অন্দরমহল
 

হোটেলে রেস্তরাঁয় নববর্ষের নতুন মেনুর সাজ

বাঙালি জীবনের কিছু বিশেষ দিন রয়েছে, যখন সব ভুলে আমরা বাঙালিয়ানায় মেতে উঠি। সাজপোশাক থেকে খাওয়া দাওয়া সবই হয়ে ওঠে পুরোপুরি বাঙালি। এই বিশেষ দিনগুলোর মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বোধহয় পয়লা বৈশাখ। বাঙালির নববর্ষ। হাল খাতা, দোকানের মিষ্টির প্যাকেট আর বাংলা ক্যালেন্ডারের পাশাপাশি জমিয়ে বাঙালির খাওয়া দাওয়া। লাঞ্চ থেকে ডিনার একেবারে বাঙালিয়ানায় পরিপূর্ণ। কী ভাবছেন? ইংরেজি কেতায় অভ্যস্ত হতে গিয়ে বাঙালি রান্নাটা শেখা হয়নি? কুছ পরোয়া নেই। আপনার সাহায্যে হাজির শহরজোড়া হোটেল ও রেস্তরাঁ। বাঙালি থেকে ইন্ডিয়ান খাবার থাকবে তাদের মেনুতে। আর যদি বাঙালি খাবার মুখে না রোচে তাহলেও চিন্তা নেই। শহরে এমন অনেক রেস্তরঁাই আছে যারা বাঙালি ছাড়া বিদেশি বা ফিউশন রান্নায় পারদর্শী। তাহলে আর দেরি কেন? চলুন রেস্তরঁা পরিক্রমায় বেরিয়ে পড়ি। নববর্ষের আগে থাকতেই জেনে নিই এ বছর পয়লা বৈশাখে হোটেল রেস্তরঁায় কেমন মেনু থাকছে।

স্ট্যাডেল
সল্টলেক স্টেডিয়াম সংলগ্ন হোটেল স্ট্যাডেলে মাল্টিকুইজিন রেস্তরাঁ ‘ফার্স্ট ইনিংস’-এ পাবেন বাঙালি থালি। লাঞ্চ ও ডিনারে থাকবে এই থালি। মেনুতে রয়েছে আম পোড়ার সরবত, মোচার চপ, ডিমের ডেভিল, বড়া ভাজা, ঝুরি আলুভাজা, বেগুনি, লুচি, ঢাকাই পোলাও, সাদা ভাত, আমাদা দিয়ে মসুর ডাল, ছানার কোপ্তা, আলু ঝিঙে পোস্ত, দই পোনা, চিংড়ি মালাই, পাঁঠার মাংস, জিরে মুর্গির ঝোল, আমসত্ত্ব ও খেজুরের চাটনি, পাঁপড়, মিষ্টি দই, রাজভোগ। এই থালির দাম ৮৫০ টাকা, কর অতিরিক্ত। থালিটি পাবেন ১৫ এপ্রিল।
এছাড়াও হোটেলের পুলসাইড রেস্তরঁা ‘মিরাজ’-এ ১৫ ও ১৬ এপ্রিল থাকবে বিশেষ মেনু। মেনুর হাইলাইট— চিজ বেকড চিকেন পাতুরি, রোজমেরি সেন্টেড চিংড়ি মালাই, জ্যাসমিন টি ফ্লেভারড তোপসে ভাজা, রাম সোকড মাটন ডাকবাংলো, চিকেন ব্রেইজড উইথ শুকনো লংকা অ্যান্ড পালং শাক, পোস্ত ছানার সবজি, কাঁচা আম অ্যান্ড ক্যারামেলাইজড অরেঞ্জ, স্পিনাচ অ্যান্ড গোবিন্দভোগ রিসোতো ইত্যাদি। এছাড়াও ১৬ এপ্রিল স্ট্যাডেলে পাবেন বাঙালি বুফে। দাম ১২৩৬ টাকা।

