Bartaman Patrika
বিশেষ নিবন্ধ
 

ভোটজয়ে যুদ্ধের ভাবাবেগের একাল সেকাল
বিশ্বনাথ চক্রবর্তী

পুলওয়ামার ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে ভারতীয় বিমান বাহিনীর প্রত্যাঘাত এবং পাকিস্তানের এফ-১৬ বিমানের আক্রমণ প্রতিহত করা, কোনও শর্ত ছাড়াই উইং কমান্ডার অভিনন্দনকে পাকিস্তানের খপ্পর থেকে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে মুক্ত করে এনে ভারত যে শৌর্যের প্রদর্শন করেছে তা বিরাট গর্বের। কার্গিল যুদ্ধের পর আপামর ভারতবাসী সেনার বীরত্বে একদিকে যেমন উল্লসিত, অন্যদিকে জাতীয়তাবাদের ভাবাবেগের দ্বারাও তাড়িত। সমগ্র দেশবাসী ভারতের অখণ্ডতা রক্ষার প্রশ্নে এককাট্টা। পাড়ার রোয়াকের আলোচনা থেকে বাড়ির আলাপচারিতায়, স্কুল-কলেজ থেকে অফিস-কাছারি সর্বত্রই ভারতীয় সেনার বীরত্বে মানুষ মোহিত। সোশ্যাল মিডিয়াতেও ভারতীয় সেনা বাহিনীর শৌর্য্যের কথা নানাভাবে লক্ষ করা যাচ্ছে।
এইরূপ আবহে নির্বাচন কমিশন ২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনের নির্ঘণ্ট প্রকাশ করেছে। গত সপ্তাহ দুই ধরে কেন্দ্রীয় শাসক দলের ছোট বড় মাঝারি বিভিন্ন নেতা সেনা বাহিনীর এই বীরত্বকে তাঁদের সাফল্য হিসেবে প্রচার করে চলেছেন। স্বয়ং নরেন্দ্র মোদি, অমিত শাহের বিরুদ্ধেও সেনা বাহিনীকে সামনে রেখে দলীয় প্রচারের অভিযোগ তুলেছেন বিরোধীরা। ভারতীয় বিমান বাহিনীর আক্রমণে কতজন জঙ্গি খতম হয়েছে সেই প্রশ্ন তুললেই বিরোধীদের বিরুদ্ধে দেশদ্রোহিতার অভিযোগও শোনা যাচ্ছে। বিজেপির কেউ কেউ আবার বিরোধীদের বিমানে চাপিয়ে পাকিস্তানের মাটিতে ফেলে দিয়ে আসার কথা বলছেন—যাতে করে বিমান বাহিনীর ফেলা বোমার প্রভাব তাঁরা স্বচক্ষে দেখে আসতে পারেন! বিমান বাহিনীর আক্রমণে প্রতিপক্ষের ক্ষয়ক্ষতি নিয়ে প্রশ্ন তোলা যে শাসকের কাছে একেবারেই নাপছন্দ তা তাঁরা নানাভাবে বুঝিয়ে দিচ্ছেন।
বহুত্ববাদী গণতান্ত্রিক শাসন ব্যবস্থায় সামরিক অভিযান বা যুদ্ধের মতো বিষয়কে নিয়ে প্রশ্ন করা নতুন কোনও বিষয় নয়। ১৯৬২-র ভারত-চীন যুদ্ধের পর ভারতীয় সামরিক বাহিনীর তৎকালীন প্রস্তুতির খামতি নিয়ে কেন্দ্রীয় শাসকের বিরুদ্ধে যথেষ্ট হইচই হয়েছিল। এমনকী, ১৯৯৯ সালের কার্গিল যুদ্ধেও গোলাবারুদ মজুদের অপ্রতুলতা নিয়ে বা নিহত সেনা জওয়ানদের জন্য কফিন কেনাকে কেন্দ্র