রাজ্য
 

চালু হয়েছে বিশেষ হেল্পলাইন নম্বর
দক্ষিণ-পূর্ব রেলে মোবাইল টিকেটিং ব্যবস্থায়
অসংরক্ষিত টিকিট বিক্রির জনপ্রিয়তা বাড়ছে

প্রসেনজিৎ কোলে, কলকাতা: একদিকে অতিরিক্ত রিচার্জ ভ্যালুর বাড়তি সুবিধা প্রদান, অন্যদিকে এই ব্যবস্থায় জোনের একেবারে প্রান্তিক জায়গাগুলিকেও যুক্ত করায় দক্ষিণ-পূর্ব রেলে অসংরক্ষিত টিকিট বিক্রির ক্ষেত্রে মোবাইল টিকেটিং ব্যবস্থার জনপ্রিয়তা ক্রমশ বাড়ছে। প্রতি মাসে বহু যাত্রী অসংরক্ষিত টিকিট কাটার জন্য মোবাইল টিকেটিং ব্যবস্থার সুযোগ নিচ্ছেন বলে খবর। এই পদ্ধতিতে টিকিট বিক্রি বৃদ্ধি পাওয়ায় টাকার অঙ্কও ক্রমবর্ধমান। অসংরক্ষিত কামরায় টিকিট কাটার জন্য মোবাইল টিকেটিং ব্যবস্থার সুযোগ নিলে যে বাড়তি আর্থিক সুবিধা দেওয়া হচ্ছে, তা আগামী ফেব্রুয়ারি মাস পর্যন্ত চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেল মন্ত্রক। ফলে এই পদ্ধতির জনপ্রিয়তা আরও বাড়বে বলে আশা করছেন দক্ষিণ-পূর্ব রেলের কর্তারা।
কেন্দ্রীয় সরকার গত কয়েক বছর ধরেই ডিজিটাল ইন্ডিয়া প্রকল্প রূপায়ণে নানা কর্মসূচি নিচ্ছে। অনলাইনে সরকারি কাজকর্ম, আর্থিক লেনদেন সহ নানা ব্যাপারে উৎসাহ দেওয়া হচ্ছে। অন্যান্য কেন্দ্রীয় মন্ত্রকের সঙ্গে রেলও ডিজিটাল ইন্ডিয়া রূপায়ণে সমানভাবে সচেষ্ট। সেই মতোই নগদহীন লেনদেনকে জনপ্রিয় করতে ও কাউন্টারের সামনে যাত্রীদের ভিড় কমাতে মোবাইল টিকেটিং ব্যবস্থা চালু করেছে রেলের বিভিন্ন জোন। গোটা দেশেই এই ব্যবস্থা ছড়িয়ে দেওয়া হয়েছে গত ১ নভেম্বর থেকে। যা ক্রমশ জনপ্রিয় হচ্ছে।
দক্ষিণ-পূর্ব রেল সূত্রের খবর, ট্রেনের অসংরক্ষিত কামরার টিকিট কাটার জন্য এই জোনের খড়্গপুর বিভাগে প্রথম মোবাইল টিকেটিং ব্যবস্থা চালু হয়েছিল ২০১৬ সালের ফেব্রুয়ারি মাসে। তারপর গত ৪ জুলাই মাস থেকে গোটা জোনেই এই ব্যবস্থা সম্প্রসারণ করা হয়েছে। এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে বিশেষ আর্থিক সুবিধা প্রদানের ব্যবস্থা। মোবাইলে টিকিট কাটার জন্য যখন আর-ওয়ালেট রিচার্জ করছেন যাত্রীরা, তখন পাঁচ শতাংশ হারে বোনাস হিসেবে অতিরিক্ত রিচার্জ ভ্যালু যুক্ত করে দেওয়া হচ্ছে। অর্থাৎ, কেউ ১০০ টাকার রিচার্জ করলে, তিনি মোট ১০৫ টাকার রিচার্জ ভ্যালু পাবেন। এই জোনের এক কর্তার কথায়, বিশেষ এই অ্যাপটি তৈরি করেছে ‘সেন্টার ফর রেলওয়ে ইনফরমেশন সিস্টেম’ (ক্রিস)। অ্যাপের মাধ্যমে অসংরক্ষিত কামরার টিকিট কাটা যাচ্ছে। প্ল্যাটফর্ম টিকিট কিংবা মান্থলি টিকিটও এই অ্যাপের মাধ্যমে কাটতে পারছেন যাত্রীরা।
এই বিশেষ ব্যবস্থার সুবিধা নিচ্ছেন কত যাত্রী? দক্ষিণ-পূর্ব রেল সূত্রের খবর, গত সেপ্টেম্বরের প্রথম সপ্তাহে এই ব্যবস্থায় ৩৯,০৬৮ জন যাত্রী টিকিট কেটেছেন। টাকার অঙ্কে টিকিটের মোট মূল্য ছিল ৪,২৫,৪৪৫ টাকা। অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহে এই ব্যবস্থার সুযোগ নিয়েছেন ৩৮,৫৬৫ জন। কিন্তু টাকার অঙ্কে টিকিটের মোট মূল্য সেপ্টেম্বর মাসের প্রথম সপ্তাহকে ছাপিয়ে গিয়েছে। অক্টোবরের প্রথম সপ্তাহে এই ব্যবস্থায় মোট ৪,৪৯,৯২৩ টাকার টিকিট ইস্যু করা হয়েছে। নভেম্বরের প্রথম সপ্তাহে এই ব্যবস্থার মাধ্যমে আরও বেশি যাত্রী টিকিট কেটেছেন। জোন সূত্রের খবর, প্রথম সপ্তাহে মোট ৪৩,০১৮ জন যাত্রী টিকিট কেটেছেন। টিকিটের মোট অঙ্ক ৬,৩৭,৮৪৩ টাকা। বর্তমানে প্রতিদিন গড়ে ছ’ থেকে সাত হাজার যাত্রী এই ব্যবস্থায় টিকিট কাটছেন। তা থেকে দৈনিক আয় হচ্ছে গড়ে ৮০ হাজার থেকে ১ লক্ষ টাকা। এ নিয়ে জানতে চাওয়া হলে দক্ষিণ-পূর্ব রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক সঞ্জয় ঘোষ বলেন, অসংরক্ষিত টিকিট কাটার জন্য মোবাইল টিকেটিং ব্যবস্থার জনপ্রিয়তা আরও বাড়াতে আমরা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। চালু করা হয়েছে বিশেষ হেল্পলাইন নম্বরও। তার নম্বর ০৩৩-২২১০৭৪৩৫। এই ব্যবস্থায় যাত্রীদের অযথা লাইনে দাঁড়িয়ে টিকিট কাটতে হচ্ছে না। বাঁচছে সময়।
09th  November, 2018
ঐতিহাসিক ব্রিগেডে জনপ্লাবন, মাঠ
পর্যন্ত পৌঁছতে পারলেন না অনেকেই

