সাম্প্রতিক
 

কেন বেকারত্ব বড় অভিশাপ
মোদির জয়যাত্রায় কাঁটা হয়ে উঠতে পারে কর্মসংস্থানের অভাব

সিএমআইই (সেন্টার ফর মনিটরিং ইন্ডিয়ান ইকনমি) যে সাম্প্রতিক রিপোর্ট প্রকাশ করেছে, তাতে দেখা যাচ্ছে এবছরের জানুয়ারি থেকে এপ্রিলের মধ্যে ১৫ লক্ষ চাকরির সুযোগ নষ্ট হয়েছে। লিখেছেন শুভমঙ্গল রায়।

৩ বছরেরও বেশি কেটে গেল মোদি সরকারের। ঠিক এই জায়গায় দাঁড়িয়ে ভারতীয় অর্থনীতির সবথেকে বড় সমস্যা হয়ে উঠতে চলেছে বেকারত্ব ও মূল্যবৃদ্ধি। বছরের মাঝামাঝি যে অর্থনৈতিক সমীক্ষা বের করেছে রিজার্ভ ব্যাংক, তাতে কিন্তু হতাশা কাটছে না। বিশ্বজুড়ে আর্থিক অবস্থা এমনিতে বিশেষ ভালো নয়। সেই তুলনায় গত আর্থিক বর্ষে ভারতের আর্থিক বিকাশের হার ছিল ৭.১ শতাংশ। আন্তর্জাতিক অর্থভান্ডার যে ভবিষ্যতের কথা জানাচ্ছে, তাতে দেখা যাচ্ছে ২০১৭-১৮ আর্থিক বর্ষে এই বিকাশের হার সামান্য বেড়ে ৭.২ শতাংশের আশেপাশে ঘোরাফেরা করবে। এমনিতে রাজকোষ ঘাটতি কমেছে। বৈদেশিক বাণিজ্যিক লেনদেনে ঘাটতি কমানো গিয়েছে অনেকটাই। গত ৩ বছর ধরে জরুরি সাধারণ সামগ্রির মূল্যসূচকও নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। বিরাট সমস্যা রয়েছে পাইকারি মূল্য-সূচকে। তা বেড়েছে ১.৮৮ শতাংশ। সরকারের কাছে এই রিপোর্ট কিন্তু যথেষ্ট হতাশাজনক। মূল্যবৃদ্ধি এর ফলে বড় দুশ্চিন্তার কারণ হয়ে দাঁড়াচ্ছে সরকারের কাছে। এর সঙ্গে এবার যোগ করতে হবে বেকারত্ব।
সমীক্ষায় দেখা যাচ্ছে, কেন্দ্রীয় সরকার নতুন কর্মসংস্থানের ক্ষেত্রে প্রত্যাশিত সাফল্য পায়নি। নতুন কাজের সুযোগ তৈরি হচ্ছে না। ফলে বেকারত্ব বাড়ছে। যেহেতু কৃষিক্ষেত্রে কর্মসংস্থানের সুযোগ কমেছে, সেই জন্যই কাজের সুযোগ বাড়ানোর প্রয়োজন রয়েছে পরিষেবা, ম্যানুফ্যাকচারিং ও খনি শিল্পে। ম্যানুফ্যাকচারিং-এর সঙ্গে হাত ধরাধরি করেই বেড়ে ওঠে পরিষেবা ক্ষেত্র। একটা বাড়লে আর একটায় তার প্রভাব পড়ে। আর এখানেই আসল চিন্তার কারণ গড়ে উঠেছে।
সিএমআইই (সেন্টার ফর মনিটরিং ইন্ডিয়ান ইকনমি) যে সাম্প্রতিক রিপোর্ট প্রকাশ করেছে, তাতে দেখা যাচ্ছে এবছরের জানুয়ারি থেকে এপ্রিলের মধ্যে ১৫ লক্ষ চাকরির সুযোগ নষ্ট হয়েছে। নোটবন্দি ঘোষণার ঠিক পরেই যে সময়টা তাতেই দেখা যাচ্ছে এই কুপ্রভাব পড়েছে। আর্থিক সমীক্ষক সংস্থা ক্রিসিলের প্রধান অর্থনীতিবিদ ডি কে যোশি জানাচ্ছেন, নোটবন্দির পর সবথেকে যে ক্ষেত্রটিতে বেশি প্রভাব পড়েছে, তা হচ্ছে নির্মাণশিল্প। এই ক্ষেত্রেই কিন্তু কাজের সুযোগ সবথেকে বেশি তৈরি হতে পারত। নোটবন্দির ফলে এই ক্ষেত্রটি বিরাট ধাক্কা