করে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছিল। ভিয়েতনাম যুদ্ধে বা উপসাগরীয় যুদ্ধে মার্কিন বাহিনীর ভূমিকা নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রবাসীদের একাংশের মধ্যেও যথেষ্ট ক্ষোভ ছিল। তাঁরা সরকারের বিরুদ্ধে সে-দেশে মিটিং মিছিলও সংঘটিত করেছিলেন। গণতান্ত্রিক শাসন ব্যবস্থায় সমস্ত বিষয় নিয়ে প্রশ্ন তোলা অস্বাভাবিক বলে বিবেচিত হয় না। এখানেই চীনের মতো কর্তৃত্ববাদী শাসন ব্যবস্থার সঙ্গে ভারত বা যুক্তরাষ্ট্রের মতো গণতান্ত্রিক দেশের তফাত।
তবে, সমস্ত বিতর্ক সরিয়ে এই মুহূর্তে রাজনৈতিক প্রশ্ন হল—যুদ্ধের আবহ কি কেন্দ্রের শাসক দল বিজেপিকে নির্বাচনী বৈতরণী পেরতে সাহায্য করতে পারে? আরও স্পষ্ট করে বলা যায়, ভারতীয় সেনা বাহিনীর এই সাফল্য বাস্তবে বিজেপিকে
নির্বাচনে কতটুকু বাড়তি সুবিধা পাইয়ে দিতে পারে?
এই প্রশ্নে সংবাদ মাধ্যম জুড়েই চলছে সমীক্ষার ফল। তাতে প্রশ্ন থাকছে—পুলওয়ামায় ভারতীয় জওয়ানদের মৃত্যুর ব্যাপারে নরেন্দ্র মোদি সরকার কি জবাব যথাযথভাবে দিতে পেরেছে বলে আপনি মনে করেন? ওই ঘটনা আগামী ভোটে বিজেপিকে বাড়তি সুবিধা দেবে বলে কি মনে হয়? বলাই বাহুল্য, এই ধরনের প্রশ্নের অধিকাংশের উত্তর নরেন্দ্র মোদির সাফল্যের দিগ্‌঩নির্দেশ করছে।
একথা অনস্বীকার্য যে ১৯৭১-এর যুদ্ধের পর এই প্রথম ভারতীয় বিমান বাহিনী সরাসরি পাকিস্তানের আকাশ সীমা অতিক্রম করে সন্ত্রাসবাদী শিবিরে আঘাত করে ফিরতে পেরেছে। ইজরায়েল, যুক্তরাষ্ট্র এবং রাশিয়া ছাড়া বিমান বাহিনী দিয়ে অন্য দেশাভ্যন্তরের জঙ্গিশিবির গুঁড়িয়ে দেওয়ার উদাহরণ খুব বেশি নেই। সেনা বাহিনীর এই বীরত্বের পাশাপাশি এই প্রথম আন্তর্জাতিক দুনিয়া একজোট হয়ে সন্ত্রাসে মদত দেওয়ার জন্য পাকিস্তানের ভূমিকার তীব্র সমালোচনা করে ভারতের পাশে দাঁড়িয়েছে। এমনকী, ভারত-পাকিস্তান এই দ্বন্দ্বে চীনও সরাসরি পাকিস্তানের পক্ষ নিতে পারেনি। কূটনীতির জায়গা থেকে নিঃসন্দেহে এটি নরেন্দ্র মোদির একটি বড় সাফল্য। স্বভাবতই নরেন্দ্র মোদি এবং অমিত শাহরা চাইবেন সেনা বাহিনীর সাফল্যের পাশাপাশি কূটনৈতিক সাফল্যের উপর ভর করে নির্বাচনে বাড়তি সুবিধা আদায় করে নিতে। যদিও এক্ষেত্রে প্রশ্ন থাকছে যুদ্ধের ভাবাবেগ ভোটের রাজনীতিকে কতটুকু প্রভাবিত করতে পারে?