ইউয়াচা
সল্টলেক ছেড়ে এবার আমরা পার্ক সার্কাসের পথে। কোয়েস্ট শপিং মলের রেস্তরঁা ইউয়াচায় রয়েছে পয়লা বৈশাখের বিশেষ আয়োজন। চীনে রেস্তরঁা, তাই পদও এখানে খাঁটি বাঙালি নয়। তবে এঁদের নববর্ষের আয়োজন শুরু হয়েছে ৭ এপ্রিল থেকেই। চলবে ১৬ এপ্রিল পর্যন্ত। মেনুতে পাবেন স্ক্যালপ সুই মাই, বেকড চিকেন পাফ, চাইনিজ কিভ ডাম্পলিং, ক্রিস্পি ডাক রোল ইত্যাদি। ভেজ প্ল্যাটারে পাবেন বেকড ভেজ পাফ, ফ্রায়েড টারনিপ কেক, ক্রিস্পি অ্যাসপারাগাস পাম্পকিন অ্যান্ড কর্ন রোল, ভেজি কিভ ডাম্পলিং ইত্যাদি। আমিষ প্ল্যাটার পাবেন ৫২৫ টাকায়, কর অতিরিক্ত। আর নিরামিষ প্ল্যাটারের দাম ৪২৫ টাকা, কর অতিরিক্ত।
এ বছর বাঙালি নববর্ষ আর বিদেশি ইস্টার একেবারে গায়ে গায়ে। ১৪ তারিখ ইস্টার উপলক্ষে তাই ইউয়াচায় পাবেন ইস্টার এগ। তার নানা ধরন। হোয়াইট চকোলেটের মধ্যে রয়েছে ভ্যানিলা রাম গানাশ, শ্যাম্পেইন ট্রাফল, অরেঞ্জ চকোলেট। ডার্ক চকোলেট ফ্লেভারের মধ্যে পাবেন হানি ট্রাফল, র্যা স্পবেরি স্যাফ্রন, পিসট্যাশিও ট্রাফল। মিল্ক চকোলেট ইস্টার এগের মধ্যে রয়েছে স্ট্রবেরি অ্যান্ড পিপার গানাশ, সি সল্ট ক্যারামেল, মিল্ক চকোলেট অ্যান্ড কফি গানাশ। ৫০০ গ্রাম ওজনের ইস্টার এগের দাম ৬০০ টাকা।

উই দেশি
দেশি এই রেস্তরাঁয় পয়লা বৈশাখের বিশেষ মেনু পাবেন ৮ থেকে ১৬ এপ্রিল পর্যন্ত। তার মধ্যে আবার ১৪ থেকে ১৬ এপ্রিল রয়েছে নাববর্ষের নতুন মেনু। মেনুতে পাবেন চিংড়ি ও নারকেল দিয়ে মসুর ডালের স্যুপ। মুর্গির ভরতা ও কুচো চিংড়ির স্যালাড, চিকেন চপ, মাছ ভাজা, মাটন কিমা শিক, দই মাছ, লোসা মাংস, ছানার ডালনা, কুমড়োর ছক্কা, ডাল কচুরি, ধনেপাতার পরোটা, রসগোল্লা, পানতুয়া, জিলিপি, শুকনো সন্দেশ, আইসক্রিম ইত্যাদি। ৮ থেকে ১৩ এপ্রিল পর্যন্ত বুফের খরচ ৫৪৯ টাকা, কর অতিরিক্ত। আর ১৪ থেকে ১৬ এপ্রিলের স্পেশাল বুফের দাম ৬৪৯ টাকা, কর অতিরিক্ত।

সপ্তপদী
হিন্দুস্তান পার্কের এই রেস্তরঁা নামে বাঙালি হলেও এর বৈশাখি মেনুতে পাবেন ফিউশন ফুড। বাঙালির সঙ্গে ভিনদেশির মিলমিশ। মেনুর শুরুতেই চমক। ওয়েলকাম ড্রিংকের মধ্যে রয়েছে লিচু লংকার সরবত। স্টার্টারে ভেটকি-চিংড়ি পিয়াজি, আম পোস্ত মুর্গি, ব্যাটার ফ্রাই বেগুন ফিংগার ইত্যাদি। মেন কোর্সে পাবেন লেবু-লংকা রাইস, ভুনা এঁচড় মশলা, ব্রেইজড কলকাতা ভেটকি মশলা, ভাপা মুর্গির পাতুরি, বাটা মশলা মাংসের ঝোল। শেষ পাতে পাবেন চাটনি, পাঁপড়, মিহিদানার পায়েস, রসগোল্লা ইত্যাদি। দাম ৬৪৯ টাকা।

হলিডে ইন
এয়ারপোর্টর কাছেই হোটেল হলিডে ইন। সেই হোটেলের রেস্তরাঁ সোশ্যাল কিচেন। সেখানেই পয়লা বৈশাখের বিশেষ মেনুর আয়োজন। পদের তালিকায় রয়েছে গন্ধরাজ লেমনেড শটস, মোচার চপ, পোস্তর বড়া, তোপসে মাছ ভাজা, চিকেন মোগলাই পরোটা, সাবুর পাঁপড়ের ওপর ঘুগনি মাংস, জামরুল কাসুন্দি, আলু কাবলি, পিয়াজ লংকা কুচি দিয়ে পাঁপড়, আচার ও চাটনি। পোস্ত লংকা বাটা, ডিম দিয়ে পোস্ত, আলু কুমড়ো ও ডাল ভাতে, পোড়া আম ও ধনেপাতার স্যুপ, মুর্গির রসুয়া, কুমড়ো ছোলার ছেঁচকি, মোচার ধোকা ইত্যাদি। ১৪ থেকে ১৬ এপ্রিল পর্যন্ত চলবে এই বিশেষ মেনু। লাঞ্চের মেনু পাবেন ১১০০ টাকায়, কর অতিরিক্ত। আর ডিনার মেনু থাকবে ১৩৫০ টাকায়, কর অতিরিক্ত।

