Bartaman Patrika
আমরা মেয়েরা
 

বিস্মৃতপ্রায় সমসাময়িক কিছু
মহিলা সাহিত্যিক

আগে যখন আমাদের দেশের মেয়েদের মধ্যে প্রথাগত শিক্ষার অভাব ছিল তখন অনেকেই কিন্তু ঘর সংসারের ফাঁকে ফাঁকেই সাহিত্যসাধনা চালাতেন। বাস্তব নিয়ে সেইসব মহিলা সাহিত্যিকদের আবেগঘন সৃষ্টি পাঠকসমাজকে একসময় অভিভূতও করে তুলেছিল। কিন্তু আজ তাঁরা বিস্মৃত প্রায়। তাঁদেরই মধ্যে কয়েকজনের কথা বলি।
সাহিত্যিক নিরুপমা দেবী দু’জন ছিলেন। নিরুপমা দেবী (১) ও নিরুপমা দেবী (২)।
 নিরুপমা দেবী (১)— ইনি হৃদয়গ্রাহী সিনেমা অন্নপূর্ণার মন্দির, বিধিলিপি, শ্যামলীর লেখিকা। তিনি মুর্শিদাবাদ জেলার বহরমপুরে ১৮৮৩ সালে ৭ জানুয়ারি জন্মগ্রহণ করেন ও ৭ জানুয়ারিই ১৯৫১ সালে মারা যান। বৈধব্যের পরই তিনি জ্যেষ্ঠভ্রাতা বিভূতিভূষণ ভট্ট ও সাহিত্যিক শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের অনুপ্রেরণায় সাহিত্য সাধনায় ব্রতী হন। বিভূতিভূষণ ও শরৎচন্দ্র চট্টোপাধ্যায়ের হাতে লেখা পত্রিকায় তাঁর সাহিত্য রচনার হাতেখড়ি হয়েছিল। তাঁর প্রথম উপন্যাস ‘উচ্ছৃঙ্খল’। স্বদেশি যুগে তাঁর রচিত বহু গান এবং কবিতা খ্যাতিলাভ করেছিল। প্রেম ও দাম্পত্য জীবনের অন্তর্দ্বন্দ্ব তাঁর উপন্যাসের প্রধান উপজীব্য। ১৩১৯-২০ বঙ্গাব্দে প্রকাশিত ‘দিদি’ তাঁর শ্রেষ্ঠ উপন্যাস বলে স্বীকৃত। ১৯৩৮ সালে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় তাঁকে ভূবনমোহিনী স্বর্ণ এবং ১৯৪৩ সালে ‘জগত্তারিণী’ স্বর্ণপদক প্রদান করে। ১৯৪৩-এ বর্ধমান সাহিত্য পরিষদ কর্তৃক সম্মানিত হন।
 নিরুপমা দেবী (২)— ইনি বাল্যকাল থেকেই বাবা মায়ের অনুপ্রেরণায় কাব্য ও সাহিত্যের প্রতি অনুরাগী হন। ১৯২৩ থেকে ১৯৩১ সাল পর্যন্ত তিনি একটি সাহিত্য পত্রিকার সম্পাদিকা ছিলেন। তাঁর রচিত কবিতাগুচ্ছ ‘ধূপ’ ও ‘গোধূলি’ ১৩৩৫ বঙ্গাব্দে প্রকাশিত হয়। বিশের দশকে শান্তিনিকেতনে থাকার সময় তিনি সেখানে শিক্ষকতা করেন ও রবীন্দ্রনাথের ছোট গল্পের নাট্যরূপ দেন। চল্লিশের দশকে তিনি কিছুদিন গান্ধীজির সান্নিধ্যে ছিলেন। ১৯৪৩-এ গঠিত ‘কংগ্রেস সাহিত্য সংঘ’-এ যোগ দেন এবং ১৯৪৫ সালে সংঘ পরিচালিত অভ্যুদয় গীতিনাট্যের কাহিনীসূত্র গানের মালায় ছন্দিত করার দায়িত্ব পালন করেন। ১৯৪২ সালের আন্দোলনে ডায়মন্ড হারবার খাদি মন্দিরের অধিকাংশকর্মী যখন কারারুদ্ধ তখন স্বামীর সঙ্গে তিনি মধুসূদনপুর আশ্রমে এসে বসবাস শুরু করেন।
 অনুরূপা দেবী—১৮৮২ সালের ৯ সেপ্টেম্বর জন্মগ্রহণ করেন। অনুরূপা দেবীর স্ত্রীশিক্ষা প্রসারে যথেষ্ট অবদান থাকলেও মূলত তিনি ছিলেন মহিলা সাহিত্যিক। তাঁর চলচ্চিত্রায়িত উপন্যাসগুলির বিষয়বস্তু বিশেষভাবে মহিলাদের অবসরের আবেগঘন আলোচনা। তাঁর সৃষ্ট উপন্যাসগুলির মধ্যে রয়েছে ‘মন্ত্রশক্তি’, ‘মা’, ‘মহানিশা’, ‘পোষ্যপুত্র’, ‘বাগদত্তা’, ‘পথের সাথী’ প্রভৃতি। তিনি মোট তেত্রিশটি উপন্যাস ছাড়াও বেশ কিছু নাটকও রচনা করেন। ‘জীবনের শ্রুতিলেখা’ নামে আত্মজীবনীমূলক একটি লেখা ‘মাতৃভূমি’ পত্রিকায় তিনি লিখেছিলেন, কিন্তু তা সমাপ্ত করেননি।
