সম্পাদকীয়
 

খাদ্য ফরমান

প্রফুল্ল সেনের জমানায় বিয়ের কার্ডের নীচে লিখতে হত, ‘পশ্চিমবঙ্গ সরকারের অতিথি নিয়ন্ত্রণ বিধি প্রযোজ্য’। অর্থাৎ, যত খুশি লোক এই বিয়েবাড়িতে নিমন্ত্রিত নয়, যেমন খুশি মেনুও নেই এবং অবশ্যই খাবারের অপচয় হবে না। সে ছিল খাদ্য সংকটের পরবর্তী সময়। খাদ্যাভাব এবং আন্দোলনের তিক্ততার বিষ গলায় ধারণ করেই সবে তখন একটু থিতু হয়েছে সোনার বাংলা। তাও কাটেনি হাহাকার। এমন সময়ই লাগু হয়েছিল এই বিধি। অনুষ্ঠান যতই থাক, প্রত্যেক ঘরে তখন বাঁধা রেশন, পুলিশি নজরদারি। লক্ষ্য ছিল একটাই, যেভাবে হোক অপচয় বন্ধ করতে হবে। আজ আর সেই খাদ্য সংকটের অভিশাপ নেই, তাই অতিথি নিয়ন্ত্রণ বিধির কথা বিয়ের কার্ডে লিখতেও হয় না। শুধু ওই ‘পত্রদ্বারা নিমন্ত্রণের ত্রুটি মার্জনীয়’ পর্যন্তই। কিন্তু আজও তো খাবার নষ্ট হয়! বিয়েবাড়িতে, হোটেলে, রেস্তরাঁয়! রেডিও অনুষ্ঠান ‘মন কি বাতে’ দিন কয়েক আগেই এই প্রসঙ্গ তুলেছিলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। প্রধানমন্ত্রী বলেছেন বলে কথা! তাই তড়িঘড়ি এ ব্যাপারে রিপোর্ট পেশ করে দিল কেন্দ্রীয় খাদ্য, ক্রেতা সুরক্ষা ও জলবণ্টন মন্ত্রক। অর্থাৎ মন্ত্রী রামবিলাস পাসোয়ান। তাঁর বক্তব্য, একজন যদি দু’টো চিংড়ি খেতে পারেন, তাহলে তাঁকে ছ’টি চিংড়ি দেওয়া হবে কেন? কেউ যদি দু’টি ইডলি খেতে পারেন, তাহলে তাঁকে চারটি ইডলি দেওয়া হবে কেন?
অর্থাৎ এবার থেকে হোটেল-রেস্তরাঁয় গিয়ে খাওয়ার উপরও লাগাম পরাতে চলেছে নয়াদিল্লি। প্লেটে খাবারের পরিমাণ বেঁধে দেওয়ার ব্যাপারে প্রথমে বিভিন্ন পাঁচতারা হোটেলে একটি প্রশ্নপত্র পাঠানো হবে। তার উত্তর হাতে পাওয়ার পর ডাকা হবে হোটেল-রেস্তরাঁর কর্তা এবং সংগঠনগুলিকে। ফ্রান্স, জার্মানি, স্কটল্যান্ডের মতো কোনও কোনও দেশে ইতিমধ্যেই খাবারের অপচয় ঠেকাতে এমন ব্যবস্থা রয়েছে। খাবার নষ্ট