রাজ্য
 
 

একসঙ্গে খাবারের খোঁজে কাঠবিড়ালি ও পাখির দল। বৃহস্পতিবার তমলুকে তোলা চন্দ্রভানু বিজলির ছবি।

  বাঙালিয়ানার আভিজাত্যে নতুন পালক
রসগোল্লার স্বীকৃতি নিয়ে যুদ্ধ জয়ের নেপথ্যে রবিরঞ্জনের অদম্য লড়াই

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: মন্ত্রিত্ব থাকাকালীন তাঁর ভাবনাতেই এসেছিল রসগোল্লাকে বাংলার ‘জিআই রেজিস্ট্রেশন’ করানোর বিষয়টি। এরপর একের পর এক যুদ্ধ। জিআই কর্তৃপক্ষের কাছে একাধিক তত্ত্ব উপযুক্ত প্রমাণসহ দাখিল করতেও তিনি খামতি রাখেননি। স্বাভাবিকভাবেই এই যুদ্ধ জয়ের কাণ্ডারী রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী তথা তৃণমূল বিধায়ক রবিরঞ্জন চট্টোপাধ্যায় বললেন, আমি কতটা খুশি, তা বলে বোঝাতে পারব না। কতটা লড়াই করতে হয়েছে, কতটা পড়াশুনা-সমীক্ষা করতে হয়েছে, সেটাও বোঝাতে পারব না। আমি মন্ত্রী থাকাকালীন আমার বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি দপ্তরের আধিকারিকরা অনেক সাহায্য করেছিলেন। জয়নগরের মোয়া, বর্ধমানের সীতাভোগ-মিহিদানাকে জিআই রেজিস্ট্রেশন করাতে সক্ষম হয়েছিলাম। কিন্তু ওড়িশা রসগোল্লাকে নিজস্ব উপাদান হিসাবে দাবি করায় পুরো বিষয়টি আটকে যায়। নবান্ন সূত্রে জানা গিয়েছে, রবিরঞ্জনবাবু সেই সময় মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গেও দফায় দফায় এনিয়ে বৈঠক করেছিলেন। মুখ্যমন্ত্রীও তাঁকে সবরকমভাবে সাহায্য করেছিলেন। ‘নবীন ময়রা’ তথা নবীনচন্দ্র দাসের বংশধর ধীমান দাসও তাঁকে সাহায্য করেন। রবিরঞ্জনবাবুর কথায়, রসগোল্লা বাংলার লোকসংস্কৃতির সঙ্গে জড়িয়ে গিয়েছে। বাংলা-বাঙালির সঙ্গে রসগোল্লা ওতঃপ্রোতভাবে জড়িয়ে। তাঁর কথায়, রসগোল্লা বলে ক্ষীরমোহন তত্ত্ব খাড়া করেছিল ওড়িশা, তা তো আদতে ক্ষীরের। ক্ষীর দিয়ে কি রসগোল্লা হয়? রসগোল্লা তো ছানার। দুধ জ্বাল দিয়ে ক্ষীর হয়। দুধ কাটিয়ে হয় ছানা। তাই ওই দুই বস্তুর মধ্যে কোনও মিল নেই। বাংলা ছাড়া দুধ কাটিয়ে ছানা কোথাও হয় না। সবশেষে এই জয় অত্যন্ত খুশির। তবে এই জয়ের আনন্দ কোনও রাজ্যকে হেয় করার জন্য নয়। এ ছিল স্বত্ত্ব পাওয়ার লড়াই। তা পেয়ে আমি আবেগতাড়িত এবং আপ্লুত।
