Bartaman Patrika
শরীর ও স্বাস্থ্য
 

দাঁতে ব্যথা  কী করবেন?

দাঁতে ব্যথার পিছনে দায়ী আমাদের নানা কু’অভ্যেস। তবে সঠিক চিকিৎসায় সুস্থ হওয়া সম্ভব। পরামর্শে আর আহমেদ ডেন্টাল কলেজ ও হাসপাতালের কনজারভেটিভ ডেন্টিস্ট্রি এবং এন্ডোডন্টিক্স বিভাগের প্রধান ডাঃ হরিদাস দাস অধিকারী

দাঁতের ব্যথার তীব্রতা নিয়ে প্রতিটি ভুক্তভোগীই ভীষণরকম ভীত থাকেন। কারও কথায়, এই ব্যথা নাকি মৃত্যুযন্ত্রণার সমান। কেউ বলে, আত্মহত্যা করতে ইচ্ছে হয়। অনেকের বক্তব্য, দাঁতে যেন সুচ ফোটানো হচ্ছে। দেখা গিয়েছে, অন্তিম পর্যায়ের ক্যান্সারে আক্রান্ত রোগীর ব্যথার থেকেও দাঁতের ব্যথার তীব্রতা অনেক সময়ই বেশি থাকে।
তাই দাঁতের ব্যথা নিয়ে প্রতিটি মানুষকে প্রথম থেকেই সচেতন থাকতে হবে।
 দাঁতের উপরের আবরণকে বলে এনামেল। এর অন্দরে থাকে ডেন্টিন নামক একটি কাঠামো। এই ডেন্টিনের মধ্যে রয়েছে এক বিশেষ ধরনের স্নায়ু। সেখানে কোনও কারণে ইনফ্লামেশন (প্রদাহ) হলেই দাঁতে ব্যথা হয়। তবে এই ব্যথাকে শরীরের অন্য কোনও ব্যথার সঙ্গে গুলিয়ে না ফেলাই ভালো। আসলে শরীরে অন্য কোথাও ইনফ্লামেশন হলে সেখানে তৈরি হওয়া রস বা রক্ত অন্য জায়গায় ছড়িয়ে পড়তে পারে। কিন্তু দাঁতের স্নায়ু দাঁতের কঠিন অংশ দিয়ে ঘেরা থাকে। তাই সেখানে প্রদাহ থেকে রস তৈরি হলেও তা বেরিয়ে বা ছড়িয়ে যেতে পারে না। ফলে দাঁতে ও দাঁতের স্নায়ুতে প্রবল পরিমাণ চাপের সৃষ্টি হয়। স্নায়ুর চাপ থেকেই অসহ্য ব্যথা শুরু হয়। চাপ যত বাড়ে, ব্যথাও সমানুপাতিক হারে বাড়তে থাকে।
অনেকসময় নির্দিষ্ট দাঁতের ইনফ্লামেশনের যন্ত্রণা মুখের অন্য জায়গাতেও হতে পারে। একটা উদাহরণ দিলে বিষয়টি আরও পরিষ্কার করে বোঝা যাবে। ধরা যাক কোনও ব্যক্তির নীচের চোয়ালের বাম দিকের গোড়ার কোনও দাঁতে ইনফ্লামেশন হল। কিন্তু অনেকসময় সেই নির্দিষ্ট জায়গায় ব্যথা না হয়ে, উপরের দাঁতে, কানের তলায়, কানের পিছনে ইত্যাদি নানা জায়গায় ব্যথা অনুভূত হতে পারে। এই ধরনের ব্যথাকে রেফার্ড পেইন বলে।
 দাঁত ব্যথার কারণ ও চিকিৎসা
