গল্পের পাতা
 

বিরিয়ানিবাবু

স্বপ্নময় চক্রবর্তী: দমদম জংশন থেকে নাগেরবাজার মোড়— এই দেড় কিলোমিটার ব্যাপ্তির দমদম রোডের ওপর ৯৫টি বিরিয়ানির দোকান গুণেছিলাম। প্রকৃত সংখ্যা আরও বেশি হতে পারে।
দোকানগুলো চলছে। একটাও খদ্দেরের অভাবে উঠে যাচ্ছে না, বরং বাড়ছে। একটি তেলেভাজার দোকান, ওখানে দেখলাম দেওয়ালে সাটা বিরিয়ানি পাওয়া যায়। জিজ্ঞাসা করি তেলেভাজার সঙ্গে বিরিয়ানিও করেছেন?— বলল সন্ধের পর করছি। দেশে বিরিয়ানিবাবুরা বেড়ে চলেছে যে...।
‘বিরিয়ানিবাবু’।
বিরিয়ানির সঙ্গে বাবু যুক্ত কথাটা আমার বেশ লাগল। একটু যেন বিদ্রুপও। বাবু শব্দটা একসময় সম্মানজ্ঞাপক বিশেষণ ছিল এখন কি ততটা আছে? চুরুটবাবু, স্যুটবাবু, এলআইসিবাবু (এজেন্ট অর্থে), ড্যানচিবাবু, নেতাবাবু— সবই একটু বিদ্রুপ মেশানো। বাবু শব্দটা বাংলায় এল কোত্থেকে? বাবা থেকে কি? বাপা বা বাপ থেকে বাপু এসেছে। বাংলা তো বটেই, সমস্ত উত্তর ভারতীয় ভাষায় ভালোবাসা বোঝাতে শব্দের শেষে উ-ধ্বনি যুক্ত হয়। যেমন ভালোবাসা বোঝাতে শব্দের শেষে উ-ধ্বনি যুক্ত হয়। যেমন বোঁচা-বুচু, ভাত-ভাতু, দুধ-দুদু, ন্যাড়া-নেড়ু ইত্যাদি। বাপা সেভাবেই বাপু হয়েছে। (ব্যাজস্তুতির মতো ছদ্ম ভালোবাসার চিহ্ন ও বাংলাভাষায় আছে। মার্কসবাদীদের সংক্ষেপে মাকু বলা হয় এখানে অবশ্য ভালোবেসে উ-ধ্বনি যুক্ত হয়নি। বাপা থেকে যেমন বাপু, বাবা থেকে বাবু।
কিছু উচ্চমধ্যবিত্ত ঘরে বাবাকে আদর করে বাপি ডাকা হয়। নিম্নমধ্যবিত্ত ঘরে বাবাকে বাবু ডাকতে শুনেছি। বাপা আর বাবা কাছাকাছি শব্দ। ব এবং প ধ্বনি প্রায়শই এধার-ওধার হয়ে যায়।
বপ্র শব্দটি সংস্কৃত। বাপা সংস্কৃতজাত। কিন্তু বাবা ফারসি। তবে বাবা এবং বাপার উৎস নিশ্চয়ই এক। (ইন্দো ইরানিয়ান)
সতেরশো সত্তর/ আশির আগে নামের সঙ্গে ‘বাবু’ যুক্ত হওয়ার কোনও প্রমাণ পাননি ঐতিহাসিকরা। বিনয় ঘোষ, গৌতম ভদ্র, অবন্তীকুমার সান্যাল, অরুণ নাগ এরা বাবু কালচার নিয়ে কাজ করেছেন। ওরা বাদশাহী খেতাবের মধ্যে বাবু পাননি। রাজা, খান, চৌধুরি, রায়বাহাদুর, খা বাহাদুর ইত্যাদি উপাধি প্রচলিত ছিল।
১৮৭১ সালে একজন বাবু বাহাদুরের সন্ধান পাওয়া গিয়েছিল। ১৭৮০-৯০-এর আগে বাঙালি সম্ভ্রান্তদের বাবু উপাধি প্রায় নেই, আগেই বলেছি। কিন্তু ব্যক্তিগণ হিসাবে ‘বাবু’দেখা গিয়েছে। ‘বর্ধমান’ জমিদার বংশের আবু রায়ের ছেলের নাম বাবু রায়। ১৭০৫-১০ নাগাদ বাবু রায়ের জমিদারি ছিল। ১৭৬৬ সালে রাধাচরণ মিত্রের ফাঁসির হুকুম মকুবের জন্য বঙ্গ-বিহার-ওড়িশার কিছু বিশিষ্ট ব্যক্তি আবেদন করেছিলেন, তাদের মধ্যে একজনের নাম ছিল বাবুরাম পালিত। বিনয় ঘোষের বইতে দেখি— প্রথম দেশি মুদ্রণ যন্ত্রের মালিকের নাম বাবুরাম। মল্লিক পরিবার লাহা পরিবারের বংশতালিকাতেও বাবুরাম পাওয়া যায়। আর বাবুরাম সাপুড়ের কথা তো সবাই জানি। কিন্তু এই বাবুরা সবাই বিশেষ্য, বিশেষণ নয়।