শৈশব থেকেই তিনি সাহিত্যচর্চার পরিবেশের মধ্যে তিনি বড় হয়ে উঠেছিলেন। অনুরূপাদেবী রাণীদেবী ছদ্মনামে প্রথম গল্পটি লিখে ‘কুন্তলীন’ পুরস্কার পান।
 প্রভাবতী দেবী (সরস্বতী)— প্রভাবতী দেবী অবিভক্ত ২৪ পরগনা জেলার খাটুয়ায় ১৯০৫ সালের ৫ মার্চ জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর পিতার নাম গোপালচন্দ্র বন্দ্যোপাধ্যায় ও স্বামীর নাম বিধুভূষণ চৌধুরি। মাত্র নয় বছর বয়সে তাঁর বিবাহ নয়।
গৃহে পিতার সাহায্যেই তিনি শেলি, কিটস, বায়রন প্রভৃতি কবিদের কাব্যের সঙ্গে পরিচিত হন।
কোনও প্রথাগত শিক্ষা তাঁর ছিল না। কিন্তু পরবর্তীকালে ‘টিচার্স ট্রেনিং’ করে তিনি শিক্ষকতাও করেন। তাঁর প্রথম উপন্যাস ‘বিজিতা’। ১৩৩০ বঙ্গাব্দে ভারতবর্ষে বিজিতা বাংলায় ‘ভাঙাগড়া’, হিন্দিতে ‘ভার্বী’ ও মালায়লামে ‘কুলদেবতা’ নামে চিত্রায়িত হয়। তাঁর ‘পথের শেষে’ উপন্যাসটি ‘বাংলার মেয়ে’ নামে নাট্য রূপায়িত হয়ে দীর্ঘকাল সাফল্যের সঙ্গে অভিনীত হয়। ছোটদের জন্যও তিনি ‘কৃষ্ণা রোমাঞ্চ সিরিজ’ প্রকাশ করেন। মহিলা গোয়েন্দা হিসাবে কৃষ্ণার বাংলা সাহিত্যে আবির্ভাব। এছাড়াও তিনি ‘ইন্টারন্যাশনাল সার্কাস’ লিখেছেন। প্রায় তিনশো উপন্যাস রচনা করেছেন। কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় তাঁকে ‘লীলা’ পুরস্কারে সম্মানিত করে ও নবদ্বীপের পণ্ডিত সমাজ তাঁকে সরস্বতী উপাধি প্রদান করে।
১৯৫২ সালে তিনি ‘মহিলা আত্মরক্ষা সমিতি’-র সভাপতি হয়েছিলেন।
 রাণু ভৌমিক— তাঁর কর্মের পরিসরই ছিল লেখা। এই পথেই চলে তিনি বিশিষ্ট লেখিকা হয়ে উঠেছিলেন। পাচেঁর দশক থেকে আটের দশক পর্যন্ত লেখনীর মাধ্যমে তিনি মানুষের মন জয় করে নিয়েছিলেন। তাঁর লেখা কলকাতার বহু পত্র-পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছিল। তিনি ‘ঊর্বশী’ নামে একটি পত্রিকার সম্পাদিকা ও প্রকাশিকা ছিলেন। তাঁর রচিত গ্রন্থগুলি হচ্ছে, ‘মৌনমন’, ‘গোধূলি বসন্ত’, ‘শীত সেজে বসন্তের দূত’, ‘সবুজ গ্রহের শকুন’, ‘একটি কলেজের চারটি মেয়ে’ প্রভৃতি।
 রাজিয়া খাতুন চৌধুরি—রাজিয়া খাতুন শুধুমাত্র বাড়িতে পড়াশোনা করেই সৃষ্টি করেছিলেন সাহিত্য। হয়ে উঠেছিলেন কবি, গল্পকার, প্রবন্ধকার। অনুবাদকর্মও তিনি করেছিলেন। সওগাত, মোহাম্মদী, নওরোজ প্রভৃতি বহু পত্র-পত্রিকায় তাঁর রচনা পাওয়া যায়। তাঁর উল্লেখযোগ্য রচনা হল ‘পথের কাহিনি’। তিনি ১৯০৭ সালে জন্মগ্রহণ করেন ও ১৯৩৪ সালে মাত্র সাতাশ বছর বয়সে চিরবিদায় নেন।
 ফুলকুমারী গুপ্ত—ফুলকুমারী গুপ্তের ‘সৃষ্টি রহস্য’ গ্রন্থটি বাঙালি মহিলার প্রথম রহস্য রচনা বলে অভিহিত হয়। তৎকালীন সমসাময়িক বহু মাসিক পত্রিকায় তাঁর মূল্যবান প্রবন্ধ প্রকাশিত হয়েছে। শাস্ত্র ও দর্শনে ইনি পণ্ডিত ছিলেন। পণ্ডিত ও সাধক বিনায়ক শাস্ত্রীর ছাত্রী ছিলেন। ১৮৬৯ সালের জানুয়ারি মাসে হুগলি জেলার গুপ্তিপাড়ায় তিনি জন্মগ্রহণ করেন। পিতার নাম ‘শ্যামাচরণ সেন ও স্বামীর নাম শ্রীশচন্দ্র গুপ্ত। ১৯৩১ সালের ২ মার্চ তাঁর মৃত্যু হয়।
প্রীতি বসু
22nd  June, 2019
পরিবর্তনের ঢেউ লেগেছে মুসলিম সমাজে 

