Bartaman Patrika
হ য ব র ল
 

পিঠোপিঠি
ভাই-বোন

দুষ্টু একটু বেশিই ছিল প্রিয়াঙ্কা। জেদিও। তবে মিষ্টভাষী। আর দাদা রাহুল হাসিখুশি। দু’জনের ছোটবেলার গল্প শোনাচ্ছেন সন্দীপ স্বর্ণকার।

পুতুলের মতো প্রিয়াঙ্কাকে মায়ের কোলে দেখেই দৌড়ে গিয়েছিল রাহুল। সেও তখন ছোট্টটি। মা কয়েকদিন ছিল না বাড়িতে। ‘মাম্মি’, ‘মাম্মি?’ জানতে চেয়েছিল রাহুল। ঠাকুরমা ইন্দিরা বুঝিয়েছিলেন, মা গেছে তোমার জন্য খেলার সঙ্গী আনতে। আর সেকথা সত্যি হতেই মা যেদিন স্যার গঙ্গারাম হাসপাতাল থেকে ছোট্ট বোনটিকে বাড়িতে নিয়ে এল, দৌড়ে গিয়ে সে কী আদর!
পিঠোপিঠি দুই ভাইবোন। দু বছরেরও কম ফারাক। রাহুলের জন্ম ১৯৭০ সালে। ১৯ জুন। বোন প্রিয়াঙ্কা ১৯৭২ সালের ১২ জানুয়ারি। দুজনেই জন্মেছে দিল্লিতে। একই হাসপাতালে। ভারতের অন্যতম ব্যস্ত এবং প্রভাবশালী পরিবারে জন্ম। তা সত্ত্বেও দাদি, মা, বাবা, দাদা, বোন মিলে ব্যক্তিগত পারিবারিক পরিসরটা ছিল অত্যন্ত ঘরোয়া। দুষ্টু একটু বেশিই ছিল প্রিয়াঙ্কা। জেদিও। তবে মিষ্টভাষী। আর দাদা রাহুল হাসিখুশি। দাদাবোনের ভারী ভাব। আজও যার বিচ্যুতি হয়নি। নষ্ট হয়নি সম্পর্ক। বরং বড় হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে আরও গভীর হয়েছে। ভাইবোনের সম্পর্ক পরিণত হয়েছে বন্ধুত্বে। পিঠোপিঠি দুই ভাইবোন যেমন ঠাকুরমার সংস্পর্শে কাটিয়েছে ছোটবেলা, একইভাবে ইন্দিরা গান্ধীর প্রয়াণ নাড়িয়ে দিয়ে গিয়েছে রাহুল প্রিয়াঙ্কাকে। দাদির মৃত্যুর খবরে আড়ালে একসঙ্গে অঝোরে কেঁদেছে ভাইবোন।
ছোটবেলায় ঠাকুরমার খুব নেওটা ছিল দুজনে। ‘দাদি, এখানে এটা কী?’ ‘কী খায় এরা?’ ‘কী করে চলে?’ ‘আচ্ছা ওদেরও কি তোমার মতো দাদি আছে?’ ....এরকম হাজারো প্রশ্নের মুখে পড়তে হতো ‘আয়রন লেডি’ ইন্দিরাকে। রাইসিনা হিলের দপ্তর থেকে ফিরতে দেরি হলে অপেক্ষা করত কখন আসবে দাদি? মা সোনিয়াকে জবাব দিতে হতো, এই তো আসবেন। এক্ষুনি। এক নম্বর অশোক রোডের বাংলোর বসার ঘরে রাখা ল্যান্ডফোনটা ঝনঝন করে বেজে উঠলেই দু ভাইবোনেই ছুটত একসঙ্গে। কে আগে ধরবে! বাংলোর গেটে সাদা অ্যাম্বাসাডার গাড়িটা ঢোকার শব্দ শুনলেই দুজনেই কখনও দৌড়ে গিয়ে বসে পড়ত ডাইনিংয়ের লাগোয়া ঘরটায় রাখা ছোট্ট টেবিলটায়। কখনও লুকোত পর্দার আড়ালে। ঠাকুমাও জানতেন ওদের দুষ্টুমি। অভ্যেস হয়ে গিয়েছিল নাতি নাতনির আবদারে।
