Bartaman Patrika
শরীর ও স্বাস্থ্য
 

এনসেফালাইটিসের বিপদ
সামলাবেন কীভাবে?
সমস্যা যখন ছোটদের

ডাঃ অপূর্ব ঘোষ  শিশুরোগ বিশেষজ্ঞ
এনসেফেলন কথার অর্থ হল মস্তিষ্ক। আর আইটিস কথার অর্থ প্রদাহ (ইনফেকশন)। এই দু’টি শব্দকে একত্রে করে এনসেফালাইটিস শব্দটি তৈরি হয়েছে। অর্থাৎ এনসেফালাইটিস হল মস্তিষ্কের প্রদাহ।
ভাইরাস, ব্যাকটেরিয়া, অটোইমিউন (শরীর নিজেই নিজের বিরুদ্ধে লড়ছে) ইত্যাদি নানা কারণে মানুষ এনসেফালাইটিসে আক্রান্ত হতে পারেন। আবার অনেকসময় এনসেফালাইটিসে আক্রান্ত হওয়ার সঠিক কারণ খুঁজে পাওয়া যায় না। রোগের নেপথ্য কারণ খুঁজে না পাওয়া রোগীর সংখ্যাও নেহাত কম নয়। বিগত দশকে কানাডায় হওয়া একটি সমীক্ষায় দেখা গিয়েছিল, প্রায় ৬০ শতাংশ এনসেফালাইটিস আক্রান্তের রোগের নেপথ্য কারণ খুঁজে বের করা যায় না। তবে গত কয়েক বছরে চিকিৎসাব্যবস্থা অনেকটাই এগিয়ে গিয়েছে। এখন অনেক ধরনের অ্যান্টিবডি টেস্টের মাধ্যমে রোগ নির্ণয় সহজ হয়েছে। ফলে আগের তুলনায় ইদানীং এই রোগে আক্রান্ত হওয়ার কারণ অনেক বেশি সংখ্যায় নির্ণয় করা সম্ভব হচ্ছে। কিন্তু এত অধুনিকীকরণের পরও একটা বৃহৎ অংশের রোগীর এই রোগে আক্রান্ত হওয়ার কারণ খুঁজে পাওয়া যায় না। এটা অবশ্যই চিন্তার।
ইতিমধ্যেই বিহারের একটি নির্দিষ্ট অঞ্চল জুড়ে ছড়িয়ে পড়েছে এনসেফালাইটিসের আতঙ্ক। প্রায় একশোর বেশি শিশু এই রোগে আক্রান্ত হয়ে প্রাণ হারিয়েছে। বিভিন্ন সূত্র থেকে নানা রকম তথ্য উঠে আসলেও, এখনও বিহারের এনসেফালাইটিসের নেপথ্য কারণ খুঁজে পাওয়া যায়নি। তবে কারণ খুঁজে বের করার সবরকম চেষ্টাই চলছে। সেইমতো কাজে লেগে পড়েছেন চিকিৎসাবিজ্ঞানীরা।
আসলে এই ধরনের ইনফেকশাস ডিজিজগুলি সবসময়ই একটি নির্দিষ্ট অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়ে। কারণ ভাইরাসের আক্রমণ হয় নির্দিষ্ট অঞ্চল জুড়ে। এই যেমন কিছুদিন আগেই একটি নির্দিষ্ট অঞ্চলের মানুষ নিপা ভাইরাস, অ্যাডিনো ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছিলেন। তাই আজকের বিহারেও ঠিক তেমনই অবস্থা। একটি নির্দিষ্ট ভৌগলিক অঞ্চলের মানুষ এনসেফালাইটিসে আক্রান্ত হচ্ছে। এক্ষেত্রে শুধু রোগের কারণ খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না। ব্যস, তফাত শুধু এইটুকুই।
রোগ লক্ষণ
 এই রোগের অন্যতম লক্ষণ হল জ্বর। এনসেফালাইটিসে আক্রান্ত প্রায় ৮০ শতাংশ রোগীরই জ্বর থাকে  একটা বড় অংশের রোগীর খিঁচুনি হতে দেখা যায়  অনেকসময় কিছু নিউরোলজিক্যাল লক্ষণও দেখা দিতে পারে। যেমন— হাত কাজ করছে না, পা কাজ করছে না, ঘাড় তোলা সম্ভব হচ্ছে না ইত্যাদি। এগুলিকে বিজ্ঞানসম্মত ভাষায় ফোকাল নিউরোলজিক্যাল সাইন বলে  প্রায় ৫০ শতাংশ রোগীর সচেতনতা (কনশাসনেস) অনেকটা কমে যায়  অনেক সময় রোগীর কোনও নার্ভ প্যারালিসিস হতে পারে  এছাড়াও আরও অনেক ক্লিনিক্যাল লক্ষণ রয়েছে।
এক্ষেত্রে রোগের প্রাথমিক লক্ষণ খুঁজে চিকিৎসার অধীনে আসলে বাচ্চার সম্পূর্ণ সেরে ওঠার আশা সবথেকে বেশি। বাচ্চা অচেতন হয়ে যাচ্ছে, জ্বর কমার পরও বাচ্চা অহেতুক কেঁদে যাচ্ছে ইত্যাদি হল এনসেফালাইটিসের প্রাথমিক লক্ষণ। তাই বাচ্চার মধ্যে এমন লক্ষণ দেখতে পেলেই আর সময় নষ্ট না করে চিকিৎসকের কাছে পৌঁছান।
রোগ নির্ণয়