১৯৪৫ সালে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী উইনস্টন চার্চিল সে-দেশের সাধারণ নির্বাচনে পরাজিত হয়েছিলেন। অথচ, চার্চিল ১৯৪০-৪৫ এই সময়কালে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের সময় ব্রিটেনকে নেতৃত্ব দিয়ে দেশকে অভূতপূর্ব সাফল্য এনে দিয়েছিলেন। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে সফল হলেও যুদ্ধের অব্যবহিত পর জাতীয় রাজনীতিতে শ্রমিক দলের নেতা ক্লিমেন্ট এটলির কাছে তিনি পরাজিত হয়েছিলেন। যুদ্ধোত্তর ব্রিটেনে রুজি-রোজগার, খাদ্য-বস্ত্র-বাসস্থান গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছিল। মানুষের মূল চাহিদা পূরণের প্রশ্নে তাঁরা চার্চিল অপেক্ষা এটলির উপরেই ভরসা রেখেছিলেন।
আবার, ইতিহাসে একের পর এক উদাহরণ রয়েছে যেখানে যুদ্ধের থেকে উৎপন্ন জাতীয়তাবাদী ভাবাবেগ শাসক দলকে যুদ্ধ-পরবর্তী ভোট বৈতরণী পেরতে যথেষ্ট সাহায্য করেছিল। ১৯৭১-এর বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধে ভারতীয় সেনা বাহিনী সরাসরি পাকিস্তানকে পরাজিত করে বাংলাদেশের স্বাধীনতা অর্জনে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নিয়েছিল। সেনার এই সাফল্য ইন্দিরা গান্ধীর নেতৃত্বকে এমন এক উচ্চ আসনে প্রতিষ্ঠা করেছিল যে ভারতীয় সংসদে বিরোধী দলের তৎকালীন নেতা অটলবিহারী বাজপেয়ি তাঁকে ‘দেবী দুর্গা’র সঙ্গে তুলনা করেছিলেন। জাতীয়তাবাদের ভাবাবেগ ১৯৭১-এর লোকসভা নির্বাচনে ইন্দিরা গান্ধীকে বিপুল সাফল্য এনে দিয়েছিল। আবার, পূর্ণ যুদ্ধ না-হলেও কার্গিলের সীমিত যুদ্ধে ভারতীয় সেনা বাহিনীর বীরত্ব তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী অটলবিহারী বাজপেয়িকে ১৯৯৯-এর লোকসভা নির্বচনে বাড়তি সুবিধা না-দিলেও পূর্বের অবস্থা ধরে রাখতে সাহায্য করেছিল। পাশাপাশি কার্গিল যুদ্ধের মধ্য দিয়ে বাজপেয়ির নেতৃত্ব এমন এক উচ্চতায় পৌঁছেছিল যার ফলে ছোট বড় ২৪টি দলের সমর্থন নিয়ে তিনি কেন্দ্রে পাঁচ বছর সরকার চালাতে পেরেছিলেন।
