Bartaman Patrika
হ য ব র ল
 

মুকুলিত কিশলয়

 ‘জল পড়ে পাতা নড়ে...’— যে অবোধ বালক শৈশবে এই পঙ্‌ক্তি লিখেছিলেন, তিনিই ভবিষ্যতের বিশ্বজোড়া খ্যাতির অধিকারী। এই কিংবদন্তি মানুষটি ছেলেবেলায় কিন্তু তোমাদের মতোই ছিলেন। তাঁর লেখা বই ‘ছেলেবেলা’ থেকে আকর্ষণীয় কিছু অংশ তুলে ধরে তাঁকে নিয়েই এই লেখা। গঙ্গাজলে গঙ্গাপুজো করেছেন মৃণালকান্তি দাস।

বিজ্ঞানের গুণী ছাত্র রবি
এখন তো তোমরা ইন্টারনেট, কম্পিউটার, ল্যাপটপ, ফেসবুক, টুইটার থেকে শুরু করে কত কিছুর যে সুবিধা পাচ্ছ! কিন্তু বিশ্বকবি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের সময়ে তো আর এত কিছু ছিল না। তবে, তার সময়টাতে কিন্তু বিজ্ঞানের যুগ শুরু হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু তোমাকে যদি আমাদের দেশের কয়েকজন বিজ্ঞানীর নাম বলতে বলা হয় তবে তুমি কি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের নামটি বলবে? কখনও না, তাই না? তিনি কোনও কিছু আবিষ্কার কি উদ্ভাবনও করেননি। তবে, তিনি কিন্তু বিজ্ঞানকে ধরতে পেরেছিলেন। তিনি তো ছিলেন কবি, তার কি আর পরীক্ষাগারে বসে বসে গবেষণা করলে চলবে? তাই করলে কি আর তাঁর সেই নোবেল বিজয় সম্ভব হতো? তাই তিনি বৈজ্ঞানিকদের সঙ্গে বন্ধুত্ব তৈরি করলেন। নিজে বিজ্ঞান পড়লেন। আর কী করলেন? একটা আস্ত বই-ই লিখে ফেললেন। বইটির নাম দিলেন ‘বিশ্বপরিচয়’। এ বইয়ের মধ্যে তিনি তার বিজ্ঞান ভাবনার কথা লিখে গেলেন।

বিজ্ঞানচর্চার হাতেখড়ি হয়েছিল ছেলেবেলাতেই
রবি কবির তো বিজ্ঞান চর্চার হাতেখড়ি হয়েছিল ছেলেবেলাতেই। তুমিও যেমন রোজ বসো তোমার প্রাইভেট টিউটরের সামনে। তবে রবির সেই স্যার প্রথম যেদিন পড়াতে আসেন, সেদিন সঙ্গে করে এনেছিলেন আস্ত একটা কঙ্কাল। প্রতি রাতে শোবার ঘরের দেওয়ালে ঝুলে থাকা কঙ্কালটার হাড়গুলো যখন হাওয়ায় নড়ত খট খট করে, তখন আর ভয় করত না রবির। কেননা, হাড়গুলোর শক্ত শক্ত নাম সব জানা হয়েছিল আগেই। বিজ্ঞানের স্যার সীতানাথ দত্ত কবিগুরুর মনে ছোটবেলাতেই বিজ্ঞান শিক্ষার বীজ পুঁতে দিয়েছিলেন। তিনি তা অকপটে বলেও গেছেন। ‘সারা সকাল জুড়ে নানারকম পড়ার যতই চাপ পড়ে, মন ততই ভিতরে ভিতরে চুরি করে কিছু কিছু বোঝা সরাতে থাকে, জালের মধ্যে ফাঁক করে তার ভিতর দিয়ে মুখস্থ বিদ্যে ফসকিয়ে যেতে চায়।’

