রঙ্গভূমি
 

 বেহালা বাতায়নের অবয়ব

 আমরা একটা মানুষকে যেভাবে দেখি, অন্যরাও কি সেভাবেই দেখে? অর্থাৎ আমার চোখে একটা মানুষের যে প্রতিচ্ছবি, সেই একই ছবিই কি ভেসে ওঠে অন্য মানুষের চোখে? যে মুখের ভাঁজে, ভ্রূ’র কুঞ্চনে, চোখের দৃষ্টিতে কেউ স্নেহ খুঁজে পায়, সেই একই ভাঁজে, মুখের হাসিতে অন্য কেউ স্বার্থপরতা খুঁজে পায় কি? নাকি মনে মনে এই অবয়ব বানানোর যে প্রক্রিয়া সেটা আসলে নির্ভর করে স্বার্থের উপর? সময় বয়ে যাওয়ার সঙ্গে বদলে যায় সম্পর্ক, বদলে যায় স্বার্থ— তার সঙ্গে অবয়ব!
বড় কঠিন প্রশ্নের সামনে দাঁড় করিয়ে দেয় শৌনক। কিন্তু কে সে? শৌনকের সম্পর্কে আমরা জানতে পারি লেখক অগ্নিভ’র কাছ থেকে। সাহিত্যিক অগ্নিভ তাঁর স্ত্রী ঈশাকে একটা গল্প বলতে শুরু করেন। সেই গল্পেরই চরিত্র শৌনক। আসলে সে আমার আপনার মতোই দিশাহীন এক মানুষ যে বাস করে কোটি কোটি উইয়ের বানানো ঢিপির মতো শহরে। আর প্রতিদিন কিলবিল করা মানুষের ভিড়ে একটা আলাদা কিছু করার তাড়নায় অস্থির হয়ে ওঠে। গা থেকে ঝেড়ে ফেলতে চায় মধ্যবিত্তর ছাপ। প্রতিমুহূর্তে প্রমাণ করতে চায় সে আর পাঁচটা মানুষের থেকে আলাদা!
বিজ্ঞাপন সংস্থায় জিংগল লেখে শৌনক। তবু সে চায় নিজের মতো করে গান রচনা করতে। সেখানেও ব্যর্থ হয় সে। আসলে ধরাবাঁধা চাকরি করে কি অন্য রকম কিছু করা সম্ভব? কিন্তু চাকরি ছাড়তে হলে সংসার চালাবে কে? শৌনকের স্ত্রী অনুভা সামান্য গৃহবধূ। সে একটা চাকরি নিলেই সমস্যাটা মিটে যায়। বিধি বাম! অনুভা আবার সরকারি চাকরির পরীক্ষার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে! শৌনক এবার কী করবে? এই অনুভাকেই কি সে ভালোবেসে বিয়ে করেছিল? ক্রমশ চাকুরিস্থলে, সংসারে নিজের জমি হারাতে থাকে শৌনক। অনুভা কি আদৌ শৌনককে বোঝে? না হলে কেনই বা সে বলবে শৌনকের গান খুব সাধারণ মনে হয় তার? শেষ পর্যন্ত মুম্বইয়ে বিখ্যাত এক সংস্থায় চাকরির চিঠি আসে শৌনকের কাছে। অথচ তখনই অনুভা জানায়, সে সন্তানম্ভবা! কেরিয়ার গড়ার সময়ে এই দায়িত্ব নেওয়া শৌনকের পক্ষে সম্ভব হয় না। অতঃপর অনুভা ছেড়ে চলে যায় শৌনককে।
গল্প যত এগতে থাকে ততই গল্পকার আর তার সৃষ্ট চরিত্ররা মিশতে শুরু করে একে অপরের সঙ্গে! সাহিত্যিক অগ্নিভ’র মুখেই জানা যায়— অন্ধকারে হারিয়ে যাচ্ছিল শৌনক। আর তখনই হ্যামলিনের বাঁশিওয়ালার মতো এক ‘অন্য মানুষ’ বা শৌনকেরই অলটার ইগোর আবির্ভাব ঘটে। এরপর কী হয়? সেটা জানতে হলে নাট্যমোদী মানুষরা দেখতে যেতে পারেন বেহালা বাতায়নের প্রযোজনায় ও নবকুমার বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশিত ‘অবয়ব’ নাটকটি। সম্প্রতি নাটকটি মঞ্চস্থ হল রবীন্দ্রসদনে।
