকালে ক্লাব তাঁবুতে ...

 বিএনএ, বারাকপুর: দলের এক সময়ের সেকেন্ড-ইন-কমান্ড মুকুল রায় সোমবার সাংবাদিক সম্মেলন করে কার্যত তৃণমূল ছাড়ার কথা ঘোষণা করেছেন। স্বাভাবিকভাবে তাঁর পুত্র বীজপুরের তৃণমূল বিধায়ক শুভ্রাংশু রায়ের ভূমিকা কী হবে, তা নিয়ে দলের মধ্যে গুঞ্জন শুরু হয়েছে। ...

 হরিহর ঘোষাল, বারাকপুর, বিএনএ: কামারহাটি পুরসভায় রেশন কার্ড নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। জাতীয় খাদ্য সুরক্ষা আইনের কার্ড প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিলি করা না হলেও একজন রেশন ডিলারের কাছে ভূরি ভূরি কার্ড জমা পড়েছে। ...


আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

গুপ্ত শত্রুতা বৃদ্ধি। কর্মে উন্নতি। ব্যবসায় অতিরিক্ত সতর্কতার প্রয়োজন। উচ্চশিক্ষায় সাফল্য। শরীর-স্বাস্থ্য ভালো যাবে।প্রতিকার: বট ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮২০: মনীষী ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের জন্ম
১৯২৩: অভিনেতা দেব আনন্দের জন্ম
১৯৩২: ভারতের চতুর্দশ প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের জন্ম
১৯৭৭: নৃত্যশিল্পী উদয়শংকরের মৃত্যু
১৯৮৯: সঙ্গীতশিল্পী হেমন্ত মুখোপাধ্যায়ের মৃত্যু

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৪.০১ টাকা ৬৫.৬৯ টাকা
পাউন্ড ৮৬.২৫ টাকা ৮৯.১৭ টাকা
ইউরো ৭৬.০১ টাকা ৭৮.৬৬ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩০,২৫৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ২৮,৭০৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ২৯,১৩৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৯,৮০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৯,৯০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৯ আশ্বিন, ২৬ সেপ্টেম্বর, মঙ্গলবার, ষষ্ঠী, নক্ষত্র-অনুরাধা দং ৩/৫১ দিবা ঘ ৭/৩, সূ উ ৫/৩০/২, অ ৫/২৬/১২, অমৃতযোগ দিবা ঘ ৬/১৭ মধ্যে পুনঃ ৭/৫ গতে ১১/৪ মধ্যে। রাত্রি ঘ ৭/৪৯ গতে ৮/৩৯ মধ্যে পুনঃ ৯/২৭ গতে ১১/৫২ মধ্যে পুনঃ ১/২৯ গতে ৩/৬ মধ্যে পুনঃ ৪/৪১ গতে উদয়াবধি, বারবেলা ৬/৫৯ গতে ৮/২৯ মধ্যে পুনঃ ১২/৫৮ গতে ২/২৮ মধ্যে, কালরাত্রি ৬/৫৯ গতে ৮/২৮ মধ্যে।
৯ আশ্বিন, ২৬ সেপ্টেম্বর, মঙ্গলবার, ষষ্ঠী, অনুরাধানক্ষত্র ৭/৯/৪, সূ উ ৫/২৮/৩৬, অ ৫/২৭/১৩, অমৃতযোগ দিবা ৬/১৬/৩০, ৭/৪/২৫-১১/৩/৫৭, রাত্রি ৭/৫১/৩০-৮/৩৯/৩৫, ৯/২৭/৪১-১১/৫১/৫৭, ১/২৮/৮-৩/৪/১৯, ৪/৪০/৩০-৫/২৮/৫৬, বারবেলা ৬/৫৭/২৬-৮/২৮/১৫, কালবেলা ১২/৫৭/৪৪-২/২৭/৩৪, কালরাত্রি ৬/৫৭/২৩-৮/২৭/৩৪।
 ৫ মহরম

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
ভিড়ের জেরে আজও বাড়ানো হল রাতের শেষ মেট্রোর সময় 
ষষ্ঠীর রাতে কলকাতা শহরে জনজোয়ারের জেরে এদিনও রাতের ...বিশদ

09:42:56 PM

সল্টলেকের ইসি ব্লকের কাছে অটো উলটে চালক-সহ জখম ৪

02:37:00 PM

বড়সড় রেল দুর্ঘটনায় হাত থেকে রক্ষা, একই লাইনে চলে এল ৩টি ট্রেন
বড়সড় রেল দুর্ঘটনায় হাত থেকে রক্ষা। এলাহাবাদের কাছে ...বিশদ

01:44:46 PM

গাজিয়াবাদে ব্যবসায়ীকে খুন, মৃতের নাম রাজেন্দ্র আগরওয়াল (৭৫)

01:24:00 PM

আজ দিল্লি আদালতে দুপুর ২টো নাগাদ হানিপ্রীতের আগাম জামিনের শুনানি

01:19:00 PM

দার্জিলিংয়ে খুলল অধিকাংশ দোকানপাট

01:08:00 PM

ঝাড়গ্রামে ২টি বাড়িতে দুঃসাহসিক চুরি
সোমবার রাতে ঝাড়গ্রাম শহরের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের বামদা এলাকায় চুরির ...বিশদ

01:01:00 PM