প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় (অভিনেতা): যতই আইনি লড়াই হোক না কেন, রসগোল্লা বাংলার নিজস্ব। স্বীকৃতিটুকুই যা নতুনত্ব। হ্যাঁ, ভালো লাগারই কথা বটে। রসগোল্লা আমার ভীষণ পছন্দের জিনিস। আসলে বাঙালির জাতীয় মিষ্টি যে রসগোল্লা, এ নিয়ে তো কোনও সন্দেহ নেই। বাঙালি যতদিন থাকবে, রসগোল্লাও থাকবে। রসগোল্লা দীর্ঘজীবী হোক।
দেবশ্রী রায় (অভিনেত্রী): আমি তো আগেই বলেছি, ‘আমি কলকাতার রসগোল্লা’। আমার সেই কথা আজ প্রমাণিত হল। কতটা ভালো লাগছে, তা বলে বোঝানো যাবে না। আমি তো খুব খুশি। আরও বেশি করে রসগোল্লা খাব। এখন থেকে বলতে পারব, এটা কলকাতার রসগোল্লা, বাংলার রসগোল্লা। আমি খুবই গর্বিত। রাজ্যের বা দেশের বাইরে থেকে যেই আসুক না কেন, বাংলার রসগোল্লার খোঁজ সবাই করেন। তাহলে তা অন্য রাজ্যের হবে কীভাবে?
কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায় (পরিচালক): শুধু রসগোল্লা কেন, দইও তো বাঙালির প্রিয় মিষ্টান্ন। রসগোল্লা বাঙালির। তবে স্বীকৃতি পাওয়ায় আমি দারুণ খুশি।
শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় (অভিনেতা-পরিচালক): রসগোল্লা বাঙালি ছাড়া আর কারও হতে পারে না। এটা নিয়ে যে লড়াই চলছিল, সেটা একটা আইনি লড়াই হতে পারে। কিন্তু মন-প্রাণ থেকে, হৃদয় থেকে বাঙালি রসগোল্লার সঙ্গে ওতঃপ্রোতভাবে জড়িত। বাঙালি জানে, যে রসগোল্লা তারই। আমি উত্তর কলকাতার ছেলে। ছোটবেলায় অনেক রসগোল্লা খাওয়ার প্রতিযোগিতায় অংশ নিয়েছি। এইসময় সেই স্মৃতি মনে পড়ছে। এবার আসি রসগোল্লা নিয়ে ছবি তৈরির গল্পে। পাভেল অনেকগুলি বিষয় নিয়ে ছবি করবে বলে আমার কাছে এসেছিল। তারমধ্যে অন্যতম ছিল রসগোল্লা। অসামান্য লেগেছিল। পরে আমরা যখন নবীনচন্দ্র দাসের পরিবারের থেকে ওঁর বায়োপিক করার লাইসেন্স হাতে পাই তখন জানতে পারি যে, ওটা আসলে একটা প্রেমের গল্প। রসগোল্লা তৈরির নেপথ্যে যে একটা প্রেম আছে, আমাদের মনে হয়েছিল এটা সবার জানা উচিত। কী করে রসগোল্লা তৈরি হয়েছিল, সেই গল্প সকলের সামনে আসা উচিত। ২০১৮ সাল একটি স্মরণীয় বছর হতে চলেছে। কারণ রসগোল্লার দেড়শ বছর। আর এই দেড়শ বছরে শীতের ছুটিতে রসগোল্লা আসবে সিনেমার পরদায়। রসগোল্লার স্বাদ তো আপনারা জিভে পান, কিন্তু যখন এই আস্বাদ চোখে পাবেন, তার মজাটাই অন্যরকম। সেখানে নবীনচন্দ্র দাসের বায়োপিক, কালিকাপ্রসাদের গান, নীতিশ রায়ের প্রোডাকশন ডিজাইন। রসগোল্লার স্বাদ যেমন জিভে লেগে থাকে, আশা করি আপনাদের চোখেও লেগে থাকবে।