‘স্টোরি উইদিন এ স্টোরি’র আদলে এই নাটকের চিত্রনাট্য লিখেছেন কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়। চলচ্চিত্রের মতোই কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়ের লেখা এই নাটকেও রয়েছে ঘনঘন বর্তমান এবং অতীত সময়ের ফ্ল্যাশব্যাক। নাটকের উপস্থাপনার ক্ষেত্রে তা বড়সড় চমক বৈকি। একইসঙ্গে বলতে হয়, ফ্ল্যাশব্যাকের ব্যবহার ঘনঘন হওয়ায় মাঝেমধ্যে দৃশ্যপটের পরিবর্তন ও সময়কাল চট করে বোঝা কিছুটা কঠিন হয়ে পড়ে। কষ্ট হয় বুঝতে যে ঠিক কার কথা বলার জন্য কমলেশ্বরবাবু এই চিত্রনাট্য লিখেছেন? শৌনকের কথা বলার জন্য? নাকি কোনও এক শিল্পীর ‘শিল্পী’ না হয়ে ওঠার যন্ত্রণা বোঝানোর জন্য? অথবা শৌনকের সঙ্গে অনুভার সম্পর্কের টানাপোড়েন ব্যক্ত করার জন্য?
আমরা মঞ্চে দেখি এক যুবককে। স্ত্রী তাকে ছেড়ে চলে যাওয়ায় সে শোকে ভারাক্রান্ত। অথচ সেই যুবক নিজের অহংবোধকে ত্যাগ করে স্ত্রীর কাছে ফিরে যাওয়ার চেষ্টা করে না। আবার তারই স্মৃতিতে দেখতে হয় কীভাবে শৌনক নিজের বাসনা সার্থক করার জন্য নিজের স্ত্রী’কে ব্যবহার করতে চেয়েছিল। আর এখানেই নাট্যকারের সঙ্গে দর্শকের যুক্তিবোধে সংঘাত বাধে— এই নাটক আমরা শুধু শৌনকের নজর দিয়েই দেখব কেন? ২০১৭ সালে দাঁড়িয়ে এক স্বার্থপর মধ্যবিত্ত মেকি বুদ্ধিজীবী পুরুষের ঘ্যানঘ্যানানি শুনে পড়াশোনা জানা একটি মেয়ে সংসারে ফিরবে কি ফিরবে না সেই সাসপেন্সে নিজের স্নায়ু অবশ করব কেন? তাও আবার একটানা দু’ঘন্টা ধরে?
এবার আসা যাক দ্বিতীয় প্রশ্ন বা শৌনকের শিল্পবোধের প্রসঙ্গে। আমরা দেখি— শৌনক গান লেখে এবং গান করে। যেটুকু করে সেটুকুর সবটাই বিজ্ঞাপন সংস্থার চাহিদা অনুযায়ী। এই কাজ করতে করতে সে মৌলিক চিন্তাভাবনা হারিয়ে ফেলে। গাড়িতে বসে সে ভুলে যায় সাধারণ মানুষের জীবনযাপনেই লুকিয়ে রয়েছে সাহিত্যের রসদ। মানুষকে এড়িয়ে, জীবনকে এড়িয়ে তো আর শিল্প হয় না। শৌনক ঠিক এই ভুলটাই করছিল। সে ভুলতে বসেছিল শিল্প সৃষ্টি হয় মনের তাগিদে, হদয়ের উল্লাসে। কোনও সংস্থার চাহিদায় যে কাজ হয় তাকে শিল্প বলে না— বলে চাকরি! তাই এক চাকরি ছেড়ে অন্য বড় সংস্থায় চাকরি করতে গেলে আলাদা কিছু করা হয় না। আর এই কথাটাই বহু আগে অনুভা খুব সহজভাবে শৌনককে বুঝিয়ে দেয়— শৌনকের গান, জীবনযাত্রা আসলে কোনওটাই তার নিজের নয়। সহজ কথাটা অনুভার কাছে শুনে শৌনক সহ্য করতে পারে না। তার পৌরুষে আঘাত লাগে। শৌনকের চোখে বদলাতে থাকে অনুভার অবয়ব। অর্থাৎ ঘুরেফিরে আবারও সেই শৌনকেই ফিরতে হয় দর্শককে! গোটা নাটক জুড়ে অনুভা থাকে শৌনক এবং দর্শকের অনুকম্পা প্রার্থী হয়ে। এই নাটকে কোথাও তার চরিত্রের উত্তরণ দেখা যায় না। শৌনকের চরিত্রের উত্তরণই বা কোথায় মেলে? তবে এত কিছু অমিল হলেও বড় ভালো লাগে অনুভার চরিত্রে সোহিনী সরকারের আটপৌরে অভিনয়। শৌনকের ভূমিকায় সাহেব ভট্টাচার্য যথেষ্ট বিশ্বাসযোগ্য। এই দু’জনের কেমিস্ট্রি দেখার জন্যই নাটকটি দেখা যেতে পারে। অন্যদিকে মনীশের ভূমিকায় অভিজিৎ লাহিড়ি, অগ্নিভ’র ভূমিকায় শ্রীদীপ চট্টোপাধ্যায়, ঈশার ভূমিকায় প্রিয়াঙ্কা মণ্ডল এবং অন্য মানুষের চরিত্রে নবকুমার বন্দ্যোপাধ্যায়ের অভিনয় যথাযথ। সমীর-সোমুর আবহ এবং উত্তীয় জানার আলোকসম্পাত নাটকের প্রয়োজন অনুযায়ীই হয়েছে। ধনঞ্জয় মণ্ডলের মঞ্চভাবনাও যথেষ্ট অভিনব।
07th  May, 2017
 দর্শককে আয়নার সামনে দাঁড় করায় শেষ বেলায়

