Bartaman Patrika
অমৃতকথা
 

সমুদ্র-মণ্ডল

সমুদ্রবিজ্ঞানের অনুরাগীরা একবার সবাই মিলে ঠিক করলেন, ভূমণ্ডলের নাম পাল্টে সমুদ্র-মণ্ডল করা উচিত। কারণ এই গ্রহের ৭৮ ভাগই জল, মাত্র ২২ ভাগ স্থল। অনুরূপ নজির তুলে কোয়ান্টাম বিজ্ঞানীরাও সঙ্গত দাবি তুলতে পারেন যে, এই বিশ্বব্রহ্মাণ্ডের নাম হওয়া উচিত অতিপরমাণুময় আকাশমণ্ডল। তাদের যুক্তি হল, নভোচর গ্যালাক্সি নক্ষত্র গ্রহ ইত্যাদি সকলে মিলে একত্রে এই মহাকাশের ব্যাপ্তির কোটি কোটি ভাগের এক ভাগেরও সমতুল নয়। তাছাড়া দৃশ্য বস্তু রূপে যে স্থানটুকু দখল ক’রে আছে বলে ঐ নভোচরেরা দাবি করে, তাও আসলে সেই দখলীকৃত আয়তনের লক্ষ-কোটি ভাগের একভাগ মাত্র, কারণ যে পরমাণু সমষ্টি দিয়ে এই বস্তুময় নভোচরেরা গঠিত, সেই পরমাণুসমূহের আকাশ-অংশই তো প্রায় সবটা অর্থাৎ পরমাণুর নিউক্লিয়াস বা বস্তুময় কেন্দ্র-সত্তার আয়তন হল, সমগ্র পরমাণুর আয়তনের লক্ষ-কোটি ভাগের এক ভাগ (10-12) মাত্র; অর্থাৎ বস্তুময় বলে যাদের বলি, তারাও তো আসলে প্রায় সবটাই আকাশময় বা শূন্যময় বা ভ্যাকুয়াম। এ ব্যাপারে পরমাণু বিজ্ঞানীদের খুব সহজ দৃষ্টান্তটি হল, এত বড় এক একটা লম্বা চওড়া দেহধারী মানুষের দেহস্থ কোটি কোটি পরমাণু থেকে যদি আকাশ অংশ নিঙ্‌ড়ে বার করে নেওয়া যায়, তবে সবগুলি নিউক্লিয়াসের সমষ্টি হবে সূচের মাথায় অবস্থিত অদৃশ্যপ্রায় একটি বিন্দুর মতন। বাস্তবে, এরকম সার্ব্বিক ধ্বংসের পরিণামেই অতি সুবিশাল নক্ষত্রদেহ অন্তিমে নিউট্রন-নক্ষত্রের প্রায় শূন্যময় মাত্র পনের কুড়ি কিলোমিটার পরিসর পরিণতি লাভ করে। তাই বস্তুময় নক্ষত্রাদি সমন্বিত জগদব্রহ্মাণ্ড বলে যাদের আমরা দেখছি মনে করছি এবং ব্যবহারে আনছি, তাদের আসল মূর্ত্তি কিন্তু আকাশময়—প্রায় শূন্যময়।
