Bartaman Patrika
রাজ্য
 

বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙার প্রমাণ লোপাটের চেষ্টা হচ্ছে
বিজেপি নয়, এবারের ভোটে তৃণমূলকে বাংলার
মানুষের মোকাবিলা করতে হচ্ছে: মোদি

বিমল বন্দ্যোপাধ্যায় ও পবিত্র ত্রিবেদী, মথুরাপুর ও দমদম: দিদি এবং ভাইপো পশ্চিমবঙ্গকে নিজেদের জমিদারি মনে করছেন। দক্ষিণ ২৪ পরগনার মথুরাপুর এবং দমদমের জনসভা থেকে এইভাবেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আক্রমণ করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। তিনি বলেন, কান খুলে শুনে নিন পশ্চিমবঙ্গ আপনার ব্যক্তিগত সম্পত্তি নয়। বাংলায় সুপ্রিম পাওয়ার এখানকার জনগণ। তাই তৃণমূলকে বিজেপির সঙ্গে নয়, এখানকার সাধারণ মানুষের সঙ্গে মোকাবিলা করতে হচ্ছে এবারের ভোটে। বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙার প্রসঙ্গে টেনেও তৃণমূলকে একহাত নিয়েছেন তিনি। তাঁর দাবি, সারদা-নারদের ধাঁচে এই ঘটনারও প্রমাণ লোপাটের চেষ্টা করা হচ্ছে। এদিন মথুরাপুর ও দমদমে পরপর দু’টি জনসভার মাধ্যমে রাজ্যের লোকসভা ভোটের শেষ প্রচার সারলেন তিনি।
রাজ্যে প্রচার-সভায় বিরোধীদের বাধা দেওয়া হচ্ছে বলেও অভিযোগ করেন প্রধানমন্ত্রী। তাঁর বক্তব্য, হিংসা ছড়ানো হচ্ছে চারদিকে। কিন্তু তৃণমূলের এই অত্যাচার রুখে দাঁড়াচ্ছেন বিজেপি কর্মীরা। আমাকেও জেলে ঢোকাবে বলে হুমকি দিচ্ছেন মমতাদিদি। বিজেপি নেতা-কর্মীদের হুমকি দিয়ে বলছেন, তাঁদের অফিসে তালা ঝুলিয়ে দেবেন। বিজেপির প্রতি মানুষের এই জনসমর্থন দেখে দিদি ভয় পেয়েছেন। তাই এসব ভুল বকছেন। বিজেপিকে ৩০০ আসন পার করাবে পশ্চিমবঙ্গই। দমদম সেন্ট্রাল জেলের মাঠে বিজেপি প্রার্থী শমীক ভট্টাচার্যের সমর্থনে জনসভায় মোদি বলেন, দমদমের সভা এখানকার মানুষের দম দেখিয়ে দিয়েছে। বাংলায় এবার মানুষও ‘বিজেপি-বিজেপি’ বলছে।
মথুরাপুরে তিনি বলেন, তৃণমূলের গুন্ডারা এই মূর্তি ভেঙে বিজেপির উপর দোষ দিচ্ছে। এই মূর্তি ভাঙার প্রমাণও নষ্ট করার ষড়যন্ত্র করছে তৃণমূল। মোদির প্রশ্ন, কলেজের গেটে তো তালা ছিল। তাহলে ভিতরে কারা ছিল? আমি চাই দোষীদের চিহ্নিত করে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দেওয়া হোক। কারা এই ঘটনা ঘটিয়েছে, কে অপমান করেছে, সব দেখেছেন বিদ্যাসাগর। এদিন, মথুরাপুরের প্রার্থী শ্যামাপ্রসাদ হালদারের সমর্থনে মন্দিরবাজারে এই নির্বাচনী জনসভা করেন প্রধানমন্ত্রী। সভাস্থলে ব্যাপক ভিড় দেখে উচ্ছ্বসিত মোদি তৃণমূলের উদ্দেশে বলেন, দিদি ভয় পেয়েছেন। হতাশা থেকে ধমকাচ্ছেন। এতদিন তাঁর প্রতি মানুষের যা সমর্থন ছিল, তা এখন আর নেই। তাঁর লোটাকম্বল গুটিয়ে নেওয়ার সময় এসেছে। মানুষই আপনাকে শ্রদ্ধার সঙ্গে এনেছিল। এখন তারাই আপনাকে সরিয়ে দিতে চায়। এটা মেনে নিন।
দমদমে মোদি আরও বলেন, এখন প্রতি পদে আপনি নির্বাচন কমিশন থেকে কেন্দ্রীয় বাহিনীকে আক্রমণ করছেন। আপনার মতোই পরিস্থিতি বামেরাও তৈরি করেছিল। সেই সময় এই কেন্দ্রীয় বাহিনী এবং নির্বাচন কমিশন নিরপেক্ষ ভোট করায়, আপনি মুখ্যমন্ত্রী হতে পেরেছিলেন। সেটা ভুলে গেলেন? দেশের গণতন্ত্র আপনার অহঙ্কারের থেকে অনেক এগিয়ে রয়েছে। স্বীকার করে নিন, আপনি চলে যাচ্ছেন। আপনার অহঙ্কারের এই পরিস্থিতি। মমতাকে কটাক্ষ করে মোদি বলেন, আপনি এখন প্রধানমন্ত্রী হওয়ার স্বপ্ন দেখছেন। দেখতেই পারেন। গণতন্ত্রে স্বপ্ন দেখায় কোনও বাধা নেই। প্রধানমন্ত্রী হওয়ার দৌড়ে এবার অনেক নাম। গত দু’দিনে সব হাওয়া হয়ে গিয়েছে। এমনকী কংগ্রেসও এখন বলতে শুরু করেছে, প্রধানমন্ত্রী পদে নিজের দাবি ছাড়তে তারা রাজি রয়েছে। রাতের অন্ধকারে যারা ঢুকছে আপনি তাদের সাদরে গ্রহণ করছেন, আর বিহার-উত্তরপ্রদেশ-ওড়িশাতে থেকে এসে যারা পশ্চিমবঙ্গের উন্নয়নে অংশীদারি রাখছেন, তাঁদের ক্ষেত্রে আপনার আপত্তি রয়েছে। জয় শ্রীরাম, মা কালী বললে বা আপনাকে নিয়ে কিছু মজা করলে, আপনি তাঁদের জেলে পুরছেন। জম্মু-কাশ্মীরেও ভোট হল, সেখানে একটাও হিংসার উদাহরণ নেই। অথচ গত ছ’দফা ভোটে এ’রাজ্যে একের পর এক হিংসার ঘটনা ঘটেছে। এবারের ভোট ঐতিহাসিক ভোট হিসেবে চিহ্নিত থাকবে। দিদির আচরণের জন্য এবারের ভোটকে স্মরণ করবে সবাই।
17th  May, 2019
মাধ্যমিকে জয় জেলারই
রেকর্ড নম্বর পেয়ে শীর্ষে পূর্ব মেদিনীপুরের সৌগত