পাভেল (রসগোল্লা ছবির পরিচালক): বাঙালির কবিতা, নোবেল পদক, শাড়ি সব চুরি গিয়েছে। রসগোল্লা চুরি যায়নি, সেটাই ভাগ্য। বাঙালির আইডেন্টিটি রসগোল্লা। বাঙালির ছিল, আছে আর চিরকাল থাকবে।
মিমি চক্রবর্তী (অভিনেত্রী): আমি খুবই খুশি। আসলে মিষ্টির সঙ্গে প্রত্যেক বাঙালির একটা আত্মিক সম্পর্ক আছে। আমরা বাঙালিরা আমাদের সব অনুষ্ঠানেই অতিথি অভ্যাগতদের মিষ্টিমুখ করাই। আর সেখানে তো রসগোল্লাই প্রধান মিষ্টি থাকে। আসলে রসগোল্লা ভালোবাসে না, এমন বাঙালি মেলা কঠিন। সেই রসগোল্লার জয় হল মানে এটা গোটা বাঙালি জাতিরই জয়।
হিরণ (অভিনেতা): এক সময় চাকরিসূত্রে চেন্নাই, দিল্লি, মুম্বইয়ে থাকতে হয়েছিল। তখন দেখেছি, দেশের অন্য ভাষাভাষি মানুষরা বলতেন কী দাদা, রসগুল্লা খাওয়ান! অর্থাৎ, বাঙালি মানেই রসগোল্লা। এই বস্তুটির প্রতি লোভ সংবরণ করা দুষ্কর। ছোটবেলায় বিয়েবাড়িতে পাল্লা দিয়ে খেয়েছি। একবার একটি বাড়িতে দুই বন্ধু মিলে এমন খেয়েছি যে গৃহকর্তা এসে বললেন, বাবা, আর খেও না। বাকি অতিথিদের কম পড়ে যাবে। রসগোল্লা ছিল বলেই তো এমন মজার কাণ্ড হয়েছিল!
বিশ্বনাথ বসু (অভিনেতা): রসগোল্লা যে বাংলার নিজস্ব, এর চেয়ে ভালো আর কিছু হয় না। রসগোল্লা স্বার্থপর বাঙালির নিজস্ব আবিষ্কার, এ নিয়েও দ্বিমত থাকতে পারে না। এই জিনিসটি বাঙালির অস্থিমজ্জায় মিশে আছে। বাঙালির হাতে যখন মোবাইল ফোন ছিল না, কোথাও যেতে আসতে হাতে ঝুলিয়ে নিত রসগোল্লার হাঁড়ি। রসগোল্লা এতদূর প্রভাবশালী যে, সাহিত্যে পর্যন্ত তার অবাধ গতিবিধি। আমি নিজে প্রচণ্ড রসগোল্লাসেবী। রসগোল্লা ছাড়া বাঙালি বাঁচতেই পারবে না।
জগন্নাথ বসু (বাচিক শিল্পী): ছোটবেলা থেকে জেনে এসেছি রসগোল্লা আমাদের নিজস্ব। রসগোল্লা বললেই বাঙালি জাতি, শহর কলকাতা, বাগবাজার—আমরা যেন আমাদের অন্তরাত্মাকে খুঁজে পাই। রসগোল্লার নানা জাত, নানা চরিত্র। গরম খেতে একরকম, ঠান্ডায় আরেক রকম। এক এক জায়গার রসগোল্লা একেক রকম। আমার তো পছন্দের জিনিস। বাঙালির নিজস্ব সম্পদের তালিকা একটা বাড়ল, এটা আনন্দের বইকি!
প্রণব নন্দী (গিরিশচন্দ্র ঘোষ ও নকুরচন্দ্র নন্দী মিষ্টির দোকানের মালিক): খুবই আনন্দের। আমি জানি না, ওড়িশা কীভাবে বলল রসগোল্লা তাদের সৃষ্টি! খুবই অস্বাভাবিক লেগেছিল। পাগলামি ছাড়া আর কিছুই বলা যায় না এই দাবিকে।
15th  November, 2017
লাখ টাকায় বাবা ভাড়া
করে আধার কার্ড
এই নথিতেই পাসপোর্ট তৈরি করছে
বাংলাদেশিরা  ঢুকছে জঙ্গিরা, শঙ্কা