ইস্ট ইন্ডিয়া কোম্পানির সঙ্গে ব্যাবসা পাতায় বেশ কিছু দেশি মানুষ। তারা অনেকেই পয়সাকড়ি করেছিলেন। তারা ক্রমশ বাবু নামে খ্যাত হতে থাকলেন। কিছুদিনের মধ্যে বাবু গুলিয়ে গেল কেরানিদের সঙ্গে। সাহেবি কোম্পানিগুলিতে যে সব বাঙালি কাজ করতেন, সাহেব রা ওদের বাবু বলতেন। বাবুদের অশুদ্ধ কৌতুককর ইংরেজিকে বলা হত বাবু’জ ইংলিশ। যেমন রথযাত্রা বোঝাতে বাবু বলছেন, উডেন টেম্পল। হুইল অ্যাট বটম। গড ইনসাইড, পুল-পুল-পুল গড়গড়... গড়গড়...। আবার ধনাঢ্য বেনিয়ান ও মুৎসুদ্দিদেরও বাবু বলা হতে লাগল। যেমন রামদুলাল বাবু, ছাতুবাবু, লাটুবাবু, তনুবাবু ইত্যাদি। কেরানিদের সঙ্গে এদের পৃথক করার জন্য কেরানি শব্দের পর বাবু বলা হত। কেরানিবাবু। আরও স্পষ্টভাবে আলাদা করার জন্য ধনাঢ্য বিলাসীদের নামের আগে বাবু বসানো হতে থাকে যেমন বাবু জগৎরাম মল্লিকবাবু রাধাকান্ত দেব, বাবু প্রসন্ন ঠাকুর...।
তিরিশ-চল্লিশ বছর পর এই প্রভেদটা আর রইল না। আশুতোষদের আশুতোষবাবু রাজেন্দ্র দত্ত রাজেনবাবু। কেশবচন্দ্র সেন থাকলেন। এই ধারাবাহিকতাতেই রবিবাবু, বঙ্কিমবাবু, শরৎবাবু থেকে জ্যোতিবাবু।
কিন্তু এই বাবু বিশেষণ বা সম্বোধন হিন্দুদের ক্ষেত্রেই প্রযোজ্য ছিল। মুসলমানদের সম্মানসূচক বিশেষণ হল সাহেব। যেমন জিন্না সাহেব, সুধাওদি সাহেব, ফজলুল হক সাহেব ইত্যাদি। এই প্রসঙ্গে একটি সাম্প্রতিক কবি সম্মেলনের কথা বলি। সঞ্চালক কবিদের আহ্বান করছেন। শ্রীরণজিত দাস, শ্রীসব্যসাচী দেব ইত্যাদি। এবার সৈয়দ কওসর জামান সাহেব। কওসর সঞ্চালকের দিকে তাকিয়ে মৃদু হেসে বললেন— আমাকে দেখতে কি সাহেবের মতো মনে হচ্ছে?
এরকম একটা বিচ্ছিরি প্রথা সংগীত জগতেও দেখি। বড় মাপের মুসলমান সংগীত শিল্পীদের নামের আগে ওস্তাদ এবং হিন্দু শিল্পীদের নামের আগে পণ্ডিত বসানো হয়। যেখানে সাহেব কিংবা বাবু থাকে না, সেখানেও ধর্মীয় বিভাজন। হিন্দুদের নামের আগে শ্রী, মুসলমানদের ক্ষেত্রে জনাব। কর্পোরেট জগতে অবশ্য সবাই মিস্টার।
