রাজ্য
 

৩ মাসেই ২ কোটির হাতে মুখ্যমন্ত্রীর স্বাস্থ্যসাথি কার্ড

বিশ্বজিৎ দাস, কলকাতা: পঞ্চায়েত ভোট দূরে নেই। তার আগে বড়সড় মাস্টারস্ট্রোক দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ন্যায্যমূল্যের দোকান, বিনামূল্যের চিকিৎসা, নয়া স্বাস্থ্য আইনের মতো এখানেও তাঁর সাফল্যের প্রধান কান্ডারি স্বাস্থ্য দপ্তর। গত বছর ডিসেম্বরের শেষে উদ্বোধন করে ২০১৭’র মার্চের মধ্যে— মাত্র তিন মাসে রাজ্যের ৪০ লক্ষ পরিবারের হাতে স্বাস্থ্যসাথি কার্ড তুলে দিয়ে প্রায় রেকর্ড গড়লেন মমতা। এই ক্যাশলেস ও পেপারলেস বিমা প্রকল্প অনুযায়ী, সুবিধাভোগীর পরিবার বার্ষিক দেড় লক্ষ টাকা পর্যন্ত স্বাস্থ্যবিমার সুবিধা পাবে। জটিল রোগব্যাধি যেমন ক্যানসার, হার্টের অসুখ, নিউরো, অর্থোপেডিক সমস্যায় এই বিমার পরিমাণই বেড়ে হবে সর্বোচ্চ পাঁচ লক্ষ টাকা। উল্লেখযোগ্য বিষয় হল, বাড়ির সামনে কোন কোন হাসপাতাল আছে, সুবিধাভোগী পরিবারের সদস্যদের নাম, কার জন্য বিমায় কত টাকা খরচ হয়েছে, বছরে আর কত টাকা বাকি, অভিযোগ জানাবেন কীভাবে ইত্যাদি প্রচুর অপশনসমেত ‘স্বাস্থ্যসাথি মোবাইল অ্যাপস’ও চালু হয়েছে অ্যান্ড্রয়েড ফোনে।
স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রের খবর, ১০ কোটি মানুষের রাজ্যে পাঁচ ভাগের এক ভাগ অর্থাৎ দু’কোটি মানুষের হাতে ইতিমধ্যে পৌঁছে গিয়েছে স্বাস্থ্যসাথি কার্ড। দপ্তরের এক পদস্থ কর্তা বললেন, আমাদের লক্ষ্য ৪৩ লক্ষ পরিবারের হাতে কার্ড পৌঁছে দেওয়া। তিন মাসেই ৯৩ শতাংশ কাজ শেষ। এ মাসের আর কয়েক দিনের মধ্যে বাকি পরিবারগুলির হাতে কার্ড পৌঁছে যাবে। অফিসার মহলের দাবি, সাম্প্রতিককালে জনস্বার্থবাহী যত প্রকল্প কেন্দ্র ও বিভিন্ন রাজ্য সরকার চালু করেছে, তার মধ্যে দ্রুত বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে রেকর্ড গড়েছে স্বাস্থ্যসাথি। এমনকী রাষ্ট্রীয় স্বাস্থ্য বিমা যোজনায়, যেখানে দেশে এক নম্বর পশ্চিমবঙ্গ, সেখানে লক্ষ্যমাত্রার ৬০ শতাংশের বেশি উপভোক্তার কাছে পৌঁছানো যায়নি। এক পদস্থ আধিকারিক জানালেন, অন্যান্য বহু প্রকল্পের মতোই স্বাস্থ্যসাথি দেখে শীঘ্রই ‘মোদি সরকার’ আনতে চলেছে নয়া সামাজিক সুরক্ষা প্রকল্প ‘ন্যাশনাল হেলথ প্রোটেকশন স্কিম বা এনএইচপিএস।