তাই বাইরে তিনি ব্যক্তিত্বময়ী প্রধানমন্ত্রী হলেও নাতি-নাতনির কাছে ছোট্টটি। ওদের মতোই। তাই দরজা দিয়ে দালানে ঢুকেই মাটিতে চলতে থাকা পুচকি পায়ের পোকাগুলোকে হাত দিয়ে সরিয়ে দিয়ে জবাব দিতে হতো তারা কী খায়। কী করে চলে। ওদেরও তাঁর মতো ঠাকুরমা আছে কি না ইত্যাদি কৌতূহলের। নয়তো পর্দার পিছনে নাতি লুকিয়ে আছে জেনেও ভান করতে হতো, কিছুই জানেন না। লুকোচুরি খেলার মতো করে কয়েক মিনিট এদিক-ওদিক খুঁজেই পর্দার আড়াল থেকে বের করতেন তাঁকে। রাহুল নিজেই শুনিয়েছেন এইসব গল্প।
দূর থেকে মায়ের গায়ে লেপটে বোন প্রিয়াঙ্কা দেখত দাদার দস্যিপনা। ছোট্ট টেবিলটার দু পাশে বসত ভাই বোন। মাঝে ঠাকুরমা। বিরোধীদের প্রশ্ন, দেশ চালানোর মতো গুরুদায়িত্ব সামলে এসে খুদে দুই নাতি-নাতনির কাছে ফের নতুন পরীক্ষায় পড়তে হতো ইন্দিরা গান্ধীকে। ‘তোমরা খেয়ে নিয়েছো?’ জিজ্ঞেস করতেন ঠাকুরমা। ওরাও মাথা দুলিয়ে কখনও বলত হ্যাঁ। আর যেদিন হতো না, সেদিন উত্তর দিত ‘না।’ আর তারপরেই প্রশ্ন। ‘আচ্ছা দাদি, খেলে কী হয়?’ ‘কেন খেতে হয়?’ জবাব চাইত দাদাবোন। দাদিও ওদের সমবয়সি হয়ে আদুরে স্বরে উত্তর দিতেন। বলতেন, খেলে শরীরে রক্ত হয়। খাবার খেলে শক্তি হয়। বুদ্ধি বাড়ে। নাহলে পেট ব্যথা করে। শরীর খারাপ হয়।.... গল্পচ্ছলে খাবার নিয়ে ওই বোঝানোর মধ্যেই সোনিয়া দিতে আসতেন ছেলেমেয়ের ডিনার। আর ঠাকুরমা সেটি নিয়ে খাইয়ে দিতেন নাতি-নাতনিকে। সামনের দিকে ঝুঁকতেই নাতি রাহুল আচমকাই চোখ থেকে খুলে নিত চশমা। পরে নিত নিজের চোখে। তারপর ঠাকুরমার মতো করে নকল। ....খেলে রক্ত হয়। বুদ্ধি বাড়ে......।
এভাবেই পিঠোপিঠি দুই ভাইবোনের ছোটবেলাটা কেটে গিয়েছে দেশের প্রথম মহিলা প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে। বাবা রাজীব গান্ধীরও খুব আদরের ছিল রাহুল প্রিয়াঙ্কা। শীতকালে বাড়ির লনেই হতো পিকনিক। নয়তো কাছেই লোধি গার্ডেনে। পোষা দুটি বিদেশি কুকুর ছিল ওদের। স্কুল থেকে ফিরে দুই ভাইবোনে তাদের সঙ্গে চলত খেলা। লেজ ধরে টান মারলেও কিচ্ছু করত না পোষ্য দুটো।
ছোটবেলায় ভাইবোন দুজনে একই স্কুলে পড়তেন। নয়াদিল্লির মডার্ন স্কুলে। পরে রাহুল চলে গেলেন উত্তরাখণ্ডের দুন স্কুলে। প্রিয়াঙ্কা দিল্লির কনভেন্ট জেসাস অ্যান্ড মেরি। পরিবারে পর পর অঘটন ঘটে যাওয়ায় কিছুদিন বাড়িতে থেকেই পড়াশোনা। নিরাপত্তার কারণে। পরে বড় হয়ে রাহুল গান্ধী নয়াদিল্লির সেন্ট স্টিফেন্স কলেজে। কিন্তু এক বছর পরেই বিদেশ। ফ্লোরিডার রোলিনস কলেজ। সেখান থেকে বিএ। তারপর কেমব্রিজের ট্রিনিটিতে ডেভেলপমেন্ট স্টাডিজে এমফিল। প্রিয়াঙ্কা দিল্লি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সায়কোলজিতে এমএ। পরে বৌদ্ধ ধর্ম নিয়ে পড়েছেন। রপ্ত করেছেন বৌদ্ধ বিশ্বাস। প্রতিদিন সকালে এক ঘণ্টার ওপর ধ্যান, যোগাভ্যাস করেন প্রিয়াঙ্কা। আর সেটাই তাঁকে ভিতর থেকে শান্ত থাকার শক্তি জোগায়। কয়েক বছরের তফাতে আচমকা অঘটনের পরেও দুঃখ, শোক সামাল দেয়।