একবিংশ শতাব্দীতে পদার্পণের আগে মুসলিম সমাজে নারী স্বাধীনতা প্রহসন ছিল বললে অত্যুক্তি হয় না। মাত্র কয়েক দশক আগেও মুসলিম নারী ছিল অন্তঃপুরবাসিনী। অবগুণ্ঠনের আড়াল থেকেই তাদের বিশ্বদর্শন হতো। কিন্তু সেই চিত্র আজ অনেকটাই বদলে গিয়েছে।  বিশদ

20th  July, 2019
মেয়েদের হার্টের পক্ষে
নাইট শিফট ক্ষতিকারক 

এই একবিংশ শতাব্দীতে দাঁড়িয়ে আপাতদৃষ্টিতে নারীর সঙ্গে পুরুষের পার্থক্যের সীমারেখা প্রায় ঘুচেই গিয়েছে বলা যায়। এখন পুরুষদের সঙ্গে নারীরাও সমানতালে সবকিছুই করছে। সে কঠিন বিজ্ঞান গবেষণা থেকে শুরু করে টোটো চালানো পর্যন্ত প্রায় সবকিছুই। একসময় যে নাইট শিফটে কাজ শুধুমাত্র পুরুষদের মধ্যেই সীমাবদ্ধ ছিল এখন সেখানেও মেয়েদের মৌরুসিপাট্টা। বিশদ

20th  July, 2019
মহিলাদের সুস্থ রাখতে যোগাসন 

দেশের মতোই বিদেশেও এখন যোগাসনের দারুণ কদর। যোগাসনের দ্বারা মহিলাদের সুস্থ থাকার কয়েকটা উপায় জানালেন মার্কিন যোগ ফেডারেশনের কর্ণধার রাজশ্রী চৌধুরী। তাঁর মুখোমুখি কমলিনী চক্রবর্তী। 
বিশদ

20th  July, 2019
সিনেমা আমার প্রথম প্রেম: ঐন্দ্রিলা সাহা 

রাজা বিক্রমাদিত্যের রাজত্বকালে খনা নামে এক জ্যোতির্বিদ্যায় পারদর্শী এবং বিদুষী নারী ছিলেন। বরাহপুত্র মিহিরের সঙ্গে তাঁর বিবাহ হয়। খনা তাঁর বচন রচনার মাধ্যমেই সকলের কাছে পরিচিতি লাভ করেন। খনার ভবিষ্যৎ বাণীগুলি খনার বচন নামে পরিচিতি পায়। সেই খনার জীবন নিয়ে কালারস বাংলায় শুরু হয়েছে মেগা ধারাবাহিক ‘খনার বচন’। আজ আমরা খনা তথা ঐন্দ্রিলা সাহার মুখোমুখি। 
বিশদ