ইতিহাসে আবার এমন বহু উদাহরণ আছে যেখানে দেশের অভ্যন্তরীণ রাজনীতি নিয়ে মানুষের ক্ষোভকে চাপা দেওয়ার জন্য বা অন্যত্র চালিত করার জন্য শাসক নিজেই যুদ্ধে জড়িয়ে পড়েছে। যুদ্ধে জড়িয়ে জাতীয়তাবাদের ভাবাবেগ তুলে শাসক কখনও যেমন সফল হয়েছে তেমনি কখনও আবার ব্যর্থ হয়েছে, যুদ্ধ-পরবর্তী পর্যায়ে নির্বাচনী বৈতরণী পেরতে। যেমন আর্জেন্টিনার শাসক জেনারেল লিও পোলডো গলটিয়ারয় দেশের বিক্ষোভ সামাল দেওয়ার জন্য ব্রিটিশ নিয়ন্ত্রণাধীন ফকল্যান্ড দ্বীপে সেনা পাঠিয়ে আকস্মিকভাবে অধিগ্রহণ করেন। সেনা পাঠিয়ে আর্জেন্টিনা যে ফকল্যান্ড দখল করে নিতে পারে তা ব্রিটেনের ধারণার বাইরে ছিল। ব্রিটেন তড়িঘড়ি বিমান এবং নৌ বাহিনী পাঠিয়ে আর্জেন্টিনাকে যুদ্ধে পরাস্ত করে ফকল্যানডের পূর্ণ দখল নেয়। ব্রিটেনের সঙ্গে আর্জেন্টিনার এই যুদ্ধে ২৫৮ জন ব্রিটিশ সেনা এবং ৬৪৫ জন আর্জেন্টিনার সেনার মৃত্যু ঘটে। ফকল্যান্ড যুদ্ধ জয়ের পর তৎকালীন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী মার্গারেট থ্যাচারের নির্বাচনী ভবিষ্যৎ উজ্জ্বল হলেও আর্জেন্টিনার স্বৈরাচারী শাসক গলটিয়ারের উপর সে-দেশের সাধারণ মানুষের ক্ষোভ কয়েক গুণ বেড়ে যায় এবং শেষ পর্যন্ত তাঁকে পদ ছাড়তে হয়।
অর্থাৎ, যুদ্ধ শাসককে নির্বাচনে কখনও জিতিয়েছে, কখনও-বা হারিয়েছে। চার্চিলের মতো আন্তর্জাতিক খ্যাতিসম্পন্ন নেতাকেও দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ব্রিটিনের মানুষ সে-দেশের প্রধানমন্ত্রীর পদে প্রত্যাখ্যান করেছিল। শ্রমিক নেতা এটলির উপরে সাধারণ মানুষ ভরসা রেখেছিলেন। আসলে, জাতীয়তাবাদী ভাবাবেগ কতটুকু কাজ করবে তা নির্ভর করে সেই দেশের সমসাময়িক আর্থ-সামাজিক পরিস্থিতি, বিকল্প রাজনৈতিক নেতৃবর্গের উপর সাধারণ মানুষের ভরসা বা বিদ্যমান শাসক দল ও তার নেতাদের কর্মপন্থার উপর। নরেন্দ্র মোদির সরকারের পাঁচ বছরের সাফল্য ও ব্যর্থতা পরখ করার পাশাপাশি মানুষ কিন্তু বিরোধী নেতাদের উপর ভরসা রাখতে পারছে কি না সেই বিষয়টিও ভোটারদের কাছে গুরুত্ব পাবে। জাতীয়তাবাদী ভাবনা একটি স্তর পর্যন্ত মানুষকে প্রভাবিত করলেও নির্বাচনী সাফল্যের সঙ্গে সর্বদাই যে তার সরলরৈখিক সম্পর্ক থাকে ইতিহাস অন্তত তা বলে না। কর্মসংস্থান, খাদ্য, বস্ত্র, বাসস্থান, নিরাপত্তা প্রভৃতি বিষয়গুলি শেষপর্যন্ত নির্বাচনের মূল ইস্যু হিসেবে উঠে আসতে দেখা গিয়েছে বার বার।
 লেখক রবীন্দ্রভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ে রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপক
12th  March, 2019
হিন্দু বাঙালির বাড়ি ভাঙছে, হারাচ্ছে দেশ 
শুভময় মৈত্র

