Bartaman Patrika
রাজ্য
 

মমতার পরবর্তী নির্দেশের অপেক্ষায় স্বাস্থ্যভবন
‘আয়ুষ্মান ভারত’ থেকে বেরিয়ে আসায় ‘স্বাস্থ্যসাথী’
প্রকল্পের কোনও সমস্যাই হবে না, দাবি কর্তাদের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: রাজনৈতিক উদ্দেশ্য চরিতার্থ করার অভিযোগ তুলে ‘আয়ুষ্মান ভারত’ প্রকল্প থেকে বেরিয়ে আসার পর রাজ্য তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যয়ের স্বপ্নের প্রকল্প ‘স্বাস্থ্যসাথী’ স্বয়ংসম্পূর্ণভাবে রূপায়ণে কোন সমস্যা হবে না। এমনই দাবি স্বাস্থ্য দপ্তরের কর্তাদের। শুক্রবার তাঁরা জানালেন, গণবিমা প্রকল্প রূপায়ণের অভিজ্ঞতার দিক থেকে ‘স্বাস্থ্যসাথী’র থেকে নেহাতই শিশু ‘আয়ুষ্মান ভারত’। ‘স্বাস্থ্যসাথী’ ২০১৭ সালের প্রকল্প। পরিকল্পনা, খরচ, রূপায়ণ সবটাই রাজ্যের। সেদিক থেকে ‘আয়ুষ্মান ভারত’ অন্তত দেড় বছর পরের প্রকল্প— ২০১৮ সালের সেপ্টেম্বর মাসের। কাছাকাছি ওই সময়েই রাজ্য আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্পের মউ স্বাক্ষর করে। আনুষ্ঠানিকভাবে প্রকল্পটির নাম হয় ‘আয়ুষ্মান ভারত-স্বাস্থ্যসাথী’। যদিও রা঩জ্যের নাম ‘স্বাস্থ্যসাথী’ অনুযায়ীই তা চলবে বলে দু’পক্ষই সম্মত হয়েছিল।
যখন এই মউ স্বাক্ষরিত হয়, ততদিনে রাজ্য স্বাস্থ্যসাথীর মতো গণবিমা প্রকল্প রূপায়ণে রেকর্ড করে ফেলেছে। লক্ষ লক্ষ অসংগঠিত ক্ষেত্রে কর্মরত উপভোক্তার পরিবারের জন্য ‘স্বাস্থ্যসাথী’ কার্ড তুলে দিয়েছে মুখ্যমন্ত্রীর স্বাস্থ্য দপ্তর। তাঁদের একটা বড় অংশ প্রকল্পের সমস্ত সুযোগসুবিধাও নিয়মিত পাচ্ছেন। ফলে বৃহস্পতিবারের রাজ্য ‘আয়ুষ্মান ভারত’ প্রকল্পে না থাকার ঘোষণার সঙ্গে এইসব ‘স্বাস্থ্যসাথী’ উপভোক্তার কোনও সম্পর্কই নেই। যেমনভাবে তাঁরা এতদিন রাজ্যের দেওয়া খরচে এই স্বাস্থ্যবিমা প্রকল্পের সুযোগ-সুবিধা পেয়ে আসছিলেন, তেমন ভাবেই পেতে থাকবেন। বর্তমানে ‘স্বাস্থ্যসাথী’র সুবিধাভোগী রাজ্যের ৫২ লক্ষ পরিবার বা প্রায় আড়াই কোটি মানুষ।
দপ্তর সূত্রের খবর, সমস্যাটা হবে অন্যত্র। মাসকয়েক আগে বন্ধ হয়ে গিয়েছে অসংগঠিত ক্ষেত্রের কর্মীদের জন্য কেন্দ্রীয় সরকারের অনেক আগের বিমাপ্রকল্প রাষ্ট্রীয় স্বাস্থ্য বিমা যোজনা বা আরএসবিওয়াই। এখানেও কেন্দ্র-রাজ্য যৌথভাবে স্বাস্থ্যবিমার খরচ মেটাত। রাজ্যে এই উপভোক্তার সংখ্যা বর্তমানে প্রায় ৬০ লাখ পরিবার বা পৌনে তিন কোটি মানুষ।
ঠিক হয়েছিল, আয়ুষ্মান ভারত-স্বাস্থ্যসাথী বা বৃহত্তর অর্থে স্বাস্থ্যসাথী যে নামেই ডাকা হোক না কেন, সেই বিমা প্রকল্প রাজ্যে লাগু হলে তাতেই যুক্ত হবেন এই পৌনে তিন কোটি উপভোক্তাও। আয়ুষ্মান ভারতে মিলেমিশে যাবে আরএসবিওয়াই। শুধু বাংলা নয়, দেশের অন্যান্য রা঩জ্যেও তাই হবে। আর এর খরচ যৌথভাবে রাজ্য-কেন্দ্র বহন করবে। উপভোক্তারাও স্বাস্থ্যসাথীর সমস্ত সুযোগ-সুবিধা পাবেন। মাত্র ৩০ হাজার টাকা বার্ষিক স্বাস্থ্যবিমা থেকে তাঁদের বার্ষিক স্বাস্থ্যখাতে খরচ করার এক্তিয়ার বেড়ে দাঁড়াবে পাঁচ লক্ষ।
এই পৌনে তিন কোটি মানুষের খরচ এখন কে বহন করবে, সেটাই লাখ টাকার প্রশ্ল। সামনে ভোট। কেন্দ্রের সঙ্গে বিভিন্ন ইস্যুতে কার্যত ‘যুদ্ধ’ ঘোষণা করা বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এখন সারা দেশে বিরোধী শক্তির জনপ্রিয়তম মুখগুলির অন্যতম। নিজের রাজনৈতিক দূরদর্শিতা এবং বড় মনের পরিচয় দিয়ে রাজ্যেরই নিজস্ব আর্থিক জোরের ভিত্তিতে ত্রিশঙ্কু অবস্থায় থাকা এইসব মানুষগুলিরও হাত কি তিনি ধরবেন? আর তা করলে সরকারকে কত টাকা বাড়তি গুনতে হবে? বর্তমান পরিস্থিতিতে সেই খরচ বহন করার মতো অবস্থা কতটা আছে রাজ্যের কোষাগারের? সেইসব প্রশ্নের উত্তর পাওয়া বাকি। আর একটি প্রশ্ন হল, মউ হওয়ার পর কেন্দ্র রাজ্যকে আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প রূপায়ণ খাতে যে অর্থ ইতিমধ্যেই বরাদ্দ করেছে, সেই টাকার কী হবে? সরকার কি তা কেন্দ্রকে ফিরিয়ে দেবে?
দপ্তরের শীষকর্তাদের একটাই কথা, এ বিষয়ে পরবর্তী পদক্ষেপ হবে মুখ্যমন্ত্রীর পরামর্শ মেনে। ওঁর পরবর্তী নির্দেশের অপেক্ষায় আছি আমরা। তবে এ নিয়ে কোনও সন্দেহ নেই, স্বাস্থ্যসাথীতে আমরা বরাবরই স্বয়ম্ভর এবং ভবিষ্যতেও তাই হবে।
12th  January, 2019
 বৃষ্টির ব্যাপক ঘাটতি,
খরার মুখে দক্ষিণবঙ্গ
জল সঙ্কট, চাষ হয়নি অর্ধেক জমিতেই

