Bartaman Patrika
আমরা মেয়েরা
 

 স্বামী ও স্ত্রী একই পেশায় থাকলে...

 এক পেশাতে কাজ করছেন স্বামী স্ত্রী। পেশাদারিত্ব বজায় রেখেই ঠিক রাখুন সম্পর্ক। পরামর্শ দিলেন সাইকিয়াট্রিস্ট ডঃ রীমা মুখোপাধ্যায়

বর্তমানে মেয়েরা এগিয়ে গিয়েছি অনেকটাই। ছেলেদের সঙ্গে সমান তালে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে চলেছি এ বিষযে সন্দেহ নেই। একই পেশায় সমানতালে কাজ করছেন নারী ও পুরুষ। তৈরি হচ্ছে বন্ধুত্বের সম্পর্ক। আবার বন্ধুত্বের বিনি সুতোর মালাতেই  গাঁথা হয়ে যাচ্ছে  দুটি জীবন। তাঁরা বাঁধা পড়ছেন নতুন বন্ধনে। পেশাগত বন্ধুত্ব থেকেই তৈরি হচ্ছে পারিবারিক বন্ধন। এক পেশাতে কাজ করছেন স্বামী-স্ত্রী। বিয়ের পরেও একজোট হয়ে  তাঁরা এগিয়ে চলেছেন কয়েক কদম।
এই যেমন তরী আর ঋষভের কথাই ধরি। দুজনেই কাজ করেন একটি চার্টার্ড ফার্মে। অ্যাকাউন্টেন্সি পড়ার সময় আলাপ গড়ায় বন্ধুত্বে। আর বন্ধুত্ব থেকে ভালোবাসা, প্রেম, বিয়ে। সময়  যত গড়িয়েছে ততই গাঢ় হয়েছে দুজনের সম্পর্ক। চাকরি, কেরিযার পাকা হতেই আর দেরি করেনি ওরা। চার হাত এক করে নিয়েছে। তরীর বাবার নিজের চার্টার্ড ফার্মেই কাজ শুরু দুজনের। কিন্তু গোল বাধল বিয়ের পর। ঋষভ কিছুতেই সেখানে যুক্ত থাকতে চাইল না। ঋষভের ইচ্ছে বিদেশি কোম্পানিতে হাই প্রোফাইল জব। তরীও বাইরে যাক তার সঙ্গে। বিদেশে সেটল করার ইচ্ছে তরীর থাকলেও বৃদ্ধ বাবা-মাকে ছাড়তেও পারছিল না। কেরিয়ার নিযে দ্বন্দ্ব আর সম্পর্কের টানাপোড়েনে জেরবার দুজন। অথচ একমাত্র মেয়ে আর জামাইয়ের ভবিষ্যতের কথা ভেবেই তরীর বাবা চার্টার্ড ফার্মটি নতুন করে সাজান। 
সাইকিয়াট্রিস্ট ডঃ রীমা মুখোপাধ্যায় বললেন, এক পেশায় থাকা দম্পতির সমস্যা এড়িযে যাওয়া যায় সহজেই। সম্পর্কের জটিলতার আরও কিছু প্রশ্ন রেখেছিলাম তাঁর কাছে। সমাধান দিলেন সহজ কথায়।
 এক পেশায় স্বামী স্ত্রী থাকলে তাদের সম্পর্ক কেমন হয়?
 অনেক দিক থেকেই সুবিধা আছে। এক পেশায থাকলে দুজনেই পেশাগত সমস্যার দিকটা বুঝতে পারেন। যেটা অন্য পেশার মানুষ চট করে বুঝতে পারেন না। দুজনের মধ্যে একটা আলাদা বোঝাপড়া কাজ করে। কাজের জগতে নাইট শিফট থাকলে দুজনেই এক ফিল্ডের হলে বুঝতে পারেন সেটা কতটা জরুরি। স্বামীও যেমন স্ত্রী কেন করছেন বুঝতে পারেন, তেমন স্ত্রীও তখন স্বামীর পেশাগত প্রেশারটা বুঝে শপিং বা বেড়াতে নিয়ে যাওযার আবদার করে বসেন না, ফলে আমরা বলতে পারি এতে ভুল বোঝাবুঝির সম্ভবনা অনেকটাই কম। একটা উদাহরণ দিই। অভিনয় জগতে স্বামী স্ত্রী উভয়েই থাকলে বহু অভিনেতা-অভিনেত্রীর সঙ্গে কাজ করার যে পরিস্থিতি সেটা সহজে বুঝে নিতে পারবেন। প্রথম থেকেই এই আন্ডারস্ট্যান্ডিংটা থাকে। তবেই তো সম্পর্ক গড়ে ওঠে।
 এক পেশায় থাকলে বয়সজনিত কারণে সমস্যা তৈরি হতে পারে কি?
