Bartaman Patrika
চাষ আবাদ
 

 বছরে মিলবে ৩০০টি ডিম, জল ছাড়াই খাকি ক্যাম্পবেল হাঁস পালন

 নিজস্ব প্রতিনিধি: বেশি ডিমের জন্য খাকি ক্যাম্পবেল হাঁস পালন করা যেতে পারে। প্রাণী বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ঠিকমতো পরিচর্যা করতে পারলে এই হাঁস বছরে ৩০০টি ডিম দিতে সক্ষম। এই হাঁস পালনে খাবার থেকে বাসস্থানের দিকে বিশেষ যত্ন নিতে হবে। লাভজনক ব্যবসা হিসেবে খাকি ক্যাম্পবেল হাঁস পালন যথেষ্ঠ সম্ভাবনাময়। এই হাঁস পালনের জন্য বড় জলাশয়ের প্রয়োজন হয় না। শুধুমাত্র হাঁসের স্নানের জন্য কৃত্রিম জলাশয় কিংবা চৌবাচ্চা তৈরি করে বৈজ্ঞানিক প্রথায় এদের পালন করা সম্ভব। খাকি ক্যাম্পবেল সংকরায়ণ পদ্ধতিতে উৎপন্ন একটি উন্নত প্রজাতির হাঁস। এই হাঁসের রোগব্যাধিও কম হয়। খাকি ক্যাম্পবেল হাঁস থাকার জন্য বাসস্থান একটু উঁচু জায়গায় করতে হবে। হাঁসের ঘরের মেঝে যেন কখনও স্যাঁতসেতে না থাকে। ঘরটিতে যেন আলো-বাতাস চলাচলের ব্যবস্থা থাকে। খাকি ক্যাম্পবেল হাঁস সম্পূর্ণ ছেড়ে কিংবা আংশিক ছেড়ে বা সম্পূর্ণ আবদ্ধ অবস্থায় পালন করা যেতে পারে।
উত্তর ২৪ পরগনার গোবরডাঙায় রাজ্য পোল্ট্রি খামারের সহ অধিকর্তা ড. জয়দেব বেরা জানিয়েছেন, গরমকালে খাকি ক্যাম্পবেলের বিশেষ পরিচর্যা প্রয়োজন। বেশিক্ষণ যেন খাবার খোলা অবস্থায় পড়ে না থাকে। হাঁস যেহেতু ভেজা খাবার খায়, ফলে ভেজা খাবারের উপর যদি রোদ পড়ে তা হলে সেই খাবার দ্রুত খারাপ হয়ে যেতে পারে এবং খাবারের মধ্যে টক্সিন তৈরি হয়ে যায়। সেজন্য এইসময় একবারে বেশি খাবার না দিয়ে হাঁসকে বারেবারে অল্প পরিমাণে খাবার দিতে পারলে ভালো। খাবারের পাত্রের কাছেই জলের ব্যবস্থা রাখতে হবে। জল যেন ঠান্ডা থাকে। বারেবারে জল পাল্টে দিতে পারলে ভালো হয়। এই সময় হঠাৎ করে ঝড়-বৃষ্টি হতে পারে। হাঁসের খাবার যেন বৃষ্টিতে না ভেজে। তা হলে খাবারে থাকা লবণাক্তভাব নষ্ট হয়ে যায়। ফলে খাবার স্বাদহীন হয়ে পড়ে। ওই খাবার হাঁস খেতে চায় না। দিনেরবেলায় হাঁস রান এরিয়া অর্থাৎ আকাশের নিচে রাখতে হয়। কিন্তু রোদ গায়ে লাগলে হাঁসের কষ্ট হতে পারে। সেজন্য শেডের ব্যবস্থাও রাখতে হবে। হাঁস যখন চাইবে, তখন খোলা জায়গায় থাকবে। যখন মনে করবে শেডের নিচে চলে আসবে।