দাঁতে গর্ত: সঠিক উপায়ে দাঁত না মাজলে বা খাওয়ার পর ভালো করে মুখ পরিষ্কার না করলে দাঁতের মধ্যে খাবার আটকে থাকতে পারে। এবার সেই খাবার দাঁতের মধ্যে পচে গিয়ে অ্যাসিড তৈরি করে। এই অ্যাসিড দাঁতের ক্যালশিয়ামকে টেনে নেয়। ফলে দাঁতের সেই অংশে গর্ত তৈরি হয়। বারবার এই পদ্ধতিতে ওই নির্দিষ্ট অংশে দাঁতের ক্ষয় বাড়তে বাড়তে গর্তটি দাঁতের নার্ভ পর্যন্ত পৌঁছে গেলেই তৈরি হয় সমস্যা। বাইরে থেকে গর্ত হয়ে রোগ-জীবাণু নার্ভে আক্রমণ করে। দেখা দেয় ইনফ্লামেশন। তখনই শুরু হয়ে যায় অসহ্য যন্ত্রণা। দাঁতের মধ্যে কালো দাগ হল গর্তের প্রাথমিক লক্ষণ। এছাড়াও নির্দিষ্ট জায়গায় বারবার খাবার আটকে যাওয়া, খাবার খেলে শিরশিরানি ইত্যাদি উপসর্গও দেখা দেয়। এই সমস্যাকেই সাধারণের ভাষায় দাঁতে পোকা লেগেছে বলা হয়ে থাকে।
বেশি হয় যেখানে: সাধারণত মুখের একদম সামনে থেকে পিছনের দিক বরাবর ছয় নম্বর দাঁতটি এই সমস্যায় বেশি আক্রান্ত হয়। কারণ এই দাঁতের বাইরের আবরণ বেশ রুক্ষ। এখানেই খাবার বেশি আটকে যাওয়ার প্রবণতা দেখা যায়। তাই এই নির্দিষ্ট দাঁতেই সমস্যা হওয়ার আশঙ্কা থাকে বেশি। এছাড়াও যে কোনও দাঁত, বিশেষত সামনে থেকে চার, পাঁচ ও সাত নম্বর দাঁতেও এই সমস্যা দেখা দিতে পারে। দাঁতে তৈরি হওয়া গর্ত দাঁতের নার্ভ পর্যন্ত পৌঁছানোর আগেই চিকিৎসা করানো ভালো। এটাই হল রোগের প্রাথমিক পর্যায়। এক্ষেত্রে সমস্যার সমাধানে দাঁতে ফিলিং করতে হয়। অর্থাৎ দাঁতের গর্তকে নির্দিষ্ট উপায়ে বুজিয়ে দেওয়া হয়। নানা ধরনের ফিলিং রয়েছে— টেম্পোরারি, সেমি পারমানেন্ট ও পারমানেন্ট। আবার দাঁতের গর্ত স্নায়ুতে পৌঁছে ইনফ্লামেশন তৈরি করলে চিকিৎসা বেশ কঠিন হয়ে যায়। এক্ষেত্রে দাঁত বাঁচানোর একমাত্র পথ হল রুট ক্যানাল ট্রিটমেন্ট।
দাঁতে আঘাত লেগে ভাঙা
কোনও কারণে দাঁতে আঘাত লেগে নির্দিষ্ট অংশ ভেঙে গেলে বা ফ্র্যাকচার হলে নার্ভ এন্ডিং বেরিয়ে আসে। ফলে নার্ভে সংক্রমণ হওয়ার আশঙ্কা কয়েকগুণ বেড়ে যায়। নার্ভে সংক্রমণ হলে তীব্র ব্যথা হওয়া স্বাভাবিক। এই সমস্যার সমাধানে দাঁতটিকে ক্যাপিং করতে হয়।
