বিশেষ নিবন্ধ
 

বাৎসল্য রসের পরাকাষ্ঠা মা যশোদার আত্মাভিমান চূর্ণ করলেন শ্রীকৃষ্ণ
চিদানন্দ গোস্বামী

ভারতবর্ষের পৌরাণিক সাংস্কৃতিক ইতিহাসের এক সূর্য-করোজ্জ্বল ঘটনা। তত্ত্বে গভীর, দার্শনিকতায় গভীর, নৈতিকতাতেও। তাই বিশ্ব-জাগতিক জীবনে আকর্ষণে চিরন্তন মূল্যবান রত্ন সম্পদ।
মা যশোদা পুত্রকে অভিযুক্ত করে বন্ধন করবেন। এতে অবাক হবার কিছুই নেই। কিন্তু সামান্য জাগতিক পারিবারিক সম্পর্কের নিরিখে পুত্র হলেও, বিশ্ব জগতের জীবজগৎকে যিনি মায়ায় বেঁধে রেখেছেন, যিনি পরম মুক্তিদাতা, সেই শ্রীকৃষ্ণকে রজ্জু দিয়ে বাঁধবেন মা যশোদা—বৃন্দাবনের এক গোয়ালিনী! সেটা মহা বিস্ময়ের।
ঘুম ভাঙতেই বিছানায় মাকে না পেয়েই কৃষ্ণের রাগ-অভিমান। পালঙ্ক থেকে নেমে গেল কৃষ্ণ। শয্যা ছেড়ে একেবারে মায়ের কাছে। প্রত্যুষে মা যশোদা দধি মন্থন করছেন কৃষ্ণের প্রিয় পদ্মগন্ধি বিশেষ গাভির দুধের নবনী তৈরি করতে। নন্দরাজার অন্তঃপুরে সেদিন কেউ নেই। ইন্দ্রপূজার উৎসব দেখতে গিয়েছে। দাস-দাসীরাও চলে গিয়েছে। যাননি শুধু যশোদা মা। সন্তানের টানে রয়ে গিয়েছেন। নবনী তৈরির সুযোগ ছাড়তে আছে? মনপ্রাণ আকুল ব্যাকুল কৃষ্ণের জন্যে। মায়ের কৃষ্ণ সেবা।
ক্ষৌমবস্ত্র পরনে। স্থূলাঙ্গী যশোদা মা মন্থনদণ্ড আন্দোলন করছেন। বাইরে কারা দল বেঁধে ভাটগান করছে। যশোদার সর্বাঙ্গে ঘাস। খোঁপা থেকে মালতি ফুল ঝরে পড়ছে। কঙ্কণে কিনিকিনি মিষ্টি ধ্বনি উঠছে। প্রাণময় পুত্র-বাৎসল্যের মনোরম শোভা। সে এক অপূর্ব দৃশ্য, সঘন স্নেহ-পরিবেশ। কাজ করতে করতে উথলে ওঠা দুধের কড়াই সামলাতে যশোদা অন্য ঘরে উঠে গিয়েছেন। কিন্তু সদ্য ঘুম ভাঙা বাছা কৃষ্ণের যে বড় স্তন-তৃষ্ণা। অথচ মা কাছে নেই। আর রক্ষে আছে? অমনি প্রবল অভিমান আর ক্রোধ। কী করবে দিশাহারা। সঙ্গে সঙ্গে পাথরের টুকরো দিয়ে দধি পাত্র ভেঙে ফেলল। ভাঙা পাত্র থেকে একরাশ নবনী গড়িয়ে গড়িয়ে মেঝেময় ছড়িয়ে যাচ্ছে। দৃশ্যটির বড় আবেদন। মহানামব্রত ব্রহ্মচারীজির দার্শনিক এবং কাব্যিক দৃষ্টি তখন বড় সুন্দর। হৃদয়স্পর্শী। তিনি বলছেন, কৃষ্ণসেবায় কাজে লাগল না বলে ওই নবনীধারা যেন ক্রন্দন করে করে, অনুতাপে গড়াগড়ি করে চলে যাচ্ছে। বড় দুঃখ নবনীর। ওদিকে কৃষ্ণ বেচারার মনে কিছুটা অপরাধ বোধও কাজ করছে। মায়ের শাস্তির ভয়ও। তাই চুপটি করে কাঁচুমাচু করে একটি উদুখলের উপরে কাঁদো কাঁদো হয়ে বসে আছে। আর মায়ের দিকে নজর রাখছে।
যশোদা মা ছুটে এসেই কাণ্ড দেখে দিশাহারা। এত শ্রমের এত অন্তর মেশানো নবনী দুষ্টু ছেলে নষ্ট করে ফেলল। রাগ, বেজায় রাগ মায়ের। দারুণ উত্তেজনা ক্রমে। কিছু কিছু অভিযোগ তো আছেই সন্তানের বিরুদ্ধে। ননী চুরি, সখাদের মধ্যে বিলিয়ে দেওয়া, বানরদের খাওয়ানো ইত্যাদি। এবার হাতে লাঠি নিলেন মা। শাস্তি দরকার। কিন্তু ভারী শরীরে ছেলের পিছু ধাওয়া করে করে কোনও কাজ হল না। এবার সিদ্ধান্ত নিয়ে নিলেন। আজ ওকে বাঁধতেই হবে। বিশ্বের জীবজগতের বন্ধনদাতাকে বাঁধবেন গোয়ালিনী যশোদা মা। কিন্তু অতসব গভীর ভাবনার দরকার নেই। নিজের সন্তানকে মায়ের বাঁধতে সমস্যা কোথায়। বাঁধবই।