সঞ্জয় গঙ্গোপাধ্যায়, কলকাতা: লাগাতার বৃষ্টিতে উত্তরবঙ্গ যেখানে ভাসছে, সেখানে দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টির ঘাটতিতে প্রায় খরার মতো অবস্থা। গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গের জেলাগুলিতে বৃষ্টিপাতের ঘাটতির পরিমাণ প্রায় ৪৯ শতাংশে দাঁড়িয়েছে। বিশেষ করে হুগলি, উত্তর ২৪ পরগনা, নদীয়া, বর্ধমান প্রভৃতি জেলার অবস্থা ভয়াবহ। হুগলি জেলায় ঘাটতি ৬২ শতাংশে দাঁড়িয়ে গিয়েছে। জুলাই মাসের শেষ সপ্তাহ চলছে, বাংলায় শ্রাবণ মাস পড়ে গিয়েছে, অথচ বৃষ্টির দেখা নেই। প্রখর রোদের তাপে কার্যত খরার মতো অবস্থা। জলস্তর নেমে গিয়ে সেচের জলেও সঙ্কট দেখা দিয়েছে। কিছু জেলায় এমনকী পানীয় জলের অবস্থাও শোচনীয়। কিছুদিনের মধ্যে যদি বৃষ্টি না আসে, তাহলে খরিফ চাষে মারাত্মক ক্ষতি হবে। গত বছর এই সময়ে যে পরিমাণ জমিতে খরিফ চাষ হয়েছিল, এবার এখনও পর্যন্ত তার অর্ধেক জমিতে চাষ হয়েছে।
বিশদ