পার্ক প্যাভেলিয়ন
মল্লিক বাজারের মোড়ে পার্ক প্যাভেলিয়ন। এখানকার পয়লা বৈশাখের মেনুতে পাবেন বেলের মিষ্টি লস্যি, আম পোড়ার সরবত, ক্রিম অফ মাশরুম অ্যান্ড স্পিনাচ স্যুপ, লেমন কোরিয়েন্ডার চিকেন স্যুপ, গ্রিন ভেজি স্যালাড, হানি লেমন ড্রেসিং, সাদা ভাত, ফুলকপি ও কড়াইশুঁটির পোলাও, সোনামুগের ডাল, বেগুন ভাজা, ধনেপাতার বড়া, মাটন বিরিয়ানি, আলু পোস্ত, পালং বড়ির ঘণ্ট, মুর্গ মাশালা, মোচা চিংড়ির চপ, সরষে মাছ ইত্যাদি। ডেজার্টে পাবেন ছানার জিলিপি, ভাপা সন্দেশ, নলেন গুড়ের আইসক্রিম ও বেকড বোঁদে। দু’জনের খাওয়ার খরচ পড়বে ১৬০০ টাকা, কর অতিরিক্ত।

চ্যাপ্টার ২
নববর্ষটাকে এক্কেবারে অন্য ধাঁচে শুরু করুন। কীরকম? না ফিরে চলুন পুরনো দিনে। পুরনো খাওয়া দাওয়ায়। আর এই পুরনো দিনে ফিরে যেতে আপনাকে সাহায্য করবে চ্যাপ্টার ২ রেস্তরাঁ। মানি স্কোয়্যারের এই রেস্তরাঁয় পাবেন পুরনো দিনের কন্টিনেন্টাল মেনু। পদের মধ্যে রয়েছে ক্রিম অফ চিকেন স্যুপ, প্রন অন টোস্ট, প্রন ককটেল, ডেভিলড ক্র্যাব, ভেজিটেবল লাসানিয়া, অ্যাসপারাগাস অ্যান্ড মাশরুম রিসোতো, প্রন নিউবার্গ, ভেটকি লেমন গ্রিলড, চিকেন আলা-কিভ, চিকেন স্ট্রোগানভ, আইরিশ ল্যাম্ব স্টু, পর্ক চপ, ক্যারামেল কাস্টার্ড ইত্যাদি। আগামী ১৫ থেকে ১৭ এপ্রিল থাকবে নববর্ষের নতুন মেনুর আয়োজন। নতুনের মাঝে পুরাতনের খোঁজ পেতে চাইলে খরচ পরবে ৭৫০ টাকা, কর অতিরিক্ত। এছাড়াও বিশেষ বুফে থাকবে পয়লা বৈশাখ উপলক্ষে। তাতে পাবেন ২১ কোর্সের বিশেষ মেনু। ভেজ ও নন-ভেজ স্যালাড পাবেন। স্টার্টার, স্যুপ, মেন কোর্স তো পাবেনই। আরও পাবেন স্পেশাল ডেজার্ট কাউন্টার। এই বুফের দাম ৪৯৯ টাকা, কর অতিরিক্ত।

আওয়াধ ১৫৯০
দেশপ্রিয় পার্কের কাছাকাছি এই রেস্তরাঁয় পাবেন বিশেষ বৈশাখী মেনু। তার মধ্যে পাবেন গুলাউটি কাবাবের সঙ্গে লখনউয়ের পরোটা, আওয়াধি হান্ডি বিরিয়ানি, রান বিরিয়ানি, মুর্গ পরদা বিরিয়ানি, মাহি চাঁপ, মুর্গ রেজালা, মুর্গ ইরানি, গোস্ত রোগান জোশ ইত্যাদি। ১৫ এপ্রিল পাবেন এই বিশেষ মেনু। দু’জনের খাওয়ার খরচ ৮০০ টাকা, কর অতিরিক্ত।