বিভিন্ন ধরনের এনসেফালাইটিসের নিজস্ব নিজস্ব চরিত্র রয়েছে। এমআরআই, ইইজি, লাম্বার পাংচার, লাম্বার পাংচার অ্যানালিসিস, রক্তপরীক্ষা ইত্যাদি মাধ্যমে এই রোগের কারণ খুঁজে পাওয়ার চেষ্টা চলে। তবে যেমনটা বলা হয়েছিল, এত পরীক্ষা করার পরও অনেকক্ষেত্রেই রোগের কারণ বের করা সম্ভব হয় না।
চিকিৎসা কী?
‌এই রোগের নির্দিষ্ট কোনও চিকিৎসা নেই। আক্রান্তকে মূলত সাপোর্টিভ ট্রিটমেন্ট দিতে হয়। রোগীর হৃদ্‌গতি, রক্তচাপ, মাথার ভিতরের প্রেশার, ফ্লুইড, শরীরের ইলেকট্রোলাইটস ব্যালান্স ইত্যাদি নজরে রাখতে হয়। পাশাপাশি লক্ষণভিত্তিক চিকিৎসা যেমন জ্বর হলে জ্বরের চিকিৎসা, খিঁচুনি হলে তার চিকিৎসা ইত্যাদি করে যেতে হবে। রোগী কোমায় চলে গিয়ে থাকলে সেই মতো চিকিৎসা করা দরকার।
আবার বেশকিছু ধরনের এনসেফালাইটিসের চিকিৎসা রয়েছে। হারপিক্স সিমপ্লেক্স ভাইরাস থেকে হওয়া এনসেফালাইটিসের আলাদা করে চিকিৎসা রয়েছে। আবার মাইক্রোপ্লাজমা এনসেফালাইটিসে আক্রান্ত হলে অ্যাজিথ্রোমাইসিন জাতীয় ওষুধ দিয়ে চিকিৎসা করা হয়। অটোইমিউন এনসেফালইটিসের রোগীকে স্টেরয়েডের মাধ্যমে চিকিৎসা করলে সমস্যার সমাধান সম্ভব।
ভারতে এখন স্ক্রাব টাইফাস রোগে আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে। অনেকসময় এই রোগে আক্রান্তকেও এনসেফালাইটিসের মতো লক্ষণ নিয়ে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। দেখা যায় রোগীর জ্বর, সচেতনতার অভাব রয়েছে। তবে এক্ষেত্রে বেশিরভাগ রোগীরই গায়ে র‌্যাশ বেরতে দেখা যায়। তবে আশার বিষয় হল, এই রোগের নির্দিষ্ট চিকিৎসা রয়েছে। প্রয়োজন শুধু সঠিক রোগ নির্ণয়ের।
বর্ষা এল মানেই চারদিকে ডেঙ্গুতে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়বে। সমস্যা হল, এই রোগে থেকেও ডেঙ্গু এনসেফালাইটিস, ডেঙ্গু মেনিনগো এনসেফালইটিসের মতো সমস্যা দেখা দেয়।
বাচ্চাদের জটিলতা বেশি কেন?
যে কোনও শারীরিক সমস্যাই বাচ্চাদের উপর বেশি প্রভাব ফেলে। কারণ তাদের দেহের রোগ প্রতিরোধক ক্ষমতা কম থাকে। এনসেফালাইটিসের ক্ষেত্রেও ঠিক তাই হয়। প্রধানত বাচ্চাদের গঠনরত মস্তিষ্ক, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম থাকার মতো বিষয়গুলির কারণেই বাচ্চাদের এই রোগ থেকে সমস্যা হওয়ার আশঙ্কা কয়েকগুণ বেড়ে যায়।
রোগ প্রতিরোধে
জাপানিজ এনসেফালাইটিসের টিকা পশ্চিমবঙ্গ সরকারের পক্ষ থেকে বিনামূল্যে ব্যবস্থা করা হয়েছে। যে কোনও বয়সের মানুষ চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করে এই টিকা নিতে পারেন। এছাড়া অন্যান্য ভাইরাস থেকেও এই রোগে মানুষ আক্রান্ত হতে পারেন। তাই যেই সকল ভাইরাসের টিকা বাজারে প্রচলিত, বিশেষজ্ঞের মত নিয়ে সেই টিকা নিলে রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা কমে। এছাড়া নির্দিষ্ট অঞ্চলে এনসেফালাইটিস ছড়িয়ে পড়লে সেই অঞ্চলের বাসিন্দাদের অবশ্যই সতর্ক থাকতে হবে।
আর অবশ্যই এই বর্ষায় মশার কামড় থেকে বাচ্চাকে দূরে রাখার চেষ্টা করতে হবে। বাড়ির আশপাশে জল জমতে না দেওয়া, পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখা, বাচ্চাকে হাত-পা ঢাকা জামা কাপড় পড়ানো, মশারি ব্যবহার, চিকিৎসকের পরামর্শমতো মশা প্রতিরোধী ক্রিম, রোল অন, লোশন ইত্যাদি ব্যবহার করা যেতে পারে।
লিখেছেন সায়ন নস্কর
 