13th  July, 2019
দীপার উত্তরসূরি প্রণতি 

দীপা কর্মকারের পর আর এক বাঙালি জিমন্যাস্টকে নিয়ে ওলিম্পিকে পদক জয়ের স্বপ্ন দেখা শুরু হয়ে গেল। ত্রিপুরার দীপা কর্মকার, তেলেঙ্গানার অরুণা রেড্ডির পর বাংলার প্রণতি নায়েক হলেন দেশের তৃতীয় মহিলা জিমন্যাস্ট যিনি আন্তর্জাতিক পদক জিতলেন।  বিশদ

13th  July, 2019
ভারতের প্রথম মহিলা বিচারপতি 

সেকালের পুরুষতান্ত্রিক সমাজে পুরুষদের দিকে লক্ষ্য রেখেই সব ব্যবস্থাপনা হত। কিন্তু পুরুষতান্ত্রিকতার সম্পূর্ণ অবসান না হলেও দিন যত এগিয়েছে ততই মহিলারাও অগ্রগণ্য হয়েছে। বিভিন্নরকম ব্যবস্থাপনার মাধ্যমে নারীকেন্দ্রিকতাও সমাজে স্থান পেয়েছে।  বিশদ

13th  July, 2019
সমাজের পিছিয়ে পড়া মহিলা ও বাচ্চাদের মুখে হাসি দেখতে চাই : রাখী বসু 

ছোটবেলা থেকেই সমাজের জন্য কাজ করার স্বপ্ন দেখতেন রাখী। স্বপ্ন ছিল তার হাত ধরে সমাজের পিছিয়ে পড়া বাচ্চারা আর অসহায় মহিলারা মাথা তুলে দাঁড়াবে। তারা শিক্ষার আলোয় আলোকিত হবে। ছোটবেলায় দেখা স্বপ্ন আরও প্রগাঢ় হল, যখন তিনি পশ্চিমবঙ্গের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী জ্যোতি বসুর পুত্রবধূ হয়ে এলেন। 
বিশদ

06th  July, 2019
নারীমুক্তি আন্দোলনে কবি সুফিয়া কামাল 

বিংশ শতাব্দীর নারীমুক্তি আন্দোলনে এক অনন্য স্থান অধিকার করে আছেন মহিলা কবি সুফিয়া কামাল। পাশাপাশি ভাষা আন্দোলনেও তাঁর সক্রিয় অংশগ্রহণ এক স্মরণীয় কীর্তি। 
বিশদ

06th  July, 2019
মাহেশে জগন্নাথদেবের মূর্তি প্রতিষ্ঠাতা 

চতুর্দশ শতাব্দীতে সন্ন্যাসী ধ্রুবানন্দ প্রতিষ্ঠিত তিনটি বিগ্রহ জগন্নাথ, সুভদ্রা, বলরামের পুজো আজও শ্রীরামপুরে মাহেশের মন্দিরে হয়ে আসছে। বলা বাহুল্য, ধ্রুবানন্দ ব্রহ্মচারী হলেন সেই সিদ্ধপুরুষ যিনি সর্বপ্রথম বঙ্গভূমিতে ভগবান শ্রীশ্রী জগন্নাথদেবের পুজোর প্রবর্তন করেন। তাঁর ভক্তি ও জগন্নাথ সাধনার কথা জগৎ বিখ্যাত। তিনিই মাহেশে জগন্নাথদেবের মূর্তি স্থাপন করেন। রথের মরশুমে সেই সাধনার আখ্যানই শুনিয়েছেন দীপক বসু।
 
বিশদ

06th  July, 2019
নারীদের জন্য ভয়ঙ্কর দেশ অস্ট্রেলিয়া 

অল্প কিছুদিন আগে এক তরুণীর হত্যাকাণ্ডের খবরে দারুণ ধাক্কা খেয়েছিল অস্ট্রেলিয়ার মানুষ। তিনি মেলবোর্ন শহরে হেঁটে নিজের বাড়িতে ফেরার পথে নিহত হন। একুশ বছর বয়সি ইজরায়েলি এই তরুণীর নাম আয়া মাসারভি। তার মৃত্যুর ঘটনা অস্ট্রেলিয়ায় ব্যাপক ক্ষোভ ও বিতর্কের জন্ম দিয়েছে, বিশেষ করে নারীর বিরুদ্ধে সহিংসতার বিষয়ে।  
বিশদ