চাওম্যান
বালিগঞ্জ প্লেসের ওরিয়েন্টাল এই রেস্তরঁায় পয়লা বৈশাখের আয়োজনটা বেশ অন্যরকম। রেস্তরাঁ কর্তৃপক্ষের মতে আজকাল বাঙালি খাওয়া দাওয়ার কদর অনেকটাই কম। বিশেষ বিশেষ দিনে আমরা বাঙালিয়ানায় মাতলেও বাঙালি ভোজ বড়জোর একবেলা চলে। তারপরই নতুন প্রজন্ম একটু অন্যরকম মেনুর সন্ধানে বেরয়। আর সেই কথা মাথায় রেখেই তৈরি হয়েছে চাওম্যানের নববর্ষের মেনু। মেনুতে পাবেন হানি গ্লেজড বার-বি-কিউ স্পেয়ার রিবস, সি-ফুড মিফুন, মাউন্টেন চিলি ক্র্যাব সহ আরও বিভিন্ন জিভে জল আনা পদ।

রলিক
পয়লা বৈশাখের জন্য রকিলের মেনু নাকি অ্যাকশন প্যাকড! অন্তত কোম্পানির তরফে তেমনই দাবি। শুধু অ্যাকশন নয়, নতুনত্বও এই মেনুর ইউ এস পি বলে শোনা যাচ্ছে। মেনুর কিছু হাইলাইটসের মধ্যে রয়েছে কুচো গজা সান্ডি, ম্যাংগো ম্যানিয়া সান্ডি, চকো লাভা সান্ডি ইত্যাদি। কুচো গজা দিয়ে ভ্যানিলা আইসক্রিম নাকি এর আগে কারও কল্পনাতেই স্থান পায়নি। এমন পদ তাই অভিনব বলে জানিয়েছেন রলিক কর্তৃপক্ষ। আগামী ১৪ থেকে ১৬ এপ্রিল পাবেন এই অভিনব মেনু। দাম মোটামুটি ১৫০ টাকা থেকে ২০০ টাকার মধ্যে।

মামা মিয়া
ফলের রাজা আম দিয়ে নতুন বছরকে স্বাগত জানাচ্ছে মামা মিয়া। ইতালির জিলাটোর সঙ্গে আমাদের পরিচয় ঘটে এই কোম্পানির হাত ধরে। জিলাটো অর্থাৎ হেলদি আইসক্রিম। এই হেলদি আইসক্রিমের স্বাদ নিতে বাঙালি রাতারাতি জিলাটো প্রেমী হয়ে ওঠে। তারপর থেকেই বিভিন্ন ধরনের নতুনত্ব আমাদের মামা মিয়ার প্রতি আকৃষ্ট করে তুলেছে তাতে সন্দেহ নেই। যাই হোক, মামা মিয়ার নববর্ষ ম্যাজিকে পাবেন আলফানসো ম্যাংগো ম্যাজিক, ফ্রেশ আলফানসো সরবেট, আম পোড়া সরবেট, সুগার ফ্রি ম্যাংগো সরবেট, ম্যাংগো জিলাটো কেক ইত্যাদি। দাম মোটামুটি ৬৯ টাকা থেকে ৭৯ টাকার মধ্যে। ব্যতিক্রম শুধু জিলাটো কেক। তার দাম ৬০০ টাকা।
08th  April, 2017
রেস্তরাঁর খবর

ম্যারিয়টে ফাদার্স ডে
আগামীকাল ফাদার্স ডে। সেই উপলক্ষে জে ডব্লু ম্যারিয়টের ২৪ ঘণ্টার কফিশপ জে ডব্লু কিচেনে রয়েছে জোর আয়োজন। মেনুতে পাবেন কর্ন ফ্রায়েড চিকেন উইথ স্পাইসি করিয়েন্ডার, লেয়ার্ড রাতাতুলি, থাই ভেজ গ্রিন কারি, ল্যাম্ব রেনড্যাং কারি, চিকেন টিক্কা, পনির চেট্টিনাড, রাজস্থানি ডাল বড়া, আলু টোকরি ইত্যাদি। তবে এখানে ফাদার্স ডে শুধু খাওয়া দাওয়াতেই শেষ নয়।
বিশদ

17th  June, 2017
সিরাপে বরফ

গ্রিন ম্যাঙ্গো পপসিকেলস
উপকরণ: কাঁচা আম ১টি (মাঝারি সাইজের), পুদিনাপাতা ৮-১০টি, চিনি  কাপ, পাতিলেবু ১টি, বিটনুন স্বাদমতো, গোটা গোলমরিচ  চা চামচ, জিরে ও ধনেভাজা গুঁড়ো  চা চামচ, জিলেটিন ১ চা চামচ (আধ কাপ গরম জলে গুলে নিন)।
প্রণালী: আমের খোসা ছাড়িয়ে সেটিকে সেদ্ধ করে তার থেকে ক্বাথ বের করে নিন। পুদিনাপাতা বেটে নিন মরিচ থেঁতো করে নিন।
বিশদ