সাম্প্রদায়িকতার মোকাবিলায় আদৌ আন্তরিক নন মমতা, মত ইয়েচুরির
ইভিএম বিতর্কের ইস্যুতে জাতীয় স্তরে বিরোধীদের
যৌথ মঞ্চে তৃণমূল থাকলেও রাজ্যে না সিপিএমের

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ইভিএম বিতর্কের ইস্যুতে জাতীয় স্তরে বিজেপি বিরোধী দলগুলি সংসদের চলতি অধিবেশনের পর যৌথ আন্দোলনের কর্মসূচির রূপরেখা নিয়ে আলোচনায় বসবে। সেই মঞ্চে আগের মতোই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের তৃণমূল অন্যতম রাজনৈতিক শক্তি হিসেবে থাকলেও সিপিএমের আপত্তি নেই।
বিশদ

  বাংলার শহিদ পরিবাররা দিল্লিতে, বিজেপি এমপিদের সঙ্গে দেখা করে দাবি জানাবেন সিবিআই তদন্তের

 নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি, ২৩ জুলাই: বাংলার বিজেপি এমপিদের সঙ্গে দেখা করে এবার সিবিআই তদন্তের দাবি জানাবেন রাজ্যের ‘শহিদ’ পরিবারের সদস্যরা। আগামীকাল, বুধবার পশ্চিমবঙ্গের রাজনৈতিক হিংসার উপর ‘পিপলস ট্রাইবুনাল’ বা জন আদালত কর্মসূচিতে অংশ নিতে আজ দিল্লিতে এসেছেন রাজ্যের ২৩টি ‘শহিদ’ পরিবারের ৪৮ জন সদস্য।
বিশদ

বিজেপি-তৃণমূল কাউকে সমর্থন নয়, এনিয়ে বিতর্ক বন্ধ হোক, নিদান সূর্যর

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বিজেপি’কে ঠেকাতে তৃণমূল, নাকি তৃণমূলের মোকাবিলায় বিজেপি—সিপিএমের অন্দরে এই বিতর্ক অবিলম্বে বন্ধ করার স্পষ্ট নিদান দিলেন দলের রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র। লোকসভা ভোটের শোচনীয় ফল এবং দলের সংগঠনের করুণ দশার কারণ খতিয়ে দেখতে মঙ্গলবার থেকে দু’দিনের রাজ্য কমিটির বৈঠক শুরু হয়েছে।
বিশদ

প্রাথমিকের সংগঠক শিক্ষকদের চাকরির প্রক্রিয়ায় দেরি কেন, রাজ্যকে নোটিস সুপ্রিম কোর্টের

 নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি, ২৩ জুলাই: প্রাথমিক বিদ্যালয়ে সংগঠক শিক্ষকদের চাকরির নিয়োগ প্রক্রিয়ায় কেন দেরি? জানতে চেয়ে রাজ্যকে নোটিস পাঠাল সুপ্রিম কোর্ট। সুপ্রিম কোর্ট এর আগেই বিষয়টি নিয়ে রাজ্যকে নোটিস পাঠিয়েছিল।
বিশদ