বর্ষায় খাকি ক্যাম্পবেল হাঁস যেন কোনওভাবেই না ভেজে। হাঁসের খাবার খোলা জায়গায় বেশিক্ষণ রাখা চলবে না। হাঁসের খাওয়ার জল শোধন করে দিতে হবে। হাঁসের থাকার ঘর সবসময় পরিষ্কার-পরিচ্ছন্ন রাখতে হবে। নিয়মিত হাঁসকে প্রতিষেধক দেওয়া উচিত। হাঁসের বাচ্চার থাকার জন্য পর্যাপ্ত জায়গা দিতে হবে। বয়স ভেদে সুষম খাবার দেওয়া দরকার। হাঁসের ঘরে লিটারের উপর ৯:১ অনুপাতে চুন ও ব্লিচিং ছড়াতে হবে। এতে লিটার ঝুরঝুরে এবং দুর্গন্ধমুক্ত থাকবে।
এক সপ্তাহ বয়সের একটি হাঁসের বাচ্চাকে ১৫ গ্রাম অনুপাতে খাবার দেওয়া দরকার। ২ সপ্তাহের হাঁসের বাচ্চার ক্ষেত্রে খাবারের পরিমাণ হবে ২৫ গ্রাম। ৩ সপ্তাহের ক্ষেত্রে খাবারের পরিমাণ ৪০ গ্রাম। ৪ সপ্তাহের ক্ষেত্রে খাবার লাগবে ৫০ গ্রাম। ৫ মাসের পর থেকে সপ্তাহে ১৪০ গ্রাম খাবার দেওয়া উচিত। যাঁরা বাজার থেকে কেনা খাবার খাওয়ান, তাঁদের খেয়াল রাখতে হবে, খাকি ক্যাম্পবেল বাচ্চার ১দিন থেকে ২ মাস বয়স পর্যন্ত ডাক স্টার্টার, ২ মাস থেকে ৫মাস পর্যন্ত ডাক গ্রোয়ার ও ৫ মাসের পর থেকে লেয়ার খাবার দিতে হবে। খাকি ক্যাম্পবেল সাড়ে ৪ মাসের পর থেকে ডিম দেওয়ার অবস্থায় চলে আসে। হাঁসের ঘরে রাতে আলো জ্বেলে রাখতে হবে। দেড় মাস থেকে ২ মাস পর্যন্ত হাঁসকে জলে নামতে দেওয়া যাবে না। ডাঙায় পালন করতে হবে। হাঁসের ঘরের তাপমাত্রা ৩০-৩২ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা থাকা উচিত। একটি হাঁসের জন্য রাতে আড়াই বর্গ ফুট জায়গা দরকার। হাঁসকে সবসময় টাটকা খাবার দিতে হবে।
সাধারণভাবে খাকি ক্যাম্পবেল হাঁসের রোগব্যাধি কম। তবুও কিছু রোগ হয়ে থাকে। সেক্ষেত্রে আগাম প্রতিষেধক দিতে হবে। তা হলে সমস্যা অনেকটাই এড়ানো সম্ভব। খাকি ক্যাম্পবেলের প্লেগ রোগ হয়ে থাকে। এই রোগ হলে হাঁস ঝিমোয়। চোখ বন্ধ হয়ে যায়। নাক-মুখ দিয়ে জল বেরতে থাকে। সবুজাভ-সাদা পাতলা মলত্যাগ করে। তিন-চারদিনেই হাঁস মারা যায়। প্রতিষেধক হিসেবে প্রথমে ২ সপ্তাহে, পরে ১০ সপ্তাহে, শেষে ২৪ সপ্তাহে টিকা দিতে হবে। তার পর বছরে একবার করে টিকা দেওয়া দরকার।
08th  May, 2019
কিচেন গার্ডেনে ফল ও সব্জি বাগান গড়ে আয়

