Bartaman Patrika
রাজ্য
 
 

মাঠ থেকে কাজ সেরে বাড়ি ফেরা। নদীয়ার শান্তিপুরে তোলা নিজস্বচিত্র

সিপিএম হার্মাদরাই আজ
বিজেপির ওস্তাদ: মমতা
ওদের বাংলা থেকে তাড়াব, আর হার্মাদ জন্মাতে দেব না

দেবাঞ্জন দাস, বাজকুল (পূর্ব মেদিনীপুর): ‘নন্দীগ্রাম, খেজুরি, পটাশপুর, নেতাই, ছোট আঙারিয়ার গণহত্যা আর কসবায় ১৯ জন আনন্দমার্গী খুনের ঘটনায় যুক্ত সিপিএমের হার্মাদরাই এখন বিজেপির ওস্তাদ হয়েছে। আসলে অত্যাচারী সিপিএমের আরেক রূপ হল বিজেপি।’ বুধবার পূর্ব মেদিনীপুরের বাজকুলে সরকারি পরিষেবা প্রদান সভায় এই ভাষাতেই ‘বাম’ আর ‘রাম’ শিবিরকে বিঁধেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
লাল জামা ছেড়ে আসা হার্মাদরাই যে এখন এলাকায় এলাকায় গেরুয়া জামা পরছে, লাখ ছাপানো জনসমাবেশকে সে কথা স্মরণ করিয়ে দিয়ে মমতার অঙ্গীকার, আমাকে আঘাত করলে, আমি কিন্তু প্রত্যাঘাত করি। যেভাবে লাল সন্ত্রাস থেকে বাংলাকে মুক্ত করেছি, একইভাবে রাজনৈতিক মোকাবিলায় বিজেপির ওস্তাদদের তাড়াব। কারণ ওরাই (সিপিএম) গিয়ে বিজেপিতে ঢুকেছে। নতুন করে আর কোনও হার্মাদ জন্মাতে দেব না বাংলায়। একসময় লালপার্টির চোখ রাঙানিতে অভ্যস্ত ভূপতিনগর থানার বাজকুলের সভায় হাজির জনতা সোল্লাসে একাত্ম হয়েছে মমতার অঙ্গীকারে। শুধু অঙ্গীকারই নয়, সিপিএমের সেই সমস্ত লোকজন যে প্রকৃত অর্থেই বিজেপির ওস্তাদ হয়ে উঠেছে, জনতার কাছে তার উদাহরণও রেখেছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী। তাঁর প্রশ্ন ছিল, নন্দীগ্রামের সূর্যোদয় সহ সব খুনের নেতা কে? আপনারা সবাই জানেন। নামটা মুখে আনছি না। বলুন তো রামের ভাইয়ের নাম কী? সমস্বরে জনতার জবাব, লক্ষ্মণ, এখানকার লক্ষ্মণ শেঠ। রাজনৈতিক মহলের চর্চা, ইদানীং বিজেপির সঙ্গে অনেকটা দূরত্ব তৈরি করে পূর্ব মেদিনীপুরের প্রাক্তন হার্মাদ প্রধানরা তৃণমূলের প্রতি বেশি মাত্রায় অনুরাগ দেখাতে শুরু করেছেন। তা নিয়ে জল্পনাও শুরু হয়েছে জোড়াফুল শিবিরে। সেই সমস্ত জল্পনায় জল ঢেলে মমতার স্পষ্ট বার্তা— এই সমস্ত লোকজনের তৃণমূলে কোনও জায়গা নেই। এদের কাছে জিজ্ঞাসা করুন, কেলেঘাই-কপালেশ্বরীর জলে যখন সব ভেসে যেত, তখন কোথায় ছিলেন? বন্যা প্রতিরোধের সেই প্রকল্প আমরা করেছি। একটা বিশ্ববিদ্যালয়ও ছিল না। আমরা করছি গান্ধীজির নামে। এখন এসে ঘুরঘুর করছ?
