Bartaman Patrika
বিশেষ নিবন্ধ
 

জাতীয়তা-বিরোধী সংবাদপত্র! 

পি চিদম্বরম: রাফাল বিতর্ক থামবে না! পুলওয়ামায় জঙ্গিহামলা এবং অতঃপর ভারতীয় বায়ুসেনার প্রত‌্যাঘাতের কারণে বিতর্কটা যদি যবনিকার আড়ালে চলে গিয়ে থাকে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিই সেটাকে মঞ্চের মাঝখানে এনে ফেলেছেন প্ররোচনামূলক মন্তব‌্য করে—‘‘আমাদের যদি রাফাল যুদ্ধবিমান থাকত ...।’’
তাঁর দুর্ভাগ‌্য এই, তাঁর এমন মন্তব‌্যের দুদিনের মধ‌্যে রাফাল চুক্তির বিষয়ে দ‌্য হিন্দু আর একটি অন্তর্তদন্তমূলক নিবন্ধ প্রকাশ করল। এই নিবন্ধে কম্পট্রোলার অ‌্যান্ড অডিটর জেনারেলের (সিএজি) চূড়ান্ত মন্তব‌্য নস‌্যাৎ হয়ে গিয়েছে—সিএজির মন্তব‌্য ছিল যে এনডিএ-র ডিলটা ইউপিএ-র চেয়ে ২.৮৬ শতাংশ সস্তা ছিল। (অবশ‌্য, এই সরকারের দাবি ছিল যে তাদের ডিলটা ৯-২০ শতাংশ সস্তা, যদিও সিএজি তা মানেনি)।
কোন ডিল বা চুক্তি বেশি সস্তার?
বিষয়টি সোজা-সাপটা। ইউপিএ-র ডিলে ডাসল্টকে ব‌্যাঙ্ক গ‌্যারান্টি এবং পারফর্ম‌্যান্স গ‌্যারান্টি দেওয়ার প্রয়োজন ছিল। এনডিএ আমলে ওই আবশ‌্যকতায় ছাড় দেওয়া হল। গ‌্যারান্টির ব‌্যবস্থা থাকলে ব‌্যাঙ্ক সংশ্লিষ্ট ‘কাস্টমারকে’ (এক্ষেত্রে ডাসল্ট) ‘চার্জ’ করবে। গ‌্যারান্টির দামটা এখানেই—এটা প্রত‌্যেকটি ব‌্যবসায়ী বিষয়টি সম্পর্কে অবগত। মোটামুটি ৬০ হাজার কোটি টাকার রাফাল চুক্তিতে গ‌্যারান্টি চার্জটা অনমনীয় হতো। যদি একটি ডিল গ‌্যারান্টি চার্জ সমেত ধরা হয় এবং অন‌্য ডিলটা গ‌্যারান্টি চার্জ বাদ দিয়ে ধরা হয়, সাধারণ বুদ্ধি বলে যে, দুটির দাম তুলনা করার আগে, প্রথম ডিলটার থেকে গ‌্যারান্টি চার্জটাকে বাদ দেওয়া উচিত। সিএজি সংখ‌্যাগুলো পেয়েছিল। চার্জগুলোকে দুটি ভাগে ভাগ করে হিসেব করেছে তারা।
ব‌্যাঙ্ক গ‌্যারান্টি চার্জ: ইউরো এএবি১ মিলিয়ন
পারফর্ম‌্যান্স গ‌্যারান্টি এবং ওয়‌্যারান্টি চার্জ: ইউরো এএবি২ মিলিয়ন
মোট: ইউরো এএবি৩ মিলিয়ন