প্রসঙ্গত, আশা কর্মী, আইসিডিএস কর্মচারী, স্বনিযুক্তি প্রকল্পে যুক্ত কর্মী, সিভিক ভলান্টিয়ারসহ বিভিন্ন সরকারি প্রকল্পে নিযুক্ত ঠিকাকর্মীদের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় ২০১৬-র ফেব্রুয়ারিতে এই প্রকল্প ঘোষণা করেন মমতা। তারপর নির্বাচন এসে পড়ায় ক’মাস কাজ এগয়নি। উপভোক্তারাও প্রমাদ গুনছিলেন, আদৌ প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হবে তো? নাকি নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি হয়েই থাকবে? আনাচে-কানাচে ক্ষোভও বাড়ছিল। আঁচ পেয়ে ক্ষমতায় এসেই সচিবদের নিয়ে বৈঠকে প্রকল্পটি দ্রুত কার্যকর করার নির্দেশ দেন মমতা। তাঁর ধাতানিতে গত বছর পুজোর দিনগুলিতেও প্রকল্পের জন্য তথ্য সংগ্রহ ও প্রাথমিক কাজগুলি চালু ছিল।
৩০ ডিসেম্বর নেতাজি ইনডোর স্টেডিয়ামে ২০ জন উপভোক্তার হাতে এই কার্ড তুলে দিয়ে প্রকল্পের উদ্বোধন করেন মুখ্যমন্ত্রী। জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে কাজ শুরু হয়ে যায়। এক-একটি পরিবারে কতজন উপভোক্তা থাকবেন, এই প্রকল্পে তা বেঁধে দেওয়া হয়নি। এমন পরিবারও আছে, যার ১৩-১৪ জন সদস্যের প্র঩ত্যেকে কার্ড পেয়েছেন।
কীভাবে এই বিপুল কর্মকাণ্ড সম্পন্ন করল সরকার? দপ্তর সূত্রের খবর, সচিত্র ভোটার পরিচয়পত্রের মতোই এই কার্ডের ক্ষেত্রে প্রথম ধাপে উপভোক্তাদের আঙুলের ছাপ সংগ্রহ করা হয়। তারপর বাড়ি বাড়ি স্লিপ পাঠিয়ে জানানো হয়, অমুক তারিখে স্বাস্থ্যসাথি কার্ড তুলতে অমুক জায়গায় আসতে হবে। এই কাজটি পরিচালনা করছে সংশ্লিষ্ট বিডিও অফিস। উপভোক্তারা ওই দিন এলে তাঁদের চেনার জন্য বিডিও অফিসের এক কর্মীকে দায়িত্ব দেওয়া হয়। উপভোক্তার আগে সংগৃহীত আঙুলের ছাপের সঙ্গে ওই দিন নেওয়া আঙুলের ছাপ মেলানো হয়। দিনের দিন তাঁর হাতে তুলে দেওয়া হয় কার্ড।
কী আছে কার্ডে? উপভোক্তার পরিবারের প্রত্যেক সদস্যের নাম, পরিচয়সহ প্রাথমিক সমস্ত তথ্য ডাউনলোড করা আছে কার্ডে থাকা ৬৪ কেবি’র চিপে। এখনও পর্যন্ত সরকারি ও বেসরকারি মিলিয়ে প্রায় ৭০০টি হাসপাতালকে প্রকল্পে যুক্ত করা হয়েছে। উপভোক্তারা সেখানে কার্ড নিয়ে গেলেই হবে। মেশিনে ঩দিলেই বেরিয়ে আসবে সমস্ত তথ্য। দপ্তর সূত্রের খবর, এখনও পর্যন্ত ১০ হাজার মানুষ এই কার্ড ব্যবহার করেছেন।
17th  April, 2017
বাংলার পুজো বিশ্বজনীন হয়ে উঠেছে: মুখ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বাংলার সর্বজনীন পুজো আজ বিশ্বজনীন হয়ে উঠেছে। লন্ডন, আমেরিকা, প্যারিস— কোথায় পৌঁছায়নি তার উন্মাদনা! গোটা দেশে অনেক উৎসব হয়। কিন্তু, বাংলার এই জাতীয় উৎসবকে ঘিরে লক্ষ লক্ষ, কোটি কোটি মানুষের যে উন্মাদনা আর স্বতঃস্ফূর্ততা, সেটি কোথাও মেলে না।
বিশদ