 হতে পারে। এর সামাজিক দিক রয়েছে। যদিও আমাদের সমাজের হিসেবে ছেলেরা সাধারণত চাকরি পেয়ে তবেই বিয়ে করে। তবে বয়সের ফারাক থেকে সমস্যা হতেই পারে।
 রেষারেষি হওযার সম্ভবনা কতটা? কেন এই রেষারেষি হয?
 এক পেশায় থাকলে এই রেষারেষিটা অনেক সময়েই দেখা যায়। কারণ সামাজিক তুলনার সামনে পড়ে দুজনের মধ্যের বোঝাপড়াটা নষ্ট হয়ে যায়। একই নেটওয়ার্কের মধ্যে পড়ে একজন সম্মান পায় এবং অন্যজন পায় না, এই ঘটনা তো সারাক্ষণই ঘটে। সেক্ষেত্রে স্বামী-স্ত্রী হলে সমস্যা গম্ভীর হয়ে যায়। বলিউডি সিনেমা অভিমান থেকে শুরু করে হালফিলের আশিকি সর্বত্রই আমরা দেখেছি পেশাগত দ্বন্দ্ব কীভাবে একটা সম্পর্ক নষ্ট করে দেয়। 
 একই কাজ যদি দুজনে করে তাহলে শেয়ারিংয়ের মনোভাব কতটা থাকে?
 এক পেশায় দুজনে থাকলে অবশ্যই একটা শেয়ারিংয়ের মনোভাব থাকে। সেটাই স্বাভাবিক। আর এটাই বিরাট অ্যাডভানটেজ। বন্ধুত্বের দিকটা প্রকাশ পায় বইকি এর মাধ্যমে। তেমনি সব পেশাতেই অনেক সমস্যা থাকে। পেশাগত সমস্যাগুলো কীভাবে ডিল করা যায়, এমনকী সমস্যাটা বলতে পারা, প্রকাশ করতে পারার একটা জায়গাও থাকে। সম্পর্ক যতটা ম্যাচিওরড হয় ততটাই সঙ্গীরা খোলামেলা হয়ে ওঠে। 
 শেয়ারিং থেকে কি অন্যরকম একটা বন্ধুত্ব জন্মাতে পারে যেটা স্বামী স্ত্রীর সম্পর্ককে অন্যরকম করে তুলতে সক্ষম হয়?
 সব সম্পর্কেই কিছু না কিছু সমস্যা থাকে। তার সুবিধার দিকগুলোই তো দেখতে হবে। অসুবিধার দিকগুলো মেনে নিয়ে বা সামলে নিয়ে সুবিধার দিকটা ফোকাস করতে হবে। তবেই তো সম্পর্ক এগিয়ে যাবে। আমরা জানি প্রত্যেক পেশাতেই একটা ফ্রাস্ট্রেশন থাকে। দিনের শেষে বাড়িতে সেটা বলতে পারার অন্তত একজন আছে যার কাছ থেকে আপনি একটা পথ পাবেন। কিছু না হোক অন্তত তিনি বুঝবেন আপনার সমস্যাটা। সঙ্গীর কাছে এই বলতে পারাটাই অনেক সময় খুব দরকারি হযে ওঠে।
 অনেক সময় এমন হয় যে খোলাখুলি কোনও ঝগড়া হল না, কিন্তু হিংসে বা রেষারেষির জন্য বিবাহিত সম্পর্ক ক্রমশ নষ্ট হয়ে গেল। এক পেশায় থাকলে এটা কি হয়?  
 সামাজিক পরিবেশ এক্ষেত্রে অনেকটাই বড় ভূমিকা নেয়। সমস্যাটা বাড়িয়ে দেয় বা তৈরি করে। মেয়েরা এখনও সমাজে সেকেন্ড ক্লাস সিটিজেন। পুরুষশাসিত সমাজে একটি মেয়ে কাজ করছেন, টাকা রোজগার করছেন, দিনের শেষে সেটাই বড় কথা। কিন্তু তার খুব নাম ডাক হল এটা এখনও অনেকেই নিতে পারেন না। কিছু লোক আছেন যারা এইসব নিয়ে অন্যের সংসারে নাক গলায়। সমস্যা তৈরি করতে চেষ্টা করে। আবার অনেকক্ষেত্রে ছেলের বাড়ির লোকেরা বাড়ির বউয়ের পেশার তাগিদে ডেডিকেশনের মূল্য কম দেন। বউটি বেশি নামডাক করে ফেললেই গেল গেল রব ওঠে। বিবাহিত মেয়েরা অবশ্যই কাজ করছেন। কিন্তু ছেলেকে ছাপিয়ে গেলেই সমস্যা। এইসব বাড়ির লোকের আচরণ থেকেও স্বামী স্ত্রীর সম্পর্ক বিষিয়ে যেতে পারে। বরং  দেখেছি চাকরিরত দম্পতিরা যাঁরা বাইরে থাকেন, তাঁরা এই পরিস্থিতিতে দুজনেই বেশ মানিয়ে নেন। 