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বেলা তখন সাড়ে ১২টা। কবি সুভাষ থেকে দমদমগামী মেট্রোতে উঠেছিলেন দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিভিন্ন জায়গা থেকে আসা ৪০-৫০ জন সমর্থক। তাঁরা তখনই ফোন করেছিলেন সমাবেশের কাছাকাছি পৌঁছে যাওয়া পরিচিতদের। ফোন করেই বুঝেছিলেন, সমাবেশস্থল কার্যত ভরে গিয়েছে। আরও বেশ কয়েকটি মিছিল আসছে। তখনই প্রচুর লোক ঢুকতে না পেরে রাস্তায় বসে পড়েছেন অথবা বাড়ি ফিরে যাচ্ছেন।
বিশদ

ব্রিগেডে পৌঁছতে না পেরে এক্সপ্রেসওয়ের ধারেই জমিয়ে রান্না তৃণমূল সমর্থকদের

 বিএনএ, চুঁচুড়া: গাড়ির লম্বা লাইন দীর্ঘক্ষণ ধরে না এগনোয় ব্রিগেড সমাবেশে পৌঁছতেই পারলেন না বহু তৃণমূল সমর্থক। বাধ্য হয়েই ডানকুনি থেকেই ফিরতে বাধ্য হলেন বাসবোঝাই তৃণমূল সমর্থকরা। তাঁদের খাওয়া-দাওয়ায় যাতে কোনও সমস্যা না হয়, তার জন্য ব্যবস্থা করলেন স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব।
বিশদ

