Bartaman Patrika
অন্দরমহল
 

বাংলার ঐতিহ্য নিয়ে আই টি সি রয়্যাল বেঙ্গল

ইস্টার্ন বাইপাসের বুকে সুবিশাল আই টি সি রয়্যাল বেঙ্গল তার সম্পূর্ণ ক্রিয়াকলাপ শুরু করে দিয়েছে। গমগম করছে হোটেলের অন্দরমহল। রেস্তরাঁগুলোতেও অতিথি সমাগম লেগেই রয়েছে। হোটেলের গ্র্যান্ড মার্কেট প্যাভেলিয়ন রেস্তরাঁয় পাবেন ব্রেকফাস্ট, লাঞ্চ ও ডিনারের সেট মেনু। সেখান থেকেই দুটি রেসিপি দিলেন হোটেলের একজিকিউটিভ শেফ বিজয় মালহোত্রা। রেসিপি সংকলনে কমলিনী চক্রবর্তী।

রাস্তা থেকেই চওড়া ড্রাইভটা মাথা উঁচু করে সোজা উঠে গিয়েছে দোতলায়। সেখানে বড়সড় গাড়ি বারান্দা। হোটেলের নাম আই টি সি রয়্যাল বেঙ্গল। হোটেলের তরফে অরুন্ধতী ঘোষ জানালেন নামের সঙ্গে খাপ খাইয়ে হোটেলের সাজসজ্জায় রয়েছে বাঙালিয়ানা ও পুরনো জমিদারি ছাপ। সেন্সর লাগানো কাচের দরজা পেরিয়ে ভেতরে ঢুকলেই বনেদী ছাপ স্পষ্ট হয়ে ওঠে। লবির সামনের দেওয়ালগুলোয় টাঙানো রয়েছে বাংলার বিশিষ্ট কাঁথা কাজের জমকালো ওয়াল হ্যাংগিং। ফ্রেমে বাঁধানো এই সূক্ষ্ম কারুকাজগুলো প্রকৃতই বাংলার ঐতিহ্যের কথা বলে। লবির দু’পাশ দিয়ে উঠে গেছে শ্বেত পাথরের চওড়া ঘোরানো সিঁড়ি। আর একটু ঢুকে চলে আসুন রিসেপশনে। এলাহি বসার বন্দোবস্ত রয়েছে সেখানে। সেই সঙ্গেই পাবেন বাংলার আরও একটু ছোঁয়া। রিসেপশন ডেস্কের পিছনের দেওয়ালে লাগানো রয়েছে বাংলার ব্লক প্রিন্টিংয়ের বোর্ড। শুধু যে সেই বোর্ডে বাংলার ছাপ সীমাবদ্ধ তাও নয়। এদিক ওদিক তাকালে সর্বত্রই বাংলা ও বাঙালিয়ানার ছাপ স্পষ্টভাবে ধরা পড়বে হোটেলের অন্দরসজ্জায়। এই যেমন ডোকরার শোপিস, সুসজ্জিত ঝাড়বাতি বা লণ্ঠনের মতো মোম।
হোটেলের অন্দরসজ্জার কথা তো অনেক হল এবার একটু হোটেলের রেস্তরাঁ প্রসঙ্গে আসা যাক। লাউঞ্জ ও রিসেপশনের ঠিক মাথার ওপর রেস্টুরেন্ট ফ্লোর। এখানে রয়েছে ভেজিটেরিয়ান ও ইটালিয়ান দুটি রেস্তরাঁ। এ দুটিতেই পাবেন ডিনারের ব্যবস্থা। এছাড়াও আছে দার্জিলিং টি লাউঞ্জ। এখানে দার্জিলিং চা ছাড়াও টুকটাক স্ন্যাক্স পাবেন। তবে এই হোটেলের অন্যতম বৈশিষ্ট্য ও আকর্ষণ যে রেস্তরাঁ তার নাম গ্র্যান্ড মার্কেট প্যাভেলিয়ন।
নামের সঙ্গে সামঞ্জস্য রেখে একটা বাজারের ছবি ফুটে উঠেছে রেস্তরাঁর অন্দরসজ্জায়। এ যেন রেস্তরাঁ নয়, বরং ব্রিটিশ আমলের হগ মার্কেট। কী নেই সেখানে? বিভিন্ন প্যাভেলিয়নে সাজানো রয়েছে হরেক রকম খাবার দাবার। তাতে পুব থেকে পশ্চিম সবরকম খাবারই পাবেন। তবে এই রেস্তরাঁর অভিনব আকর্ষণ এখানকার নর্থ ইস্টার্ন স্টল। এখানে উত্তর-পূর্বাঞ্চলের রান্না পরিবেশন করা হয়। মণিপুর, মিজোরাম, নাগাল্যান্ড, মেঘালয় সব রকম খাবার পাবেন এই স্টলে। এছাড়াও আছে এশিয়ান কিচেন, ওয়াকারি, স্টু অ্যান্ড ক্যাসারোল, গ্লোবাল গ্যালারি, প্যাভেলিয়ন ডেলি, কাবাবরি, কিচেনস অব ইন্ডিয়া, ডেজার্ট স্টুডিও ইত্যাদি। উত্তর-পূর্বাঞ্চলের ৩০০ রকম জাতি উপজাতির হেঁশেল থেকে নানা ধরনের পদ তুলে এনেছেন হোটেলের একজিকিউটিভ শেফ। নাগা খাবারের ঝাল ঝাঁঝালো স্বাদ যেমন পাবেন তেমনই পাবেন সিকিমের নেপালি খানা। পাশাপাশি রয়েছে ত্রিপুরা ট্রাইবাল কুইজিন বা অরুণাচলের অর্গানিক কুইজিন। আবার তারই পাশাপাশি পাবেন মিজোরামের বার্মিজ খানাপিনা। মণিপুরের খাবারের ধরন আবার এক্কেবারে আলাদা। এখানে রয়েছে নিরামিষ খাবারের আধিক্য। পুরাকালে মণিপুর ছিল বৈষ্ণব রাজ্য। তাই খাবারও এখানে স্বাদে গন্ধে অন্য ধাঁচের। এহেন এলাহি বুফে পাবেন ১২৫০ টাকায়, কর অতিরিক্ত। ভিন্নতায় ভরা নর্থ ইস্টার্ন কাউন্টার থেকে দুটি রেসিপি অন্দরমহলের পাঠকদের উপহার দিলেন একজিকিউটিভ শেফ বিজয় মালহোত্রা।