সিএজি ‘আলফানিউমেরিকস’ (শুধু সংখ‌্যার পরিবর্তে বর্ণ-সংখ‌্যা মিশিয়ে) ব‌্যবহার করেছে, কারণ তারা কথা দিয়েছে যে দাম সংক্রান্ত তথ‌্যটি ‘রিড‌্যাক্ট’ বা সম্পাদনা করেই প্রকাশ করবে। যাই হোক, সিএজি নীচের অনুযায়ী চূড়ান্ত মত দিতে বাধ‌্য হয়েছিল:
‘‘সুতরাং, ব‌্যাঙ্ক চার্জ মকুব বাবদ ভেন্ডরের মোট সাশ্রয় এএবি৩ মিলিয়ন ইউরোর সবটাই মন্ত্রকে হস্তান্তরিত হওয়া উচিত ছিল। ব‌্যাঙ্ক চার্জ সংক্রান্ত অডিটের হিসেব-নিকেশ মেনে নিতে রাজি হয়ে মন্ত্রক বলল যে, ব‌্যাঙ্ক গ‌্যারান্টির অর্থ মেটানোর প্রয়োজন না-থাকায় যে সাশ্রয়টুকু হল সেটা বস্তুত মন্ত্রকের। যাই হোক, ২০০৭ সালের ‘অফার’-এর সঙ্গে তুলনা করতে গিয়ে অডিট লক্ষ‌ করল যে এটা বাস্তবিকই মেসার্স ডিএ-র সাশ্রয়।’’
সিএজি জাতিকে হতাশ করল
গ‌্যারান্টি চার্জের অঙ্কটা জনসাধারণের কাছে গোপনই রয়ে গেল এবং দুটি চুক্তির দামের তাৎপর্যপূর্ণ তুলনাটা করা সম্ভব হবে না। ইন্ডিয়ান নেগোশিয়েটিং টিমের (আইএনটি) রিপোর্ট ঘেঁটে হিন্দুর নিবন্ধটি সেই গোপন তথ‌্য উদ্ঘাটন করেছে। সেই চার্জের অঙ্কটি হল ৫৭৪ মিলিয়ন ইউরো। ইউপিএ আমলের চুক্তি থেকে এই অঙ্কটিকে বাদ দিয়ে যদি দুটি চুক্তির তুলনা টানা যায় তবে পরিষ্কার হয়ে যাবে যে এনডিএ-র চুক্তিটা ব‌্যয়বহুল, এনডিএ চুক্তির মূল‌্য ২৪৬.১১ মিলিয়ন ইউরো বেশি। হালফিল ৮০ টাকার এক্সচেঞ্জ রেটে এনডিএ-র চুক্তিমূল‌্য ১৯৬৮ কোটি টাকা বেশি। শুধু এই হিসেবেই ৩৬টি এয়ারক্র্যাফটের প্রতিটির দাম ৫৪.৬৬ কোটি টাকা বেশি দিতে হচ্ছে।
এটি একটি রহস‌্য যে আইএনটি-র বিশ্বস্ততা নস‌্যাৎ করে পিএমও কেন সমান্তরাল উদ‌্যোগ নিয়েছিল। আর একটি রহস‌্য হল দুর্নীতি-বিরোধী তিনটি ‘ক্লজ’ বা ধারা কেন বাদ দেওয়া হল। এটাও রহস‌্য যে কেন পেমেন্ট সিকিউরিটি সিস্টেম—সভরিন গ‌্যারান্টি, ব‌্যাঙ্ক গ‌্যারান্টি এবং এসক্রো অ‌্যাকাউন্ট—বাদ দেওয়া হয়েছে। ডাসল্টের প্রতি ‘ভাব ভালোবাসা’য় নিশ্চয় এসব করা হয়নি। একটি গোপন উদ্দেশ‌্যকেই নির্দেশ করে এই ঘটনাক্রম। এই রহস‌্যময় দিকগুলির তদন্ত করে সত‌্য উদ্ঘাটন করাটা সিএজি-র দায়িত্ব ছিল। সিএজি দেশকে হতাশ করেছে। এই চুক্তির গোপন দিকগুলি দ‌্য হিন্দু  ফাঁস করে চলেছে। এবং, তাতে সরকারের প্রতিক্রিয়া কী? সরকার কাগজের বিরুদ্ধে ‘চুরি-যাওয়া নথিপত্র’ ব‌্যবহার করার অভিযোগ আনছে এবং ভয় দেখাচ্ছে ফৌজদারি মামলার ঝামেলায় ফেলবে বলে! এই ভয়টাকে ব‌্যাপক করার ভার দেওয়া হয়েছে ভারতের অ‌্যাটর্নি জেনারেলকে!