পরমাণু-আকাশ বলতে আমরা দুটি ব্যাপার একই সঙ্গে বুঝি। পরমাণু (atom)-র ভিতরের পূর্বোক্ত আকাশ বা শূন্যতা। আবার, মহাকাশের শূন্যতা বলে যা আমরা দেখি, মনে করি বা অনুভব করি, তা আসলে শূন্য নয়, অতিপরমাণুকণাসমূহের (Sub-atomic particles) দ্বারা পূর্ণ অর্থাৎ মহাকাশ হল অতি পরমাণুময়। (মনে করা হয়, প্রতি একক আয়তনে একটি করে হাইড্রোজেন পরমাণু আছে)। এই দ্বিতীয় ব্যাপারটির নাম হল কোয়ান্টাম ভ্যাকুয়াম (Quantam-Vaccuum)। নামেই বা আপাতভাবেই এটি Vacuum বা শূন্য, কিন্তু আসলে পূর্ণ; তাই একে false vaccuumও বলে। বস্তুত কোয়ান্টাম ভ্যাকুয়াম হল অসংখ্য প্রসুপ্ত (Virtual) অতি-পরমাণুকণার মহাসমুদ্র যেখানে তাপমাত্রা ২.৭ ডিগ্রি কেলভিন, যেখানে অতিপরমাণুকণা সমূহ এক অতি জটিল আন্তঃক্রিয়ায় রত। ব্রিটিশ বিজ্ঞানী Tony Hey-র ভাষায়, ‘Instead of a place where nothing happens, the "empty" box [the quantum vacuum] should now be regarded as a bubbling "soup" of virtual particle/ anti-particle pairs'.—বিজ্ঞানীরা এই কোয়ান্টাম ভ্যাকুয়ামের এক বিশেষ অতিশক্তিময় শূন্যবৎ অবস্থা থেকেই মহাবিস্ফোরণের মাধ্যমে এই বিশ্বজগতের আদি উদ্ভব। এভাবে বলা যায়, মহাকাশ বা মহাবিশ্বের যা কিছু শক্তি, তা অন্তিম বিশ্লেষণে এই ক্ষুদ্রাতিক্ষুদ্র অতিপরমাণুকণাসমূহেরই বিবিধ প্রকাশ মাত্র।
কোয়ান্টাম ভ্যাকুয়ামই হল সেই মূল বাস্তব সর্বাধার যার অভিব্যক্তি হল এই বিশ্বব্রহ্মাণ্ডের সবকিছু। আমেরিকান বিজ্ঞানী ডেভিড ফিন্‌কেলস্টেন বলেন, শূন্যতার সাধারণ তত্ত্বই হল এভাবে সবকিছুরই তত্ত্ব (a general theory of the vacuum is thus a theory of everything)। এই পরমাণু-আকাশই হল জড়ঢাকের চামড়ার পর্দার মতন যার কম্পনের মধ্যে দিয়েই আমাদের দেহ মন প্রাণ চেতনা বিশ্বব্রহ্মাণ্ডের সবকিছুরই উদ্ভব। এই আকাশ শুধু জড় নয়, চেতনও বটে। ইনিই চৈতন্য ইনিই ব্রহ্ম। আমেরিকান বিজ্ঞানী-লেখিকা শ্রীমতী ডানা জোহার (Donah Zohar) মুক্তকণ্ঠে স্বীকার করেছেন, আধুনিক পদার্থবিদ্যার নিয়ম মেনে এ বিশ্বব্রহ্মাণ্ডে যদি কোনও ঈশ্বরকে খুঁজতে হয়, তবে এই মূল আকাশসত্তা বা সুসমঞ্জস পরমাণু-আকাশ quantum vaccum-এর মধ্যেই তাঁকে প্রথমে খুঁজে পেতে হবে।
অযাচকের ‘আকাশব্রহ্ম’ থেকে
07th  January, 2019
ধর্ম ও মানবতা