অলোক বন্দ্যেপাধ্যায় : গ্রামের যেসব চাষি পরিবারের মধ্যে চাষের কোনও নিজস্ব জমি নেই, অন্যের জমিতে ভাগে চাষ করে তারা দিন গুজরান করে। সেসব পরিবারের সদস্যরা বাড়িতে ফাঁকা জায়গাকে কাজে লাগিয়ে ফলের গাছ যেমন কলা, পেঁপে, পেয়ারা, লেবু, দু-একটি সব্জি যেমন বেগুন, লাউ, চালকুমড়ো, কুমড়ো, কাঁচালঙ্কার গাছ লাগাতে পারেন।
বিশদ

15th  May, 2019
দক্ষিণ ২৪ পরগনায় বাড়ছে তেলাপিয়া ও মাগুরের যৌথ চাষ

সংবাদদাতা: দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিভিন্ন ব্লকে যেমন কুলতলি, মগরাহাট ১ ও ২, বারুইপুর, জয়নগর ১ ও২, মথুরাপুর ১ ও ২ এবং মন্দিরবাজার এলাকায় চলছে তেলাপিয়ার সঙ্গে দেশি মাগুরের চাষ। এই যৌথ মাছচাষে অনেক বেশি লাভ মিলছে বলে মৎস্যচাষিরা জানিয়েছেন।
বিশদ

15th  May, 2019
খুদে বোলতাতে জনপ্রিয় হচ্ছে ফেরোমেন ফাঁদ

সংবাদদাতা: নামেই ফলের মাছি। আসলে এটি খুদে বোলতা। এই পোকাটি দমনে গ্যাপ বা গুড এগ্রিকালচারাল প্র্যাকটিস নিয়ে এসেছে নতুন ধরনের এক ফেরোমেন ফাঁদ। যাতে শুধুমাত্র পুরুষ পোকাই আকৃষ্ট হবে এবং ফাঁদে পড়ে মারা যাবে। এভাবে ছোট বোলতা দমনের পদ্ধতির আরএক নাম আকর্ষণ এবং দমন পদ্ধতি।
বিশদ

15th  May, 2019
চাষে বাড়ছে জীবাণুসারের প্রয়োজনীয়তা

 সংবাদদাতা: বর্তমানে যেকোনও ফসল চাষে জীবাণুসার প্রয়োগ অত্যন্ত জরুরি। যেকোনও ফসল চাষ করতে গেলে চাষিরা যদি নিয়ম মেনে জীবাণুসার প্রয়োগ করে থাকেন, তা হলে উৎপাদন ২০ থেকে ৩৫ শতাংশ পর্যন্ত বৃদ্ধি করা সম্ভব। সমস্ত ফসলে একই ধরনের জীবাণুসার প্রয়োগ করা চলবে না।
বিশদ

15th  May, 2019
প্রচণ্ড গরমের জেরে জমিতেই তিতো হয়ে যাচ্ছে ঝিঙে, শশা

 সংবাদদাতা: দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিভিন্ন ব্লকে অর্থাৎ নামখানা, কাকদ্বীপ, সাগরদ্বীপ, পাথরপ্রতিমা, কুলতলি, কুলপি, জয়নগর ১ ও ২, বারুইপুর, মগরাহাট ১ও ২, ডায়মন্ডহারবার ১ ও ২-এ গ্রীষ্মের দাবদাহে খেতেই বিভিন্ন ফসল যেমন ঝিঙে, শশা ও ধুধুলের স্বাদ তিতো হয়ে যাচ্ছে। এতে চাষিরা যেমন অবাক হচ্ছেন, তেমনই হচ্ছেন দিশাহারা।
বিশদ

15th  May, 2019
রানাঘাটে ত্রিস্তর চাষ

 সংবাদদাতা: নদীয়া জেলার রানাঘাট মহকুমায় চলছে ত্রিস্তর পদ্ধতিতে চাষ। ৪ ফুট বাই ৪ ফুট জায়গায় বসানো হচ্ছে কাঠের ফ্রেম। ফ্রেমের উচ্চতা ৫ ফুট। ফ্রেমের ১ ফুট উঁচুতে বসানো হয়েছে ৪ ফুট বাই ৪ ফুট বাই ১ ফুট কাঠের ট্রে। এই ট্রেতে জল দেওয়া হচ্ছে। ছাড়া হচ্ছে ট্যাংরা মাছের মীন।
বিশদ

15th  May, 2019
বর্ষাকালীন মুগডাল চাষে এখনই প্রস্তুতি নিতে হবে

সংবাদদাতা: মুগ ডাল চাষ করে চাষিরা ভালো আর্থিক লাভ পেতে পারেন। মুগের চাহিদা বাজারে সারাবছর থাকে। এবং দামও ভালো পাওয়া যায়। যেকোনও ডালের থেকে বাজারে মুগ ডালের দাম সবসময় বেশি থাকে।
বিশদ