চুরি-যাওয়া বিখ‌্যাত নথিপত্র
২০১২-১৪ সালে, ভারত সরকার সুইস ব‌্যাঙ্কের গ্রাহকদের (অ‌্যাকাউন্ট হোল্ডার) নাম জোগাড় করেছিল যেগুলি হ‌্যাকিংয়ের মাধ‌্যমে ফ্রান্স ও জার্মানিতে পাচার হয়ে গিয়েছিল। আয়কর দপ্তর নোটিস জারি করেছিল, উত্থাপন করেছিল ট্যাক্স বা কর-এর দাবি এবং মামলা রুজু আরম্ভ করেছিল। আয়কর বিভাগ কি ‘চুরি-যাওয়া নথি’র ভিত্তিতে পদক্ষেপ করছিল? অনুরূপভাবে, ২০১৬ সালে, একটি ল ফার্মের কম্পিউটার থেকে ১১.৫ মিলিয়ন নথি একটি জার্মান সংবাদপত্রে (স‌্যুডডয়েচে জাইটুং) ফাঁস হয়ে গিয়েছিল (কেউ চুরি করেছিল?)—সংবাদপত্রটি আবার সেইসব তথ‌্য ইন্টারন‌্যাশনাল কনসর্টিয়াম অফ ইনভেস্টিগেটিভ জার্নালিস্টসকে শেয়ার করেছিল। অ‌্যাকাউন্ট হোল্ডারদের মধ‌্যে ভারতীয় বা অনাবাসী ভারতীয় (এনআরআই) যাঁরা তাঁদের নাম প্রকাশ করে দেওয়া এবং তাঁদের নামে নোটিস জারি করার ব‌্যাপারে আয়কর বিভাগের বিবেকের তাড়না ছিল না।
বিখ‌্যাত পেন্টাগন পেপার্স বাস্তবে ছিল ভিয়েতনাম যুদ্ধের উপর মার্কিন প্রতিরক্ষা সচিবের তৈরি করা একটি গোপন রিপোর্ট। এটি ১৯৭১ সালে ফাঁস হয়েছিল। ওয়াশিংটন পোস্ট সেগুলি প্রকাশ করার জন‌্য তৈরি হচ্ছিল। যুক্তরাষ্ট্র প্রশাসন সংবাদপত্রকে আদালতে অভিযুক্ত করল। ৬-৩ ভোটাভুটিতে যুক্তরাষ্ট্রের শীর্ষ আদালত নিউ ইয়র্ক টাইমস এবং ওয়াশিংটন পোস্টকে সংগৃহীত তথ‌্য প্রকাশের অনুমতি দিল—সেন্সরশিপ অথবা শাস্তির ঝুঁকি ছাড়াই (৪০৩ ইউ.এস. ৭১৩)। বিচারপতিগণ ব্ল‌্যাক, ডগলাস, ব্রেনান জুনিয়র, স্টুয়ার্ট, হোয়াইট এবং মার্শাল বাক-স্বাধীনতাকে জাতীয় নিরাপত্তার ‘ভেইগ’ উদ্বেগের উপর স্থান দিয়েছিলেন এবং বলেছিলেন যে গণতান্ত্রিক প্রক্রিয়া অক্ষুণ্ণ রাখার জন‌্য তথ‌্যের বিস্তার গুরুত্বপূর্ণ।
ইতিহাসের পুনরাবৃত্তি ঘটছে, এবার ভারতে। শ্রীমোদি এবং তাঁর মন্ত্রীরা দ‌্য হিন্দু-কে ‘অ‌্যান্টি-ন‌্যাশনাল’ বা তার চেয়েও মন্দ তকমা দেবেন। তীব্র অভিযোগ সত্ত্বেও পাঠক কিন্তু খবরের কাগজটি পড়তে থাকবেন। রাফাল এয়ারক্র্যাফট আসবে। একটি তদন্ত হবে। সত‌্য উদ্ঘাটন হবে। দেশের জীবনপ্রবাহ থাকবে। 
11th  March, 2019
সন্ত্রাসবাদীদের চক্রব্যূহে ফেঁসে
রয়েছেন ইমরান খান
মৃণালকান্তি দাস