উপকরণ: কাবলি ছোলা বা সাদা মটর ২০০ গ্রাম, আদাকুচি ১০ গ্রাম, ধনেপাতাকুচি ১০ গ্রাম, মৌরি ৩ গ্রাম, পেঁয়াজশাক ১০ গ্রাম, বেসন ৭০ গ্রাম, নুন স্বাদ মতো, জল প্রয়োজন অনুযায়ী, সাদা তেল ভাজার জন্য।
পদ্ধতি: অল্প গরম জলে কাবলি ছোলা বা সাদা মটর ২ ঘণ্টা ভিজিয়ে রেখে দিন। তারপর তা জল ঝরিয়ে শুকিয়ে নিন। এরপর বেসন, নুন, আদা কুচি, ধনেপাতাকুচি, মৌরি, পেঁয়াজশাক কুচি একসঙ্গে মেশান। তাতে শুকিয়ে নেওয়া কাবলি ছোলা বা সাদা মটর মেশান। এইসব উপকরণের সঙ্গে অল্প অল্প করে জল মেশান ও তা একসঙ্গে মাখুন। জল যেন বেশি না হয়ে যায় সেদিকে খেয়াল রাখবেন। মিশ্রণটা বেশ আঁটোসাঁটো হলে তা আলাদা করে সরিয়ে রেখে দিন। এবার কড়াইতে বা ননস্টিক ফ্রাই প্যানে তেল গরম করে নিন। এরপর কাবলি ছোলা আর বেসনের মিশ্রণ থেকে অল্প অল্প করে নিয়ে তা যেমন তেমন আকৃতিতে ভাজুন। বেশ সোনালি বাদামি রং ধরলে তেল ঝরিয়ে নামিয়ে নিন। নিজের পছন্দসই চাটনি সহযোগে এই ভাজা পরিবেশন করুন।