 ‘‘যদা যদা হি ধর্মস্য গ্লানির্ভবতি ভারত
অভ্যুত্থানমর্ধস্য তদাত্মানং সৃজাম্যহম্‌।
পরিত্রাণায় সাধুনাং বিনাশায় চ দুষ্কৃতাম্‌।
ধর্ম সংস্থাপনার্থায় সম্ভবামি যুগে যুগে।।’’ বিশদ

জ্ঞান

যথার্থ জ্ঞানের দ্বারা জীবের অবিদ্যারূপ উপাধির বিনাশ হয়, অন্য কোন উপায়ে ইহার নাশ হয় না। ব্রহ্মের সহিত আত্মার একাত্বানুভবই জ্ঞান, শ্রুতি ইহা বলেন। আত্মা কি, অনাত্মাই বা কি, এই বিচার যথাযথভাবে করিতে পারিলে আত্মজ্ঞানের উত্‌পত্তি হয়। অতএব জীব ও ব্রহ্মের স্বরূপ বিচারের দ্বারা নির্ণয় করা কর্তব্য।
বিশদ

19th  July, 2019
শ্রীরামকৃষ্ণের সাধনা

 অতীতে যে সকল অবতার-পুরুষ বিশ্বের কল্যাণে আগমন করিয়াছিলেন, গৌতম বুদ্ধ তাঁহাদের অন্যতম। প্রায় পঞ্চবিংশ শতাব্দী পূর্বে যে কঠোর তপস্যা তিনি করিয়াছিলেন, আজিও তাহার জ্বলন্ত দৃষ্টান্ত বর্তমান রহিয়াছে। তিনি যে সময় অবতীর্ণ হইয়াছিলেন, তাঁহার প্রদর্শিত মার্গ বাস্তবিকই তদুপযোগী হইয়াছিল।
বিশদ

18th  July, 2019
 কর্ম এবং জ্ঞান

 প্রাচীন-বেদে আবার তিনটি স্তরবিভাগ দেখা যায়। প্রথমে কর্ম, দ্বিতীয়ত: উপাসনা এবং তৃতীয়ত: জ্ঞান। কর্ম এবং জ্ঞান দ্বারা নিজেকে পরিশুদ্ধ করলেই ভগবান মানুষের অন্তরে প্রতিভাত হবেন। তিনি যে নিরন্তর অন্তরেই অধিষ্ঠিত—এ-উপলব্ধিও তখন তার হবে।
বিশদ

17th  July, 2019
শক্তি 

ভগবান মানুষকে জ্ঞান, বুদ্ধি দিয়েছেন। নিশ্চেষ্ট হয়ে বসে থাকলে কি চলে? কাজ করতে হবে, কুড়েমি করে বসে থেকে বল্‌ছ ভগবান যা করবেন, তাই হবে। আরে! ভগবান তোমায় কোন সাহায্য করবেন না, তোমায় নিজেকে সব করতে হবে। আমি খেলে কি তোমার পেট ভরে? 
বিশদ

16th  July, 2019
সমষ্টিত্বই ঈশ্বর

একত্ব ও সমষ্টিত্ব মূলত এক। আগন্তুক ও আকস্মিক ধর্মেই ব্যাপক বস্তুকে খণ্ডিত করিয়া ব্যষ্টিতে পরিণত করে। অতএব আগন্তুক ধর্ম বিদূরিত হইলেই মেঘনির্মূক্ত সূর্যের ন্যায় আপন স্বরূপে অবস্থান করে। সূর্যের বিকীর্ণ রশ্মিজাল (divergent rays) মূল এক কেন্দ্রে সংহত। জীব নানত্বও (plurality) এক কেন্দ্রে সংহত। এই কেন্দ্রই সমষ্টিত্ব—ইহাই ঈশ্বর।
বিশদ

15th  July, 2019
 সত্তা

 ব্রহ্ম যদি কেবলই নির্গুণ নিরুপাধিক হত, আমাদের সোপাধিক সত্তার প্রত্যক্ষ সত্যটির সাথে তার যদি চিরন্তন বিরোধ থাকত, তবে লয়ই হত যথাযথ পরিসমাপ্তি—কিন্তু প্রেম আর আনন্দ আর আত্মসংবিৎকেও ত গণনার মধ্যে আনতে হবে।
বিশদ

14th  July, 2019
প্রত্যক্ষানুভূতিই ধর্ম্ম

 ভক্তের পক্ষে এই সকল শুল্ক বিষয় জানার প্রয়োজন, কেবল নিজ ইচ্ছাশক্তিকে দৃঢ় করা মাত্র। এতদ্ব্যতীত উহাদের আর কোন উপযোগিতা নাই। বিশদ