আবার অনেকসময় আঘাত লেগে পুরো দাঁতটি উপড়ে যেতে পারে। বিজ্ঞানসম্মত ভাষায় এর নাম অ্যাভালশন। এক্ষেত্রে অন্তত এক ঘণ্টার মধ্যে সেই নির্দিষ্ট দাঁতটিকে সঙ্গে করে নিয়ে এলে চিকিৎসকরা ওই দাঁতটিকে পুনরায় সেখানে বসিয়ে দিতে পারেন। তবে এক্ষেত্রে চিকিৎসকের কাছে আনার আগে দাঁতটিকে বিশেষ যত্ন করতে হয়। উপড়ে যাওয়া দাঁতটিকে সঙ্গে সঙ্গে সংগ্রহ করে দুধ, ডাবের জল বা মুখের লালার মধ্যে ডুবিয়ে দিতে হবে। এরপর যত তাড়াতাড়ি সম্ভব চিকিৎসকের কাছে আসা দরকার।
দাঁত খোয়া গেলে, বা কোনও কারণে দাঁতটি পুনরায় ব্যবহারের অযোগ্য হয়ে উঠলে অবশ্য আর্টিফিশিয়াল ডেন্টাল ইমপ্ল্যান্ট করা দরকার। অর্থাৎ ওই জায়গায় নির্দিষ্ট পদ্ধতিতে কৃত্রিম দাঁত প্রতিস্থাপন করতে হয়।
দাঁতের গোড়ায় নোংরা জমা
মাড়ি ও দাঁত একে অপরের সঙ্গে লেগে থাকে। এবার দাঁতের গোড়ায় ময়লা জমলে মাড়ি ও দাঁতের সম্পর্কে ছেদ পড়ে। একে অপরের থেকে দূরে সরে আসে। ফলে সেই জায়গায় অসংখ্য নার্ভ রুট বেরিয়ে যায়। এই নার্ভ রুটগুলির সংবেদনশীল হয়ে পড়লে মূল নার্ভে সেই বার্তা পৌঁছয়। এর থেকে প্রচণ্ড যন্ত্রণা হয়। এক্ষেত্রে নির্দিষ্ট পদ্ধতিতে মাড়ির চিকিৎসা করতে হয়।
হাড়ে ইনফেকশন
প্রাথমিকভাবে দাঁতের ব্যথাকে আমল না দিতে থাকলে তার থেকে দাঁতের নার্ভের মৃত্যু ঘটতে পারে। অনেকসময় তার থেকে মাড়ির হাড়ে ইনফেকশন হয়।
এক্ষেত্রে হাড়ে পুঁজ পর্যন্ত জমে। মুখ ফুলে যায়, জ্বর আসে, তীব্র যন্ত্রণা হয়। এর চিকিৎসা হল রুট ক্যানাল ট্রিটমেন্ট। এছাড়াও বর্তমানে অত্যাধুনিক রিজেনারেটিভ থেরাপির মাধ্যমে এই সমস্যার চিকিৎসা সম্ভব। এই চিকিৎসা পদ্ধতিতে ওই মৃত দাঁতটিকে জীবন্ত করে তোলা যায়।
 রাতবিরেতে দাঁতে ব্যথা
অসময়ে দাঁত ব্যথা করলে যন্ত্রণা থেকে রেহাই পেতে লবঙ্গ তেল লাগাতে পারেন। এছাড়া চাইলে প্যারাসিটামল ট্যাবলেটও খাওয়া যেতে পারে। তবে ব্যথা কমাতে সেঁক দেবেন না। এর ফল হতে পারে উল্টো। মনে রাখবেন, এই সমস্যা একদমই ফেলে রাখা উচিত নয়। তাই যত তাড়াতাড়ি সম্ভব বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।
লিখেছেন সায়ন নস্কর
06th  June, 2019
দাঁতের ব্যথায়
ভে ষ জ চি কি ৎ সা