 সম্প্রতি মিনার্ভা থিয়েটারে অনুষ্ঠিত হল ভিন্টেজ থিয়েটার প্রযোজিত নাটক ‘শেষ বেলায়’। নাটকের বিষয়বস্তু ও অভিনয়গুণে প্রযোজনাটি হয়ে উঠেছে মনোগ্রাহী। আজকের সমাজ ব্যবস্থায় জীবনের শেষ বেলায় এসে প্রায় প্রতিটি মানুষই বঞ্চিত হন নির্মল স্নেহ, মমতা ও সম্মানের পরশ থেকে। এই বঞ্চনা আসে সমাজের নানা স্তর থেকে নানাভাবে, নানা রূপে। বিশেষত নিজের পরিবার ও প্রিয়জনেরাই অবজ্ঞাভরে দূরে সরিয়ে রাখে বৃদ্ধ মানুষগুলোকে।
বিশদ

21st  May, 2017
অন্তসলিলের মধ্যে জনপ্রিয় হয়ে ওঠার উপাদান আছে

 ভারতীয় সংগীত জগতের এক উজ্জ্বল নক্ষত্র সলিল চৌধুরী। ভারতীয় সংগীতের ইতিহাস লিখতে গেলে একেবারে প্রথম দিকেই নাম থাকবে তাঁর। সুরের জগত থেকে তিনি বিদায় নিয়েছেন ১৯৯৫ সালে। এই মহান সুরস্রষ্টার জীবনকেন্দ্রিক একটি নাটক ‘অন্তঃসলিল’ নিয়মিত মঞ্চস্থ করছে ‘অভিনেয় নাট্য সংস্থা’।
বিশদ

21st  May, 2017
নারীর কথাই বলে অনীকের শকুন্তলা

 শকুন্তলা—পৌরাণিক এই নারীর সামাজিক অবস্থান সে সময়ে যা ছিল, আজকের সময়ের প্রেক্ষাপটে সামগ্রীকভাবে নারীজাতির সেই অবস্থান যে বদলেছে তা হলফ করে বলা যায় না। লাঞ্ছনা, বঞ্চনা থেকে শুরু করে নারীর পণ্য হয়ে ওঠার নারকীয় প্রয়াস আজও সভ্য সমাজেও ঘটে চলেছে। ‘শকুন্তলা’ নাটকটি সেই কথাই নতুন করে তুলে ধরল দর্শকদের কাছে। এ নাটক প্রাচীন ও সাম্প্রতিকের মেলবন্ধনে গড়ে ওঠা এক আত্মবিশ্লেষণের প্রতিচ্ছবি যেন।
বিশদ

