Bartaman Patrika
হ য ব র ল
 

রেনি ডে 

রেনি ডে মানেই একরাশ মজা। পড়ে পাওয়া একদিনের ছুটি, রাস্তার জমা জলে ইচ্ছেমতো হুটোপুটি আর বাড়িতে গরম গরম খিচুড়ি খেয়ে দুপুরবেলা গল্পের বই নিয়ে সোজা বিছানায়। সেই রেনি ডে নিয়ে এবার কলম আর রং-তুলি ধরেছে হিন্দু স্কুলের ছোটরা।

রেনি ডে— স্কুলে গিয়েও পড়াশুনো না করার মতো অভিনব ‘অধিকার’, সর্বকালের সর্বদেশের স্কুলপড়ুয়াদের আজীবন বোধহয় দিয়ে এসেছে একমাত্র এই ‘রেনি ডে’ই! তাই ‘রেনি ডে’র একটা আলাদা মর্যাদা এবং ভূমিকা আছে আমাদের প্রত্যেকেরই জীবনে। ‘রেনি ডে’ হলে পড়াশুনোয় ফাঁকি। ‘রেনি ডে’ হলে জল ভাঙার দাবি। ‘রেনি ডে’ হলে জমা জলে কাগজের নৌকা ভাসিয়ে শুধু কল্পনার ঢেউ গোনা! আজকের স্কুল ছাত্রদের কাছে ‘রেনি ডে’ কেমন, কীভাবে তারা যাপন করে এই ‘বৃষ্টির দিন’টাকে, তা জানতে হাজির হয়েছিলাম হিন্দু স্কুলে। বিভিন্ন ক্লাসের ছাত্ররা মন খুলে তাদের মতো করে জানাল তাদের ‘রেনি ডে’র কথা।
ইচ্ছে করে এক ছুটে চলে যাই বৃষ্টিতে ভিজতে!
বৃষ্টি আমার খুব ভালো লাগে। বৃষ্টি পড়ার আগে যখন খুব গরম হয়, তখন খুব অস্বস্তি হয়। তারপর যখন বৃষ্টি নামে, তখন সব অস্বস্তি চলে যায়। বৃষ্টি এই স্বস্তিটা এনে দেয় বলেই আমার খুব ভালো লাগে বৃষ্টিকে। বাড়িতে থাকলে যদি একটা ‘রেনি ডে’ পাই— সারাদিন ধরে বৃষ্টি পড়েই চলেছে, পড়েই চলেছে— তখন ছাদে উঠে খুব ভিজি। তাই স্কুলে থাকলে এমন ‘রেনি ডে’ হলে মন খারাপ হয়ে যায়। কারণ, তখন তো আর ইচ্ছেমতো বৃষ্টিতে ভিজতে পারি না! তখন খুব অন্যমনস্ক হয়ে যাই— ইচ্ছে করে এক ছুটে চলে যাই ভিজতে! তবে, পরীক্ষার আগে বৃষ্টিতে ভিজি না, পাছে অসুখ করে! আর হ্যাঁ, বাড়ির ছাদে উঠে বৃষ্টিতে ভিজলেও, সঙ্গে সঙ্গেই কিন্তু স্নান করে নিই, তাই আর ঠান্ডা লাগার ভয়
থাকে না।
মিতদ্রু হাটই, ষষ্ঠ শ্রেণী
বন্ধুদের সঙ্গে খুব ভিজি
বৃষ্টি আমার ভালো লাগে। তার সবচেয়ে বড় কারণ হল বৃষ্টি পড়লে খুব মজা, খুব আনন্দ করতে পারি। যেটা গ্রীষ্মকালে করা যায় না। কোনও একটানা বৃষ্টি পড়া ‘রেনি ডে’তে স্কুলে যদি আসতে হয়, তখন আসার সময় বন্ধুদের সঙ্গে খুব ভিজি। জুতোয় কাদা লেগে গেলে ধুয়ে ফেলি। স্যাররা যদি বকুনিও দেন তাও শুনি না— বৃষ্টি পড়লে আমাকে ভিজতেই হবে! আর তখন আমার মনটা খুব উড়ু উড়ু হয়ে যায়। একদম পড়তে ইচ্ছে করে না। মন খারাপ লাগে। এই অন্যমনস্কতার জন্য অনেক সময় স্যারদের কাছে শাস্তিও পাই। হয়তো ‘নিল ডাউন’ হয়েও থাকতে হয়! কিন্তু তবু শাস্তি মাথায় নিয়েও আমার ভিজতে খুব ভালো লাগে! এভাবেই আমি ‘রেনি ডে’ এনজয় করি। তবে বাড়িতে থাকলে যদি এমন একটা ‘রেনি ডে’ পাই, তখন কিন্তু আমি ছবি আঁকি।
দেবজ্যোতি লাল, সপ্তম শ্রেণী
এমন দিনে মায়ের রান্না করা খিচুড়ি খেতে দারুণ লাগে!