 রেষারেষি থেকে যদি সম্পর্কে দ্বন্দ্ব আসে তাহলে তা সামলানোর উপায় কি?
 পেশাগত ও ব্যক্তিগত জীবনের মধ্যে ভারসাম্য রক্ষা করা সুস্থ সম্পর্কের জন্য খুব জরুরি। দূরত্ব তৈরি হলে তখন দুজনেই যদি নিজের ইগো নিয়ে থাকেন তাহলে তো সমস্যা বাড়বেই। তবে এটা বললে পুরুষ পাঠকরা ভুল বুঝবেন তবুও বলছি মেয়েদের ইগো তুলনায় অনেক কম। তাই তারা স্বামীর সাফল্যে, এগিয়ে থাকায় গর্বিত হয়। অবশ্য অনেক স্বামীও স্ত্রী-র সাফল্যে গর্ববোধ করেন। আসলে  সত্যি ভালো বন্ডিং আন্ডারস্ট্যান্ডিং থাকলে এই সাফল্য বা পিছিয়ে পড়া কোনওটাই বড় ব্যাপার হয়ে দাঁড়ায় না। তবে একজনের অফিস পার্টিতে অন্যজন যেতে অপছন্দ করলে সেটা মেনে নেওয়া উচিত। একে অন্যের ভালো খারাপ পছন্দ অপছন্দটা বুঝতে হবে। স্ত্রী যদি বোঝেন কোনটা তাঁর স্বামীর অপছন্দ সেটা তিনি নাই বা করলেন। অপরদিকটাও সত্যি। আমার মনে হয় কোনও মহিলাই তাঁর বিবাহিত জীবনটা চট করে নষ্ট করতে চান না। আজকের যুগে দাঁড়িয়েও বলছি, কেরিয়ার সামলেও মেয়েদের কাছে পরিবার যথেষ্ট গুরুত্বপূর্ণ । তাই দুজনকেই বুঝে চলতে হবে। কিছু বিষয় এড়িয়ে যেতে হবে, কিছু সামলে নিতে হবে। তাহলে এক পেশা বা অন্য পেশা কোনওটা‌ই সমস্যা তৈরি করবে না। স্বামীকেও ইগো ঝেড়ে স্ত্রীয়ের মন বুঝতে হবে। অ্যাটিটিউডটা ঠিক রেখে যদি চলা যায়, সেটাই কাম্য। স্বামী যদি বলেন কাজটাই ছেড়ে দাও, সেটা অযৌক্তিক কথা। কারণ আজকের যুগে উভয়ের কাজ করাটাই প্রয়োজনীয়।
 রেষারেষি হলে, পেশা বদল না করেও ভালো থাকার উপায় কি?
 কোন পরিস্থিতিতে কি হচ্ছে সেটা খোলা মনে আলোচনা করে নেওয়াই ভালো। তিক্ততা না বাড়িযে মিটিয়ে নিন। সব জায়গায় দুজনে গেলে যদি সমস্যা হয় তাহলে ক্ষেত্র বিশেষে একজনের যাওয়াই ভালো। মনে রাখুন  দুজনেরই আইডেন্টিটি আছে। কিছু লোককে অ্যাভয়েড করতে হবে যারা সমস্যা তৈরি করছে। একে অপরের কাছে নিজেদের গুরুত্বটা বুঝুন। সম্পর্কের দাম দিন। কিছু জিনিস পেতে গেলে কিছু ছাড়তেই হবে। সব একসঙ্গে পাওয়া যায় না। তাই দেখতে হবে কোনটা করলে সম্পর্কটা ভালো থাকবে। অ্যাডজাস্টমেন্ট আর কম্প্রোমাইজ উভয়কেই করতে হবে। জীবনে চলতে গেলে এই দুটোই সমানভাবে দরকার। পেশাদারিত্বকে গুরুত্ব দিয়েও সম্পর্কের দাম দিতে জানতে হয়। 
সব শেষে বলি, এক অফিসে স্বামী স্ত্রী, প্রেমিক প্রেমিকা কাজ করলে যেমন পজিটিভ দিক আছে, তেমন কিছু সমস্যাও তৈরি হতে পারে। তাই মেনে চলা উচিত অফিস ডেকোরাম। ব্যক্তিগত সম্পর্ক যাই হোক, অফিসে দুজন সহকর্মী। ফলে উভয়কেই পেশাদার আচরণ করতে হবে। একান্তে সময় কাটাতে ইচ্ছে হলেও দৃষ্টিকটু কাজ করা উচিত নয় অফিস চত্বরে। অন্য সহকর্মীদের মতোই মিশুন, বন্ডিং ঠিক থাকলে সম্পর্ক ভালো থাকবেই। স্বাভাবিক আচরণেই নিজেদের সীমাবদ্ধ রাখুন। 
সাক্ষাৎকার শেরী ঘোষ
04th  May, 2019
মাদার টেরেজা
আর্তের সেবায় এক মহীয়সী নারী