খেয়েছে। যে কাজের সুযোগ গড়ে উঠতে পারত, তা ঘটে ওঠেনি। যদিও নির্মাণ ক্ষেত্রটি মূলত অসংগঠিত, তবুও তাতে কর্মসংস্থান সংখ্যায় অনেক বেশি হয়। আর সেখানে কর্মসংস্থান হয় বলে তার প্রভাব অন্যত্রও পড়ে। অসংগঠিত ক্ষেত্রটি ভারতে বরাবরই অবহেলিত। কিন্তু সেখানে চিরকালই বেশি সংখ্যায় কর্মসংস্থান ঘটে থাকে আর তার সুফল কমবেশি দেশের অর্থনীতিতে পড়ে। ন্যাশনাল স্যাম্পল সার্ভে অফিস (এনএসএসও) যে পরিসংখ্যান প্রকাশ করেছে, তা বেশ চিন্তায় ফেলার মতো। তাতে দেখা যাচ্ছে, যে অসংগঠিত ক্ষেত্র এতদিন ভারতীয় অর্থনীতিতে জোর যুগিয়েছে, তা এখন ততটা শক্তিশালী নয়। সংগঠিত ক্ষেত্রের দিকে তাকালেও যে খুব একটা আশাবাদী হওয়া যাচ্ছে, এমন কিন্তু নয়। বাইরের বিশ্বে ধাক্কা খাওয়ার ফলে ভারতে কর্মী ছাঁটাই করেছে তথ্য-প্রযুক্তি সংস্থাগুলি। এর পেছনে আরও একটি কারণ রয়েছে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র বা অস্ট্রেলিয়ার মতো জায়গায় সরকারি চাপ রয়েছে স্থানীয় কর্মী নিয়োগের। তথ্য-প্রযুক্তি সংস্থাগুলি সেই চাপের কাছে মাথা নোয়াতে বাধ্য হয়ে কর্মী সংকোচন করছে তৃতীয় বিশ্বের দেশগুলিতে।
সংগঠিত ক্ষেত্র নিয়ে রিজার্ভ ব্যাংক তাদের মনিটারি পলিসির রিভিউতে বেশ কিছু আশঙ্কা প্রকাশ করায় চিন্তা আরও বাড়ছে বই কমছে না। অর্থনীতিবিদরা আরও আশঙ্কিত কারণ উচ্চমানের এবং সুরক্ষিত চাকরির বাজার ক্রমে গুটিয়ে আসছে। এটা বাস্তবিকই ভাবিয়ে তোলার মতো ব্যাপার। আসন্ন আর্থিক বিকাশের যে হারের কথা বলা হচ্ছিল, অর্থাৎ ৬.৭৫ থেকে ৭.৫০, সেটি হয়ত শেষ পর্যন্ত অধরাই থেকে যাবে।
রাজস্ব সচিব হাসমুখ আধিয়া জানিয়েছেন, নোটবন্দি হওয়ার ফলে এবার ২৫ শতাংশ বেশি আয়কর জমা পড়েছে। এর ইতিবাচক প্রভাব জাতীয় অর্থনীতিতে পড়বে বলে তিনি আশাবাদী। কিন্তু এর পাশাপাশি খেয়াল রাখতে হবে নেতিবাচক দিকটিও। নোটবন্দি ও তার পরের জিএসটি নিয়ে নানা ধরনের জটিলতা মানুষের স্বাভাবিক আর্থিক লেনদেনের উপর ভালো রকম প্রভাব ফেলেছে। এই দুটিকে যোগ করলে কোনও সন্দেহ নেই, স্বাধীনতার পর এতবড় আর্থিক সংস্কার হয়নি। খুব স্বাভাবিকভাবেই প্রাথমিক একটা ধাক্কা পড়বেই। তা সামলে উঠতে পারলে স্বচ্ছতা অনেক বা‌ড়বে। আর্থিক ক্ষেত্রেও জোয়ার আসবে বলে আশা করা যায়।
তবে আপাতত সরকারকে একটি ব্যাপারই সবার আগে ঠিক করতে হবে। কর্মসংস্থান কীভাবে বাড়বে? কীভাবে আরও মানুষ কাজ পাবেন? বেকারত্বের অভিশাপ থেকে ভারত মুক্ত হবে কীভাবে? এগুলোই ঠিক করতে হবে সবার আগে।
গ্রাফিক্স: স্বাগত মুখোপাধ্যায়।
10th  September, 2017
ফুটবলের সেরারা