পরামর্শে বেঙ্গল ইনস্টিটিউট অব ফার্মাসিউটিক্যাল সায়েন্সেস-এর প্রিন্সিপাল ইন-চার্জ ডাঃ লোপামুদ্রা ভট্টাচার্য
বিশদ

06th  June, 2019
নিজেকে সকলের কাছে প্রিয়
করে তুলবেন কীভাবে?
ডাঃ জয়রঞ্জন রাম (সাইকিয়াট্রিস্ট )

আমরা সবাই চাই, লোকে আমাকে ভালোবাসুক, সবার আমি প্রিয় হয়ে উঠি। প্রশ্ন হল, সবার কাছে কি প্রিয় হওয়া যায়? মানে যিনি ‘দিদি’র কাছে প্রিয়, তিনিই আবার নমো’র কাছে প্রিয় হবেন— তা সম্ভব নয়। অতএব আপনি কার কাছে প্রিয় হতে চাইছেন, সেটা বুঝে নেওয়া দরকার। ধরে নেওয়া গেল, কার কার কাছে প্রিয় হবেন, আপনি তা জানেন। ঠিক আছে। এবার দেখা যাক নিজেকে প্রিয় করে তোলার জন্য কী কী করা যেতে পারে।
বিশদ

30th  May, 2019
১৬৮ কেজি যুবকের ভুঁড়ি
কমানোর অপারেশন

 মরবিড ওবেসিটি বা অত্যধিক স্থূলত্বের সমস্যায় আক্রান্তদের অন্যতম চিকিৎসা হল বেরিয়াট্রিক সার্জারি। এবার তেমনই এক চ্যালেঞ্জিং সার্জারিতে সফলতা পেল রুবি হাসপাতালের বেরিয়াট্রিক অ্যান্ড মেটাবলিক সার্জারি বিভাগ।
বিশদ

30th  May, 2019
  ‘প্রেগন্যান্সি যত্ন নিন’

বন্ধ্যত্ব নিরাময় প্রতিষ্ঠান বেঙ্গল ইনফার্টিলিটি অ্যান্ড রিপ্রোডাকটিভ থেরাপি হসপিটাল (বার্থ) পূর্ণ করল এক যুগ। সেই উপলক্ষে সংস্থার পক্ষ থেকে কলকাতায় একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
বিশদ

30th  May, 2019
বাংলায় ডক অনলাইন

 হায়দরাবাদের টেলিমেডিসিন সংস্থা ডক অনলাইন এবার পশ্চিমবঙ্গে পা রাখল। এই উপলক্ষে তাঁরা গাঁটছড়া বেঁধেছে ওকিরা হেল্‌থ ঩কেয়ার প্রাইভেট লিমিটেড-এর সঙ্গে। সংস্থার তরফে এক প্রেস বিবৃতিতে জানানো হয়, এই রাজ্যে অনেকদিন ধরেই পরিষেবা দিয়ে আসছে ওকিরা।
বিশদ

30th  May, 2019
 ব্যাবসা বাড়বে, আশাবাদী ডিভাইস ইন্ডাস্ট্রি

 দীর্ঘদিন ধরেই দেশের মেডিক্যাল ডিভাইস প্রস্তুতকারক বিভিন্ন সংস্থা চাইছে উচ্চ গুণসম্পন্ন এবং সাধারণের সাধ্যের মধ্যে চিকিৎসা সংক্রান্ত প্রযুক্তির সুবিধা দেওয়ার। লোকসভা ভোটে মোদির সাম্প্রতিক জয়ে এই লক্ষ্যের পালে হাওয়া লাগবে বলেই মনে করছে মেডিক্যাল ডিভাইস ইন্ডাস্ট্রি।
বিশদ

30th  May, 2019
‘না’ বলুন তামাকে 

 এসএসকেএম হাসপাতালের অঙ্কোলজি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ডাঃ কৌশিক চট্টোপাধ্যায় জানালেন, এই বছর ওয়ার্ল্ড হেল্‌থ অর্গ্যানাইজেশনের তরফে তামাকের বিরুদ্ধে সচেতনতা গড়ে তুলতে ডাক দেওয়া হয়েছে।
বিশদ

30th  May, 2019
মাথা ঠান্ডা রাখার ডায়েট
রঞ্জিনী দত্ত (ডায়েটিশিয়ান)

বেশ কিছু খাদ্য আছে যেগুলি মাত্রাতিরিক্ত হারে গ্রহণ করলে হজম হতে দেরি হয়। ফলে আমাদের মেটাবলিজম প্রক্রিয়া অর্থাৎ খাদ্য গ্রহণ শোষণ এবং আত্তীকরণের যে প্রক্রিয়া তা ঢিমে হয়ে যায়। উদাহরণ হিসেবে মাংস, রসুন, পেঁয়াজের কথা বলা যায়। এছাড়া ভাজাভুজি, ফাস্টফুডের কথাও বলা দরকার।
বিশদ

23rd  May, 2019
উত্তেজনায় মাথা ঠান্ডা
রাখবেন কীভাবে?
অমিত চক্রবর্তী (মনোবিদ)

 শরীরের সঙ্গে মনের যোগ আছে। তাই, শারীরিক ভোগান্তি প্রভাব ফেলে মানসিক স্থিরতার ক্ষেত্রেও। বিভিন্ন সমীক্ষায় দেখা গিয়েছে, আরামদায়ক আবহাওয়ায় আমাদের মেজাজ ফুরফুরে থাকে। আর চরম আবহাওয়ায় মানুষের সুখের অনুভূতি কম হয়। এই কারণেই বসন্তকালে আমাদের মেজাজ থাকে শরিফ আর প্রবল গ্রীষ্মে মেজাজ তিরিক্ষি হয়ে যায়।
বিশদ