অ্যাগনেস গনহ্যাজ বোজাহিও তাঁর জন্মভূমি যুগোস্লাভিয়ার স্কপজি শহর ছেড়ে ১৯২৮ সালে কলকাতায় আসেন। আসা মাত্র নিবেদিতার মতোই ভালোবেসে ফেলেন কলকাতার মানুষজনকে। স্থির করলেন সন্ন্যাসিনী হয়ে গরিব-দুঃস্থ মানুষের পাশে দাঁড়াবেন, আর্তের সেবা করবেন।   বিশদ

18th  May, 2019
মা সারদার স্নেহধন্যা নটী নীরদা সুন্দরী 

প্রেমের ঠাকুর রামকৃষ্ণ নটী বিনোদিনীর শ্রীচৈতন্যলীলা দেখে মুগ্ধ হয়েছিলেন এবং নটী বিনোদিনী ধন্য হয়েছিলেন ঠাকুরের আশীর্বাদ পেয়ে। একইভাবে ধন্য হয়েছিলেন এই বাংলারই আর এক নটী নীরদা সুন্দরী। তাঁর অভিনয় দেখে মা সারদা তাঁকে আশীর্বাদ করেছিলেন।  বিশদ

18th  May, 2019
বুদ্ধ পূর্ণিমা ও শান্তির বার্তা 

বিশ্ববাসীর মাঝে শান্তির বার্তা ছড়িয়ে দিতে চান সুলতা মিত্র সরকার। এমনই অভিপ্রায় নিয়ে সম্প্রতি কাম্বোডিয়ার মন্দির নগরী আঙ্করভাটে একটি বুদ্ধমূর্তি তিনি স্থাপন করেছেন। বুদ্ধ পূর্ণিমার পুণ্যতিথিতে মূর্তি স্থাপনের কথায় কমলিনী চক্রবর্তী।  বিশদ