অনূর্ধ্ব-১৭-র বিশ্বকাপের এই আসর এবং অন্যান্য আন্তর্জাতিক খেলা দেখে একটা কথা নির্দ্বিধায় বলা যায় যে আধুনিক ফুটবলে গোলকিপিংয়ের মান যেখানে পৌঁছেছে, তা ছিল সত্যিই অকল্পনীয়। খেলাগুলি দেখে লিখেছেন সুকুমার সমাজপতি। বিশদ

অমিতাভ ৭৫
সন্দীপন বিশ্বাস

১৯৮০ সালের জুলাই মাসে মহানায়ক উত্তমকুমারের শেষযাত্রায় লক্ষ লক্ষ মানুষের ভিড় বুঝিয়ে দিয়েছিল, তিনি সাধারণ অভিনেতা এবং নায়কদের থেকে অনেক উঁচুতে বিরাজ করেন। সাধারণ মানুষের অন্তরের নায়ক তিনি। আর তার দু’বছর পরেই ১৯৮২ সালের জুলাই মাসেই সারা দেশ শোকে ডুবে গেল।
বিশদ

বদলে যাওয়া যুবভারতী 

আর্কিটেক্ট হীরক সেনের ডিজাইন করা সল্টলেক স্টেডিয়াম ছিল আক্ষরিক অর্থেই ‘জায়ান্ট’। তবে আধুনিক মানের হয়নি। যেটা এতদিনে অনূর্ধ্ব-১৭ বিশ্বকাপকে সামনে রেখে গড়ে তুলল বর্তমান রাজ্য সরকারের অধীন ক্রীড়া ও পূর্ত দপ্তর। লিখছেন রাতুল ঘোষ। 
বিশদ

15th  October, 2017
দীপাবলীর আলোয় সেজে উঠতে তৈরি লন্ডন 

রূপাঞ্জনা দত্ত: দিনকয়েক পরেই দীপাবলী। আলোর উৎসব। আলোকসজ্জায় সেজে উঠতে তৈরি গোটা ভারত। আর ভারত থেকে বহুদূরে অবস্থিত হলেও সেই উৎসবে গা ভাসাতে তৈরি লন্ডনও। প্রথমেই আসা যাক লন্ডনের ললিত হোটেলের কথায়।
বিশদ

15th  October, 2017
অবাধে চলে গুলি, বোমা, বিহারে আদালত চত্বরে নিরাপত্তা কমেই চলেছে, রিপোর্ট চাইল হাইকোর্ট 

বিহারে আদালতের কর্মীরা জেনে গিয়েছে, যখন তখন গুলি, বোমা চলতে পারে। ফলে পালানোর রাস্তাটা খোলা রাখার চেষ্টাই করে সবাই। লিখেছেন দিলীপ বিশ্বাস।  
বিশদ

08th  October, 2017
তারকাদের বিরুদ্ধে ফের মাদক পাচারের অভিযোগ 

কে নেই সেই তালিকায়? তেলেঙ্গানা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির অভিনেতা থেকে শুরু করে পরিচালক, সিনেমাটোগ্রাফার। মাদক পাচারের অভিযোগে অনেককেই জেরা করা হল সম্প্রতি। লিখেছেন মধু গুপ্ত। 
বিশদ

08th  October, 2017
একদিকে কমল হাসান, রজনীকান্ত ও বিজেপি  অন্যদিকে জেলবন্দি শশীকলা  তামিল রাজনীতিতে নতুন মোড়
কেন হাত মেলালেন দুই চিরশত্রু 

বিশেষ প্রতিবেদন: ২১ আগস্ট দিনটা তামিলনাড়ুর রাজনীতিতে একটি বিশেষ তাৎপর্য বহন করবে। এমন দিন চট করে সহজে আসে না। সেদিন হাসতে হাসতে একে অপরকে জড়িয়ে ধরলেন তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী ইডাপ্পাডি কে পালানিস্বামী (ইপিএস) ও পদত্যাগ করতে বাধ্য হওয়া প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ও পানিরসেলভাম (ওপিএস)। মাঝখানে প্রায় ৬ মাসের ব্যবধান। দু’জন একে অপরের বিরুদ্ধে অজস্র গালমন্দ করেছেন।
বিশদ

