Bartaman Patrika
সাম্প্রতিক
 

রহস্যময়ী রিতা কাৎজ 
মৃণালকান্তি দাস

রিতা কাৎজ। বাংলাদেশের দুই বিদেশি নাগরিক খুন হওয়ার পর ৫২ বছরের এই মহিলাই প্রথম ট্যুইটারে দাবি করেছিলেন, এই হত্যাকাণ্ড আইএস (ইসলামিক স্টেট) ঘটিয়েছে। ঢাকার গুলশানের হোলি আর্টিজান বেকারিতে হামলা চালিয়ে ২০ জনকে জবাই করে হত্যা করার পর হামলাকারীদের ছবিও প্রথম প্রকাশ করেছিল রিতা কাৎজের ‘সাইট ইন্টেলিজেন্স গ্রুপ’ ওয়েবসাইট। রিতা কাৎজের ওয়েবসাইটই প্রথম জানায়, ২০২০-র মধ্যে ভারত-সহ বিশ্বের বিস্তীর্ণ অংশ নিজেদের দখলে আনবে ইসলামিক স্টেট।
রাশিয়া বিশ্বকাপে হামলার হুমকি দিয়েছে আইএস। মেসিকে নিয়েও পোস্টার ছড়িয়েছে জঙ্গিগোষ্ঠী। পোস্টারে গরাদবন্দি আর্জেন্তিনীয় তারকার কান্নায় ঝড়ে পড়ছে রক্ত। এবং তাতে লেখা, ‘তুমি (বা তোমরা) এমন এক রাষ্ট্রের বিরুদ্ধে লড়ছ, যাদের অভিধানে ব্যর্থতা বলে কোনও শব্দ নেই।’ আর সেই পোস্টারও জনসমক্ষে এনেছে সেই থিঙ্কট্যাঙ্ক ‘সাইট ইন্টেলিজেন্স গ্রুপ’।
প্রশ্ন উঠেছে, কে এই রিতা কাৎজ? গোটা দুনিয়াজুড়ে নৃশংস হামলার ঘটনায় আইএসকে জড়িয়ে সংবাদ প্রচার করে নজরে আসে সার্চ ফর ইন্টারন্যাশনাল টেররিস্ট এন্টাইটিস (সাইট)। এই সাইটটি ওয়াশিংটনের একটি বেসরকারি গোয়েন্দা সংস্থার সহযোগী প্রতিষ্ঠান। রিতা কাজ করছেন হোমল্যান্ড সিকিউরিটিজের প্রাক্তন পরিচালক জোস ডিভনের সঙ্গে। রিতা এর আগে প্রকাশ্যে কাজ করেছেন ইজরায়েলি প্রতিরক্ষা বাহিনী ও মার্কিন তদন্ত গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআইয়ের সঙ্গেও। অনর্গল আরবি ভাষায় পারদর্শী রিতা ছদ্মবেশে থেকেছেন প্যালেস্তাইনের আন্দোলনেও। অথচ কাজ করেছেন ইজরায়েলি গোয়েন্দা সংস্থা ‘মোসাদ’-এর হয়ে। রিতা কাৎজের এনআইটিই সংস্থায় অর্থ জোগান, গোয়েন্দা তথ্য সংগ্রহ পদ্ধতি, প্রচারের চূড়ান্ত উদ্দেশ্য অন্ধকারে ঢাকা। একইভাবে তাঁর মদতদাতাদের পরিচিতিও কালো চাদরে ঢাকা।
বিভিন্ন সূত্রে জানা গিয়েছে, রিতা কাৎজের জন্ম ১৯৬৩ সালে ইরাকের বসরায়। জন্মগতভাবে তিনি ইহুদি ধর্মের অনুসারী। ইজরায়েলি গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের হয়ে গুপ্তচরবৃত্তির অভিযোগে ১৯৬৮ সালের দিকে তৎকালীন সাদ্দাম সরকার প্রকাশ্যে ফাঁসি দেয় রিতার বাবাকে। ওই সময় তিন সন্তান নিয়ে রিতার মা পালিয়ে যান ইরানে। সেখান থেকে চলে যান ইজরায়েলের বাট ইয়াম শহরে। সেখানেই পরে তাঁদের ঠিকানা হয়। বসরায় জন্ম নেওয়ায় কারণে আরবিতে পারদর্শী রিতা। কেউ কেউ বলেছেন, বিশেষ উদ্দেশ্য নিয়েই রিতাকে আরবি শেখানো হয়েছে। পরে তাঁকে চাকরি দেওয়া হয়েছে