আঠারো শতকের শেষ দিকের ইংরেজি খবর কাগজগুলিতে Mr.-এর বিকল্প হিসাবে এদেশীয় সম্ভ্রান্তদের নামের আগে বাবু বলা হত। কিন্তু ব্রাহ্মণ পণ্ডিতেরা যতই ধনী হোক না কেন, বাবু হননি। বিদ্যাসাগর একসময় বিস্তর পয়সাকড়ি করেছিলেন, কিন্তু বাবু ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর হতে পারেননি। আর একটা মজার ব্যাপার বাঙালি হিন্দুরাই কেবল বাবু হলেন। পাশের রাজ্য অসম এবং ওড়িশাতেও নামের সঙ্গে বাবু বলার চল আছে যেমন অক্ষয়বাবু, রিজুবাবু, নবীনবাবু। কিন্তু উত্তর ভারতে নেই। লালুবাবু কেজরিয়ালবাবু হয় না। লালুজি হয়। মোদিবাবুও হয়, সেটা রাজনৈতিক রাগ দেখানোর জন্য। ব্যাঙ্গার্থে বাবু উচ্চরাণের সময় বা ধ্বনির পর ‘আ’ ধ্বনি একটু দীর্ঘ করা হয়। জ্যোতি বা-আ-আ-বু, বুদ্ধ বা-আ-আ-বু যেমন।
বাবু সম্বোধন এখন বেশ চাপে আছে। বাবুরাই এজন্য দায়ী। সে সময়ের বাবুরা যে সমস্ত কাণ্ড-কারখানা করেছেন, তা ধরা আছে টেকচাঁদের আলালের ঘরের দুলাল। ভবানীচরণের নববাবু বিলাস, কালীপ্রসন্নের হুতোম ইত্যাদি বইতে এবং গত কয়েক দশকের বাবু চর্চার বাবু শব্দটার ব্যবহার কমিয়ে দিয়েছে। ৫০/৬০ বছর আগেও কলেজে ছাত্ররাও বাবু যুক্ত হত।
এখন কেউ বাবু যুক্ত করে না। হাউসে বসরাও দাদা। বস যদি বয়সে বেশ বড় হয়, তখন দাদা বলা মুশকিল, অন্য উপায় বের করতে হয়। মেয়েরা বয়স নির্বিশেষ পরস্পরকে দিদি বলতে পারে। লেখক কবিরাও দাদাই হন। সুনীলবাবু, শক্তিবাবু, সুভাষবাবু, জয়বাবু নয়, সুনীলদা, শক্তিদা। ব্যতিক্রম শঙ্খ ঘোষের মতো প্রবল ব্যক্তিবানদের ক্ষেত্রে। শঙ্খ ঘোষকে শঙ্খদা ডাকা যায় না।
জ্যোতিদা ডাকতে পারতেন না ওর কমরেডরা। অর্মত্য সেনকে অর্মত্যদা ডাকা যায়না, আবার অর্মত্যবাবু বলাও মুশকিল। সব মিলিয়ে বাবু বড় মিষ্টি শব্দ। কতরকম রূপ।
যখন বলি বাবু হয়ে বসো— বুঝতে হবে মেঝেতে অনেকটা অর্ধ পদ্মাসনে বসতে হবে। যদি বলি বাবুসোনা— সব সময় আদর বোঝায় না। ব্যাঙ্গও বোঝায়। খবর কাগজে আমার একটি নিবন্ধের সঙ্গে সহমত না হয়ে একজন বিখ্যাত কবি অন্য নিবন্ধে আমাকে বাবুসোনা সম্বোধন করেছিলেন। বাদল সরকারের একটি পথ নাটিকায় বাবুচন্দ’র শব্দটা গালাগালির মতোই ব্যবহৃত হয়েছিল। ফুলবাবু শব্দটাও ‘ব্যাঙ্গার্থে’ই ব্যবহৃত হয়।
বঙ্কিমচন্দ্র বলেছিলেন, বিষ্ণুর ন্যায় বাবুদেরও দশম অবতারের নাম হল নিষ্কর্মা।
বঙ্কিমের পর আমরা এখন আরও দশ শতাব্দী পেরলাম। এখন বাবু কালচার পালটেছে অনেকটাই। নব্য বাবুরা বাগান বাড়িতে বাইজি নাচায় না, ডিস্কো থেকে নিজেরাই নাচে। বাবরি রাখে না, মাশরুম ছাঁট দেয়। ইংরেজের নয়, শাসকদলের কাছাকাছি থাকে। আতর নয়, ‘ডিও’ মাখে। লেবুর শরবত নয় লেমন জুস খায়। দই নয়, ইয়োগার্ট। এই নব্যবাবুদের ঘরে রান্না কম, বাইরের খাবার বেশি। গায়ে ফ্যাট হলে জিমে যাওয়া। এইসব ড্যানচিবাবুদের নিত্যনতুন নাম। ক্যামেরাবাবু, ভিডিওবাবু, ঘোড়াবাবু, বেনারসিবাবু ইত্যাদি। সেদিন শুনলাম বিরিয়ানিবাবু।
30th  April, 2017
বুঝিবে ফাজিল অঙ্ক শুভঙ্কর ভনে 