চুলবাঁধার ফিতে দিয়ে প্রাথমিক চেষ্টা। কিন্তু হচ্ছে না। আরও আরও ফিতে জুড়েও হচ্ছে না। যতবার পাক দিয়ে দিয়ে আনা হচ্ছে, ততবারই দু’আঙুল খামতি হচ্ছে ফিতের। ছোট্ট কৃষ্ণের ক্ষীণ কটিদেশ বাঁধতে কেনই বা দু’আঙুল দড়ির ঘাটতি হচ্ছে! রহস্যটা বুঝতে পারছেন না। বুঝতে চাইছেনও না মা। উপস্থিত প্রতিবেশিনী গোয়ালিনীরা চুলের ফিতে খুলে খুলে জোগান দিচ্ছে। রাশি রাশি দড়ির স্তূপ। না, তবুও হচ্ছে না। ব্যর্থ মা যশোদা। যশোদা বিস্মিত ক্লান্ত হতাশ। ভেবে কূল পাচ্ছেন না যশোদা। কৃষ্ণ কিন্তু মিট মিট করে হাসছে। আর চুপ করে মায়ের কাছে ঠায় দাঁড়িয়ে তাকিয়ে আছে।
শ্রীমদ্ভাগবতের ফেলালব অংশে শ্রীমন্‌ মহানামব্রত ব্রহ্মচারীজি আশ্চর্য অদ্বিতীয় ব্যাখ্যা বিশ্লেষণ করেছেন রহস্যের। কারণটির মধ্যে রয়ে গিয়েছে একটি বড় গভীর তত্ত্ব।
দু’আঙুলের তাৎপর্যটি কী? এক আঙুলের ঘাটতির অর্থ হচ্ছে ভগবানে পূর্ণ আত্মসমর্পণের অভাব এবং আত্মাভিমানের প্রাবল্য। আত্মসমর্পণ পূর্ণ না হলে এবং আত্মাভিমান দূর না হলে এক আঙুলের ঘাটতি মেটানো যাবে না। আত্মাভিমান আমিত্ব আর অহমিকার বিনাশ হলেই ভগবানের করুণা হবে। তখনই আরেক আঙুল পূরণ হয়ে যাবে। প্রথম কাজটি করতে হবে ভক্তকে, অর্থাৎ যশোদাকে। দ্বিতীয়টি ভগবানের, অর্থাৎ কৃষ্ণের। বাৎসল্য রসের পরম পরাকাষ্ঠা গরম স্নেহময়ী জননী বটে মা যশোদা। তবুও ভগবানের ভক্ত তো। তাই ভক্ত হিসেবে অহমিকা বা আত্মাভিমান ধুয়ে ফেলতে হবে যশোদাকে। যশোদার মনে যতক্ষণ বাসা বেঁধে আছে আমিত্ব, অর্থাৎ আমি আমার পুত্রকে সহজেই বাঁধতে পারব, ততক্ষণ যশোদার সিদ্ধি হবে না। কৃষ্ণ করুণা হবে না।
যশোদা শ্রমে ক্লান্ত। ব্যর্থতায় হতাশ। আর যেন পারছেন না। চোখেমুখে পরাজয়ের ক্লান্তি। এই ক্লান্তিকে বলা হয় সাধনোত্থ ক্লান্তি। হ্যাঁ, যখন অহমিকা দূর হল, তখন সাধনাও পূর্ণ হল। কৃষ্ণের নয়নে নয়ন রেখে ভক্ত যশোদা বললেন, আমি আর কিছুতেই পারছি না। কৃষ্ণ মুচকি হেসে মাকে বলল, নাও, বাঁধো আমাকে এবার। বন্ধন নিল কৃষ্ণ। বাঁধলেন যশোদা। জগৎপতি ঠিক এখানেই হয়ে উঠলেন করুণাসিন্ধু। তখন গোপেশ্বর বা গোপীকাকান্ত বা রাধাকান্ত নয়, তখন আত্মাভিমান মুক্ত ভক্তের বাঞ্ছা পূর্ণ করলেন ভগবান শ্রীকৃষ্ণ।
অনেক অনেক আপনতম জনের এমন এমন আত্মাভিমান চূর্ণ করেছেন ভগবান শ্রীকৃষ্ণ। রাসলীলায় গোপিনীদের ঈর্ষা এবং অহমিকা চূর্ণ করেছেন। সত্যভামার এমন অহমিকা হয়েছিল, আমিই শ্রেষ্ঠা মহিষী। এই ঈর্ষা আর অহমিকা চূর্ণ করেছেন। পরম প্রিয় সখা অর্জুনের কিংবা অত্যন্ত বিশ্বস্ত প্রিয় মিত্র উদ্ধবের অহমিকাও চূর্ণ করে শিক্ষা দিয়েছেন। অহমিকাশূন্য স্নেহ বাৎসল্য প্রেম সখ্যতাই ভগবান চাইবেন ভক্তের কাছ থেকে।
12th  August, 2017
গুম-নিখোঁজ ও পরমানন্দ মন্ত্রণালয়
সৌম্য বন্দ্যোপাধ্যায়