জয় গৃহশিক্ষকতা করেন, বাড়ি সিঁথি মোড়ের কাছে, বরানগরে। নিজেদের তিরিশ বছরের পুরনো বাড়ি, সারানোর প্রয়োজন। একান্নবর্তী পরিবার, দাদা বড় ইঞ্জিনিয়ার। তিনি আর একটি ফ্ল্যাট কিনেছেন কাছেই। 
বিশদ

বাংলায় এনআরসি বিজেপির স্বপ্নের পথে কাঁটা হয়ে দাঁড়াবে না তো 
মেরুনীল দাশগুপ্ত

লোকসভা ভোটে অপ্রত্যাশিত ফলের পর বাংলার বিজেপি রাজনীতিতে যে জমকালো ভাবটা জেগেছিল সেটা কি খানিকটা ফিকে হয়ে পড়েছে? পুজোর মুখে এমন একটা প্রশ্ন কিন্তু পশ্চিমবঙ্গের আমজনতার মধ্যে ঘুরপাক খেতে শুরু করেছে। 
বিশদ

জন্মদিনে এক অসাধারণ নেতাকে কুর্নিশ
অমিত শাহ

 আজ, মঙ্গলবার আমাদের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ৬৯তম জন্মদিন। অল্প বয়স থেকেই মোদিজি নিজেকে দেশের সেবায় উৎসর্গ করেছেন। যৌবন থেকেই তাঁর মধ্যে পিছিয়ে পড়া শ্রেণীর উন্নয়নে কাজের একটি প্রবণতা লক্ষ করা যায়। দরিদ্র পরিবারে জন্মগ্রহণের কারণে মোদিজির শৈশবটা খুব সুখের ছিল না। বিশদ

17th  September, 2019
ব্যাঙ্ক-সংযুক্তিকরণ কতটা সাধারণ মানুষ এবং সামগ্রিক ব্যাঙ্কব্যবস্থার উন্নতির স্বার্থে?
সঞ্জয় মুখোপাধ্যায়

অনেকগুলি ব্যাঙ্ক সংযুক্ত করে দেশে সরকারি ব্যাঙ্কের সংখ্যা কমিয়ে আনা হল আর সংযুক্তির পর চারটি এমন বেশ বড় ব্যাঙ্ক তৈরি হল, আকার আয়তনে সেগুলিকে খুব বড় মাপের ব্যাঙ্কের তকমা দেওয়া যাবে। এসব ঘোষণার পর অর্থমন্ত্রীর বক্তব্য, এতে দেশের অর্থনীতির খুব উপকার হবে।  
বিশদ

16th  September, 2019
রাজনীতির উত্তাপ কি পুজোর আমেজ
জমে ওঠার পথে বাধা হয়ে দাঁড়াচ্ছে?
শুভা দত্ত

 পরিস্থিতি যা তাতে এমন কথা উঠলে আশ্চর্যের কিছু নেই। উঠতেই পারে, উঠছেও। বাঙালির সবচেয়ে বড় উৎসবের মুখে প্রায় প্রতিদিনই যদি কিছু না কিছু নিয়ে নগরী মহানগরীর রাজপথে ধুন্ধুমার কাণ্ড ঘটে, পুলিস জলকামান, লাঠিসোঁটা, কাঁদানে গ্যাস, ইটবৃষ্টি, মারদাঙ্গা, রক্তারক্তিতে যদি প্রায় যুদ্ধ পরিস্থিতির সৃষ্টি হয় এবং তাতে সংশ্লিষ্ট এলাকার জনজীবন ব্যবসাপত্তর উৎসবের মরশুমি বাজার কিছু সময়ের জন্য বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে তবে এমন কথা এমন প্রশ্ন ওঠাই তো স্বাভাবিক।
বিশদ

15th  September, 2019
আমেরিকায় মধ্যবয়সের
সঙ্গী সোশ্যাল মিডিয়া
আলোলিকা মুখোপাধ্যায়

যে বয়সে পৌঁছে দূরের আত্মীয়স্বজন ও পুরনো বন্ধুদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখা ক্রমশ আগের মতো সম্ভব হয় না, সেই প্রৌঢ় ও বৃদ্ধ-বৃদ্ধার জীবনে ইন্টারনেট এক প্রয়োজনীয় ভূমিকা নিয়েছে। প্রয়োজনীয় এই কারণে যে, নিঃসঙ্গতা এমন এক উপসর্গ যা বয়স্ক মানুষদের শরীর ও মনের উপর প্রভাব ফেলে। বিশদ