আমরা একটি সিরিজ শুরু করছি— ‘কিংবদন্তির নায়ক-নায়িকা’। আমরা কথা প্রসঙ্গে এমন সব পুরুষ মহিলার নাম কথা প্রসঙ্গে নিয়ে থাকি, যাঁরা খুব যেন পরিচিত, কিন্তু তাঁদের সম্পর্কে এমন কিছুই জানি না। তাঁদের ঘিরে নানান গল্পগুজব গড়ে উঠেছে। বিশদ

28th  May, 2017
বাংলা নাটক 

স্বপ্নময় চক্রবর্তী:  কলকাতায় একটা যাত্রাপাড়া আছে, ওখানে বিভিন্ন যাত্রা কোম্পানিগুলির অফিস, ওখান থেকেই বুকিং হয়। রিহার্সাল কোথায় হয় জানি না। রবীন্দ্র সরণির নতুন বাজার থেকে আহেরিটোলার মোড় পর্যন্ত ৩০০-৩৫০ মিটার দূরত্বের মধ্যে এখনও কমপক্ষে ৩০-৩৫টি যাত্রাদলের গদি রয়েছে।
বিশদ

28th  May, 2017
মারুবেহাগ
 

ভাস্কর গুপ্ত:   ১  সাড়ে সাতটা বেজেছে। টিভি’টা বন্ধ করে বারান্দায় এসে দাঁড়ায় সুনীপা। তিনতলার এই দু’কামরার ছোট্ট ফ্ল্যাটের বারান্দাটাও সেই মাপে। তবুও এই বারান্দাটা খুব পছন্দের সুনীপার।
বিশদ

