বিদেশ
 

স্ট্যাচু অব লিবার্টির স্বাধীন ছত্রছায়ায় মিলেমিশে এক হয়ে গিয়েছে কত শত শরণার্থীর ভিন্ন দুনিয়া

ওয়াশিংটন, ১৬ জুলাই: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের জমানায় ৪ জুলাই আরও একবার স্বাধীনতা দিবসের স্বাদ পেলেন আমেরিকানরা। ২৪১ বছর আগের এই দিনেই এক রক্তক্ষয়ী বিপ্লবের মাধ্যমে ১৩টি ব্রিটিশ কলোনি অথবা উপনিবেশ ব্রিটিশ রাজা জর্জ ৩-এর কাছ থেকে স্বাধীনতা লাভ করে। সেই ১৩টি উপনিবেশ ছিল নিউ হ্যাম্পশায়ার, ম্যাসাচুসেটস, কানেকটিকাট, রোড আইল্যান্ড, নিউ ইয়র্ক, নিউ জার্সি, পেনসিলভানিয়া, ডেলেয়ার, মারিল্যান্ড, ভার্জিনিয়া, নর্থ ক্যারোলিনা, সাউথ ক্যারোলিনা ও জর্জিয়া। ১৭৭৬ সালের ৪ জুলাই স্বাধীনতার ঘোষণাপত্র স্বাক্ষরের মাধ্যমে আমেরিকা অথবা ইউনাইটেড স্টেট অব আমেরিকা গঠিত হয়। যদিও তখনও গৃহযুদ্ধ চলছিল এবং তা আরও বেশ কিছুদিন স্থায়ী হয়েছিল। জর্জ ওয়াশিংটন তখন আমেরিকান বাহিনীর নেতৃত্ব দিচ্ছিলেন। এই সময় ফ্রান্স ও স্পেন অস্ত্র ও অন্যান্য সামগ্রী দিয়ে আমেরিকাকে সাহায্য করেছিল। পরে থমাস জেফারসনের প্রচেষ্টায় যুদ্ধের অবসান হয়। ধীরে ধীরে বিলুপ্ত হয় দাসপ্রথা। আমেরিকায় প্রবর্তিত হয় গণতন্ত্র।
এসব ইতিহাস আগলে টিকে রয়েছে নিউ ইয়র্ক উপসাগরের ব্যস্ত কোল জুড়ে জেগে থাকা ছোট্ট এক টুকরো পাথুরে দ্বীপ। ১৩১ বছর পেরিয়ে আজও ওই ছোট্ট পাথুরে দ্বীপের উপর বিশাল মহিয়সী নারী মূর্তি ঠায় দাঁড়িয়ে। বছরের পর বছর ধরে এই মূর্তির অর্থ এতই বিস্তৃত হয়েছে যে সেটি এখন স্বাধীনতা ও মুক্তির একটি আন্তর্জাতিক প্রতীকে পরিণত। গণতন্ত্রের সবচেয়ে পরিচিত নিদর্শন হয়ে উঠেছে ১৩১ বছর আগে আমেরিকাকে দেওয়া ফ্রান্সের উপহার। মুক্তি, স্বাধীনতার প্রতীক ‘স্ট্যাচু অব লিবার্টি’ আসলে মিত্রশক্তি ফ্রান্সের তরফ থেকে বন্ধুত্বের প্রতীকস্বরূপ এক অনন্য উপহার। যা আমেরিকার স্বাধীনতার শতবর্ষ (১৮৭৬ সাল) উপলক্ষে তার ঠিক দশ বছর পর অর্থাৎ ১৮৮৬ সালের ২৮ অক্টোবর ফ্রান্স তুলে দিয়েছিল আমেরিকার হাতে। যা ১৯২৪ সালে আমেরিকার জাতীয় সৌধ হিসাবে স্বীকৃতি পায়। লিবার্টি মূর্তির বাম হাতে ধরা আইনের বই। যাতে রোমান হরফে খোদাই করা আছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের স্বাধীনতা দিবসের তারিখটি। ৪ জুলাই, ১৭৭৬। আর ডান হাতে প্রজ্বলিত অগ্নিশিখার মতো স্বাধীনতার জ্বলন্ত মশাল। যেটা দেখা যায় সমুদ্রের বহুদূর থেকে। মূর্তির মাথায় মুকুটের সাতটি রশ্মির মতো অংশগুলি আসলে সাতটি মহাসাগর ও মহাদেশের প্রতীক। স্বাধীনতার প্রতীক এই ‘লিবার্টি এনলাইটেনিং দ্য ওয়ার্ল্ড’ সাদরে স্বাগত জানিয়েছিল সেইসব বহিরাগতদের, যারা উন্নত ভবিষ্যতের আশায় আমেরিকায় প্রবেশ করেছিল। নিউ ইয়র্কের লোয়ার ম্যানহাটন সংলগ্ন দু’টি ক্ষুদ্র দ্বীপ লিবার্টি আইল্যান্ড ও এলিস আইল্যান্ড। এই দুইটি দ্বীপের সঙ্গে আমেরিকার শরণার্থী মানুষের আগমনের ইতিহাস ওতপ্রোতভাবে জড়িত। স্ট্যাচু অব লিবার্টির অবস্থান লিবার্টি আইল্যান্ডে, আর এলিস আইল্যান্ড হল লক্ষ লক্ষ শরণার্থীর প্রবেশদ্বার। ১৮৯২ থেকে ১৯৫৪ সাল পর্যন্ত প্রায় ১৬ লক্ষ শরণার্থী এলিস আইল্যান্ড দিয়ে নৌপথে আমেরিকায় ঢুকেছে। নতুন দেশে ভাগ্য গড়তে আসা শরণার্থীরা দূর থেকে এই স্ট্যাচু অব লিবার্টিকে দেখে পুলকিত হয়েছেন। সকলের মনে হয়েছে, এই ভাস্কর্য যেন তাদের স্বাগত জানাচ্ছে।