13th  July, 2019
 সাধন

জ্ঞান, ভক্তি, ধর্ম নিজে অর্জন করতে হয়; খুব খাটতে হয়, তবেই নিজস্ব হয়, স্থায়ী হয়, মন ভরপুর হয়ে থাকে। কেউ কাউকে এসব দিতে পারে না। সাধন চাই, তবে সিদ্ধিলাভ হয়। যেমন সাধন তেমনি সিদ্ধি। বিনা সাধনে বা চেষ্টায় যা পাওয়া যায় তার গুরুত্ব থাকে না, কদর হয় না, পেয়েও তেমন সুখ হয় না।
বিশদ

12th  July, 2019
 নারী

সমগ্র নারীজাতির এক কঠিন সমস্যা বহুযুগ ধরিয়া সমাধানের অপেক্ষা করিতেছে। মাতৃজাতির উন্নতির প্রতীকরূপে মা সারদা দেবী মূর্ত হইয়া আসিয়েছেন। এবার সে সমস্যার সমাধান অবশ্যম্ভাবী।
বিশদ

11th  July, 2019
মন্ত্রচৈতন্যের সাধন

 পৃথিবীর অগণিত মানুষ রাম, কৃষ্ণ, কালী, যীশু, রামকৃষ্ণ প্রভৃতি দেবদেবী বা অবতারের নাম জপ করে। গুরু-প্রদর্শিত পথে জপ-ধ্যান করা অবশ্যই কর্তব্য। অনেকে দীক্ষা গ্রহণ করে প্রত্যহ নির্দিষ্ট সংখ্যক জপ করে মনে মনে ভাবে— যথেষ্ট। তন্ত্রশাস্ত্রে মন্ত্রকে চৈতন্যময় করবার নানাবিধ সাধন আছে।
বিশদ

10th  July, 2019
অমৃতকথা 

জগতে সৎ চিৎ ও আনন্দের প্রকাশকে আমরা জ্ঞানের ল্যাবরেটরিতে বিশ্লিষ্ট করিয়া দেখিতে পারি, কিন্তু তাহারা বিচ্ছিন্ন হইয়া নাই। কাষ্ঠবস্তু গাছ নয়, তার রস টানিবার ও প্রাণ ধরিবার শক্তিও গাছ নয়। বস্তু ও শক্তিকে একটি সমগ্রতার মধ্যে আবৃত করিয়া যে একটি অখণ্ড প্রকাশ তাহাই গাছ—তাহা একই কালে বস্তুময়, শক্তিময়, সৌন্দর্যময়। গাছ আমাদিগকে যে আনন্দ দেয় সে এইজন্যই।  বিশদ

09th  July, 2019
সার্বভৌম ধর্ম

বৌদ্ধধর্মের পূর্বেও ভারতে এবং অন্যত্র নানা ধর্মের আবির্ভাব হয়েছে। কিন্তু সেগুলি অল্পবিস্তর নিজ নিজ জাতির পরিধির মধ্যেই সীমাবদ্ধ ছিল। হিন্দু, ইহুদী, পারসীক প্রভৃতি প্রাচীন জাতির প্রত্যেকেরই মহান ধর্ম ছিল। কিন্তু সে-সবই মোটের উপর জাতি-বিশেষের নিজস্ব ধর্ম—সার্বভৌম ধর্ম নয়।
বিশদ

08th  July, 2019
 রাম ও কাম

 কোন ব্যক্তিই যুগপৎ দুজন প্রভুকে সেবা করতে পারে না। কারণ হয় সে একজনকে ঘৃণা করে অপরকে ভালবাসবে অথবা একজনের প্রতি অনুরক্ত হয়ে অপরকে অবহেলা করবে। তোমরা ঈশ্বর ও বিত্তদেবতাকে এক সঙ্গে সেবা করতে পার না।
বিশদ