বিজ্ঞানের রস-আস্বাদনের লোভে
রবীন্দ্রনাথ অবশ্য একটা কথা স্বীকার করে লিখেছেন, ‘আমি বিজ্ঞানের সাধক নই সে কথা বলা বাহুল্য। কিন্তু বালককাল থেকে বিজ্ঞানের রস-আস্বাদনে আমার লোভের অন্ত ছিল না। আমার বয়স বোধ করি তখন নয়-দশ বছর; মাঝে মাঝে রবিবারে হঠাৎ আসতেন সীতানাথ দত্ত মহাশয়। আর জানি তাঁর পুঁজি বেশি ছিল না, কিন্তু বিজ্ঞানের অতি সাধারণ দুই-একটি তত্ত্ব তখন দৃষ্টান্ত দিয়ে তিনি বুঝিয়ে দিতেন আমার মন বিস্ফারিত হয়ে যেত। মনে আছে, আগুনে বসালে তলার জল গরমে হালকা হয়ে উপরে ওঠে আর উপরের ঠান্ডা ভারী জল নিচে নামতে থাকে, জল গরম হওয়ারই এই কারণটা যখন তিনি কাঠের গুঁড়োর যোগে স্পষ্ট করে দিলেন, তখন অনবচ্ছিন্ন জলে একই কালে যে উপরে নিচে নিরন্তর ভেদ ঘটতে পারে তারই বিস্ময়ের স্মৃতি আজও মনে আছে। যে ঘটনাকে স্বতই সহজ বলে বিনা চিন্তায় ধরে নিয়েছিলুম সেটা সহজ নয়, এই কথাটা বোধ হয় সেই প্রথম আমার মনকে ভাবিয়ে তুলেছিল। তারপরে, বয়স যখন হয়তো বারো হবে (কেউ কেউ যেমন রংকানা থাকে আমি তেমনি তারিখকানা এই কথাটি বলে রাখা ভালো), পিতৃদেবের সঙ্গে গিয়েছিলুম ডালহৌসি পাহাড়ে। সমস্ত দিন ঝাঁপানে করে গিয়ে সন্ধ্যাবেলায় পৌঁছতুম ডাকবাংলোয়। তিনি চৌকি আনিয়ে আঙিনায় বসতেন। দেখতে দেখতে গিরিশৃঙ্গের বেড়া-দেওয়া নিবিড় নীল আকাশের স্বচ্ছ অন্ধকারে তারাগুলি যেন কাছে নেমে আসত। তিনি আমাকে নক্ষত্র চিনিয়ে দিতেন, গ্রহ চিনিয়ে দিতেন। শুধু চিনিয়ে দেওয়া নয়, সূর্য থেকে তাদের কক্ষচক্রের দূরত্বমাত্রা, প্রদক্ষিণের সময় এবং অন্যান্য বিবরণ আমাকে শুনিয়ে যেতেন। তিনি যা বলে যেতেন তাই মনে করে তখনকার কাঁচা হাতে আমি একটা বড় প্রবন্ধ লিখেছি। স্বাদ পেয়েছিলুম বলেই লিখেছিলুম, জীবনে এই আমার প্রথম ধারাবাহিক রচনা, আর সেটা বৈজ্ঞানিক সংবাদ নিয়ে।’

‘বৈজ্ঞানিক সংবাদ’ লিখতেন
ঠাকুরবাড়ি থেকে প্রকাশিত ছোটদের পত্রিকা বালকের সম্পাদনার সঙ্গে যুক্ত ছিলেন রবীন্দ্রনাথ। তখন তাঁর বয়স মাত্র চব্বিশ বছর। সত্যেন্দ্রনাথ ঠাকুরের স্ত্রী রবীন্দ্রনাথের মেজো বউঠাকুরানি জ্ঞানদানন্দিনী দেবী বালক পত্রিকার সম্পাদক ছিলেন। রবীন্দ্রনাথ তাঁর সহযোগী ছিলেন এবং কার্যত সম্পাদনা ও প্রকাশনার দায়িত্ব তিনিই পালন করে যেতেন। গল্প, উপন্যাস,কবিতা ছাড়াও বালকের পাতায় ‘বৈজ্ঞানিক সংবাদ’ও লিখতেন রবীন্দ্রনাথ। তাতে অনেক অজানা তথ্য এবং মজার কথা থাকত। অজ্ঞতার অন্ধকারে নিমজ্জিত মানুষকে মূঢ়তার অভিশাপ থেকে মুক্ত করার ইচ্ছাই ছিল তাঁর বিজ্ঞানচর্চার মূল উদ্দেশ্য, কেননা আধুনিক সংস্কারমুক্ত জীবনবোধ তৈরি না হলে মনের অন্ধকার ও জীবনের অন্ধকার কখনও অপসৃত হয় না।