করলে জরিমানাও করা হয় কোথাও কোথাও। তবে রেস্তরাঁগুলি তাদের প্লেটে কতটা করে খাবার দেবে, সেটা বেঁধে দেওয়ার খবর অবশ্য শোনা যায়নি। যা এবার ভারতে হবে। বিষয়টা ঠিক কেমন হবে, তা অবশ্য বুঝে উঠতে পারছেন না হোটেল মালিকরাও। তাঁরা বলছেন, আগে গোটা ব্যাপারটা পরিষ্কার হোক! সরকার অবশ্য যে রিপোর্ট পেশ করেছে তাতে একটা বিষয়ই পরিষ্কার। সেটা হল, বছরে ৬ কোটি ৭০ টন অর্থাৎ ৯২ হাজার ৬৫১ কোটি টাকার খাবার অপচয় হয়। যা দিয়ে গোটা বিহারকে এক বছর খাওয়ানো যাবে।
প্রশ্ন হল, এরপর কি তাহলে হোটেল-রেস্তরাঁয় খাবারের দাম কমবে? নাকি অপচয় করতে নেই, এই বোধটা ফিরে আসবে? আসলে গোটা বিষয়টাই শুরু হয় বাড়ি থেকে। ওই চ্যারিটি বিগিনস অ্যাট হোমের মতো। এক থালা ভাত নিয়ে যার অর্ধেক থালা ফেলে যাওয়ার অভ্যাস, সে তো রেস্তরাঁয় গিয়েও খাবার নষ্ট করবে! আর যে নিজের রান্নাঘরের প্রতিটা জিনিসের মূল্য বুঝবে, সে কোথাওই অপচয় হতে দেবে না। ব্যাপারটা শিক্ষার। সংস্কারের। এবং মূল্যবোধের। জোর করে প্লেট থেকে খাবার তুলে নিলেই যে সমাজের মধ্যে সচেতনতার ঝড় উঠবে, এমনটা কিন্তু মোটেও নয়। এর ফলে খুব বেশি হলে মনের ভিতরে একটা ভয় ঢুকবে। খাবার ফেলতে যাওয়ার আগে সংশ্লিষ্ট ব্যক্তি ভাববে, ফেলব না। জরিমানা করতে পারে। সীমাবদ্ধতা কিন্তু ওই পর্যন্তই। যেখানে মোদির লাঠি নেই, সেখানে সেই লোকটিই হয়তো খাবার নষ্ট করবে। মোদ্দা কথা হল, সমাজের মধ্যে সংস্কারের বীজটা রোপন করা। সেটা শুধু আইন করে হয় না। তাহলে এই দেশে কেউ আর খুন হত না। কারণ, ওই অপরাধের সাজাটাই তো সবচেয়ে বেশি! তাই নয় কি? ভাতের একটি কণা ফেলাও যে অপরাধ, সেটা বুঝতে হবে আমাদেরই। ভাবতে হবে, একমুঠো ভাত যা আমার থালায় আজ নষ্ট হল, তার অপেক্ষাতেই হয়তো তাকিয়ে বসে আছে কতগুলো মুখ।
সত্যিই তো, এখনও অনেক লোক ভালো করে খায় না।
13th  April, 2017
বাতাসে, খাদ্যে বিষ বাড়ছে