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা এবং বিএনএ: মাধ্যমিকে নম্বরের পাহাড়চূড়ায় উঠে ইতিহাস গড়লেন পূর্ব মেদিনীপুরের মহম্মদপুর দেশপ্রাণ বিদ্যাপীঠের সৌগত দাস। মাধ্যমিকে প্রথম সৌগত ৭০০’র মধ্যে পেয়েছে ৬৯৪। মঙ্গলবার সাংবাদিক বৈঠক করে মধ্যশিক্ষা পর্ষদের সভাপতি কল্যাণময় গঙ্গোপাধ্যায় বলেছেন, এই নম্বর পর্ষদের ইতিহাসে সর্বোচ্চ। গত বছর ৬৮৯ পেয়ে নজির গড়েছিল কোচবিহারের সঞ্জীবনী দেবনাথ। সার্বিক পাশের হার অবশ্য খুব বেশি বাড়েনি। গতবার পাশের হার ছিল ৮৫.৪৯ শতাংশ। এবার ০.৫৮ শতাংশ বেড়ে তা হয়েছে ৮৬.০৭ শতাংশ। ছাত্রীদের (৮২.৮৭%) তুলনায় পাশের হারে এগিয়ে ছাত্ররা (৮৯.৯৭%)। তবে কলকাতার মান বাঁচিয়েছে একমাত্র যাদবপুর বিদ্যাপীঠ। এই স্কুলের সোহম দাস দশম স্থান পেয়ে কলকাতায় প্রথম হয়েছে। তার প্রাপ্ত নম্বর ৬৮১।
বিশদ

