Bartaman Patrika
হ য ব র ল
 

মহাকাশের দিনযাপন

মহাকাশে যাওয়া কঠিন। কিন্তু তার থেকেও কঠিন সেখানে দিনযাপন করা। কারণ, মহাকাশে পৃথিবীর মতো মাধ্যাকর্ষণ শক্তি কাজ করে না। নেই বায়ুমণ্ডল, ফলে বায়ুর চাপও নেই। জল খাওয়া থেকে শুরু করে টয়লেটে যাওয়া সবই খুব শক্ত কাজ সেখানে। লিখেছেন প্রীতম দাশগুপ্ত।

মহাকাশ তোমাদের অনেককেই টানে। মহাকাশে নভশ্চরদের জীবন কিন্তু আমাদের পৃথিবীর মতো হয় না। সেই জীবন অনেক কঠিন। কেন জানো? আমরা যে পৃথিবীতে হাঁটতে পারি, শুতে পারি, খেতে পারি, তার সবকিছুর জন্যই পৃথিবীর অভিকর্ষ বল দায়ী। সেই কোন কালে বিজ্ঞানী নিউটন আপেল পড়তে দেখে আবিষ্কার করেছিলেন মাধ্যাকর্ষণ সূত্র। পৃথিবীর এই আকর্ষণের কারণেই আমাদের পা মাটিতে থাকতে পারে। আমরা নিজেদের দেহের ভারসাম্য রাখতে পারি। সব কাজ করতে পারি। কিন্তু মহাকাশে সেই সুযোগ কোথায়। সেখানে প্রায় জিরো গ্র্যাভিটি। অর্থাৎ মাধ্যাকর্ষণ শক্তি প্রায় শূন্য। সেখানে সব জিনিসই ভেসে বেড়ায়। এমনকী, অ্যাস্ট্রোনটও ভেসে থাকে। তাই ওই ভাসমান অবস্থায় পৃথিবীর মতো সব কাজ করা বেশ কঠিন।
এই কাজ যাতে সুষ্ঠুভাবে মহাকাশচারীরা করতে পারে তার জন্য বেশ কয়েকমাস ধরে তাঁদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। ভেসে থাকা অবস্থায় যাবতীয় কাজ যেন তাঁরা করতে পারেন। মহাকাশচারীদের জন্য তৈরি করা হয় বিশেষ পোশাক। কারণ সবসময় যে তাঁরা স্পেশ স্টেশনেই থাকবেন, তার তো মানে নেই। তাঁদের স্পেশ-ওয়াক অর্থাৎ মহাকাশে হাঁটতেও হতে পারে। মনে রাখতে হবে মহাকাশের তাপমাত্রা আর পৃথিবীর তাপমাত্রা কিন্তু এক নয়। আবার সূর্যালোকও সমান নয়। তাই এই পোশাক নভশ্চরদের বিশেষ সুবিধা দেয়। চরম তাপমাত্রা বলতে যা বোঝায় যেমন ধরো মাইনাস ১২০ ডিগ্রি সেলসিয়াস থেকে ১২০ ডিগ্রি তাপমাত্রাতেও যেন কারও অসুবিধা না হয় তার ব্যবস্থা থাকে ওই পোশাকে। মহাকাশচারীর বুক ঢাকা দেওয়ার জন্য পোশাকের ওই অংশটি বেশ শক্ত হয়। তাঁদের হাত পুরো ঢাকা থাকে। হাতে থাকে গ্লাভস। ওই পোশাকের সঙ্গে হাতের অংশ যুক্ত থাকে। পোশাকের মধ্যে থাকে কিছু টিউব। যে টিউব দিয়ে জল সরবরাহ করা হয়। যাতে মহাকাশে হাঁটার সময় তাঁদের শরীর ঠান্ডা থাকে। আর ব্যাগের পিছনে থাকে লাইফ সাপোর্ট সিস্টেমের অঙ্গ হিসেবে অক্সিজেন, প্রয়োজনীয় বিদ্যুৎ সরবরাহের ব্যবস্থা ও একটি ফ্যান। পোশাকের সঙ্গেই থাকে সোলার প্রুফ হেলমেট। সূর্যালোকে চোখ যাতে ঝলসে না যায়, তার জন্য থাকে বিশেষ ব্যবস্থা। সবকিছু ঠিকঠাক নিয়ন্ত্রণ হচ্ছে কি না, তা পোশাকের সঙ্গেই থাকা কম্পিউটার স্ক্রিনে দেখতে পারেন মহাকাশচারী। স্পেশ ওয়াক করতে গিয়ে যদি কোনও মহাকাশচারী দুর্ঘটনাবশত হারিয়ে যান তবে কী হবে? যেমন গ্র্যাভিটি বলে একটি হলিউড ছবিতে দেখানো হয়েছিল। না তেমন কিছু হওয়ার সম্ভাবনা কম। কারণ তাঁদের ওই পোশাকেই সেফার বলে একটি মোড আছে। যদি কোনও কারণে স্পেশ স্টেশন থেকে ছিটকে যান ওই মহাকাশচারী, তিনি তৎক্ষণাৎ ওই সেফার চালু করবেন। তখন কয়েকটি ছোট ছোট জেট কার্যকর হবে। এবং ওই মহাকাশচারী স্টেশনে ফিরে আসতে পারবেন। ও আর একটা কথা মহাকাশচারীদের হাতে থাকে দু’টো ঘড়ি। পৃথিবী থেকে তাঁরা কোন সময় রওনা দিয়েছেন, তা দেখার জন্য একটি ঘড়ি। অন্য ঘড়ি দেয় জিএমটি অর্থাৎ গ্রিনিচ মিন টাইম। মানে বিশ্বের স্ট্যান্ডার্ড সময়।
এ তো গেল হাঁটার কথা। আর স্টেশনের ভিতরে কী অবস্থা হয়। সেখানেই তো বেশিরভাগ সময় কাটাতে হয় তাঁদের। আমরা পৃথিবীতে সকাল থেকে কী করি? মা ডাকলে ঘুম থেকে ওঠে ব্রাশ করি। ওঁদের তো ডাকার কেউ নেই। ওঁরা নিজেরাই ওঠেন। তারপর আমাদের মতোই ব্রাশ করেন। কিন্তু একটু তফাৎ রয়েছে। ওখানে তো ব্রাশ করে জল দিয়ে কুলকুচি করে ফেলা যায় না। স্পেশ স্টেশনের দেওয়ালে ব্যাগের মধ্যে আটকানো থাকে একটি ব্যাগ। তার মধ্যেই থাকে ওই সব ব্রাশ-পেস্ট। সেই পেস্ট অবশ্য বিশেষ ধরনের। খেয়ে নেওয়া যায়। ব্রাশে পেস্ট লাগিয়ে জলের টিউব থেকে জল লাগিয়ে দেন মহাকাশচারীরা। জল লাগানোর সময় একটু জল যদি টিউব থেকে বেরিয়ে আসে, তখন সেটি বাবল হয়ে ভেসে বেড়ায়। মহাকাশচারীরা দিব্যি সেটিকে খেয়ে ফেলেন। কারণ অপচয়ের সুযোগ কোথায়। ব্রাশ করে সেই পেস্ট খেয়েই ফেলেন তাঁরা।
দৈনন্দিন রুটিনের মধ্যে টয়লেট বা বাথরুম যাওয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ। বাথরুমে একটি কমোড থাকে। আর থাকে ভ্যাকুম ক্লিনার টাইপের মেশিন। ওই মেশিন নোংরাকে শুকনো কাগজের মতো করে দেয়। সেগুলিকে জড়ো করে করে রাখতে হয়। নাহলে সেটি ভেসে এদিক-ওদিক হয়ে যাবে। আসলে ১০ সেমির ওই সাকশন কমোডে বসাটাই কঠিন। তাঁরা নিয়মিত স্নানও করেন। শ্যাম্পু