বিশেষ নিবন্ধ
 

গ্যাসে ভরতুকি ছাড়ার অনুরোধ আসলে ধান্ধা
মৃন্ময় চন্দ

সরকারি অর্থনীতির চলন বোঝাতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট রোনাল্ড রেগন একবার বলেছিলেন—‘‘If it moves, tax it. If it keeps moving, regulate it. And if it stops moving, subsidize it.’’ ৫৭.৫ লাখ এলপিজি গ্রাহক ভরতুকি ছেড়ে দিয়েছেন। দেশে এলপিজি গ্রাহকের সংখ্যা এই মুহূর্তে ১৪.৭০ কোটি। গত এপ্রিল থেকে সেপ্টেম্বরে সরকারকে এলপিজি ভরতুকি বাবদ খরচ করতে হয়েছে মাত্র ৮,৮১৪ কোটি টাকা, পূর্ববর্তী বছরে যা ছিল ৪০,৫৯১ কোটি টাকা। ব্যাপক মূল্য হ্রাসের কারণ—বিশ্ববাজারে অশোধিত তেলের দামের অভূতপূর্ব পতন। আইএমএফ রিপোর্ট বলছে বিশ্বের ১৭৬টি দেশে বহাল তবিয়তে বিরাজমান জ্বালানি ভরতুকি; পূর্ব, মধ্য ইউরোপ ও সিআইএস বা ভাঙন পূর্ববর্তী রাশিয়া বিশ্বের ১৫ শতাংশ জ্বালানি ভরতুকি দেয়। প্রাকৃতিক গ্যাসে সর্বোচ্চ ৩৬ শতাংশ ভরতুকিও তাদের। কিরজিগ, তুর্কমেনিস্তান, ইউক্রেন ও উজবেকিস্তান তাদের জিডিপি-র ৫ শতাংশ (বিশ্বের সর্বাধিক) ব্যয় করে জ্বালানির ভরতুকিতে। ভরতুকি ছাড়ার মরমি আবেদন তাহলে কোনও ধান্ধায়?
রান্নার গ্যাস বা এলপিজি ভরতুকি ও সরকারি ধান্ধাবাজি: উদারীকরণের সোপান হিসেবে ২০০২ সালে তুলে দেওয়া হল অ্যাডমিনিস্টারড প্রাইস মেকানিজম বা এপিএম-কে। এপিএম তুলে দেওয়ার পর পেট্রোপণ্যের মূল্য নির্ধারণে চালু হল ‘ইমপোর্ট’ প্যারিটি প্রাইসিং বা আইপিপি। এলপিজি ও কেরোসিন বিক্রি হয় পাবলিক ডিস্ট্রিবিউশন সিস্টেম বা পিডিএস মারফত। ভারত, পেট্রোপণ্যের সবটাই প্রায় আমদানি করে। ফলে আইপিপির সূত্র মোতাবেক দেশীয় উৎপাদকরা চাইবেন পুরো পেট্রোপণ্যটাই আমদানি করতে। কারণ, আমদানিতে কোনও শুল্ক নেই, নেই কোনও উৎপাদন খরচ।