 রাস্তার ধারের খাদ্যসামগ্রী যে খুবই আকর্ষণীয় এবং মুখরোচক তা অবশ্যই বলার অপেক্ষা রাখে না। শুধু আমাদের দেশেই নয়, বিদেশেও স্ট্রিট ফুডের একটা আলাদা কদর রয়েছে। কিন্তু আমরা একটা ভুল বারবার করি। সেটা হল জিভের আস্বাদনকে গুরুত্ব দিতে গিয়ে প্রায়শই স্বাস্থ্য সংক্রান্ত বিষয়গুলিকে উপেক্ষা করি।
বিশদ

কাজিয়া নয় কাজ চাই

রাজ্য সরকারি হিসাবমতো, গত বছর অক্টোবরের প্রথম তিন সপ্তাহ অবধি পশ্চিমবঙ্গে ডেঙ্গুতে আক্রান্তের সংখ্যা ১৯ হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছিল। ওই সময়ে মারাও গিয়েছিল ৩৮ জন। সংখ্যা দুটি বেসরকারি মতে যে আরও কিছু বেশি ছিল তা বলার অপেক্ষা রাখে না। এবছরের অক্টোবরের তৃতীয় সপ্তাহ পেরিয়ে গিয়েছে।
বিশদ

23rd  October, 2017
যাহারা তোমার বিষাইছে বায়ু

যাহারা তোমার বিষাইছে বায়ু, নিভাইছে তব আলো, তুমি কি তাদের ক্ষমা করিয়াছ, তুমি কি বেসেছ ভালো? কতকাল আগে ভগবানের উদ্দেশে এ প্রশ্ন করেছিলেন কবি। উত্তর পেয়েছিলেন কি না আমাদের জানা নেই। কিন্তু এ তথ্য অজানা নয়, দিনে দিনে বায়ুদূষণ বেড়েই চলেছে। যাতে জীবনের আলো নিভে আসার দিনকে একসময় ঠেকিয়ে রাখা কঠিন হবে। এজন্য মানুষই দায়ী।
বিশদ

22nd  October, 2017
দীপাবলীতেও নজির গড়লেন মোদি 

সবকিছুতেই নতুন নজির গড়তে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কোনও জুড়ি নেই। এবারও দীপাবলীতে সীমান্তে সেনা জওয়ানদের কাছে গিয়ে মুখমিষ্টি করানো এবং তার পরের দিনই কেদারনাথের মন্দির পরিদর্শনে গিয়ে তিনি নিশ্চিতভাবেই নয়া দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন।
বিশদ

21st  October, 2017
বাজারদর নিয়ন্ত্রণে রাখতে বছরভর নজরদারি জরুরি

 পুজো বা নানা উৎসব-অনুষ্ঠানে বাজারে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্রের দাম বাড়ে। তা নিয়ে সংবাদপত্রে লেখালিখি হয়। বিভিন্ন টিভি চ্যানেলেও ফলাও করে তা প্রচার করা হয়। এর জেরে ভুক্তভোগী মানুষ কীভাবে নাজেহাল হচ্ছেন, সেই ছবি প্রকাশ্যে আসে। কিন্তু বাজারদর তার নিজের মতোই চলে।
বিশদ

20th  October, 2017
স্বাগত ন্যায়ালয়ের নির্দেশ

 হাইকোর্টের রায়ে একবছরে পরপর দু’বার ধাক্কা খেল কেন্দ্রের সিদ্ধান্ত। দু’বারই মান্যতা পেল রাজ্যের দাবি। প্রথমবার গত জুলাই মাস। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার দার্জিলিঙে বাড়তি কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা বাহিনী মোতায়েনের দাবি জানিয়েছিল। তা উপেক্ষা করেছিল নরেন্দ্র মোদির সরকার।
বিশদ

19th  October, 2017
চাঁদার জুলুম

রাজ্যে এখন পুজো আর উৎসবের মরশুম চলছে। শুরু হয়ে গিয়েছে কালীপুজোর উদ্বোধন পর্ব। উৎসবের আনন্দে মাতোয়ারা মানুষ যখন মাতৃ আরাধনার জন্য প্রহর গুনছে ঠিক তখনই কিছু উচ্ছৃঙ্খল বেপরোয়া ক্লাব সদস্যের জুলুমের জেরে বেঘোরে প্রাণ গেল এক বৃদ্ধের। পেশায় তিনি রাজমিস্ত্রি।
বিশদ

18th  October, 2017
কেন্দ্রের সিদ্ধান্তে বিস্ময়

 বীর শহিদ এসআই অমিতাভ মালিকের মৃত্যু এবং তারপর কেন্দ্রীয় সরকারের ভূমিকা সাধারণ মানুষের মনে এক বিরাট বিস্ময় সৃষ্টি করল। পাহাড়ে ক্রমাগত অশান্তি জিইয়ে রাখা বিমল গুরুং এবং তাঁর বাহিনীকে ধরার অভিযানে গিয়ে পুলিশ অফিসার অমিতাভ মালিক যে আত্মবলিদান দিয়েছেন, সেই চিতার আগুন ঠান্ডা হওয়ার আগেই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক আচমকা বাহিনী তুলে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল।
বিশদ