17th  June, 2017
গ্রিলের কামাল

তন্দুরি গ্রিলড ব্রোকোলি
উপকরণ: ব্রোকোলি ১টা, পিয়াজ ১টা, টমেটো ১টা, বেসন ৩ চামচ, টক দই  কাপ, লেবুর রস ২ টেবিল চামচ, সাদা তেল ২ টেবিল চামচ, আদা রসুনের পেস্ট ২ টেবিল চামচ, গরম মশলা গুঁড়ো ১ চা চামচ, প্যাপরিকা পাউডার ১ চা চামচ, হলুদ গুঁড়ো  চা চামচ, ধনে গুঁড়ো ১ চা চামচ, মাখন ১ চা চামচ, স্কিউয়ার প্রয়োজনমতো।
বিশদ

17th  June, 2017
সাঞ্ঝা চুলায়
তন্দুরি নাইটস

ইন্ডিয়ান খাবার। তাতে আবার গ্রিলের বাহার। সব মিলিয়ে স্বাদে-গন্ধে ম ম। এই নিয়েই এবারের সাঞ্ঝা চুলার ট্রিট। বাইপাসের ওপর সাঞ্ঝা চুলা রেস্তরঁায় পাবেন বাহারি ভারতীয় খানা। তবে উত্তর ভারতীয় বললেই ঠিক হয়। পোশাকি ভাষায় যার নাম নর্থওয়েস্ট ফ্রন্টিয়ার কুইজিন। তারই সঙ্গে একটু পাঞ্জাবি, একটু রাজস্থানি মিলেমিশে একাকার। এবারের মেনুতে তন্দুরের নানারকম। তন্দুর রান্নায় মশলার বিশেষত্ব লক্ষ করার মতো। তন্দুরি মশলা দিয়ে ম্যারিনেট করা চিকেন, মাটন বা ল্যাম্বে ঘি মাখিয়ে তা সরাসরি তন্দুর আভেনে আঁচে ঝলসানো হয়। তাতে একটু পোড়া, একটু সেঁকা, জিভে জল আনা স্বাদ আসে রান্নায়। আজ সাঞ্ঝা চুলা থেকে দুটি তন্দুরি রেসিপি সংকলনে কমলিনী চক্রবর্তী।
বিশদ

17th  June, 2017
 রসনায় ওটস

 ওটমিল রেজিন কুকিজ : উপকরণ: ময়দা ১ কাপ, বেকিং সোডা  চা চামচ, বেকিং পাউডার  চা চামচ, নুন  চা চামচ, মাখন  কাপ, চিনি  কাপ, ব্রাউন সুগার  কাপ, ডিম ১টি, ভ্যানিলা ১ চা চামচ, ওটস ১ কাপ, কিশমিশ  কাপ। বিশদ

10th  June, 2017
 কুমড়োর কয়েকরকম

 কুমড়োর কেক: উপকরণ: কুমড়ো ৫০০ গ্রাম, ডিম ৪টে, চিনি ৩০০ গ্রাম, ক্রিম ১০০ গ্রাম, মাখন ২ টেবিল চামচ, দারচিনি গুঁড়ো ১ চামচ, জায়ফল গুঁড়ো ১ চামচ, কাজু ১০টা, কিশমিশ ২ চামচ।
বিশদ

10th  June, 2017
 হোটেল গেটওয়ে থেকে
কন্টিনেন্টাল রান্না

 ‘বুচারি রান্নায় খুবই গুরুত্বপূর্ণ। পরিমাপের কথা আমরা সবাই ভাবি, কিন্তু কাটা ধোয়ার ওপর কেউ তেমন নজর দিই না। অথচ কাটাকাটি ঠিক না হলে রান্নার অর্ধেক চার্ম নষ্ট হয়ে যায়।’ বললেন গেটওয়ে হোটেলের এক্সিকিউটিভ শেফ আশিসকুমার রায়। ইটালিয়ান কুইজিন তাঁর স্পেশালিটি হলেও বিভিন্ন রান্নার ওপর কোর্স করেছেন তিনি। তাঁর মতে কোনও হোটেলের এক্সিকিউটিভ শেফের দায়িত্বে থাকলে সব ধরনের কুইজিনের ওপরেই দখল থাকা দরকার। না হলে খাবারে বৈচিত্র আনা যায় না। গেটওয়ে হোটেল থেকে দুটি ভিন্ন স্বাদের কন্টিনেন্টাল রান্নার রেসিপি সংকলনে কমলিনী চক্রবর্তী।
বিশদ