28th  May, 2017
গুরুর নির্দেশে শবসাধনায় বসলেন তারানাথ 

অপূর্ব চট্টোপাধ্যায়:  হাতে আর খুব বেশি সময় নেই। আর মাত্র কয়েক ঘন্টা। তারপরই শুরু হবে এক নতুন জীবন। তারাপীঠে আসার পর থেকে তারানাথও খুব প্রয়োজন ছাড়া গুরুর কাছ ছাড়া হচ্ছেন না এবং বামদেবও চাইছেন শিষ্য তাঁর আশেপাশেই থাকুন।
বিশদ

21st  May, 2017
ভা লো মা নু ষ - ম ন্দ মা নু ষ 
সাতক্ষীরের দীপ্তিময় মল্লিক

 অমর মিত্র: দীপ্তিময়, দীপ্তি মল্লিকের বয়স ৭৫-এর মতো। তিনি পিতৃপুরুষের ভিটে ছাড়েননি। দীপ্তি মল্লিকের সঙ্গে আমার দেখা বাংলাদেশের সাতক্ষীরেয় আমার পিতৃপুরুষের ফেলে আসা ভিটে দেখতে গিয়ে। তিনি শিক্ষক ছিলেন। একটি কন্যা এবং এক পুত্র।
বিশদ

21st  May, 2017
সন্ধ্যাতারা 

পাপিয়া ভট্টাচার্য:  সেন্ট্রালের সামনে ওকে নামিয়ে দিয়ানা বলল, ‘সরি বনি, আমি আর ওয়েট করব না। তুমি ঠিকঠাক চলে যেও। ফোন করব। সরি এগেইন।’
গ্যাসচালিত ধোঁয়াহীন বাইকটা ঝড়ের বেগে বেরিয়ে যাবার পর খেয়াল হল তার, ইস, আবারও সেই একই ভুল।
বিশদ

21st  May, 2017
তিথির সঙ্গে কিছুক্ষণ 

আশিস ঘোষ:  ঠিক সন্ধের শুরুতে তিথি এল। কখন থেকে দাঁড়িয়ে আছি। কত বাস, মিনিবাস, ট্যাক্সি দাঁড়াল। লোকজন ওঠানামা করল। তিথি আর আসে না। ক্লান্ত বিরক্ত হয়ে চলে যাব কিনা ভাবছি, এমন সময় তিথি এল। ঠিক সন্ধের শুরুতে। বিশদ

14th  May, 2017
গানের ভিতর দিয়ে 

স্বপ্নময় চক্রবর্তী:  বাঙালির মনন বাংলা গানকে বলেছে তুমি নব নব রূপে এসো প্রাণে। বাংলা গান এসেছে নবনব রূপে। কিন্তু কানে এসেছে প্রাণে নয়। সেই কবিওয়ালাদের গান থেকে রামপ্রসাদ-নিধুবাবু হয়ে সলিল চৌধুরি হয়ে আজকের ব্যান্ডের গান পর্যন্ত নব নব রূপেই এসেছে।
বিশদ

14th  May, 2017
ইতিহাসের আলোছায়ায় 
টোডার মল

বৈদ্যনাথ মুখোপাধ্যায়: টোডার মল ছিলেন আকবর বাদশার প্রথম রেভিনিউ মিনিস্টার এবং দক্ষ ভূমি ও ভূমিরাজস্ব ব্যবস্থার যথার্থ রূপকার। তাঁর জন্ম হয়েছিল লাহোরে। অতি সাধারণ পরিবারে জন্ম। বাদশার কাজে তিনি যোগ দেন পূর্ব অভিজ্ঞতা ছাড়া। বিশদ

14th  May, 2017
জ্বলন্ত চিতায় তারামাকে দর্শন করলেন তারানাথ  

পর্ব-১৬
অপূর্ব চট্টোপাধ্যায়:  মাসটা কার্তিক। বেশ ঠাণ্ডাও পড়েছে। প্রায় বাহাত্তর ঘন্টা ট্রেন- সফর করে বীরভূমের মল্লারপুর স্টেশনে এসে নামলেন ব্রহ্মচারী প্রমথেশ। রামপুরহাটের আগের স্টেশনটিই মল্লারপুর। বিশদ

07th  May, 2017



একনজরে
নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ফরেনসিক রিপোর্ট তৈরির শ্লথতা নিয়ে অভিযোগ রয়েছে বিস্তর। আর সেকারণেই ঘটনাস্থলে পৌঁছে দ্রুত ফরেনসিক রিপোর্ট তৈরির জন্য এক বছর আগে পুলিশকে দেওয়া হয়েছিল চারটি গাড়ি। এই গাড়িগুলি ফরেনসিক রিপোর্ট তৈরির উপযোগী যাবতীয় পরিকাঠামোয় সজ্জিত। ...