নন্দীগ্রাম পর্বে তৃণমূল সুপ্রিমো হিসেবে যতবার এসেছিলেন এই জেলায়, ততবারই সিপিএমের হার্মাদবাহিনীর হুমকি, শাসানি আর অস্ত্রের প্রদর্শন প্রত্যক্ষ করেছিলেন মমতা। কীভাবে নন্দীগ্রামে তুলে নিয়ে গিয়ে মানুষকে খুন করা হয়েছে, কীভাবে মুণ্ড কেটে হলদি নদীর জলে ভাসিয়ে দেওয়া হয়েছে দেহ, কীভাবে আমতার কান্দুয়ায় কেটে নেওয়া হয়েছিল হাত, সভাস্থলে উপচে পড়া ভিড়ের উদ্দেশে সেই সমস্ত ঘটনার বিবরণ শুনিয়ে তিনি হার্মাদ তথা ওস্তাদদের সম্পর্কে সতর্ক করেছেন মানুষকে। গেরুয়া ওস্তাদদের এই তৎপরতা বৃদ্ধির জন্য সিপিএমের সঙ্গেই কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়েছেন কংগ্রেসকেও। বলেছেন, রাম আর বামের সঙ্গে এখন শ্যামও একই সারিতে দাঁড়িয়েছে। পঞ্চায়েত ভোটের সময় আপনারা তা দেখেছেন। কটাক্ষের সুর তাঁর গলায়— দু’দিকে দুই কলাগাছ, মধ্যিখানে যমরাজ। তবে বিরোধী জোটের মধ্যমণি হিসেবে জাতীয় রাজনীতির বর্তমান প্রেক্ষিতে রাজ্য কংগ্রেসের সঙ্গে একসারিতে বসাতে চাননি এআইসিসি’কে। বলেছেন, দিল্লির কংগ্রেসটা আলাদা।
এ রাজ্যের বাম আর রামকে একসারিতে ফেলার সঙ্গেই জাতীয় রাজনীতির প্রেক্ষাপট নিয়েও জনতাকে সতর্ক করেছেন মমতা। তাঁর কথায়, নোটবন্দির জেরে মানুষ কাজ হারিয়েছে, অনেক জায়গায় আবার মেরে তাড়াচ্ছে। আমরা কাউকে তাড়াই না। বিজেপি অসম থেকে বাঙালি তাড়াচ্ছে আর গুজরাত থেকে বিহারি। সভাস্থল জুড়ে তখন শুধুই গেরুয়া শিবির বিরোধী উন্মাদনা। সেই ‘মুড’কে উপলব্ধি করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। গলা চড়িয়ে ফের আক্রমণে ফিরলেন। বললেন, হিন্দু হিন্দু করছে ওরা। জেনে রাখুন, যে ৩০ লক্ষ মানুষের নাম অসমে এনআরসি থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে, তার মধ্যে ২৩ লক্ষ বাঙালি হিন্দু। কই তাদের জন্য তো একবারও ওদের বলতে শুনছি না! মমতার কথায়, হিন্দু ধর্ম দেখাচ্ছে? হাজার হাজার বছর ধরে চলে আসছে এই ধর্ম। তাঁর প্রশ্ন, বেদ, গীতা, রামায়ণ আর মহাভারত যখন ছিল, তখন বিজেপি কোথায়? কে ভাই তোমরা হরিদাস! স্বাধীনতার সময়েও তো ছিলে না। আর এখন বড় বড় কথা। দাঙ্গা লাগানোর ছক। প্রত্যয়ী মুখ্যমন্ত্রীর ঘোষণা— এখানে এসব হবে না, হতে দেব না।
পাকিস্তানে টাকা পাচার কাণ্ডে
গ্রেপ্তার আরও ১, যেত অস্ত্রও