18th  May, 2019
বেশি বয়সেও পেতে পারেন মাতৃত্বের স্বাদ

পরামর্শে ঘোষ দস্তিদার ইনস্টিটিউট ফর ফার্টিলিটি রিসার্চের কর্ণধার ডাঃ সুদর্শন ঘোষ দস্তিদার। বিশদ

12th  May, 2019
সিঙ্গল মাদারের ডায়েরি

একা মা হওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া মুখের কথা নয়। তবে সব চাইতে কঠিন বোধহয় সন্তানকে বড় করে তোলা। কেমন আছেন তিনি? কেমনভাবে মানুষ করে তুলছেন সন্তানকে, একা মা’দের মুখ মুখার্জি ফার্টিলিটি সেন্টারের কর্ণধার ডাঃ শিউলি মুখোপাধ্যায়?
বিশদ

12th  May, 2019
ইতিহাসে মাদার্স ডে

বিদেশে তো বটেই এমন কি দেশেও এখন মাদার্স ডে রীতিমতো জনপ্রিয়। তবে ঘটা করে মাদার্স ডে পালন করলেও আমরা দিনটির ইতিহাস সম্বন্ধে ততটা ওয়াকিবহাল নই। ইতিহাস ঘেঁটে মাদার্স ডের তাৎপর্যের কাহিনী শোনাচ্ছেন কমলিনী চক্রবর্তী।
বিশদ

11th  May, 2019
 আধুনিক নার্সিংয়ের অগ্রদূত ফ্লোরেন্স নাইটিঙ্গেল

 আগামীকাল ফ্লোরেন্স নাইটিঙ্গেলের জন্মদিন। দিনটি আন্তর্জাতিক নার্স ডে হিসেবে পালন করা হয় গোটা বিশ্বে। বিশদ

11th  May, 2019
শিশুর বেড়ে ওঠায়
মায়ের ভূমিকা

শিশু ভূমিষ্ঠ হবার আগে থেকেই শুরু হয় বাবা-মায়ের চিন্তা, নানান জল্পনা কল্পনা। এই সমাজে সুস্থ সুন্দরভাবে শিশুকে মানুষ করবেন কী করে? সত্যিই বিষয়টা চিন্তার। তবে অমূলক ভয় পাওয়ারও কিছু নেই। গবেষণাসূত্রে জানা গিয়েছে মা যদি গর্ভাবস্থাকালীন হাসি-খুশি প্রাণোচ্ছল থাকেন তবে শিশুও ইতিবাচক মানসিকতার অধিকারী হবে। তাই গর্ভাবস্থায় মাকে সব সময় হাসিখুশি থাকতে বলা হয়।
বিশদ

11th  May, 2019
জনমতের বিচারে সবচেয়ে প্রভাবশালী
দীপিকা পাড়ুকোন

কেবল পর্দা বা বলিউডে নয়, বাস্তব জীবনের নানা ক্ষেত্রে প্রভাব রাখেন বলিউডের বহু তারকা। সম্প্রতি আমাদের দেশে সবচেয়ে প্রভাবশালী ব্যক্তিত্বের তালিকায় উঠে এসেছে বলিউড তারকা দীপিকা পাড়ুকোন ও অমিতাভ বচ্চনের নাম। এক সমীক্ষা থেকে জানা গেছে, ভারতীয়দের জীবনের নানা ক্ষেত্রে এই তারকাদের রয়েছে বিশাল প্রভাব।
বিশদ

04th  May, 2019
আইএমএফ-এর প্রথম নারী অর্থনীতিবিদ গীতা গোপীনাথ

আইএমএফ (দ্য ইন্টারন্যাশনাল মানিটারি ফান্ড) বা আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের প্রধান অর্থনীতিবিদ হিসেবে দায়িত্ব নিয়েছেন গীতা গোপীনাথ। এই প্রথম কোনও নারী এই দায়িত্বে নিযুক্ত হয়েছেন। রঘুরাম রাজনের পরে গীতাদেবীই হতে চলেছেন এই দায়িত্ব নেওয়া ভারতীয়। সম্প্রতি এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছে আইএমএফ।
বিশদ