অলকাভ নিয়োগী, বারাসত, বিএনএ: লাখ টাকা ভাড়ায় মিলছে ‘বাবা’। ভাড়া করছে বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারীরা। উদ্দেশ্য আসল আধার কার্ড তৈরি করা। এতকাল সুপার ইম্পোজ করে তৈরি অন্যান্য নকল নথি আধার সংযুক্তিকরণের ফলে আর কাজে লাগানো যাচ্ছে না।
বিশদ

চলতি সপ্তাহে থাকবে শীতের আমেজ
আজ আরও কমতে পারে তাপমাত্রা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ঠান্ডা উত্তুরে হাওয়া আসা অব্যাহত থাকায় শীতের আমেজ চলতি সপ্তাহে থাকবে বলে আশা করছেন আবহাওয়াবিদরা। বুধবারের তুলনায় বৃহস্পতিবার তাপমাত্রা আরও কিছুটা কমেছে। আজ, শুক্রবার তাপমাত্রা আরও নামতে পারে। আলিপুর আবহাওয়া অফিসের অধিকর্তা গণেশকুমার দাস জানিয়েছেন, শুক্রবার কলকাতায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৫ ডিগ্রি সেলসিয়াসের আশপাশে থাকতে পারে। 
বিশদ

‘ম্যাপে কিছুটা বিকৃত জম্মু-কাশ্মীর’
মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিকের টেস্টের প্রশ্নপত্র নিয়ে চরম বিভ্রান্তি, ক্ষুব্ধ শিক্ষক-পড়ুয়ারা

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা, বিএনএ, সিউড়ি: মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিকের টেস্টের প্রশ্নপত্র নিয়ে চরম বিভ্রান্তিতে পড়ল ছাত্রছাত্রীরা। কোথাও ভারতের মানচিত্র দেওয়া হলেও, তা অসম্পূর্ণ। আবার কোথাও সংশ্লিষ্ট বিষয়ের বদলে অন্য প্রশ্নপত্র চলে এসেছে। সব মিলিয়ে শিক্ষকদের মধ্যে যেমন ক্ষোভ দেখা দিয়েছে, তেমনই প্রশ্নপত্র নিয়ে প্রশ্ন উঠে গিয়েছে।
বিশদ

দিল্লি পৌঁছতে মরিয়া গুরুং, প্রস্তুত রাজ্য

দেবাঞ্জন দাস, শিলিগুড়ি: সিকিমের গোপন ডেরা থেকে নেপালের ইলম ছুঁয়ে দিল্লি পৌঁছনোর জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছেন গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার অপসারিত প্রধান বিমল গুরুং। সূত্রের খবর, ঝাঁপা জেলার ভদ্রপুরের চন্দ্রগাধি বিমানবন্দর থেকে কাঠমাণ্ডু হয়ে দিল্লি যাওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে তাঁর।
বিশদ

 ‘মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে নানা পদক্ষেপ’
মশার মডেল ও মশারি নিয়ে বিধানসভায় ডেঙ্গু ইস্যুতে তুমুল বিক্ষোভ বিরোধীদের

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বৃহস্পতিবার বিধানসভায় ডেঙ্গু নিয়ে তুমুল বিক্ষোভ দেখাল বিরোধীরা। তাদের মতে, ডেঙ্গু মহামারী আকার নিয়েছে। তবে বিরোধীদের এই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য বলেন, ১৫ নভেম্বর পর্যন্ত ডেঙ্গুতে মোট মৃতের সংখ্যা ৪৫।
বিশদ