পেট্রোপণ্যের মধ্যে প্রথমেই থাকবে পেট্রল ও ডিজেল। কারণ, যাবতীয় পেট্রোপণ্য বিক্রির ৪১.৭৩ শতাংশ রয়েছে পেট্রল ও ডিজেলের দখলে। আন্তর্জাতিক বাজারে অশোধিত তেলের দামের ওঠা-পড়ার সঙ্গে সামঞ্জস্য বিধান করে অয়েল মার্কেটিং কোম্পানি বা ওএমসি স্বাধীনভাবে ঠিক করবে পেট্রল, ডিজেল ও গ্যাসের দাম। কার্যত তা কিন্তু হল না। ২০০৪-র ১ আগস্ট সরকার এক প্রাইস ব্যান্ড বা ‘মূল্য পটি’ চালু করল। আন্তর্জাতিক বাজারে গত ১৫ দিনের মূল্যমানের হিসেবে ওএমসি দেশীয় বাজারে আইপিপি সূত্র মোতাবেক ঠিক করবে পেট্রল-ডিজেলের খুচরো মূল্য। ‘ব্যান্ড প্রাইসের’ সঙ্গে জুড়বে সি অ্যান্ড এফ (কস্ট অ্যান্ড ফ্রেইট) যা আন্তর্জাতিক বাজারে গত তিনমাসের পেট্রোপণ্যের দামের চক্রাকার হ্রাসবৃদ্ধির গড়ের ১০ শতাংশ বেশি বা কম হবে। আর যা অবশ্যই হবে গত একবছরের দামের সঙ্গে সুসামঞ্জস্যপূর্ণ।
পেট্রোপণ্যের দাম নির্ধারণে আম আদমির কোনও অংশীদারিত্ব নেই, সরকার যা বলবে তাই আমজনতা মানতে বাধ্য। ২০০৫-র ৪ আগস্ট স্ট্যান্ডিং কমিটি অফ পেট্রোলিয়াম অ্যান্ড ন্যাচারাল গ্যাস লোকসভায় যে ‘ষষ্ঠ রিপোর্ট’ পেশ করেছিল তাতে পরিষ্কার উল্লিখিত পেট্রোপণ্যের বর্তমান দামের ৫০ শতাংশেরও বেশি কেবল কর। বর্তমানে ২৩% কেন্দ্রীয় সরকারি কর আর ৩৪% ভ্যাট রাজ্য সরকারি। শতাংশের হিসেবে করের পরিমাণ মুম্বই, চেন্নাই, কলকাতা ও দিল্লিতে যথাক্রমে ১৪৬ শতাংশ, ১৩৮ শতাংশ, ১৩২ শতাংশ ও ১১২ শতাংশ।
আইপিপি সূত্র অনুযায়ী, সারা পৃথিবীর রিফাইনারি বা পরিশোধনাগারগুলোকে নানারকম চার্জ দিতে হয়, যেমন ফ্রি অন বোর্ড প্রাইস, লোড পোর্ট চার্জেস, ফ্রেইট, ওসেন লস, ল্যান্ডিং চার্জেস, নেভিগেশন চার্জেস, পাইলটেজ অ্যান্ড টাওয়েজ, মুরিং চার্জেস, হোয়ারফেজ, টারমিনেটিং চার্জেস, ইনসিওরেন্স প্রভৃতি। এই সমস্ত চার্জ Ad valorem বা মূল্যানুসারী, খানিকটা বায়বীয়। আন্তর্জাতিক বাজারে অশোধিত তেলের দাম ব্যারেল পিছু ৪৫ ডলার হলে এই ধরনের বিমূর্ত চার্জ বাবদ ভারতবাসীর ঘাড়ে অতিরিক্ত ৩ টাকা লিটার পিছু চাপবে। ভারতীয় রিফাইনরা কিন্তু উপরোক্ত কোনও চার্জই দেয় না। অথচ ভারতবাসীর ঘাড় ভেঙে এই সমস্ত চার্জই আদায় করে। এই ধরনের বিমূর্ত নানারকম চার্জ যেহেতু নিক্তি-মেপে খাতায় কলমে হিসেব রাখা অসম্ভব তাই এরা পরিচিত Notional Margin