ডিএ মামলার রায় শীঘ্রই,
আশায় সরকারি কর্মীরা

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: রাজ্য সরকারের কর্মীরা কেন্দ্রীয় সরকারি কর্মীদের হারে বেতন পাবেন কি না, এই বিতর্ক প্রায় দু’বছর ধরে অমীমাংসিত রয়েছে। হাইকোর্টে দু’দফায় এবং পরবর্তীকালে স্টেট অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ ট্রাইব্যুনালে (স্যাট) এর শুনানি হয়। হাইকোর্টের সর্বশেষ রায় অনুযায়ী, এই বিষয়টির চূড়ান্ত ফয়সালা করবে স্যাট।
বিশদ

প্রেস ক্লাবের অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের
জন্য একগুচ্ছ ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সমাজের সব জায়গাতেই কিছু খারাপ মানুষ থাকে। তবে তাদের সংখ্যা বড় জোর ০.১ শতাংশ। বুধবার কলকাতা প্রেস ক্লাবের ৭৫ বছর পূর্তি উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এই মন্তব্য করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর মতে, এটা নিয়ে কখনই রাজনীতি করা উচিত নয়।
বিশদ

পঞ্চায়েতের ১৪টি পদেই
ভাতা বাড়ালেন মুখ্যমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বিধায়ক-মন্ত্রীদের মতো ত্রিস্তর পঞ্চায়েতের ১৪টি পদেই সাম্মানিক ভাতা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সোমবার নবান্নে দলের জেলা পরিষদ সদস্যদের সঙ্গে বৈঠকে ওই ভাতা বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, পঞ্চায়েত স্তরে যাঁরা কাজ করেন, তাঁদের সারাক্ষণই কাজ করতে হয়।
বিশদ

23rd  July, 2019
  গরিবের বাড়ি: আজ ভিডিও কনফারেন্সে রিপোর্ট নেবেন কেন্দ্রের গ্রামোন্নয়ন সচিব

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: প্রধানমন্ত্রী গ্রামীণ আবাস যোজনায় গত আর্থিক বছরে প্রথম স্থানে ছিল পশ্চিমবঙ্গ। গত আর্থিক বছরে ৫ লক্ষ ৮৬ হাজার বাড়ি তৈরি করেছে রাজ্য। বর্তমান আর্থিক বছরে বাড়ি তৈরির লক্ষ্যমাত্রা হল ৮ লক্ষ ৩০ হাজার।
বিশদ

23rd  July, 2019
নিউটাউনে জ্যোতি বসুর নামাঙ্কিত ভবনের
জন্য সেই জমিতেই সায় মমতা মন্ত্রিসভার

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: দীর্ঘ টানাপোড়েনের পর অবশেষে নিউটাউনে প্রয়াত জ্যোতি বসুর নামাঙ্কিত প্রস্তাবিত রিসার্চ সেন্টার তৈরির জন্য সিপিএম নেতৃত্বকে বাম জমানায় নির্ধারিত জমিটিই দিচ্ছে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। এব্যাপারে হিডকোর বোর্ড মিটিংয়ের পুনর্বিবেচিত সিদ্ধান্তে সোমবার সিলমোহর দিয়েছে রাজ্য মন্ত্রিসভা।
বিশদ

23rd  July, 2019
  এসএসসি দপ্তরে বাম ছাত্র যুবর বিক্ষোভ, ধস্তাধস্তি

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: স্কুল সার্ভিস কমিশনের মাধ্যমে শিক্ষক নিয়োগে বেনিয়ম হয়েছে বলে ক্যাগ রিপোর্ট দিয়েছে। এমনই দাবি করে সেই রিপোর্টকে হাতিয়ার করে সল্টলেকে এসএসসির দপ্তরে বিক্ষোভ দেখালেন এসএফআই ও ডিওয়াইএফআই সমর্থকরা। বিশদ

