রাজ্য
 
 

 ভ্যালেন্টাইন ডে-তে বর্ধমানের কৃষ্ণসায়র পার্কে ঢোকার মুখে চলছে গোলাপ কেনাকাটা। নিজস্ব চিত্র

বিজেপির রথযাত্রা স্থগিত হাইকোর্টে
আজ ফের শুনানি

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: শুরুর মুখেই হাইকোর্টে জোর ধাক্কা খেল বিজেপি। আজ শুক্রবারই কোচবিহার থেকে বহুচর্চিত রথযাত্রার সূচনা হওয়ার কথা ছিল। দলের সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহই তা উদ্বোধন করবেন, এমনটাও ঠিক ছিল। কিন্তু মাত্র একদিন আগে, বৃহস্পতিবার হাইকোর্ট তাদের সেই রথযাত্রায় অনুমতি দিল না। মূলত নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখেই আদালত রথযাত্রা আপাতত স্থগিত রাখতে বলেছে। একইসঙ্গে কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি তপোব্রত চক্রবর্তীর বক্তব্য, এই উদ্যোগ পিছিয়ে দিতে হবে। ৯ জানুয়ারি মামলার পরবর্তী শুনানি। অন্যদিকে, এই অন্তর্বর্তী নির্দেশ জারি হতেই চরম বেকায়দায় পড়ে যায় বিজেপি। সঙ্গে সঙ্গে মামলাকারীদের তরফে প্রধান বিচারপতির হস্তক্ষেপ চাওয়া হয়। কিন্তু তিনি আজ, শুক্রবার বিষয়টি শুনবেন বলে জানিয়েছেন। ফলে বৃহস্পতিবার সবার নজর যেভাবে দিনভর পড়েছিল হাইকোর্টের রায়ের দিকে, আজও তেমনটাই হবে বলে মনে করা হচ্ছে।
যে কোচবিহার থেকে ওই যাত্রা শুরু হওয়ার কথা ছিল, এদিন সেখানকার জেলাশাসক ও পুলিস সুপারের রিপোর্ট আদালতে পেশ করা হয়। একইসঙ্গে রাজ্য গোয়েন্দা দপ্তরের আলাদা একটি রিপোর্ট মুখবন্ধ খামে বিচারপতিকে দেওয়া হয়। প্রথম দুই রিপোর্টের বক্তব্য অনুযায়ী, রথযাত্রা হলে ‘সাম্প্রদায়িক বিশৃঙ্খলা’ দেখা দিতে পারে। কেন এমন পরিস্থিতি হতে পারে, তার উত্তর আছে ওই মুখবন্ধ খামে। যা মামলাকারীদেরও দেখতে দেওয়া হয়নি। যে কারণে মামলাকারীদের তরফে অন্যতম আইনজীবী সপ্তাংশু বসু দাবি করেন, অন্তত কোন তারিখে ওই গোয়েন্দা রিপোর্ট তৈরি হয়েছে, তা জানানো হোক। তিনি দাবি করেন, এটি স্রেফ ঘরে বসে বানানো। কারণ, কয়েকদিন আগে ওই কোচবিহারেই সিপিএম তাদের সর্বভারতীয় নেতাদের এনে রাজনৈতিক সমাবেশ করেছে। তারপরে তৃণমূল কংগ্রেসও বিশাল জনসভা করেছে। তখন কোনও সমস্যা না হলে কেন বিজেপির জনসমাবেশকে কেন্দ্র করে এমন প্রশ্ন তোলা হচ্ছে?
রাজ্য সরকারের তরফে অ্যাডভোকেট জেনারেল কিশোর দত্ত আদালতকে জানান, শুধু কোচবিহার থেকেই রিপোর্টটি এসেছে। রাজ্যে মোট জেলার সংখ্যা ২৪টি। ৪০টি লোকসভা আসনের মিশ্র জনজাতি এলাকা দিয়ে রথযাত্রা হওয়ার কথা। ফলে প্রাসঙ্গিক সিদ্ধান্ত নিতে সময় লাগবেই।