নামে। অশোধিত তেলের দাম আন্তর্জাতিক বাজারে ব্যারেল পিছু ৪৫ ডলার থেকে বেড়ে ৬৫ ডলার হলে ন্যাশনাল প্রাইস বাড়বে ৩৩ শতাংশ। ৩২ মিলিয়ন টন অশোধিত তেল পরিশোধন করলেই এক লাফে ন্যাশনাল প্রাইস বাবদ ফোকটে রিফাইনারের পকেটে অঙ্কের সোজা হিসেবে ৪০০০০ কোটি টাকা ঢুকে যাচ্ছে। ঠিক সেই কারণেই সব শেয়ারের পতন হলেও রিলায়েন্স পেটোর বা ইন্ডিয়ান অয়েলের বা হিন্দুস্থান পেট্রোলিয়ামের শেয়ারের দর কখনও পড়ে না। পরিশোধনাগারগুলো যে চার্জ কখনওই দিচ্ছে না পেট্রল-ডিজেল কিনতে আপামর ভারতবাসী কেন তার মূল্য চোকাবে?
রান্নার গ্যাস ও ভরতুকিনামা: নীচের সারণি দেখাচ্ছে রান্নার গ্যাস বা এলপিজির ঘাড়ে চাপা নানারকম ‘ন্যাশনাল প্রাইসের’ অদ্ভুতুড়ে বিন্যাস ও সরকারি ভরতুকির বর্ণিল কারিকুরি।
ক্রমিক নং এলিমেন্ট বা উপাদান ইউনিট বা একক মূল্য
১. আরবসাগরে ফ্রি অন বোর্ড প্রাইস ডলার/ মে. টন ৪১৪.০৫
২. সমুদ্রের খরচ (আরব থেকে জামনগর) ডলার/ মে. টন ২৯.৪৫
৩. সি অ্যান্ড এফ ডলার/ মে. টন ৪৪৩.৫০
৪. ইমপোর্ট চার্জেস (ইনসিওরেন্স, ওসেন লস, এলসি চার্জ, পোর্টি ডিউস) টা./ সিলি. ৪.৪১
৫. ইমপোর্ট প্যারিটি প্রাইস টা./ সিলি. ৪১৯.৬৬
৬. আরটিপি-পরিশোধনাগারকে তেল
বিপণনকারী সংস্থার দেয় মূল্য টা./ সিলি. ৪১৯.৬৮
৭. স্টোরেজ/ ডিস্ট্রিবিউশন ও জমার ওপর ফেরত টা./ সিলি. ৯.৯৬
৮. বটলিং চার্জেস টা./ সিলি. ২০.৫৮
৯. চার্জেস ফর সিলিন্ডার কস্ট টা./ সিলি. ১৮.১১
১০. অন্তর্দেশীয় জাহাজ ভাড়া টা./ সিলি. ৩৩.২০
১১. কস্ট অফ ওয়ার্কিং ক্যাপিটাল টা./ সিলি. ২.২৬
১২. কেনা দাম, এলপিজি বটলিং প্ল্যান্টে টা./ সিলি. ৫০৩.৭৯
১৩. ডেলিভারি চার্জেস টা./ সিলি. ১০.০০
১৪. আনকমপেনসেটেড কস্ট টা./ সিলি. ৪৮.২৫
১৫. ডিস্ট্রিবিউটর বা বিতরণকারীর কমিশন টা./ সিলি. ৪৬.০৯
১৬. খুচরো বিক্রয়মূল্য- দিল্লিতে টা./ সিলি. ৬০৮.১৪
১৭. সরকারি ভরতুকি টা./ সিলি. ১৪০.৪৮
১৮. গ্রাহককে তেল বিপণনকারী সংস্থার দেয় অনুদান টা./ সিলি. ৪৮.২৬
১৯. ভরতুকির পর কার্যকর মূল্য দিল্লিতে টা./সিলি. ৪১৯.২৫