রাত পোহালেই গণনা শুরু,
কড়া ব্যবস্থা কমিশনের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: আজকের রাত পোহালেই ভোট গণনা শুরু হবে। ভোট গণনার জন্য কড়া ব্যবস্থা নিয়েছে নির্বাচন কমিশন। পর্যবেক্ষকের সংখ্যাও বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। মোট ১৫৫ জন পর্যবেক্ষক গণনার সময় রাজ্যে হাজির থাকবেন। লোকসভার গণনার জন্য ১৪৭ জন পর্যবেক্ষক থাকবেন।
বিশদ

জুয়াড়িদের ইঙ্গিত, দেশে বিজেপি
পাবে ২৯০ আসন, রাজ্যে ১৩

 বাপ্পাদিত্য রায়চৌধুরী, কলকাতা: সপ্তম দফার ভোট শেষ হতেই বুথ ফেরত সমীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করেছে একাধিক সংবাদমাধ্যম। তাতে নরেন্দ্র মোদি সরকারের ফের দেশের হাল ধরার ইঙ্গিত মিলেছে জোরালোভাবে। সেই এক্সিট পোলকে কাজে লাগিয়ে জমে উঠেছে বড়বাজারের জুয়ার ঠেক।
বিশদ

মাধ্যমিকে দশম
টিভিতে দেখাবে, সবাই অভিনন্দন
জানাবে, প্রত্যাশার প্রত্যাশা পূরণ

 পবিত্র ত্রিবেদী, কলকাতা: মাধ্যমিক পরীক্ষার ফল বেরলে টিভিতে কৃতী ছাত্রছাত্রীদের সাক্ষাৎকার দেখতে বসে যেত বিরাটি বিদ্যালয় ফর গার্লসের মেধাবী ছাত্রীটি। স্বপ্ন দেখত, একদিন সেও মাধ্যমিকে ওই কৃতী পড়ুয়াদের মতো র্যা ঙ্ক করবে। তার ফল দেখে সবাই তাকে অভিনন্দন জানাতে আসবে।
বিশদ

মেধা তালিকায় নরেন্দ্রপুর, রহড়া থাকলেও
অন্যান্য রামকৃষ্ণ মিশন স্কুলের ফলও ভালো

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা এবং বিএনএ: এবার মাধ্যমিক পরীক্ষার ফলাফলে মেধা তালিকায় নরেন্দ্রপুর, রহড়ার সঙ্গে নাম উঠে এল বাঁকুড়ার রামহরিপুর রামকৃষ্ণ মিশন হাইস্কুল এবং রামকৃষ্ণ মিশন সারদা বিদ্যাপীঠ এবং পশ্চিম বর্ধমানের রামকৃষ্ণ আশ্রম বিদ্যাপীঠের। মেধা তালিকায় ঠাঁই পাওয়ায় স্বাভাবিকভাবেই খুশি এই স্কুলগুলির কর্তৃপক্ষ।
বিশদ

মাধ্যমিকের সেরা ১০ 

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: এবছর মাধ্যমিকের প্রথম দশে জায়গা করে নিল ৫১ জন পরীক্ষার্থী। ৬৯৪ নম্বর পেয়ে রাজ্যে প্রথম হয়েছে পূর্ব মেদিনীপুরের মহম্মদপুর দেশপ্রাণ বিদ্যাপীঠের সৌগত দাস। ৬৯১ নম্বর পেয়ে যুগ্মভাবে দ্বিতীয় হয়েছে কোচবিহারের ইলা দেবী গার্লস হাইস্কুলের দেবস্মিতা সাহা এবং আলিপুরদুয়ারের ফালাকাটা গার্লস হাইস্কুলের শ্রেয়সী পাল।  
বিশদ