পড়তে পড়তে হয়ে গেলেন বিজ্ঞানের ভক্ত
রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের বিজ্ঞান শিখতে সমস্যাও ছিল। বড় সমস্যা ছিল, এসব মোটা মোটা বৈজ্ঞানিক বইপত্তর সব লেখা থাকত ইংরেজিতে। রবীন্দ্রনাথ করলেন কি, ইংরেজিটাই শিখলেন আগে। তিনি বলেছেন, কী কী শোনো, বয়স আরও বাড়লে, ‘ইংরেজি ভাষা অনেকখানি আন্দাজে বোঝবার মতো বুদ্ধি’ খুলে গেলে, সহজবোধ্য জ্যোতির্বিজ্ঞানের বই সেখানে যত পেয়েছেন পড়তে ছাড়েননি।’ মাঝে মাঝে গাণিতিক দুর্গমতায় পথ বন্ধুর হয়ে উঠেছে, তার কৃচ্ছ্রতার উপর দিয়ে মনটাকে ঠেলে নিয়ে গিয়েছি। তার থেকে একটা এই শিক্ষা লাভ করেছি যে, জীবনে প্রথম অভিজ্ঞতার পথে সবই যে আমরা বুঝি তাও নয়, আর সবই সুস্পষ্ট না বুঝলে আমাদের পথ এগয় না একথাও বলা চলে না।’ রবীন্দ্রনাথ সেই তরুণ বয়সেই ‘সার রবার্ট বল্‌’, ‘ফ্লামরিয়’ প্রভৃতি অনেক লেখকের জ্যোতির্বিজ্ঞান-বিষয়ক অনেক বই পড়ে ফেলেছিলেন। তারপর ‘সাহস করে’ পড়েছিলেন প্রাণতত্ত্ব সম্বন্ধে হাক্সলির প্রবন্ধ। এভাবে প্রচুর বিজ্ঞানের বই পড়তে পড়তেই তিনি হয়ে গেলেন বিজ্ঞানের ভক্ত।
কিন্তু তিনি তো কবি ছিলেন তাই না? এভাবে বিজ্ঞানী হয়ে গেলে তিনি কবিতা লিখলেন কী করে? সে উত্তরও তিনিই দিয়েছেন— ‘কবিত্বের এলাকায় কল্পনার মহলে বিশেষ যে লোকসান ঘটিয়েছে সে তো অনুভব করি নে।’ অর্থাৎ কিনা, বিজ্ঞান জানলেই যে কবি-কল্পনা নষ্ট হবে, এমন কোনও কথাই নেই। উলটে তাতে ষোলো আনা লাভ। তোমার লেখার মাঝে যদি বড়সড় বৈজ্ঞানিক ভুল থাকে, সে-ই তো আরও বেশি সমস্যা। যে পড়বে, সে খুব একটা ভুল কথা জেনে বসে থাকবে না!
05th  May, 2019
হিলি গিলি হোকাস ফোকাস 

শুরু হল নতুন বিভাগ হিলি গিলি হোকাস ফোকাস। এই বিভাগে জনপ্রিয় জাদুকর শ্যামল কুমার তোমাদের কিছু চোখ ধাঁধানো আকর্ষণীয় ম্যাজিক সহজ সরলভাবে শেখাবেন। আজকের বিষয় টেলিপ্যাথি বা অতীন্দ্রিয় অনুভূতি।  
বিশদ

26th  May, 2019
সংস্কৃতি পরিচয়ের মহাভারত অনন্তকথা 

সংস্কৃতি পরিচয়ের ১২তম বাৎসরিক অনুষ্ঠান হয়ে গেল ১ মে। কলকাতার জি ডি বিড়লা সভাঘরে। ‘মহাভারত অনন্তকথা’ এই কনসার্টটিতে অংশ নিয়েছিল ৩ থেকে ১৫ বছরের ছেলে-মেয়েরা। 
বিশদ