04th  May, 2019
 সম্পদে ব্রিটেনের রানিকে টপকে গেলেন কোটস

সম্পদের বিচারে ব্রিটেনের রানি দ্বিতীয় এলিজাবেথ বহুদিন ধরেই ছিলেন ধরা ছোঁয়ার বাইরে। কিন্তু এবার ব্রিটেনেরই এক নারী পিছনে ফেলে দিয়েছেন রানিকে। অনলাইন বেটি প্রতিষ্ঠান ‘বেট ৩৬৫’-এর প্রতিষ্ঠাতা হলেন ডেনিস কোটস। বর্তমানে তাঁর সম্পদের পরিমাণ রানির চেয়ে দশগুণ বেশি।
বিশদ

04th  May, 2019
 আশা দিদি

মেয়েটি সন্তান সম্ভবা। প্রসবের দিনও এগিয়ে আসছে। কিন্তু গ্রামে তেমন কোনও হাসপাতাল নেই। এমন অবস্থায় হঠাৎ প্রসব যন্ত্রনা উঠলে ‘দাই’দের ওপর ভরসাটা এই একবিংশ শতাব্দীতেও প্রত্যন্ত গ্রামাঞ্চলে দেখা যায়। অজ্ঞতাবশত ও যোগাযোগের উপায় না থাকায় অসহায় মানুষ একজন ভাবী মা ও তার সন্তানকে অপ্রশিক্ষিত মহিলার হাতে ছেড়ে দেন।
বিশদ

04th  May, 2019
 আইএস জঙ্গিদের রুখে দিয়ে ‘শান্তির গ্রাম’ গড়েছেন নারীরা

  পুরুষের দ্বারা নানাভাবে নির্যাতিত নারীরা গড়ে তুলেছেন জিনওসার গ্রাম। সেখানে পুরুষের প্রবেশ নিষেধ। তাই নিশ্চিন্তে জীবনটা কাটাতে পারছেন তাঁরা। জিনওসার গ্রামটা পেরলেই যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশ সিরিয়া। সেখানে আইএস জঙ্গিদের কালো পতাকা আর ঘন ঘন গ্রেনেডের হুঙ্কারে জনপদ কার্যত শূন্য।
বিশদ

27th  April, 2019
 বিশ্বের সম্পদ মীনা গায়েন কৃষ্ণাকুমারী কোহলি

কৃষ্ণাকুমারী কোহলি— চল্লিশ বছর বয়সি পাকিস্তানের এই সেনেটর এবার বিশ্বের প্রথম ১০০ জন প্রভাবশালী মহিলার মধ্যে জায়গা করে নিয়েছেন। ওই একই তালিকায় জায়গা করে নিয়েছেন আমেরিকার প্রাক্তন প্রেসিডেন্ট বিল ক্লিনটনের মেয়ে। আর সেখানেই কিনা জ্বলজ্বল করছেন পাকিস্তানের প্রত্যন্ত গ্রামের দলিত এক কন্যাও।
বিশদ

27th  April, 2019
একনজরে
নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: এবছর মাধ্যমিকের প্রথম দশে জায়গা করে নিল ৫১ জন পরীক্ষার্থী। ৬৯৪ নম্বর পেয়ে রাজ্যে প্রথম হয়েছে পূর্ব মেদিনীপুরের মহম্মদপুর দেশপ্রাণ বিদ্যাপীঠের সৌগত ...

  সংবাদদাতা, রায়গঞ্জ: উত্তর দিনাজপুরের কৃষকদের মধ্যে মাশরুম ও ব্রোকলি চাষে আগ্রহ বাড়াতে উদ্যোগ নিয়েছে জেলা উদ্যানপালন দপ্তর। এব্যাপারে তারা বেশকিছু পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। দপ্তর ...

 ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জে যেসব সংস্থার শেয়ার গতকাল লেনদেন হয়েছে শুধু সেগুলির বাজার বন্ধকালীন দরই নীচে দেওয়া হল। ...