সূত্র: তেল ও প্রাকৃতিক গ্যাস মন্ত্রক, ভারত সরকার; কার্যকর ১ ডিসেম্বর ২০১৫ থেকে
ভারতীয় রিফাইনাররা যে টাকা কস্মিনকালেও আইপিপি অনুযায়ী দেয় না, গ্রাহককে সেই টাকা কড়ায়গন্ডায় মেটাতে হচ্ছে! তার পরেও ভরতুকি ছাড়ার বাহানা।
পেট্রল ডিজেল থেকে সরকারের কর বাবদ গগনচুম্বী আয়: পরিশোধনাগারে ১ লিটার পেট্রল তৈরিতে খরচ হচ্ছে ২৪.৭৫ টাকা, দিল্লিতে ‘ন্যাশনাল প্রাইস’ যোগ করে পেট্রল পাম্প ডিলারের কাছে যখন তা পৌঁছাচ্ছে তখন দাম পড়ছে প্রতি লিটার ২৭.৫১ টাকা। এক্সাইজ ডিউটি বাবদ জুড়ছে ২১.৪৮ টাকা, ডিলার কমিশন প্রতি লিটার ২.৫৭ টাকা। গোটাটাই কেন্দ্রীয় সরকারের ঘরে যাচ্ছে। রাজ্য সরকার ভ্যাট বা সেলস ট্যাক্স বাবদ নিচ্ছে ১৩.৯২ (২৭%) টাকা দিল্লিতে। অর্থাৎ ২৭.৫১ টাকার পেট্রল দিল্লিতে বিকচ্ছে ৬৫.৪৮ টাকায় (২৭ জুন, ২০১৭)। পশ্চিমবঙ্গে ৬৫.২০ টাকায়। একইভাবে দিল্লিতে ১ লিটার ডিজেলের দাম পড়ছে ৫৪.৪৯ টাকা। এক্সাইজ ডিউটি ১৭.৩৩ টাকা, ডিলার কমিশন ১.৬৫ টাকা, ভ্যাট দিল্লিতে ৮.১৮ টাকা। ফলে ২৭.৪৮ টাকার ডিজেল দিল্লিতে বিক্রি হচ্ছে ৫৪.৪৯ টাকায়। আরও ২৫ পয়সা প্রতি লিটারে জুড়ছে পলিউশন সেস ও সারচার্জ হিসাবে। কেন পেট্রল/ডিজেলে জিএসটি কার্যকর হবে না? এক দেশ, এক কর—একমেবাদ্বিতীয়ম জিএসটি শুধু পেট্রপদার্থের ক্ষেত্রেই ব্রাত্য! জিএসটি চালু হলে পেট্রল ডিজেলের দাম অঙ্কের সোজা হিসাবে অর্ধেক হয়ে যাবে (৫৭% থেকে ২৮%)। ২০১৪-১৫-তে সরকার শুধু পেট্রোলিয়াম ক্ষেত্র থেকে কর বাবদ আদায় করেছে ৯৯১৮৪ কোটি টাকা। পাহাড়প্রমাণ রোজগারের পরও সরকার কোন মুখে ভরতুকি ছাড়ার কথা বলে।
ভরতুকির এক চরম লজ্জাজনক আখ্যান: সারা বছর ১২টা সিলিন্ডারে সরকারের ভরতুকি বাবদ খরচ মাত্র ২২৮৮ টাকা। একদিন সংসদ অচল বা মুলতুবি থাকলে নষ্ট হয় ৯৫,৪০,০০০ টাকা। সামান্য যোগবিয়োগের হিসেবে সহজেই মালুম হবে ভরতুকি ছাড়ার নিবেদন আসলে ‘খায়েঙ্গে আউর খানে দেঙ্গের’ পরিকল্পিত পরিশীলিত রাজনীতি। যে সরকার ২০০ কোটি টাকা ব্যয়ে সর্দার প্যাটেলের মূর্তি বসায়, যোগ দিবস উপলক্ষে কোষাগার থেকে নিশ্চিন্তে কোটি কোটি টাকা নিয়োগ করে অথচ ঋণগ্রস্ত চাষিদের এমএসপি বা ন্যূনতম সহায়ক মূল্য দিতে পারে না সেই লুটেপুটে খাওয়া সরকারের কাছে ভরতুকি ছেড়ে দেওয়ার প্রণোদনা এক বৃহত্তর চক্রান্তের ফন্দি।
অতঃ কিম্‌: রঙ্গরাজন কমিটির সুপারিশ বলছে শহরে ৪৭ টাকার বেশি রোজগার করলেই তার আর ভরতুকি পাওয়া উচিত নয়। অর্থাৎ তার অবস্থান আর দারিদ্রসীমার ঩নীচে নয়। স্মর্তব্য, আপনি রান্নার গ্যাসে ভরতুকি ছাড়লেই তা কিন্তু একজন গরিবের ঘরে চুলা জ্বালাতে পারবে না। কারণ, ৮০ শতাংশ এলপিজি ভরতুকি ভারতের মোট জনসংখ্যর ৬.৭৫ শতাংশ শুষে নিচ্ছে। সেই ৬.৭৫ শতাংশ শহুরে উচ্চবিত্ত বা মধ্যবিত্ত, যারা তাদের মোট মাসিক খরচের মাত্র ২ শতাংশ ব্যয় করেন রান্নার গ্যাস কিনতে। চুলা তখনই জ্বলবে যখন এমপিরা তাঁদের বিলাস ব্যসনে কিঞ্চিৎ লাগাম পরাবেন আর সরকার খুব সহজে পেট্রোপণ্যে কর আদায়ের আয়েশি বদভ্যাসটি ত্যাগ করবে। নাহলে কবি শঙ্খ ঘোষের ভাষা ধার করে বলতে হয়—‘‘জ্বালানিই নেই যখন আগুনের কিবা প্রয়োজন।’’
11th  August, 2017
সফলতা বনাম সফলতা
অভিজিৎ তরফদার