10th  June, 2017
বেসন দিয়ে নানারকম 

বেসন প্যানকেক
উপকরণ: বেসন ২ কাপ, টকদই ১ কাপ, পিয়াজকুচি ১ টেবিল চামচ, ধনেপাতা কুচি ১ চামচ, টমেটোকুচি  কাপ, নুন স্বাদমতো, কালো জিরে  চামচ, সাদাতেল প্রয়োজনমতো।
বিশদ

03rd  June, 2017
জে ডব্লু ম্যারিয়ট হোটেলে খাবারে ওরিয়েন্টাল স্বাদ

গতানুগতিকের সঙ্গে আধুনিকতার মেলবন্ধন ঘটেছে জে ডব্লু ম্যারিয়টের ফাইন ডাইনিং রেস্তরাঁ ভিন্টাজ এশিয়ায়। রান্নার পদ্ধতি এখানে আধুনিক। আধুনিক রেস্তরাঁর অন্দরসজ্জা। কিন্তু রেসিপিতে রয়েছে গতানুগতিকতার ছোঁয়া।
বিশদ

03rd  June, 2017
 রেস্তরাঁর খবর

প্রচণ্ড গরমে একটু আরামের খোঁজে চলুন ক্যাফে প্রাণায়। সেখানে চলছে সামার কুলার ফেস্ট। নানারকম আইসড্‌ টি ও ইয়োগার্ট পাবেন মেনুতে। দাম ৯০ টাকা থেকে ১১৯ টাকা।  
বিশদ

27th  May, 2017



একনজরে
 রাষ্ট্রসংঘ, ২২ জুন (পিটিআই): ‘সন্ত্রাসবাদের বিপুল অর্থ কোথা থেকে আসছে?’ রাষ্ট্রসংঘে পাকিস্তানের নাম না করে এই প্রশ্ন তুললেন ভারতের স্থায়ী প্রতিনিধি সৈয়দ আকবরউদ্দিন। বুধবার রাষ্ট্রসংঘের ...

 প্রসেনজিৎ কোলে, কলকাতা: ‘শাট ডাউন’ বা যান্ত্রিক গোলযোগে বিদ্যুৎ সরবরাহ ব্যাহত হলে এবার সরাসরি এসএমএস যাবে গ্রাহকদের মোবাইল ফোনে। সিইএসসির মতোই রাজ্যজুড়ে এসএমএস পরিষেবা চালু ...

সংবাদদাতা, ঘাটাল: ঘাটালের সুন্দরপুরে তিনজনকে পুড়িয়ে মারার ঘটনায় অপরাধীদের গ্রেপ্তারের বিষয়ে প্রশাসন কোনওরকম ত্রুটি রাখবে না। বৃহস্পতিবার মৃতদের পরিবারকে সান্ত্বনা দিতে এসে এই আশ্বাস দেন ...

 বিএনএ, বারাসত: কোটি কোটি টাকা আত্মসাৎ করার অভিযোগ উঠল হাবড়ার ‘আবাদ সোনাকানিয়া সমবায় কৃষি উন্নয়ন সমিতি লিমিটেডের’ ম্যানেজার ও ক্যাশিয়ারের বিরুদ্ধে। গ্রাহকদের দাবি, প্রায় চার ...


আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

কর্মপ্রার্থীদের বিভিন্ন থেকে শুভ যোগাযোগ ঘটবে। হঠাৎ প্রেমে পড়তে পারেন। কর্মে উন্নতির যোগ। মাঝ মধ্যে ... বিশদ



ইতিহাসে আজকের দিন

 ১৯৪৮: সাহিত্যিক নবারুণ ভট্টাচার্যের জন্ম
 ১৯৫২: অভিনেতা ও রাজনীতিক রাজ বব্বরের জন্ম
 ১৯৫৩: রাজনীতিক শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের মৃত্যু
 ১৯৮০: বিমান দুর্ঘটনায় রাজনীতিক সঞ্জয় গান্ধীর মৃত্যু




ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৩.৭০ টাকা ৬৫.৩৮ টাকা
পাউন্ড ৮০.৪২ টাকা ৮৩.২০ টাকা
ইউরো ৭০.৮৭ টাকা ৭৩.৩৯ টাকা
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ২৯,১২৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ২৭,৬৩০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ২৮,০৪৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৮,৮০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৮,৯০০ টাকা