২০১৩ সালে মার্কিন বাহিনীর ড্রোন হামলায় নিহত হয়েছিলেন পাকিস্তানি তালিবান কম্যান্ডার ওয়ালি-উর-রেহমান। প্রতিবাদে ফেটে পড়েছিলেন ইমরান খান। সেদিন ট্যুইট করে বলেছিলেন, ‘ড্রোন হামলায় শান্তিকামী নেতা ওয়ালি-উর-রেহমানকে হত্যার মাধ্যমে প্রতিশোধ, যুদ্ধ ও মৃত্যুর দিকে ঠেলে দেওয়া হল যোদ্ধাদের। একদমই মানতে পারছি না।’
বিশদ

অথ শ্রীমহাভারত কথা
গৌরী বন্দ্যোপাধ্যায়

আবার এক মহাভারত যুদ্ধ সমাগত। রণবাদ্য বাজিয়ে যুদ্ধের দিনক্ষণ ঘোষিত হয়েছে, আকাশে-বাতাসে সেই যুদ্ধের বার্তা ভাসছে, প্রস্তুতি চলছে নানা স্তরে, সর্বত্র সাজ সাজ রব উঠে গেছে। বাদী, সম্বাদী, বিবাদী সব দলই নানা উপায়ে নিজেদের শক্তি বৃদ্ধি করে চলেছে। সাম, দান, দণ্ড, ভেদাদি প্রতিটি উপায়ই সমাজের নানা স্তরে নানাভাবে পরীক্ষিত হচ্ছে।
বিশদ

14th  March, 2019
ভোটজয়ে যুদ্ধের ভাবাবেগের একাল সেকাল
বিশ্বনাথ চক্রবর্তী

 পুলওয়ামার ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে ভারতীয় বিমান বাহিনীর প্রত্যাঘাত এবং পাকিস্তানের এফ-১৬ বিমানের আক্রমণ প্রতিহত করা, কোনও শর্ত ছাড়াই উইং কমান্ডার অভিনন্দনকে পাকিস্তানের খপ্পর থেকে ৭২ ঘণ্টার মধ্যে মুক্ত করে এনে ভারত যে শৌর্যের প্রদর্শন করেছে তা বিরাট গর্বের।
বিশদ

12th  March, 2019
গোঁফ দিয়ে যায় চেনা?
অতনু বিশ্বাস

 উইং কম্যান্ডার অভিনন্দনের অকুতোভয় সাহসিকতা আর কর্তব্যনিষ্ঠায় মোহিত ভারতবাসী। তারা খুঁজতে চায় সেই রসায়নের গূঢ় তত্ত্ব। সুকুমারী দুনিয়ার হেড অফিসের বড়বাবু তো সেই কবেই বলেছেন, গোঁফ দিয়েই নাকি চেনা যায় আমাদের সব্বাইকে। তবু, ছেলেবেলা থেকে এনিয়ে সন্দেহ আমার পুরোদস্তুর।
বিশদ

12th  March, 2019
যুদ্ধ বনাম শান্তি এবং বাঙালি মগজের অবস্থান
 

শুভময় মৈত্র: সকালবেলা দুধের ডিপোয় গভীর আলোচনা। পলিথিনবন্দি দুশো গ্রাম দই আর পাঁচশো মিলিলিটার গুঁড়ো গোলা দুধ কিনতে গিয়ে মহা বিপদে পড়তে হল। একটু আধটু লিখি সেকথা যাঁরা জানেন তাঁরা ঘিরে ধরে বললেন যে যুদ্ধ নিয়ে লিখুন যত খুশি, তবে নিজের মাথা বিক্রি করে নয়। অর্থাৎ বক্তব্য খুব পরিষ্কার। যুদ্ধের পক্ষে বা বিপক্ষে যাই লিখুন না কেন, সেটার পিছনে যেন নিজের ধান্দা না থাকে।   বিশদ