শুনানির শুরুতে এদিন বিচারপতি বলেন, রথযাত্রার জন্য অনুমতি চাওয়া হয়েছিল ২৯ অক্টোবর। তারপর অন্তত চার বার উদ্যোক্তারা প্রশাসনকে স্মারকলিপি দিয়েছে। তাঁর প্রশ্ন, এতদিন কেন প্রশাসন কোনও সিদ্ধান্ত নিল না? কোথায় আটকাচ্ছিল? সরকারি অফিসাররাই কি এই পরিস্থিতি তৈরি করেননি? জবাবে বলা হয়, গোয়েন্দা রিপোর্টের জন্যই অপেক্ষা করা হচ্ছিল। কারণ, কোনও অনভিপ্রেত ঘটনা ঘটলে কে তার দায়িত্ব নেবে? পুলিসের তরফে আইনজীবী আনন্দ গ্রোভার দাবি করেন, গোয়েন্দা রিপোর্ট অনুযায়ী সাম্প্রদায়িক বিশৃঙ্খলা হওয়ার যে সম্ভাবনার কথা বলা হয়েছে, তা ভুল বলে মামলাকারীদের তরফে দাবি করা হয়নি। এমনকী এই উদ্যোক্তাদের তরফেই আয়োজিত রামনবমীর সমাবেশ থেকেও অশান্তি হয়েছিল বলে তিনি আদালতে দাবি করেন।
বিজেপির তরফে আইনজীবী অনিন্দ্য মিত্র শুনানির শেষ পর্বে বলেন, ভারতীয় সংবিধান তৈরি হওয়ার আগে ১৮৬১ সালের পুলিস আইন অনুযায়ী অনুমতি দেওয়ার প্রার্থনা খারিজ করার আগে আবেদনকারীকে ‘শো-কজ’ বা কারণ দর্শানোর নোটিস দিতে হয়। তা না করে সিদ্ধান্ত নিলে তা বাতিল হওয়া উচিত। তিনি জানান, মিছিল-সমাবেশ করার জন্য বারংবার আবেদনকারীকে আদালতের দ্বারস্থ হতে হচ্ছে। অথচ, এটি প্রতিটি রাজনৈতিক দলের গণতান্ত্রিক অধিকার। এই প্রশাসন তা মানতে চাইছে না।
এই প্রেক্ষাপটে আদালত বলেছে, র‌্যালির জন্য কেউ মারা গেলে, সম্পত্তি নষ্ট হলে দলটির রাজনৈতিক নেতারা কি তার দায়িত্ব নেবেন? প্রায় ৫১ দিন ধরে যে র‌্যালি চলবে, তার সিদ্ধান্ত আরও অনেক আগে নেওয়া যেতে পারত। আজ যদি র‌্যালির অনুমতি দেওয়া হয়, তাহলে অল্প সময়ের মধ্যে যাবতীয় পুলিসি নিরাপত্তা ব্যবস্থার আয়োজন করা কীভাবে সম্ভব! এই অভিমত দিয়ে আদালত জানিয়েছে, সব জেলা থেকে উদ্যোক্তাদের সঙ্গে আলোচনা সাপেক্ষে এই প্রসঙ্গে প্রশাসনিক সিদ্ধান্ত নিতে হবে ২১ ডিসেম্বরের মধ্যে। মামলাকারী তার জবাব দিলে ৯ জানুয়ারি হবে মামলার পরবর্তী শুনানি।
07th  December, 2018
কারা ছড়াল প্রশ্ন, নাগাল পায়নি পুলিস,
সর্ষের মধ্যেই ভূত দেখছে শিক্ষকমহল

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: পরপর দু’দিন মাধ্যমিক পরীক্ষা শুরু হতেই হোয়াটসঅ্যাপে বেরিয়ে গেল প্রশ্নপত্র। তারপর ৭২ ঘণ্টা পেরিয়ে গেলেও এখনও তথ্যপ্রমাণ হাতড়ে বেড়াচ্ছে পুলিস। শোনা গিয়েছে, মালদহ সহ কয়েকটি জেলা থেকে নাকি প্রশ্ন বের হয়েছে।
বিশদ