দিন পঞ্জিকা

৮ আষাঢ়, ২৩ জুন, শুক্রবার, চতুর্দশী দিবা ১১/৫০, রোহিণীনক্ষত্র দিবা ৭/৪৯ পরে মৃগশিরা শেষ রাত্রি ৪/৪৯, সূ উ ৪/৫৭/৬, অ ৬/২০/১২, অমৃতযোগ দিবা ১২/৫-২/৪৫ রাত্রি ৮/২৮ পুনঃ ১২/৪৩-২/৫০ পুনঃ ৩/৩৩-উদয়াবধি, বারবেলা ৮/১৮-১১/৩৯, কালরাত্রি ৯/০-১০/১৯।
 ৮ আষাঢ়, ২৩ জুন, শুক্রবার, চতুর্দশী ১১/১০/৪৪, রোহিণীনক্ষত্র ৭/২৮/৫১, সূ উ ৪/৫৪/৪, অ ৬/২২/১৫, অমৃতযোগ দিবা ১২/৫/১৬-২/৪৬/৫৪, ৮/২৮/৪৮, ১২/৪১/৩১-২/৪৭/৫৩, ৩/৩০/০-৪/৫৪/২১, বারবেলা ৮/১৬/৭-৯/৫৭/৮, কালবেলা ৯/৫৭/৮-১১/৩৮/৯, কালরাত্রি ৯/০/১২-১০/১৯/১১।
২৭ রমজান

ছবি সংবাদ


এই মুহূর্তে
  নাগরিক পরিষেবা দিতে ‘বন্ধু’ অ্যাপ চালু করল লালবাজার
 নাগরিকদের পরিষেবা দিতে কলকাতা পুলিশ ‘বন্ধু’ নামে একটি নয়া অ্যাপ চালু করল। এই অ্যাপের সাহায্যে মোবাইল, পাসপোর্ট, ড্রাইভিং লাইসেন্সের মতো ৩১টি সামগ্রী হারিয়ে গেলে স্মার্ট ফোন ব্যবহার করে ঘরে বসেই জেনারেল ডায়েরি করা যাবে। এরজন্য আর থানায় যেতে হবে না। আবার, এই অ্যাপে ‘প্যানিক’ বোতাম রয়েছে। বিপদের সময় কেউ এই বোতামে চাপ দিলে তা কলকাতা পুলিশের কন্ট্রোল রুমে ‘১০০-ডায়াল এ ফোন যাবে। এমনকী শহরের কোথায় পার্কিংলট ফাঁকা আছে, তাও জানা যাবে এই অ্যাপের সাহায্যে। আবার আপনার হারানো মোবাইল ফোন উদ্ধার হল কি না, তাও জানাবে এই অ্যাপ। গুগুল প্লে স্টোর থেকে এই অ্যাপ ডাডনলোড করা যাবে।

08:30:00 AM

 ইতিহাসে আজকের দিনে
  ১৯৪৮: সাহিত্যিক নবারুণ ভট্টাচার্যের জন্ম
 ১৯৫২: অভিনেতা ও রাজনীতিক রাজ বব্বরের জন্ম
 ১৯৫৩: রাজনীতিক শ্যামাপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের মৃত্যু
 ১৯৮০: বিমান দুর্ঘটনায় রাজনীতিক সঞ্জয় গান্ধীর মৃত্যু

08:30:00 AM

  বাগনানে ফের ট্যারেন্টুলা আতঙ্ক
বাগনান থানার ঈশ্বরপুর, খালোড়সহ বিভিন্ন এলাকার মানুষ বিষাক্ত মাকড়সার আতঙ্কে তটস্থ। প্রায় প্রতিদিনই কোনও না কোনও গ্রামে কালো লোমযুক্ত লম্বা পাওয়ালা বড় বড় মাকড়সা দেখে অনেকেই ‘ট্যারেন্টুলা’ আতঙ্কে আতঙ্কিত। কয়েকদিন আগে ঈশ্বরপুর গ্রামের একটি বাড়ি থেকে এই মাকড়সা মারা হয়। সেটি বন দপ্তরের কাছেও পাঠানো হয়। এগুলি ট্যারেন্টুলা না হলেও বিষাক্ত মাকড়সা বলে বনদপ্তর সূত্রে বলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার ভোরবেলা খালোড় গ্রামের স্বপন রায়ের বাড়ি থেকে এ ধরনের একটি মাকড়সা মারা হয়। এই মাকড়সা বনজঙ্গল থেকে এখন ঘরের বিছানায় চলে যাচ্ছে। বাচ্চাদের কামড়ালে বিপদের আশঙ্কা রয়েছে বলে স্থানীয় চিকিৎসকরাও মনে করছেন।