যে দুই ব্যক্তিত্ব ছিল ওদের প্রিয়, একটু বড় হতে না হতেই সেই দিনগুলো যে হারিয়ে গিয়েছে চিরতরে! বাংলোর মধ্যেই দেহরক্ষীর বন্দুকের গুলি প্রাণ কেড়ে নিল ঠাকুরমা ইন্দিরার। তামিলনাড়ুতে ভোটের প্রচারে মানববোমা ছিনিয়ে নিল রাজীবকে। আচমকাই নিষ্পাপ শিশু কিশোর মন দুটি কেমন যেন বড় হয়ে গেল! মনের মধ্যে উথাল-পাতাল হলেও প্রকাশ করতে না পারার যন্ত্রণা সহ্য ক঩রেছে দুই ভাইবোনই। কিছু বুঝে ওঠার আগেই পরপর বয়ে গেল ঝড়। ১৯৮৪ সালের ৩১ অক্টোবর দাদি। ১৯৯১ সালের ২১ মে ড্যাডি। দেশের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ রাজনৈতিক পরিবারে ঘটে গেল অঘটন। আর তারই ছবি স্মৃতিতে শিউরে ওঠায় কংগ্রেস নেতা, কর্মীরা যখন সোনিয়াকে দলের হাল ধরতে অনুরোধ করলেন, সবার আগে ডুকরে কেঁদে উঠেছিল প্রিয়াঙ্কা। দাদা রাহুলকে বলেছিল, মাকে বল, যেন কিছুতেই রাজি না হয়। নাহলে ওরা মাকেও কেড়ে নেবে! ছেলেমেয়ের মুখের দিকে তাকিয়ে বহুদিন পর্যন্ত রাজনীতি থেকে সরে থেকেছেন সোনিয়া।
ভাইবোনে সম্পর্ক অত্যন্ত অন্তরের। দাদা রাজনীতিতে এসেছে আগে। এমপি হয়েছেন। এতদিন আড়ালে থাকলেও এখন প্রিয়াঙ্কাও রাজনীতিতে। দাদার জন্যই প্রকাশ্যে আসা। দিনভর রাজনৈতিক কর্মসূচিতে ব্যস্ত থাকলেও রবিবার ব্রেকফাস্ট একসঙ্গে। এক টেবিলে। কখনও মা সোনিয়ার ১০ নম্বর জনপথ রোডের বাংলোয়। নয়তো লোধি এস্টেটে প্রিয়াঙ্কার বাড়ি। টোস্ট, গ্রিন স্যালাড। চা কিংবা কফি। মরশুম অনুযায়ী। ভাইবোন দুজনেই নিরামিশ পদ বেশি পছন্দ করেন বটে, তবে তান্ডে কাবাব প্রিয়াঙ্কার বেশ পছন্দ। রাহুলকে মাঝেমধ্যে মিষ্টি খাওয়ানোর জন্য জোর করেন প্রিয়াঙ্কা। ‘কিন্তু বেশিরভাগ সময়ই শরীরে মেদ লেগে যাওয়ার ভয়ে তা এড়িয়ে যাই। তবে রাখির দিন আপত্তি করি না।’ হাতে সরু রাখি পরিয়ে মিষ্টিমুখ করান প্রিয়াঙ্কা। পরের বছর পর্যন্ত হাতে থাকে সেই রাখি। রাহুল নিজেই দিয়েছেন এই তথ্য।