27th  June, 2019
 ডেঙ্গু, সোয়াইন ফ্লু ও এনকেফেলাইটিসের চিকিৎসায় হোমিওপ্যাথি

ডেঙ্গু জ্বর ভেক্টর বাহিত একটি গুরুতর সংক্রমণ যা চারটি ভিন্ন ভাইরাস দ্বারা সৃষ্টি হয়। এই ভাইরাস সংক্রমিত হয় এডিস ইজিপটাই মশার দ্বারা। ডেঙ্গু জ্বর সৃষ্টিকারী ভাইরাসটির চারটি সেরোটাইপ রয়েছে। ডেন-১, ২, ৩ এবং ৪।
বিশদ

11th  July, 2019
 ডেঙ্গু ও এনকেফেলাইটিসের মশা চিনুন

 এডিস ইজিপ্টাই এবং এডিস অ্যালবোপিকটাস মশার মাধ্যমেই ডেঙ্গুর ভাইরাস মানুষের দেহে প্রবেশ করে। ভারত সহ দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বিস্তীর্ণ এলাকায় এই দু’ধরনের মশার দেখা মেলে। এছাড়াও পানামা, মেক্সিকো এবং আফ্রিকার বিভিন্ন দেশেও এই দু’ধরনের মশা দেখতে পাওয়া যায়। বিশদ