26th  May, 2019
সবাই সফল হতে পারে
 

দেবমাল্য সাহা, মাধ্যমিকে দশম স্থানাধিকারী
রহড়া রামকৃষ্ণ মিশন বালকাশ্রম উচ্চ বিদ্যালয়ের (উচ্চ মাধ্যমিক) ছাত্র

‘Origin of species by Means of Natural Selection’ গ্রন্থে মহাবিজ্ঞানী চার্লস ডারউইন জানিয়েছেন যে নিজের অস্তিত্ব রক্ষার জন্য প্রত্যেক জীবকে অনবরত সংগ্রাম করতে হয়। 
বিশদ

26th  May, 2019
বিরুমপুরের বড়জেঠু
কার্তিক ঘোষ
 

সত্যি বলতে, এটা ঠিক গল্প নয়। কিন্তু গল্পের মতন শুনতে।
বয়েসটাও একটু বেশি। সত্তর পেরিয়ে গেছে কবেই।
তবে তখনও বিরুমপুরকে আস্ত একটা গ্রাম বলত না কেউ। বলত, তাজপুরের লেজুড়। 
বিশদ

26th  May, 2019
নিকেলোডিয়ান সোনিকে গোলমাল জুনিয়র  

তোমাদের কার্টুন ফিল্ম দেখতে ভালো লাগে? আজ তাহলে তোমাদের একটা দারুণ খবর দিই। টেলিভিশনে নিকেলোডিয়ান সোনিক চ্যানেলের নাম নিশ্চয়ই শুনেছ। কার্টুন চ্যানেল হিসেবে বেশ জনপ্রিয় এই চ্যানেলে গত ১৩ মে থেকে শুরু হয়েছে নতুন অ্যানিমেটেড শো ‘গোলমাল জুনিয়র’। 
বিশদ

19th  May, 2019
অন্য পৃথিবীর খোঁজ 

গরমটা কেমন পড়েছে দেখেছ? শান্তি নেই কোনওখানে! দিনরাত প্যাচপেচে ঘাম। পিঠে উইপোকার ঢিবির মতো বড় বড় ঘামাচি বেরিয়ে গিয়েছে! সারা মাসের পাউডার একদিনে মেখেও আরাম হচ্ছে না! রাস্তায় বেরব কী! সুয্যিমামা গলন্ত লাভা ঢেলে দিচ্ছেন গায়ে।
বিশদ

19th  May, 2019
বিদ্রোহী কবি নজরুল ইসলাম 

আগামী ২৪ মে বিদ্রোহী কবি কাজি নজরুল ইসলামের ১২০তম জন্মদিন। তাঁর রোমাঞ্চকর জীবনকাহিনী তোমাদের জন্য লিখেছেন সন্দীপন বিশ্বাস।
 
বিশদ

19th  May, 2019
প্রতিটি পরীক্ষায় ইংরাজিতে ভালো নম্বর পেতে হলে ভয়েস চেঞ্জকে বাড়তি গুরুত্ব দিতে হবে

পরামর্শ দিচ্ছেন বাঁকুড়া জিলা স্কুলের ইংরাজির শিক্ষক রক্তিম মুখোপাধ্যায়। বিশদ

12th  May, 2019
 ডিপিএস রুবি পার্কের বার্ষিক অনুষ্ঠান

  দিল্লি পাবলিক স্কুল (ডিপিএস), রুবি পার্ক প্রতি বছরের মতো এবারও তাদের বার্ষিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল। ‘রেভারেন্স ২০১৯’ নামে এই অনুষ্ঠানটি হয়েছিল নজরুল মঞ্চে। দু’দিন ব্যাপী এই অনুষ্ঠানে নানান সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান দেখা গেল। উপস্থিত ছিলেন বহু বিশিষ্টজন। প্রথম দিন অনুষ্ঠান শুরু হয় গণেশস্তুতি দিয়ে।
বিশদ

12th  May, 2019
মহাকাশের দিনযাপন

মহাকাশে যাওয়া কঠিন। কিন্তু তার থেকেও কঠিন সেখানে দিনযাপন করা। কারণ, মহাকাশে পৃথিবীর মতো মাধ্যাকর্ষণ শক্তি কাজ করে না। নেই বায়ুমণ্ডল, ফলে বায়ুর চাপও নেই। জল খাওয়া থেকে শুরু করে টয়লেটে যাওয়া সবই খুব শক্ত কাজ সেখানে। লিখেছেন প্রীতম দাশগুপ্ত।
বিশদ