রাহুল প্রিয়াঙ্কা বেড়াতে যান একসঙ্গে। কখনও মাকে নিয়ে গোয়া। কখনও দেখে আসেন হিমাচলে তৈরি হওয়া ব্রিটিশ আর্কিটেকচারের বাড়িটা। একসঙ্গে যান ইতালিতে বৃদ্ধা নানিকে দেখতে। রাহুল গান্ধী যেখানকার এমপি, উত্তরপ্রদেশের আমেঠিতে দাদাকে পাশে বসিয়ে প্রিয়াঙ্কা চালান গাড়ি। ভোটের সময় নয় অবশ্য, অন্য সময়। ভাইবোন একসঙ্গে ক্রিকেট গ্যালারিতে উপভোগ করেন চার ছক্কা। দাদা সংসদে বক্তৃতা দিলে ভিজিটর গ্যালারিতে অবশ্যই থেকে সমর্থন জোগান প্রিয়াঙ্কা। রাহুলের যাবতীয় খুঁটিনাটি সামলান বোনই। রাহুল গান্ধী এখনও বিয়ে করেননি। বোনের বিয়ে হয়েছে ১৯৯৭ সালে। ব্যবসায়ী রবার্ট ওয়াধেরার সঙ্গে।
ওদের মেয়ে মিরায়া আর ছেলে রিহানও মামার খুব আদরের। ওদের মধ্যে অনেক সময়ই নিজেদের ছোটবেলা খোঁজেন রাহুল প্রিয়াঙ্কা। নেহরু গান্ধীর মতো প্রভাব প্রতিপত্তির পরিবারে জন্ম, বেড়ে ওঠা হলেও ব্যক্তিগত জীবনের জন্য সময় সামলে রাখেন ভাইবোন। বড় হয়ে গেলেও এখনও আগের মতোই একে অপরের পাশে থাকেন। রাহুল গান্ধীর রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব হয়ে ওঠা, প্রতিষ্ঠিত হয়ে ওঠার নেপথ্য মনিটর বোন প্রিয়াঙ্কাই। দাদার কোনও অনুষ্ঠান কীভাবে পরিবেশন হবে, কী বলবেন রাহুল, তার প্রায় সবই ঠিক করে দেন প্রিয়াঙ্কা।
রাজনীতির অন্য ব্যস্ততা যখন কম থাকে, তখন ফ্যামিলি অ্যালবাম, দাদির স্মৃতিসুধায় আজও মজে যান দুই ভাইবোন। প্রিয়াঙ্কা নিজেও ছবি তুলতে ভালোবাসেন। অ্যালবামের পাতায় কখনও লোধি গার্ডেন, পোষা কুকুর দুটোর ছবিতে চোখ যায় আটকে। রাজহাঁসকে খাবার দিচ্ছেন দাদি। নয়তো ভাইবোনকে ঢেঁকির মতো খেলনা গাড়ির দুদিকে দুজনকে বসিয়ে দোল দিচ্ছেন ইন্দিরা গান্ধী। কিংবা ভাইবোনের গলা জড়ানো ছোটবেলার সেই ছবিটা। যেখানে বয়েজ কাট চুলের প্রিয়াঙ্কাকে দেখে মনে হয় রাহুলের দাদা। হ্যাঁ দাদা। রাজীব গান্ধীর নির্বাচনী কেন্দ্র আমেঠিতে যখন মা বাবার সঙ্গে ছোটবেলায় যেতেন প্রিয়াঙ্কা, অনেকেই ভুল করে তাঁকে ডাকত ‘ভাইয়াজি’ বলে। মজা পেয়ে যা রিপিট করতেন রাহুলও। রেগে যেতেন প্রিয়াঙ্কা। ছোট থেকে যত বড় হয়েছেন, ততই নিজেদের মধ্যে ভাইবোনের সম্পর্ক ক্রমশ গভীর হয়েছে। রাহুলের মধ্যে বাবা রাজীবের অনেক গুণ দেখতে পান প্রিয়াঙ্কা। নিজেই বলেছেন, দেশের বিভিন্ন সংস্থাকে মজবুত করা ওঁর স্বপ্ন। বাবার মতো। রাজনৈতিক ময়দানে যখন নানা সমালোচনা আর কটাক্ষের মুখোমুখি হন রাহুল, চোখ টিপে ইশারায় শান্ত থাকার পরামর্শ দেন প্রিয়াঙ্কা। রাহুলও মানেন। আনন্দে, শোকে, দুঃখে, আশা, নিরাশা, ভরসা আর ভালোবাসার মুহূর্তগুলো একসঙ্গে ভাগ করে নেন ভাইবোন। প্রিয়াঙ্কা নিজেই জানিয়েছেন, ‘রাহুল আমার দাদাই নয়। আমার সবচেয়ে বিশ্বস্ত বন্ধুর নামই হল মেরা ভাইয়া।’ ছবি : সংশ্লিষ্ট সংস্থার সৌজন্যে
21st  April, 2019
হিলি গিলি হোকাস ফোকাস 