21st  May, 2017
যোজকের জলদান

 সিনেমা-থিয়েটারে সাধারণত পুলিশকে নেতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি থেকেই দেখানো হয়ে থাকে। কিন্তু পুলিশ সাধারণ মানুষকে ভালো রাখতে প্রতিদিন প্রতিনিয়ত যে অমানুষিক পরিশ্রম করে থাকে তার দিকে জনতার দৃষ্টি আকর্ষণের চেষ্টা কমই হয়ে থাকে।
বিশদ

21st  May, 2017
মৃদঙ্গমের উৎসব

 গত ২৪ থেকে ২৭ মার্চ উত্তর চব্বিশ পরগনার গোবরডাঙায় হয়ে গেল মৃদঙ্গম নাট্যদলের নাট্য উৎসব। পশ্চিমবঙ্গ ছাড়াও অসমের নাট্যদলও এই উৎসবে অংশগ্রহণ করে। চারদিন ব্যাপী মোট ১০টি নাটক মঞ্চস্থ হয়। তাছাড়া তিনটি নৃত্যানুষ্ঠানও হয়।
বিশদ

21st  May, 2017
 লুপ্তপ্রায় নাট্যআঙ্গিক দাস্তানগোই

 প্রায় হারিয়ে যেতে বসা এক নাট্যআঙ্গিক দাস্তানগোই। প্রাচীনকালে মুঘল বাদশাহ এবং আমির-ওমরাহদের মেহফিলে দেখা যেত এই আঙ্গিকটি। সম্প্রতি কলকাতায় এক ঘরোয়া অনুষ্ঠানে তার পুনরুদ্ধারের প্রয়াসের সাক্ষী ছিলেন মানসী নাথ। বিশদ

14th  May, 2017
ট্র্যাজেডির রঙ্গ কৌতুক: একটি মৃত্যু আলেখ্য

 শেকসপিয়রের ট্র্যাজেডি হ্যামলেটের দুটি অকিঞ্চিৎকর চরিত্রকে নিয়ে নাট্যকার টম স্টপার্ড লিখেছিলেন এই নাটকটি। বহুব্রীহি নাট্যসংস্থা সেই নাটককেই হাজির করলেন বঙ্গ রঙ্গমঞ্চে। দেখে এলেন শিবানন্দ মুখোপাধ্যায়। বিশদ

14th  May, 2017
 শ্রেণি বৈষম্যের নাটক ‘জঠর যুদ্ধ’...

সমাজের প্রান্তিক মানুষের সঙ্গে উচ্চবর্গীয়দের লড়াই চিরকালীন। ক্ষমতাসীন লোকেরা সবসময় নীচের তলার মানুষের ওপর শোষন চালায়। তাদের দমিয়ে রাখার চেষ্টা করে। নিচুতলার মানুষরাও কখনও কখনও পেটের জ্বালায় তাদের বশ্যতা স্বীকার করে নেয়, নিজেদের মধ্যে ঝগড়া করে। বিশদ

14th  May, 2017
 শুভম নাট্যমেলা

সম্প্রতি মিনার্ভা থিয়েটারে তিনদিন ধরে হয়ে গেল শুভম নাট্যমেলা। হাজির হয়েছিল একগুচ্ছ ছেলেমেয়ে যারা শুভমের কর্মী। নিবেদন করল নানান স্বাদের নাটক। অভিনেতারা প্রত্যেকেই প্রায় কৈশোরে। দু’-একজন হয়তো সদ্য কৈশোর উত্তীর্ণ। বিশদ