চলবে ভ্যাপসা গরম, আজ না
হলেও কাল ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনা

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বিক্ষিপ্তভাবে কোথাও কোথাও বৃষ্টি হলেও, কলকাতা সহ গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গের একটা বড় অংশে ভ্যাপসা, অস্বস্তিকর গরম থেকে আপাতত স্বস্তি মিলবে না বলেই জানিয়েছেন আবহাওয়াবিদরা। পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলিতে শুকনো গরমের দাপট চলবে।
বিশদ

 ভোট গণনায় নিযুক্ত কর্মীদের জন্য তৃণমূল নেত্রীর ৭ দফা নির্দেশ
অন্যের দেওয়া জলও স্পর্শ করবেন না!

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ভোট গণনায় নিযুক্ত কর্মীরা কারও দেওয়া জলও যেন স্পর্শ না করেন। দলের পক্ষ থেকে কর্মীদের উদ্দেশে এমনই কঠোর নির্দেশিকা জারি করেছে তৃণমূল। মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূল নেত্রীর নির্দেশে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হওয়ার পর থেকে ইভিএম রাখার স্ট্রং রুমগুলির উপর অতন্দ্র নজর রাখতে হচ্ছে দলীয় কর্মীদের।
বিশদ

বিজ্ঞানের বিষয়গুলিতে ব্যাপক
কমল ‘এএ’ গ্রেড প্রাপকের সংখ্যা

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: মাধ্যমিকে এক বছর বিজ্ঞান, তো আরেক বছর কলা বিভাগের বিষয়গুলিতে ৯০ শতাংশ বা তার বেশি নম্বর (এএ গ্রেড) পাওয়া ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা বেশি থাকে। ট্রেন্ড মেনে এবার পিছিয়ে বিজ্ঞান। এটুকু দেখলে উদ্বেগের কিছু নেই।
বিশদ

মাধ্যমিকের ফল প্রকাশ হতেই
একাদশে ভর্তির প্রক্রিয়া শুরু

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: মাধ্যমিকের ফল প্রকাশ হতেই শুরু হয়ে গেল বিভিন্ন স্কুলে একাদশ শ্রেণীতে ভর্তির প্রক্রিয়া। কোনও কোনও স্কুলে মঙ্গলবার থেকেই এই প্রক্রিয়া শুরু হয়ে গিয়েছে। আগামী কয়েকদিন ধরে তা চলবে। সরকারি স্কুলগুলিতে ভর্তির প্রক্রিয়া চলবে কেন্দ্রীয়ভাবে সরকারি নিয়ম মতো।
বিশদ

শিক্ষক অপ্রতুলতাই দায়ী
সরকারি স্কুলের অবনমনে!

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সরকারি স্কুলগুলির মাধ্যমিকের ফলাফলে একেবারেই খুশি নয় সরকারি বিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি। সাধারণ সম্পাদক সৌগত বসু বলেন, মোট নম্বরের নিরিখে ‘এএ’ প্রাপকের সংখ্যা ব্যাপকভাবে কমেছে। গতবার যেখানে ৩,১০৯ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে ৪৮৩ জন ‘এএ’ পেয়েছিল, এবার সেটা কমে দাঁড়িয়েছে ২,৭০৭ জনের মধ্যে ২১৮ জন।
বিশদ

নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গের জন্য
দুই পর্যবেক্ষক নিয়োগের বিরুদ্ধে
মামলা খারিজ সুপ্রিম কোর্টে

 নয়াদিল্লি, ২১ মে (পিটিআই): লোকসভা নির্বাচনের জন্য দু’জন অবসরপ্রাপ্ত আমলাকে পশ্চিমবঙ্গের পর্যবেক্ষক নিয়োগ করার বিরুদ্ধে করা মামলাটি মঙ্গলবার খারিজ করে দিল সুপ্রিম কোর্ট। বিচারপতি অরুণ মিশ্র এবং বিচারপতি এম আর শাহের অবসরকালীন বেঞ্চ জানিয়ে দিয়েছে, লোকসভার নির্বাচন শেষ হয়ে গিয়েছে।
বিশদ