শুরু হল নতুন বিভাগ হিলি গিলি হোকাস ফোকাস। এই বিভাগে জনপ্রিয় জাদুকর শ্যামল কুমার তোমাদের কিছু চোখ ধাঁধানো আকর্ষণীয় ম্যাজিক সহজ সরলভাবে শেখাবেন। আজকের বিষয় টেলিপ্যাথি বা অতীন্দ্রিয় অনুভূতি।  
বিশদ

26th  May, 2019
সংস্কৃতি পরিচয়ের মহাভারত অনন্তকথা 

সংস্কৃতি পরিচয়ের ১২তম বাৎসরিক অনুষ্ঠান হয়ে গেল ১ মে। কলকাতার জি ডি বিড়লা সভাঘরে। ‘মহাভারত অনন্তকথা’ এই কনসার্টটিতে অংশ নিয়েছিল ৩ থেকে ১৫ বছরের ছেলে-মেয়েরা। 
বিশদ

26th  May, 2019
সবাই সফল হতে পারে
 

দেবমাল্য সাহা, মাধ্যমিকে দশম স্থানাধিকারী
রহড়া রামকৃষ্ণ মিশন বালকাশ্রম উচ্চ বিদ্যালয়ের (উচ্চ মাধ্যমিক) ছাত্র

‘Origin of species by Means of Natural Selection’ গ্রন্থে মহাবিজ্ঞানী চার্লস ডারউইন জানিয়েছেন যে নিজের অস্তিত্ব রক্ষার জন্য প্রত্যেক জীবকে অনবরত সংগ্রাম করতে হয়। 
বিশদ

26th  May, 2019
বিরুমপুরের বড়জেঠু
কার্তিক ঘোষ
 

সত্যি বলতে, এটা ঠিক গল্প নয়। কিন্তু গল্পের মতন শুনতে।
বয়েসটাও একটু বেশি। সত্তর পেরিয়ে গেছে কবেই।
তবে তখনও বিরুমপুরকে আস্ত একটা গ্রাম বলত না কেউ। বলত, তাজপুরের লেজুড়। 
বিশদ