 সংবাদপত্রের প্রথম পাতা আলো করে কোন ব্যক্তিরা শোভা পান? তাঁরা জনপ্রতিনিধি। তাঁরা দেশের আইনও প্রণয়ন করেন। দুর্জনে বলে তাঁদের এক চতুর্থাংশ বা তারও বেশিজনের নামে ফৌজদারি মামলা আছে। খুন-ধর্ষণ-ডাকাতি ইত্যাদি ভয়ানক সব অভিযোগে তাঁরা অভিযুক্ত। কিন্তু আমরা, আম জনতা, তাঁদের ফুল্লবিকশিত মুখশোভা সংবাদপত্রে দেখতেই অভ্যস্ত হয়ে গিয়েছি।
বিশদ

ভারত চীন যুদ্ধ হলে চীন পরাজিত হবে
প্রশান্ত দাস

 সারা ভারতজুড়ে এখন একটাই আলোচনা ঝড় তুলেছে—ডোকালাম নিয়ে চীন ভারতকে আক্রমণ করবে কি? চীন অনবরত ভারতকে চমকে চলেছে। মার্কিন প্রতিরক্ষা বিভাগের মুখপত্র গ্যারিরস বলেছেন—কোনও দেশ যেন নিজেকে সর্বশক্তিমান না ভাবে। চীন এবং ভারত মুখোমুখি আলোচনায় বসে ব্যাপারটি মিটিয়ে নেয়।
বিশদ

শুধুই প্রচার, রেজাল্ট কই!
সমৃদ্ধ দত্ত

 গোরখপুর থেকে ৪৩ কিলোমিটার দূরের জৈনপুর গ্রামের লক্ষ্মী আর শৈলেন্দ্র তিন সপ্তাহ বয়সি মেয়ের মৃতদেহ নিয়ে অনেক দেরি করে বাড়িতে ফিরতে পেরেছিল। গোরখপুরের হাসপাতালে অক্সিজেনের অভাবে শ্বাসরুদ্ধ হয়ে মেয়ে মারা যাওয়ার পর হাসপাতালের বাবুদের কাছে বারংবার ধমক খেতে হয়েছে তাঁদের।
বিশদ

18th  August, 2017
 কেন্দ্রের দায়িত্বজ্ঞানহীন আচরণেই মেডিকেল ভরতিতে রাজ্যের ছাত্রছাত্রীরা বঞ্চনার শিকার
গৌতম পাল

 নিট পরীক্ষার দায়িত্ব সিবিএসই-কে দিয়ে কেন্দ্রীয় সরকার ক্ষমতাকে কেন্দ্রীভূত করেছে। নিট পরীক্ষায় যাঁরা বিষয় বিশেষজ্ঞ হিসাবে সাহায্য করেছেন তাঁরা অধিকাংশই দিল্লির কলেজ বা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, এবং বেশিরভাগই কেন্দ্রীয় সরকার পরিচালনাকারী একটি বড় রাজনৈতিক দলের সদস্য বা কাছের মানুষ। অথচ পশ্চিমবাংলার বা অন্যান্য রাজ্যের খ্যাতনামা যে সকল অধ্যাপক অত্যন্ত দক্ষতা এবং স্বচ্ছতার সঙ্গে রাজ্যের প্রবেশিকা পরীক্ষায় এ যাবৎ সাহায্য করে এসেছেন, সিবিএসই কিন্তু তাঁদেরকে নিটের সঙ্গে অন্তর্ভুক্ত করেনি, বা এই সম্পর্কে রাজ্যের কোনও মতামতও নেয়নি। অনেকেই বলছেন রাজ্যের পাঠ্যক্রম সংশোধন করে নিটের সমমানের করলেই রাজ্যের ছেলে-মেয়েরা নিটে ভালো র‌্যাংক করবে।
বিশদ

17th  August, 2017
স্বাধীনতার ৭০ বছর, নেতাতন্ত্র বনাম গণতন্ত্র?
হিমাংশু সিংহ

বিয়াল্লিশের ভারত ছাড়ো আন্দোলন আমি দেখিনি। ৪৭-এর ঐতিহাসিক স্বাধীনতা লাভের মুহূর্তে মধ্যরাতের জওহরলাল নেহরুর সেই ঐতিহাসিক ভাষণ চাক্ষুষ করার সুযোগও হয়নি। হওয়ার কথাও নয়, কারণ ওই ঘটনার প্রায় দু’দশক পর আমার জন্ম। সেদিনের কথা বইয়ে, ইতিহাসের পাতায় পড়েছি মাত্র।
বিশদ