সভায় এগিয়ে তৃণমূল, হেলিকপ্টার ল্যান্ডিংয়ে বিজেপি
মিটিং-মিছিলের সংখ্যায় সব
রাজ্যকে টেক্কা পশ্চিমবঙ্গের

 সঞ্জয় গঙ্গোপাধ্যায়, কলকাতা: গত দু’মাসের বেশি সময় ধরে রাজ্যে নির্বাচনী প্রচারের মিছিল, মিটিং হয়েছে একলক্ষেরও বেশি। যা অন্য রাজ্যের তুলনায় অনেক বেশি। মিছিল, মিটিং অনুমোদনের জন্য এবার সুবিধা অ্যাপ চালু করেছিল নির্বাচন কমিশন। সভা-মিছিলের ৪৮ ঘণ্টা আগে ওই অ্যাপে আবেদন করে অনুমোদন করাতে হয়।
বিশদ

বর্ষার সময়ে রাজ্যের সব রাস্তাকে ‘ফিট’
রাখতে কড়া নির্দেশিকা পূর্ত দপ্তরের

 দেবাঞ্জন দাস, কলকাতা: আসন্ন বর্ষা মরশুমে তাদের নিয়ন্ত্রণে থাকা সব সড়ককে নিত্যযাত্রী ও গাড়ি চলাচলের সম্পূর্ণ উপযোগী রাখার নির্দেশ দিল পূর্ত দপ্তর। এই লক্ষ্য পূরণের জন্য চলতি মে’মাসের মধ্যে দপ্তরের সমস্ত ফিল্ড লেভেল ইঞ্জিনিয়ারদের তাদের এলাকার সমস্ত রাস্তা পরিদর্শন বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।
বিশদ

Pages: 12345

একনজরে
বাংলা নিউজ এজেন্সি: মাধ্যমিকে সম্ভাব্য মেধা তালিকায় পূর্ব বর্ধমান জেলার চারজন এবং পশ্চিম বর্ধমানের এক পড়ুয়া জায়গা করে নিল। বর্ধমান বিদ্যার্থীভবন বালিকা বিদ্যালয়ের ছাত্র সাহিত্যিকা ...

 নয়াদিল্লি, ২১ মে (পিটিআই): নির্বাচনী প্রচারে প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী রাজীব গান্ধীকে একাধিকবার টেনে এনে কংগ্রেসকে নিশানা করেছিলেন। কখনও বফর্স কেলেঙ্কারির প্রসঙ্গ টেনে রাজীব গান্ধীকে ‘ভ্রষ্টাচারী নম্বর ...

  সংবাদদাতা, রায়গঞ্জ: উত্তর দিনাজপুরের কৃষকদের মধ্যে মাশরুম ও ব্রোকলি চাষে আগ্রহ বাড়াতে উদ্যোগ নিয়েছে জেলা উদ্যানপালন দপ্তর। এব্যাপারে তারা বেশকিছু পরিকল্পনা গ্রহণ করেছে। দপ্তর ...

সংবাদদাতা, কালনা: ৭ জুন আমেরিকার ক্যাটালিনা চ্যানেল জয়ের লক্ষ্যে ২৬ মে পাড়ি দিচ্ছেন কালনা শহরের বাসিন্দা ইংলিশ চ্যানেল জয়ী সাতারু সায়নী দাস। তাঁকে উৎসাহ দানে কালনা অ্যামেচার সুইমিং অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে মঙ্গলবার এক শুভেচ্ছা জ্ঞাপন অনুষ্ঠান হল কালনা পুরশ্রী মঞ্চে। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