বাংলাদেশে ‘লিট ফেস্ট’ শুরু ও শেষ হল। সেই কারণে কি না জানি না, অরুন্ধতী রায়ের দ্বিতীয় উপন্যাস ‘দ্য মিনিস্ট্রি অব আটমোস্ট হ্যাপিনেস’ হুট করে সংবাদপত্রে চর্চার কেন্দ্রে উঠে এল। এই মুহূর্তে বাংলাদেশের অত্যন্ত জনপ্রিয় সাহিত্যিক ও সাংবাদিক, আমার অতি ঘনিষ্ঠ ও প্রিয় আনিসুল হক এই উপন্যাসের বাংলা নাম দিয়েছেন ‘পরমানন্দ মন্ত্রণালয়’।
বিশদ

লন্ডন, এডিনবরা এবং মমতা
শুভা দত্ত

দুর্গাপুজোর দিন যত এগিয়ে আসে, আনন্দটা তার সঙ্গে সমানুপাতিক হারে বাড়ে। এ আমাদের বাঙালি সংস্কৃতির চিরন্তন সত্য। আর মা দুর্গাকে ঘিরে সেই উৎসবের রামধনু রং ফিকে হতে শুরু করে নবমীর সন্ধ্যা থেকেই। আজ বাদে কাল দশমী। মায়ের ফিরে যাওয়ার পালা।
বিশদ