সংবাদদাতা, রামপুরহাট: ময়ূরেশ্বরের বড়তুড়িগ্রামে তৃণমূল কর্মী খুনের ঘটনায় নয়া মোড়। শুধুমাত্র গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব, জমি সংক্রান্ত বিবাদের জেরেই নয়, খুনের পিছনে কাজ করেছে পুরানো আক্রোশও। ধৃতদের জেরা করে এমনটাই পুলিশ জানতে পেরেছে। উল্লেখ্য, শনিবার সকালে বাড়ি থেকে কিছুটা দূরে আসগর আলি নামে ...

নয়াদিল্লি, ২৯ মে (পিটিআই): সাংবাদিক রাজদেও রঞ্জন হত্যা মামলায় আরজেডি নেতা সাহাবুদ্দিনকে হেপাজতে নিল সিবিআই। কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার সূত্রে জানানো হয়েছে, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাহাবুদ্দিনকে এজেন্সির ...

সংবাদদাতা, শিলিগুড়ি: শিলিগুড়িতে এবছর মাধ্যমিক পরীক্ষায় ৭৫ শতাংশের বেশি নম্বর পাওয়া ছাত্রছাত্রীদের সংখ্যা অন্য বছরগুলির তুলনায় অনেকটাই বেশি বলে মধ্যশিক্ষা পর্ষদের উত্তরবঙ্গ আঞ্চলিক কার্যলয় সূত্রে জানা গিয়েছে। ...


আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

ব্যাবসাসূত্রে উপার্জন বৃদ্ধি। বিদ্যায় মানসিক চঞ্চলতা বাধার কারণ হতে পারে। গুরুজনদের শরীর স্বাস্থ্য ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৭৪৪: ইংরেজ লেখক আলেক্সজান্ডার পোপের মৃত্যু
১৭৭৮: ফ্রান্সের লেখক এবং দার্শনিক ভলতেয়ারের মৃত্যু
১৯১২: বিমান আবিষ্কারক উইলবার রাইটের মৃত্যু
১৯১৯: জালিয়ানওয়ালাবাগ হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ‘নাইট’ উপাধি ত্যাগ
১৯৪৫: অভিনেতা ধৃতিমান চট্টোপাধ্যায়ের জন্ম
১৯৫০: অভিনেতা পরেশ রাওয়ালের জন্ম
২০১৩: চিত্র পরিচালক ঋতুপর্ণ ঘোষের মৃত্যু




ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৩.৭০ টাকা ৬৫.৩৮ টাকা
পাউন্ড ৮১.৩৮ টাকা ৮৪.১৮ টাকা
ইউরো ৭০.৮৭ টাকা ৭৩.২৩ টাকা
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ২৯,৩৪৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ২৭,৮৪০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ২৮,২৬০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪০,৩০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪০,৪০০ টাকা