15th  May, 2019
খরচ নামমাত্র, কম সময়ে বেশি লাভ পেতেই আগ্রহ বাড়ছে মাশরুম চাষে

মাশরুম চাষে মানুষের আগ্রহ বাড়ছে, তার দু’টি নির্দিষ্ট কারণ রয়েছে। এক, মাশরুম চাষে পুঁজি খুবই কম লাগে। সিলিন্ডার প্রতি খরচ হয় ২২-২৪ টাকা। আর আয় হয় কমপক্ষে ১১০-১২০ টাকা। দুই, মাশরুম বাজারজাত করতে সময় লাগে মাত্র এক থেকে দেড় মাস। মাশরুম উৎপাদন পদ্ধতিও অত্যন্ত সহজ। কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্র বা ব্লক সহকারি কৃষি অধিকর্তার সঙ্গে যোগাযোগ করলে মাশরুম উৎপাদন সম্পর্কে জানতে পারবেন আগ্রহীরা। মাশরুমে কিছু ক্ষেত্রে ছত্রাকের আস্তরণ পড়ে। ব্যাকটেরিয়া ঘটিত বাদামি রস ঝরা রোগ হতে পারে। ফটকিরি জল বিশেষ উপকারি। ড. অভিজিৎ ঘোষাল, শস্য সুরক্ষা বিশেষজ্ঞ, দক্ষিণ ২৪ পরগনার শস্য শ্যামলা কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্র
বিশদ

15th  May, 2019
 দক্ষিণ ২৪ পরগনায় চাষ বাড়ছে হাইব্রিড ঢেঁড়সের

  সংবাদদাতা: দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিভিন্ন এলাকায় হাইব্রিড ঢেঁড়স চাষ হচ্ছে। এর ফলন বেশি। রোগপোকার আক্রমণ কম। বারুইপুর, মগরাহাট ১ ও ২, ডায়মণ্ডহারবার ১ ও ২, ফলতা, বিষ্ণুপুর ১ ও ২, বজবজ ১ ও ২, জয়নগর ১ ও ২ এবং কুলপিতে চলছে হাইব্রিড ঢেঁড়সের চাষ। প্রচুর চাষি গ্রীষ্মকালীন ঢেঁড়স চাষ করে ভালো ফলন পেয়েছেন।
বিশদ

08th  May, 2019
বারুইপুরে নতুন পেয়ারা বাগানে ব্যবহৃত হচ্ছে বাড়িতে তৈরি জৈবসার

  সংবাদদাতা: দক্ষিণ ২৪ পরগনার বারুইপুরে নতুন পেয়ারা বাগানে অনেক কৃষক ব্যবহার করছেন বাড়িতে তৈরি জৈবসার। তাতে ভালো ফলন মিলছে। বারুইপুর ব্লক পেয়ারা চাষের জন্য বিখ্যাত। বর্ষার আগে বহু চাষি তাঁদের পুরনো বাগান বাগানের সব গাছ তুলে ফেলে নতুন বাগান তৈরি করছেন।
বিশদ

08th  May, 2019
 পাটচাষে সমস্যা বাড়ছে, জেসিআই নিয়েও ক্ষোভ

  সংবাদদাতা: এমনিতেই পাটচাষে সমস্যা লেগে রয়েছে। প্রতি বছর পাট চাষের খরচ বাড়ছে। এছাড়াও চাষের বিভিন্ন সমস্যা রয়েছে। উত্তর ২৪ পরগনার বারাসতে জেসিআই অফিসে গেলে সেসব সমস্যার অনেকটাই সুরাহা পেতেন চাষিরা। কিন্তু অফিসটি উঠে যাওয়ায় পাটচাষিদের হয়রানি বেড়েছে।
বিশদ