14th  May, 2017
 খোকা ঘুমালো পাড়া জুড়ালো

  যাত্রায় অভিনয়ের সঙ্গে সঙ্গে পালা রচনা এবং নির্দেশনায় চলে এসেছেন শ্যামল চক্রবর্তী। চলতি ১৪২৩ সনেও তাঁকে এই ভূমিকাতেই দেখা যাচ্ছে। শ্যামলের প্রতিটা পালা-ভাবনাতেই আছে জীবন থেকে নেওয়া নানান ঘটনার প্রতিচ্ছবি।
বিশদ

14th  May, 2017



একনজরে
 মুম্বই, ২৯ মে (পিটিআই): শেয়ার বাজারের ঊর্ধ্বগতি চলছেই। এদিন মুম্বই শেয়ার বাজারের সূচক সেনসেক্স ৩১ হাজার ১০৯ পয়েন্টে শেষ হয়েছে। গত তিন দিন ধরেই সেনসেক্স ঊর্ধ্বমুখী। তিনদিনে ৮০০ পয়েন্টেরও বেশি উঠেছে সূচক। ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: দক্ষিণ কলকাতার নেতাজিনগরে তোলাবাজির অভিযোগে এক যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ধৃতের নাম সুশান্ত মাহাত। অভিযোগ, সে নেতাজিনগর থানার ৮বি, নাকতলা রোডে গত ২৬ মে সকাল ১১টা নাগাদ একটি বহুতলে কাজ চলার সময় কলকাতা পুরসভার স্বীকৃত ‘প্লাম্বার’ নিলয় ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ফরেনসিক রিপোর্ট তৈরির শ্লথতা নিয়ে অভিযোগ রয়েছে বিস্তর। আর সেকারণেই ঘটনাস্থলে পৌঁছে দ্রুত ফরেনসিক রিপোর্ট তৈরির জন্য এক বছর আগে পুলিশকে দেওয়া হয়েছিল চারটি গাড়ি। এই গাড়িগুলি ফরেনসিক রিপোর্ট তৈরির উপযোগী যাবতীয় পরিকাঠামোয় সজ্জিত। ...

নয়াদিল্লি, ২৯ মে (পিটিআই): সাংবাদিক রাজদেও রঞ্জন হত্যা মামলায় আরজেডি নেতা সাহাবুদ্দিনকে হেপাজতে নিল সিবিআই। কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার সূত্রে জানানো হয়েছে, জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাহাবুদ্দিনকে এজেন্সির ...


আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

ব্যাবসাসূত্রে উপার্জন বৃদ্ধি। বিদ্যায় মানসিক চঞ্চলতা বাধার কারণ হতে পারে। গুরুজনদের শরীর স্বাস্থ্য ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৭৪৪: ইংরেজ লেখক আলেক্সজান্ডার পোপের মৃত্যু
১৭৭৮: ফ্রান্সের লেখক এবং দার্শনিক ভলতেয়ারের মৃত্যু
১৯১২: বিমান আবিষ্কারক উইলবার রাইটের মৃত্যু
১৯১৯: জালিয়ানওয়ালাবাগ হত্যাকাণ্ডের প্রতিবাদে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের ‘নাইট’ উপাধি ত্যাগ
১৯৪৫: অভিনেতা ধৃতিমান চট্টোপাধ্যায়ের জন্ম
১৯৫০: অভিনেতা পরেশ রাওয়ালের জন্ম
২০১৩: চিত্র পরিচালক ঋতুপর্ণ ঘোষের মৃত্যু




ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৩.৭০ টাকা ৬৫.৩৮ টাকা
পাউন্ড ৮১.৩৮ টাকা ৮৪.১৮ টাকা
ইউরো ৭০.৮৭ টাকা ৭৩.২৩ টাকা
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ২৯,৩৪৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ২৭,৮৪০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ২৮,২৬০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪০,৩০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪০,৪০০ টাকা