এই সেই আমেরিকা যেখানে শরণার্থীদের উপরেও চাপ তৈরি করতে নয়া নির্দেশ জারি হয়েছে। সৎভাই সৎবোন চলবে। কিন্তু ভাইপো ভাইঝি নয়। তেমনই ছেলে-ছেলের বউ স্বাগত কিন্তু শ্যালক বা ননদ নয়। শ্বশুর-শাশুড়ি এবং নিজের বাবা-মা পরিবারের অবিচ্ছেদ্য অঙ্গ, তাঁরা তো আসবেনই। কিন্তু দাদু-ঠাকুরমা বা দাদু-দিদা নয়! মোদ্দা কথা, লিবিয়া-সোমালিয়া-সুদান-সিরিয়া এবং ইয়েমেন— এই ছয় মুসলিম দেশ থেকে আমেরিকায় আসতে হলে এবার থেকে সেখানকার নাগরিকদের ভিসা আবেদনে পরিবারের ‘কাছের সম্পর্কগুলি’ই গুরুত্ব পাবে। ট্রাম্পের নিষেধাজ্ঞা মেনে জুনের শেষ সপ্তাহে নয়া ‘ফরমান’ জারি করেছে মার্কিন বিদেশ দপ্তর। সুপ্রিম কোর্ট ওই নিষেধাজ্ঞায় আংশিক অনুমতি দেওয়ার পরেই এই নয়া নির্দেশিকা পৌঁছেছে বিভিন্ন মার্কিন কনস্যুলেট ও দূতাবাসে। সুপ্রিম কোর্টে ওই মামলার শুনানি ফের অক্টোবরে।
‘সহিষ্ণুতা’ শব্দটির আভিধানিক অর্থ ধৈর্যশীলতা এবং ক্ষমাশীলতা। সহিষ্ণুতা ছিল মার্কিন সংস্কৃতির অন্যতম অঙ্গ। মার্কিন সংস্কৃতি বহুত্ববাদী। একে অপরের প্রতি সহিষ্ণু। অথচ, ট্রাম্প জমানায় সেই সংস্কৃতি পরীক্ষার মুখে পড়েছে। উগ্র জাতীয়তাবাদের তাড়নায় আঘাত পেয়েছে বহুত্ববাদী দৃষ্টিভঙ্গি। কিন্তু সহিষ্ণুতা কেবল রাজনৈতিক এবং সাংস্কৃতিক বিষয় নয়। মানসিকও বটে। বস্তুত, অসহিষ্ণু মানসিকতাই সংকীর্ণ পরিমণ্ডলকে নিয়ন্ত্রণ করে। ক্ষমতার দম্ভ এখানে মানুষকে অসহিষ্ণু করে তুলছে। দিকে দিকে সেই দৃশ্যই প্রতীয়মান। হয়তো তাই নিউ ইয়র্কের রাস্তায় এক মার্কিন নাগরিক আর্তনাদ করে বলে উঠেছিলেন, ‘কোনও মুক্ত মানুষের চারদিকে কোনও দেওয়াল থাকে দেখেছ? দেওয়াল থাকে জেলখানায়। দেওয়াল ঘেরা আমেরিকা হবে জেলখানা।’
আমেরিকার সুপরিচিত স্থাপত্য স্বাধীনতা ও গণতন্ত্রের প্রতীক স্ট্যাচু অব লিবার্টির মুণ্ডুপাত করছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প— এমন একটি আঁকা ছবি প্রচ্ছদে ব্যবহার করেছিল প্রভাবশালী জার্মান সাময়িকী ডের স্পিগেল। ছবিতে দেখা যায়, ট্রাম্পের আদলের স্যুট-টাই পরা এক ব্যক্তির বাঁ হাতে রক্তাক্ত ছুরি। তার ডান হাতে স্ট্যাচু অব লিবার্টির ‘লেডি লিবার্টির’ ধড়হীন মাথা। কাটা মুণ্ডু থেকে রক্ত ঝরছে। ছবিটির নীচে লেখা, ‘আমেরিকা ফার্স্ট’ (সবার আগে আমেরিকা)। ছবির মানুষটির চুল ট্রাম্পের আদলে। মুখমণ্ডলে কোনও চোখ নেই। প্রচ্ছদের শিল্পী এডেল রডরিগেজ ওয়াশিংটন পোস্টকে বলেছিলেন, ‘এটা গণতন্ত্রের শিরশ্ছেদকরণ, পবিত্র প্রতীকগুলির শিরশ্ছেদকরণ।’
দূরে আরও দূরে নীল সীমানায় ক্রমশ ঝাপসা হয়ে যেতে থাকা ‘স্ট্যাচু অব লিবার্টি’র মূর্তিটির উপরে ডানা মেলে নিশ্চিন্তে উড়ে বেড়ানো মুক্ত স্বাধীন সিগালগুলির দিকে তাকিয়ে থাকতে থাকতে মনে হয়, এভাবেই লিবার্টির স্বাধীন ছত্রছায়ায় মিলেমিশে এক হয়ে গিয়েছে কত শত শরণার্থীর ভিন্ন দুনিয়া? এভাবেই মিলেমিশে গিয়েছে উন্নত জীবনের আশায় আমেরিকার কোলে আশ্রয় নেওয়া কত শত মানুষের রঙিন স্বপ্নের স্রোত? এই আমেরিকায়?
17th  July, 2017
সামরিক পদক্ষেপের ভাবনায় পেন্টাগন
চোখ রাঙিয়ে আত্মরক্ষায় বাধ্য করলে ধ্বংস হবে উত্তর কোরিয়া, রাষ্ট্রসংঘে পালটা হুমকি ট্রাম্পের