21st  September, 2017
কৃষি দপ্তরের ছড়িয়ে থাকা অফিস এক জায়গায় আনার অনুরোধ মন্ত্রীকে

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কৃষি দপ্তরের ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা অফিস এক জায়গায় নিয়ে আসার জন্য বিভাগীয় মন্ত্রী আশিস বন্দ্যোপাধ্যায়কে অনুরোধ করলেন কর্মীরা। কৃষিমন্ত্রীর নতুন দায়িত্ব নেওয়ার পর বুধবার তিনি দপ্তরের সচিবালয় ও ডাইরেক্টরেট অফিস পরিদর্শনে গিয়েছিলেন। পরিদর্শনের সময় কর্মীদের এই অনুরোধ শুনতে হয় মন্ত্রীকে।
বিশদ

21st  September, 2017
স্কুলের পরিকাঠামো উন্নয়নে বিপুল অর্থ বরাদ্দ রাজ্যের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বিদ্যালয়গুলির পরিকাঠামো উন্নয়নে একসঙ্গে বহু কোটি টাকা বরাদ্দ করল স্কুলশিক্ষা দপ্তর। পুজোর আগে এই খবরে খুশি শিক্ষামহল। আড়াইশো স্কুলে পরিস্রুত পানীয় জল সরবরাহ, বিভিন্ন জেলার স্কুলে অতিরিক্ত ক্লাসরুম, সীমানা পাঁচিল প্রভৃতি তৈরির মতো বহু উন্নয়নমূলক কাজ সেই অর্থে করা হবে।
বিশদ

21st  September, 2017
দূরত্ব বাড়িয়ে প্রশাসনের দেওয়া নিরাপত্তা ফিরিয়ে দিলেন মুকুল

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: প্রশাসনের দেওয়া নিরাপত্তা বলয় এবার নিজেই ফিরিয়ে দিলেন মুকুল রায়। অন্তত তেমনই দাবি করেছেন তৃণমূলের একদা সেকেন্ড ইন কমান্ড। তৃণমূলের সঙ্গে বছর দুয়েক আগে দূরত্ব তৈরি হওয়ার জেরে তাঁর নিরাপত্তা রক্ষী তুলে নেওয়া হয়েছিল। কিন্তু সাংগঠনিক অনুশাসনকে উপেক্ষা করার মতো দৃষ্টান্ত বিরল। এবার এক ধাপ এগিয়ে তিনি কি দলকে বার্তা দিতে চাইলেন?
বিশদ

21st  September, 2017
উচ্চ মাধ্যমিকের প্রজেক্টের তালিকায় ঢুকে পড়ল কন্যাশ্রী

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: উচ্চ মাধ্যমিকের প্রজেক্টের তালিকায় ঢুকে গেল ‘কন্যাশ্রী’ও। বুধবার উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের তরফে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে বলা হয়েছে, মুখ্যমন্ত্রীর স্বপ্নের এই প্রকল্পকে নিয়েই প্রজেক্ট বানাতে পারবেন ছাত্রছাত্রীরা।
বিশদ

21st  September, 2017
মার্শাল আর্ট: কোরিয়া সরকারের সম্মান রাজ্যের স্বাস্থ্যকর্তাদের

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: এনআরএসসহ রাজ্যের বিভিন্ন স্বাস্থ্য প্রতিষ্ঠানে চিকিৎসকদের আত্মরক্ষার জন্য মার্শাল আর্ট তাইকোন্ডো ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য রা঩জ্যের কয়েকজন স্বাস্থ্যকর্তা সংবর্ধিত হলেন।
বিশদ

21st  September, 2017
রোহিঙ্গাদের রুখতে সীমান্তে কড়া নজরদারি বিএসএফের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কেন্দ্রীয় সরকার দু’দিন আগে সুপ্রিম কোর্টে দাবি করেছিল, রোহিঙ্গা উদ্বাস্তুরা দেশের পক্ষে বিপজ্জনক। তাদের ভারতের মাটি থেকে চলে যেতেই হবে। কারণ তারা পাকিস্তানি সন্ত্রাসবাদীদের কাছ থেকে সক্রিয় মদত পাচ্ছে। আর সেকারণেই দেশের পূর্ব এবং উত্তর-পূর্বের ইন্দো-বাংলা এবং ইন্দো-মায়ানমার সীমান্তে আগের থেকে অনেক বেশি নজরদারি চালানো হচ্ছে।
বিশদ