চীনের প্রেসিডেন্ট বনাম ভারতের ডিফেন্স রিসার্চ
প্রশান্ত দাস

জিনপিং দেশের বিখ্যাত বিজ্ঞানীদের বললেন—আমাদের সমাজতন্ত্র দেশকে তরতর করে এগিয়ে নিয়ে চলেছে। এগিয়ে চলেছে আমাদের অর্থনীতি। কিন্তু গত পাঁচ বছরে আপনারা ক’টি অবিশ্বাস্য অস্ত্র দিতে পেরেছেন সেনাদের? ভারতের ডিআরডিও কী করে পৃথিবীতে দু’নম্বর রিসার্চ সেন্টার হল? কী নেই আপনাদের? যা যা চাই, তালিকা পাঠান। যতদিন না আমরা ডিআরডিও-কে ছাপিয়ে যেতে পারছি, ততদিন আমরা নিজেদের এশিয়ার মধ্যে এক নং বলতে পারব না।
বিশদ

18th  November, 2017
রাজ্যের লাইব্রেরিগুলিকে বাঁচাতেই হবে
পার্থজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়

মনে পড়ছে গত ডিসেম্বরের কথা। বীরভূম জেলার সরকারি বইমেলার আয়োজন হয়েছিল সিউড়িতে, ইরিগেশন কলোনির মাঠে। আমি উদ্বোধক, মঞ্চে জেলার মন্ত্রীরা, সঙ্গত কারণেই উপস্থিত ছিলেন গ্রন্থাগারমন্ত্রীও। মঞ্চে বসেই সিদ্দিকুল্লা চৌধুরীর সঙ্গে পরিচয়, আলাপচারিতা।
বিশদ

18th  November, 2017
মোদির আমলে শিশুদের খিদের যন্ত্রণা তীব্র, কারণ শিশু ও মহিলা উন্নয়নে গুরুত্ব কম
দেবনারায়ণ সরকার

কেন্দ্রীয় সরকারের গত ৩ বছরের বাজেটের তথ্য সার্বিকভাবে বিচার করলে দেখা যাচ্ছে কেন্দ্রীয় বাজেটে মোট ব্যয় যেখানে ২১ শতাংশের বেশি বেড়েছে (টাকার অঙ্কে অতিরিক্ত প্রায় ৩ লক্ষ ৫১ হাজার কোটি টাকা), সেখানে মহিলা ও শিশু উন্নয়নে ব্যয় কপর্দকও বাড়েনি, বরং প্রায় ১ শতাংশ কমেছে। একইভাবে মহিলা ও শিশু উন্নয়ন ব্যয় বাজেটের মোট ব্যয়ের ১ শতাংশের অনেক নীচে নেমেছে। মোদ্দা কথা হল, যে দেশের কেন্দ্রীয় বাজেটে মহিলা ও শিশু উন্নয়নের ব্যয় বাজেটে মোট ব্যয়ের ১ শতাংশেরও কম এবং এই ব্যয় মোদির জমানায় যেহেতু আরও কমছে, সেই দেশে রোজ রাতে খালি পেটে শুতে যাওয়া শিশুদের সংখ্যা ক্রমশ বৃদ্ধিটাই স্বাভাবিক। তাই ভারতে পাল্লা দিয়ে বেড়েছে অপুষ্টিও।
বিশদ

17th  November, 2017
ডেঙ্গু: রাজনীতি ছেড়ে হাত মিলিয়ে কাজের সময়
অনিরুদ্ধ কর

অবিলম্বে একটা স্ট্যান্ডার্ড অপারেটিং প্রসিডিওর বা নিয়মাবলী প্রকাশ করতে হবে সরকারের তরফে। সরকারি নির্দেশ মানতে বাধ্য সকল সরকারি বেসরকারি ও প্রাইভেট চিকিৎসা কেন্দ্র। অতীতের দিকে নজর দিলে দেখা যাবে বার্ড ফ্লু বা সোয়াইন ফ্লু-র সময় সরকারের তরফে এমন নিয়মাবলী প্রকাশ করা হয়েছিল। চিকিৎসাব্যবস্থায় কী কী থাকতে হবে এবং কোথায় থাকবে তাও বলে দেওয়া হয়েছিল। ফ্লু-র ওষুধ একমাত্র সরকার দিত। খোলাবাজারে মিলত না সেই ওষুধ। কারণ সেক্ষেত্রে ওষুধ নিয়ে কালোবাজারি এবং চড়া দামে ওষুধ বিক্রি হওয়ার আশঙ্কা থেকে যেত। এছাড়া একটি রাজ্যস্তরের কমিটি ছিল পর্যালোচনার জন্য।
বিশদ