29th  June, 2019
১৯ বছরের রাখি দত্ত নিজের
লিভার দিয়ে বাঁচালেন বাবাকে 

বাবার বয়স ৬৫। কিছুদিন ধরেই পেটে ব্যথা হতো, কিছু খেতে পারতেন না। হাসপাতালে ভর্তির পর পরীক্ষায় ধরা পড়ল তিনি লিভারের কঠিন রোগে আক্রান্ত। সুস্থ করে তুলতে হলে লিভার প্রতিস্থাপন করতে হবে। কিন্তু কে দান করবে লিভার? এগিয়ে এলেন একমাত্র মেয়ে রাখি দত্ত।  
বিশদ

29th  June, 2019
ফেসবুকের মেয়ে 

সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট খুলে দিয়েছে এক নতুন দিগন্ত। সম্পর্ক বিস্তারের জালপাতা যেন ভুবন জুড়ে। ওয়েব নেট থেকে জালের ফাঁদে। বন্দি আজ আবালবৃদ্ধবণিতা। সামাজিক বাধা-নিষেধ নেই। সম্পর্কের উন্মুক্ত আবহাওয়ায় গা ভাসিয়ে দাও।  
বিশদ

29th  June, 2019
প্রাচ্য পুরাণে নারীর বেঁচে থাকার দুঃখ-ইতিহাস 

মহাভারতের বনপর্বে সত্যভামা দ্রৌপদীকে প্রশ্ন করেছিলেন, পাঁচ স্বামীকে তিনি কীভাবে সন্তুষ্ট রাখতে সক্ষম হয়েছেন? উত্তরে দ্রৌপদী পতিব্রতা নারীর ওপর এক সুদীর্ঘ বক্তৃতা দেন। যাঁর মূল কথা ছিল— নারী যদি সম্পূর্ণভাবে আত্মবঞ্চনা করে এবং নিজেকে স্বামীর ইচ্ছা পোষণের যন্ত্রমাত্রে পরিণত করে তবেই সে যথার্থ পতিব্রতা হতে পারে এবং স্বামীকে সন্তুষ্ট রাখতে সক্ষম হয়। 
বিশদ

29th  June, 2019
বাজে খবরের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ালেন প্রিয়াঙ্কা

 বেশ কিছুদিন প্রকাশ্যে ঘোরাঘুরির পর গতবছরের শেষে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন প্রিয়াঙ্কা চোপড়া ও নিক জোনাস। তবে সম্প্রতি শোনা যাচ্ছিল তাদের বিবাহ বিচ্ছেদের গুজব। তবে এই গুজবের দাঁত ভাঙা জবাব দিলেন প্রিয়াঙ্কা।
বিশদ

22nd  June, 2019
একনজরে
 বিএনএ, চুঁচুড়া: প্রায় ২৪ ঘণ্টা পরে হুগলির চাঁপদানির ডালহৌসি জুটমিলে কাজ শুরু হল। শুক্রবার বিকেলে একাংশের কর্মী কাজ বন্ধ করে দেন। তারপর রাতে কারখানার সমস্ত কর্মী কাজ বন্ধ করে দিয়েছিলেন। কর্মীদের অভিযোগ, কারখানার উৎপাদন বাড়ানোর জন্য বেশি সময় ধরে কাজের ...

সংবাদাতা, রায়দিঘি: রাজ্যে বর্ষা ঢুকে গিয়েছে। উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন প্রান্ত বৃষ্টিতে ভেসে গেলেও দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টির দেখা নেই। তাই বৃষ্টি যাতে দ্রুত আসে, সেই কারণে ধুমধাম করে ...

সংবাদদাতা, বালুরঘাট: বালুরঘাট শহরের বিভিন্ন রাস্তায় গবাদিপশুর বিচরণ বেড়ে যাওয়া ব্যাপক সমস্যার পড়েছেন পথচলতি সাধারণ মানুষ। শহরের যত্রতত্র গোরু, ছাগল ঘোরাঘুরি করলেও সেসব ধরে সংশ্লিষ্ট মালিকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা না নেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। ...