14th  September, 2019
মোদি সরকারের অভূতপূর্ব কাশ্মীর পদক্ষেপ পরবর্তী ভারতীয় কূটনীতির সাফল্য-ব্যর্থতা
গৌরীশঙ্কর নাগ

 এই অবস্থায় এটা অস্বীকার করার উপায় নেই যে, ৩৭০ ধারা বিলোপ পর্বের প্রাথমিক অবস্থাটা আমরা অত্যন্ত উৎকণ্ঠার মধ্য দিয়ে অতিক্রম করেছি।
বিশদ

14th  September, 2019
ব্যর্থতা নয়, অভিনন্দনই
প্রাপ্য ইসরোর বিজ্ঞানীদের
মৃণালকান্তি দাস

 কালামের জেদেই ভেঙে পড়েছিল ইসরোর রোহিনী। না, তারপরেও এ পি জে আব্দুল কালামকে সে দিন ‘ফায়ার’ করেননি ইসরোর তদানীন্তন চেয়ারম্যান সতীশ ধাওয়ান! বলেননি, ‘দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়া হল কালামকে’! তার এক বছরের মধ্যেই ধরা দিয়েছিল সাফল্য। ধাওয়ানের নির্দেশে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়েছিলেন সেই কালাম-ই। তাঁর কথায়, ‘ওই দিন আমি খুব গুরুত্বপূর্ণ পাঠ পেয়েছিলাম। ব্যর্থতা এলে তার দায় সংস্থার প্রধানের। কিন্তু,সাফল্য পেলে তা দলের সকলের। এটা কোনও পুঁথি পড়ে আমাকে শিখতে হয়নি। এটা অভিজ্ঞতা থেকে অর্জিত।’ বিশদ

13th  September, 2019
রাষ্ট্রহীনতার যন্ত্রণা
শান্তনু দত্তগুপ্ত

ভিক্টর নাভরস্কি নিউ ইয়র্কের জন এফ কেনেডি বিমানবন্দরের ইমিগ্রেশনের লাইনে দাঁড়িয়ে আবিষ্কার করলেন, তিনি আচমকাই ‘রাষ্ট্রহীন’ হয়ে পড়েছেন। কারণ, তাঁর দেশ ক্রাকোজিয়ায় গৃহযুদ্ধ শুরু হয়েছে। পরিস্থিতি এতটাই জটিল যে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মতো দেশগুলির কাছে মানবিকতার নিরিখে ক্রাকোজিয়ার আর কোনও ‘অস্তিত্ব’ নেই।
বিশদ

10th  September, 2019
জাতির গঠনে জাতীয় শিক্ষানীতি
গৌরী বন্দ্যোপাধ্যায়

 অভিধান অনুসরণ করে বলা যায়, পঠন-পাঠন ক্রিয়াসহ বিভিন্ন অভিজ্ঞতালব্ধ মূল্যবোধের বিকাশ ঘটানোর প্রক্রিয়াই শিক্ষা। জ্ঞানকে বলা হচ্ছে অভিজ্ঞতালব্ধ প্রতীতি। শিক্ষা দ্বারা অর্জিত বিশেষ জ্ঞানকে আমরা বিদ্যা বলি। কালের কষ্টিপাথরে যাচাই করে মানুষ আবহমান কাল ধরে নিজ অভিজ্ঞতালব্ধ জ্ঞানরাশিকে পরবর্তী প্রজন্মের জন্য পুস্তকের মধ্যে লিখে সঞ্চিত করে গেছে।
বিশদ

09th  September, 2019
আন্তর্জাতিক সম্পর্কের শতবর্ষে ভারত প্রান্তিক রাষ্ট্র থেকে প্রথম দশে, লক্ষ্য শীর্ষস্থান
বিশ্বনাথ চক্রবর্তী