বর্ষাকাল আমার খুব ভালো লাগে। খালি মনে হয় বৃষ্টি আসুক আর এমন একটা ‘রেনি ডে’তে জল ভেঙে স্কুলে যাই। যদি এর জন্য জুতো, মোজা সব ভিজেও যায়, তাহলেও এই ভেজাটা আমি খুব উপভোগ করি। খুব ভালো লাগে বাইরে মুষলধারায় বৃষ্টি পড়ছে, আর ক্লাসে স্যাররা সাহিত্যের কোনও চ্যাপ্টার— মানে গল্প বা কবিতা পড়াচ্ছেন। বাইরে বৃষ্টির আওয়াজের সঙ্গে সঙ্গে এই পড়াটা শুনতে আমার খুব ভালো লাগে! শুকনো দিনে এই পড়াটা শুনতে কিন্তু অতটা ভালো লাগে না। বৃষ্টির শব্দটা যেন পড়ানোটার একটা ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিক হয়ে যায়! তবে বাড়িতে থাকলে এমন ‘রেনি ডে’ পেলে দিদির সঙ্গে লুডো খেলতে খুব ভালো লাগে। আর তারপর মায়ের রান্না খিচুড়ি খেতে দারুণ লাগে!
অনিলকুমার দে, অষ্টম শ্রেণী
রেনি ডে’তে একদমই
স্কুল যেতে ইচ্ছে করে না
একটানা বৃষ্টির ‘রেনি ডে’তে আমার একদম স্কুলে যেতে ইচ্ছে করে না। তখন মনে হয় বাড়িতে বসে শুধু প্রকৃতি দেখি। কিংবা ডায়েরিতে গল্প লিখি। বৃষ্টির দাপটে গাছের ডাল কেমন দুলছে দেখতে খুব ভালো লাগে। আমি কবিতা লিখতে খুব ভালোবাসি। কাগজে ছাপাও হয়েছে। বৃষ্টি যেন আমাকে কবিতা লিখতে আরও ইন্সপায়ার করে। স্কুলে থেকে যদি এমন ‘রেনি ডে’ পাই, তখন কিন্তু কেমন যেন বদ্ধ লাগে। বাইরে বৃষ্টি, ভেতরে আমি। ইচ্ছে করলেও বৃষ্টির কাছে যেতে পারছি না— এটা আমার একদম ভালো লাগে না। তবে এমন একটা ‘রেনি ডে’ হলে জনকোলাহল থমকে যায় যখন, তখন মনে হয় যেন বৃষ্টি হলে সবাই একটু অবসর পায়!
শাশ্বত দত্ত, নবম শ্রেণী
রেনি ডে’তে খিচুড়ি
আর পাঁপড় চাই-ই চাই
চারদিকের এই ভেজা ভাব, এই কাদা কাদা হয়ে থাকা আমার একটুও ভালো লাগে না। মাঠভর্তি জল, তাই ক্রিকেট খেলা যায় না, তাই ‘রেনি ডে’ ভালো লাগে না। পরীক্ষার আগে বৃষ্টি হলে অবশ্য ভিজি। কিন্তু পরীক্ষা এসে গেলে ভিজি না। বৃষ্টির মধ্যে কোনও ‘রেনি ডে’তে স্কুলে আসতে একটুও ভালো লাগে না। আমার মনে হয় অন্য সময় বৃষ্টি হোক, কিন্তু খেলার সময় যেন না হয়। আমাদের স্কুলে ‘রেনি ডে’ হলে পড়া হয় না। লাইব্রেরিতে নিয়ে যাওয়া হয়, কিংবা আমাদের ‘স্মার্ট ক্লাস’-এ নিয়ে গিয়ে তখন স্যাররা ‘মুভি’ দেখান প্রোজেক্টারে। বাইরে বৃষ্টি, ভেতরে বন্ধুদের সঙ্গে সেদিন যখন ‘সোনার কেল্লা’ দেখছিলাম সবাই মিলে, তখন আমার খুব ভালো লাগছিল! বাড়িতে থাকলে ‘রেনি ডে’তে আমার খিচুড়ি আর পাঁপড় ভাজা চাই-ই চাই!
সন্দীপন দাস, ষষ্ঠ শ্রেণী
স্কুলে রেনি ডে হলে বৃষ্টি পড়া দেখতে ভালো লাগে
‘রেনি ডে’ হলে ভালো লাগে। বেশ ঠান্ডা ঠান্ডা অনুভূতি হয়। আলসেমি লাগে, স্কুলে আসতে ইচ্ছে করে না একদম। তবে, আমার জল ঘাঁটতে একটুও ভালো লাগে না। শুধু ইচ্ছে করে ঘরে বসে থাকি। আর খিচুড়ি-পাঁপড়ভাজা খাই। স্কুলে থাকলে ‘রেনি ডে’ হলে জানলা দিয়ে বাইরে বৃষ্টি পড়া দেখতে ভালো লাগে। পড়ায় যেন পুরো মন বসে না। তখন মনে হয় কেন আজ স্যাররা পড়াচ্ছেন! ছুটি দিয়ে দিন না! তাহলে বেশ নিজের ইচ্ছেমতো এই একটানা বৃষ্টি পড়াটাকে উপভোগ করতে পারি! কিন্তু তারপরই ভয় হয়— এত বৃষ্টি পড়ছে রাস্তায় তো জল জমে যাবে! তখন সেই জল ভেঙে বাড়ি ফিরতে হবে! আমাদের স্কুলের পাড়ায় খুব জল জমে। তবে, বাড়ি ফিরে যদি গরম গরম খিচুড়ি পাই তবে জল ভাঙার সব কষ্ট দূর হয়ে যায়!