রাহুল গান্ধী তৃণমূলের সঙ্গে ঐক্যের
কথা বললেও উল্টো সুর সোমেনের

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: দিল্লিতে দোস্তির হাত বাড়ালেও রাজ্যে বিজেপির পাশাপাশি তৃণমূলের সঙ্গে লড়াই জারি রাখবে কংগ্রেস। যে রাহুল গান্ধী আগের দিন দিল্লিতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে বসে বিরোধী ঐক্যের ডাক দিলেন, তাঁর দলেরই বাংলা শাখার উল্টো সুর ফের শোনা গেল বৃহস্পতিবার।
বিশদ

বিক্ষুব্ধদের টানতে পশ্চিমবঙ্গে  তৃণমূল, সিপিএম ও কংগ্রেসের পরই প্রার্থীতালিকা ঘোষণার কৌশল নিচ্ছে বিজেপি

 নিজস্ব প্রতিনিধি, নয়াদিল্লি, ১৪ ফেব্রুয়ারি: রাজ্যের শাসক দল তৃণমূল কংগ্রেস এবং দুই বিরোধী সিপিএম ও কংগ্রেসের বিক্ষুব্ধ নেতাদের দলে টানতে মরিয়া হয়েছে বিজেপি। আসন্ন লোকসভা নির্বাচনে পশ্চিমবঙ্গে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের বিক্ষুব্ধদের দলের কাজে ব্যবহার করতে নির্বাচনী কৌশল নিচ্ছে গেরুয়া শিবির।
বিশদ

  আলুর ন্যায্য মূল্যের দাবিতে ১৯-২০ ফেব্রুয়ারি আরামবাগ থেকে সিঙ্গুর পদযাত্রায় বিজেপি

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: আগামী মরশুমে আলুর অভাবী বিক্রি রুখতে এবং চাষিদের আলুর ন্যায্য মূল্য পাওয়া নিশ্চিত করতে আরামবাগ থেকে সিঙ্গুর পর্যন্ত পদযাত্রার ডাক দিল বিজেপি। আগামী ১৯ এবং ২০ ফেব্রুয়ারি আলুর অন্যতম উৎপাদক হিসেবে হুগলি জেলাজুড়ে এই কর্মসূচির আয়োজন করেছে দলের কিষাণ মোর্চা।
বিশদ

বাংলায় কংগ্রেসের সঙ্গে আসন ভাগাভাগি করতে আগ্রহী আলিমুদ্দিন
ভোটের আগে কোনও মহাজোট সম্ভব নয়,
মমতার আহ্বান নস্যাৎ করে বলল সিপিএম

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: জাতীয় রাজনীতিতে নিজেদের প্রাসঙ্গিকতা টিকিয়ে রাখতে বুধবার দিল্লিতে অরবিন্দ কেজরিওয়ালের ডাকা বিজেপি বিরোধী সমাবেশের মঞ্চ কার্যত ছুঁয়ে এসেছিল বামেরা। মঞ্চে তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যাওয়ার আগেই সীতারাম ইয়েচুরি এবং ডি রাজা তাঁদের ভাষণপর্ব শেষ করে সভা ছেড়ে চলে যান।
বিশদ

নির্দেশ অমান্য, পুলিস কর্তার কাছে
গরহাজিরার ব্যাখ্যা চাইল আদালত

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: আদালতের নির্দেশ ‘ইচ্ছাকৃতভাবে’ অমান্য করার অভিযোগে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি হয়েছিল ময়নাগুড়ির আইসি’র বিরুদ্ধে। আইনশৃঙ্খলা রক্ষার দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে হাজিরা দেওয়া যায়নি। এমন যুক্তি পেশ করে, নিঃশর্ত ক্ষমা চাইলেও অভিযোগ থেকে রেহাই পেলেন না সেই পুলিসকর্তা।
বিশদ