নিজস্ব প্রতিনিধি, হাওড়া ও কলকাতা: পাকিস্তানে টাকা পাচারকাণ্ডে কলকাতার বড়বাজার থেকে শরণ সিং নামে এক হাওলা কারবারিকে গ্রেপ্তার করল পুলিস। ওই রাতে কলকাতার কয়েকটি জায়গায় তল্লাশি অভিযান চালায় পুলিস ও গোয়েন্দা বিভাগ।
বিশদ

সাহিত্য আকাদেমি পেলেন
সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায়

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ২০১৮ সালের সাহিত্য আকাদেমি পুরস্কার পেলেন সাহিত্যিক সঞ্জীব চট্টোপাধ্যায়। বর্তমান শারদীয়া সংখ্যায় প্রকাশিত ‘শ্রীকৃষ্ণের শেষ কটা দিন’ উপন্যাসের দৌলতে ‘অনেক অবেলায়’ তাঁর মুকুটে যুক্ত হল সাহিত্য আকাদেমির এই পালকটি। তবে এর আগে তিনি শরৎ ও বিদ্যাসাগর পুরস্কারে সম্মানিত হয়েছেন।
বিশদ

বুথ স্তরে সংহতি দিবস পালনের নির্দেশ কর্মীদের
বাবরি: ব্রিগেডের প্রচারকে প্রাধান্য দিতেই
আজ কেন্দ্রীয় সমাবেশ করবে না তৃণমূল

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: দলের নজরে ১৯ জানুয়ারির ব্রিগেড সভা। তাই অন্যান্যবারের মতো বাবরি মসজিদ ধ্বংসের বর্ষপূর্তিতে আজ বৃহস্পতিবার সংহতি দিবস পালনে কোনও কেন্দ্রীয় সভা করবে না তৃণমূল। ইতিমধ্যেই বুথ স্তরে ব্রিগেড সভার প্রচার শুরু হয়েছে।
বিশদ

আগামী শিক্ষাবর্ষে রাজ্যের সরকারি স্কুলগুলির জন্য নির্দিষ্ট রুটিন তৈরি করে দিল মধ্যশিক্ষা পর্ষদ

 বিশ্বজিৎ মাইতি, তমলুক, বিএনএ: আগামী শিক্ষাবর্ষের জন্য রাজ্যের সমস্ত সরকারি স্কুলে প্রত্যেক সপ্তাহের শ্রেণীভিত্তিক পিরিয়ডের নির্দিষ্ট রুটিন তৈরি করে জেলায় জেলায় পাঠিয়ে দিল রাজ্য মধ্যশিক্ষা পর্ষদ।
বিশদ

আরামবাগের কিষাণ মান্ডিতে উত্তেজনা, বিক্ষোভ
ধান কেনার প্রক্রিয়ায় আমরা গরিব চাষির কাছে দায়বদ্ধ: খাদ্যমন্ত্রী

 রামকুমার আচার্য, পুরশুড়া, বিএনএ: ধান কেনার প্রক্রিয়ায় আমরা গরিব চাষির কাছে দায়বদ্ধ। তাই শুধু চাষিদের কাছ থেকেই আমরা ধান কিনব। প্রয়োজনে চাষিরা ধান বিক্রি করতে এলে তাঁদের চেয়ারে বসে দিতেয ও চা খাওয়াতে বলেছি।
বিশদ

এক লাফে দ্বিগুণের বেশি বাড়ল কলেজের
অডিট ফি’র খরচ, আর্থিক বোঝার আশঙ্কা

 সৌম্যজিৎ সাহা, কলকাতা: কলেজে কলেজে অডিট ফি এক লাফে দ্বিগুণের বেশি বাড়িয়ে দিল উচ্চশিক্ষা দপ্তর। এতে বেশ চাপে পড়ে গিয়েছে কলেজগুলি। এতদিন অডিটের জন্য সংস্থাকে সাড়ে তিন হাজার টাকা দেওয়া হত।
বিশদ

স্বাস্থ্যে ‘মমতা-ম্যাজিক’
গ্রাম ও জেলা হাসপাতালে মাত্র দু’বছরে রোগী বাড়ল ২ কোটি!