17th  October, 2017
অবস্থান স্পষ্ট করুক বিজেপি

বাংলা আর ভাগ হবে না। না ধর্মের ভিত্তিতে, না ভাষাগত, জাতি-জনজাতিগত সংকীর্ণতার দোহাই দিয়ে। উন্নতি হবে উত্তর থেকে দক্ষিণ, পূর্ব থেকে পশ্চিম সব দিকের। উন্নত জীবন পাবে হিন্দু, মুসলমান, বৌদ্ধ, খ্রিস্টানসহ সমস্ত ধর্মের নরনারী। কল্যাণ হবে বিহারি, ওড়িয়া, মাড়োয়ারি, রাজবংশী, গোর্খা, লেপচা, ভুটিয়া, টোটো, রাভা থেকে সাঁওতাল, ওঁরাও, মুন্ডা, ভূমিজ প্রভৃতি সকল জনগোষ্ঠীরও।
বিশদ

16th  October, 2017
সরষের মধ্যে ভূত

 সরষের মধ্যে ভূতের অস্তিত্বের আপ্তবাক্যটি ফের প্রাসঙ্গিকতা পেল। মহাষ্টমীর রাতে বর্ধমান সরকারি কোষাগার থেকে চুরি গিয়েছিল ৫৫ লক্ষ টাকা। চোর ধরা পড়ল দু’ সপ্তাহ বাদে। জানা গেল ওই চুরির প্রধান পান্ডা এক পুলিশকর্মী। নিজের দিদিসহ আরও কয়েকজন শাগরেদ জুটিয়ে অপারেশনে নেমেছিল এক পুলিশ কনস্টেবল।
বিশদ

15th  October, 2017
ডেঙ্গু রোধে মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ দ্রুত কার্যকর করতে হবে

 মুখ্যমন্ত্রী ঠিকই বলেছেন। ডেঙ্গু পরীক্ষার নামে বিভিন্ন রোগ নির্ণয় কেন্দ্র বা প্যাথোলজিক্যাল ল্যাবরেটরি ভুল তথ্য দিয়ে মানুষকে আতঙ্কিত করছে। বিভ্রান্ত করছে। মানুষের জীবন নিয়ে ছিনিমিনি খেলা চলছে। তবে শুধু ডেঙ্গুই নয়, অন্যান্য ক্ষেত্রেও কী শহর কী গ্রামে ব্যাঙের ছাতার মতো গজিয়ে ওঠা ল্যাবরেটরিগুলিতে নানা অনিয়মের অভিযোগ কান পাতলেই ধরা পড়ে। কিছু অসাধু ডাক্তারের সঙ্গে মিলে ব্যবসায়িক স্বার্থে এরা ভুল তথ্য ছড়িয়ে মানুষকে ভয় পাইয়ে মুনাফা লোটে।
বিশদ

14th  October, 2017
পাকিস্তানের যুদ্ধ যুদ্ধ খেলা

 আন্তর্জাতিক রাজনীতিতে পাকিস্তান যতই একঘরে ও কোণঠাসা হয়ে পড়ছে, ততই তাদের হম্বিতম্বি জোরাল হচ্ছে। আর এক্ষেত্রে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে জঙ্গি মদতপুষ্ট ‘পুতুল সরকার’ ভারতের বিরুদ্ধে তাদের খেলনা দাঁত দেখিয়ে ভয় দেখানোর খেলায় নেমে আত্মতুষ্টিতে ভুগছে।
বিশদ

13th  October, 2017
যথাসময়ে হুঁশিয়ারি

২০১১ সালে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রথমবার রাজ্যপাটের দায়িত্ব গ্রহণের নামে আসলে এক মস্ত কাঁটার মুকুট মাথায় পরেছিলেন। ওই মুকুটে সবচেয়ে ধারালো কাঁটা দুটির একটির নাম ‘দার্জিলিং’ আর অন্যটির নাম ‘জঙ্গলমহল’।
বিশদ