প্রয়াত সাহিত্যিক অতীন বন্দ্যোপাধ্যায়

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বাংলা সাহিত্যে ফের ইন্দ্রপতন! প্রয়াত হলেন প্রখ্যাত কথাসাহিত্যিক অতীন বন্দ্যোপাধ্যায়। শনিবার বেলা ৩টে ৪২ নাগাদ পোর্ট ট্রাস্ট্রের হাসপাতালে তিনি শেষনিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। বয়স হয়েছিল ৮৫ বছর।
বিশদ

ফোন ব্যবহারে দেশে
১২তম স্থানে পশ্চিমবঙ্গ

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: মোবাইল ফোন হোক বা ল্যান্ডলাইন— টেলিকম পরিষেবা নেওয়ার ক্ষেত্রে দেশে ১২ নম্বর স্থানে রয়েছে পশ্চিমবঙ্গ। দেশজুড়ে ফোন ব্যবহার করার গড় হারের চেয়ে খানিকটা পিছিয়েই আছে পশ্চিমবঙ্গ। এখানে টেলিকম পরিষেবা গ্রহণ করার হার ৮৯.১৬ শতাংশ। দেশের গড় হার ৯১.২১ শতাংশ।
বিশদ

ব্রিগেডে এসে দাবি ভুটিয়াদের
আলুওয়ালিয়া এবার বাজারে আলু
বেচবেন, দিদিই পাবেন দার্জিলিং

সায়ন্ত ভট্টাচার্য, কলকাতা: ব্রিগেডের ভিড় দেশের যে কোনও সমাবেশকে ছাপিয়ে যায়। এবার তা চাক্ষুষ করে তাঁরা বুঝলেন, কথাটা কতখানি সত্য! জীবনে প্রথমবার কলকাতার ব্রিগেড সমাবেশে দার্জিলিং থেকে এসেছেন ভুটিয়া সম্প্রদায়ের পালগন ভুটিয়া এবং তাঁর সঙ্গীরা। বললেন, এত ভিড় যে কোনও রাজনৈতিক সভায় হতে পারে, তা কখনও জানতামই না। কত লোক কত রকমভাবে সেজে এসেছেন।
বিশদ

বারাসত বিশেষ আদালতে হাজিরা বিজেপি নেতা-নেত্রীদের
মমতাই সবচেয়ে পপুলার বাঙালি নেত্রী: দিলীপ ঘোষ

 বিএনএ, বারাসত: বাঙালিদের মধ্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রী। মোদি হটাতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডাকা ব্রিগেডের দিনই শনিবার বারাসতে এসে এমনই দাবি করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। তবে মমতার ডাকা ব্রিগেডকে তিনি রিটায়ার্ড এবং টায়ার্ডদের সার্কাস বলেও কটাক্ষ করেছেন।
বিশদ

  তৃণমূলের ব্রিগেডকে রাজনৈতিক পর্যটন উৎসব বলে কটাক্ষ দিলীপের

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: তৃণমূলের ব্রিগেডকে সার্কাস এবং রাজনৈতিক পর্যটন উৎসব বলে কটাক্ষ করলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। শনিবার দলের রাজ্য দপ্তরে আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে রসিকতার সুরে তিনি বলেন, ব্রিগেড দেখে মন ভরে গিয়েছে।
বিশদ

কৃষিজমি অধিগ্রহণের জটে ফেঁসে বারবার
থমকাচ্ছে এনএইচ-৩৪ সম্প্রসারণের কাজ

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সিঙ্গুরে কৃষিজমি অধিগ্রহণ নিয়ে অশান্তির জের থেকে এই রাজ্য এখনও মুক্ত নয়। জাতীয় সড়ক সম্প্রসারণের মতো গুরুত্বপূর্ণ প্রকল্পও জমি অধিগ্রহণের জটে নাজেহাল। মালদহ এবং উত্তর দিনাজপুরে এনএইচ-৩৪ সম্প্রসারণ করতে গিয়ে তা হাড়েহাড়ে উপলব্ধি করছে ন্যাশনাল হাইওয়ে অথরিটি (এনএইচএ)।
বিশদ