গোপন প্রেম, গোপন থাকবে না। ব্যবসায়ীদের জন্য সময়টি ভালো, বয়স্করা একটু সাবধানী হবেন। ঠান্ডা লাগা ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৫৪৫: সম্রাট শেরশাহের মৃত্যু
১৭৭২: রাজা রামমোহন রায়ের জন্ম
১৮৫৯: গোয়েন্দা শার্লক হোমসের স্রস্টা স্টটিশ সাহিত্যিক আর্থার কোনান ডয়েলের জন্ম
১৮৮৫: ফরাসি সাহিত্যিক ভিক্টর হুগোর মৃত্যু
১৯৪০: ক্রিকেটার এরাপল্লি প্রসন্নর জন্ম
১৯৪৬: আইরিশ ফুটবলার জর্জ বেস্টের জন্ম
২০০৪: ১৭তম প্রধানমন্ত্রী হিসাবে ডঃ মনমোহন সিংয়ের শপথ গ্রহণ

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৮.৯২ টাকা ৭০.৬১ টাকা
পাউন্ড ৮৭.১৮ টাকা ৯০.৩৮ টাকা
ইউরো ৭৬.৫০ টাকা ৭৯.৪৪ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩২,০৯৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩০,৪৫০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩০,৯০৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৬,২৫০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৬,৩৫০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২২ মে ২০১৯, বুধবার, চতুর্থী ৫৮/১৮ রাত্রি ২/৪১। পূর্বাষাঢ়া অহোরাত্র। সূ উ ৪/৫৭/৫৩, অ ৬/৮/৩০, অমৃতযোগ দিবা ৭/৩৭ গতে ১১/৭ মধ্যে পুনঃ ১/৪৪ গতে ৫/১৫ মধ্যে। রাত্রি ৯/৪৫ মধ্যে পুনঃ ১১/৫৫ গতে ১/২১ মধ্যে, বারবেলা ৮/১৬ গতে ৯/৫৪ মধ্যে পুনঃ ১১/৩৩ গতে ১/১২ মধ্যে, কালরাত্রি ২/১৫ গতে ৩/৩৭ মধ্যে।
৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২২ মে ২০১৯, বুধবার, চতুর্থী ৫৪/৪৯/৫ রাত্রি ২/৫২/৫৯। পূর্বাষা‌ঢ়ানক্ষত্র ৬০/০/০ অহোরাত্র, সূ উ ৪/৫৭/২১, অ ৬/১০/৪১, অমৃতযোগ দিবা ৭/৩৬ গতে ১১/১০ মধ্যে ও ১/৫০ গতে ৫/২৩ মধ্যে এবং রাত্রি ৯/৫০ মধ্যে ও ১১/৫৮ গতে ১/২২ মধ্যে, বারবেলা ১১/৩৪/১ গতে ১/১৩/১১ মধ্যে, কালবেলা ৮/১৫/৪১ গতে ৯/৫৪/৫১ মধ্যে, কালরাত্রি ২/১৫/৪১ গতে ৩/৩৬/৩১ মধ্যে।
১৬ রমজান

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
ঘেরাও মুক্ত হলেন বিশ্বভারতীর উপাচার্য 

04:21:49 PM

১৪০ পয়েন্ট উঠল সেনসেক্স 

03:52:18 PM

ধূপগুড়ির বিএমওএইচ-এর বিরুদ্ধে এফআইআর করার অভিযোগে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হল স্বাস্থ্য দপ্তরের এক চুক্তিভিত্তিক কর্মীকে 

03:03:00 PM

জম্মু ও কাশ্মীরের পুঞ্চে আইইডি বিস্ফোরণ, শহিদ ১ জওয়ান, জখম ৭ 

01:31:14 PM

২১ ঘণ্টা ধরে অবরুদ্ধ বিশ্বভারতীর উপাচার্য এবং অধ্যাপকরা 
ফি বৃদ্ধির প্রতিবাদে ছাত্র আন্দোলনে জেরে ২১ ঘণ্টা ধরে অবরুদ্ধ ...বিশদ

01:27:28 PM

বর্ধমানের শাঁখারিপুকুর এলাকায় গাড়ি-লরির মুখোমুখি সংঘর্ষ, মৃত ২ 

01:23:08 PM