11th  July, 2019
মনের সুস্থতায় ফর্টিসের উদ্যোগ

ফর্টিস হাসপাতাল আনন্দপুরের ডিপার্টমেন্ট অব মেন্টাল হেল্‌থ অ্যান্ড বিহেভিওয়াল সায়েন্সের পক্ষ থেকে একটি একাঙ্ক নাটক প্রতিযোগিতার আয়োজন করা হয়। প্রায় ২০টি স্কুলের ছাত্রছাত্রীরা প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছিল।
বিশদ

11th  July, 2019
বিধান ভবনে বিধান স্মরণ 

ডাঃ বিধান চন্দ্র রায়ের জন্ম ও মৃত্যু দিনে তাঁকে স্মরণ করে বর্তমান সমাজে তিনি আরও কত বেশি প্রাসঙ্গিক তা বোঝানোর জন্যেই এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়েছিল। সম্প্রতি বিধান ভবনে বিধান মেমোরিয়াল ট্রাস্ট আয়োজিত এই আলোচনা সভার সভাপতিত্ব করেন এই ট্রাস্টেরই চেয়ারম্যান সোমেন মিত্র। 
বিশদ

04th  July, 2019
হোমিও প্রতিষ্ঠানেও পালিত যোগের দিন 

পঞ্চম আন্তর্জাতিক যোগ দিবস পালিত হল ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব হোমিওপ্যাথিতে (সল্টলেক)। প্রতিষ্ঠানে এদিন সকাল সাড়ে নটা থেকেই ছাত্রছাত্রী এবং চিকিৎসকরা জমায়েত হন। এরপর সারাদিনে দু’টি পর্যায়ে ছাত্রছাত্রীরা যোগার কর্মশালায় অংশগ্রহণ করে।  
বিশদ

04th  July, 2019
হাইপোস্কিল্লিয়া
এখন অভাব রোগ ধরার দক্ষতাতেই 

আজকের দিনে দাঁড়িয়ে একটি দুর্ভাগ্যজনক বিষয়ের জন্য আমরা চিকিৎসকরাই দায়ী। আর এই নির্দিষ্ট কারণে বহু রোগীও নিত্যদিন সমস্যার সম্মুখীন হচ্ছেন। প্রশ্ন হল, কী সেই গুরুত্বপূর্ণ বিষয়? বিষয়টিকে হাইপোস্কিল্লিয়া বলা হয়। অর্থাৎ চিকিৎসকের ক্লিনিক্যাল স্কিল কম থাকা।  
বিশদ

04th  July, 2019
ডাঃ বিধান রায়ের ঘরানার চিকিৎসার দিন কি শেষ? 

১ জুলাই ধুমধাম করে দেশজুড়ে পালিত হল দিকপাল চিকিৎসক ডাঃ বিধানচন্দ্র রায়ের জন্ম ও প্রয়াণদিবস। আলোচনা, শ্রদ্ধাজ্ঞাপন, স্মৃতিচারণা সবই হল। কিন্তু, অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ প্রসঙ্গটিই বহুক্ষেত্রে এড়িয়ে যাওয়া হল না কি? মানুষের মুখে মুখে যে আজও ঘোরে তাঁর নাড়ি টিপে রোগী দেখা আর দূর থেকে দেখেই রোগ বলে দেওয়ার প্রায় অবিশ্বাস্য সব কাহিনি। অনেকে বলেন, আজকের চিকিৎসা বইছে ঠিক উল্টো খাতে। অনেকটাই যন্ত্রনির্ভর, রক্ত ও রোগপরীক্ষা নির্ভর। আলোচনায় প্রবীণ ফিজিশিয়ান ডাঃ সুকুমার মুখোপাধ্যায়। 
বিশদ

04th  July, 2019
বড়রাও সাবধান!

