কলকাতা, শনিবার ১ অক্টোবর ২০১৬, ১৫ আশ্বিন ১৪২৩

ভারতের পাশে বিশ্ব, দিশাহারা পাকিস্তান >> হাফিজকে মারুন, মোদিকে আরজি উরির শহিদপত্নীর >> পার্ক স্ট্রিট গণধর্ষণের মূল অভিযুক্ত কাদের গ্রেপ্তার >> আত্মঘাতী পরমাণু হামলা চালাতে পারে  পাক জঙ্গিরা : হিলারি >> মায়ের চোখ এঁকে উদ্বোধন মমতার >>

রবিবার | রেসিপি | আমরা মেয়েরা | দিনপঞ্জিকা | শেয়ার | রঙ্গভূমি | সিনেমা | নানারকম | টিভি | পাত্র-পাত্রী | জমি-বাড়ি | ম্যাগাজিন

ভারতের পাশে বিশ্ব, দিশাহারা পাকিস্তান
একঘরে হয়ে নভেম্বরের সার্ক সম্মেলন স্থগিত করতে বাধ্য হল ইসলামাবাদ
সমৃদ্ধ দত্ত, নয়াদিল্লি, ৩০ সেপ্টেম্বর: একদিকে দেশের অন্দরে ভারতকে প্রত্যাঘাতের প্রবল চাপ। অন্যদিকে আন্তর্জাতিক মহলে কার্যত একঘরে হয়ে যাওয়া। ভারতের সার্জিকাল স্ট্রাইকের পর পাকিস্তান সম্পূর্ণ দিশাহারা। মরিয়া হয়ে বন্ধুর খোঁজ করছে শরিফ সরকার। কিন্তু পশ্চিমী দেশগুলির কেউই ভারতের এই কড়া পদক্ষেপের নিন্দা করেনি। পাকিস্তানের পক্ষে সবথেকে বড় ধাক্কা চীন। বেজিং এখনও পর্যন্ত ভারত বিরোধী কোনও বিবৃতি দেয়নি। বরং দুই পক্ষকেই আলোচনার মাধ্যমে সমস্যা মিটিয়ে নেওয়ার বার্তা দিয়েছে। আর একইসঙ্গে পাকিস্তান দক্ষিণ এশিয়ায় সম্পূর্ণ একা হয়ে গিয়েছে আজ। কারণ সার্ক সম্মেলনে আর একটিও দেশ পাকিস্তানের পক্ষে রইল না। আজ প্রথমে শ্রীলংকা এবং তারপর মালদ্বীপও নভেম্বর মাসে ইসলামাবাদে অনুষ্ঠিত হতে চলা সার্ক সম্মেলন বয়কট করার সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিল। এর ফলে আট দেশের সার্ক গোষ্ঠীর আর কোনও রাষ্ট্রই ইসলামাবাদে যাচ্ছে না। সুতরাং সার্ক সম্মেলন আর ঘোষণা করে বাতিল করতে হবে না। আজই দক্ষিণ কোরিয়া বিবৃতি দিয়ে বলেছে, সন্ত্রাস প্রতিরোধে ভারত যে অবস্থান নিয়েছে আমরা সমর্থন করছি।

হাফিজকে মারুন, মোদিকে আরজি
উরির শহিদপত্নীর
আরা ও গয়া, ৩০ সেপ্টেম্বর: লস্কর-ই-তোইবা প্রধান হাফিজ সইদকে হত্যা করার জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির কাছে আরজি জানালেন উরি হামলায় শহিদ ভারতীয় সেনা অশোক কুমার সিংয়ের স্ত্রী সঙ্গীতা দেবী। বললেন, তিনি চান ভারতীয় সেনাবাহিনী পাকিস্তানে প্রবেশ করে জঙ্গি নিকেশ করুক। সঙ্গীতা দেবীর দাবি, ৯/১১ হামলার জন্য আল-কায়েদা প্রধান ওসামা বিন লাদেনকে যেমন বিশেষ অপারেশন চালিয়ে পাকিস্তানেই হত্যা করা হয়েছিল, হাফিজ সইদকেও যেন একইভাবে হত্যা করা হয়। লস্কর প্রধানের সেই শাস্তি পাওয়াই উচিত। বৃহস্পতিবার সীমান্ত পেরিয়ে জঙ্গিনিকেশ অভিযানের পর ভারতের বীর শহিদদের পরিবারের তরফে দাবি উঠল, অনেক হয়েছে। আর নয়। এবার লড়াই হোক মুখোমুখি! পাকিস্তানের জঙ্গিদের বিরুদ্ধে লড়াই জারি রাখতেই হবে। যারা চোরের মতো হামলা করছে, তাদের নিকেশ করতেই হবে। এমনই হুংকার দিলেন স্বয়ং শহিদদের স্ত্রীরাই।