15th  August, 2017
গভীর রাতের নাটক শেষে স্যালুট
সৌম্য বন্দ্যোপাধ্যায়

জেতা ম্যাচ কী করে হারতে হয়, এই নির্বাচন তার একটা বড় উদাহরণ হয়ে থাকবে। হারতে হারতে জিতে গিয়েছেন আহমেদ প্যাটেল। এই দুর্দিনে তাঁর জয় কংগ্রেসের মরা গাঙে বান হয়তো ডেকে আনবে না, তবে মনোবল সামান্য হলেও বাড়াবে। সোনিয়া গান্ধীর দলের এই দুর্দিনে এটাই বা কম কী? তবে আহমেদ প্যাটেল নন, অমিত শাহও নন, শেষ বিচারে আসল জয়ী নির্বাচন কমিশন। ভারতীয় গণতন্ত্রের সৌন্দর্য এটাই। ওই গভীর রাতে নির্বাচন কমিশনকেই তাই স্যালুট জানিয়েছি।
বিশদ

13th  August, 2017
স্বাধীনতা দিবসের প্রাক্কালে: কিছু প্রশ্ন
শুভা দত্ত

শুধু ভারত ছাড়ো কেন? রামনবমী রাখিবন্ধন পুজোপাঠ স্বাধীনতা দিবস প্রজাতন্ত্র—সবকিছুতেই এখন এত বেশি বেশি রাজনৈতিক দখলদারি শুরু হয়েছে যে, সাধারণ মানুষের পক্ষে উৎসবের মেজাজ ধরে রাখাই মুশকিল হচ্ছে। রাজনীতি ছাড়া যেন কিছু হতেই পারে না!
বিশদ

13th  August, 2017
বাৎসল্য রসের পরাকাষ্ঠা মা যশোদার আত্মাভিমান চূর্ণ করলেন শ্রীকৃষ্ণ
চিদানন্দ গোস্বামী

 ভারতবর্ষের পৌরাণিক সাংস্কৃতিক ইতিহাসের এক সূর্য-করোজ্জ্বল ঘটনা। তত্ত্বে গভীর, দার্শনিকতায় গভীর, নৈতিকতাতেও। তাই বিশ্ব-জাগতিক জীবনে আকর্ষণে চিরন্তন মূল্যবান রত্ন সম্পদ।
বিশদ

12th  August, 2017
কঠিন বর্জ্যের কানুন
বিনয়কান্তি দত্ত

কেন্দ্রীয় ও রাজ্য দূষণ নিয়ন্ত্রণ পর্ষদগুলিকে দায়িত্ব দেওয়া হল বর্জ্য প্রক্রিয়াকরণ প্রযুক্তির বিচার ও মূল্যায়ন, সংশ্লিষ্ট স্থানগুলির ভূগর্ভস্থ জল, বায়ু, মৃত্তিকা ও শব্দের গুণমানের মাপকাঠি নির্ধারণ, বিভিন্ন দপ্তরকে প্রয়োজনীয় পরামর্শ দেওয়া, ইত্যাদি কাজের। একথা অস্বীকার করার উপায় নেই যে এই নতুন কানুনে কঠিন বর্জ্য সমস্যার সব দিক বিচার করে, সংশ্লিষ্ট সব দপ্তর ও কর্তৃপক্ষকে দায়িত্ব ভাগ করে দেওয়া হয়েছে। মনে আসছে অসুরবধের জন্য দুর্গা দুর্গতিনাশিনীকে দশপ্রহরণে সজ্জিত করার কথা। এখন দেখতে হবে এই কানুন-রূপী দুর্গা বর্জ্যাসুরকে কতদিনে বধ করতে পারে। বিশদ

12th  August, 2017



একনজরে
বার্মিংহ্যাম, ১৮ আগস্ট: প্রথমবার দিন-রাতের টেস্ট খেলতে নেমে অ্যালিস্টার কুকের দুরন্ত দ্বিশতরানের ছটায় রীতিমতো ঝলমল করছে ইংল্যান্ড। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ৫ উইকেট হারিয়ে ৪৬৬ রান তুলে ফেলেছে ইংলিশ ব্রিগেড। ...

তাইপে, ১৮ আগস্ট (এএফপি): সামুরাই তলোয়ার আর চীনের পতাকা নিয়ে তাইওয়ানের প্রেসিডেন্টের দপ্তরের সামনে হামলা চালাল এক অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তি। ঘটনায় আহত হলেন এক নিরাপত্তাকর্মী। যদিও, ঘটনাস্থল থেকেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে অভিযুক্তকে। ...