ইজরায়েলি প্রতিরক্ষা বাহিনীতে। প্রতিরক্ষা বাহিনীর তত্ত্বাবধানেই তেল আভিভ বিশ্ববিদ্যালয়ে রাজনীতি, ইতিহাস আর পশ্চিম এশিয়া নিয়ে পড়াশোনা করেন রিতা। ১৯৯৭ সালে চিকিৎসক স্বামীর সঙ্গে পাড়ি দেন আমেরিকায়। জাল ভিসার কারণে তিনি আমেরিকায় আটক হয়েছিলেন। পরে ওই জালিয়াতির কথা স্বীকারও করেন তিনি। ১৯৯৭ সালেই মার্কিন গবেষণা ইনস্টিটিউটে চাকরি পান রিতা। হলিল্যান্ড ফাউন্ডেশন নামে একটি গ্রুপ হামাসের পক্ষে কাজ করছে বলে প্রথম উদ্ঘাটন করেন রিতা। এরপর থেকে গুপ্তচরগিরিতে তাঁর মর্যাদা বেড়ে যায়। একসময় বোরখা পরে মুসলিম মহিলার পরিচয়ে শব্দ রেকর্ডিং যন্ত্রসহ ছুটে বেড়ান ইসলামি সম্মেলনে। হামাসের ফান্ড সংগ্রহকারীদের সঙ্গে ঘুরেছেন বিভিন্ন মসজিদে। প্যালেস্তাইনের সমর্থকদের সঙ্গে থেকেছেন তাদের আন্দোলনেও। ওই সময় এফবিআই তাঁকে লুফে নেয় ইসলামি জঙ্গিসহ বিদেশি জঙ্গি গ্রুপের তথ্য সংগ্রহের জন্য।
২০০২ সালে ইরাক আক্রমণের আগে আমেরিকায় বসবাসরত মুসলিমদের উপর কড়া নজরদারি করা হয়। সেই সময় রিতা প্রতিষ্ঠা করেন সার্চ ফর ইন্টারন্যাশনাল টেররিস্ট এন্টাইটিস (সাইট) নামে সংস্থাটি। গোয়েন্দা তথ্য সংগ্রহ এবং অনলাইনে ফাঁস করা এই সংস্থার প্রধান কাজ। আল-কায়েদা নেটওয়ার্ক, আইএস নেটওয়ার্ক, হামাস, ইসলামিক জিহাদ এবং হিজবুল্লাহ নিয়ে তাঁর প্রতিষ্ঠান নিয়মিত প্রচার চালাতে থাকে। বিভিন্ন গোয়েন্দা কর্তারা জানান, রিতা কি বেসরকারি সংস্থায় কাজ করছেন, নাকি কোনও গোয়েন্দা সংস্থার বেসরকারি মুখপাত্র হিসেবে প্রপাগান্ডা চালাচ্ছেন, এ নিয়ে ব্যাপক বিতর্ক রয়েছে। সিআইএ, কেজিবি, মোসাদ, এম-১৬ এর মতো প্রভাবশালী গোয়েন্দা সংস্থাগুলি যে ইন্টেলিজেন্স তথ্য প্রকাশ করতে পারছে না, তা লাগাতার প্রকাশ করেছে সাইট। তাদের এই কর্মকাণ্ড পৃথিবীর বহু নেতৃস্থানীয় দেশের গোয়েন্দা সামর্থ্যকেও ছাড়িয়ে গিয়েছে। ‘আমাক’ নামে একটি সাইটের সূত্র দিয়ে তারা তথ্য প্রকাশ করছে। আমাক নিউজকে জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেটের (আইএস) সংবাদসংস্থা উল্লেখ করে আইএসের জঙ্গি কর্মকাণ্ডের সংবাদ প্রকাশ করে সাইট ইন্টেলিজেন্স গ্রুপ। কোনও ঘটনার পর সেই ঘটনার দায় স্বীকার, কোথাও হামলার হুমকিসহ জঙ্গি তৎপরতাসংশ্লিষ্ট সব খবরই প্রকাশ করে থাকে সাইট ইন্টেলিজেন্স গ্রুপ। সেই খবর পরে অন্যরা প্রকাশ করে। আমাক নিউজ সাধারণভাবে ইন্টারনেটে দেখা যায় না। সাইট ইন্টেলিজেন্স গ্রুপের ওয়েবসাইটে প্রবেশ করতে রেজিস্ট্রেশন করতে হয়। যে কেউ চাইলেই রেজিস্ট্রেশন করতে পারে না।
বিশ্লেষকরা মনে করছেন, ইরাক আক্রমণের আগে সাদ্দাম হোসেনের বিরুদ্ধে গণবিধ্বংসী অস্ত্রের কথা বলেছিল মার্কিন ও ব্রিটিশ গোয়েন্দা সংস্থাগুলি। সেটা মিথ্যা প্রমাণিত হওয়ায় দায় পড়েছিল তাদের উপর। মানুষকে বিভ্রান্ত করার জন্য তারা সমালোচিত হয়েছিল পৃথিবীজুড়ে। তাই মিথ্যা প্রচারের দায়টা আর সরাসরি নিতে চায় না কোনও সংস্থা বা দেশ। এখন তার বদলে সুকৌশলে বেসরকারি সংস্থার মাধ্যমেই প্রচার চালাচ্ছে তারা। তাত্ত্বিকভাবে যা ‘ধূসর প্রচার’ হিসেবে পরিচিত।
রিতা নিজেও কট্টর ইজরায়েলপন্থী। নিজেকে জায়নবাদী বলে পরিচয় দিতেই পছন্দ করে। তাঁর ওয়েবসাইটটি বেশি আলোচনায় এসেছে মূলত ২০১৪ সালের আগস্ট থেকে। যখন মোসাদ-এর মাধ্যমে আইএসের উৎপত্তি নিয়ে ব্যাপক আলোচনা শুরু হয়। রিতা কাৎজ তাঁর সাইট ইনটেলিজেন্স গ্রুপে বেশ ক’টি এক্সক্লুসিভ ভিডিও প্রকাশ করে। যেখানে কমপক্ষে দু’জন মার্কিন সাংবাদিকের শিরশ্ছেদের ভিডিও ছিল। কোনও গণমাধ্যমই তখন এইসব ভিডিওর ব্যাপারে সন্দেহ প্রকাশ করেনি। কেউ প্রশ্ন তোলেনি একটা বেসরকারি কোম্পানি কী করে কোথা থেকে এসব ভয়ঙ্কর ভিডিও সংগ্রহ করে। সেই প্রতিষ্ঠানের পরিচয়ই বা কী? অবাক হবেন না শুনলে, এই প্রতিষ্ঠানে প্রধান সহযোগী গণমাধ্যম ফক্স নিউজ। যাকে সবাই ইজরায়েলপন্থী এবং মার্কিন সরকারের চর বলেই জানে।
২০০৩ সালে রিতা ‘Terrorist Hunter: The Extraordinary Story of a Woman Who Went Undercover to Infiltrate the Radical Islamic Groups Operating in America’ নামে একটি বই প্রকাশ করেন। সেখানে নাম গোপন করে লেখেন ‘Anonymous’। সেই বইয়ে দাবি করেন, তিনি জঙ্গি মুসলিমদের অনেক বৈঠকে পরিচয় গোপন করে উপস্থিত হয়েছিল! কিন্তু প্রশ্ন ওঠে, একে তো জঙ্গিদের গোপন বৈঠক, তার উপর মুসলিম জঙ্গিরা লিঙ্গ সংবেদনশীল। তাদের বৈঠকে রিতার পরিচয়ের ব্যাপারে নিশ্চিত না হয়েই কীভাবে তাঁকে প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হল! আসলে রিতার প্রতিষ্ঠানটি জন্মের পর থেকেই এমন সব গোপন তথ্য দিয়ে আসছে, যা মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থাগুলোকে রীতিমতো লজ্জায় ফেলে দিয়েছে। তবে অনেক তথ্য ভুল প্রমাণিত হয়েছে। যেমন—২০০৭ সালে ওয়াশিংটন পোস্টের এক প্রতিবেদনে বলা হয়: একটি ছোট্ট গোয়েন্দা কোম্পানি যারা ইসলামি জঙ্গি গ্রুপগুলির উপর নজরদারি করে, তারা ওসামা বিন লাদেনের একটি ভিডিও সংগ্রহ করেছে। যা আল-কায়েদা আনুষ্ঠানিকভাবে প্রকাশের এক মাস আগেই সংগ্রহ করা হয়েছিল। ২০০৭-এর সেপ্টেম্বর দু’জন শীর্ষ কর্তাকে শর্ত সাপেক্ষে ভিডিওটি দেওয়া হয়। বলা হয়, আল-কায়েদা এই ভিডিও প্রকাশের আগে পর্যন্ত যেন গোপন রাখা হয়। মাত্র ২০ মিনিটের মধ্যে বহু গোয়েন্দা সংস্থা ওই সাইট থেকে ভিডিওটি ডাউনলোড করে। ওই দিনই বিকেলে ভিডিও এবং অডিওর ট্রান্সক্রিপ্ট বুশ প্রশাসনের ভিতর থেকে ফাঁস হয়ে বিভিন্ন টিভি মিডিয়ার মাধ্যমে সারা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়ে। কিন্তু পরে প্রমাণিত হয় যে, ভিডিওটি ভুয়ো! সেই থেকে ‘সাইট’-কে মানুষ সন্দেহের চোখে দেখা শুরু করেছে।
প্রশ্ন উঠেছে, এটা কি কোনও প্রোপাগান্ডা সাইট? যারা গোটা বিশ্বে ইসলামি সন্ত্রাসবাদের ভীতি ছড়িয়ে দিতে চায়! যারা আরব দুনিয়ার বিরুদ্ধে ঘৃণা ছড়িয়ে ইজরায়েলের স্বার্থ সুনিশ্চিত করতে চায়! সন্দেহ ঘনীভূত হয়েছে সিরিয়ায় আইএসের উত্থানের পর অতিরঞ্জিত কিছু ভিডিও প্রকাশের পর। অভিযোগ, সিরিয়াতে মার্কিন ও তার মিত্রদের হস্তক্ষেপ ত্বরান্বিত করতে রিতা কাৎজ অনেক ভুয়ো ভিডিও প্রকাশ করেছেন।
২০১৪-এর সেপ্টেম্বরে দুই মার্কিন সাংবাদিক জেমস ফলি এবং স্টিভেন সোটলভকে শিরশ্ছেদ করার ভিডিও প্রকাশ করে সারা বিশ্বে হইচই ফেলে দেয় সাইট ইন্টেলিজেন্স গ্রুপ। লেখক বিল গার্ডনার ব্রিটিশ দৈনিক দ্য টেলিগ্রাফে তো দাবিই করে বসেন, এসব ভিডিও আসলে ক্যামেরার কারসাজি! এরপর জাপানি সাংবাদিক কেনজি গোতো এবং হারুনা ইউকাওয়ার শিরশ্ছেদের ভিডিও নিয়েও অনেকে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন এবং তা তাদের নিজেদেরই বানানো। হুবহু একই স্থানে এবং বিভিন্ন অ্যাঙ্গেলে ভিডিও করা, ক্লোজ শটেও পাঁচবার ধারাল ছুরি চালানোর পরও গলা দিয়ে রক্ত পড়ার দৃশ্য দেখতে না পাওয়া, সাউন্ড কোয়ালিটিসহ ইত্যাদি ফরেনসিট বিশ্লেষণে সাইট-এর আইএসের ভিডিওগুলি সত্য নয় বলেই প্রমাণ পাওয়া গিয়েছে! আন্তর্জাতিক বিশ্লেষকদের অনেকেই মনে করছেন, যেহেতু আইএস মোসাদ-এর সৃষ্টি এবং রিতা কাৎজ মোসাদেরই অ্যাজেন্ডা বাস্তবায়ন করছেন। হয়তো রিতা কাৎজই আইএসের প্রধান মহিলা সদস্য। আসলে, জীবনের একটা দীর্ঘ সময় রিতা ইজরায়েলে কাটিয়েছেন। ইজরায়েলের বিখ্যাত ডিফেন্স ফোর্সে (আইডিএফ) চাকরি করেছেন। এরপর আমেরিকায় এসে সরাসরি হোয়াইট হাউস, এফবিআই, সিআইএ, বিচার বিভাগ, অর্থ বিভাগ, অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা বিভাগ তথা মার্কিন সরকারের গুরুত্বপূর্ণ সব বিভাগের সঙ্গে কাজ করেছেন। সেই সুবাদে সেসব জায়গায় অবাধ যাতায়াত এবং অনেক গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তির সঙ্গে তাঁর ঘনিষ্ঠতা রয়েছে।
তাহলে কি রিতা কাৎজ ইজরায়েলের গোয়েন্দা সংস্থা মোসাদের চর? না, এখনও তার কোনও উত্তর মেলেনি।
06th  May, 2018
কোলিন্দার ‘সুন্দর’ মুখের আড়ালে! 