পার্ক স্ট্রিট গণধর্ষণের মূল অভিযুক্ত
কাদের গ্রেপ্তার

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: বৃহস্পতিবার মাঝরাত। দিল্লির গ্রেটার নয়ডার এক অভিজাত ফ্ল্যাটের সামনে ছদ্মবেশে অপেক্ষা করছিলেন শিকারের জন্য। বিশেষ টিমকে নিয়ে ওত পেতে বসেছিলেন কলকাতা পুলিশের ডিসি সাউথ মুরলিধর শর্মা। রীতিমতো আটঘাট বেঁধে অত্যন্ত গোপনে তাঁরা হাজির হয়েছিলেন। যাতে কোনওভাবেই তথ্য ফাঁস না হয়। বার্থ ডে পার্টি সেরে শিকার যে বেরিয়ে এসেছে, সেই বাড়ির মালিকের কাছ থেকে সে খবর আগেই পেয়েছিলেন অফিসাররা। গভীর রাতে ফ্ল্যাটে ঢোকার মুখে তাঁদের হাতে ধরা পড়ে দুই অভিযুক্ত। এর মধ্যে একজন সাড়ে চার বছর আগে পার্ক স্ট্রিট গণধর্ষণ কাণ্ডের অন্যতম অভিযুক্ত কাদের খান। অন্যজন হল মহম্মদ আলি। দু’জনেই ঘটনার পর থেকে ফেরার ছিল। ওই মামলায় অন্য তিন অভিযুক্ত যাবজ্জীবন সাজা খাটছে।

আত্মঘাতী পরমাণু হামলা চালাতে পারে
পাক জঙ্গিরা : হিলারি

ওয়াশিংটন, ৩০ সেপ্টেম্বর (পিটিআই): উরি হামলা-পরবর্তী যুদ্ধ আবহে পরমাণু অস্ত্রে ভারতকে নিশ্চিহ্ন করে দেওয়ার হুমকি দিয়েছিলেন পাকিস্তানের প্রতিরক্ষামন্ত্রী খাজা মুহম্মদ আসিফ। বলেছিলেন, ‘আমাদের সুরক্ষা বা নিরাপত্তা হামলার মুখে পড়লে, ওদের নিশ্চিহ্ন করে দেওয়ার ক্ষমতা রয়েছে আমাদের। কারণ পরমাণু অস্ত্র আমরা শোকেসে সাজিয়ে রাখার জন্য বানাইনি।’ কিন্তু ওয়াশিংটনের সংবাদ মাধ্যমের খবর, গত ফেব্রুয়ারি মাসেই এই আশঙ্কা প্রকাশ করেছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী হিলারি ক্লিনটন। ডেমোক্রেটিক পার্টির কম্পিউটার হ্যাক করা এক অডিও বার্তায় হিলারির এই বিবৃতি খুঁজে পেয়েছে নিউ ইয়র্ক টাইমস।

প্রথমবার প্রধানমন্ত্রীর মতো কিছু করলেন
নরেন্দ্র মোদি: রাহুল

বুলেন্দশহর (উত্তরপ্রদেশ), ৩০ সেপ্টেম্বর (পিটিআই): ‘সার্জিকাল স্ট্রাইক’ নিয়ে গতকালই প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদির পাশে থাকার বার্তা দিয়েছিল কংগ্রেস। শুক্রবার দলের ভাইস প্রেসিডেন্ট রাহুল গান্ধী কিছুটা কটাক্ষের সুরেই জানিয়ে দিলেন, আড়াই বছরের মধ্যে প্রধানমন্ত্রী হিসাবে নরেন্দ্র মোদি এই প্রথম কোনও পদক্ষেপ সঠিক নিয়েছেন। এদিন উত্তরপ্রদেশের দেওরিয়া থেকে দিল্লি কিষান যাত্রার কর্মসূচিতে অংশগ্রহণ করেন রাহুল। দীর্ঘ পদযাত্রার ফাঁকে সাংবাদিকদের বলেন, পাক অধিকৃত কাশ্মীরে ঢুকে ভারতীয় সেনা যেভাবে জঙ্গি ঘাঁটি ধ্বংস করেছে। অত্যন্ত সন্তর্পণে ‘সার্জিকাল স্ট্রাইক’ করে ফিরে এসেছে, তা প্রশংসনীয়। এর মাধ্যমে পাকিস্তানকে উপযুক্ত জবাব দেওয়া গিয়েছে। প্রধানমন্ত্রী হিসাবে এই প্রথম কোনও সিদ্ধান্ত মোদিকে সাফল্য এনে দিয়েছে।