উপকরণ: চর্বিযুক্ত পর্ক বেলি ৩০০ গ্রাম, থেঁতো করা আদার টুকরো ২০ গ্রাম, চিলি ফ্লেকস ১০ গ্রাম, কালো তিল রোস্ট করে বাটা ৮০ গ্রাম, নুন স্বাদ মতো, রোস্ট করা গোলমরিচ গুঁড়িয়ে নেওয়া ১০ গ্রাম, আদা ও রসুনকুচি ১০ গ্রাম।
পদ্ধতি: পর্ক নুন, চিলি ফ্লেকস ও থেঁতো করা আদা দিয়ে ম্যারিনেট করে রাখুন অন্তত ৪ ঘণ্টা। তারপর তা অল্প জল দিয়ে প্রেসারে সেদ্ধ করে নিন। অথবা ঢিমে আঁচে সেদ্ধ করুন। কড়াইতে তেল গরম করে আদা ও রসুন ভেজে নিন। তারপর পর্ক দিয়ে ঢিমে আঁচে রান্না করুন। তেল ছেড়ে এলে কালো তিল বাটা দিয়ে কষিয়ে নিন। তারপর ঢাকা দিয়ে ঢিমে আঁচে রাঁধুন। নুন দিন। সব শেষে গোলমরিচগুঁড়ো দিয়ে নামিয়ে নিন। ব্যাম্বু পিকল আর সাদা ভাত সহযোগে পরিবেশন করুন।
22nd  June, 2019
সোনার তরীতে সোনার ইলিশ 

বাংলার রুপোলি শস্য ইলিশের প্রেমে পাগলপারা নয়, এমন বাঙালির খোঁজ পাওয়া মোটেই সহজ কাজ নয়। তাই বর্ষা আসতে না আসতেই সব জায়গায় শুরু হয়ে যায় ইলিশের পার্বণ। সিটি সেন্টার ওয়ানের সোনার তরী রেস্তরাঁও স্বাভাবিকভাবেই তার ব্যতিক্রম নয়।  বিশদ

20th  July, 2019
চিকেন চাররকম 

উপকরণ: চিকেন ৬ পিস, পেঁয়াজ ৩টে (বড় করে কাটা), আদা, রসুন বাটা ১+১ চামচ, লবঙ্গ ৪টে, বড় এলাচ ১টা, দারচিনি ১টা, টম্যাটো পিউরি ১ কাপ, লেবু ১টা, কাজু ১০ পিস, জিরেগুঁড়ো ১ চামচ, ধনেগুঁড়ো ১ চামচ, মাখন ১ চামচ, কসুরি মেথি ১ চামচ, লাললঙ্কা ১ চামচ, চিনি ১ চামচ, নুন স্বাদমতো, মালাই ১ চামচ, তেজপাতা ১টা, ঘি ২ চামচ।
পদ্ধতি: চিকেনের পিসগুলোতে লেবু ও নুন মাখিয়ে ১০ মিনিট ম্যারিনেট করুন।  বিশদ

20th  July, 2019
দই চাই দই চাই... 

প্রণালী: একটি বাটিতে চালের গুঁড়ো গরম জল দিয়ে ভালো করে গুলে রাখতে হবে। একটি পাত্রে দুধ নিয়ে লো ফ্লেমে জ্বাল দিতে হবে এবং বারবার করে সর তুলে একটি বাটিতে রাখতে হবে। দুধ ফুটে যখন অর্ধেকের কম হবে তখন চালের গুঁড়ো গোলাটা দিয়ে জ্বাল দিতে হবে।   বিশদ

20th  July, 2019
আফরা রেস্তরাঁয় বুফের মেনুর নানারকম 

বুফে মেনু আবার নতুন করে চালু হয়েছে আফরা রেস্তরাঁয়। সেই মেনু থেকে দুটি উল্লেখযোগ্য পদের রেসিপি দিলেন রেস্তরাঁর এগজিকিউটিভ শেফ। রেসিপি সংকলনে কমলিনী চক্রবর্তী। 
বিশদ

20th  July, 2019
গ্রিলড রেসিপি 

উপকরণ: গ্রিল চিকেনের জন্য: চিকেন ২৫০ গ্রাম, লেবুর রস ২ চামচ, টকদই ২ চামচ, আদা-রসুন পেস্ট ১ চামচ, গোলমরিচ গুঁড়ো ১ চামচ, নুন স্বাদমতো।
স্ম্যাশড পটাটোর জন্য: একটি আলু ভালো করে সেদ্ধ করা, ফ্রেশ ক্রিম ২ চামচ, পার্সলে কুচি ১ চামচ, নুন স্বাদমতো, বাটার ১ চামচ।  বিশদ