করেন, সাবান দেন। তফাৎ হল তাঁদের শ্যাম্পু জল ছাড়া। ওই শ্যাম্পু তাঁরা মাথায় ঘষে দেন। স্নান করেন ভিজে কাপড় গায়ে ঘষে। লিক্যুইড শোপ যেমন হয়, ওই কাপড়ও অনেকটা তেমনভাবে তৈরি করা হয়। স্পেশ স্টেশনের ভিতরকার পরিবেশ অবশ্য অনেকটাই স্বাভাবিক রাখার চেষ্টা করা হয়। সেখানে তাই নভশ্চররা স্পেশ ওয়াকের মতো পোশাক পরে থাকেন না। স্বাভাবিক কাপড়ই তাঁরা পরেন। যেমন আমরা কটন পোশাক পরি, তেমনি। তবে ওখানে কাচাকাচির বা ইস্ত্রি করার কোনও সুযোগ নেই। তাই পোশাক ও আন্ডারওয়্যার বেশিই লাগে।
মহাকাশচারীদের আগে খাওয়ার জন্য টিউব ব্যবহার করতে হতো। এখন তাঁরা স্বাভাবিক খাবার খান। যেমন আমরা পৃথিবীতে খাই। কী নেই সেই তালিকায়, রুটি, ফল, সব্জি, ডিম, মাংস, ডাল, সবই। তবে সবটাই প্যাকেটজাত। স্টেশনের রান্নাঘরের ফ্রিজে (আমাদের পৃথিবীর মতো নয় কিন্তু) এসব খাবার থাকে। মহাকাশচারীদের কিন্তু শরীরচর্চা মাস্ট। কারণ প্রায় মাধ্যাকর্ষণ শূন্য এলাকায় হাড় ও মাসলের শক্তি বাড়ানো জরুরি। তাই তাঁরা প্রতিদিন ট্রেডমিলে হাঁটেন। নানাবিধ বিজ্ঞান চর্চার পাশাপাশি মহাকাশের ঘরকেও তাঁদের পরিষ্কার রাখতে হয়।
ভ্যাকুম ক্লিনার, লিক্যুইড ডিটারজেন্ট ও ডিসপোজেবল গ্লাভস এই কাজে ব্যবহার হয়। এই নোংরা তাঁরা জমা করে রেখে দেন। মহাকাশে ফেলে দেন না। সেগুলি পৃথিবীতে নিয়ে আসেন। কিন্তু প্রশ্ন হল, তাঁরা কি সারাদিন কাজই করেন? তাঁদের বিনোদন নেই। আছে। তাঁদের শোওয়ার ঘর (অবশ্য যদি সেটিকে তোমাদের ঘর বলে মনে হয় তবেই) আছে। সেখানে ল্যাপটপ রয়েছে, বই রয়েছে। গান শোনার সুযোগ রয়েছে। পৃথিবীকে দেখার সুযোগ রয়েছে। এমনকী, পৃথিবীর সঙ্গে কথা বলাও যায়।
সবার শেষে আসি ঘুমের কথায়। অ্যাস্ট্রোনটরাও কিন্তু দিনে ঘণ্টা ছয় অবশ্যই ঘুমোন। ভেসে ভেসে তো ঘুমনো যায় না, তাই তাঁদের জন্য স্লিপিং ব্যাগ রয়েছে। সেখানে ঢুকে দিব্যি ঘুম দেন তাঁরা। যে টিম মহাকাশে যায়, তার মধ্যে কিন্তু চিকিৎসকও থাকেন। অসুখ-বিসুখ হলে আমাদের মতো মহাকাশেও ডাক্তারই ভরসা। জরুরি প্রয়োজনের জন্য চিকিৎসকদের ওষুধ, ইনজেকশন থেকে শুরু করে নানাবিধ বিষয় মজুত থাকে।
ব্যাপারটা সহজ নয় ঠিকই, কিন্তু আকর্ষণীয়। কী ভাবছ, ট্রাই করে দেখবে নাকি?
ছবি: সংশ্লিষ্ট সংস্থার সৌজন্যে
12th  May, 2019
হিলি গিলি হোকাস ফোকাস 