  ভদ্রেশ্বরের চেয়ারম্যান খুনের তদন্তে এনআইএ-কে চেয়ে বিতর্কে দিলীপ

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ভদ্রেশ্বর পুরসভার চেয়ারম্যান মনোজ উপাধ্যায়ের হত্যাকাণ্ড তৃণমূলেরই অন্তর্কলহের ফল। তাই রাজ্যের পুলিস নয়, প্রয়োজনে এনআইএ-কে দিয়ে তদন্ত করার দাবি তুললেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি তথা বিধায়ক দিলীপ ঘোষ। একইসঙ্গে ডেঙ্গু মোকাবিলায় বিধানসভা অধিবেশনে রাজ্য সরকারের ব্যর্থতার অভিযোগে কংগ্রেস ও বামেদের বিক্ষোভকে কটাক্ষে বিঁধলেন তিনি।
বিশদ

বিধানসভায় প্রশ্নের জবাবে সেচমন্ত্রী
বন্যা মোকাবিলায় উত্তরবঙ্গের জন্য আলাদা মাস্টার প্ল্যান করছে রাজ্য

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: এ বছর উত্তরবঙ্গে মারাত্মক বন্যা হয়েছে। বহু মানুষ মারা গিয়েছে। নদীবাঁধেরও মারাত্মক ক্ষতি হয়েছে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে মালদহ ও দুই দিনাজপুরের জন্য একটি এবং জলপাইগুড়ি, দার্জিলিং, কোচবিহার ও আলিপুরদুয়ার জেলার জন্য আলাদা একটি মাস্টার প্ল্যান করা হচ্ছে বলে সেচমন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন।
বিশদ

রোহিঙ্গাদের নিয়েই রাজ্যে গ্রেনেডের কারখানা গড়ার পরিকল্পনা ছিল তনবীরের

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বাংলাদেশ থেকে অনুপ্রবেশকারী রোহিঙ্গাদের নিয়ে রাজ্যে সংগঠন বাড়াচ্ছিল আনসরুল্লা বাংলা টিম (এবিটি)। তাদের নিয়েই গ্রেনেড তৈরির কারখানা গড়ে তোলার পরিকল্পনা ছিল ধৃত জঙ্গি সামসেদ মিঞা ওরফে তনবীরের। জেএমবি’র কায়দাতেই যাতে জঙ্গিদের কাছে গ্রেনেড পৌঁছে দেওয়া যায়।
বিশদ

সংশোধনী বিল পাশ বিধানসভায়
শ্রমিক কল্যাণ তহবিলে অনুদান হ্রাস-বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নেবে বোর্ডই

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: লেবার ওয়েলফেয়ার ফান্ডে অনুদান কমবেশি করতে আর আইন পরিবর্তনের দরকার নেই। এই তহবিল পরিচালনার দায়িত্ব থাকা লেবার ওয়েলফেয়ার বোর্ডই সরাসরি সিদ্ধান্ত নিতে পারবে। বৃহস্পতিবার বিরোধীশূন্য বিধানসভায় এ সংক্রান্ত সংশোধনী পাশ হয়ে গেল।
বিশদ

মোদিকে নোংরা ভাষায় আক্রমণ সূর্যকান্তের, পাল্টা বিঁধলেন দিলীপ ঘোষও

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: প্রধানমন্ত্রীকে অশ্লীল ভাষায় আক্রমণ করলেন সিপিএমের রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র। বললেন, গত সাড়ে তিন বছর ধরে যেভাবে গোটা দেশে বিভাজনের নোংরা খেলা খেলছেন নরেন্দ্র মোদি ও তাঁর দল, তাতে তাঁরাই হলেন ভারতের এক নম্বর ‘হারামজাদা’।
বিশদ

মনোতোষের সঙ্গে রাইফেল ফ্যাক্টরির কারও যোগ আছে কি, তদন্তে গোয়েন্দারা

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: এসটিএফের হাতে ধৃত অস্ত্র কারবারি বসিরহাটের মনোতোষ দে’র সঙ্গে ইছাপুর রাইফেল ফ্যাক্টরির কারও কোনওরকম যোগসাজশ রয়েছে কি না, তা এবার খতিয়ে দেখতে শুরু করলেন কলকাতা পুলিসের গোয়েন্দারা।
বিশদ