13th  July, 2019
মাটন ইংলিশ ভিংলিশ 

উপকরণ: মাটন (সামনের রাং) ৪ বা ৫ পিস, আলু ১টি ২ পিস করে কাটা, গাজর বড় ২টি টুকরো, সেলারি কুচি ২ টেবিল চামচ, পার্সলে কুচি ১ টেবিল চামচ, আদাকুচি  চা চামচ, রসুনকুচি  চা চামচ, চিকেন স্টক ২ কাপ, নুন স্বাদমতো, গোলমরিচ গুঁড়ো ১ চা চামচ, ময়দা ১ টেবিল চামচ, মাখন ১ টেবিল চামচ, সাদা তেল প্রয়োজন মতো, পেঁয়াজ কুচি  কাপ, বিনস ৫ বা ৬টি লম্বা করে কাটা।  বিশদ

13th  July, 2019
বেদিক ভিলেজে নানা পদে ইলিশ

বেদিক ভিলেজের ভূমি রেস্তরাঁয় চলছে ইলিশ উৎসব। অন্দর মহলের পাঠকদের জন্য মেনু থেকে দুটি রেসিপি জানালেন শেফ আজাদ। রেসিপি সংকলনে কমলিনী চক্রবর্তী। 
বিশদ

13th  July, 2019
পদে পদে চিজ চাই 

চিজ ক্রিসপিইজ
উপকরণ: গ্রেট করা চিজ ৪ টেবিল চামচ, ময়দা  কাপ, নরম মাখন ৬০ গ্রাম, ডিম ১টি, চিনি ১ চা চামচ, নুন  চা চামচ, গোল মরিচ গুঁড়ো  চা চামচ, জায়ফল গুঁড়ো  চা চামচ, ক্রিম ২ টেবিল চামচ। 
বিশদ

06th  July, 2019
ওয়েস্টইন হোটেলে ৩১-৩২ লাউঞ্জ 

কলকাতার সর্বোচ্চ রুফটপ লাউঞ্জ ৩১-৩২ সম্প্রতি চালু হয়েছে ওয়েস্ট ইন হোটেলে। এখানে খাবার পাবেন বাইট সাইজ পোর্শনে। ড্রিঙ্কসের সঙ্গে উপযুক্ত নানা ধরনের মেনু রয়েছে। এই মেনুর বিশেষত্ব ফিউশন।   বিশদ

06th  July, 2019
জে ডব্লু ম্যারিয়টে ক্রিকেট ম্যানিয়া 

ক্রিকেট বিশ্বকাপ জমে উঠেছে। সেমিফাইনালে কারা খেলবে তা ইতিমধ্যেই নির্দিষ্ট হয়ে গিয়েছে। এখন সেই খেলায় কে কাকে হারিয়ে ফাইনালে উঠতে পারে তা দেখার জন্য সবাই অধীর আগ্রহে অপেক্ষমান। 
বিশদ

06th  July, 2019
খিচুড়িতে বাজিমাত 

সব্জি খিচুড়ি
উপকরণ: গোবিন্দভোগ চাল ১ কাপ, মুগডাল ১ কাপ, কড়াইশুঁটি  কাপ, ফুলকপি, আলু ২টো (ছোট কুচি করা) টম্যাটো কুচি ১টি, লঙ্কাগুঁড়ো  চা চামচ, হলুদগুঁড়ো ১ চা চামচ, জিরেগুঁড়ো ১ চা চামচ, শুকনোলঙ্কা ২টো, তেজপাতা ২টো, আদাবাটা ২ টেবিল চামচ, লবঙ্গ ২টো, দারচিনি  ইঞ্চি, নুন স্বাদ মতো, জল  লিটার, নুন, চিনি স্বাদ মতো, ঘি ২ টেবিল চামচ। 
বিশদ

06th  July, 2019
 চিকেন মাটন লা জ বা ব

 উপকরণ: চিকেন ড্রামস্টিক ১০-১২ পিস, ভিনিগার ১ টেবিলচামচ, ডার্ক সয়াস্যস ১ টেবিল চামচ, আদা রসুনবাটা ২ টেবিলচামচ, চিলিফ্লেক্স ২ টেবিলচামচ।
ব্যাটারের জন্য: ডিম ১টি, কর্নফ্লাওয়ার ১ টেবিল চামচ, ময়দা ১ টেবিল চামচ, ডার্ক সয়াস্যস  চা চামচ, নুন, লঙ্কাগুঁড়ো  চা চামচ করে।
বিশদ