মস্তিষ্কের হঠাৎ প্রদাহজনিত (ফুলে যাওয়া) অসুখ হল এনসেফালাইটিস। সাধারণত মস্তিষ্ক এবং সুষুম্নাকাণ্ডে সংক্রমণের কারণে এমন হয়। ব্যাকটেরিয়া, ভাইরাস এবং পরজীবী সংক্রমণ থেকে এই অসুখ হওয়ার আশঙ্কা থেকে যায়। বিশদ

27th  June, 2019
 হোমাই-এর অনুষ্ঠান

  হোমিওপ্যাথি মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন অব ইন্ডিয়া-এর শিয়ালদহ শাখার তরফে ডাঃ সিএফএস হ্যানিমান এর ২৬৫তম জন্মদিন এবং ঈদ মিলন উৎসব পালন হল দ্য ইন্ডিয়ান সায়েন্স কংগ্রেস অডিটোরিয়ামে। প্রতিষ্ঠানের সাংগাঠনিক সম্পাদক ডাঃ সইদুল ইসলাম জানান, দীর্ঘ ৪৭ বছর ধরে চিকিৎসাজগতে অবদানের জন্য সংগঠনের অন্যতম পথপ্রদর্শক ডাঃ এস আই হোসেনকে সম্বর্ধনা দেওয়া হয় এই অনুষ্ঠানে।
বিশদ

27th  June, 2019
শিশুকন্যার হার্টের বিরল সমস্যার সার্জারি আমরিতে

মুকুন্দপুরের আমরি হাসপাতালে ৮ বছরের মেয়ের সাফল্যের সঙ্গে মিনিমালি ইনভেসিভ পেডিয়াট্রিক কার্ডিয়াক সার্জারি করা হল। হাসপাতালের পক্ষ থেকে এক প্রেস বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, জন্মগত জটিল হার্টের সমস্যায় ভুগছিল বর্ধমানের সাবিনা।
বিশদ

27th  June, 2019
 ক্লেফ্ট সার্জারির কর্মশালা

  ঠোঁটের ত্রুটি সারিয়ে তোলার চিকিৎসা হল ক্লেফ্ট সার্জারি। এবার অ্যাসোসিয়েশন অব ওর‌্যাল অ্যন্ড ম্যাক্সিল্লোফেসিয়াল সার্জেন অব ইন্ডিয়ার পশ্চিমবঙ্গ শাখার তরফে ক্লেফ্ট সার্জারির লাইভ সার্জিক্যাল ওয়ার্কশপের আয়োজন করা হয়েছিল হাওড়ার শ্রী জৈন হাসপাতাল ও রিসার্চ সেন্টারে।
বিশদ

27th  June, 2019
সেলিব্রিটিরা যখন ট্রোলিংয়ের শিকার 

ইদানীং সোশ্যাল নেটওয়ার্কের একটা বড় সমস্যা ‘ট্রোলিং’। আর নিঃসন্দেহে এক্ষেত্রে ট্রোলারদের সহজ টার্গেট সেলিব্রিটিরা। রণবীর সিং, অনুষ্কা শর্মা থেকে শুরু করে আলিয়া ভাট বা রণবীর কাপুর।  
বিশদ

20th  June, 2019
ট্রোল করা কি মানসিক সমস্যা?