 প্রথম বিশ্বযুদ্ধ সমাপ্তির মুখে উড্রো উইলসন সমেত বিশ্বের তাবড় নেতারা প্রথম বিশ্বযুদ্ধের ভয়াবহতা দেখে শঙ্কিত হয়ে পড়েন। যুদ্ধের রাহুর গ্রাস থেকে এই সুন্দর পৃথিবীকে কীভাবে রক্ষা করা যায় তা নিয়ে তাঁরা চিন্তিত ছিলেন। উইলসন বুঝতে পেরেছিলেন মানুষের মগজে রয়েছে যুদ্ধের অভিলাষ। যুদ্ধভাবনা মুছে ফেলে শান্তিভাবনা প্রতিষ্ঠা করা দরকার।
বিশদ

09th  September, 2019
পুজোর মুখে বিপর্যয়: ঘরে বাইরে

 দুর্ঘটনা বিপর্যয় তো আর জানান দিয়ে আসে না! নেপালের ভূমিকম্প কি আমাদের আয়েলার মতো প্রাকৃতিক বিপর্যয়ে কত মানুষ ঘর-সংসার সব হারিয়ে রাতারাতি সর্বস্বান্ত হয়েছেন, কত সংসার উজাড় হয়ে গেছে—শত চেষ্টাতেও সেই ক্ষত পুরোটা পূরণ করা গিয়েছে কি? যায়নি। এই বউবাজারে রশিদ জমানার সেই ভয়ানক বিস্ফোরণের পর কত লোকের কত সর্বনাশ হয়েছিল—কজন তার বিহিত পেয়েছিলেন? মেট্রো রেলের সুড়ঙ্গ কাটতে গিয়ে সেপ্টেম্বরের শুরুতে বউবাজারে বাড়ি ধসে যে ক্ষতি বাসিন্দাদের হল তাতে তাই ‘অপূরণীয় ক্ষতি’ বললে কিছুমাত্র ভুল হয় না। বিশদ

08th  September, 2019
একনজরে
নয়াদিল্লি, ১৮ সেপ্টেম্বর (পিটিআই): উৎসবের মরশুমে সুখবর। বুধবার রেলকর্মীদের জন্য ৭৮ দিনের উৎপাদনভিত্তিক বোনাস ঘোষণা করল কেন্দ্র। এদিন মন্ত্রিসভার বৈঠকের পর সাংবাদিক বৈঠক করেন প্রকাশ জাভরেকর ও নির্মলা সীতারামন।  ...

সৌম্যজিৎ সাহা, কলকাতা: রাজ্য সরকারি কর্মীদের জন্য পে কমিশনের সুপারিশ গ্রহণ করার কথা ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। কিন্তু বিশ্ববিদ্যালয়ের কর্মচারীরা এই কমিশনের আওতায় আসছেন কি না, তা নিয়ে সংশয় তৈরি হয়েছে।   ...

 ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জে যেসব সংস্থার শেয়ার গতকাল লেনদেন হয়েছে শুধু সেগুলির বাজার বন্ধকালীন দরই নীচে দেওয়া হল। ...

 সংবাদদাতা, উলুবেড়িয়া: নিজের কর্মস্থলে যেসব জিনিস নিয়ে হাতেকলমে কাজ করেন, সেইসব জিনিস দিয়ে বিশ্বকর্মা প্রতিমা বানানোর ইচ্ছা অনেকদিন থেকেই ছিল ফুলেশ্বরের বৈকুণ্ঠপুরের রথতলার বাসিন্দা সুনীল কুণ্ডুর। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