পকসো মামলা থেকে ২ কিশোরকে রেহাই
অভিযুক্ত ১ কিশোরের বিরুদ্ধে চার্জ গঠনের দিন ধার্য বোর্ডের

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: পাঁচ বছরের এক শিশুকন্যার উপর যৌন নির্যাতন চালানোর অভিযোগ উঠেছিল তিন কিশোরের বিরুদ্ধে। পুলিস সেই মর্মে চার্জশিটও পেশ করে। কিন্তু দীর্ঘ আইনি সওয়ালের পর কলকাতা জুভেনাইল জাস্টিস বোর্ড এই গুরুতর অভিযোগ থেকে দুই কিশোরকে অব্যাহতি দিল।
বিশদ

একই ব্যক্তি একাধিক চিটফান্ড সংস্থার
এজেন্ট কেন, খোঁজ নিচ্ছে সিবিআই

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: একই ব্যক্তি একাধিক চিটফান্ড সংস্থার এজেন্ট হলেন কী করে, তা নিয়ে এবার তদন্ত শুরু করেছে সিবিআই। এর মধ্যেই টাকা পাচারের অনেক রহস্য লুকিয়ে রয়েছে বলে মনে করছেন তদন্তকারী অফিসাররা। পাশাপাশি তাঁদের নিয়োগ করার ক্ষেত্রে প্রভাবশালীদের কী ভূমিকা ছিল, তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।
বিশদ

চিটফান্ড ইস্যুতে ভুক্তভোগীদের বিক্ষোভ
ইডি দপ্তরে, ২ মার্চ জনশুনানির উদ্যোগও

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বৃহস্পতিবার আমানতকারী ও এজেন্ট সুরক্ষা মঞ্চ সল্টলেকে সিজিও কমপ্লেক্সের সামনে বিক্ষোভ অবস্থান করে। অন্যদিকে, চিটফান্ড সাফারার্স ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশন সাংবাদিক বৈঠক করে তাদের জনশুনানির কর্মসূচির কথা ঘোষণা করেছে।
বিশদ

কোর্টে জেল সুপার ক্ষমা চাইলেন

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: কোর্টের আদেশ অমান্য করায় চলতি সপ্তাহে শো কজ করা হয়েছিল প্রেসিডেন্সি জেলের সুপারকে। তার পরিপ্রেক্ষিতে বৃহস্পতিবার জেল সুপার কলকাতা নগর দায়রা আদালতের মুখ্য বিচারক সিদ্ধার্থ কাঞ্জিলালের এজলাসে হাজির হয়ে ক্ষমা প্রার্থনা করেন।
বিশদ

শিক্ষক নিয়োগে ফের গুরুতর
অনিয়মে রিপোর্ট তলব কোর্টের

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: শিক্ষক নিয়োগে ফের গুরুতর অনিয়মের অভিযোগ স্কুল সার্ভিস কমিশনের বিরুদ্ধে। পছন্দমাফিক প্রার্থী বেছে নিয়োগ করার অভিযোগ সূত্রে বৃহস্পতিবার কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপত মৌসুমি ভট্টাচার্য ৫ মার্চ কমিশনকে বিস্তারিত রিপোর্ট পেশ করার নির্দেশ দিলেন।
বিশদ

পর্যটনে দক্ষ কর্মী জোগাতে রাজ্য
উত্তরবঙ্গে ইনস্টিটিউট গড়তে চায়

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: আতিথেয়তা ব্যবসা বা হসপিটালিটি সেক্টরে বিশেষ গুরুত্ব দিতে তৈরি রাজ্য সরকার। তার জন্য প্রয়োজন দক্ষ ও প্রশিক্ষিত কর্মী। তেমন কর্মীর সংখ্যা বাড়াতে রাজ্য সরকার আরও একটি প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলতে আগ্রহী। বৃহস্পতিবার কলকাতায় আইসিসি আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে একথা জানিয়েছেন পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব।
বিশদ