11th  March, 2019
মমতার নামে কুৎসা করে
বাংলার ভোট জেতা যাবে?
শুভা দত্ত

 কুৎসা ছাড়া কী? মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দেশপ্রেমিক নন! তিনি সেনার মর্যাদা গৌরব বোঝেন না! তিনি পাকিস্তানের হয়ে কথা বলছেন! এসব কুৎসা ছাড়া কী? আমাদের রাজ্যে তো বটেই, গোটা দেশেও কি কেউ এক মুহূর্তের জন্য বিশ্বাস করবে এইসব? এমনকী মমতার অন্ধ বিরোধীরাও কি এমন কথা মানবে?! অসম্ভব।
বিশদ

10th  March, 2019
মিথ্যা‌ই সত্য
সমৃদ্ধ দত্ত

 এই যে কোনও আধুনিক সভ্যতার উপকরণ নির্মাণেই আমরা পশ্চিমি দেশের সঙ্গে পাল্লা দিতে পারছি না এটাই কি শেষ কথা? ভারত কি সত্যিই কোনও আন্তর্জাতিক ব্র্যান্ডিং-এই এক নম্বর নয়? এটা ভুল ধারণা। আমরা এক নম্বর স্থান পেয়েছি একটি আন্তর্জাতিক ইস্যুতে। সেটি হল ফেক নিউজ।
বিশদ

08th  March, 2019
ভোটবাজার: ইস্যুগুলো সব গেল কোথায়!
মেরুনীল দাশগুপ্ত

ইমরান খান বুদ্ধিমান। দুনিয়া কাঁপানো এই ক্রিকেটার আজকের হাই-টেক আন্তর্জাতিক রাজনীতিতে কতটা দর তার হিসেব না নিয়েও বলা যায়—তিনি বুদ্ধিমান এবং অবশ্যই বিচক্ষণ। তিনি জানেন, লড়াইয়ের ময়দানে কখনও-সখনও কৌশলগত কারণে এক-পা এগনোর জন্য দু-পা পিছিয়েও আসতে হয়, আসতে হতে পারে।  বিশদ

07th  March, 2019
শামিমার নাগরিকত্ব কেড়ে নেওয়া
কি আদৌ ব্রিটেনের সংস্কৃতির অঙ্গ!
রূপাঞ্জনা দত্ত

‘আমার মাত্র একটিই নাগরিকত্ব আছে। সেটাও যদি কেড়ে নেওয়া হয়, তাহলে আমার আর কিছু থাকবে না। ব্রিটেনে যদি আমাকে শিশু সন্তানসহ ফিরতে দেওয়া হয়, তাহলে জেলে যেতেও রাজি।’ শামিমা বেগমের এই মম্তব্যই ব্রিটেনজুড়ে ঝড় তুলেছে অভিবাসী আইন নিয়ে।  বিশদ

07th  March, 2019
নীতি-যুদ্ধ-রাজনীতি
নৃসিংহপ্রসাদ ভাদুড়ী

নৈতিক দৃষ্টিতে যে আচার-আচরণ এবং ব্যবহার ভুল বলে মনে হয়, সেই আচার-আচরণ এবং ব্যবহার রাজনৈতিকভাবে কখনও ঠিক হতে পারে না—এই সত্যটা সকলের আগে বুঝে নেওয়া ভালো। এই সত্য ভাবগত বুদ্ধিতে যতটা সহজ, কার্যত এটা ততটাই কঠিন।
বিশদ

05th  March, 2019
যুদ্ধের চাপা দামামা
পি চিদম্বরম

একটি জাতি হিসেবে, বাইরের দিকের নিরাপত্তা (এক্সটার্নাল সিকিউরিটি) এবং অভ‌্যন্তরীণ নিরাপত্তার (ইনটার্নাল সিকিউরিটি) মধ‌্যে স্বাতন্ত্র্যরচনায় আমরা যত্নবান। কোনও কারণে প্রথমটিকে ‘জাতীয়’ (ন‌্যাশনাল) আলখাল্লা পরার অনুমোদন দেওয়া হচ্ছে কিন্তু পরেরটির ক্ষেত্রে নস‌্যাৎ করা হচ্ছে সেই বিশেষ সুবিধাটি।
বিশদ