21st  September, 2017
 দক্ষিণ-পূর্ব রেলের বিশেষ ট্রেন

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: উৎসবের বাড়তি ভিড় সামাল দিতে শালিমার-ভঞ্জপুর-শালিমার রুটে আট জোড়া বিশেষ ট্রেন চালাবে দক্ষিণ-পূর্ব রেল। তারা জানিয়েছে, ট্রেনগুলি চলবে ৬ অক্টোবর থেকে ২৬ নভেম্বরের মধ্যে।
বিশদ

21st  September, 2017
৪ মাওবাদীর জামিন খারিজ

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: চার মাওবাদীর জামিনের আবেদন খারিজ করে দিল আদালত। আলিপুরের ১৮ নং অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা বিচারক কাবেরী বসু ওই আবেদন বাতিল করে দেন। ওই চার মাওবাদীর নাম শচীন ঘোষাল, রাধেশ্যাম দাস, সিদ্ধার্থ মণ্ডল এবং মধুসূদন মণ্ডল।
বিশদ

21st  September, 2017
দৈনিক ভাতা দ্বিগুণের পাশাপাশি গোটা দেশে বিমান চড়ার সুযোগের প্রস্তাব বিধায়কদের জন্য

জীবানন্দ বসু  কলকাতা: রাজ্যের বিধায়কদের জন্য একের পর এক সুখবর আসতে চলেছে। দৈনিক ভাতা এক থেকে বেড়ে দু’হাজার টাকার করার প্রস্তাবই শুধু নয়, আগামী দিনে বিধায়করা যাতে রাজ্যের মধ্যে বিমান যাত্রার সুবিধা পান, সেজন্যও সচেষ্ট হয়েছে বিধানসভার সংশ্লিষ্ট কমিটি।
বিশদ

20th  September, 2017
লক্ষ্য পঞ্চায়েত ভোট
কালী পুজোর পরেই লোকশিল্পীদের দিয়ে সরকারি প্রকল্পের প্রচার গ্রামে

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: আসন্ন পঞ্চায়েত ভোটের কথা মাথায় রেখে প্রান্তিক স্তরে সরকারি প্রকল্পের সুবিধা পাইয়ে দিতে অভিনব উদ্যোগ নিল রাজ্য। চলতি বছরের বাজেট বরাদ্দের কত শতাংশ খরচ হয়েছে, প্রত্যেক সরকারি দপ্তরগুলিকে তার পূর্ণাঙ্গ বিবরণ তৈরির নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। 
বিশদ

20th  September, 2017

Pages: 12345

একনজরে
 নয়াদিল্লি, ২৫ সেপ্টেম্বর: স্টেট ব্যাংকের নেতৃত্বাধীন কনসোর্টিয়ামের কাছ থেকে ঋণ নেওয়া ছ’হাজার কোটি টাকার বেশিটাই কাগুজে কোম্পানিতে বিনিয়োগ করেছেন কিংফিশার কর্তা বিজয় মালিয়া। তদন্তে নেমে এমনই তথ্য পেয়েছে সিবিআই ও ইডি। খুব তাড়াতাড়ি এই তথ্য সম্বলিত চার্জশিট দেবে ওই দুই ...

 চেন্নাই, ২৫ সেপ্টেম্বর (পিটিআই): জয়ললিতার মৃত্যুর কারণ নিয়ে শশীকলা শিবিরের উপর চাপ আরও বাড়াতে সোমবার তদন্ত কমিশন গঠন করল তামিলনাড়ু সরকার। তদন্তে কমিশনের নেতৃত্ব দেবেন হাইকোর্টের একজন অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি। ...

 হরিহর ঘোষাল, বারাকপুর, বিএনএ: কামারহাটি পুরসভায় রেশন কার্ড নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। জাতীয় খাদ্য সুরক্ষা আইনের কার্ড প্রশাসনের পক্ষ থেকে বিলি করা না হলেও একজন রেশন ডিলারের কাছে ভূরি ভূরি কার্ড জমা পড়েছে। ...

বার্লিন, ২৫ সেপ্টেম্বর: বুথ ফেরত সমীক্ষায় পাওয়া আভাসই শেষমেশ সত্য হল। চতুর্থবার জার্মানির চ্যান্সেলর নির্বাচিত হলেন অ্যাঞ্জেলা মার্কেলই। ৩২.৯ শতাংশ ভোট পেয়েছে মার্কেলের দল। আর ...


আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

গুপ্ত শত্রুতা বৃদ্ধি। কর্মে উন্নতি। ব্যবসায় অতিরিক্ত সতর্কতার প্রয়োজন। উচ্চশিক্ষায় সাফল্য। শরীর-স্বাস্থ্য ভালো যাবে।প্রতিকার: বট ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮২০: মনীষী ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের জন্ম
১৯২৩: অভিনেতা দেব আনন্দের জন্ম
১৯৩২: ভারতের চতুর্দশ প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের জন্ম
১৯৭৭: নৃত্যশিল্পী উদয়শংকরের মৃত্যু
১৯৮৯: সঙ্গীতশিল্পী হেমন্ত মুখোপাধ্যায়ের মৃত্যু

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৪.০১ টাকা ৬৫.৬৯ টাকা
পাউন্ড ৮৬.২৫ টাকা ৮৯.১৭ টাকা
ইউরো ৭৬.০১ টাকা ৭৮.৬৬ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩০,২৫৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ২৮,৭০৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ২৯,১৩৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৯,৮০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৯,৯০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৯ আশ্বিন, ২৬ সেপ্টেম্বর, মঙ্গলবার, ষষ্ঠী, নক্ষত্র-অনুরাধা দং ৩/৫১ দিবা ঘ ৭/৩, সূ উ ৫/৩০/২, অ ৫/২৬/১২, অমৃতযোগ দিবা ঘ ৬/১৭ মধ্যে পুনঃ ৭/৫ গতে ১১/৪ মধ্যে। রাত্রি ঘ ৭/৪৯ গতে ৮/৩৯ মধ্যে পুনঃ ৯/২৭ গতে ১১/৫২ মধ্যে পুনঃ ১/২৯ গতে ৩/৬ মধ্যে পুনঃ ৪/৪১ গতে উদয়াবধি, বারবেলা ৬/৫৯ গতে ৮/২৯ মধ্যে পুনঃ ১২/৫৮ গতে ২/২৮ মধ্যে, কালরাত্রি ৬/৫৯ গতে ৮/২৮ মধ্যে।
৯ আশ্বিন, ২৬ সেপ্টেম্বর, মঙ্গলবার, ষষ্ঠী, অনুরাধানক্ষত্র ৭/৯/৪, সূ উ ৫/২৮/৩৬, অ ৫/২৭/১৩, অমৃতযোগ দিবা ৬/১৬/৩০, ৭/৪/২৫-১১/৩/৫৭, রাত্রি ৭/৫১/৩০-৮/৩৯/৩৫, ৯/২৭/৪১-১১/৫১/৫৭, ১/২৮/৮-৩/৪/১৯, ৪/৪০/৩০-৫/২৮/৫৬, বারবেলা ৬/৫৭/২৬-৮/২৮/১৫, কালবেলা ১২/৫৭/৪৪-২/২৭/৩৪, কালরাত্রি ৬/৫৭/২৩-৮/২৭/৩৪।
 ৫ মহরম

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
ভিড়ের জেরে আজও বাড়ানো হল রাতের শেষ মেট্রোর সময় 
ষষ্ঠীর রাতে কলকাতা শহরে জনজোয়ারের জেরে এদিনও রাতের ...বিশদ

09:42:56 PM

সল্টলেকের ইসি ব্লকের কাছে অটো উলটে চালক-সহ জখম ৪

02:37:00 PM

বড়সড় রেল দুর্ঘটনায় হাত থেকে রক্ষা, একই লাইনে চলে এল ৩টি ট্রেন
বড়সড় রেল দুর্ঘটনায় হাত থেকে রক্ষা। এলাহাবাদের কাছে ...বিশদ

01:44:46 PM

গাজিয়াবাদে ব্যবসায়ীকে খুন, মৃতের নাম রাজেন্দ্র আগরওয়াল (৭৫)

01:24:00 PM

আজ দিল্লি আদালতে দুপুর ২টো নাগাদ হানিপ্রীতের আগাম জামিনের শুনানি

01:19:00 PM

দার্জিলিংয়ে খুলল অধিকাংশ দোকানপাট

01:08:00 PM

ঝাড়গ্রামে ২টি বাড়িতে দুঃসাহসিক চুরি
সোমবার রাতে ঝাড়গ্রাম শহরের ৯ নম্বর ওয়ার্ডের বামদা এলাকায় চুরির ...বিশদ

01:01:00 PM