দেবাংশু পালুই, অষ্টম শ্রেণী
বাড়িতে থাকলে রেনি ডে’তে শুধু বই পড়ি
‘রেনি ডে’ ভালো লাগে। তবে জল জমে যায় রাস্তায় সেটা ভালো লাগে না। খুব বৃষ্টি হলে গাড়ি-ঘোড়া বন্ধ হয়ে যায়। তখন খুব অসুবিধে হয়, একটুও ভালো লাগে না। তবে ঝিরঝিরে বৃষ্টি ভালো লাগে। বাইরে মুষলধারায় বৃষ্টি ঝরছে, স্যাররা ক্লাসে পড়াচ্ছেন, তখন একদম পড়ায় মন বসে না, বারবার আমার চোখ চলে যায় জানলার বাইরে জলের দিকে। তখন খুব ইচ্ছে করে ক্লাসে বসে টিফিন খেতে খেতে বন্ধুদের সঙ্গে গল্প করি। কারণ বৃষ্টি হলে তো নীচেও নামতে পারি না। মাঠে জল জমে থাকে। বাড়িতে থাকলে ‘রেনি ডে’তে শুধু
বই পড়ি আর খিচুড়ি খাই। মা যদি কোনও দিন খুব বৃষ্টি পড়ছে দেখে বলে, ‘থাক, আজ আর স্কুলে যেতে হবে না’, তখন খুব মজা হয়। তবে, আজকাল স্কুলে আমাদের ‘স্মার্ট
ক্লাস’ চালু হয়েছে। ‘রেনি ডে’ হলে স্যাররা ওখানে নিয়ে গিয়ে আমাদের মুভি
দেখান। বাইরে বৃষ্টি, আর ভেতরে ‘গুপী গাইন বাঘা বাইন’ দেখছি— দারুণ এনজয়মেন্ট!
সৌরিত্র বিশ্বাস, দশম শ্রেণী
আমার পছন্দ ঝমঝমে বৃষ্টি
‘রেনি ডে’ কথাটা শুনলেই বৃষ্টির সোঁদা গন্ধ, খিচুড়ি আর ইলিশ মাছ ভাজার গন্ধ যেন মিলেমিশে যায়! আমার তখন খুব ইচ্ছে করে বৃষ্টির একটানা শব্দের সঙ্গে মিলিয়ে মান্না দের কণ্ঠে ‘আমি ফুল না হয়ে কাঁটা হয়েই বেশ ছিলাম’ এই গানটা বিশেষ করে শুনতে! মান্নাদের গাওয়া আরও অনেক গানই ভালো লাগে, তবে এই গানটা না শুনলে যেন আমার ‘রেনি ডে’ পুরোপুরি উপভোগ করা হয় না! ঝিরঝিরে বৃষ্টি না, আমার পছন্দ ঝমঝমে বৃষ্টি। সঙ্গে মেঘের ডাক, বিদ্যুতের ঝলকানি। আর সেই সঙ্গে খিচুড়ি, পেঁয়াজি! ‘রেনি ডে’ আমার ‘জাঙ্ক ফুড’ খাওয়ার প্রবণতাকে যেন আরও বাড়িয়ে দেয়। ‘রেনি ডে’তে সবসময় স্কুলে আসা তো সম্ভব হয় না। এলে বাড়ি ফেরার সময় জল ভাঙতে হয়। তখন অবশ্য খুব সমস্যা হয়। ‘রেনি ডে’তে যদি ক্লাসে স্যাররা ভূগোলের কোনও কঠিন চ্যাপ্টার পড়ান। তখন সত্যিই আমার খুব ঘুম পেয়ে যায়।
উজান বিশ্বাস, দশম শ্রেণী
আজকের স্কুল পড়ুয়াদের বৃষ্টি যাপনের দিন— ‘রেনি ডে’র কথা শুনতে শুনতে মনে হল, দিদি দুর্গাকে নিয়ে অপু যেমন একদিন বৃষ্টিতে ভিজেছিল, তেমনি কিন্তু আজকের কিশোররাও ভেজে, কখনও বাস্তবে, কখনও আবার মনে মনে। যুগ পাল্টে যায়, কিন্তু, সর্বকালের শিশু-কিশোরদের মন কিন্তু একই থাকে। বৃষ্টি তাদের ছুটির ডাক দেয়— বৃষ্টি তাদের মনকে ভাসিয়ে নিয়ে চলে যায় কোন সে সুদূরে—। সবসময় সে ছুটি বাস্তবে না পেলেও মন তো সে ছুটির নাগাল পেতে চায়—! তাই ‘রেনি ডে’তে পড়া থেকে মুক্তি নিয়ে তারা যখন ‘স্মার্ট ক্লাস’-এ বসে বসে বন্ধুদের সঙ্গে ‘মুভি’ দেখে, তখন যে মনে মনে তারা প্রত্যেকেই হয়ে ওঠে এক একজন ‘অপু’ সে বিষয়ে কিন্তু কোনও সন্দেহই নেই।