কখনও টিমের জন্য গলা ফাটাচ্ছেন, কখনও ফুটবলারদের সঙ্গে মেতে উঠছেন উদ্দাম সেলিব্রেশনে। দেখে কে বলবে তিনিই ছোট্ট দেশটার প্রথম নাগরিক। প্রেসিডেন্ট কোলিন্দা গ্রাবার কিতারোভিচ। পাপারাৎজিরা কেন তাঁর পিছু ছাড়ে না? তিনি নাকি প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের সঙ্গেও খুনসুঁটি করতে ছাড়েন না! র‌্যাকিটিচ, মডরিচদের ফুটবল স্কিলে যখম সম্মোহিত ক্রীড়া দুনিয়া, তখন ক্রোটদের সুন্দরী প্রেসিডেন্টের প্রাণোচ্ছলতায় মজেছে নেট দুনিয়া।
বিশদ

22nd  July, 2018
ভালোবাসার শহর সেন্ট পিটার্সবার্গ
রাশিয়া থেকে ফিরে
সন্দীপন বিশ্বাস

সেন্ট পিটার্সবার্গ যেমন ইতিহাসের শহর, তেমনই ভালোবাসারও শহর। এই শহরের প্রাসাদে, নদীতে, গির্জায়, মেট্রোয়, পথে পথে মিশে আছে এক রোমান্টিসিজম। তাকে দেখা যায়, অনুভব করা যায়। প্রেমের শহর সেন্ট পিটার্সবার্গ। জার শাসকদের সময় ছুঁয়ে আজ পর্যন্ত এই শহর দেখেছে বহু প্রেম। সেই প্রেম কখনও সফল, কখনও রক্তাক্ত, কখনও ব্যর্থ, কখনও বা সেই প্রেম এনে দিয়েছে মৃত্যুর গন্ধ।
বিশদ

22nd  July, 2018
থাই শিশুদের নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণে আগ্রহী হলিউড 

ঘটনা অবিশ্বাস্য হলেও সত্যি। ১৭ দিন পর থাইল্যান্ডের বিপজ্জনক গুহায় আটকে পড়া কিশোরদের উদ্ধার করেছেন দুঃসাহসী ডুবুরিরা। চিয়াং রাই হাসপাতালের বেডে মুখে মাস্ক ও হাসপাতালের গাউন পরা অবস্থায় রয়েছে তারা।
বিশদ

15th  July, 2018
ইতিহাসের সন্ধানে... 
সেন্ট পিটার্সবার্গে
(রাশিয়া থেকে ফিরে সন্দীপন বিশ্বাস)

জুন, জুলাই মাসের এই সময়টায় সেন্ট পিটার্সবার্গে সূর্যের আলস্য দেখার মতো। অস্ত যেতে যেন মন চায় না তার। সারাদিন মাথার উপর জ্বলছে তো জ্বলছেই। ঘড়িতে তখন সাড়ে এগারোটা বেজে গেল। সেটাকে রাত বলব কিনা বুঝতে পারছি না! তখন পশ্চিমের আকাশে সূয্যিমামার অনিচ্ছার ডুব।
বিশদ

15th  July, 2018
হেরে গিয়েও জিতে যাওয়া বোধহয় একেই বলে 

হেরে গিয়েও জিতে যাওয়া বোধহয় একেই বলে!
বিশ্বকাপের দ্বিতীয় রাউন্ডের লড়াইয়ে বেলজিয়ামের সঙ্গে মুখোমুখি হয় জাপান। দুর্দান্ত খেলে দু’গোলে এগিয়েও যায় তারা। কিন্তু শেষরক্ষা হয়নি। ম্যাচ শেষ হওয়ার আগেই তিনটে গোল দিয়ে জাপানকে হারিয়ে বিশ্বকাপের কোয়ার্টার ফাইনালে পৌঁছে যায় বেলজিয়াম।
বিশদ