29th  June, 2019
 পরোটা পিৎজা

 উপকরণ: বোনলেস চিকেন ১ কাপ, মজরেলা চিজ প্রয়োজন মতো, চিজ কিউব ২টো, বেলপেপার কিছুটা, পেঁয়াজ অল্প, অরিগেনো  চা চামচ, চিলিফ্লেক্স  চামচ, গোলমরিচের গুঁড়ো  চা চামচ, তেল প্রয়োজন মতো, আটা ২ কাপ, নুন স্বাদ মতো, পিৎজা স্যস ৪ চা চামচ, অনিয়ন পাউডার  চা চামচ।
বিশদ

29th  June, 2019
রলিক আইসক্রিম পার্লার থেকে সুস্বাদু সানডে

বৈশাখ, জ্যৈষ্ঠ পেরিয়ে আষাঢ় পড়ে গেল, তবু গরমের শেষ নেই। বৃষ্টিরও েদখা নেই। আকাশে সূর্যদেবের একচ্ছত্র আধিপত্য। এমনই কঠোর যখন প্রকৃতি তখন আরামের উপায় খুঁজতে হবে বৈকি। আর সেই আরাম আনতেই রয়েছে মনোরম আইসক্রিম। আইসক্রিম মা‌নেই যে শুধু ভ্যানিলা, স্ট্রবেরি, চকোলেট তা নয়। এইসব আইসক্রিম মিশিয়ে আর তার সঙ্গে অন্যান্য নানা ধরনের উপকরণ যোগ করে বানানো যায় অসাধারণ সুস্বাদু কোল্ড ডেজার্ট। আইসক্রিম ও অন্যান্য উপকরণের মিলমিশে যে ধরনের আইসক্রিম তৈরি হয় তার গালভারী নাম সানডে। প্রখর তপন তাপে প্রাণ যখন ওষ্ঠাগত তখনই এমন ঠান্ডা ঠান্ডা কুল কুল সানডেতে মন ভেজান। আইসক্রিম কোম্পানি রলিকে বিভিন্ন ফ্লেভারে নিত্য নতুন স্বাদের সানডে পাবেন। রলিক স্পেশাল সানডের দাম মোটামুটি ১১০ টাকা থেকে ২৫০ টাকার মধ্যে। সানডে ছাড়াও রলিকে পাবেন আইসক্রিম কেক। দাম ৪৫০ টাকা থেকে শুরু। আর সাধারণ স্কুপ আইসক্রিম চাইলে তাও পাবেন ৪০ থেকে ৪৫ টাকা প্রতি স্কুপ। আর দোকানে না গিয়ে বাড়ি বসেই যদি রলিক স্পেশাল সানডে খেতে ইচ্ছে করে? তাহলে সে উপায়ও আছে। বাড়িতেও যাতে আনায়াসে বানাতে পারেন তার জন্য অন্দরমহলের পাঠকদের দুটি সানডের সহজ রেসিপি দিলেন রলিক কর্তৃপক্ষ। রেসিপি সংকলনে কমলিনী চক্রবর্তী।
বিশদ

29th  June, 2019
একনজরে
সংবাদদাতা, রামপুরহাট: আগামী ২৩ জুলাই থেকে এক সপ্তাহ ধরে বীরভূম জেলাজুড়ে বিস্তারক বর্গ কমসূচিতে নামতে চলেছে বিজেপি। তবে গতবছর বিস্তারক কর্মসূচিতে মোদি সরকারের বিভিন্ন প্রকল্পের সুবিধা তুলে ধরে প্রচার করা হয়েছিল।   ...

পল্লব চট্টোপাধ্যায়, কলকাতা: তিনিই যোগ্যতম। বাণিজ্য শাখার স্কুল শিক্ষক হিসেবে চাকরিতে যোগ দেন ২০০১ সালের ৩০ জুলাই। কিন্তু, কম যোগ্যতাসম্পন্নদের স্কুলে শিক্ষক পদে রেখে দেওয়া হলেও তাঁর চাকরি বিগত ১৮ বছরেও অনুমোদিত হয়নি। তাঁর মামলা সূত্রে দেওয়া কলকাতা হাইকোর্টের একাধিক ...