সংবাদদাতা, আলিপুরদুয়ার: এবারের অতিবর্ষণে জমিতে সদ্য রোপণ করা আমন ধান, আমনের বীজতলা এবং সবজি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। সব মিলিয়ে আলিপুরদুয়ার জেলায় ফসলের ক্ষতি হয়েছে ২২ কোটি টাকা। শুক্রবার জেলা কৃষি দপ্তর ফসলের এই ক্ষয়ক্ষতির পূর্ণাঙ্গ রিপোর্ট নবান্নে পাঠাল। ...

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কলকাতায় খুচরো ব্যাবসার বাজার বাড়ছে। ২০১৪ সালের তুলনায় খুচরো ব্যাবসার বৃদ্ধির হার প্রায় দ্বিগুণ। শুক্রবার ইন্ডিয়ান চেম্বার অব কমার্সের এক অনুষ্ঠানে এই ...


আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

উচ্চবিদ্যার ক্ষেত্রে মধ্যম ফল আশা করা যায়। প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় সাফল্য আসবে। প্রেম-প্রণয়ে নতুনত্ব আছে। কর্মরতদের ... বিশদ



ইতিহাসে আজকের দিন

 বিশ্ব মনুষ্যত্ব দিবস
১৯৪০: পরিচালক গোবিন্দ নিহলনির জন্ম
১৯৯৩: অভিনেতা উৎপল দত্তের মৃত্যু


ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৩.৩৫ টাকা ৬৫.০৩ টাকা
পাউন্ড ৮১.২৫ টাকা ৮৪.২১ টাকা
ইউরো ৭৩.৯৬ টাকা ৭৬.৫৭ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ২৯,৬৬০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ২৮,১৪০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ২৮৫০০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৯,৫০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৯,৬০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

 ২ ভাদ্র, ১৯ আগস্ট, শনিবার, দ্বাদশী দিবা ৭/১৮ পরে ত্রয়োদশী রাত্রি ৪/৩৮, পুনর্বসুনক্ষত্র রাত্রি ৭/৯, সূ উ ৫/১৮/৩৪, অ ৬/২/২৪, অমৃতযোগ দিবা ৯/৩৩-১২/৫৭ রাত্রি ৮/১৬-১০/৩২ পুনঃ ১২/২-১/৩৩ পুনঃ ১/১৫-২/৫১ পুনঃ ২/১৮-৩/৪৮, বারবেলা ৬/৫৪ পুনঃ ১/১৫-২/৫১ পুনঃ ৪/২৬-অস্তাবধি, কালরাত্রি ৭/২৮ পুনঃ ৩/৫৪-উদয়াবধি।
 ২ ভাদ্র, ১৯ আগস্ট, শনিবার, দ্বাদশী ৬/৫/১৭ পরে ত্রয়োদশী রাত্রি ৩/৫১/২৭, পুনর্বসুনক্ষত্র রাত্রি ৭/১৫/১৭, সূ উ ৫/১৬/১১, অ ৬/৩/৫৫, অমৃতযোগ দিবা ৯/৩২/৬-১২/৫৬/৪৯ রাত্রি ৮/১৮/২২-১০/৩২/৪৯, ১২/২/২৮-১/৩২/৬, ২/১৬/৫৫-৩/৪৬/২৩, বারবেলা ১/১৬/১-২/৫১/৫৯, কালবেলা ৬/৫২/৯, ৪/২৭/৫৭-৬/৩/৫৫, কালরাত্রি ৭/২৭/৫৭, ৩/৫২/২৭-৫/১৬/২৯।
২৬ জেল্কদ

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
পূর্ব রেলের বিশেষ ট্রেন

হাওড়া বিভাগের ভট্টনগর এবং ডানকুনি স্টেশনের মধ্যে আপ লাইন তৈরির কাজ করছে পূর্ব রেল। তার জন্য হাওড়া, শিয়ালদহসহ নানা স্টেশন থেকে একাধিক ট্রেন বাতিল করা হচ্ছে। কিছু ট্রেনের রুটও ঘুরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। ট্রেন চলাচল নিয়ন্ত্রণে যাত্রীদের ভোগান্তি কিছুটা হলেও কমাতে বর্ধমান ও বারুইপাড়া স্টেশনের মধ্যে দু’জোড়া বিশেষ ট্রেন চালানো হবে বলে জানিয়েছে পূর্ব রেল। আজ, শনিবার ও আগামী সোমবার এই বিশেষ ট্রেনগুলি চালানো হবে। যাত্রাপথে ট্রেনগুলি প্রতিটি স্টেশনে দাঁড়াবে।