17th  November, 2017
প্যারিস, পরিবেশ এবং উচ্চাকাঙ্ক্ষী ভারত
শান্তনু দত্তগুপ্ত

 পরিবেশ মানে হল যেখানে সেখানে থুতু না ফেলা। মন্তব্যটি আমারই এক ঘনিষ্ঠ বন্ধুর। এবং কী ভয়ঙ্কর সাবলীল স্বীকারোক্তি। যে দেশে ৩০ কোটি মানুষ এখনও দারিদ্রসীমার নীচে বসবাস করেন, যেখানে সাক্ষরতা বলতে বোঝানো হয় নিজের নাম সই করতে পারা, সেখানে সচেতনতার প্রাথমিক পাঠটা এমন একটা মন্তব্য দিয়ে শুরু করলে মন্দ কী!
বিশদ

16th  November, 2017
সার্ধশতবর্ষের শ্রদ্ধাঞ্জলি টেম্‌স থেকে গঙ্গা: ভগিনী নিবেদিতার দার্শনিক যাত্রা
জয়ন্ত কুশারী

 আয়ারল্যান্ডের স্বল্প জনবসতি শহর ডুং গানন। স্যামুয়েল রিচমন্ড নোবেল নামে এক ধর্মযাজক ও তাঁর ভক্তিমতী স্ত্রী মেরি ইসাবেল হ্যামিলটন বাস করেন এই শহরে। এঁরা সর্বশক্তিমান ঈশ্বরের কাছে করজোড়ে প্রার্থনা করেন সুখপ্রসবে প্রথম সন্তানটি হলে তাঁরা ঈশ্বরের চরণেই সদ্যোজাতকে সমর্পণ করবেন।
বিশদ

16th  November, 2017
নোট বাতিল: উত্তরপ্রদেশের ভোট, রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক এবং চে গুয়েভারা
শুভময় মৈত্র

নোট বাতিলের কারণ এবং ফল সংক্রান্ত আলোচনা দেখে, শুনে এবং পড়ে জনগণ এই বিষয়ে যথেষ্ট অবহিত, হয়তো বা কিছুটা ক্লান্তও বটে। বিজেপি সরকার কেন এই সিদ্ধান্ত নিলেন, এর কী কী ভুল ভ্রান্তি আছে, দেশের কী ক্ষতি হল, সাধারণ মানুষ ঠিক কতটা ভুগলেন এই নিয়ে আমরা যতটা আলোচনা করেছি সেই পরিমাণটা সময় এবং সম্পদের হিসেবে পাঁচশো আর হাজার টাকার মোট বাতিল নোটের মূল্যের থেকে বেশিও হয়ে যেতে পারে।
বিশদ

14th  November, 2017
বুকে লাল গোলাপের সেই মানুষটির কথা আজ খুব মনে পড়ছে
মোশারফ হোসেন

স্বপনদা বলত, পচার চাই। বুঝলে ভায়া, পচারটাই আসল। বাঁকুড়া মানুষ স্বপনদা র-ফলা উচ্চারণ করতে পারত না। তার মুখে ‘প্রচার’ শব্দটা ‘পচার’ হয়েই বেরত। আগ্রার ভঁপু চক্কোত্তিও একই কথা বলেছিলেন। ভঁপুবাবুর সঙ্গে আমার আলাপ হয়েছিল ১৯৯৩ সালে। এরকমই এক নভেম্বরে। উত্তরপ্রদেশের বিধানসভা ভোটের খবর করতে গিয়ে।
বিশদ

14th  November, 2017
ফাইলের ভয় দেখিয়ে মুকুল কি রাজ্য রাজনীতিতে জায়গা করতে পারবেন?
শুভা দত্ত