আরও বেশি মানুষকে পরিষেবা দিতে
পিজি’র রেকর্ডস শাখা এখন অনলাইন

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: পিজি হাসপাতালে রোগীদের তথ্যভাণ্ডার থাকে রেকর্ডস সেকশনে। দীর্ঘদিন ধরে কাগজপত্রের ভারে এই বিভাগের অবস্থা কাহিল ছিল। এবার এই বিভাগের হাতে লেখা তথ্য পরিবর্তিত হয়ে গেল ই-রেকর্ডে। শুধু তাই নয়, ২৪ ঘণ্টা, সাতদিন- সবসময় আপডেট হতে থাকবে পিজি’র এই তথ্যভাণ্ডার।
বিশদ

লালগড়ের বাঘ হত্যার মতো ঘটনা ঠেকাতে এবার প্রথম থেকেই উদ্যোগ বনদপ্তরের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: লালগড়ের বাঘ হত্যার মতো ঘটনার পুনরাবৃত্তি যাতে আর না হয়, তার জন্য এবার প্রথম থেকেই সতর্ক হচ্ছে রাজ্য বনদপ্তর। জেলায় জেলায় শিকার উৎসব রুখতে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে আদিবাসী সম্প্রদায়ের মানুষ কোন সময় শিকার উৎসব করে সেগুলিকে একটি ‘ক্যালেন্ডারের’ মাধ্যমে ইতিমধ্যে প্রকাশ করা হয়েছে বনদপ্তরের পক্ষ থেকে।
বিশদ

মোদি হটাতে আজ ব্রিগেড মমতার
হাজির গোটা দেশের বিজেপি বিরোধী নেতারা

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: তাঁর নেতৃত্বেই আগামী লোকসভা নির্বাচনে মোদি বিরোধী জোটের সলতে পাকানোর কাজ শুরু হয়েছিল। তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডাকে সেই জোটের রণকৌশল চূড়ান্ত করতে আজ, শনিবার ব্রিগেড ময়দানে ঐতিহাসিক সমাবেশ ঘিরে কৌতূহল দেশজুড়ে। তৃণমূলের তরফে এবারের সমাবেশের স্লোগান ছিল— ডাক দিয়েছেন মমতা, ব্রিগেড চলো জনতা। সেই আহ্বানে সাড়া দিয়ে যে জনস্রোত শুক্রবার রাত পর্যন্ত শহরে এসে আছড়ে পড়েছে, তা দিয়েই ব্রিগেড ভরানো যাবে, এমনটাই বলছে তৃণমূল নেতৃত্ব। আজ, শনিবার সকাল থেকে স্লোগানমুখর সেই জনস্রোত ব্রিগেড সমাবেশ ঘিরে থাকা অতীতের যাবতীয় রেকর্ড ভেঙে দেবে বলে মনে করছে সবাই। ব্রিগেডের সেই জনসমুদ্রকে সম্বোধন করে মমতা তথা মহাজোটের বাকি নেতারা কী বার্তা দেন, তা জানতেই মুখিয়ে সব রাজনৈতিক পক্ষ।
বিশদ

19th  January, 2019
ব্রিগেডের ২৪ ঘণ্টা আগেই
শুরু হল মহাজোটের মহড়া
দেবেগৌড়া, পাওয়ার, অখিলেশের সঙ্গে বৈঠক

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: ‘সারে যাঁহা সে আচ্ছা, হিন্দুস্তাঁ হামারা’। বিংশ শতাব্দীর শুরুতে মহম্মদ ইকবালের লেখা এই গান ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে দেশকে এক সুতোয় বেঁধেছিল। আজ একদা ব্রিটিশ ভারতের রাজধানী কলকাতার ব্রিগেড সমাবেশে সেই গানকেই বেছে নিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।
বিশদ