12th  May, 2019
তানজেনিয়ার জাতীয় উদ্যানে

আফ্রিকা মহাদেশের পূর্ব প্রান্তে অবস্থিত তানজেনিয়া। দেশটির সরকারি নাম ইউনাইটেড রিপাবলিক অব তানজেনিয়া। প্রায় ৯ লক্ষ ৪৭ হাজার বর্গ কিলোমিটার বিস্তৃত এই দেশটি আয়তনে আফ্রিকা মহাদেশে ১৩তম স্থান দখল করে। দেশটির একধারে প্রতিনিয়ত আছড়ে পড়ে ভারত মহাসাগরের উত্তাল ঢেউ।
বিশদ

05th  May, 2019
মুকুলবীথি শিশু বিদ্যালয়

 মুকুলবীথি। শুধু আর শব্দ নয়। শিশুদের ভবিষ্যৎ গঠনের উজ্জ্বল ঠিকানা। স্নেহ, ভালোবাসা, নিয়মানুবর্তিতা, ব্যক্তিত্ব বিকাশের অভিনব প্রতিষ্ঠান। সুন্দর পরিবেশে সহানুভূতির সঙ্গে বেড়ে ওঠা শিশুদের নিজের বাড়ি। এই ধরনের একটা স্কুল তৈরির স্বপ্ন ছিল রেণুকা সেনের। সেই ইচ্ছেটা বেশিমাত্রায় তীব্র হল উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করার সময়।
বিশদ

05th  May, 2019
খুদেদের খেলনা

কারও পছন্দ বার্বি ডল, কেউ ভালোবাসে কু ঝিক ঝিক ট্রেনগাড়ি। মুকুলবীথি শিশু বিদ্যালয়ের ছোট্ট সোনাদের প্রিয় খেলনার খবরাখবর নিলেন শম্পা সরকার। বিশদ

05th  May, 2019
হিলি গিলি হোকাস ফোকাস 

শুরু হল নতুন বিভাগ হিলি গিলি হোকাস ফোকাস। এই বিভাগে জনপ্রিয় জাদুকর শ্যামল কুমার তোমাদের কিছু চোখ ধাঁধানো আকর্ষণীয় ম্যাজিক সহজ সরলভাবে শেখাবেন। আজকের বিষয় থট-রিডিং-এর খেলা।  
বিশদ

28th  April, 2019
একনজরে
 ব্যাঙ্কক, ২৬ মে (এপি): ৯৮ বছর বয়সে প্রয়াত হলেন থাইল্যান্ডের প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী প্রেম তিনসুলানোন্ডা। রবিবার সকালে ব্যাঙ্ককের একটি হাসপাতালে তাঁর মৃত্যু হয়েছে বলে সরকারের তরফে জানানো হয়।  ...

 লন্ডন, ২৬ মে: ভারতের বিরুদ্ধে প্রস্তুতি ম্যাচে সাড়া জাগানো বোলিং করেছেন নিউজিল্যান্ডের পেসার ট্রেন্ট বোল্ট। মূলত তাঁর আগুনে পেস ও স্যুইংয়ের ছোবলে ভারতের একের পর এক টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান মুখ থুবড়ে পড়েছেন। বোল্ট ৩৩ রান দিয়ে তুলে নেন ৪টি উইকেট। ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ১১ জন ভুয়ো চিকিৎসকের বিরুদ্ধে পাবলিক নোটিস ইস্যু করল দেশের অ্যালোপ্যাথিক চিকিৎসার শীর্ষ সংস্থা মেডিক্যাল কাউন্সিল অব ইন্ডিয়া (এমসিআই)। তারা জানিয়েছে, এর মধ্যে তিনজনের নামে নোটিস ইস্যু করা হয়েছে জাল কাগজপত্র দাখিল করার জন্য। ...