ভয় দেখাচ্ছেন মুকুল রায়, ফাইলের ভয়। মারাত্মক তথ্য ঠাসা গোপন সব ফাইল নাকি সদ্য গেরুয়াধারী মুকুল রায়ের হাতে! সেসব ফাইলের তথ্য প্রকাশ পেলেই নাকি ধরাশায়ী হবে তৃণমূল! মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের রাজত্ব চলে যাবে! আর সেই সুযোগে ড্যাং ড্যাং করে মুকুল রায়ের বিজেপি পশ্চিমবঙ্গের দখল নেবে। মমতা ভুলে বাংলার জনতাও মোদিজি অমিতজির বন্দনায় আত্মহারা হবে।
বিশদ

12th  November, 2017
ভারতের স্বাস্থ্য পরিষেবা ব্যবস্থাকে আরও জনকল্যাণমুখী ও সংগঠিত করা প্রয়োজন
বরুণ গান্ধী

 এবারে আমার আলোচনার বিষয়বস্তু হল, আমাদের দেশের সামগ্রিক স্বাস্থ্য পরিষেবা নিয়ে। খুব বেশিদিন নয়, মাত্র মাসদুয়েক আগের কথা। গোরখপুরের বি আর ডি হাসপাতালে ৬০ জন ছোট ছেলে-মেয়ে পাঁচ দিনের মধ্যে প্রায় বিনা চিকিৎসায় মারা গেল। এর থেকে দুঃখের ঘটনা আর কিছু হয় না। খবরে প্রকাশ, প্রতিদিন এই হাসপাতালে গড়ে ২০০/২৫০ জন এনসেফ্যালাইটিস রোগে আক্রান্ত রোগী ভরতি হচ্ছিলেন। রোগীর এহেন ভিড়ে এখানকার চিকিৎসার পরিকাঠামো একরকম ভেঙে পড়ে। বিশদ

12th  November, 2017
একনজরে
বিএনএ, কোচবিহার: পঞ্চায়েত নির্বাচনকে পাখির চোখ করে আজ, রবিবার থেকে আদাজল খেয়ে ময়দানে নামছে কোচবিহার জেলা বিজেপি। নভেম্বরের মধ্যেই তৃণমূল স্তরে সংগঠনের বুথস্তরের কমিটি তৈরির কাজ শেষ করে ভিতকে আরও মজবুত করার ব্যাপারে রাজ্য থেকে জেলাতে নির্দেশ পাঠানো হয়েছে। ...

 আমেদাবাদ, ১৮ নভেম্বর: গুজরাত নির্বাচনের প্রাক্কালে হার্দিক প্যাটেলকে নিয়ে চাপে পড়ল কংগ্রেস। পাটিদার সংরক্ষণের দাবি মেনে নিতে কংগ্রেসকে নতুন করে চরমসীমা দিল ‘পাটিদার আনামত আন্দোলন সমিতি’ (পাস)। সেইমতো কংগ্রেসের উপর চাপ বাড়িয়ে বেশ কিছু টিকিট আদায় করে নিতে চাইছে হার্দিকের ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ভারতীয় ব্যাটিংয়ের অন্যতম ভরসা চেতেশ্বর পূজারা বলেছেন, কাউন্টি ক্রিকেট খেলার সুবিধা পাচ্ছেন তিনি। তিনি এই প্রসঙ্গে আরও বলেন, ‘এই মরশুমে আমি আটটি কাউন্টি ম্যাচ খেলেছি। ফলে ইডেনের উইকেটে ব্যাট করতে খুব বেশি সমস্যা হয়নি। ...

সংবাদদাতা, রামপুরহাট: মাড়গ্রাম থানার কালিদহ গ্রামে শনিবার অগ্নিদগ্ধ হয়ে এক গৃহবধূর মৃত্যু হয়েছে। পুলিস জানিয়েছে, মৃতার নাম আফরোজা বিবি(২১)। শুক্রবার রাতে শ্বশুরবাড়িতে অগ্নিদগ্ধ হন আফরোজা। তাঁকে রামপুরহাট স্বাস্থ্য জেলা হাসপাতালে ভরতি করেন পরিবারের সদস্যরা। ...


আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

বিদ্যার্থীদের বিষয় নির্বাচন সঠিক হওয়া দরকার। কর্মপ্রার্থীরা কোন শুভ সংবাদ পেতে পারেন। কারও সঙ্গে সম্পর্কহানি ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮৩৮: সমাজ সংস্কারক কেশবচন্দ্র সেনের জন্ম
১৮৭৭: কবি করুণানিধান বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্ম
১৯১৭: ভারতের তৃতীয় প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধীর জন্ম
১৯২২: সঙ্গীতকার সলিল চৌধুরির জন্ম
১৯২৮: কুস্তিগীর ও অভিনেতা দারা সিংয়ের জন্ম
১৯৫১: অভিনেত্রী জিনাত আমনের জন্ম

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৪.০০ টাকা ৬৫.৬৮ টাকা
পাউন্ড ৮৪.৩২ টাকা ৮৭.১৯ টাকা
ইউরো ৭৫.২০ টাকা ৭৭.৮৩ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
18th  November, 2017
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩০,১৯৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ২৮,৬৫০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ২৯,০৮০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪০,২০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪০,৩০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৩ অগ্রহায়ণ, ১৯ নভেম্বর, রবিবার, প্রতিপদ রাত্রি ৭/১৫, নক্ষত্র-অনুরাধা রাত্রি ৯/৫৭, সূ উ ৫/৫৫/৪৩, অ ৪/৪৮/১৭, অমৃতযোগ দিবা ঘ ৬/৪০ গতে ৮/৫০ মধ্যে পুনঃ ১১/৪৪ গতে ২/৩৮ মধ্যে। রাত্রি ঘ ৭/২৩ গতে ৯/১১ মধ্যে পুনঃ ১১/৪৯ গতে ১/৩৪ মধ্যে পুনঃ ২/২৭ গতে উদয়াবধি, বারবেলা ১০/০ গতে ১২/৪০ মধ্যে, কালরাত্রি ১২/৫৯ গতে ২/৩৯ মধ্যে।
ইতু পূজা।
 
২ অগ্রহায়ণ, ১৯ নভেম্বর, রবিবার, প্রতিপদ রাত্রি ৫/৪৫/৪১, অনুরাধানক্ষত্র ৯/২৭/৫২, সূ উ ৫/৫৬/১২, অ ৪/৪৭/১৯, অমৃতযোগ দিবা ৬/৩৯/৩৬-৮/৪৯/৩৮, ১১/৪৩/০-২/৩৬/২১, রাত্রি ৭/২৫/৬-৯/১০/১৬, ১১/৪৮/৩-১/৩৩/১৪, ২/২৫/৫০-৫/৫৬/৫৮, বারবেলা ১০/০/২২-১১/২১/৪৫, কালবেলা ১১/২১/৪৫-১২/৪৩/৯, কালরাত্রি ৯/৪৩/১৩-১১/২১/৫৮।
ইতু পূজা।

২৯ শফর

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
আই এস এল: নর্থইস্ট ইউনাইটেড :০ জামশেদপুর এফ সি :০
আজ গুয়াহাটির ইন্দিরা গান্ধী অ্যাথেলেটিক স্টেডিয়ামে আই এস এল-এ মুখোমুখি ...বিশদ

18-11-2017 - 10:04:08 PM

আই এস এল: নর্থইস্ট ইউনাইটেড :০ জামশেদপুর এফ সি :০ (প্রথমার্ধ)

18-11-2017 - 08:54:58 PM

 মিস ওয়ার্ল্ড ২০১৭ হলেন মনুষী ছিল্লর

18-11-2017 - 08:23:20 PM

আই এস এল: নর্থইস্ট ইউনাইটেড:০ জামশেদপুর এফ সি:০
আজ গুয়াহাটির ইন্দিরা গান্ধী অ্যাথেলেটিক স্টেডিয়ামে আই এস এল-এ মুখোমুখি ...বিশদ

18-11-2017 - 08:11:51 PM

ট্রেনের সময়সূচি বদল
ডাউন ট্রেন দেরিতে আসার জন্য

১২৩৩১ আপ হাওড়া-জাট ...বিশদ

18-11-2017 - 07:16:00 PM