শুরু হল নতুন বিভাগ হিলি গিলি হোকাস ফোকাস। এই বিভাগে জনপ্রিয় জাদুকর শ্যামল কুমার তোমাদের কিছু চোখ ধাঁধানো আকর্ষণীয় ম্যাজিক সহজ সরলভাবে শেখাবেন। আজকের বিষয় টেলিপ্যাথি বা অতীন্দ্রিয় অনুভূতি।  
বিশদ

26th  May, 2019
সংস্কৃতি পরিচয়ের মহাভারত অনন্তকথা 

সংস্কৃতি পরিচয়ের ১২তম বাৎসরিক অনুষ্ঠান হয়ে গেল ১ মে। কলকাতার জি ডি বিড়লা সভাঘরে। ‘মহাভারত অনন্তকথা’ এই কনসার্টটিতে অংশ নিয়েছিল ৩ থেকে ১৫ বছরের ছেলে-মেয়েরা। 
বিশদ

26th  May, 2019
সবাই সফল হতে পারে
 

দেবমাল্য সাহা, মাধ্যমিকে দশম স্থানাধিকারী
রহড়া রামকৃষ্ণ মিশন বালকাশ্রম উচ্চ বিদ্যালয়ের (উচ্চ মাধ্যমিক) ছাত্র

‘Origin of species by Means of Natural Selection’ গ্রন্থে মহাবিজ্ঞানী চার্লস ডারউইন জানিয়েছেন যে নিজের অস্তিত্ব রক্ষার জন্য প্রত্যেক জীবকে অনবরত সংগ্রাম করতে হয়। 
বিশদ

26th  May, 2019
বিরুমপুরের বড়জেঠু
কার্তিক ঘোষ
 

সত্যি বলতে, এটা ঠিক গল্প নয়। কিন্তু গল্পের মতন শুনতে।
বয়েসটাও একটু বেশি। সত্তর পেরিয়ে গেছে কবেই।
তবে তখনও বিরুমপুরকে আস্ত একটা গ্রাম বলত না কেউ। বলত, তাজপুরের লেজুড়। 
বিশদ

26th  May, 2019
নিকেলোডিয়ান সোনিকে গোলমাল জুনিয়র  

তোমাদের কার্টুন ফিল্ম দেখতে ভালো লাগে? আজ তাহলে তোমাদের একটা দারুণ খবর দিই। টেলিভিশনে নিকেলোডিয়ান সোনিক চ্যানেলের নাম নিশ্চয়ই শুনেছ। কার্টুন চ্যানেল হিসেবে বেশ জনপ্রিয় এই চ্যানেলে গত ১৩ মে থেকে শুরু হয়েছে নতুন অ্যানিমেটেড শো ‘গোলমাল জুনিয়র’। 
বিশদ

19th  May, 2019
অন্য পৃথিবীর খোঁজ 

গরমটা কেমন পড়েছে দেখেছ? শান্তি নেই কোনওখানে! দিনরাত প্যাচপেচে ঘাম। পিঠে উইপোকার ঢিবির মতো বড় বড় ঘামাচি বেরিয়ে গিয়েছে! সারা মাসের পাউডার একদিনে মেখেও আরাম হচ্ছে না! রাস্তায় বেরব কী! সুয্যিমামা গলন্ত লাভা ঢেলে দিচ্ছেন গায়ে।
বিশদ

19th  May, 2019
বিদ্রোহী কবি নজরুল ইসলাম 

আগামী ২৪ মে বিদ্রোহী কবি কাজি নজরুল ইসলামের ১২০তম জন্মদিন। তাঁর রোমাঞ্চকর জীবনকাহিনী তোমাদের জন্য লিখেছেন সন্দীপন বিশ্বাস।
 
বিশদ

19th  May, 2019
প্রতিটি পরীক্ষায় ইংরাজিতে ভালো নম্বর পেতে হলে ভয়েস চেঞ্জকে বাড়তি গুরুত্ব দিতে হবে

পরামর্শ দিচ্ছেন বাঁকুড়া জিলা স্কুলের ইংরাজির শিক্ষক রক্তিম মুখোপাধ্যায়। বিশদ

12th  May, 2019
 ডিপিএস রুবি পার্কের বার্ষিক অনুষ্ঠান

  দিল্লি পাবলিক স্কুল (ডিপিএস), রুবি পার্ক প্রতি বছরের মতো এবারও তাদের বার্ষিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল। ‘রেভারেন্স ২০১৯’ নামে এই অনুষ্ঠানটি হয়েছিল নজরুল মঞ্চে। দু’দিন ব্যাপী এই অনুষ্ঠানে নানান সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান দেখা গেল। উপস্থিত ছিলেন বহু বিশিষ্টজন। প্রথম দিন অনুষ্ঠান শুরু হয় গণেশস্তুতি দিয়ে।
বিশদ