08th  May, 2019
বর্ষা শুরুর আগে স্বল্প মেয়াদি সব্জিচাষ 

 সংবাদদাতা: বর্ষা শুরুর আগে স্বল্প মেয়াদি সব্জি চাষ করে লাভ ঘরে তুলতে পারবেন চাষিরা। এই সময় বিভিন্ন ধরনের শাক, ঝিঙে, শশা, পটল, মিষ্টি কুমড়ো, চাল কুমড়ো চাষ করা যেতে পারে বলে জানিয়েছেন কৃষি আধিকারিকরা। কালবৈশাখীর বৃষ্টি এইসব সব্জি চাষের পক্ষে জলের প্রয়োজন মেটাতে পারে। প্রয়োজনে সেচ দিতে হবে।
বিশদ

08th  May, 2019
 জমির চরিত্র বুঝেই চাষ করতে হবে আমন, জরুরি ভালো জাতের বীজ

ব্রতীন দাস: এখন থেকেই আমন ধান চাষের জন্য ভালো জাতের বীজ সংগ্রহ করতে হবে। সেক্ষেত্রে বিশ্বস্ত সংস্থা বা প্রতিষ্ঠান থেকে বীজ সংগ্রহ করার সুপারিশ করছেন কৃষি আধিকারিকরা।
বিশদ

08th  May, 2019
বাড়ি-ফ্ল্যাটের ছাদ, ব্যালকনি সাজাতে পাতাবাহার ও ফার্ন
কীভাবে বাগান করবেন?

 নিজস্ব প্রতিনিধি: পাতাবাহার, ফার্নের বাগান থেকে বাণিজ্যিকভাবে আয় করা সম্ভব। বিশেষজ্ঞদের বক্তব্য, বাগান করার ক্ষেত্রে এমন গাছ নির্বাচন করতে হবে, যেগুলি সহজেই বেড়ে ওঠে এবং অল্প পরিচর্যার প্রয়োজন হয়। ছায়া কিংবা আংশিক ছায়ায় গাছ বেঁচে থাকবে। আলোক তীব্রতা সহনশীল হবে।
বিশদ

02nd  May, 2019

Pages: 12345

একনজরে
 নিজস্ব প্রতিনিধি, ডায়মন্ডহারবার: বুথ না ভারত-পাকিস্তান সীমান্ত! বাইরে থেকে বোঝার উপায় নেই। বালির বস্তা দিয়ে একেবারে বাঙ্কার বানিয়ে সশস্ত্র বাহিনী রয়েছে পাহারায়। যে কোনও সীমান্তে ...

 রঞ্জুগোপাল মুখোপাধ্যায়, শালতোড়া, বিএনএ: রবিবার কড়া নিরাপত্তায় বাঁকুড়া লোকসভার অন্তর্গত শালতোড়ার ১ নম্বর বুথে পুনর্নির্বাচন হয়। এদিন নির্বিঘ্নে ভোটগ্রহণপর্ব সম্পন্ন হয়। তবে বিজেপির তরফে দলীয় পোলিং এজেন্টকে বুথে যাওয়ার সময় বাধা দেওয়ার অভিযোগ তোলা হয়েছে। ...

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: জেলা নির্বাচনী আধিকারিক এবং জেলা প্রশাসনের প্রস্তাব মতো ভোটকর্মীদের সুবিধার্থে তিনটি বিশেষ ট্রেন চালাল পূর্ব রেল। পূর্ব রেল সূত্রের খবর, এই বিশেষ ট্রেনগুলি চালিয়েছে শিয়ালদহ বিভাগ।  ...

নয়াদিল্লি, ১৯ মে (পিটিআই): অরবিন্দ কেজরিওয়ালের নিরাপত্তা খতিয়ে দেখতে রবিবার দিল্লির পুলিস কমিশনারের কাছে আর্জি জানাল রাজ্য বিজেপি। এ বিষয়ে পুলিস কমিশনার অমূল্য পট্টনায়েককে চিঠি দিয়েছে তারা। বিজেপি মুখপাত্র প্রবীণ শঙ্কর কাপুর একথা জানিয়েছেন। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