  নয়াদিল্লি, ২০ জুলাই: বিশ্বকাপের সময় ভারতীয় ক্রিকেটাররা মাত্র ১৫ দিন পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে খাকার সুযোগ পাবেন। এটাই ছিল বিসিসিআইয়ের নিয়ম। কিন্তু এখন জানা যাচ্ছে, ...

 ভোপাল, ২০ জুলাই (পিটিআই): ভেজাল দুধের বড়সড় চক্রের পর্দা ফাঁস করল মধ্যপ্রদেশ পুলিস। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে অভিযান চালিয়ে শনিবার এই চক্রে জড়িত থাকার অভিযোগে মোট ৬২ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিস। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

উচ্চবিদ্যার ক্ষেত্রে ভালো ফল হবে। ব্যবসায় যুক্ত হলে খুব একটা ভালো হবে না। প্রেমপ্রীতিতে বাধাবিঘ্ন। ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯২০: মা সারদার মৃত্যু
১৮৬৩: কবি, গীতিকার ও নাট্যকার দ্বিজেন্দ্রলাল রায়ের জন্ম
১৮৯৯: লেখক বনফুল তথা বলাইচাঁদ মুখোপাধ্যায়ের জন্ম
১৯৫৫: প্রাক্তন ক্রিকেটার রজার বিনির জন্ম
২০১২: বাংলাদেশের লেখক হুমায়ুন আহমেদের মূত্যু 

20th  July, 2019
ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৭.৯৫ টাকা ৬৯.৬৪ টাকা
পাউন্ড ৮৪.৭৭ টাকা ৮৭.৯২ টাকা
ইউরো ৭৬.১০ টাকা ৭৯.০৪ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
20th  July, 2019
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৫,৫২৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৩,৭০৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৪,২১০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪০,৫৫০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪০,৬৫০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৪ শ্রাবণ ১৪২৬, ২১ জুলাই ২০১৯, রবিবার, চতুর্থী ১৬/২২ দিবা ১১/৪০। শতভিষা ৫/৪৫ দিবা ৭/২৫। সূ উ ৫/৬/৫২, অ ৬/১৮/১৬, অমৃতযোগ প্রাতঃ ৫/৫৯ গতে ৯/৩১ মধ্যে। রাত্রি ৭/৪৫ গতে ৯/১১ মধ্যে, বারবেলা ১০/৪ গতে ১/২২ মধ্যে, কালরাত্রি ১/৩ গতে ২/২৪ মধ্যে।
৪ শ্রাবণ ১৪২৬, ২১ জুলাই ২০১৯, রবিবার, চতুর্থী ৯/২৬/৩১ দিবা ৮/৫২/১৬। শতভিষানক্ষত্র ২/০/৪৮ প্রাতঃ ৫/৫৩/৫৯, সূ উ ৫/৫/৪০, অ ৬/২১/৪৭, অমৃতযোগ দিবা ৬/৪ গতে ৯/৩২ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/৪১ গতে ৯/৮ মধ্যে, বারবেলা ১০/৪/১৩ গতে ১১/৪৩/৪৪ মধ্যে, কালবেলা ১১/৪৩/৪৪ গতে ১/২৩/১৪ মধ্যে, কালরাত্রি ১/৪/১২ গতে ২/২৪/৪২ মধ্যে।
১৭ জেল্কদ

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
  ইস্ট বেঙ্গলে জুনিয়র বিশ্বকাপার
ইস্ট বেঙ্গলের অনুশীলনে যোগ দিলেন যুব ভারতীয় দলের স্ট্রাইকার অভিজিৎ ...বিশদ

09:28:53 AM

প্রয়াত দিল্লির প্রাক্তন বিজেপি সভাপতি মঙ্গেরাম গর্গ 

09:25:00 AM

তেলেঙ্গানার নালগোন্ডায় জামাইবাবুর গলা কেটে খুন করল শ্যালক 

09:22:00 AM

হায়দরাবাদের জুলজিক্যাল পার্কে একটি সিংহের মৃত্যু 

09:20:00 AM

‘সি সি’ না নিলে মিলবে না ফ্ল্যাটের রেজিস্ট্রেশন
পুরসভার দেওয়া ‘কমপ্লিশন সার্টিফিকেট’ বা সিসি না দেখে ফ্ল্যাট কিনবেন ...বিশদ

09:19:10 AM

মণিপুরে মহাবলি মন্দির সংলগ্ন নদীতে তলিয়ে গেল ২ শিশু 

09:19:00 AM