23rd  July, 2019
  এসএসসি পরীক্ষায় দুর্নীতির
অভিযোগ বাম আমলের: পার্থ

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: স্কুল সার্ভিস কমিশনের পরীক্ষায় দুর্নীতির অভিযোগ তুলে ধরা সিএজির রিপোর্ট নিয়ে জোর চর্চা চলছে। কিন্তু এই দুর্নীতি যে বাম আমলে হয়েছে, তা বোঝানোর মরিয়া চেষ্টা চালাচ্ছে সরকার। শনিবার এই সংক্রান্ত খবর প্রকাশিত হওয়ার পরে শোরগোল পড়ে যায়।
বিশদ

23rd  July, 2019
মানলেন মান্নানও
একুশের সমাবেশে ভালো
ভিড় হওয়ায় স্বস্তি তৃণমূলে

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: শহিদ দিবসের সমাবেশে তাঁদের হিসেব উল্টে দিয়েছে দলের কর্মী-সমর্থকরা। আর তাতেই স্বস্তি তৃণমূল নেতৃত্বের। ছুটির দিন উত্তরবঙ্গের একাংশে বন্যা, সর্বোপরি লোকসভা নির্বাচনে ধাক্কা, এই তিনের ফেরে জনসমাগম নিয়ে যে আশঙ্কা তৈরি হয়েছিল, তাকে ভুল প্রমাণ করেছে এবারের ধর্মতলার সমাবেশ।
বিশদ

23rd  July, 2019
দলীয় এমপিদের সামনে রাজ্যের পরিস্থিতি
ব্যাখ্যা করবেন বাংলার ৮ বিজেপি সাংসদ
২৪-২৫ জুলাই সংসদ চত্বরে বিশেষ আলোচনাসভা

 দিব্যেন্দু বিশ্বাস, নয়াদিল্লি, ২২ জুলাই: লক্ষ্য ২০২১ সালে পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচন। তাই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির নির্দেশমতো বিজেপি এমপিদের সামনে রাজ্যের রাজনৈতিক পরিস্থিতি, আইনশৃঙ্খলা অবস্থা তুলে ধরবেন বঙ্গ বিজেপির সাংসদরা।
বিশদ

23rd  July, 2019

Pages: 12345

একনজরে
সংবাদদাতা, কুমারগ্রাম: ভারী বর্ষণের কারণে আলিপুরদুয়ার পুরসভার ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সূর্যনগরের ম্যাকউইলিয়াম আর আর প্রাইমারি ইংরেজি মাধ্যম স্কুল জলমগ্ন হয়ে আছে। ক্লাস রুমের ভেতরেও হাঁটু ...

বিএনএ, সাঁততোড়িয়া(দিসেরগড়): ইসিএলের বর্তমান ও প্রাক্তন কর্মী এবং কয়লা খনি এলাকার মানুষের সামনে নিজেদের স্বাস্থ্য পরিষেবা সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য হাতের মুঠোয় এনে দিতে ইসিএল কর্তৃপক্ষ প্রস্তুত করেছে একটি বিশেষ অ্যাপ।  ...

 ওয়াশিংটন, ২৩ জুলাই: প্রাক্তন আল-কায়েদা প্রধান ওসামা বিন লাদেনকে খতম করা নিয়ে নতুন দাবি করলেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। লাদেন যে পাকিস্তানে ছিল, তার খতমের ...

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ঝড়ের আভাস দেবে, এমন যন্ত্র বসবে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের হরিণঘাটা ক্যাম্পাসে। যার নাম ‘এসটি রেডার’। তবে এই যন্ত্র বসানো এবং এর সঙ্গে যুক্ত প্রকল্পটি নিয়ে নানা প্রশ্ন তুলেছে বিশ্ববিদ্যালয়ের একাংশ। ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