08:20:00 AM

মনের ভাব প্রকাশে এইচপি’র নোটবুক
পড়ুয়া থেকে শুরু করে পেশাদার বা চাকরিজীবী—মানুষের শিল্পীসত্তাকে উজ্জীবিত করতে দু’টি নোটবুক নিয়ে এল এইচপি। উইনডোজ ইংক ক্ষমতার নতুন কনভার্টেবল নোটবুকগুলি হল এইচপি প্যাভিলিয়ন X ৩৬০ এবং এইচপি স্পেকট্রা X ৩৬০। সংস্থা জানিয়েছে, এতে থাকছে সপ্তম জেনারেশনের প্রসেসর, আইপিএস ফুল এফএইচডি টাচস্ক্রিন ডিসপ্লে, চার জিবি পর্যন্ত এনভিডিয়া ডেডিকেটেড গ্রাফিক্স কার্ড। এছাড়াও থাকছে এইচপি অ্যাক্টিভ পেন, যা উইনডোজ ইংকের সাহায্যে মনের ভাব প্রকাশে সাহায্য করবে। এতে আঁকা যাবে, লেখা যাবে বা হাইলাইট করা যাবে কোনও লেখা। সংস্থাটি জানিয়েছে, এই নোটবুকগুলির দাম ৪০ হাজার ২৯০ টাকা থেকে ১ লক্ষ ১৫ হাজার ২৯০ টাকার মধ্যে।

08:07:00 AM

  ২০২৪ সালের মধ্যে জনসংখ্যার বিচারে চীনকে টপকাবে ভারত
মাত্র সাত বছরের মধ্যেই জনসংখ্যায় চীনকে টেক্কা দেবে ভারত। বুধবার রাষ্ট্রসংঘের তরফে প্রকাশিত এক রিপোর্টে এমনই কথা বলা হয়েছে। এই রিপোর্টে আরও বলা হয়েছে, ২০৫০ সালের আগেই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে টেক্কা দিয়ে জনসংখ্যার বিচারে তৃতীয় স্থানে উঠে আসতে চলেছে নাইজেরিয়া। ইকোনমিক অ্যান্ড সোশ্যাল অ্যাফেয়ার্স দপ্তরের জনসংখ্যা বিভাগ সূত্রে জানা গিয়েছে, বর্তমানে পৃথিবীর জনসংখ্যা প্রায় ৭৬০ কোটি। ২০৩০ সালের মধ্যে সেই সংখ্যা গিয়ে দাঁড়াবে ৮৬০ কোটিতে। ২০৫০ সালের মধ্যে তা ছুঁয়ে ফেলবে ৯৮০ কোটি এবং ২১০০ সালের মধ্যে বিশ্বের জনসংখ্যা দাঁড়াবে ১ হাজার ১২০ কোটিতে। ২৩৩টি দেশের থেকে জনসংখ্যা বিষয়ক তথ্য সংগ্রহ করে একথা জানিয়েছেন জনসংখ্যা বিভাগের ডিরেক্টর জন উইলমথ। তিনি আরও জানিয়েছেন, আফ্রিকার জনসংখ্যা দ্রুতহারে বাড়ছে। ২০৫০ সালের মধ্যে জনসংখ্যা যত বাড়বে, তার অর্ধেকটাই বাড়বে আফ্রিকায়। অপরদিকে, ইউরোপে জনসংখ্যা বৃদ্ধির হার ক্রমশ নিম্নগামী।

08:05:00 AM

 আজ ক. বিশ্ববিদ্যালয়ের তৃতীয় বর্ষের অনার্সের ফল
আজ, শুক্রবার প্রকাশিত হতে চলেছে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের পার্ট থ্রি’র বিএ, বিসএসসি এবং বিকমের অনার্স এবং মেজরের ফল। বৃহস্পতিবার পরীক্ষা নিয়ামক বিভাগের আধিকারিকরা জানিয়েছেন, এই পরীক্ষার ফলের দিকে বাড়তি গুরুত্ব দেওয়া হয়। কারণ, এরপর সবাই স্নাতকোত্তরে ভরতি হতে দেশ-বিদেশে আবেদন করে। তাই দ্রুত ফল প্রকাশের চেষ্টা করা হয়। এই পরীক্ষায় প্রায় ৫২ হাজার প্রার্থী পরীক্ষায় বসেছিলেন। তৃতীয় বর্ষের পরীক্ষা শুরু হয়েছিল ৪ এপ্রিল এবং শেষ হয় ১৭ এপ্রিল। তবে জেনারেলের ফল কবে প্রকাশিত হবে, তা এখনও ঠিক হয়নি বলেই খবর।

08:03:00 AM