বিএনএ, চুঁচুড়া: ভাড়াবাড়ির বাথরুম থেকে বুবাই ঘোষ (৩৬) নামে এক যুবকের গলার নলিকাটা দেহ উদ্ধার করল পুলিস। বাড়ির মালিকের কাছ থেকে খবর পেয়ে সোমবার রাতে ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

গোপন প্রেম, গোপন থাকবে না। ব্যবসায়ীদের জন্য সময়টি ভালো, বয়স্করা একটু সাবধানী হবেন। ঠান্ডা লাগা ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৫৪৫: সম্রাট শেরশাহের মৃত্যু
১৭৭২: রাজা রামমোহন রায়ের জন্ম
১৮৫৯: গোয়েন্দা শার্লক হোমসের স্রস্টা স্টটিশ সাহিত্যিক আর্থার কোনান ডয়েলের জন্ম
১৮৮৫: ফরাসি সাহিত্যিক ভিক্টর হুগোর মৃত্যু
১৯৪০: ক্রিকেটার এরাপল্লি প্রসন্নর জন্ম
১৯৪৬: আইরিশ ফুটবলার জর্জ বেস্টের জন্ম
২০০৪: ১৭তম প্রধানমন্ত্রী হিসাবে ডঃ মনমোহন সিংয়ের শপথ গ্রহণ

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৮.৯২ টাকা ৭০.৬১ টাকা
পাউন্ড ৮৭.১৮ টাকা ৯০.৩৮ টাকা
ইউরো ৭৬.৫০ টাকা ৭৯.৪৪ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩২,০৯৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩০,৪৫০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩০,৯০৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৬,২৫০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৬,৩৫০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২২ মে ২০১৯, বুধবার, চতুর্থী ৫৮/১৮ রাত্রি ২/৪১। পূর্বাষাঢ়া অহোরাত্র। সূ উ ৪/৫৭/৫৩, অ ৬/৮/৩০, অমৃতযোগ দিবা ৭/৩৭ গতে ১১/৭ মধ্যে পুনঃ ১/৪৪ গতে ৫/১৫ মধ্যে। রাত্রি ৯/৪৫ মধ্যে পুনঃ ১১/৫৫ গতে ১/২১ মধ্যে, বারবেলা ৮/১৬ গতে ৯/৫৪ মধ্যে পুনঃ ১১/৩৩ গতে ১/১২ মধ্যে, কালরাত্রি ২/১৫ গতে ৩/৩৭ মধ্যে।
৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২২ মে ২০১৯, বুধবার, চতুর্থী ৫৪/৪৯/৫ রাত্রি ২/৫২/৫৯। পূর্বাষা‌ঢ়ানক্ষত্র ৬০/০/০ অহোরাত্র, সূ উ ৪/৫৭/২১, অ ৬/১০/৪১, অমৃতযোগ দিবা ৭/৩৬ গতে ১১/১০ মধ্যে ও ১/৫০ গতে ৫/২৩ মধ্যে এবং রাত্রি ৯/৫০ মধ্যে ও ১১/৫৮ গতে ১/২২ মধ্যে, বারবেলা ১১/৩৪/১ গতে ১/১৩/১১ মধ্যে, কালবেলা ৮/১৫/৪১ গতে ৯/৫৪/৫১ মধ্যে, কালরাত্রি ২/১৫/৪১ গতে ৩/৩৬/৩১ মধ্যে।
১৬ রমজান

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
ঘেরাও মুক্ত হলেন বিশ্বভারতীর উপাচার্য 

04:21:49 PM

১৪০ পয়েন্ট উঠল সেনসেক্স 

03:52:18 PM

ধূপগুড়ির বিএমওএইচ-এর বিরুদ্ধে এফআইআর করার অভিযোগে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হল স্বাস্থ্য দপ্তরের এক চুক্তিভিত্তিক কর্মীকে 

03:03:00 PM

জম্মু ও কাশ্মীরের পুঞ্চে আইইডি বিস্ফোরণ, শহিদ ১ জওয়ান, জখম ৭ 

01:31:14 PM

২১ ঘণ্টা ধরে অবরুদ্ধ বিশ্বভারতীর উপাচার্য এবং অধ্যাপকরা 
ফি বৃদ্ধির প্রতিবাদে ছাত্র আন্দোলনে জেরে ২১ ঘণ্টা ধরে অবরুদ্ধ ...বিশদ

01:27:28 PM

বর্ধমানের শাঁখারিপুকুর এলাকায় গাড়ি-লরির মুখোমুখি সংঘর্ষ, মৃত ২ 

01:23:08 PM