09:05:55 AM

  উত্তরবঙ্গে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েই গেল
উত্তরবঙ্গে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা জিইয়েই রাখল আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর। একইসঙ্গে দক্ষিণবঙ্গেও হালকা থেকে মাঝারি মাপের বিক্ষিপ্ত বৃষ্টি চলবে। শুক্রবার আলিপুর আবহাওয়া দপ্তরসূত্রে জানা গিয়েছে, উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোপসাগরের উপর যে ঘূর্ণাবর্তটি তৈরি হয়েছিল, তা নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে। সেই নিম্নচাপের অবস্থান উত্তর-পশ্চিম বঙ্গোসাগর লাগোয়া এলাকা থেকে ওড়িশার মধ্যভাগ পর্যন্ত। এদিকে মৌসুমি অক্ষরেখার বর্তমানে অবস্থান ওই নিম্নচাপ এলাকা হয়ে বঙ্গোপসাগর পর্যন্ত। অন্যদিকে পশ্চিম অসম সংলগ্ন এলাকায় একটি আলাদা ঘূর্ণাবর্ত তৈরি হয়েছে। সব মিলিয়ে ওড়িশা এবং সংলগ্ন এলাকায় আজ শনিবার ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনার কথা জানিয়ে রেখেছে হাওয়া অফিস। তার প্রভাব থাকবে এ রাজ্যেও। আগামী ক’দিন এখানে বর্ষা গতি পাবে। অন্যদিকে ঘূর্ণাবর্তের জেরে উত্তরে বৃষ্টি চলবে বলে জানিয়েছে তারা।

09:05:54 AM

আজ শহরের তাপমাত্রা থাকবে ৩২ ডিগ্রির কাছাকাছি

09:01:00 AM

ইতিহাসে আজকের দিনে

 বিশ্ব মনুষ্যত্ব দিবস
১৯৪০: পরিচালক গোবিন্দ নিহলনির জন্ম
১৯৯৩: অভিনেতা উৎপল দত্তের মৃত্যু

08:59:04 AM

  সেভিংস অ্যাকাউন্টে ০.৫ শতাংশ সুদ কমিয়ে দিল ইউনিয়ন ব্যাংকও
স্টেট ব্যাংক অব ইন্ডিয়ার দেখানো পথে হাঁটল ইউনিয়ন ব্যাংক অব ইন্ডিয়াও। শুক্রবার ব্যাংকের তরফে জানানো হয়েছে, সেভিংস ব্যাংক অ্যাকাউন্টে সুদের হার কমানো হচ্ছে ২১ আগস্ট থেকে। সেভিংস অ্যাকাউন্টে ২৫ লক্ষ টাকার কম আমানতের উপর সুদের হার ৪ শতাংশ থেকে ০.৫ শতাংশ কমিয়ে সাড়ে ৩ শতাংশ করা হচ্ছে। ২৫ লক্ষ টাকার বেশি আমানতকারীরা সেভিংস অ্যাকাউন্টে ৪ শতাংশ হারেই সুদ পাবেন। বৃহস্পতিবার সেভিংস অ্যাকাউন্টে সুদ কমানোর কথা ঘোষণা করেছিল বেসরকারি ব্যাংকিং শিল্পে দ্বিতীয় স্থানাধিকারী এইচডিএফসি ব্যাংক।

08:20:00 AM

 ইঞ্জিনে গোলমাল, একদিনে বাতিল ইন্ডিগোর ৮৪টি উড়ান
এয়ারবাস এ৩২০ নিও বিমানে নানা ধরনের ত্রুটি থাকার জন্য শুক্রবার প্রায় ৮৪টি উড়ান বাতিল করল ইন্ডিগো। সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, প্র্যাট ও হুইটনি থেকে পাঠানো ১৩টি বিমান এদিন ইঞ্জিনে গোলমালের কারণে আকাশে উড়তে পারেনি। তাই বাতিল করতে হয়েছে ৮৪টি উড়ান। এই বছরে ২১ জুন থেকে ৩ জুলাইয়ের মধ্যে ৬৬৭টি উড়ান বাতিল করতে হয়েছে, ২৭ জুন একদিনেই বাতিল করা হয়েছিল ৬১টি উড়ান। যদিও এই ঘটনা নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন ইন্ডিগোর চেয়ারম্যান আদিত্য ঘোষ।

08:02:00 AM