উচ্চতর বিদ্যায় বাধা কাটবে। বড়দের কথার মান্যতা দেওয়া দরকার। ব্যবসা সূত্রে উপার্জন বৃদ্ধি। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৫০৬- ক্রিস্টোফার কলম্বাসের মৃত্যু
১৯০২- প্রজাতন্ত্র দেশ হিসেবে ঘোষণা কিউবার
১৯৩২- স্বাধীনতা সংগ্রামী বিপিনচন্দ্র পালের মৃত্যু
১৯৭৭- ভারতীয় মহিলা ক্রিকেটার অঞ্জুম চোপড়ার জন্ম

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৯.৪৩ টাকা ৭১.১২ টাকা
পাউন্ড ৮৮.২৮ টাকা ৯১.৫৩ টাকা
ইউরো ৭১.১০ টাকা ৮০.০৫ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
18th  May, 2019
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩২,৪২০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩০,৭৬০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩১,২২০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৬,৫০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৬,৬০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
19th  May, 2019

দিন পঞ্জিকা

৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২০ মে ২০১৯, সোমবার, দ্বিতীয়া ৫০/৫৮ রাত্রি ১/২২। জ্যেষ্ঠা ৫৩/৪৭ রাত্রি ২/২৯। সূ উ ৪/৫৮/৩৩, অ ৬/৭/৩৬, অমৃতযোগ দিবা ৮/২৯ গতে ১০/১৪ মধ্যে। রাত্রি ৯/১ গতে ১১/৫৫ মধ্যে পুনঃ ১/২১ গতে ২/৪৯ মধ্যে, বারবেলা ৬/৩৮ গতে ৮/১৬ মধ্যে পুনঃ ২/৫০ গতে ৪/২৯ মধ্যে, কালরাত্রি ১০/১২ গতে ১১/৩৩ মধ্যে।
৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২০ মে ২০১৯, সোমবার, দ্বিতীয়া ৫১/৫৭/৫৯ রাত্রি ১/৪৫/৩০। জ্যেষ্ঠানক্ষত্র ৫৫/৩৮/০ রাত্রি ৩/১৩/৩০, সূ উ ৪/৫৮/১৮, অ ৬/৯/৩০, অমৃতযোগ দিবা ৮/২৮ গতে ১০/১৬ মধ্যে এবং রাত্রি ৯/৬ গতে ১১/৫৬ মধ্যে ও ১/২২ গতে ২/৪৮ মধ্যে, বারবেলা ২/৫১/৪২ গতে ৪/৩০/৩৬ মধ্যে, কালবেলা ৬/৩৭/১২ গতে ৮/১৬/৬ মধ্যে, কালরাত্রি ১০/১২/৪৮ গতে ১১/৩৩/৫৪ মধ্যে। 
১৪ রমজান

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
কাঁকিনাড়ায় অবরোধ উঠল 
২ ঘণ্টারও বেশি সময় পর কাঁকিনাড়ায় রেল অবরোধ উঠল। এদিন ...বিশদ

10:15:45 AM

বিধানসভা উপনির্বাচন: সকাল ৮টা পর্যন্ত কান্দিতে ৯.২৫ ও ন‌ওদায় ১০.৩৫ শতাংশ ভোট পড়ল

09:31:17 AM

 ভোট শেষে চপ-মিষ্টিতে মজে রইল জয়নগর
প্রতিদিনই দোকানে চপ, অমৃতি ভাজা হয়। কিন্তু, প্রতিদিন যা বিক্রি ...বিশদ

09:20:00 AM

  জয়নগরে জওয়ানদের মানবিক মুখ
একদিকে কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে যখন একাধিক অভিযোগ উঠছে, তখন ...বিশদ

09:15:00 AM

কাঁকিনাড়ায় রেল অবরোধ 
ভোটে হিংসার জেরে রেল অবরোধ কাঁকিনাড়ায়। এদিন সকাল ৭.১৫ থেকে ...বিশদ

08:55:00 AM

রেকর্ড ভোট পড়ল বিশ্বের সবথেকে উচ্চতার বুথে
সবরকম প্রতিকূলতা উপেক্ষা করে বিশ্বের সর্বোচ্চ উচ্চতায় অবস্থিত বুথে মহানন্দে ...বিশদ

08:41:00 AM