‘ট্রোলিং’ কী?
 সেলিব্রিটির পোশাক নিয়ে কমেন্ট বক্সে নীতিবাক্য মূলক মতামত প্রদান।  সেলিব্রিটির কাজকর্ম নিয়ে অশ্লীল বাক্য পোস্ট করা।  সেলিব্রিটিদের ছবি এবং কাজকর্মকে কেন্দ্র করে বিভিন্ন ধরনের অযৌক্তিক গুজব রটানো।  ইদানীং সেলিব্রিটিদের অভিনীত চরিত্র এবং ডায়ালগ নিয়েও সোশ্যাল মিডিয়াতে ট্রোল করার রীতি শুরু হয়েছে।  তবে শুধু সেলিব্রিটি নয়। অন্যান্য পেশার মানুষদের কার্যকলাপ নিয়েও ট্রোল করার রীতি দেখা যাচ্ছে এখন। এমনকী পারিবারিক কোনও ছবি পোস্ট করেও ট্রোলড হচ্ছেন সাধারণ মানুষ। 
বিশদ

20th  June, 2019
ইউনিসেফের কুসংস্কার ভেঙে ফেলার বার্তা 

২৮ মে ছিল মেনস্ট্রুয়াল হেল্‌থ ম্যানেজমেন্ট দিবস (এমএইচএম)। সেই উপলক্ষে দেশের মহিলাদের মেনস্ট্রুয়েশনকে ঘিরে গড়ে ওঠা নানাবিধ কুসংস্কারকে পেরিয়ে যাওয়ার বার্তা দিতে চেয়েছে ইউনিসেফের ভারত শাখা। এই উদ্যোগে তাঁদের সঙ্গী হয়েছে বিখ্যাত সোশ্যাল মিডিয়া ইনফ্লুয়েন্সার দীপা খোসলা।  
বিশদ

20th  June, 2019
একনজরে
সংবাদদাতা, ঘাটাল: রবিবার ঘাটাল-পাঁশকুড়া রাস্তা অবরোধ করলেন স্থানীয় বাসিন্দারা। রাস্তা সংস্কারের দাবিতে ওই সড়কের চাঁদপুর শিমূলতলায় অবরোধ করা হয়। অবরোধে আটকে পড়ে বিভিন্ন রুটের বহু যাত্রীবাহী বাস সহ অন্যান্য গাড়ি। অবরোধ তুলতে গেলে পুলিসকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখান স্থানীয় বাসিন্দারা।  ...

  নয়াদিল্লি, ১৪ জুলাই (পিটিআই): স্কুলের মিড ডে মিল খেয়ে শিশুদের অসুস্থ হয়ে পড়ার মতো ঘটনা প্রায়ই শোনা যায়। গত তিন বছরে গোটা দেশে মিড ডে মিল খেয়ে ৯০০ জনেরও বেশি শিশু অসুস্থ হয়ে পড়ে। রবিবার এই তথ্য জানিয়েছে কেন্দ্রীয় ...

  সংবাদদাতা, তারকেশ্বর: শনিবার গভীর রাতে তারকেশ্বরের নাইটা মালপাহাড়পুর পঞ্চায়েতের অন্তর্গত মালপাহাড়পুর গ্রামের বিজেপি কার্যালয়ের সামনে বোমাবাজির অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। দুষ্কৃতীদের ফেলে যাওয়া কয়েকটি তাজা বোমাকে ঘিরে এলাকায় আতঙ্ক ছড়ায়। বিজেপির অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল নেতৃত্ব। ...

সংবাদদাতা, শিলিগুড়ি: ডেঙ্গু প্রতিরোধে শিলিগুড়ি শহরের প্রতিটি স্কুল, কলেজ সহ সরকারি ও বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চিঠি পাঠিয়েছে শিলিগুড়ি পুরসভা কর্তৃপক্ষ। তবে শুধু চিঠি দিয়ে কাজ সারতে চাইছে না পুর কর্তৃপক্ষ।  ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