বিশ্বজিৎ দাস, কলকাতা: ২০১৬ সালে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের দ্বিতীয়বার বাংলার কুর্সিতে বসার অন্যতম কারণ ছিল স্বাস্থ্যক্ষেত্রে তাঁর হাতে চালু হওয়া একের পর এক জনমুখী প্রকল্প। ন্যায্য মূল্যের ওষুধের দোকান, সুপার স্পেশালিটি হাসপাতাল ইত্যাদি প্রকল্প সেবার তাঁর জনপ্রিয়তা আরও বাড়িয়েছিল। 
বিশদ

নন-বিএড ইনক্রিমেন্টের বকেয়া এখনও পেলেন না শিক্ষকদের বড় অংশ, ক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: স্কুল এবং জেলা পরিদর্শক অফিসের ঢিলেঢালা মনোভাবে নন-বিএড শিক্ষকরা ইনক্রিমেন্ট বাবদ বকেয়া এখনও পেলেন না। বিভিন্ন জেলায় শিক্ষকদের অভিযোগ, তাঁরা এখনও বকেয়া টাকা পাননি। ডিআই অফিস এবং কিছু কিছু ক্ষেত্রে স্কুলগুলির গয়ংগচ্ছ মনোভাব এই দেরির জন্য দায়ী।
বিশদ

দ্রুত কাজ শেষ করতেই হবে, রিভিউ মিটিংয়ে নির্দেশ পূর্তমন্ত্রীর

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সব প্রকল্পের কাজ সময়ে শুরু করে দ্রুতগতিতে শেষ করার নির্দেশ দিলেন পূর্তমন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস। বুধবার নবান্ন সভাঘরে পূর্তদপ্তরের সব কাজের রিভিউ করলেন তিনি। তবে এদিন দপ্তরের উত্তর জোন ছিল না।
বিশদ

ঝুলে রইল রথের অনুমতি, আজ হাইকোর্টে সিদ্ধান্ত জানাবে রাজ্য

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বুধবার কলকাতা হাইকোর্টে বিজেপি’র রথযাত্রা নিয়ে বিতর্কের সমাধান হল না। রাজ্যের ৪২টি লোকসভা কেন্দ্রেই ঘুরবে ওই রথ। কিন্তু, প্রয়োজনীয় প্রশাসনিক অনুমতি এখনও মেলেনি। বিচারপতি তপোব্রত চক্রবর্তীর জিজ্ঞাসার জবাবে রাজ্য জানিয়েছে, বৃহস্পতিবার প্রাসঙ্গিক সরকারি সিদ্ধান্ত আদালতকে জানানো হবে।
বিশদ

রাজ্য থেকেও দুবাই ঘুরে পাক জঙ্গিদের
কাছে যেত টাকা, পিছনে আইএসআই
হাওড়ায় ধৃতদের জেরায় মিলল তথ্য, দিল্লি সহ অন্য রাজ্যেও চক্রের হদিশ

নিজস্ব প্রতিনিধি, হাওড়া ও কলকাতা: শুধু এদেশ বা রাজ্যের বিভিন্ন অ্যাকাউন্টে পাকিস্তান থেকে টাকা ঢুকেছে এমনটা নয়, রাজ্য থেকেও দুবাই ঘুরে পাকিস্তানি জঙ্গিদের কাছে যেত অর্থ। যার নেপথ্যে রয়েছে সেদেশের গুপ্তচর সংস্থা আইএসআই। এমনকী কেবলমাত্র এরাজ্যই নয়, দিল্লি সহ অন্যান্য রাজ্যেও এই চক্রের হদিশ পেয়েছে পুলিস।
বিশদ

05th  December, 2018
প্রশাসনের দুর্নীতিগ্রস্তদের
গ্রেপ্তারের নির্দেশ মমতার

দেবাঞ্জন দাস, মেদিনীপুর: প্রশাসনের যে অংশটি স্থানীয় মাফিয়াদের সঙ্গে মিলে দুর্নীতির পাকচক্রে জড়াচ্ছে, তাদের চিহ্নিত করে গ্রেপ্তার করার নির্দেশ দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মঙ্গলবার পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার প্রশাসনিক বৈঠকে দৃশ্যত ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী সর্বত্রই দুর্নীতিগ্রস্তদের বিরুদ্ধে অভিযান চালাতে আরও সক্রিয় হওয়ার নির্দেশ দেন অ্যান্টি করাপশন ব্রাঞ্চকে।
বিশদ

05th  December, 2018
সেমিনারে বললেন সুব্রত
আর্সেনিক মোকাবিলায় ‘জল ধরো জল ভরো’ প্রকল্পের গুরুত্ব অসীম