সংকলন: চকিতা চট্টোপাধ্যায়
25th  August, 2019
গোলাপি বিপ্লবের সন্ধিক্ষণে ইডেন

ছোট্টবন্ধুরা! তোমরা যারা ক্রিকেট খেলা দেখতে ভালোবাসো, বা যারা ক্রিকেটের খোঁজখবর একটু আধটু রাখো, তারা নিশ্চয়ই ইডেনে দিন-রাতের টেস্ট ম্যাচ হওয়ার খবর জানো। ভারত তাদের প্রথম দিন-রাতের টেস্ট ম্যাচটি খেলতে নামছে ২২ নভেম্বর, বাংলাদেশের বিরুদ্ধে। 
বিশদ

অরণ্যে অ্যাডভেঞ্চার

গা ছমছমে গহিন অরণ্য। দূর থেকে শোনা যাচ্ছে জলপ্রপাতের গর্জন। পথে বন্য পশুর ভয়। কোথাও ভয়ঙ্কর নদী পেরতে হবে। এমনই কয়েকটি অরণ্যের কথা তোমাদের শুনিয়েছেন সায়ন নস্কর। 
বিশদ

ছোটদের রান্নাঘর 

তোমাদের জন্য চলছে একটি আকর্ষণীয় বিভাগ ছোটদের রান্নাঘর। এই বিভাগ পড়ে তোমরা নিজেরাই তৈরি করে ফেলতে পারবে লোভনীয় খাবারদাবার। বাবা-মাকেও চিন্তায় পড়তে হবে না। কারণ আগুনের সাহায্য ছাড়া তৈরি করা যায় এমন রেসিপিই থাকবে তোমাদের জন্য। এবার সেরকমই দুটি জিভে জল আনা রেসিপি দিয়েছেন দ্য পার্কিং লট রেস্তোরাঁর এক্সিকিউটিভ শেফ সুমিত রঘুবংশী। 
বিশদ