26th  May, 2019
নিকেলোডিয়ান সোনিকে গোলমাল জুনিয়র  

তোমাদের কার্টুন ফিল্ম দেখতে ভালো লাগে? আজ তাহলে তোমাদের একটা দারুণ খবর দিই। টেলিভিশনে নিকেলোডিয়ান সোনিক চ্যানেলের নাম নিশ্চয়ই শুনেছ। কার্টুন চ্যানেল হিসেবে বেশ জনপ্রিয় এই চ্যানেলে গত ১৩ মে থেকে শুরু হয়েছে নতুন অ্যানিমেটেড শো ‘গোলমাল জুনিয়র’। 
বিশদ

19th  May, 2019
অন্য পৃথিবীর খোঁজ 

গরমটা কেমন পড়েছে দেখেছ? শান্তি নেই কোনওখানে! দিনরাত প্যাচপেচে ঘাম। পিঠে উইপোকার ঢিবির মতো বড় বড় ঘামাচি বেরিয়ে গিয়েছে! সারা মাসের পাউডার একদিনে মেখেও আরাম হচ্ছে না! রাস্তায় বেরব কী! সুয্যিমামা গলন্ত লাভা ঢেলে দিচ্ছেন গায়ে।
বিশদ

19th  May, 2019
বিদ্রোহী কবি নজরুল ইসলাম 

আগামী ২৪ মে বিদ্রোহী কবি কাজি নজরুল ইসলামের ১২০তম জন্মদিন। তাঁর রোমাঞ্চকর জীবনকাহিনী তোমাদের জন্য লিখেছেন সন্দীপন বিশ্বাস।
 
বিশদ

19th  May, 2019
প্রতিটি পরীক্ষায় ইংরাজিতে ভালো নম্বর পেতে হলে ভয়েস চেঞ্জকে বাড়তি গুরুত্ব দিতে হবে

পরামর্শ দিচ্ছেন বাঁকুড়া জিলা স্কুলের ইংরাজির শিক্ষক রক্তিম মুখোপাধ্যায়। বিশদ

12th  May, 2019
 ডিপিএস রুবি পার্কের বার্ষিক অনুষ্ঠান

  দিল্লি পাবলিক স্কুল (ডিপিএস), রুবি পার্ক প্রতি বছরের মতো এবারও তাদের বার্ষিক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেছিল। ‘রেভারেন্স ২০১৯’ নামে এই অনুষ্ঠানটি হয়েছিল নজরুল মঞ্চে। দু’দিন ব্যাপী এই অনুষ্ঠানে নানান সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান দেখা গেল। উপস্থিত ছিলেন বহু বিশিষ্টজন। প্রথম দিন অনুষ্ঠান শুরু হয় গণেশস্তুতি দিয়ে।
বিশদ

12th  May, 2019
মহাকাশের দিনযাপন

মহাকাশে যাওয়া কঠিন। কিন্তু তার থেকেও কঠিন সেখানে দিনযাপন করা। কারণ, মহাকাশে পৃথিবীর মতো মাধ্যাকর্ষণ শক্তি কাজ করে না। নেই বায়ুমণ্ডল, ফলে বায়ুর চাপও নেই। জল খাওয়া থেকে শুরু করে টয়লেটে যাওয়া সবই খুব শক্ত কাজ সেখানে। লিখেছেন প্রীতম দাশগুপ্ত।
বিশদ

12th  May, 2019
তানজেনিয়ার জাতীয় উদ্যানে

আফ্রিকা মহাদেশের পূর্ব প্রান্তে অবস্থিত তানজেনিয়া। দেশটির সরকারি নাম ইউনাইটেড রিপাবলিক অব তানজেনিয়া। প্রায় ৯ লক্ষ ৪৭ হাজার বর্গ কিলোমিটার বিস্তৃত এই দেশটি আয়তনে আফ্রিকা মহাদেশে ১৩তম স্থান দখল করে। দেশটির একধারে প্রতিনিয়ত আছড়ে পড়ে ভারত মহাসাগরের উত্তাল ঢেউ।
বিশদ