রাষ্ট্রসংঘ ও ওয়াশিংটন, ১৯ সেপ্টেম্বর: আমেরিকাকে যদি আত্মরক্ষায় বাধ্য করা হয়, তাহলে উত্তর কোরিয়াকে ‘পুরোপুরি ধ্বংস’ করা ছাড়া আমাদের আর কোনও উপায় থাকবে না। রাষ্ট্রসংঘের সাধারণ সভায় প্রথমবার বক্তব্য রাখতে গিয়ে পিয়ংইয়ংয়ের বিরুদ্ধে সরাসরি এই হুমকি দিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তাঁর দাবি, আত্মরক্ষার পাশাপাশি মিত্র রাষ্ট্রগুলির নিরাপত্তার কথাও মাথায় রাখা হচ্ছে।
বিশদ

কলকাতায় না থাকার দুঃখ ভুলতে দুর্গাপুজোর উৎসবে গা ভাসাতে তৈরি প্রবাসী বাঙালিরা

রূপাঞ্জনা দত্ত, লন্ডন: দুর্গাপুজোর সময় কলকাতায় থাকতে না পারার দুঃখ বাঙালি ভালোভাবেই অনুভব করে। তবু, ব্রিটেনের প্রবাসী বাঙালিরা নিজেদের মতো করেই প্রতিবার এই উৎসবে সামিল হন। চিরাচরিত ঐতিহ্য মেনে শাড়ি ও ধুতি-পাঞ্জাবিতে সেজে ওঠে নারী-পুরুষ। চারিদিকে ফুটে ওঠে একটা উৎসবের আমেজ। এই উৎসবের দিনগুলিকে আরও রঙিন করে তুলতে এক অভিনব উদ্যোগ নিয়েছেন এডিনবুর্গ বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষক ডঃ সুমিত কোনার।
বিশদ