দিন পঞ্জিকা

 ১৬ জ্যৈষ্ঠ, ৩০ মে, মঙ্গলবার, পঞ্চমী দিবা ৮/৪৭, পুষ্যানক্ষত্র দিবা ১১/৫৭, সূ উ ৪/৫৫/৪৯, অ ৬/১২/১৩, অমৃতযোগ দিবা ৭/৩৪ পুনঃ ৯/২১-১২/০ পুনঃ ৩/৩১-৪/২৫, বারবেলা ৬/৩৬-৮/১৫ পুনঃ ১/১৩-২/৫৩, কালরাত্রি ৭/৩২-৮/৫৩।
১৫ জ্যৈষ্ঠ, ৩০ মে, মঙ্গলবার, পঞ্চমী ২/১৯/৫, পুষ্যানক্ষত্র অপরাহ্ণ ৫/২৮/৪৩, সূ উ ৪/৫৪/৪৫, অ ৬/১২/৩৬, অমৃতযোগ দিবা ৭/৩৪/১৯, ৯/২০/৪২-১২/০/১৬, ৩/৩৩/২-৪/২৬/১৩ রাত্রি ৬/৫৫/২৫, ১১/৫৫/৫-২/৩/৩১, বারবেলা ৬/৩৪/২৯-৮/১৪/১৩, কালবেলা ১/১৩/২৪-২/৫৩/৮, কালরাত্রি ৭/৩২/৫২-৮/৫৩/৮।
৩ রমজান

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
চিকিৎসক হতে চায় উচ্চ মাধ্যমিকে তৃতীয় বাঁকুড়া জেলা স্কুলের সুরজিৎ লোহার 

10:54:51 AM

উচ্চ মাধ্যমিকে তৃতীয় (৯৭.৮%) শুভম সিংহ ও সুরজিৎ লোহার (বাঁকুড়া জেলা স্কুল) 

10:49:32 AM

উচ্চ মাধ্যমিকে প্রথম অর্চিষ্মাণ পানিগ্রাহি ( হুগলি কলেজিয়েট স্কুল) 

10:45:00 AM

উচ্চ মাধ্যমিকে দ্বিতীয় (৯৮.৪%) ময়াঙ্ক চট্টোপাধ্যায় (মাহেশ শ্রীরামকৃষ্ণ বিদ্যাভবন), উপমন্যু চক্রবর্তী (নরেন্দ্রপুর রামকৃষ্ণ মিশন) 

10:39:06 AM

সাফল্যের নিরিখে শীর্ষে পূর্ব মেদিনীপুর 

10:15:00 AM

সংসদের ওয়েবসাইটে এবার জেলাওয়াড়ি সেরাদের নাম ও স্কুলের নাম প্রকাশিত হবে 

10:13:00 AM






বিশেষ নিবন্ধ
এবারই প্রথম নয়, ’৯৯-এ কারগিল যুদ্ধেও পাক সেনারা নৃশংসতার নজির রেখেছিল
সীমান্তরক্ষায় অনেকদিন কাটানো পোড়খাওয়া এক ক্যাপ্টেন একদিন দার্শনিকের ঢঙে বললেন, আমরা এটুকুই বুঝি—যুদ্ধক্ষেত্রে জীবন মানে ...
 লালবাজার অভিযান: মমতার চালে বিজেপি মাত!
শুভা দত্ত: সিপিএমের নবান্ন অভিযানের ধাঁচে লালবাজার অভিযান করে রাজ্যবাসীকে চমকে দিতে চেয়েছিল রাজ্য বিজেপি। ...
 হুট বলতে ফুট কাটার অসুখ
 সৌম্য বন্দ্যোপাধ্যায়: আমার এক বন্ধু প্রায়ই ভারী অদ্ভুত অদ্ভুত কথা বলে। যেমন, জ্বর-জ্বালা, বুক ধড়ফড়ানি, ...
নদী তুমি কার
বিশ্বজিৎ মুখোপাধ্যায়: ১৯৪৭ সালে দ্বিখণ্ডিত স্বাধীনতা কেবলমাত্র মানুষকে ভাগ করেনি, প্রাকৃতিক সম্পদেও ভাঙনের সাতকাহন সূচিত ...
চীন, পাকিস্তান বেজিংয়ে ফাঁকা মাঠ পেয়ে গেল ভারতের কূটনৈতিক ভুলের কারণে
কুমারেশ চক্রবর্তী: মাত্র কিছু দিন আগে বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়ামক সংস্থা আইসিসি’র এক ভোটে ৯-১ ভোটে ...