12th  May, 2019
তানজেনিয়ার জাতীয় উদ্যানে

আফ্রিকা মহাদেশের পূর্ব প্রান্তে অবস্থিত তানজেনিয়া। দেশটির সরকারি নাম ইউনাইটেড রিপাবলিক অব তানজেনিয়া। প্রায় ৯ লক্ষ ৪৭ হাজার বর্গ কিলোমিটার বিস্তৃত এই দেশটি আয়তনে আফ্রিকা মহাদেশে ১৩তম স্থান দখল করে। দেশটির একধারে প্রতিনিয়ত আছড়ে পড়ে ভারত মহাসাগরের উত্তাল ঢেউ।
বিশদ

05th  May, 2019
মুকুলিত কিশলয়

‘জল পড়ে পাতা নড়ে...’— যে অবোধ বালক শৈশবে এই পঙ্‌ক্তি লিখেছিলেন, তিনিই ভবিষ্যতের বিশ্বজোড়া খ্যাতির অধিকারী। এই কিংবদন্তি মানুষটি ছেলেবেলায় কিন্তু তোমাদের মতোই ছিলেন। তাঁর লেখা বই ‘ছেলেবেলা’ থেকে আকর্ষণীয় কিছু অংশ তুলে ধরে তাঁকে নিয়েই এই লেখা। গঙ্গাজলে গঙ্গাপুজো করেছেন মৃণালকান্তি দাস।
বিশদ

05th  May, 2019
মুকুলবীথি শিশু বিদ্যালয়

 মুকুলবীথি। শুধু আর শব্দ নয়। শিশুদের ভবিষ্যৎ গঠনের উজ্জ্বল ঠিকানা। স্নেহ, ভালোবাসা, নিয়মানুবর্তিতা, ব্যক্তিত্ব বিকাশের অভিনব প্রতিষ্ঠান। সুন্দর পরিবেশে সহানুভূতির সঙ্গে বেড়ে ওঠা শিশুদের নিজের বাড়ি। এই ধরনের একটা স্কুল তৈরির স্বপ্ন ছিল রেণুকা সেনের। সেই ইচ্ছেটা বেশিমাত্রায় তীব্র হল উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করার সময়।
বিশদ

05th  May, 2019
খুদেদের খেলনা

কারও পছন্দ বার্বি ডল, কেউ ভালোবাসে কু ঝিক ঝিক ট্রেনগাড়ি। মুকুলবীথি শিশু বিদ্যালয়ের ছোট্ট সোনাদের প্রিয় খেলনার খবরাখবর নিলেন শম্পা সরকার। বিশদ

05th  May, 2019
হিলি গিলি হোকাস ফোকাস 

শুরু হল নতুন বিভাগ হিলি গিলি হোকাস ফোকাস। এই বিভাগে জনপ্রিয় জাদুকর শ্যামল কুমার তোমাদের কিছু চোখ ধাঁধানো আকর্ষণীয় ম্যাজিক সহজ সরলভাবে শেখাবেন। আজকের বিষয় থট-রিডিং-এর খেলা।  
বিশদ

28th  April, 2019
একনজরে
 লন্ডন, ২৬ মে: ভারতের বিরুদ্ধে প্রস্তুতি ম্যাচে সাড়া জাগানো বোলিং করেছেন নিউজিল্যান্ডের পেসার ট্রেন্ট বোল্ট। মূলত তাঁর আগুনে পেস ও স্যুইংয়ের ছোবলে ভারতের একের পর এক টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান মুখ থুবড়ে পড়েছেন। বোল্ট ৩৩ রান দিয়ে তুলে নেন ৪টি উইকেট। ...

দীপ্তিমান মুখোপাধ্যায়, হাওড়া: প্রবল মোদি হাওয়ায় শুধু সিপিএমের ভোট ব্যাঙ্কে ধ্বস নামেনি, তৃণমূলেরও একটি বড় অংশের ভোট বিজেপির বাক্সে গিয়েছে। আর তার ফলেই উলুবেড়িয়া লোকসভা এলাকায় তৃণমূলের জয়ের মার্জিন কমেছে। ...

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কেন্দ্রে নতুন সরকার আসার পর বাড়তে পারে রান্নার গ্যাসের সিলিন্ডার পিছু কমিশনের অঙ্ক। এমনটাই আশা করছেন ডিলাররা। তাঁদের আশা, গৃহস্থের সিলিন্ডার পিছু অন্তত ২০ টাকা কমিশন বাড়বে। ...