10th  November, 2019
জওহরলাল নেহরুর ছেলেবেলা 

আমাদের এই দেশকে গড়ে তোলার জন্য অনেকে অনেকভাবে স্বার্থত্যাগ করে এগিয়ে এসেছিলেন। এই কলমে জানতে পারবে সেরকমই মহান মানুষদের ছেলেবেলার কথা। এবার পণ্ডিত জওহরলাল নেহরু। লিখেছেন চকিতা চট্টোপাধ্যায়। 
বিশদ

10th  November, 2019
ছোটদের ভালোবাসতেন চাচা নেহেরু 

স্বাধীন ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহরু। শিশুদের কাছে তিনি চাচা নেহরু হিসেবে বেশি জনপ্রিয়। নেহরু ছোটদের খুব ভালোবাসতেন বলে তাঁর জন্মদিনটি অর্থাৎ ১৪ নভেম্বর দেশজুড়ে শিশুদিবস পালিত হয়। প্রিয় চাচা নেহরুকে নিয়ে লিখেছে বিভিন্ন স্কুলের ছাত্রছাত্রীরা।  
বিশদ

10th  November, 2019
মার্কশিট 

তোমাদের জন্য চলছে নতুন বিভাগ। এই বিভাগে থাকছে পরীক্ষায় নম্বর বাড়ানোর সুলুক সন্ধান। এবারের বিষয় বাংলা।
 
বিশদ

03rd  November, 2019
সে কি সত্যি হবে! 
আয়ূষী বন্দ্যোপাধ্যায়

পাইন আর দেওদার গাছের মধ্যে পাখির বাসা থাকে কি না তা ঠিক জানা নেই, তবে এক মিষ্টি পাখির কূজন কানে ভেসে আসে রোজই। গতকাল রাতে অমন ঝড়, বৃষ্টি, দম্ভোলি হয়েছে কে বলবে? ভোরের প্রভাকরের প্রকীর্ণ আভা যেন দুর্যোগকে নিশ্চিহ্ন করেছে। ঈশ্বরের দেশে সবই তো তাঁর লীলাখেলা, সেখানে যে নেই কোনও মোহ, মায়া, মাৎসর্য। শুধুই আছে মনকে দয়ার্দ্র করে তোলার পরিপূর্ণ রসদ। 
বিশদ

03rd  November, 2019
পুজোর ছুটি 

পুজোর ছুটিতে কে কী করবে তার পরিকল্পনা অনেক আগেই সেরে ফেলে ছোটরা। সেই তালিকায় ঠাকুর দেখা, খাওয়া-দাওয়া, বন্ধুদের সঙ্গে গল্পগুজব, মামার বাড়ি যাওয়া, বেড়ানো, গল্পের বই পড়া, খেলাধুলো সবই থাকে। এবারের পুজোর ছুটি কার কেমন কাটাল তোমাদের শোনাচ্ছে বৈঁচি বিহারীলাল মুখার্জি’স ফ্রি ইনস্টিটিউশনের ছাত্র-ছাত্রীরা। 
বিশদ

03rd  November, 2019
 আলোর উৎসব
কা লী পু জো

 রং-বেরঙের আলো দিয়ে বাড়ি সাজানো, তুবড়ি, হাউই আর রংমশালের আলোর ছটা, মিষ্টিমুখ, রাত জেগে পুজো দেখা... এমনভাবেই কেটে যায় কালীপুজোর দিনটা। জানাল বিভিন্ন স্কুলের ছেলেমেয়েরা। বিশদ

27th  October, 2019
 ভগিনী নিবেদিতা

 আমাদের এই দেশকে গড়ে তোলার জন্য অনেকে অনেকভাবে স্বার্থত্যাগ করে এগিয়ে এসেছিলেন। এই কলমে জানতে পারবে সেরকমই মহান মানুষদের ছেলেবেলার কথা। এবার ভগিনী নিবেদিতা। লিখেছেন চকিতা চট্টোপাধ্যায়। বিশদ

27th  October, 2019
হ্যালোইন নাকি ভূত উৎসব

কার কতটা ভূতের ভয় তা আমার জানা নেই, আমার কিন্তু খুবই ভূতের ভয়, তাই রাতে আমি একা একা ঘরে শুতে পারি না, চোখ বুঝলেই ভূশুণ্ডির মাঠ থেকে হাজার হাজার ভূত উড়ে এসে আমাকে ঘিরে ধরে, কেউ আমার পা ধরে টানে কেউ বা আবার কাতুকুতু দিয়ে আমাকে নাজেহাল করে ছাড়ে, সে সব দুঃখের কথা আজ নয় ছেড়েই দিলাম। তাই ভূত নিয়ে কিছু লিখতে গেলে আমার হাত-পা ঠান্ডা হয়ে আসে, গায়ের লোম খাড়া হয়ে যায়। বিশদ