08th  July, 2018
ভলগা নদীর তীরে... 
রাশিয়া থেকে সোমনাথ বসু

উলিৎসা সেমাশকো থেকে হাঁটাপথেই গোর্কি মিউজিয়াম। সেখানে সংরক্ষিত রয়েছে ‘মা’ উপন্যাসের খসড়া। এমনকী প্রথম মুদ্রিত বইও। দুই খণ্ডে লেখা ‘মা’ বিপ্লবের আগমনি বার্তা ছড়িয়ে দিয়েছিল গোটা রাশিয়ায়। সরল মানবিকতা থেকে গোর্কি উত্তীর্ণ হন শ্রেণী-মানবিকতায়। উৎপল দত্ত এ‌ই উপন্যাসের একটি অংশকে নিয়ে লিখেছিলেন ‘মে দিবস’ নাটক...
বিশদ

08th  July, 2018
বিশ্বকাপের ম্যাসকট
জাবিভাকার জন্মকথা
সন্দীপন বিশ্বাস

পশ্চিম সাইবেরিয়ার একটা ছোট্ট শহর কিদরোভি। মস্কো থেকে অনেক দূর। প্রায় সাড়ে তিন হাজার কিলোমিটার। সেখানকার মেয়ে একাতেরিনা বোচারোভা আজ সারা বিশ্বে এক পরিচিত নাম। সে তো ওই জাবিভাকার দৌলতেই। জাবিভাকা একাতেরিনার কল্পনাপ্রসূত সৃষ্টি। সেই জাবিভাকা এবারের বিশ্বকাপের ম্যাসকট। বিশদ

03rd  June, 2018
সিলভিও গাজ্জানিগা
বিশ্বকাপের নকশার কারিগর
অরূপ দে

১৯৭১ সালের ৫ এপ্রিল জুরিখে ফিফা প্রেসিডেন্ট স্যার স্ট্যানলি রিউসের নেতৃত্বে একটি বিশেষ কমিটি তৈরি করা হয় নতুন ট্রফির জন্য নকশা নির্বাচনের উদ্দেশ্যে। সেই কমিটি আহ্ববান করে নকশা প্রতিযোগিতার। খবর পেয়েই সিলভিও গাজ্জানিগা শুরু করলেন কাজ।
বিশদ

03rd  June, 2018
লেডি ডন

হেঁসেলের অন্ধকারে যাঁদের জীবন কাটিয়ে দেওয়ার কথা ছিল। সন্তান পালন, স্বামীর সেবাই ছিল যাঁদের জীবনের আদর্শ। সেই তাঁরাই একদিন ঘোমটা ছেড়ে হাতে তুলে নিয়েছিলেন আগ্নেয়াস্ত্র। তাঁদের অঙ্গুলি হেলনে চলেছে বিরাট অপরাধের সাম্রাজ্য। এক ফোনে মুহূর্তে চলে গিয়েছে কারও প্রাণ।
বিশদ

13th  May, 2018
তারাপীঠ
মহাপীঠের ২০০ বছর 

তারাপীঠের মন্দিরের ইতিহাসকে দুশো বছরের মধ্যে আটকানো যায় না। তার ইতিহাস প্রাচীন, আবছায়া, অস্পষ্ট এক অতীতের মধ্যে মিশে আছে। একদিকে পুরাণ আর একদিকে ইতিহাস। একদিকে লোককথা, অন্যদিকে দলিল। সব মিলেই তারাপীঠের মন্দির এবং তারামায়ের কাহিনী একাকার হয়ে গিয়েছে... 
বিশদ

13th  May, 2018
তারামায়ের ছেলে বামাক্ষ্যাপা 

বহু সিদ্ধ পুরুষের সাধনক্ষেত্র তারাপীঠ। কিন্তু তারাপীঠের কথা উঠলেই যে সাধক পুরুষের নামটি মনে আসে, তিনি হলেন বামাক্ষ্যাপা। তারামায়ের ক্ষ্যাপা ছেলে বামাক্ষ্যাপা। নানা লৌকিক এবং অলৌকিক কাহিনী ছড়িয়ে আছে তাঁকে ঘিরে। তারাপীঠের অদূরে আটলা গ্রামে তাঁর জন্ম।
বিশদ