05th  May, 2019
মুকুলিত কিশলয়

‘জল পড়ে পাতা নড়ে...’— যে অবোধ বালক শৈশবে এই পঙ্‌ক্তি লিখেছিলেন, তিনিই ভবিষ্যতের বিশ্বজোড়া খ্যাতির অধিকারী। এই কিংবদন্তি মানুষটি ছেলেবেলায় কিন্তু তোমাদের মতোই ছিলেন। তাঁর লেখা বই ‘ছেলেবেলা’ থেকে আকর্ষণীয় কিছু অংশ তুলে ধরে তাঁকে নিয়েই এই লেখা। গঙ্গাজলে গঙ্গাপুজো করেছেন মৃণালকান্তি দাস।
বিশদ

05th  May, 2019
মুকুলবীথি শিশু বিদ্যালয়

 মুকুলবীথি। শুধু আর শব্দ নয়। শিশুদের ভবিষ্যৎ গঠনের উজ্জ্বল ঠিকানা। স্নেহ, ভালোবাসা, নিয়মানুবর্তিতা, ব্যক্তিত্ব বিকাশের অভিনব প্রতিষ্ঠান। সুন্দর পরিবেশে সহানুভূতির সঙ্গে বেড়ে ওঠা শিশুদের নিজের বাড়ি। এই ধরনের একটা স্কুল তৈরির স্বপ্ন ছিল রেণুকা সেনের। সেই ইচ্ছেটা বেশিমাত্রায় তীব্র হল উচ্চ বিদ্যালয়ে শিক্ষকতা করার সময়।
বিশদ

05th  May, 2019
খুদেদের খেলনা

কারও পছন্দ বার্বি ডল, কেউ ভালোবাসে কু ঝিক ঝিক ট্রেনগাড়ি। মুকুলবীথি শিশু বিদ্যালয়ের ছোট্ট সোনাদের প্রিয় খেলনার খবরাখবর নিলেন শম্পা সরকার। বিশদ

05th  May, 2019
একনজরে
দীপ্তিমান মুখোপাধ্যায়, হাওড়া: প্রবল মোদি হাওয়ায় শুধু সিপিএমের ভোট ব্যাঙ্কে ধ্বস নামেনি, তৃণমূলেরও একটি বড় অংশের ভোট বিজেপির বাক্সে গিয়েছে। আর তার ফলেই উলুবেড়িয়া লোকসভা এলাকায় তৃণমূলের জয়ের মার্জিন কমেছে। ...

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কেন্দ্রে নতুন সরকার আসার পর বাড়তে পারে রান্নার গ্যাসের সিলিন্ডার পিছু কমিশনের অঙ্ক। এমনটাই আশা করছেন ডিলাররা। তাঁদের আশা, গৃহস্থের সিলিন্ডার পিছু অন্তত ২০ টাকা কমিশন বাড়বে। ...

সংবাদদাতা, হরিশ্চন্দ্রপুর: মালদহ জেলার হরিশ্চন্দ্রপুর-১ ব্লকের তুলসীহাটা হাইস্কুলের তানবীর আলম এবারের মাধ্যমিক পরীক্ষায় ভালো ফল করেছে। কিন্তু উচ্চশিক্ষার ক্ষেত্রে দারিদ্রতাই তার কাছে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে। ...

বাংলা নিউজ এজেন্সি: রবিবার বাঁকুড়া, পুরুলিয়া এবং আরামবাগে ভূকম্পন অনুভূত হয়। পুরুলিয়া এবং আরামবাগে কম্পনের মাত্রা কম হয়। তবে উৎসস্থল হওয়ায় বাঁকুড়ায় কম্পনের মাত্রা তুলনামূলকভাবে ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