27th  October, 2019
হিলি গিলি হোকাস ফোকাস 

চলছে নতুন বিভাগ হিলি গিলি হোকাস ফোকাস। এই বিভাগে জনপ্রিয় জাদুকর শ্যামল কুমার তোমাদের কিছু চোখ ধাঁধানো আকর্ষণীয় ম্যাজিক সহজ সরলভাবে শেখাবেন। আজকের বিষয় থট-রিডিং।   বিশদ

20th  October, 2019
মামরাজ আগরওয়াল রাষ্ট্রীয় পুরস্কার 

প্রতিবারের মতো এবারও ‘মামরাজ আগরওয়াল রাষ্ট্রীয় পুরস্কার’ প্রদান অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল মামরাজ আগরওয়াল ফাউন্ডেশন। গত ২১ সেপ্টেম্বর রাজভবনে অনুষ্ঠানটি হয়েছিল। এবার মোট ৯৯ জন ছাত্রছাত্রীকে পুরস্কৃত করা হয়।   বিশদ

20th  October, 2019
একনজরে
সংবাদদাতা, গাজোল: চড়া দামের ঠেলায় পড়ে এবার ভাতের হোটেলগুলিতেও কোপ পড়েছে ‘ফ্রি পেঁয়াজ’-এর উপর। সেইসঙ্গে চাউমিন বা এগরোলের মধ্যেও কমেছে পেঁয়াজের পরিমাণ। শসার পরিমাণ বাড়িয়ে দেওয়া হচ্ছে জোড়াতালি।  ...

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কলকাতা মেট্রোপলিটন এলাকায় লজিস্টিকস বা পণ্য পরিবহণ ও মজুত রাখা সংক্রান্ত পরিকাঠামো গড়তে উৎসাহী বিশ্ব ব্যাঙ্ক। এই বিষয়ে ইতিমধ্যেই রাজ্যের সঙ্গে প্রাথমিক কথাবার্তা হয়েছে তাদের। ওই প্রকল্পের মাস্টার প্ল্যান আগামী সপ্তাহে চূড়ান্ত হতে পারে বলে শনিবার দাবি ...

 কলম্বো, ১৬ নভেম্বর: অপ্রীতিকর নানা ঘটনার মধ্যেই শনিবার সম্পন্ন হল শ্রীলঙ্কার ভোট। আর এই ভোটে শ্রীলঙ্কার দিকে বিশেষ নজর ছিল ভারতের। ভারতের মূল চিন্তা মহিন্দা রাজাপাকসে। যদি তাঁর দল পুনরায় ক্ষমতায় ফেরে, তাহলে তা ভারতের জন্য খুব ভালো হবে না, ...

জীবানন্দ বসু, কলকাতা: ভোট যে বড় বালাই। তাই বছর ঘুরতে না ঘুরতেই নীতি, আদর্শ বা পরিকল্পনাকে আপাতত শিকেয় তুলে নিজেদের অবস্থান নিয়ে কার্যত ‘ডিগবাজি’ খেল ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

উচ্চতর বিদ্যায় আগ্রহ বাড়বে। মনোমতো বিষয় নিয়ে পঠন-পাঠন হবে। ব্যবসা স্থান শুভ। পৈতৃক ব্যবসায় যুক্ত ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

আন্তর্জাতিক সহনশীলতা দিবস
১৮১২ - ‘দ্য টাইমস’ পত্রিকার প্রতিষ্ঠাতা জন ওয়ালটারের মৃত্যু ।
১৮৯০ -অবিভক্ত ভারতে প্রথম সিরাম ভ্যাকসিন ও পেনিসিলিন প্রস্তুতকারক বিশিষ্ট ভেষজ বিজ্ঞানী ও চিকিৎসক হেমেন্দ্রনাথ ঘোষের জন্ম।
১৯৪৬ - বিশ্বে প্রথমবারের মত কৃত্রিমভাবে বৃষ্টিপাত সৃষ্টি করা হয়।
১৯৬৩: ঝাড়খণ্ডে জন্মগ্রহণ করেন অভিনেত্রী মীনাক্ষি শেষাদ্রি
১৯৭১: পাকিস্তানের ক্রিকেটার ওয়াকার ইউনিসের জন্ম
১৯৮৮: এক দশকেরও বেশি সময় পর পাকিস্তানে অনুষ্ঠিত হল অবাধ নির্বাচন। সেই নির্বাচনে দেশের প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হলেন বেনজির ভুট্টো