পল্লব চট্টোপাধ্যায়, কলকাতা: তিনিই যোগ্যতম। বাণিজ্য শাখার স্কুল শিক্ষক হিসেবে চাকরিতে যোগ দেন ২০০১ সালের ৩০ জুলাই। কিন্তু, কম যোগ্যতাসম্পন্নদের স্কুলে শিক্ষক পদে রেখে দেওয়া হলেও তাঁর চাকরি বিগত ১৮ বছরেও অনুমোদিত হয়নি। তাঁর মামলা সূত্রে দেওয়া কলকাতা হাইকোর্টের একাধিক ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

উচ্চবিদ্যার ক্ষেত্রে ভালো ফল হবে। ব্যবসায় যুক্ত হলে খুব একটা ভালো হবে না। প্রেমপ্রীতিতে বাধাবিঘ্ন। ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯২০: মা সারদার মৃত্যু
১৮৬৩: কবি, গীতিকার ও নাট্যকার দ্বিজেন্দ্রলাল রায়ের জন্ম
১৮৯৯: লেখক বনফুল তথা বলাইচাঁদ মুখোপাধ্যায়ের জন্ম
১৯৫৫: প্রাক্তন ক্রিকেটার রজার বিনির জন্ম
২০১২: বাংলাদেশের লেখক হুমায়ুন আহমেদের মূত্যু 

20th  July, 2019
ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৭.৯৫ টাকা ৬৯.৬৪ টাকা
পাউন্ড ৮৪.৭৭ টাকা ৮৭.৯২ টাকা
ইউরো ৭৬.১০ টাকা ৭৯.০৪ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
20th  July, 2019
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৫,৫২৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৩,৭০৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৪,২১০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪০,৫৫০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪০,৬৫০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৪ শ্রাবণ ১৪২৬, ২১ জুলাই ২০১৯, রবিবার, চতুর্থী ১৬/২২ দিবা ১১/৪০। শতভিষা ৫/৪৫ দিবা ৭/২৫। সূ উ ৫/৬/৫২, অ ৬/১৮/১৬, অমৃতযোগ প্রাতঃ ৫/৫৯ গতে ৯/৩১ মধ্যে। রাত্রি ৭/৪৫ গতে ৯/১১ মধ্যে, বারবেলা ১০/৪ গতে ১/২২ মধ্যে, কালরাত্রি ১/৩ গতে ২/২৪ মধ্যে।
৪ শ্রাবণ ১৪২৬, ২১ জুলাই ২০১৯, রবিবার, চতুর্থী ৯/২৬/৩১ দিবা ৮/৫২/১৬। শতভিষানক্ষত্র ২/০/৪৮ প্রাতঃ ৫/৫৩/৫৯, সূ উ ৫/৫/৪০, অ ৬/২১/৪৭, অমৃতযোগ দিবা ৬/৪ গতে ৯/৩২ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/৪১ গতে ৯/৮ মধ্যে, বারবেলা ১০/৪/১৩ গতে ১১/৪৩/৪৪ মধ্যে, কালবেলা ১১/৪৩/৪৪ গতে ১/২৩/১৪ মধ্যে, কালরাত্রি ১/৪/১২ গতে ২/২৪/৪২ মধ্যে।
১৭ জেল্কদ

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
  ইস্ট বেঙ্গলে জুনিয়র বিশ্বকাপার
ইস্ট বেঙ্গলের অনুশীলনে যোগ দিলেন যুব ভারতীয় দলের স্ট্রাইকার অভিজিৎ ...বিশদ

09:28:53 AM

প্রয়াত দিল্লির প্রাক্তন বিজেপি সভাপতি মঙ্গেরাম গর্গ 

09:25:00 AM

তেলেঙ্গানার নালগোন্ডায় জামাইবাবুর গলা কেটে খুন করল শ্যালক 

09:22:00 AM

হায়দরাবাদের জুলজিক্যাল পার্কে একটি সিংহের মৃত্যু 

09:20:00 AM

‘সি সি’ না নিলে মিলবে না ফ্ল্যাটের রেজিস্ট্রেশন
পুরসভার দেওয়া ‘কমপ্লিশন সার্টিফিকেট’ বা সিসি না দেখে ফ্ল্যাট কিনবেন ...বিশদ

09:19:10 AM

মণিপুরে মহাবলি মন্দির সংলগ্ন নদীতে তলিয়ে গেল ২ শিশু 

09:19:00 AM