08th  October, 2017
ভারতের বিরুদ্ধে যুদ্ধে যাওয়ার আগে কেন চীনকে দশবার ভাবতে হবে 

কার কত শক্তি বেশি সেটি এখন বিবেচ্য হয় না যুদ্ধের ক্ষেত্রে। আধুনিক যুদ্ধ বিশারদরা মনে করেন, যুদ্ধ-পরবর্তী প্রতিক্রিয়াই এখানে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। লিখেছেন বিপ্লব মিত্র। 
বিশদ

08th  October, 2017
আইএস-শিকড় এখন কেরলে 

গত তিন বছরে শুধুমাত্র কেরল থেকেই কম করে ৫৪ জন যোগ দিয়েছে আইএস সংগঠনে। ভারতের আর কোনও রাজ্য থেকে এত বেশি সংখ্যায় আইএসে যোগ দেওয়ার ঘটনা ঘটেনি। লিখেছেন অর্ঘ্য ঘোষ। 
বিশদ

08th  October, 2017
বুন্দেলখণ্ডের ভয়ংকর ডাকাতেরা 

ক্ষমতায় আসার পর উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ বেশ কিছু কাজ করবেন বলে জানিয়েছিলেন। তার মধ্যে একটা হল, উত্তরপ্রদেশকে ডাকাত-শূন্য করা। তিনি পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছিলেন, ডাকাতদের নির্মম হাতে দমন করতে হবে। এই কারণে বিশেষ টাস্ক ফোর্সও তৈরি করা হয়েছিল। কিন্তু কতটা সাফল্য পাওয়া গিয়েছে সেইসব ভয়ংকর ডাকাতদলের বিরুদ্ধে? লিখেছেন দিলীপ বিশ্বাস। 
বিশদ

24th  September, 2017
ডাল লেকের হাউসবোটে খুন
ব্রিটিশ তরুণীর রহস্যমৃত্যু ঘিরে তোলপাড় কাশ্মীর

অভিযোগের তীর হল্যান্ডের বাসিন্দা রিচার্ড ডি ভিটের বিরুদ্ধে। তাঁর হাতেই কি কাশ্মীরের ডাল লেকে হাউসবোটে খুন হয়েছিলেন ব্রিটিশ তরুণী সারা জোবস? ৪ বছরেও সেই রহস্যের সমাধান হল না। লিখেছেন অমিতাক্ষর দেব। বিশদ

17th  September, 2017
একনজরে
সংবাদদাতা, আলিপুরদুয়ার: শনিবার ডিমডিমায় বিরবিটি নদীর কাছে ৩১ সি জাতীয় সড়কে টাটা সুমোর দুর্ঘটনায় একটি একবছরের শিশুর মৃত্যু হয়েছে। দুর্ঘটনায় শিশুটির বাবা ও মাসহ আরও ১০ জন জখম হয়েছেন। মৃত শিশুটির নাম প্রবীণ সুবেদি(১)। তার বাড়ি ভুটানের কালীখোলায়। ...

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কম্পিউটার সফটওয়্যারের মাধ্যমে উচ্চ আয়ের বিদেশে চাকরি, বা বিজ্ঞান বিষয়ে পড়াশোনা ও গবেষণার প্রতি আগ্রহ অনেকদিন ধরে কমতে শুরু করেছে। এই অবস্থায় খুদে পড়ুয়াদের বিজ্ঞানের প্রতি আরও আকৃষ্ট করতে কেন্দ্রীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রকের পক্ষ থেকে বিভিন্ন ...

সংবাদদাতা, আরামবাগ: গাড়ি থেকে চাল চুরি করে হোটেলে বিক্রি করার অভিযোগে শনিবার তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে আরামবাগ থানার পুলিশ। পুলিশ জানিয়েছে, ধৃতদের নাম ইমাম শেখ, সুরজ শেখ ও বিবেক দাস। ...

 বিএনএ, চুঁচুড়া: শনিবার সকালে মগরা থানার ময়ূরমহলের কাছে সোয়াখালে স্নান করতে নেমে তলিয়ে যায় দুই কিশোরী। তাদের মধ্যে একজনের মৃতদেহ উদ্ধার করা গেলেও, অপর কিশোরীর সন্ধান এখনও মেলেনি। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, এদিন সেখানে স্নান করতে নেমেছিল দুর্গা ...


আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

উচ্চতর বিদ্যায় বাধা কাটবে। বড়দের কথার মান্যতা দেওয়া দরকার। ব্যাবসা সূত্রে উপার্জন বৃদ্ধি। ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯৫৪: কবি জীবনানন্দ দাশের মৃত্যু
১৯৮৮: অভিনেত্রী পরিণীতি চোপড়ার জন্ম
২০০৮: চিত্রশিল্পী পরিতোষ সেনের মৃত্যু
২০০৮: চন্দ্রায়ন-১-এর সূচনা

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৪.২০ টাকা ৬৫.৮৮ টাকা
পাউন্ড ৮৩.৭৮ টাকা ৮৬.৬৩ টাকা
ইউরো ৭৫.৬০ টাকা ৭৮.২৩ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
21st  October, 2017
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩০,০৪৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ২৮,৫০৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ২৮,৯৩৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪০,০০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪০,১০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৫ কার্তিক, ২২ অক্টোবর, রবিবার, তৃতীয়া রাত্রি ৪/৫২, নক্ষত্র-বিশাখা, সূ উ ৫/৩৯/৪৪, অ ৫/২/৪২, অমৃতযোগ দিবা ঘ ৬/২৫ গতে ৮/৪২ মধ্যে পুনঃ ১১/৪৪ গতে ২/৪৬ মধ্যে। রাত্রি ঘ ৭/৩৫ গতে ৯/১৩ মধ্যে পুনঃ ১১/৪৭ গতে ১/২৮ মধ্যে পুনঃ ২/১৮ গতে উদয়াবধি, বারবেলা ৯/৫৬ গতে ১২/৪৭ মধ্যে, কালরাত্রি ১২/৫৬ গতে ২/৩১ মধ্যে।
৪ কার্তিক, ২২ অক্টোবর, রবিবার, তৃতীয়া রাত্রি ৩/৫/৪৮, বিশাখানক্ষত্র, সূ উ ৫/৩৯/৩৬, অ ৫/২/২৪, অমৃতযোগ দিবা ৬/২৫/৭-৮/৪১/৪১, ১১/৪৩/৪৬-২/৪৫/৫০, রাত্রি ৭/৩৩/৫০-৯/১৪/৪৮, ১১/৪৬/১৪-১/২৭/১২, ২/১৭/৪১-৫/৪০/৮, বারবেলা ৯/৫৫/৩৯-১১/২১/০, কালবেলা ১১/২১/০-১২/৪৬/২১, কালরাত্রি ১২/৫৫/৩৯-২/৩০/১৮। 
১ শফর

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
দিল্লিতে অর্জুনগড় মেট্রো স্টেশনের কাছে ওলা গাড়িতে উদ্ধার এক ব্যক্তির দেহ

21-10-2017 - 10:11:00 PM

দিল্লিতে রাজৌরি গার্ডেনের কাছে একটি হোটেলে দম্পতির দেহ উদ্ধার

21-10-2017 - 10:07:00 PM

অনূর্ধ্ব ১৭ বিশ্বকাপ: আমেরিকাকে ৪-১ গোলে হারাল ইংল্যান্ড

21-10-2017 - 10:05:14 PM

অনূর্ধ্ব ১৭ বিশ্বকাপ: আমেরিকা ১ - ইংল্যান্ড ৩ (৭৩ মিনিট)

21-10-2017 - 09:36:09 PM

অনূর্ধ্ব ১৭ বিশ্বকাপ: আমেরিকা ০ - ইংল্যান্ড ৩ (৬৪ মিনিট)

21-10-2017 - 09:28:04 PM

অনূর্ধ্ব ১৭ বিশ্বকাপ: আমেরিকা ০ - ইংল্যান্ড ২ (৫০ মিনিট)
অনূর্ধ্ব ১৭ বিশ্বকাপে আজ মারগাঁওয়ে আমেরিকা বনাম ইংল্যান্ডের ম্যাচে ...বিশদ

21-10-2017 - 09:00:00 PM

অনূর্ধ্ব ১৭ বিশ্বকাপ: ঘানাকে ২-১ গোলে হারাল মালি
অনূর্ধ্ব ১৭ বিশ্বকাপে আজ গুয়াহাটিতে মালি বনাম ঘানার ...বিশদ

21-10-2017 - 07:00:00 PM