  রাষ্ট্রপতি আসছেন কলকাতায়

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: রাষ্ট্রপতি হওয়ার পর প্রথম কলকাতায় আসছেন রামনাথ কোবিন্দ। আগামী ২৮ নভেম্বর তিনি কলকাতায় আসতে পারেন বলে নবান্ন সূত্রে জানা গিয়েছে। ৩০ তারিখ তিনি ফিরে যাবেন। রাষ্ট্রপতির চূড়ান্ত সফরসূচি এখনও তৈরি হয়নি।
বিশদ

আজ সুনামি সতর্কতার মক ডিল তিন জেলায়

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সুনামি বিপর্যয় হলে তার থেকে সাধারণ মানুষকে রক্ষা করার জন্য আজ, শুক্রবার রাজ্যের কয়েকটি জায়গায় ‘মক ডিল’ হবে। রাজ্য ও কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন এজেন্সি ও দপ্তর যৌথভাবে এই কাজটি করবে। নবান্ন সূত্রে জানা গিয়েছে, সুনামির সতর্কবার্তা পাওয়ার পর সম্ভাব্য ক্ষতিগ্রস্ত এলাকা থেকে মানুষজনকে দ্রুত সরানোর মহড়া দেওয়ার জন্য এই মক ডিল হবে।
বিশদ

রসগোল্লার গুণমান বজায়ে বৈঠক ডাকল রাজ্য

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বাংলার রসগোল্লা ‘জিআই’ স্বীকৃতি পাওয়ার পর এর গুণমান বজায় রাখার ব্যাপারে উদ্যোগী হল রাজ্য সরকার। এর জন্য আগামী সপ্তাহে বিশেষ বৈঠক ডেকেছে ‘খাদ্য প্রক্রিয়াকরণ ও উদ্যানপালন উন্নয়ন নিগম’।
বিশদ

Pages: 12345

একনজরে
বিএনএ, মালদহ ও রায়গঞ্জ: বৃহস্পতিবার রাজ্যের স্বাস্থ্য সচিব অনিল ভর্মা গৌড়বঙ্গের তিন জেলার স্বাস্থ্য পরিষেবা খতিয়ে দেখলেন। এদিন রায়গঞ্জে মেডিক্যাল কলেজের কাজের অগ্রগতি খতিয়ে দেখার পর হাসপাতালও ঘুরে দেখেন। পরে কর্ণজোড়ায় দুই দিনাজপুরের স্বাস্থ্য আধিকারিকদের নিয়ে বৈঠক করেন। ...

 মুম্বই, ২৩ নভেম্বর (পিটিআই): লিঙ্গ পরিবর্তনের জন্য ছুটির দরখাস্ত নিয়ে বম্বে হাইকোর্টে আবেদন করলেন ২৮ বছরের এক মহিলা কনস্টেবল। তাঁর আবেদন, লিঙ্গ পরিবর্তনের জন্য মহারাষ্ট্র পুলিশের ডিরেক্টর জেনারেলকে ছুটি মঞ্জুর করার নির্দেশ দিক আদালত। ...

নাগপুর, ২৩ নভেম্বর: দক্ষিণ আফ্রিকা সফরের প্রস্তুতির জন্য পর্যাপ্ত সময় না পেয়ে বিসিসিআইয়ের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। তিনি বলেছেন, ‘শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: প্রতারণার ঘটনায় ধৃত বিএসএনএলের মহিলা ইঞ্জিনিয়ার। কলকাতার একটি বেসরকারি মেডিকেল কলেজে ভরতি করিয়ে দেওয়ার নাম করে ২০ লক্ষ টাকা প্রতারণার অভিযোগে বুধবার যাদবপুর থানার পুলিশ অভিযুক্ত মহুয়া চক্রবর্তীকে গ্রেপ্তার করেছে। ...


আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

গুপ্ত শত্রুতা বৃদ্ধি। কর্মে উন্নতি। ব্যবসায় অতিরিক্ত সতর্কতার প্রয়োজন। উচ্চশিক্ষায় সাফল্য। শরীর-স্বাস্থ্য ভালো যাবে। প্রতিকার: ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮৫৯: চার্লস ডারউইনের লেখা ‘অন দ্য অরিজিন অব স্পিসিস’ প্রকাশিত হল।
১৮৮৮: মার্কিন সাহিত্যিক ডেল কার্নেগির জন্ম
১৯৫৫: ইংল্যান্ডের ক্রিকেটার ‌ইয়ান বথামের জন্ম
১৯৬১: লেখিকা এবং সমাজকর্মী অরুন্ধতী রায়ের জন্ম।

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৪.০০ টাকা ৬৫.৬৮ টাকা
পাউন্ড ৮৪.৯৬ টাকা ৮৭.৮৫ টাকা
ইউরো ৭৫.৩৬ টাকা ৭৮.০০ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ২৯,৯৬০ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ২৮,৪২৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ২৮,৮৫০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৯,৭০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৯,৮০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৮ অগ্রহায়ণ, ২৪ নভেম্বর, শুক্রবার, ষষ্ঠী অহোরাত্র, নক্ষত্র-উত্তরষা‌ঢ়া দিবা ১০/৩, সূ উ ৫/৫৯/৫, অ ৪/৪৭/২৭, অমৃতযোগ দিবা ঘ ৬/৪১ মধ্যে পুনঃ ৭/২৪ গতে ৯/৩৫ মধ্যে পুনঃ ১১/৪৪ গতে ২/৩৮ মধ্যে পুনঃ ৩/২১ গতে অস্তাবধি, রাত্রি ঘ ৫/৪০ গতে ৯/১১ মধ্যে পুনঃ ১১/৪৯ গতে ৩/২০ মধ্যে পুনঃ ৪/১৪ গতে উদয়াবধি। বারবেলা ৮/৪১ গতে ১১/২৩ মধ্যে। কালরাত্রি ৮/৫ গতে ৯/৪৪ মধ্যে।
৭ অগ্রহায়ণ, ২৪ নভেম্বর, শুক্রবার, ষষ্ঠী রাত্রি ৩/৩৭/৪১, উত্তরষা‌ঢ়ানক্ষত্র ৭/৩১/৩৪, সূ উ ৬/০/১৩, অ ৪/৪৫/৪৯, অমৃতযোগ দিবা ঘ ৬/৪৩/১৫ মধ্যে, ৭/২৬/১৭-৯/৩৫/২৫, ১১/৪৫/৩২-২/৩৭/৪২, ৩/২০/৪৫-৪/৪৫/৪৯, রাত্রি ৫/৩৮/৪৭-৯/১০/৩৭, ১১/৪৯/৩০-৩/২১/২০, ৪/১৪/১৮-৬/০/৪৫, বারবেলা ৮/৪১/৩৭-১০/২/১৯, কালবেলা ১০/২/১৯-১১/২৩/১, কালরাত্রি ৮/৪/২৫-৯/৪৩/৪৩।
 ৪ রবিঃ আউঃ

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
 আইএসএল: কেরল ব্লাস্টার্স: ০ জামশেদপুর এফ সি: ০ (প্রথমার্ধ)

08:55:37 PM

হাফিজ সইদকে গ্রেপ্তার করতে হবে, পাকিস্তানকে নির্দেশ আমেরিকার 

06:32:16 PM

মিশরে জঙ্গি হামলায় কমপক্ষে ৫৪জনের মৃত্যু, জখম ৭৫ 

06:02:56 PM

 আসানসোলে মাদক কারবারীদের হাতে আক্রান্ত তৃণমূলের এক কাউন্সিলর

04:48:00 PM

নাগপুর টেস্ট: প্রথম দিনের শেষে ভারত ১১/১ 

04:45:41 PM