বিদ্যার্থীদের বিষয় নির্বাচন সঠিক হওয়া দরকার। কর্মপ্রার্থীরা কোনও শুভ সংবাদ পেতে পারেন। কারও সঙ্গে সম্পর্ক ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯৬৪: স্বাধীনতা সংগ্রামী ও ভারতের প্রথম প্রধানমন্ত্রী জওহরলাল নেহরুর মৃত্যু
১৯৬২: ভারতীয় ক্রিকেটার রবি শাস্ত্রীর জন্ম
১৯৭৭: শ্রীলঙ্কার ক্রিকেটার মাহেলা জয়বর্ধনের জন্ম

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৮.৬৫ টাকা ৭০.৩৪ টাকা
পাউন্ড ৮৬.২৯ টাকা ৮৯.৫১ টাকা
ইউরো ৭৬.০৩ টাকা ৭৮.৯৬ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
25th  May, 2019
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩২, ১৭৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩০, ৫২৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩০, ৯৮৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৬, ৪০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৬, ৫০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
26th  May, 2019

দিন পঞ্জিকা

১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২৭ মে ২০১৯, সোমবার, অষ্টমী ১৫/৫০ দিবা ১১/১৬। শতভিষা ২৮/১১ দিবা ৪/১৩। সূ উ ৪/৫৬/৩৩, অ ৬/১০/৪২, অমৃতযোগ দিবা ৮/২৮ গতে ১০/১৪ মধ্যে। রাত্রি ৯/২ গতে ১১/৫৫ মধ্যে পুনঃ ১/২১ গতে ২/৪৭ মধ্যে, বারবেলা ৬/৩৬ গতে ৮/১৫ মধ্যে পুনঃ ২/৫২ গতে ৮/৩২ মধ্যে, কালরাত্রি ১০/১৩ গতে ১১/৩৪ মধ্যে।
১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২৭ মে ২০১৯, সোমবার, অষ্টমী ১২/৭/৫০ দিবা ৯/৪৭/৩১। শতভিষানক্ষত্র ২৫/৩৫/২১ দিবা ৩/১০/৩১, সূ উ ৪/৫৬/২৩, অ ৬/১২/৩৪, অমৃতযোগ দিবা ৮/৩০ গতে ১০/১৬ মধ্যে এবং রাত্রি ৯/৮ গতে ১১/৫৮ মধ্যে ও ১/২২ গতে ২/৫০ মধ্যে, বারবেলা ২/৫৩/৩১ গতে ৪/৩৩/২ মধ্যে, কালবেলা ৬/৩৫/৫৪ গতে ৮/১৫/২৬ মধ্যে, কালরাত্রি ১০/১৪/০ গতে ১১/৩৪/২৯ মধ্যে। 
২১ রমজান

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
ময়নাগুড়িতে তৃণমূলের জেলা সভাপতি সৌরভ চক্রবর্তীর গাড়িতে হামলার অভিযোগ বিজেপির বিরুদ্ধে 

26-05-2019 - 08:56:39 PM

রাজীব কুমারকে আগামীকাল সিজিও কমপ্লেক্সে হাজিরার নোটিস দিল সিবিআই 

26-05-2019 - 08:21:15 PM

বাগনানে দামোদরে স্নান করতে নেমে নিখোঁজ যুবক 

26-05-2019 - 08:16:00 PM

আদর্শ আচরণবিধি উঠতেই বদলি হওয়া পুলিস কর্তাদের পুরনো পদে ফেরার নির্দেশ
আদর্শ আচরণবিধি উঠতেই নির্বাচন কমিশন দ্বারা বদলি হওয়া একাধিক পুলিস ...বিশদ

26-05-2019 - 08:13:25 PM

কলকাতার প্রাক্তন পুলিস কমিশনার রাজীব কুমারের বাড়িতে সিবিআইয়ের দল 

26-05-2019 - 07:49:53 PM

বিমান উড়িয়ে দেওয়ার হুমকি ফোন, চাঞ্চল্য 
বাগডোগরা থেকে কলকাতামুখী এয়ার এশিয়ার বিমান মাঝ আকাশে উড়িয়ে দেওয়ার ...বিশদ

26-05-2019 - 07:36:28 PM