07th  July, 2019
 রস

রস জিনিসটা রসিকের অপেক্ষা রাখে, কেবলমাত্র নিজের জোরে নিজেকে সে সপ্রমাণ করিতে পারে না। সংসারে বিদ্বান, বুদ্ধিমান, দেশহিতৈষী, লোকহিতৈষী প্রভৃতি নানা প্রকারের ভালো ভালো লোক আছেন, কিন্তু দময়ন্তী যেমন সকল দেবতাকে ছাড়িয়া নলের গলায় মালা দিয়াছিলেন, তেমনি রসভারতী স্বয়ম্বরসভায় আর-সকলকেই বাদ দিয়া কেবল রসিকের সন্ধান করিয়া থাকেন।
বিশদ

06th  July, 2019
সমাধান

সমস্যার দিকে কেউ যদি অঙ্গুলি নির্দেশ করে অমনি দেশের কৃতী অকৃতী সকলে সেই ব্যক্তিকেই সমাধানের জন্য দায়ি করে জবাব চেয়ে বসে। তারা বলে, আমরা তো একটা তবু যা হোক কিছু সমাধানে লেগেছি, তুমিও এমনি একটা সমাধান খাড়া করো, দেখা যাক তোমারই বা কত বড়ো যোগ্যতা।
বিশদ

05th  July, 2019
একনজরে
 সঞ্জয় গঙ্গোপাধ্যায়, কলকাতা: কাজ করার জন্য প্রয়োজন মতো পাইপ কিনতে হবে। তবে তা কিনে ফেলে রাখা যাবে না বলে জনস্বাস্থ্য কারিগরি দপ্তরের সব এগজিকিউটিভ ইঞ্জিনিয়ারকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সেই সঙ্গে প্রতিটি প্রকল্পের কাজ খতিয়ে দেখে প্রতি মাসে এগজিকিউটিভ ইঞ্জিনিয়ারকে রিপোর্ট ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, হাওড়া: শনিবার দুপুরে পাঁচলার গাববেড়িয়ায় টোটো ও লরির মুখোমুখি সংঘর্ষে মৃত্যু হল এক শিশুর। তার নাম আমিরুদ্দিন শাহ (৭)। বাড়ি সিদ্ধেশ্বরী সাহাপাড়ায়। পুলিস জানিয়েছে, এদিন ওই শিশুটি মায়ের সঙ্গে একটি টোটোয় মাজারে যাচ্ছিল। তখন একটি লরি ওই টোটোয় ...

সংবাদদাতা, রামপুরহাট: গ্রামের একমাত্র জল নিকাশির জায়গায় রাইসমিল গড়ে তোলার প্রতিবাদে শুক্রবার রামপুরহাট-১ ব্লকের খরুণ গ্রাম পঞ্চায়েতে অভিযোগ জানালেন তিনটি গ্রামের বাসিন্দারা। এই ব্লকের চাকপাড়া, মালসা ও ফরিদপুর গ্রামের বাসিন্দাদের অভিযোগ, ফিবছর বর্ষার সময় আমরা খুবই দুশ্চিন্তায় থাকি।   ...

 ন্যাশনাল স্টক এক্সচেঞ্জে যেসব সংস্থার শেয়ার গতকাল লেনদেন হয়েছে শুধু সেগুলির বাজার বন্ধকালীন দরই নীচে দেওয়া হল। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

পারিবারিক ঝামেলার সন্তোষজনক নিষ্পত্তি। প্রেম-প্রণয়ে শুভ। অতিরিক্ত উচ্চাভিলাষে মানসিক চাপ বৃদ্ধি।প্রতিকার: আজ দই খেয়ে শুভ ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮৬৩: কবি, গীতিকার ও নাট্যকার দ্বিজেন্দ্রলাল রায়ের জন্ম
১৮৯৯: লেখক বনফুল তথা বলাইচাঁদ মুখোপাধ্যায়ের জন্ম
১৯৫৫: প্রাক্তন ক্রিকেটার রজার বিনির জন্ম
২০১২: বাংলাদেশের লেখক হুমায়ুন আহমেদের মূত্যু 