23rd  May, 2019
 উত্তেজনা বাড়ায় হার্ট অ্যাটাকের আশঙ্কা
ডাঃ অরূপ দাসবিশ্বাস (হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ)

  গ্রীষ্ম হোক বা বর্ষা। মাথা সবসময়ই ঠান্ডা রাখতে হবে। কারণ হঠাৎ উত্তেজিত হলে বিশেষ কিছু নার্ভ এবং কিছু অন্তঃক্ষরা গ্রন্থি উদ্দীপিত হয়ে পড়ে। যাদের প্রভাবে রক্তচাপ এবং হৃৎস্পন্দন বৃদ্ধি পাওয়ার আশঙ্কা থাকে। ফলে হার্টের ওপর চাপ পড়ে এবং হার্টে অক্সিজেন সহ অন্যান্য পুষ্টি উপাদানের চাহিদা বেড়ে যায়।
বিশদ

23rd  May, 2019
 ‘কণ্ঠ’ প্রদর্শনীতে নারায়ণা

একজন রেডিও জকির মূলধন হল তাঁর গলার স্বর। কিন্তু গলার ক্যান্সারে আক্রান্ত হয়ে হঠাৎই বাদ গেল তাঁর স্বরযন্ত্র। হারিয়ে গেল কথা। এরপর? সেই কঠিন লড়াইয়ের কথাই ‘কণ্ঠ’ ছবিতে তুলে ধরেছেন পরিচালক শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় ও নন্দিতা রায়।
বিশদ

23rd  May, 2019
কখন কোন পরীক্ষা করাবেন?

যে কোনও ধরনের অসুখ প্রতিরোধে আগাম কিছু স্বাস্থ্যপরীক্ষা করিয়ে নিলে আখেরে লাভ আমাদেরই। পরামর্শে সিরাম অ্যানালিসিস সেন্টারের চেয়ারম্যান সঞ্জীব আচার্য এবং প্যাথোলজিস্ট ডাঃ আর এন চক্রবর্তী।
বিশদ

16th  May, 2019
পোষ্যের হাসপাতাল

 কলকাতায় সাতদিন ২৪ ঘণ্টা খোলা থাকে এমন পোষ্য হাসপাতাল নেই বললেই চলে। এবার সেই অভাব পূরণ করতে চলেছে অ্যাডভান্সড পেট কেয়ার।
বিশদ

16th  May, 2019
হ্যানিম্যানের জন্মদিন পালন

 বসিরহাট হোমিওপ্যাথিক প্র্যাকটিসনার্স ওয়েলফেয়ার ফোরামের উদ্যোগে সম্প্রতি হ্যানিম্যানের ২৬৪ তম জন্মজয়ন্তী পালন ও বসিরহাট মহকুমা হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসক সম্মেলন হয়ে গেল। সেখানে হ্যানিম্যানের জীবন ও কাজ নিয়ে আলোচনা করেন ডাঃ নিশার হোসেন।
বিশদ

16th  May, 2019
একনজরে
বিএনএ, বাঁকুড়া: এনআরএসের ঘটনার প্রতিবাদে মঙ্গলবার বিকেল থেকে কর্মবিরতি শুরু করলেন বাঁকুড়া সম্মিলনী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের জুনিয়র ডাক্তাররা। এদিন সকাল থেকে হাসপাতালের পরিষেবা স্বাভাবিক থাকলেও ...

  নয়াদিল্লি, ১১ জুন (পিটিআই): নিজের কেন্দ্রে ‘জল সঙ্কট’ নিয়ে সরব বিজেপি এমপি মীনাক্ষী লেখি। মঙ্গলবার দিল্লির জল বোর্ডের বাইরে রীতিমতো ধর্নায় বসেন তিনি। যদিও দিল্লি সরকারের আওতায় থাকা জল বোর্ডের দাবি, ক্ষমতা অনুযায়ী জল সরবরাহ করা হচ্ছে। বিজেপি মানুষকে ...

 লাহোর, ১১ জুন (পিটিআই): ভারতের আবেদনে সাড়া দিল পাকিস্তান। কিরঘিজস্তানে সাংহাই কো-অপারেশন অর্গানাইজেশন (এসসিও) শীর্ষ বৈঠকে যোগ দেওয়ার জন্য পাকিস্তানের আকাশপথ ব্যবহার করতে পারবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিমান। ‘নৈতিক দিকটি’ মাথায় রেখে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানাল ইমরান খানের ...