13th  May, 2018
কলঙ্কিত দেশ 
কল্যাণ বসু

ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ড ব্যুরোর পরিসংখ্যান বলছে ২০১২ সালে গোটা দেশে নথিভুক্ত ধর্ষণের সংখ্যা ছিল ২৪,৯২৩ আর ২০১৬ সালে সেটা ৩৮,৯৪৭! অর্থাৎ হ্রাস তো দূরের কথা, পাঁচ বছরে ধর্ষণের ঘটনা ৫৬ শতাংশ বেড়েছে!
বিশদ

06th  May, 2018
জঙ্গিদের থেকেও রাশিয়ার ভয় পঙ্গপালের দলকে 

সন্দীপন বিশ্বাস: ১৯৯৮ সালের ফ্রান্স বিশ্বকাপে যে লোকটা পুলিশের হাড় পর্যন্ত কাঁপিয়ে দিয়েছিল, সে হল ফরিদ মেলুক। একজন আলজিরিয়ান ইসলামিক জঙ্গি। মেলুককে বলা হতো জঙ্গিদের ঠিকানা। সারা বিশ্বের জঙ্গিদের গতিবিধি, যোগাযোগের তথ্য ছিল তার নখের ডগায়।
বিশদ

29th  April, 2018
জোটের পথে... 

২০১৯-এর আগে বেশ কয়েকটি রাজ্যে বিধানসভা নির্বাচন। এর মধ্যে রয়েছে বিজেপি শাসিত মধ্যপ্রদেশ, রাজস্থান ও ছত্তিশগড়ও। এই সব রাজ্যের ফল ২০১৯-এর সমীকরণ তৈরিতে অনেকটাই সাহায্যকরবে। কারণ বিধানসভায় বিজেপি ভালো ফল করলে, এখনকার মোদি বিরোধী হাওয়া আবার কমে যাবে। আর যদি বিজেপি হারে, তবে জোট রাজনীতির ঝড় উঠবে। লিখেছেন প্রীতম দাশগুপ্ত।
বিশদ

29th  April, 2018
একনজরে
অভিষেক পাল  রানাঘাট, সংবাদদাতা: আকাশে তুলোর মতো মেঘ, চতুর্দিকে কাশফুল জানান দিচ্ছে পুজো আসতে আর বেশি দেরি নেই। এখন আর শুধু কয়েকটা দিনের অপেক্ষা। মণ্ডপ তৈরি থেকে মূর্তি তৈরি সবকিছুতেই শিল্পী ও কারিগরদের ব্যস্ততা তুঙ্গে। তেমনই ব্যস্ততা চোখে পড়ল ...

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ভুল প্রশ্নের জেরে যেসব টেট পরীক্ষার্থীদের তিন মাসের মধ্যে নিয়োগ করতে বলা হয়েছিল, তাদের প্রায় এক বছরেও চাকরি দেওয়া হয়নি। সেই সূত্রে হওয়া আদালত অবমাননার মামলায় বৃহস্পতিবার কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি সমাপ্তি চট্টোপাধ্যায় রাজ্যের প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের চেয়ারম্যান ...

 ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জে যেসব সংস্থার শেয়ার গতকাল লেনদেন হয়েছে শুধু সেগুলির বাজার বন্ধকালীন দরই নীচে দেওয়া হল। ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা:শতবর্ষে বাঙালির সেরা উৎসব শারদোৎসবের সঙ্গে যুক্ত হতে চাইছে ইস্ট বেঙ্গল। আসন্ন দুর্গাপুজোয় বিভিন্ন ক্যাটেগরিতে কর্পোরেট ধাঁচে ইস্ট বেঙ্গল পুরস্কার দেবে। এই পুরস্কারে বিচারক হিসাবে থাকবেন দলের প্রাক্তন অধিনায়করা।  ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

অতি সত্যকথনের জন্য শত্রু বৃদ্ধি। বিদেশে গবেষণা বা কাজকর্মের সুযোগ হতে পারে। সপরিবারে দূরভ্রমণের যোগ। ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯৪৮: চিত্রপরিচালক মহেশ ভাটের জন্ম
২০০৪: চিত্রপরিচালক সলিল দত্তের মৃত্যু