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৭.৯৫ টাকা ৬৯.৬৪ টাকা
পাউন্ড ৮৪.৭৭ টাকা ৮৭.৯২ টাকা
ইউরো ৭৬.১০ টাকা ৭৯.০৪ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৫,৭৫০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৩,৯২০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৪,৪৩০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪০,৯০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪১,০০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৩ শ্রাবণ ১৪২৬, ২০ জুলাই ২০১৯, শনিবার, তৃতীয়া ১০/১৮ দিবা ৯/১৪। শতভিষা অহোরাত্র। সূ উ ৫/৬/৩, অ ৬/১৯/৩১, অমৃতযোগ দিবা ৯/৩১ গতে ১/২ মধ্যে। রাত্রি ৮/২৮ গতে ১০/৩৮ মধ্যে পুনঃ ১২/৪ গতে ১/৩১ মধ্যে পুনঃ ২/১৪ গতে ৩/৪০ মধ্যে, বারবেলা ৬/৪৬ মধ্যে পুনঃ ১/২২ গতে ৩/১ মধ্যে পুনঃ ৪/৪০ গতে অস্তাবধি, কালরাত্রি ৭/৪০ মধ্যে পুনঃ ৩/৪৬ গতে উদয়াবধি।
৩ শ্রাবণ ১৪২৬, ২০ জুলাই ২০১৯, শনিবার, তৃতীয়া ৪/২৪/৪ দিবা ৬/৫১/২। শতভিষানক্ষত্র ৬০/০/০ অহোরাত্র, সূ উ ৫/৫/২৪, অ ৬/২১/৫৭, অমৃতযোগ দিবা ৯/৩২ গতে ১/১ মধ্যে এবং রাত্রি ৮/২৫ গতে ১০/৩৭ মধ্যে ও ১২/৪ গতে ১/৩২ মধ্যে ও ২/১৬ গতে ৩/৪৪ মধ্যে, বারবেলা ১/২৩/১৫ গতে ৩/২/৪৯ মধ্যে, কালবেলা ৬/৪৪/৫৮ মধ্যে ও ৪/৪২/২৩ গতে ৬/২১/৫৭ মধ্যে, কালরাত্রি ৭/৪২/২৩ মধ্যে ও ৩/৪৪/৫৮ গতে ৫/৫/৪১ মধ্যে। 
১৬ জেল্কদ

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
উচ্চশিক্ষা সংসদের ভাইস চেয়ারম্যান (শিক্ষা) নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি 
অবশেষে উচ্চশিক্ষা সংসদের ভাইস চেয়ারম্যান (শিক্ষা) নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশিত হল। ...বিশদ

09:06:13 AM

পাথরপ্রতিমায় পুকুরে কুমির
পাথরপ্রতিমা ব্লকের কুয়েমুড়ি গ্রামের একটি পুকুরে প্রমাণ সাইজের কুমির দেখা ...বিশদ

08:52:23 AM

স্বাধীনতা দিবসের বক্তৃতার জন্য পরামর্শ চাইলেন প্রধানমন্ত্রী মোদি 
স্বাধীনতা দিবসের বক্তৃতা নিয়ে পরামর্শ চেয়ে আবারও জনতার দরবারে প্রধানমন্ত্রী ...বিশদ

08:40:23 AM

আজকের রাশিফল 
মেষ: পারিবারিক ঝামেলার সন্তোষজনক নিষ্পত্তি। বৃষ: মাতৃস্থানীয় ব্যক্তির স্বাস্থ্যোন্নতির ইঙ্গিত। মিথুন: সম্পত্তি লাভের ...বিশদ

08:11:47 AM

ইতিহাসে আজকের দিনে
১৮৬৩: কবি, গীতিকার ও নাট্যকার দ্বিজেন্দ্রলাল রায়ের জন্ম১৮৯৯: লেখক বনফুল ...বিশদ

07:50:00 AM

২২ জুলাই কর্ণাটক বিধানসভায় আস্থাভোট 

19-07-2019 - 08:37:08 PM