নয়াদিল্লি, ২৬ মে (পিটিআই): আর মাত্র একবছর। ২০২০-তে দল ছেড়ে দেবেন তিনি। ট্যুইটারে এমনই বিস্ফোরক ঘোষণা করলেন আম আদমি পার্টির বিক্ষুব্ধ বিধায়ক অলকা লাম্বা। সদ্যসমাপ্ত ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

বিদ্যার্থীদের বিষয় নির্বাচন সঠিক হওয়া দরকার। কর্মপ্রার্থীরা কোনও শুভ সংবাদ পেতে পারেন। কারও সঙ্গে সম্পর্ক ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯৬৪: স্বাধীনতা সংগ্রামী ও ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহরুর মৃত্যু
১৯৬২: ভারতীয় ক্রিকেটার রবি শাস্ত্রীর জন্ম
১৯৭৭: শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটার মাহেলা জয়বর্ধনের জন্ম

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৮.৬৫ টাকা ৭০.৩৪ টাকা
পাউন্ড ৮৬.২৯ টাকা ৮৯.৫১ টাকা
ইউরো ৭৬.০৩ টাকা ৭৮.৯৬ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
25th  May, 2019
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩২, ১৭৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩০, ৫২৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩০, ৯৮৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৬, ৪০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৬, ৫০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
26th  May, 2019

দিন পঞ্জিকা

১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২৭ মে ২০১৯, সোমবার, অষ্টমী ১৫/৫০ দিবা ১১/১৬। শতভিষা ২৮/১১ দিবা ৪/১৩। সূ উ ৪/৫৬/৩৩, অ ৬/১০/৪২, অমৃতযোগ দিবা ৮/২৮ গতে ১০/১৪ মধ্যে। রাত্রি ৯/২ গতে ১১/৫৫ মধ্যে পুনঃ ১/২১ গতে ২/৪৭ মধ্যে, বারবেলা ৬/৩৬ গতে ৮/১৫ মধ্যে পুনঃ ২/৫২ গতে ৮/৩২ মধ্যে, কালরাত্রি ১০/১৩ গতে ১১/৩৪ মধ্যে।
১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২৭ মে ২০১৯, সোমবার, অষ্টমী ১২/৭/৫০ দিবা ৯/৪৭/৩১। শতভিষানক্ষত্র ২৫/৩৫/২১ দিবা ৩/১০/৩১, সূ উ ৪/৫৬/২৩, অ ৬/১২/৩৪, অমৃতযোগ দিবা ৮/৩০ গতে ১০/১৬ মধ্যে এবং রাত্রি ৯/৮ গতে ১১/৫৮ মধ্যে ও ১/২২ গতে ২/৫০ মধ্যে, বারবেলা ২/৫৩/৩১ গতে ৪/৩৩/২ মধ্যে, কালবেলা ৬/৩৫/৫৪ গতে ৮/১৫/২৬ মধ্যে, কালরাত্রি ১০/১৪/০ গতে ১১/৩৪/২৯ মধ্যে। 
২১ রমজান

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
ময়নাগুড়িতে তৃণমূলের জেলা সভাপতি সৌরভ চক্রবর্তীর গাড়িতে হামলার অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে 

26-05-2019 - 08:56:39 PM

রাজীব কুমারকে আগামীকাল সিজিও কমপ্লেক্সে হাজিরার নোটিস দিল সিবিআই 

26-05-2019 - 08:21:15 PM

বাগনানে দামোদরে স্নান করতে নেমে নিখোঁজ যুবক 

26-05-2019 - 08:16:00 PM

আদর্শ আচরণবিধি উঠতেই বদলি হওয়া পুলিস কর্তাদের পুরনো পদে ফেরার নির্দেশ
আদর্শ আচরণবিধি উঠতেই নির্বাচন কমিশন দ্বারা বদলি হওয়া একাধিক পুলিস ...বিশদ

26-05-2019 - 08:13:25 PM

কলকাতার প্রাক্তন পুলিস কমিশনার রাজীব কুমারের বাড়িতে সিবিআইয়ের দল 

26-05-2019 - 07:49:53 PM

বিমান উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি ফোন, চাঞ্চল্য 
বাগডোগরা থেকে কলকাতামুখী এয়ার এশিয়ার বিমান মাঝ আকাশে উড়িয়ে দেওয়ার ...বিশদ

26-05-2019 - 07:36:28 PM