বিদ্যায় সাফল্য ও হতাশা দুই-ই বর্তমান। নতুন প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠবে। মামলা-মোকদ্দমার কোনও পরিবেশ তৈরি ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯১৮: সুইডেনের চিত্রপরিচালক ইঙ্গমার বার্গম্যানের জন্ম
১৯৩৬: লেখক ধনগোপাল মুখোপাধ্যায়ের মৃত্যু
১৯৬৭: শ্রীলঙ্কান ক্রিকেটার ও রাজনীতিবিদ হাসান তিলকরত্নের জন্ম
১৯৭১: মডেল মধু সাপ্রের জন্ম
১৯৭৫: সুরকার মদন মোহনের মূত্যু
২০০৩: অভিনেত্রী লীলা চিটনিসের মূত্যু
২০০৮: বিচারপতি ওয়াই ভি চন্দ্রচূড়ের মূত্যু

14th  July, 2019
ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৭.৭০ টাকা ৬৯.৩৯ টাকা
পাউন্ড ৮৪.২৯ টাকা ৮৭.৬০ টাকা
ইউরো ৭৫.৮২ টাকা ৭৮.৭৬ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
13th  July, 2019
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৫,১৫৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৩,৩৫৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৩,৮৫৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৮,২৫০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৮,৩৫০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
14th  July, 2019

দিন পঞ্জিকা

৩০ আষা‌ঢ় ১৪২৬, ১৫ জুলাই ২০১৯, সোমবার, চতুর্দশী ৫১/৫০ রাত্রি ১/৪৯। মূলা ৩৪/২৮ রাত্রি ৬/৫২। সূ উ ৫/৪/২৫, অ ৬/২০/৪৫, অমৃতযোগ দিবা ৮/৩৬ গতে ১০/২২ মধ্যে। রাত্রি ৯/১২ গতে ১৪/৪ মধ্যে পুনঃ ১/৩০ গতে ২/৫৫ মধ্যে, বারবেলা ৬/৪৪ গতে ৮/২৩ মধ্যে পুনঃ ৩/১ গতে ৪/৪১ মধ্যে, কালরাত্রি ১০/২২ গতে ১১/৪২ মধ্যে।
২৯ আষাঢ় ১৪২৬, ১৫ জুলাই ২০১৯, সোমবার, চতুর্দশী ৫০/৫৭/৪৯ রাত্রি ১/২৭/১৫। মূলানক্ষত্র ৩৬/২৫/৩৩ রাত্রি ৭/৩৮/২০, সূ উ ৫/৪/৭, অ ৬/২২/৪৯, অমৃতযোগ দিবা ৮/৩৬ গতে ১০/২৩ মধ্যে এবং রাত্রি ৯/১৩ গতে ১২/৪ মধ্যে ও ১/২৯ গতে ২/৫৫ মধ্যে, বারবেলা ৩/৩/১০ গতে ৪/৪৩/০ মধ্যে, কালবেলা ৬/৪৩/৫৭ গতে ৮/২৩/৪৮ মধ্যে, কালরাত্রি ১০/২৩/২০ গতে ১১/৪৩/৩০ মধ্যে। 
 ১১ জেল্কদ

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
টলিউডের এক অভিনেত্রীকে অশালীন মেসেজ, গ্রেপ্তার ১ 
টলিউডের এক অভিনেত্রীকে সোশ্যাল মিডিয়ায় অশালীন মেসেজ পাঠিয়ে ক্রমাগত উত্যক্ত ...বিশদ

06:55:49 PM

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে দেখা করলেন সেনার পূর্বাঞ্চলীয় প্রধান

06:10:00 PM

খুনের চেষ্টার অভিযোগে দিল্লির দ্বারকায় গ্রেপ্তার ১ 

04:51:00 PM

লাভপুরের আমনাহা গ্রামে পুলিসকে ঘিরে এলাকাবাসীদের বিক্ষোভ 
বীরভূমের লাভপুর থানার আমনাহা গ্রামে পুলিসকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখালেন গ্রামবাসীরা। ...বিশদ

04:25:14 PM

হাওড়ার শিবপুরে উদ্ধার চোরাই ট্যাক্সি, গ্রেপ্তার ১

04:00:00 PM

লিলুয়ায় আগ্নেয়াস্ত্র ও কার্তুজ সহ ধৃত ১ 

04:00:00 PM