04th  March, 2019
ভারত-পাক যুদ্ধ পরিস্থিতি আসন্ন ভোটযুদ্ধে মোদিজিকে কি এগিয়ে দিল?
শুভা দত্ত

 এখনও শেষ হয়নি। চলছে। পুলওয়ামার ন্যক্কারজনক জঙ্গি হামলার পর থেকে ভারত-পাকিস্তানের মধ্যে যে যুদ্ধ পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল তার রেশ এখনও যথেষ্টই রয়েছে। রয়েছে প্রবল উত্তেজনাও। শুক্রবারও মেন্ধার আখনুর উরি নৌশেরা প্রভৃতি সেক্টরে যুদ্ধ বিরতি চুক্তি লঙ্ঘন করে পাক রেঞ্জাররা দফায় দফায় গোলাগুলি চালিয়েছে এবং তার যোগ্য জবাব দিয়েছে ভারতীয় সেনা। অন্যদিকে এদিনই জঙ্গি সন্ত্রাসে ফের রক্তাক্ত হয়েছে ভূস্বর্গের মাটি—নিহত হয়েছেন সেনা আধা-সেনা ও পুলিস মিলিয়ে পাঁচজন! গুরুতর আহত নিরাপত্তাবাহিনীর চার রক্ষী।
বিশদ

03rd  March, 2019
একনজরে
 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: হাইকোর্টের নির্দেশ সত্ত্বেও প্রায় তিন বছরে কয়েকটি চিঠির হাতের লেখা সম্পর্কে রিপোর্ট দেয়নি সিআইডি। অথচ, সেইসব চিঠিতে টাকা চেয়ে হুমকি ছাড়াও বিচারবিভাগ সম্পর্কে মারাত্মক অসম্মানজনক মন্তব্য রয়েছে। ...

নয়াদিল্লি, ১৪ মার্চ: বিশ্বকাপের আগে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ২-৩ ব্যবধানে ওয়ান ডে সিরিজ হেরেও বিচলিত নন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। তিনি স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন, ‘বিশ্বকাপের জন্য ...

 পাটনা, ১৪ মার্চ (পিটিআই): তাঁর বিজেপি ত্যাগ সম্ভবত সময়ের অপেক্ষা। তার আগে বৃহস্পতিবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদিকে তুলোধোনা করলেন শত্রুঘ্ন সিনহা। পাটনা সাহিব কেন্দ্রের এই এমপির ...

  সংবাদদাতা, বুদবুদ: বুদবুদে শান্তিনিকেতনের আদলে বসন্ত উৎসব ঘিরে প্রস্তুতি তুঙ্গে। বুদবুদের মহাকালী উচ্চ বিদ্যালয়ের মাঠে এই উৎসব এবার দ্বিতীয় বর্ষে পদার্পণ করছে। শান্তিনিকেতনকে বাদ দিয়ে বাঙালির বসন্ত উৎসব কার্যত অসম্পূর্ণ। তাই দোল উৎসবে শান্তিনিকেতন যেতে মুখিয়ে থাকেন অনেকেই। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

বিদ্যায় অধিক পরিশ্রম করতে হবে। ব্যবসায় যুক্ত ব্যক্তির পক্ষে দিনটি শুভ। প্রেম-প্রীতিতে আগ্রহ বাড়বে। নতুন ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৫৬৪ – জিজিয়া কর তুলে দেন মুঘল সম্রাট আকবর
১৮৯২ – লিভারপুল ফুটবল ক্লাব প্রতিষ্ঠিত হয়।
১৮৭২ - ভারতীয় সাক্ষ্য আইন প্রবর্তন।
১৯০৪ - স্বনামধন্য বাঙালি কবি ও লেখক অন্নদাশঙ্কর রায়ের জন্ম
১৯৩৪: রাজনীতিক কাঁসিরামের জন্ম
১৯৩৭ - পৃথিবীর প্রথম ব্লাডব্যাংক চালু হয় শিকাগোতে
১৯৩৯ - বাঙালি ভ্রমণ কাহিনী, রম্যরচনা ও উপন্যাস লেখক জলধর সেনের মৃত্যু
১৯৭৬: অভিনেতা অভয় দেওলের জন্ম
১৯৭৭: অভিনেতা যিশু সেনগুপ্তের জন্ম
১৯৮৩: সঙ্গীতশিল্পী হানি সিংয়ের জন্ম
১৯৮৫ – প্রথম ইন্টারনেট ডোমেইন নাম নিবন্ধিত হয়। (symbolics.com)