শিক্ষকতার চাকরি বাঁচাতে শেষ
সুযোগ পাচ্ছেন প্রশিক্ষণবিহীনরা

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: প্রশিক্ষণ শেষ করতে না পারা প্রাথমিক শিক্ষক এবং পার্শ্বশিক্ষকরা চাকরি বাঁচানোর শেষ সুযোগ পাচ্ছেন। ওডিএল (ওপেন অ্যান্ড ডিস্ট্যান্স লার্নিং) পদ্ধতিতে দু’বছরের ডিএলএড কোর্সের বিশেষ পরীক্ষার ব্যবস্থা করছে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ।
বিশদ

মোদির আয়ুষ্মান ভারতকে টক্কর দিয়ে আরও
৮৫ লক্ষ পরিবার মমতার স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পে

 বিশ্বজিৎ দাস, কলকাতা: ‘আমার সঙ্গে পাঙ্গা নিলে আমি আরও চাঙ্গা হই’। ক’দিন আগেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সরকারের সঙ্গে খোলাখুলি যুদ্ধ ঘোষণা করে একথা বলেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই ‘পাঙ্গা’র সূত্রপাত হল মোদির ‘আয়ুষ্মান ভারত’ বনাম মমতার ‘স্বাস্থ্যসাথী’র লড়াই দিয়ে।
বিশদ

Pages: 12345

একনজরে
 টরন্টো, ১৪ ফেব্রুয়ারি (এপি): বুধবার সকালে আর পাঁচটা দিনের মতোই ব্যস্ততা বাড়ছিল টরন্টোর রাস্তায়। যানবাহন ও পথচলতি মানুষের কোলাহলে জেগে উঠছিল শহর। হঠাৎই একটি বহুতলের ...

  বিএনএ, আরামবাগ: পুরশুড়ার প্রত্যন্ত এলাকা থেকে জাতীয় ক্রীড়া ময়দান কাঁপাল দুই বোন। ঘরের মেয়েরা গুজরাত ও হরিয়ানায় জাতীয় স্তরের আসরে সফল হওয়ায় গর্বে বুক ফুলেছে বাবা, মা সহ এলাকাবাসীর। এতদিন স্কুল থেকে জেলা, রাজ্যস্তরের পর্যায়ে তারা একই সঙ্গে খেলে ...

মুম্বই, ১৪ ফেব্রুয়ারি (পিটিআই): ৮৬ তম জন্মদিনে প্রয়াত অভিনেত্রী মধুবালাকে শ্রদ্ধা জানাল গুগল। সার্চ ইঞ্জিনে ব্যবহার হল বেঙ্গালুরুর শিল্পী মহম্মদ সাজিদের তৈরি ডুডল। ১৯৩৩ সালে ...

বিএনএ, চুঁচুড়া: রাস্তাঘাট, পথবাতি, নর্দমা সহ উন্নয়নের কাজ করে শহরগুলিকে ঝাঁ চকচকে করে তোলার চলছে জোর কদমে। তবে শহরের বিভিন্ন জায়গায় ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা ঘিঞ্জি ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছিল। গৃহহীন মানুষগুলিকে সরিয়েও দেওয়া সম্ভব হচ্ছিল না। তাই শহর ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