কর্মক্ষেত্রে অতিরিক্ত পরিশ্রমে শারীরিক ও মানসিক কষ্ট। দূর ভ্রমণের সুযোগ। অর্থপ্রাপ্তির যোগ। যেকোনও শুভকর্মের বাধাবিঘ্ন ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৯১৯- অভিনেতা জহর রায়ের জন্ম
১৯২১- সাহিত্যিক বিমল করের জন্ম
১৯২৪- গায়িকা সুচিত্রা মিত্রের জন্ম
১৯৬৫- মহাকাশচারী সুনীতা উইলিয়ামসের জন্ম
 

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭০.৬৪ টাকা ৭২.৩৪ টাকা
পাউন্ড ৮৭.৭০ টাকা ৯০.৯০ টাকা
ইউরো ৭৭.৬৩ টাকা ৮০.৬২ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৮,৪৩০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৬,৪৬০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৭,০০৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৬,৩৫০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৬,৪৫০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]
18th  September, 2019

দিন পঞ্জিকা

২ আশ্বিন ১৪২৬, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, পঞ্চমী ৩৪/৫৭ সন্ধ্যা ৭/২৭। ভরণী ৮/১৩ দিবা ৮/৪৫। সূ উ ৫/২৭/৪৭, অ ৫/৩৩/৪১, অমৃতযোগ দিবা ৭/৪ মধ্যে পুনঃ ১/৩০ গতে ৩/৬ মধ্যে। রাত্রি ৬/১৯ গতে ৯/৩০ মধ্যে পুনঃ ১১/৫৪ গতে ৩/৫ মধ্যে পুনঃ ৩/৫২ গতে উদয়াবধি, বারবেলা ২/৩১ গতে অস্তাবধি, কালরাত্রি ১১/৩১ গতে ১২/৫৯ মধ্যে। 
১ আশ্বিন ১৪২৬, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, বৃহস্পতিবার, পঞ্চমী ২৬/১২/৩৯ দিবা ৩/৫৬/৩৩। ভরণী ৩/৩৯/২৫ দিবা ৫/৫৫/১৫, সূ উ ৫/২৭/২৯, অ ৫/৩৫/২৯, অমৃতযোগ দিবা ৭/৭ মধ্যে ও ১/২২ গতে ২/৫৬ মধ্যে এবং রাত্রি ৬/৬ গতে ৯/২২ মধ্যে ও ১১/৪৯ গতে ৩/৬ মধ্যে ও ৩/৫৫ গতে ৫/২৮ মধ্যে, বারবেলা ৪/৪/২৯ গতে ৫/৩৫/২৯ মধ্যে, কালবেলা ২/৩৩/২৯ গতে ৪/৪/২৯ মধ্যে, কালরাত্রি ১১/৩১/২৯ গতে ১/০/২৯ মধ্যে। 
মোসলেম: ১৯ মহরম 

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
বারুইপুরে পুলিস নিগ্রহের ঘটনায় গ্রেপ্তার ৮ 

12:03:10 PM

সোনারপুরের কালিকাপুর রামকমল স্কুলে ভাঙচুর এবং চুরির ঘটনায় ধৃত ৬ যুবক 

11:55:00 AM

আলিপুরদুয়ারে পূর্ণবয়স্ক হাতির মৃত্যু 
বক্সা ব্যাঘ্র প্রকল্পের উত্তর রায়ডাক রেঞ্জের কার্তিকার জঙ্গলে একটি পূর্ণবয়স্ক ...বিশদ

11:52:00 AM

কালনায় খাদির উদ্যোগে মসলিন বস্ত্র উৎপাদন সেন্টার পরিদর্শন করলেন মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ 

11:45:00 AM

দুর্গাপুরে লরির ধাক্কায় জখম ৭
 

দুর্গাপুর ব্যারেজের কাছে লরির ধাক্কায় জখম হলেন সাতজন। দুর্ঘটনার পর ...বিশদ

11:43:00 AM

আজ দিল্লিতে অমিত শাহের সঙ্গে বৈঠক মমতার
আজ দুপুর দেড়টায় দিল্লির নর্থ ব্লকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর দপ্তরে অমিত শাহের ...বিশদ

11:40:49 AM