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৮.৭০ টাকা ৭০.৩৯ টাকা
পাউন্ড ৯০.৬৮ টাকা ৯৩.৯৭ টাকা
ইউরো ৭৭.২৯ টাকা ৮০.২৪ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩২,৫২০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩০,৮৫৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩১,৩২০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৮,২০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৮,৩০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৩০ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৫ মার্চ ২০১৯, শুক্রবার, নবমী ৪৯/৪৭ রাত্রি ১/৪৫। আর্দ্রা ৫৪/৪৫ রাত্রি ৩/৪৪। সূ উ ৫/৪৯/৫৫, অ ৫/৪১/৫৩, অমৃতযোগ দিবা ৭/২৩ মধ্যে পুনঃ ৮/১২ গতে ১০/৩৪ মধ্যে পুনঃ ১২/৫৬ গতে ২/৩২ মধ্যে পুনঃ ৪/৭ গতে অস্তাবধি। রাত্রি ৭/১৯ গতে ৮/৫৬ মধ্যে পুনঃ ৩/২২ গতে ৪/১১ মধ্যে, বারবেলা ৮/৪৮ গতে ১১/৪৬ মধ্যে, কালরাত্রি ৮/৪৩ গতে ১০/১৫ মধ্যে।
৩০ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৫ মার্চ ২০১৯, শুক্রবার, নবমী রাত্রি ৯/০/৫০। আর্দ্রানক্ষত্র রাত্রি ১১/৩২/৪৫, সূ উ ৫/৫০/২৮, অ ৫/৪০/৪৯, অমৃতযোগ দিবা ৭/২৫/১১ মধ্যে ও ৮/১২/৩২ থেকে ১০/৩৪/৩৬ মধ্যে ও ১২/৫৬/৫১ থেকে ২/৩১/২৪ মধ্যে ও ৪/৬/৬ থেকে ৫/৪০/৪৯ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/১৮/৬ থেকে ৮/৫৫/২৩ মধ্যে ও ৩/২৪/৩২ থেকে ৪/১৩/১১ মধ্যে, বারবেলা ৮/৪৩/৩ থেকে ১০/১৬/৫১ মধ্যে, কালবেলা ১০/১৬/৫১ থেকে ১১/৪৫/৩৯ মধ্যে, কালরাত্রি ৮/৪৩/১৪ থেকে ১০/১৪/২৬ মধ্যে।
 ৭ রজব

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
দাসপুরে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে নয়ানজুলিতে বাস 
টোটোকে বাঁচাতে গিয়ে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে নয়ানজুলিতে পড়ে গেল কনেযাত্রীবোঝাই বাস। ...বিশদ

07:55:31 PM

২৫টি আসনে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করল বামেরা 
১৭টি আসন ছেড়ে ২৫টি আসনে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করল বামফ্রন্ট। ...বিশদ

06:51:12 PM

আজ সন্ধ্যায় দক্ষিণবঙ্গে ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনা 
আজ সন্ধ্যায় দক্ষিণবঙ্গের বেশ কয়েকটি জেলায় ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বলে ...বিশদ

05:01:43 PM

২৬৯ পয়েন্ট উঠল সেনসেক্স

04:02:07 PM

নিউজিল্যান্ডের মসজিদে হামলার ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৪৯ 

02:22:06 PM

মাদারিহাটে গাড়িতে ধাক্কা মারল ট্রাক, জখম ১০ 

01:36:00 PM