সব রোহিঙ্গাকে পাকিস্তানে পাঠিয়ে দেওয়া উচিত, বললেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী
আন্তর্জাতিক চাপকে ভয় করে না মায়ানমার: সু কি

নয়াদিল্লি, ১৯ সেপ্টেম্বর: মায়ানমারের রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গা নিধনকে কেন্দ্র করে কোনও ধরনের আন্তর্জাতিক চাপকে ভয় করেন না, জানিয়ে দিলেন আন সান সু কি। মঙ্গলবার মায়ানমারের রাষ্ট্রীয় টেলিভিশনে জাতির উদ্দেশ্যে দেওয়া এক ভাষণে এই মন্তব্য করেন তিনি। বলেন, ‘আমি আন্তর্জাতিক চাপকে ভয় করি না।’ একইসঙ্গে রাখাইনের পরিস্থিতি খতিয়ে দেখার জন্য বিশ্বনেতাদের আহ্বান জানান।
বিশদ

উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক কর্মসূচির সঙ্গে পাক যোগ নিয়ে সরব সুষমা

নিউ ইয়র্ক, ১৯ সেপ্টেম্বর (পিটিআই): নাম না করে কৌশলে উত্তর কোরিয়ার পারমাণবিক কর্মসূচির সঙ্গে পাক যোগাযোগের প্রসঙ্গ উত্থাপন করলেন ভারতের বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ। রাষ্ট্রসংঘের সাধারণ অধিবেশনে যোগ দিতে এসে সোমবার আমেরিকা এবং জাপানের বিদেশমন্ত্রী যথাক্রমে রেক্স টিলারসন এবং তারো কোনোর সঙ্গে বৈঠক করেছেন সুষমা।
বিশদ

 শরিফকে সরানোর পিছনে তাঁদের হাত নেই, দাবি পাক সেনা প্রধানের

ইসলামাবাদ, ১৯ সেপ্টেম্বর (পিটিআই): প্রধানমন্ত্রীর পদ থেকে নওয়াজ শরিফকে সরানোর পিছনে পাক সেনার কোনও হাত নেই। মঙ্গলবার এই দাবি করেছেন পাকিস্তানের প্রভাবশালী সেনা প্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া। তিনি দাবি করেছেন, পাকিস্তানের সেনাবাহিনী সম্পর্কে এই ধারণা সম্পূর্ণ ‘অমূলক’। কারণ, তাঁরা গণতন্ত্রের সমর্থক।
বিশদ

উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে যুদ্ধের কথা ভাবা শুরু করল পেন্টাগন

ওয়াশিংটন, ১৯ সেপ্টেম্বর: উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে সামরিক বিকল্পের কথাও ভাবা শুরু করেছে পেন্টাগন। এর অর্থ আরও একটি যুদ্ধ। এমনই ইঙ্গিত দিয়েছেন আমেরিকার প্রতিরক্ষাসচিব জেমস ম্যাটিস। সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এমনই ইঙ্গিত দেন। যদিও কী ধরনের বিকল্পের কথা ভাবা হচ্ছে, আমেরিকা সেখানে আদৌ মারণাস্ত্র ব্যবহার করবে কি না সে বিষয়ে বিস্তারিত বলেননি তিনি।
বিশদ

ভারতকে চাপে রাখারই কৌশল, তিব্বতের বিমানবন্দর থেকে শুরু হওয়া সড়ককে নেপাল সীমান্তের দোরগোড়ায় এনেছে চীন

নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি, ১৮ সেপ্টেম্বর: তিব্বতের বিমানবন্দর থেকে শুরু হওয়া একটি হাইওয়েকে নেপাল সীমান্তের দোরগোড়ায় নিয়ে এসেছে চীন। সম্প্রতি এই হাইওয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে খুলে দেওয়া হয়েছে। চীন সরকারিভাবে বলেছে, ওই বিমাবনন্দরকে অসামরিক এবং সামরিক উভয় পরিষেবা প্রদানের মতো করেই তৈরি করা হয়েছে।
বিশদ