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭০.৪৯ টাকা ৭২.১৯ টাকা
পাউন্ড ৮৭.৩৭ টাকা ৯০.৫৬ টাকা
ইউরো ৭৭.২৬ টাকা ৮০.২৪ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৮,০৪০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৬,০৯০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৬,৬৩০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৫,৭০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৫,৮০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৩ আশ্বিন ১৪২৬, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, শুক্রবার, ষষ্ঠী ৩৬/৪৯ রাত্রি ৮/১২। কৃত্তিকা ১২/৯ দিবা ১০/২০। সূ উ ৫/২৮/৫, অ ৫/৩২/৪১, অমৃতযোগ দিবা ৬/১৬ মধ্যে পুনঃ ৭/৪ গতে ৯/২৯ মধ্যে পুনঃ ১১/৫৪ গতে ৩/৬ মধ্যে পুনঃ ৩/৫৫ গতে অস্তাবধি। রাত্রি ৬/১৯ গতে ৯/৩০ মধ্যে পুনঃ ১১/৫৪ গতে ৩/৫ মধ্যে পুনঃ ৩/৫২ গতে উদয়াবধি, বারবেলা ৮/২৯ গতে ১১/৩০ মধ্যে, কালরাত্রি ৮/৩০ গতে ১০/০ মধ্যে।
২ আশ্বিন ১৪২৬, ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৯, শুক্রবার, ষষ্ঠী ২৬/২৪/৫৪ অপঃ ৪/১/৪৮। কৃত্তিকা ৫/৫৮/১ দিবা ৭/৫১/২, সূ উ ৫/২৭/৫০, অ ৫/৩৪/৩০, অমৃতযোগ দিবা ৬/২০ মধ্যে ও ৭/৭ গতে ৯/২৭ মধ্যে ও ১১/৪৮ গতে ২/৫৬ মধ্যে ও ৩/৪৩ গতে ৫/৩৫ মধ্যে এবং রাত্রি ৬/৬ গতে ৯/২২ মধ্যে ও ১১/৪৯ গতে ৩/৬ মধ্যে ও ৩/৫৫ গতে ৫/২৮ মধ্যে, বারবেলা ৮/২৯/৩০ গতে ১০/০/২০ মধ্যে, কালবেলা ১০/০/২০ গতে ১১/৩১/২০ মধ্যে, কালরাত্রি ৮/৩২/৫০ গতে ১০/২/৪ মধ্যে।
২০ মহরম

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
  মোদির বিমানের জন্য আকাশপথ ব্যবহারের আবেদন খারিজ পাকিস্তানের
 নয়াদিল্লি, ১৮ সেপ্টেম্বর: আগামী ২১ থেকে ২৭ সেপ্টেম্বর আমেরিকা সফর ...বিশদ

19-09-2019 - 09:41:00 PM

শিয়ালদহে সোনার বার সহ ধৃত ৩ বাংলাদেশি
শিয়ালদহ স্টেশনের কাছ থেকে আটটি সোনার বার সহ তিনজন বাংলাদেশিকে ...বিশদ

19-09-2019 - 08:26:30 PM

রায়গঞ্জে ক্লাসরুমের সিলিং ফ্যান ভেঙে জখম ছাত্রী 
ক্লাসরুমের সিলিং ফ্যান ভেঙে জখম হলেন এক ছাত্রী। ঘটনাটি ঘটে ...বিশদ

19-09-2019 - 07:33:51 PM

অক্টোবরে ফের ব্যাঙ্ক ধর্মঘট
এবার দেশজুড়ে ব্যাঙ্ক ধর্মঘটের ডাক দিল কর্মী সংগঠনগুলি। ব্যাঙ্কগুলির সংযুক্তিকরণ ...বিশদ

19-09-2019 - 07:25:49 PM

নাবালককে যৌন নির্যাতন, যাবজ্জীবন সাজা যুবকের
যৌন নির্যাতনের ঘটনায় আজ এক যুবককে দোষী সাব্যস্ত করল কালনা ...বিশদ

19-09-2019 - 04:40:00 PM

৪৭০ পয়েন্ট পড়ল সেনসেক্স 

19-09-2019 - 04:24:39 PM