সংবাদদাতা, হরিশ্চন্দ্রপুর: মালদহ জেলার হরিশ্চন্দ্রপুর-১ ব্লকের তুলসীহাটা হাইস্কুলের তানবীর আলম এবারের মাধ্যমিক পরীক্ষায় ভালো ফল করেছে। কিন্তু উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে দারিদ্রতাই তার কাছে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

বিদ্যার্থীদের বিষয় নির্বাচন সঠিক হওয়া দরকার। কর্মপ্রার্থীরা কোনও শুভ সংবাদ পেতে পারেন। কারও সঙ্গে সম্পর্ক ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯৬৪: স্বাধীনতা সংগ্রামী ও ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহরুর মৃত্যু
১৯৬২: ভারতীয় ক্রিকেটার রবি শাস্ত্রীর জন্ম
১৯৭৭: শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটার মাহেলা জয়বর্ধনের জন্ম

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৮.৬৫ টাকা ৭০.৩৪ টাকা
পাউন্ড ৮৬.২৯ টাকা ৮৯.৫১ টাকা
ইউরো ৭৬.০৩ টাকা ৭৮.৯৬ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
25th  May, 2019
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩২, ১৭৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩০, ৫২৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩০, ৯৮৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৬, ৪০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৬, ৫০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
26th  May, 2019

দিন পঞ্জিকা

১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২৭ মে ২০১৯, সোমবার, অষ্টমী ১৫/৫০ দিবা ১১/১৬। শতভিষা ২৮/১১ দিবা ৪/১৩। সূ উ ৪/৫৬/৩৩, অ ৬/১০/৪২, অমৃতযোগ দিবা ৮/২৮ গতে ১০/১৪ মধ্যে। রাত্রি ৯/২ গতে ১১/৫৫ মধ্যে পুনঃ ১/২১ গতে ২/৪৭ মধ্যে, বারবেলা ৬/৩৬ গতে ৮/১৫ মধ্যে পুনঃ ২/৫২ গতে ৮/৩২ মধ্যে, কালরাত্রি ১০/১৩ গতে ১১/৩৪ মধ্যে।
১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২৭ মে ২০১৯, সোমবার, অষ্টমী ১২/৭/৫০ দিবা ৯/৪৭/৩১। শতভিষানক্ষত্র ২৫/৩৫/২১ দিবা ৩/১০/৩১, সূ উ ৪/৫৬/২৩, অ ৬/১২/৩৪, অমৃতযোগ দিবা ৮/৩০ গতে ১০/১৬ মধ্যে এবং রাত্রি ৯/৮ গতে ১১/৫৮ মধ্যে ও ১/২২ গতে ২/৫০ মধ্যে, বারবেলা ২/৫৩/৩১ গতে ৪/৩৩/২ মধ্যে, কালবেলা ৬/৩৫/৫৪ গতে ৮/১৫/২৬ মধ্যে, কালরাত্রি ১০/১৪/০ গতে ১১/৩৪/২৯ মধ্যে। 
২১ রমজান

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
ময়নাগুড়িতে তৃণমূলের জেলা সভাপতি সৌরভ চক্রবর্তীর গাড়িতে হামলার অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে 

26-05-2019 - 08:56:39 PM

রাজীব কুমারকে আগামীকাল সিজিও কমপ্লেক্সে হাজিরার নোটিস দিল সিবিআই 

26-05-2019 - 08:21:15 PM

বাগনানে দামোদরে স্নান করতে নেমে নিখোঁজ যুবক 

26-05-2019 - 08:16:00 PM

আদর্শ আচরণবিধি উঠতেই বদলি হওয়া পুলিস কর্তাদের পুরনো পদে ফেরার নির্দেশ
আদর্শ আচরণবিধি উঠতেই নির্বাচন কমিশন দ্বারা বদলি হওয়া একাধিক পুলিস ...বিশদ

26-05-2019 - 08:13:25 PM

কলকাতার প্রাক্তন পুলিস কমিশনার রাজীব কুমারের বাড়িতে সিবিআইয়ের দল 

26-05-2019 - 07:49:53 PM

বিমান উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি ফোন, চাঞ্চল্য 
বাগডোগরা থেকে কলকাতামুখী এয়ার এশিয়ার বিমান মাঝ আকাশে উড়িয়ে দেওয়ার ...বিশদ

26-05-2019 - 07:36:28 PM