 পবিত্র ত্রিবেদি, কলকাতা: বর্ষায় জল জমার দুর্ভোগ থেকে এবারও রেহাই মিলছে না বিধাননগর পুরসভা এলাকার বিভিন্ন জায়গার বাসিন্দাদের। সল্টলেকে জল না জমলেও বিধাননগর পুরসভার বাকি অংশে এই সমস্যা এলাকাবাসীর যন্ত্রণার কারণ হয়। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

কর্মপ্রার্থীদের ক্ষেত্রে শুভ। যোগাযোগ রক্ষা করে চললে কর্মলাভের সম্ভাবনা। ব্যবসা শুরু করলে ভালোই হবে। উচ্চতর ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

বিশ্ব শিশু শ্রমিক বিরোধী দিবস,
১৯২৯- লেখিকা অ্যান ফ্রাঙ্কের জন্ম,
১৯৫৭- পাকিস্তানের ক্রিকেটার জাভেদ মিঁয়াদাদের জন্ম,
২০০৩- মার্কিন অভিনেতা গ্রেগরি পেকের মৃত্যু 

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৮.৬৯ টাকা ৭০.৩৮ টাকা
পাউন্ড ৮৬.৫৮ টাকা ৮৯.৮০ টাকা
ইউরো ৭৭.২১ টাকা ৮০.১৬ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩২,৯১৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩১,২৩০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩১,৭০০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৬,৬৫০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৬,৭৫০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

২৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১২ জুন ২০১৯, বুধবার, দশমী ৩৩/৫০ সন্ধ্যা ৬/২৭। হস্তা ১৭/১৯ দিবা ১১/৫১। সূ উ ৪/৫৫/২০, অ ৬/১৭/৬, অমৃতযোগ দিবা ৭/৩৫ গতে ১১/১০ মধ্যে পুনঃ ১/৪৯ গতে ৫/২৩ মধ্যে। রাত্রি ৯/৫০ মধ্যে পুনঃ ১১/৫৭ গতে ১/১২ মধ্যে, বারবেলা ৮/১৬ গতে ৯/৫৬ মধ্যে পুনঃ ১১/৩৬ গতে ১/১৬ মধ্যে, কালরাত্রি ২/১৬ গতে ৩/৩৬ মধ্যে। 
২৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১২ জুন ২০১৯, বুধবার, দশমী ৩৫/৫৪/৩৯ রাত্রি ৭/১৭/২৫। হস্তানক্ষত্র ২০/৪৩/৩৩ দিবা ১/১২/৫৮, সূ উ ৪/৫৫/৩৩, অ ৬/১৮/৫১, অমৃতযোগ দিবা ৭/৩৮ গতে ১১/১৩ মধ্যে ও ১/৫৪ গতে ৫/২৯ মধ্যে এবং রাত্রি ৯/৫৪ মধ্যে ও ১২/১ গতে ১/২৫ মধ্যে, বারবেলা ১১/৩৭/১২ গতে ১/১৭/৩৭ মধ্যে, কালবেলা ৮/১৬/২২ গতে ৯/৫৬/৪৭ মধ্যে, কালরাত্রি ২/১৬/২৩ গতে ৩/৩৫/৫৭ মধ্যে। 
৮ শওয়াল 
এই মুহূর্তে
বিশ্বকাপ: ৪১ রানে পাকিস্তানকে হারাল অস্ট্রেলিয়া 

10:35:44 PM

বিশ্বকাপ: পাকিস্তান ২৩০/৭(৪০ ওভার)(টার্গেট ৩০৮) 

10:03:16 PM

 বিশ্বকাপ: পাকিস্তান ১৬০/৬(৩০ ওভার)(টার্গেট ৩০৮)

09:20:41 PM

বিশ্বকাপ: পাকিস্তান ১১০/২(২০ ওভার)(টার্গেট ৩০৮)

08:34:26 PM

বিশ্বকাপ: পাকিস্তান ৫১/১(১০ ওভার)(টার্গেট ৩০৮)

07:52:25 PM

বিশ্বকাপ: পাকিস্তানকে ৩০৮ রানের টার্গেট দিল অস্ট্রেলিয়া 

06:45:03 PM