পুলিশের একাংশের সাহায্যে বারবার গা ঢাকা দিয়েছিল
কাদের, টাকা জুগিয়েছে পরিবার

শুভ্র চট্টোপাধ্যায়, কলকাতা: স্পেশাল টিম তার খোঁজে গেলেও, অফিসারদের চোখে বারবার ধুলো দেওয়ার চেষ্টা করেছে পার্ক স্ট্রিট গণধর্ষণকাণ্ডের মূল অভিযুক্ত কাদের খান। এপ্রিল মাসে তার নতুন চেহারার ছবি অফিসারদের হাতে আসার পর গ্রেপ্তার করতে গেলে চারবার অল্পের জন্য ফসকে যায় কাদের। তারপরেও হাল ছাড়েননি স্পেশাল টিমের পুলিশ অফিসাররা। পরিচিত পুলিশ অফিসার এবং প্রভাবশালী এক ব্যক্তির দেওয়া নির্দেশমতো কাদের যে ঘন ঘন ডেরা বদল করছিল, সেই বিষয়ে নিশ্চিত তথ্যপ্রমাণ চলে আসে পুলিশের হাতে। তাঁরা চিহ্নিত হয়ে গিয়েছেন। তাঁদের ভূমিকা নিয়ে এবার কাটাছেঁড়া শুরু হয়েছে। পাশাপাশি পরিবারের যাঁরা কাদেরকে সাহায্য ও আশ্রয় দিয়েছেন বলে অভিযোগ, তাঁদের বিরুদ্ধে নতুন ধারায় মামলা করার ব্যাপারে প্রাথমিক সিদ্ধান্ত হয়ে গিয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদও করা হবে তাঁদের।

মায়ের চোখ এঁকে উদ্বোধন মমতার

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: গোটা বছরের সরকারি কাজ আর রাজনীতির জটিল আবর্তনের বাইরে বেরিয়ে শহরে দশভুজার আবাহনের সূচনা করলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। দেবীপক্ষের সূচনায় মহালয়ায় উত্তর ও দক্ষিণ মিলিয়ে পাঁচটি মণ্ডপে মৃন্ময়ীর পুজো আয়োজনের উদ্বোধন সারলেন তিনি। ধর্মনিরপেক্ষ মমতা আর মমতার ধর্মনিরপেক্ষতা-বাঙালির সেরা উৎসবে সেটাই যেন বারবার প্রকাশ পায় মুখ্যমন্ত্রীর তরফ থেকে। খুশির পরব ইদই হোক, কিংবা বাঙালি তেরো পার্বনের শ্রেষ্ঠ পর্ব দুর্গাপুজো, সর্বজনীন বিষয়গুলিকে ধর্মীয় আঙিনার পাশাপাশি সাধারণের উৎসবে পরিণত করাতে তিনি যে সফল হয়েছেন, তার প্রমাণ মিলেছে এদিনও। মন্ত্রিসভায় তাঁর ঘনিষ্ঠ সহকর্মী ফিরহাদ হাকিম (ববি)। শহরের দক্ষিণপ্রান্তে ‘চেতলা অগ্রণীর’র পুজোর খ্যাতি ছড়িয়েছে এই ববির হাত ধরেই। এহেন সহকর্মীর পুজো আয়োজনকে শুধু উদ্বোধনের মধ্যে দিয়ে সীমাবদ্ধ রাখেননি মমতা। রীতিমতো তুলি হাতে চিন্ময়ী মায়ের চোখ এঁকেছেন শিল্পী মুখ্যমন্ত্রী, সঙ্গে ছিলেন থিম মেকার ভবতোষ সুতার।

 

 


বিশেষ নিবন্ধ

মমতা কি আমাদের কলকাতাকে
সত্যি লন্ডন বানাতে পারবেন?

শুভা দত্ত

‘জয় অব গিভিং’, আসুন উদ্‌যাপন করি
সৌম্য বন্দ্যোপাধ্যায়
সব খাবারেই বিষ, তাহলে
খাবটা কী কী খাই কেন খাই:
মৃন্ময় চন্দ


জ্ঞান-ভক্তি-কর্মের
তপোমূর্তি অভেদানন্দ

স্বামী আত্মবোধানন্দ

পুজোর মুখে যুদ্ধের দামামা বাঙালি মধ্যবিত্তের রক্তচাপ বাড়িয়ে দিচ্ছে
মেরুনীল দাশগুপ্ত

 ১৮৫৪—চালু হল সর্বভারতীয় পোস্টাল স্ট্যাম্প

 ১৯০৬—গায়ক শচীনদেব বর্মনের জন্ম

 ১৯১৯—গীতিকার মজরুহ সুলতানপুরির জন্ম

 ১৯৯৫—শিল্পপতি আদিত্য বিড়লার মৃত্যু

 

 
 
ক্রয়মূল্য

বিক্রয়মূল্য

ডলার

৬৫.৬৫

৬৭.৩৩

পাউন্ড

৮৫.০২

৮৭.৮৭

ইউরো

৭৩.২০

৭৫.৭৫

পাকা সোনা (১০ গ্রাম) ৩১,৭০৫ টাকা
গহনা সোনা (১০ গ্রাম) ৩০,০৮০ টাকা
হলমার্ক গহনা (২২ ক্যারেট ১০ গ্রাম) ৩০,৫৩০ টাকা
রূপার বাট (প্রতি কেজি) ৪৫,৭৫০ টাকা
ওই খুচরো (প্রতি কেজি) ৪৫,৮৫০ টাকা
 

 





 


©Copyright Bartaman Pvt Ltd. All rights reserved
6, J.B.S. Haldane Avenue, Kolkata 700 105
 
Editor: Subha Dutta