গুরুজনের চিকিৎসায় বহু ব্যয়। ক্রোধ দমন করা উচিত। নানাভাবে অর্থ পাওয়ার সুযোগ। সহকর্মীদের সঙ্গে ঝগড়ায় ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৫৬৪: জ্যোতির্বিদ গ্যালিলিও গ্যালিলির জন্ম
১৮৬৯: মির্জা গালিবের মৃত্যু
১৮৯৮: কিউবা উপকূলে মার্কিন রণতরী ডুবে গিয়ে মৃত ২৭৪। স্পেনের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করল আমেরিকা
১৯২১: ঐতিহাসিক রাধাকৃষ্ণ চৌধুরির জন্ম
১৯৩৩: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ফ্রাঙ্কলিন ডি রুজভেল্টকে হত্যার ব্যর্থ চেষ্টা। নিহত শিকাগোর মেয়র
১৯৪২: দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে সিঙ্গাপুরের পতন। জাপানের কাছে আত্মসমর্পণ করলেন ব্রিটিশ জেনারেল।
১৯৪৭: রণধীর কাপুরের জন্ম
১৯৫৬: ওয়েস্ট ইন্ডিজের ক্রিকেটার ডেসমন্ড হেইনসের জন্ম
১৯৬৪: আশুতোষ গোয়ারিকরের জন্ম

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৯.৮০ টাকা ৭১.৪৯ টাকা
পাউন্ড ৮৯.৩৪ টাকা ৯২.৫৮ টাকা
ইউরো ৭৮.৫৩ টাকা ৮১.৫০ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
14th  February, 2019
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩৩,৪০৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩১,৬৯৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩২,১৭০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৯,৭০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৯,৮০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

২ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, শুক্রবার, দশমী ১৭/৪৫ দিবা ১/১৯। মৃগশিরা ৩৬/৩৯ রাত্রি ৮/৫২। সূ উ ৬/১২/৪৫, অ ৫/২৯/১, অমৃতযোগ দিবা ৭/৪৩ মধ্যে পুনঃ ৮/২৮ গতে ১০/৪৩ মধ্যে পুনঃ ১২/৫৮ গতে ২/২৭ মধ্যে পুনঃ ৩/৫৭ গতে অস্তাবধি। বারবেলা ৯/১১ গতে ১১/৫১ মধ্যে, কালরাত্রি ৮/৩৯ গতে ১০/১৫ মধ্যে।
২ ফাল্গুন ১৪২৫, ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, শুক্রবার, দশমী ৮/২২/২০। মৃগশিরানক্ষত্র অপঃ ৪/৪৪/৫, সূ উ ৬/১৪/১৩, অ ৫/২৭/১১, অমৃতযোগ দিবা ৭/৪৩/৫৭ মধ্যে ও ৮/২৮/৪৯ থেকে ১০/৪৩/২৪ মধ্যে ও ১২/৫৮/০ থেকে ২/২৭/৪৪ মধ্যে ও ৩/৫৭/২৭ থেকে ৫/২৭/১১ মধ্যে এবং রাত্রি ৭/৯/২৭ থেকে ৮/৫১/৪৪ মধ্যে ও ৩/৪০/৪৯ থেকে ৪/৩১/৫৭ মধ্যে, বারবেলা ৯/২/২৮ থেকে ১০/২৬/৩৫ মধ্যে, কালবেলা ১০/২৬/৩৫ থেকে ১১/৫০/৪২ মধ্যে, কালরাত্রি ৮/৩৮/৫৭ থেকে ১০/১৪/৪৯ মধ্যে।
৯ জমাদিয়স সানি

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
গোপীবল্লভপুরে নদীতে স্নান করতে নেমে তলিয়ে গেল এক কিশোর 

06:37:00 PM

ভুয়ো কোম্পানি খুলে রাজ্যজুড়ে প্রতারণার জাল, ধৃত ৭
গৃহঋণ থেকে চাকরির টোপ দিয়ে রাজ্যের বিভিন্ন অংশে প্রচুর মানুষকে ...বিশদ

04:12:00 PM

৬৭ পয়েন্ট পড়ল সেনসেক্স 

04:11:35 PM

পুলওয়ামায় হামলা: নদীয়া, হাওড়ার শহিদ জওয়ানদের বাড়িতে আসছেন দু’জন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী 

04:03:51 PM

পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলার জেরে উত্তপ্ত জম্মু, পুড়ল ১৫টি গাড়ি 

03:08:00 PM

মাঝেরহাটে সিইএসই অফিসে আগুন, ঘটনাস্থলে দমকলের ৩টি ইঞ্জিন 

03:03:00 PM