19th  September, 2017
কোরীয় উপদ্বীপে মার্কিন যুদ্ধবিমানের মহড়া

সিওল, ১৮ সেপ্টেম্বর (পিটিআই): পরমাণু বোমা পরীক্ষার পর জাপানের উপর দিয়ে ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ করে নিজেদের সামরিক শক্তি প্রদর্শন করে চলেছে উত্তর কোরিয়া। পিয়ংইয়ংয়ের এহেন আগ্রাসী নীতির জেরে কোরীয় উপদ্বীপে নতুন করে উত্তেজনা তৈরি হয়েছে।
বিশদ

19th  September, 2017
পাকিস্তানে ২০১৮ সালের সাধারণ নির্বাচনে অংশ নেবে হাফিজ সইদের জঙ্গি সংগঠন

 লাহোর, ১৮ সেপ্টেম্বর (পিটিআই): মুম্বই হামলার মূল চক্রী হাফিজ সইদের সংগঠন জামাত-উদ-দাওয়ার ঘোষণা, আগামী বছর পাকিস্তানের সাধারণ নির্বাচনে অংশ নেবে তাদের প্রার্থী। যা পাকিস্তানের রাজনৈতিক মঞ্চে সবথেকে বড় প্রহসন হিসাবে দেখছেন বিশেষজ্ঞরা।
বিশদ

19th  September, 2017
 রাষ্ট্রসংঘের বার্ষিক সাধারণ সভায় যোগ দিতে নিউ ইয়র্কে সুষমা

 নিউ ইয়র্ক, ১৮ সেপ্টেম্বর (পিটিআই): রাষ্ট্রসংঘের বার্ষিক সাধারণ সভায় যোগ দিতে সোমবার নিউ ইয়র্কে পৌঁছেছেন ভারতের বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ। সপ্তাহব্যাপী মার্কিন সফরে তিনি এক উচ্চপর্যায়ের প্রতিনিধি দলের নেতৃত্ব দিচ্ছেন।
বিশদ

19th  September, 2017
লন্ডন বিস্ফোরণ: দুই সন্দেভাজনকে জেরা

লন্ডন, ১৮ সেপ্টেম্বর (পিটিআই): লন্ডনের টিউব রেলে বিস্ফোরণের ঘটনায় দুই সন্দেহভাজনকে জেরা করল স্কটল্যান্ড ইয়ার্ড। এখনও দুই সন্দেহভাজন সম্পর্কে কোনও তথ্য সরকারিভাবে প্রকাশ করা হয়নি। তবে সূত্রের খবর, সন্দেহভাজনদের একজনের বয়স ১৯।
বিশদ

19th  September, 2017

Pages: 12345

একনজরে
চণ্ডীগড়, ১৯ সেপ্টেম্বর (পিটিআই): ডেরা সাচা সৌদার মুখপাত্র বিপাসনা ইনসানের দেওয়া তথ্য সূত্র ধরে হানিপ্রীত সিং ইনসানকে ধরার প্রয়াস আরও জোরদার করল হরিয়ানা পুলিশ। ডেরা প্রধান গুরমিত রাম রহিম সিং দোষী সাব্যস্ত হওয়ার পরবর্তী সময়ে হরিয়ানায় যে হিংসা ছড়িয়েছিল, তার ...

সংবাদদাতা, বিষ্ণুপুর: সোমবার রাতে ও মঙ্গলবার সকালে বিষ্ণুপুরের হুলামারা ও বিড়াইয়ে পৃথক পথ দুর্ঘটনায় মৃত্যু হল দু’জনের। প্রথম ঘটনায় লরির ধাক্কায় এক সাইকেল আরোহীর মৃত্যু হয়েছে। মৃতের নাম জান আলি চৌধুরি(৫৪)। তাঁর বাড়ি হুলামারা গ্রামেই। ...

নয়াদিল্লি, ১৯ সেপ্টেম্বর: ভারতে প্রতিরক্ষা সামগ্রী নির্মাণে আগ্রহী হলেও প্রযুক্তি ক্ষেত্রে নিয়ন্ত্রণের রাশ ছাড়তে নারাজ মার্কিন সংস্থাগুলি। কারণ, ভারতীয় সংস্থাগুলির সঙ্গে যৌথ উদ্যোগের প্রকল্পে নির্মিত সামগ্রী ত্রুটিপূর্ণ হলে তার দায়ভার নিতে চাইছে না তারা। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’তে ...

সংবাদদাতা, বালুরঘাট: অবৈধভাবে আত্রেয়ী নদী থেকে বালি তোলা বন্ধ করতে মঙ্গলবার অতিরিক্ত জেলাশাসক (ভূমি) কৌশিক নাগ অভিযানে নামেন। এদিন সকালে বালুরঘাট থানার পুলিশকে নিয়ে অতিরিক্ত জেলাশাসক কৌশিকবাবু আত্রেয়ী ঘাটে হানা দেন। ...


আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

উচ্চতর বিদ্যায় সফলতা আসবে। সরকারি ক্ষেত্রে কর্মলাভের সম্ভাবনা। প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষায় সাফল্য আসবে। প্রেম-প্রণয়ে মানসিক অস্থিরতা ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

 ১৯১৯- অভিনেতা জহর রায়ের জন্ম
১৯২১- সাহিত্যিক বিমল করের জন্ম
১৯২৪- গায়িকা সুচিত্রা মিত্রের জন্ম
১৯৬৫- মহাকাশচারী সুনীতা উইলিয়ামসের জন্ম

19th  September, 2017
ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৩.২৫ টাকা ৬৪.৯৩ টাকা
পাউন্ড ৮৫.৭০ টাকা ৮৮.৬৩ টাকা
ইউরো ৭৫.২৭ টাকা ৭৭.৯২ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
19th  September, 2017
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩০,২০০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ২৮,৬৫০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ২৯,০৮০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৯,৮০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৯,৯০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

২ আশ্বিন, ১৯ সেপ্টেম্বর, মঙ্গলবার, চতুর্দ্দশী, পূর্ব ফল্গুনী দং ৪৩/৫২ রাত্রি ঘ ১১/১, সূ উ ৫/২৭/৫৭, অ ৫/৩৩/১১, অমৃতযোগ দিবা ঘ ৬/১৫ মধ্যে পুনঃ ৭/৪ গতে ১১/৭ মধ্যে। রাত্রি ঘ ৭/৫৭ গতে ৮/৪৫ মধ্যে পুনঃ ৯/৩২ গতে ১১/৫৪ মধ্যে পুনঃ ১/৩০ গতে ৩/৫ মধ্যে পুনঃ ৪/৪০ গতে উদয়াবধি। বারবেলা ৬/৫৮ গতে ৮/২৯ মধ্যে পুনঃ ১/১ গতে ২/৩১ মধ্যে। কালরাত্রি ৭/৩ গতে ৮/৩২ মধ্যে।
২ আশ্বিন, ১৯ সেপ্টেম্বর, মঙ্গলবার, চতুর্দ্দশী, পূর্বফল্গুনীনক্ষত্র ১১/৩৮/৪৭, সূ উ ৫/২৬/২৮, অ ৫/৩৪/২৮, অমৃতযোগ দিবা ৬/১৫/০ মধ্যে, ৭/৩/৩২- ১১/৬/১২, রাত্রি ৭/৫৬/৫২-৮/৪৪/২০, ৯/৩১/৪৮-১১/৫৪/১২, ১/২৯/৮-৩/৪/৪, ৪/৩৯/০-৫/২৬/২৮, বারবেলা ৬/৫৭/২৮-৮/২৮/২৮, কালবেলা ১/১/২৮-২/৩২/২৮, কালরাত্রি ৭/৩/২৮-৮/৩২/২৮। 
২৭ জেলহজ্জ

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
জম্মু ও কাশ্মীরের বানিহালে এসএসবি-র ক্যাম্পে জঙ্গি হামলা, এক জওয়ানের মৃত্যু 

09:32:00 PM

দুর্গাপুরে বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে টিকা দেওয়ার পর ২ শিশুর মৃত্যু

08:28:00 PM

এগরাতে মদের দোকানে ভাঙচুর, আগুন

08:27:00 PM

পশ্চিম মেদিনীপুরের গড়বেতা এলাকার শিলাবতী নদীতে ভাসান দিতে এসে তলিয়ে গেল ২ ছাত্র

07:19:00 PM

ভাড়া বৃদ্ধির দাবিতে ধর্মঘটে সুন্দরবনের বোট মালিকরা
বিভিন্ন দাবি দাওয়ার ভিত্তিতে আগামী ২৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত ...বিশদ

07:10:00 PM

খারাপ আবহাওয়ার জন্য মুম্বই বিমানবন্দর থেকে একাধিক উড়ান বাতিল
বুধবার খারাপ আবহাওয়ার জন্য মুম্বই বিমানবন্দর থেকে ৬৩টি ...বিশদ

06:23:00 PM

মহারাষ্ট্রে ব্যাপক বৃষ্টি, জলমগ্ন একাধিক এলাকা

06:20:00 PM