12th  October, 2017
একনজরে
নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: এ রাজ্যে লগ্নির বহর বাড়াতে শুধু রাজ্য সরকার উদ্যোগ নেবে, এ কেমন কথা। এই বিষয়ে যাতে শিল্পমহল নিজেই এগিয়ে আসে, তার জন্য আরজি জানিয়েছিল শিল্প দপ্তর। সেই ডাকে সাড়া দিয়ে রাজ্যের কয়েকটি বণিকসভা জানিয়েছিল, তারা নিজেরাই একযোগে ...

বিএনএ, জলপাইগুড়ি: পঞ্চায়েত ভোটের আগে জলপাইগুড়িতে বেরুবাড়ি সীমান্তে কাঁটাতারের বেড়া দেওয়ার ইস্যু নিয়ে আন্দোলনে নামতে চলেছে ফরওয়ার্ড ব্লক। দলীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, সীমান্তের বাসিন্দাদের নানা সমস্যা খতিয়ে দেখতে দলীয় কর্মসূচিতে যোগ দিতে আগামী ৪ নভেম্বর দলের রাজ্য সম্পাদক নরেন চট্টোপাধ্যায় ...

বিশ্বজিৎ দাস  কলকাতা: ১০০ বছরেরও বেশি সময় ধরে কলকাতা তথা রাজ্যবাসীকে দুশ্চিন্তায় রেখেছে ডেঙ্গু, ম্যালেরিয়ার মতো মশাবাহিত রোগগুলি। কিন্তু তার মোকাবিলায় তৈরি শতাব্দী প্রাচীন ...

সঞ্জয় গঙ্গোপাধ্যায়, কলকাতা: পুরানো কলকাতায় মাটির তলায় কোথায় সুয়্যারেজ, গ্যাস, বিদ্যুতের লাইন রয়েছে, তার কোনও ম্যাপ বা রেকর্ড কেএমডিএ’র কাছে নেই। ফলে কাজ করতে গিয়ে সমস্যায় পড়তে হচ্ছে এই নির্মাণকারী সংস্থাকে। মাটি খুঁড়তে গিয়ে মিলছে গ্রেটার ক্যালকাটা গ্যাস সার্ভিসের পাইপলাইন, ...


আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

উচ্চতর বিদ্যায় সাফল্য আসবে। কোনও না কোনও কর্মে যুক্ত হবার সম্ভাবনা। এই মুহূর্তে ব্যবসায় যোগ ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৬০১: জ্যোতির্বিদ টাইকো ব্রাহের মৃত্যু হল প্রাগ শহরে
১৯২৯: নিউ ‌ইয়র্ক শেয়ার বাজারে শুরু হল মহামন্দা। দিনটি ‘ব্ল্যাক থার্সডে’ নামে বিখ্যাত
১৯৩৫: ইথিওপিয়া আক্রমণ করল ইতালি
১৯৩৮: কারখানায় শিশুশ্রমিক নিষিদ্ধ করল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র
১৯৫৬: সোভিয়েত বাহিনী হাঙ্গেরি আক্রমণ করল। প্রধানমন্ত্রী হলেন ইমরে নাগি
১৯৮০: সলিডারিটি ট্রেড ইউনিয়নকে আই঩নি ঘোষণা করল পোল্যান্ড সরকার