19th  January, 2019
তাবড় বিরোধী নেতাদের আপ্যায়নে এলাহি আয়োজন

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: দেশের তাবড় বিরোধী নেতারা ইতিমধ্যেই শহরে এসে গিয়েছেন। তাঁদের আতিথেয়তার কোনও কসুর করছেন না মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রত্যেককেই পাঁচতারা হোটেলে থাকার ব্যবস্থা করা হয়েছে। যাঁরা প্রাক্তন প্রধানমন্ত্রী, প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী, প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী, বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী পদে রয়েছেন, তাঁদের ‘স্টেট গেস্ট’ করা হয়েছে।
বিশদ

19th  January, 2019
যাবে কিছু সরকারি বাসও
আজ জেলার রুট থেকে ৯০ শতাংশ বেসরকারি বাস ছুটবে ব্রিগেডমুখী

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: আজ, শনিবার দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলা থেকে অধিকাংশ বেসরকারি বাসই হবে ব্রিগেডমুখী। অন্তত বাস মালিকদের সংগঠনগুলির নেতাদের বক্তব্য এমনটাই। তাঁদের বক্তব্য, জেলাগুলির বিভিন্ন রুট থেকে গড়ে ৮০ থেকে ৯০ শতাংশ পর্যন্ত বাস উঠে গিয়ে ব্রিগেড অভিমুখে ছুটবে।
বিশদ

19th  January, 2019

Pages: 12345

একনজরে
সংবাদদাতা, পুরাতন মালদহ: পুরাতন মালদহ ব্লকের সাহাপুর গ্রাম পঞ্চায়েতের মণ্ডলপাড়ায় দীর্ঘদিন ধরে নিকাশি নালা সংস্কার না হওয়ায় ওই নালা উপচে রাস্তা দিয়ে নোংরা জল বইছে। এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে নিকাশি সমস্যা চলে আসায় বাসিন্দাদের মধ্যে ক্ষোভ বাড়ছে।   ...

নয়াদিল্লি, ১৯ জানুয়ারি (পিটিআই): আইআরসিটিসির দুর্নীতি মামলায় আপাত স্বস্তি পেলেন বিহারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী লালুপ্রসাদ যাদব। শনিবার দিল্লির এক আদালত লালুপ্রসাদের অন্তবর্তী জামিনের মেয়াদ ২৮ জানুয়ারি পর্যন্ত বাড়িয়েছে। ...

সংবাদদাতা, লালবাগ: সব্জি ব্যবসায়ীদের দীর্ঘদিনের দাবি মেনে অবশেষে জিয়াগঞ্জ সদর ঘাট সংলগ্ন সব্জি বাজারের ছাদ ঢালাইয়ের কাজ শুরু হয়েছে। ৬০০০বর্গ ফুটের ছাদ ঢালাই করতে ৫০লক্ষ টাকা খরচ হবে বলে জিয়াগঞ্জ-আজিমগঞ্জ পুরসভা সূত্রে জানা গিয়েছে।  ...

 নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সল্টলেক সেন্ট্রাল পার্কের কাছে ব্রিগেডগামী বাসের ধাক্কায় আহত হলেন বিধাননগর পুলিসের গোয়েন্দা প্রধান। শনিবার সকালে এই ঘটনাটি ঘটে। তবে আঘাত গুরুতর নয়। ...


আজকের দিনটি কিংবদন্তি গৌতম
৯১৬৩৪৯২৬২৫ / ৯৮৩০৭৬৩৮৭৩

ভাগ্য+চেষ্টা= ফল
  • aries
  • taurus
  • gemini
  • cancer
  • leo
  • virgo
  • libra
  • scorpio
  • sagittorius
  • capricorn
  • aquarius
  • pisces
aries

কর্মক্ষেত্রে অশান্তির সম্ভাবনা। মাতৃস্থানীয় কার শরীর-স্বাস্থ্যের অবনতি। প্রেমে সফলতা। বাহন ক্রয়-বিক্রয়ের যোগ। সন্তানের বিদ্যাশিক্ষায় উন্নতি।প্রতিকার: ... বিশদ