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: আর্সেনিক সমস্যার মোকাবিলায় ভূ-পৃষ্ঠের জলের ব্যবহার আরও বাড়াতে হবে। সেই কারণেই মুখ্যমন্ত্রীর ‘জল ধরো জল ভরো’ প্রকল্প আরও বেশি গুরুত্বপূর্ণ হয়ে উঠেছে। শহরের এক পাঁচতারা হোটেলে পানীয় জল নিয়ে আয়োজিত এক সেমিনারে একথা বলেন পঞ্চায়েত এবং জলসম্পদ উন্নয়ন দপ্তরের মন্ত্রী সুব্রত মুখোপাধ্যায়।
বিশদ

05th  December, 2018
উত্তুরে হাওয়া সক্রিয় হতেই শীতের আমেজ গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: উত্তুরে হাওয়া জোরদার হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে শীত অবশেষে সক্রিয় হতে শুরু করেছে। আবহাওয়াবিদরা বলছেন, কনকনে ঠান্ডা পড়া বলতে যা বোঝায়, সেটা এখনই না হলেও শীতের আমেজ এবার অনুভব করা যাবে। কেন্দ্রীয় আবহাওয়া দপ্তরের ডেপুটি ডিরেক্টর জেনারেল সঞ্জীব বন্দ্যোপাধ্যায় মঙ্গলবার জানিয়েছেন, বর্ষা বিদায় ও শীত পড়ার মাঝে একটা মধ্যবর্তী সময় থাকে।
বিশদ

05th  December, 2018

Pages: 12345

একনজরে
 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: আগামী ১৬ ডিসেম্বর আই লিগের প্রথম পর্বের ডার্বি। সেই লক্ষ্যেই প্রস্তুতি শুরু করল মোহন বাগান। বুধবার সল্টলেক স্টেডিয়ামের প্র্যাকটিস গ্রাউন্ডে মোহন বাগান ...

 লন্ডন, ৫ ডিসেম্বর: গত ১৪ মে ভারতীয় বংশোদ্ভূত ফার্মাসিস্ট জেসিকা প্যাটেলকে (৩৪) খুনের মামলায় তাঁর স্বামী মিতেশ প্যাটেলকে (৩৭) দোষী সাব্যস্ত করল ব্রিটেনের আদালত। উত্তর ইংল্যান্ডের মিডলসবরোর বাড়িতে জেসিকার হাত বেঁধে সুপার মার্কেটের প্লাস্টিক ব্যাগ দিয়ে শ্বাসরোধ করে খুন করে ...

নিজস্ব প্রতিনিধি, হাওড়া: জয়পুর থানার পারবাকসির একটি সরকারি সাহায্যপ্রাপ্ত হোমে নাবালিকাদের যৌন নির্যাতনের অভিযোগে মঙ্গলবার রাতে হোমের মহিলা সুপারিনটেনডেন্ট পম্পা পাত্রকে গ্রেপ্তার করল পুলিস। ধৃতকে বুধবার উলুবেড়িয়া আদালতে তোলা হলে বিচারক তাঁকে বৃহস্পতিবার ফের আদালতে হাজির করার নির্দেশ দেন। ...

 সংবাদদাতা, আলিপুরদুয়ার: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে আলিপুরদুয়ারের চা বাগানগুলিতে গিয়ে জেলা খাদ্যদপ্তর চা শ্রমিকদের রেশন কার্ডের আবেদনপত্র নেওয়ার কাজ শুরু করেছে। এতদিন শ্রমিকরা বাগানের কাজ বন্ধ রেখে শহরে এসে রেশন কার্ডের জন্য আবেদনপত্র জমা করতেন। এতে তাঁদের একদিনের মজুরি নষ্ট ...




আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

প্রেম-প্রণয়ে দ্বিধাদ্বন্দ্ব থাকবে। কারও কথায় মর্মাহত হতে হবে। ব্যবসায় যুক্ত হওয়া যেতে পারে। কর্মে সুনাম ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮২৩: জার্মান দার্শনিক ম্যাক্সমুলারের জন্ম
১৮৫৩: ঐতিহাসিক ও শিক্ষাবিদ হরপ্রসাদ শাস্ত্রীর জন্ম
১৯৫৬: দলিত আন্দোলনের নেতা ভীমরাওজি রামাজি আম্বেদকরের মৃত্যু
১৯৮৫: ক্রিকেটার আর পি সিংয়ের জন্ম
১৯৯২: অযোধ্যার বিতর্কিত সৌধ ধ্বংস

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৬৯.৯৪ টাকা ৭১.৬৪ টাকা
পাউন্ড ৮৮.৩০ টাকা ৯১.৫২ টাকা
ইউরো ৭৮.৬৮ টাকা ৮১.৬৭ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩১,৪৫৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ২৯,৮৪৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩০,২৯৫ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৬,৮০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৬,৯০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ৬ ডিসেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার, চতুর্দশী ১৫/১৩ দিবা ঘ ১২/১২। নক্ষত্র- অনুরাধা ৫৬/১১ রাত্রি ঘ ৪/৩৫, সূ উ ৬/৭/৩, অ ৪/৪৭/৫৫, অমৃতযোগ দিবা ঘ ৭/৩২ মধ্যে পুনঃ ১/১৪ গতে ২/৩৯ মধ্যে। রাত্রি ৫/৫১ গতে ৯/১৪ মধ্যে পুনঃ ১১/৫৪ গতে ৩/২৭ মধ্যে পুনঃ ৪/২০ গতে উদয়াবধি। বারবেলা ঘ ২/৮ গতে অস্তাবধি, কালরাত্রি ঘ ১১/২৭ গতে ১/৭ মধ্যে।
১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৫, ৬ ডিসেম্বর ২০১৮, বৃহস্পতিবার, চতুর্দশী রাত্রি ১২/৩/৪০। অনুরাধানক্ষত্র রাত্রিশেষ ঘ ৪/৫৮/৪৮। সূ উ ৬/৭/৮, অ ৪/৪৭/১৩, অমৃতযোগ দিবা ঘ ৭/৩২/২৯ মধ্যে ও ঘ ১/১৩/৫১ থেকে ঘ ২/৩৯/১২ মধ্যে এবং রাত্রি ৫/৪০/৩৩ থেকে ঘ ৯/১৩/৫১ মধ্যে ও ঘ ১১/৫৩/৫০ থেকে ৩/২৭/৯ মধ্যে ও ঘ ৪/২০/২৮ থেকে ৬/৭/৪৭ মধ্যে। বারবেলা ৩/২৭/১৩ থেকে ৪/৪৭/১৩ মধ্যে, কালবেলা ২/৭/১২ থেকে ঘ ৩/২৭/১৩ মধ্যে, কালরাত্রি ১১/২৭/১০ থেকে ঘ ১/৭/১০ মধ্যে।
 
এই মুহূর্তে
আপাতত রথযাত্রা স্থগিত, জানাল হাইকোর্ট 
আপাতত রথযাত্রার অনুমতি দিল না হাইকোর্ট। এত অল্প সময়ে পুলিসের ...বিশদ

05:14:00 PM

 কমাণ্ড হাসপাতালের নির্মিয়মাণ বাড়ির ছাদ থেকে ঝাঁপ কিশোরীর

04:43:00 PM

৫৭২ পয়েন্ট পড়ল সেনসেক্স 

03:56:00 PM

দীঘায় শুরু হচ্ছে আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টার
দীঘায় শুরু হচ্ছে আন্তর্জাতিক কনভেনশন সেন্টার। আগামী ২ মাসে চালু ...বিশদ

02:50:35 PM

কেদারনাথ: অভিযোগ খারিজ বম্বে হাইকোর্টের

 কেদারনাথ ফিল্মটির কিছু দৃশ্য ধর্মীয় ভাবাবেগকে আঘাত করছে। আজ এই ...বিশদ

02:24:25 PM

শুরু হল বামফ্রন্টের মিছিল
মহাজাতি সদনের সামনে থেকে শুরু হল বামফ্রন্টের মিছিল। যাবে পার্কসার্কাস ...বিশদ

02:09:00 PM