দিন পঞ্জিকা

 ১৬ জ্যৈষ্ঠ, ৩০ মে, মঙ্গলবার, পঞ্চমী দিবা ৮/৪৭, পুষ্যানক্ষত্র দিবা ১১/৫৭, সূ উ ৪/৫৫/৪৯, অ ৬/১২/১৩, অমৃতযোগ দিবা ৭/৩৪ পুনঃ ৯/২১-১২/০ পুনঃ ৩/৩১-৪/২৫, বারবেলা ৬/৩৬-৮/১৫ পুনঃ ১/১৩-২/৫৩, কালরাত্রি ৭/৩২-৮/৫৩।
১৫ জ্যৈষ্ঠ, ৩০ মে, মঙ্গলবার, পঞ্চমী ২/১৯/৫, পুষ্যানক্ষত্র অপরাহ্ণ ৫/২৮/৪৩, সূ উ ৪/৫৪/৪৫, অ ৬/১২/৩৬, অমৃতযোগ দিবা ৭/৩৪/১৯, ৯/২০/৪২-১২/০/১৬, ৩/৩৩/২-৪/২৬/১৩ রাত্রি ৬/৫৫/২৫, ১১/৫৫/৫-২/৩/৩১, বারবেলা ৬/৩৪/২৯-৮/১৪/১৩, কালবেলা ১/১৩/২৪-২/৫৩/৮, কালরাত্রি ৭/৩২/৫২-৮/৫৩/৮।
৩ রমজান

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
চিকিৎসক হতে চায় উচ্চ মাধ্যমিকে তৃতীয় বাঁকুড়া জেলা স্কুলের সুরজিৎ লোহার 

10:54:51 AM

উচ্চ মাধ্যমিকে তৃতীয় (৯৭.৮%) শুভম সিংহ ও সুরজিৎ লোহার (বাঁকুড়া জেলা স্কুল) 

10:49:32 AM

উচ্চ মাধ্যমিকে প্রথম অর্চিষ্মাণ পানিগ্রাহি ( হুগলি কলেজিয়েট স্কুল) 

10:45:00 AM

উচ্চ মাধ্যমিকে দ্বিতীয় (৯৮.৪%) ময়াঙ্ক চট্টোপাধ্যায় (মাহেশ শ্রীরামকৃষ্ণ বিদ্যাভবন), উপমন্যু চক্রবর্তী (নরেন্দ্রপুর রামকৃষ্ণ মিশন) 

10:39:06 AM

সাফল্যের নিরিখে শীর্ষে পূর্ব মেদিনীপুর 

10:15:00 AM

সংসদের ওয়েবসাইটে এবার জেলাওয়াড়ি সেরাদের নাম ও স্কুলের নাম প্রকাশিত হবে 

10:13:00 AM






বিশেষ নিবন্ধ
এবারই প্রথম নয়, ’৯৯-এ কারগিল যুদ্ধেও পাক সেনারা নৃশংসতার নজির রেখেছিল
সীমান্তরক্ষায় অনেকদিন কাটানো পোড়খাওয়া এক ক্যাপ্টেন একদিন দার্শনিকের ঢঙে বললেন, আমরা এটুকুই বুঝি—যুদ্ধক্ষেত্রে জীবন মানে ...
 লালবাজার অভিযান: মমতার চালে বিজেপি মাত!
শুভা দত্ত: সিপিএমের নবান্ন অভিযানের ধাঁচে লালবাজার অভিযান করে রাজ্যবাসীকে চমকে দিতে চেয়েছিল রাজ্য বিজেপি। ...
 হুট বলতে ফুট কাটার অসুখ
 সৌম্য বন্দ্যোপাধ্যায়: আমার এক বন্ধু প্রায়ই ভারী অদ্ভুত অদ্ভুত কথা বলে। যেমন, জ্বর-জ্বালা, বুক ধড়ফড়ানি, ...
নদী তুমি কার
বিশ্বজিৎ মুখোপাধ্যায়: ১৯৪৭ সালে দ্বিখণ্ডিত স্বাধীনতা কেবলমাত্র মানুষকে ভাগ করেনি, প্রাকৃতিক সম্পদেও ভাঙনের সাতকাহন সূচিত ...
চীন, পাকিস্তান বেজিংয়ে ফাঁকা মাঠ পেয়ে গেল ভারতের কূটনৈতিক ভুলের কারণে
কুমারেশ চক্রবর্তী: মাত্র কিছু দিন আগে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ামক সংস্থা আইসিসি’র এক ভোটে ৯-১ ভোটে ...