ইতিহাসে আজকের দিন

১৮১৭: হিন্দু কলেজের (বর্তমান প্রেসিডেন্সি কলেজ) যাত্রা শুরু
১৯৭২: নতুন রাজ্য হল অরুণাচল প্রদেশ ও মেঘালয়
১৯৯৩: মার্কিন অভিনেত্রী অড্রে হেপবার্নের মৃত্যু

ক্রয়মূল্য বিক্রয়মূল্য
ডলার ৭০.৩৪ টাকা ৭২.০৪ টাকা
পাউন্ড ৯০.৭৪ টাকা ৯৪.০১ টাকা
ইউরো ৭৯.৬৬ টাকা ৮২.৬৭ টাকা
[ স্টেট ব্যাঙ্ক অব ইন্ডিয়া থেকে পাওয়া দর ]
19th  January, 2019
পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩২, ৮১৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ (গ্রাম) ৩১, ১৩৫ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩১, ৬০০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৩৯, ২০০ টাকা
রূপা খুচরো (প্রতি কেজি) ৩৯, ৩০০ টাকা
[ মূল্যযুক্ত ৩% জি. এস. টি আলাদা ]

দিন পঞ্জিকা

৬ মাঘ ১৪২৫, ২০ জানুয়ারি ২০১৯, রবিবার, চতুর্দশী ১৯/৫১ দিবা ২/১৯। নক্ষত্র- আর্দ্রা ৪/২১ দিবা ৮/৭ পরে পুনর্বসু ৫৭/২৯ শেষরাত্রি ৫/২২, সূ উ ৬/২২/৫২, অ ৫/১২/১০, অমৃতযোগ দিবা ৭/৬ গতে ১০/০ মধ্যে। রাত্রি ৬/৫৭ গতে ৮/৪৩ মধ্যে। বারবেলা ঘ ১০/২৬ গতে ১/৮ মধ্যে, কালরাত্রি ঘ ১/২৭ গতে ৩/৬ মধ্যে। 
৫ মাঘ ১৪২৫, ২০ জানুয়ারি ২০১৯, রবিবার, চতুর্দশী ১/৪২/২৩। আর্দ্রানক্ষত্র ৭/৩৪/১২। সূ উ ৬/২৪/৫৬, অ ৫/৯/৩৫, অমৃতযোগ দিবা ঘ ৭/৭/৫৫ থেকে ঘ ৯/৫৯/৪৯ মধ্যে এবং রাত্রি ৬/৫৫/৩৮ থেকে ৮/৪১/৪১ মধ্যে। বারবেলা ১০/২৬/৪১ থেকে ১১/৪৭/১৬ মধ্যে, কালবেলা ১১/৪৭/১৬ থেকে ১/৭/৫৫ মধ্যে, কালরাত্রি ১/২৬/৪১ থেকে ঘ ৩/৬/৬ মধ্যে। 
 

ছবি সংবাদ

এই মুহূর্তে
এটিএম লুটের ঘটনায় শিলিগুড়িতে গ্রেপ্তার ৩ 

02:20:55 PM

মুর্শিদাবাদের বগরপুরে তৃণমূলের গোষ্ঠী সংঘর্ষের অভিযোগ, জখম ৭ 
মুর্শিদাবাদে তৃণমূলের গোষ্ঠী সংঘর্ষের অভিযোগ। ঘটনায় জখম সাতজন দলীয় কর্মী। ...বিশদ

12:55:00 PM

খড়্গপুর আইআইটিতে গার্ডার ভেঙে পড়ায় এক শ্রমিকের মৃত্যু, জখম আরও এক 

12:53:57 PM

দামাস্কাসে বিস্ফোরণ, হতাহতের কোনও খবর নেই 

12:12:00 PM

বাঁকুড়ার জয়পুরে গাছ চাপা পড়ে এক ব্যক্তির মৃত্যু 
জয়পুরের বালিগ্রামে বনদপ্তরের গাছ গাড়িতে তোলার সময় আচমকাই গাছের তলায় ...বিশদ

12:10:00 PM

শিলিগুড়ির প্রধাননগরে উদ্ধার গাঁজা

11:59:00 AM