16th  November, 2019




ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭০.০২ টাকা ৭৩.৫৬ টাকা
পাউন্ড ৯০.০৫ টাকা ৯৪.৯০ টাকা
ইউরো ৭৭.১৩ টাকা ৮১.২৮ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
16th  November, 2019
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৮,৭৪০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৬,৭৫৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৭,৩০৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৪,৭০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৪,৮০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৩০ কার্তিক ১৪২৬, ১৭ নভেম্বর ২০১৯, রবিবার, পঞ্চমী ৩১/১৫ রাত্রি ৬/২৩। পুনর্বসু ৪২/৪৪ রাত্রি ১০/৫৯। সূ উ ৫/৫৪/৩, অ ৪/৪৮/৫৭, অমৃতযোগ দিবা ৬/৩৭ গতে ৮/৪৮ মধ্যে পুনঃ ১১/৪৩ গতে ২/৩৮। রাত্রি ৭/২৬ গতে ৯/১১ মধ্যে পুনঃ ১১/৪৮ গতে ১/৩৩ মধ্যে পুনঃ ২/২৪ গতে উদয়াবধি, বারবেলা ১০/০ গতে ১২/৪৩ মধ্যে, কালরাত্রি ১২/৫৯ গতে ২/৩৯ মধ্যে।
৩০ কার্তিক ১৪২৬, ১৭ নভেম্বর ২০১৯, রবিবার, পঞ্চমী ২৮/২৫/৫০ সন্ধ্যা ৫/১৭/৫৯। পুনর্বসু ৪১/৫৬/২২ রাত্রি ১০/৪২/১২, সূ উ ৫/৫৫/৩৯, অ ৪/৪৯/১৪, অমৃতযোগ দিবা ৬/৫০ গতে ৮/৫৭ মধ্যে ও ১১/৪৮ গতে ২/৩৯ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/২৭ গতে ৯/১৪ মধ্যে ১১/৫৩ গতে ১/৪০ মধ্যে ও ২/৩৩ গতে ৫/৫৭ মধ্যে, বারবেলা ১০/০/৪৫ গতে ১১/২২/২৬ মধ্যে, কালবেলা ১১/২২/২৬ গতে ১২/৪৪/৮ মধ্যে, কালরাত্রি ১/০/৪৫ গতে ২/৩৯/৩ মধ্যে।
১৯ রবিয়ল আউয়ল

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
দুর্গাপুরে আন্দোলনে আদিবাসীরা 
দুর্গাপুরে স্থানীয় এক যুবককে মারধরের জেরে বড়সড় আন্দোলনে আদিবাসীরা। দীর্ঘ ...বিশদ

16-11-2019 - 03:54:46 PM

প্রথম টেস্টে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ইনিংস ও ১৩০ রানে জয়ী ভারত 

16-11-2019 - 03:39:00 PM

বিধান ভবনের বাইরে বিজেপি-র তাণ্ডব, প্রতিবাদে অবস্থানে কং
জোড়া বিক্ষোভে লণ্ডভণ্ড মধ্য কলকাতা। আজ প্রথমে বিজেপি-র বিক্ষোভ কর্মসূচি ...বিশদ

16-11-2019 - 03:17:00 PM

কোচবিহারে ইন্দোর-কামাক্ষ্যা এক্সপ্রেসে আগুন 
কোচবিহারের বক্সিরহাটের জোড়াই স্টেশনে ইন্দোর কামাক্ষ্যা এক্সপ্রেসের একটি কামরায় অগ্নিকাণ্ডের ...বিশদ

16-11-2019 - 02:25:34 PM

প্রথম টেস্ট, তৃতীয় দিন: বাংলাদেশ ১৯১/৬ (চা বিরতি) 

16-11-2019 - 02:16:46 PM

গোয়ায় ভেঙে পড়ল মিগ ২৯ বিমান, অক্ষত ২ পাইলট 

16-11-2019 - 02:02:26 PM