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৪.৩০ টাকা ৬৫.৯৮ টাকা
পাউন্ড ৮৪.৫৫ টাকা ৮৭.৪২ টাকা
ইউরো ৭৫.৩৯ টাকা ৭৮.০২ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ২৯,৯১০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ২৮,৩৭৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ২৮,৮০০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪০,৮০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪০,৯০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৭ কার্তিক, ২৪ অক্টোবর, মঙ্গলবার, চতুর্থী দিবা ৭/৭, নক্ষত্র-জ্যেষ্ঠা, সূ উ ৫/৪০/৪০, অ ৫/১/১২, অমৃতযোগ দিবা ঘ ৬/২৫ মধ্যে পুনঃ ৭/১১ গতে ১০/৫৮ মধ্যে। রাত্রি ঘ ৭/৩৫ গতে ৮/২৪ মধ্যে পুনঃ ৯/১৫ গতে ১১/৪৭ মধ্যে পুনঃ ১/২৮ গতে ৩/৯ মধ্যে পুনঃ ৪/৫০ গতে উদয়াবধি, বারবেলা ৭/৬ গতে ৮/৩১ মধ্যে পুনঃ ১২/৪৬ গতে ২/১১ মধ্যে, কালরাত্রি ৬/৩৭ গতে ৮/১১ মধ্যে।
৬ কার্তিক, ২৪ অক্টোবর, মঙ্গলবার, পঞ্চমী অহোরাত্র, জ্যেষ্ঠানক্ষত্র, সূ উ ৫/৪০/৪১, অ ৫/০/৪৪, অমৃতযোগ দিবা ৬/২৬/১ মধ্যে ও ৭/১১/২১-৯/৩৮/২ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/৩১/৪৩-৮/২২/২৩ মধ্যে ও ৯/১৩/৩-১১/৪৫/৩ ও ১/২৬/২২-৩/৭/৪২ মধ্যে ও ৪/৪৯/১-৫/৪১/১৫, বারবেলা ৭/৫/৪১-৮/৩০/৪২, কালবেলা ১২/৪৫/৪৩-২/১০/৪৩, কালরাত্রি ৬/৩৫/৪৪-৮/১০/৪৩।
৩ শফর

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
ফিফা’র বর্ষসেরা রোনাল্ডো

প্রত্যাশামতোই লায়োনেল মেসি এবং নেইমারকে পিছনে ফেলে ফিফার ...বিশদ

01:57:00 AM

  ভারতের নিকোবর আইল্যান্ডে ভূমিকম্প
নিকোবর আইল্যান্ডে আজ সন্ধ্যায় ভূমিকম্প অনুভুত হয়। রিখটার স্কেলে যার ...বিশদ

23-10-2017 - 08:25:00 PM

বাগুইআটিতে গ্রেপ্তার হাইকোর্টের আইনজীবী
সিগন্যাল ভেঙে এগিয়ে যাওয়া একটি গাড়ি ধরায় এক সিভিক ভলান্টিয়ারকে ...বিশদ

23-10-2017 - 07:26:00 PM

অনুর্ধ্ব ১৭ বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনাল গুয়াহাটির পরিবর্তে কলকাতায়

২৫ অক্টোবরের অনুর্ধ্ব ১৭ বিশ্বকাপের ইংল্যান্ড-ব্রাজিল সেমিফাইনাল ম্যাচটি গুয়াহাটির পরিবর্তে ...বিশদ

23-10-2017 - 05:40:00 PM

দক্ষিণেশ্বরের রামকৃষ্ণ সারদা মিশনের উদ্যোগে বাগবাজারে ভগিনী নিবেদিতার সার্ধশত জন্মজয়ন্তী উদযাপন অনুষ্ঠানে ১৬ নং বোস পাড়া লেনের নিবেদিতার বাড়ি উদ্বোধন করলেন মূখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

23-10-2017 - 04:51:00 PM

অমিতাভ মালিকের মৃত্যুর ঘটনায় তদন্তভার সিআইডির হাতে দিল রাজ্য সরকার 

23-10-2017 - 04:30:10 PM

ডেবরায় তৃণমূলের বিরুদ্ধে গোষ্ঠী সংঘর্ষের অভিযোগ, জখম ১০ 
তৃণমূলের গোষ্ঠী সংঘর্ষে উত্তপ্ত পশ্চিম মেদিনীপুরের ডেবরা। ঘটনায় ...বিশদ

23-10-2017 - 04:09:02 PM