ব্যয় বৃদ্ধি পাবে। কর্মক্ষেত্রে কোনও বিরূপ অবস্থার সৃষ্টি হতে পারে। বিদ্যার্থীর শুভ ফল লাভ হবে। ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮০২- ফরাসি লেখক আলেকজান্দার দুমার জন্ম
১৮৭০- সাহিত্যিক কালীপ্রসন্ন সিংহের মৃত্যু
১৮৮৪- ‘হিন্দু পেট্রিয়টে’-র সম্পাদক কৃষ্ণদাস পালের মৃত্যু
১৮৯৮- সাহিত্যিক তারাশংকর বন্দ্যোপাধ্যায়ের জন্ম
১৯৩৭- অভিনেতা মনোজ কুমারের জন্ম
১৯৪৫- উইপ্রোর কর্ণধার আজিম প্রেমজির জন্ম
১৯৬৯- আমেরিকান অভিনেত্রী ও সঙ্গীতশিল্পী জেনিফার লোপেজের জন্ম
১৯৮০- মহানায়ক উত্তম কুমারের মৃত্যু
২০০৩- অভিনেতা শমিত ভঞ্জের মৃত্যু

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৮.২০ টাকা ৬৯.৮৯ টাকা
পাউন্ড ৮৪.৪০ টাকা ৮৭.৫৪ টাকা
ইউরো ৭৫.৮৭ টাকা ৭৮.৮০ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৫,৪২৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩৩,৬১০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩৪,১১৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪১,১৫০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৪১,২৫০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৭ শ্রাবণ ১৪২৬, ২৪ জুলাই ২০১৯, বুধবার, সপ্তমী ৩২/২৩ অপঃ ৬/৫। রেবতী ২৬/২৪ দিবা ৩/৪২। সূ উ ৫/৮/৯, অ ৬/১৭/৫৩, অমৃতযোগ দিবা ৬/৫৩ মধ্যে পুনঃ ৯/৩১ গতে ১১/১৭ মধ্যে পুনঃ ৩/৪০ গতে ৫/২৬ মধ্যে। রাত্রি ৭/১ গতে ৯/১১ মধ্যে পুনঃ ১/৩১ গতে উদয়াবধি, বারবেলা ৮/২৫ গতে ১০/৪ মধ্যে পুনঃ ১১/৪৩ গতে ১/২২ মধ্যে, কালরাত্রি ২/২৬ গতে ৩/৪৭ মধ্যে।
৭ শ্রাবণ ১৪২৬, ২৪ জুলাই ২০১৯, বুধবার, সপ্তমী ২২/২১/১৭ দিবা ২/২/৫৯। রেবতীনক্ষত্র ১৯/৪২/৮ দিবা ১২/৫৯/১৯, সূ উ ৫/৬/২৮, অ ৬/২১/১৮, অমৃতযোগ দিবা ৬/৫৭ মধ্যে ও ৯/৩২ গতে ১১/১৬ মধ্যে ও ৩/৩৫ গতে ৫/১৯ মধ্যে এবং রাত্রি ৬/৫৫ গতে ৯/৭ মধ্যে ও ১/৩২ গতে ৫/৭ মধ্যে, বারবেলা ১১/৪৩/৫৩ গতে ১/২৩/১৪ মধ্যে, কালবেলা ৮/২৫/১০ গতে ১০/৪/৩২ মধ্যে, কালরাত্রি ১/২৫/১০ গতে ৩/৪৫/৪৯ মধ্যে।
 ২০ জেল্কদ

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
ইতিহাসে আজকের দিনে
১৮০২- ফরাসি লেখক আলেকজান্দার দুমার জন্ম১৮৭০- সাহিত্যিক কালীপ্রসন্ন সিংহের মৃত্যু১৮৮৪- ...বিশদ

07:50:00 AM

আজকের রাশিফল
মেষ: সম্পত্তি নিয়ে মামলা-মোকদ্দমার সম্ভাবনা আছে। বৃষ: কর্মক্ষেত্রে স্থিতাবস্থা বজায় ...বিশদ

07:45:00 AM

কর্ণাটক: আস্থা ভোটে হার কংগ্রেস-জেডি(এস) জোটের 

23-07-2019 - 07:47:35 PM

কর্ণাটক বিধানসভায় আস্থাভোট শুরু হল 

23-07-2019 - 07:22:00 PM

রাজাবাজারে গুলি চালানোর ঘটনায় ধৃত ২ 

23-07-2019 - 06:24:00 PM

আজ ও কাল বেঙ্গালুরু শহরে জারি ১৪৪ ধারা, বন্ধ সব পানশালা 

23-07-2019 - 06:04:22 PM